X
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

তিন দফা দাবিতে ঢাবি উপাচার্যকে ৭ কলেজ শিক্ষার্থীদের স্মারকলিপি

আপডেট : ০৬ জুন ২০২১, ১৬:৪৭

রোডম্যাপ ঘোষণা করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অবিলম্বে হল-ক্যাম্পাস খুলে দেওয়াসহ তিন দফা দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্যের কাছে স্মারকলিপি দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটির অধিভুক্ত সাত কলেজের শিক্ষার্থীদের একটি প্রতিনিধি দল। রবিবার (৬ জুন) দুপুর সাড়ে ১২টায় ভিসি অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের কাছে দাবিনামা জমা দেন। এরআগে, সকাল সাড়ে ১১টায় নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান নেন তারা।

শিক্ষার্থীদের অন্য দাবি দুটি হলো- সকল বর্ষের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা কার্যক্রমের পরিকল্পনা করে একাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রকাশ করতে হবে এবং প্রস্তুতির জন্য পর্যাপ্ত সময় দিয়ে পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ ও হল-ক্যাম্পাস খুলে পরীক্ষা নিতে হবে।

রবিবার নীলক্ষেত মোড়ে অবস্থান কর্মসূচিতে বাংলা কলেজের শিক্ষার্থী রিয়াদ হোসেন বলেন, ‘আমরা বার বার নীলক্ষেত মোড়ে আন্দোলন করে কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে কোনও সাড়া পাইনি। তারা বার বার কাণ্ডজ্ঞানহীন সিদ্ধান্ত আমাদের ওপর চাপিয়ে দিয়েছেন।’

‘বার বার ছুটি বৃদ্ধি ছাড়া পরিকল্পিত কোনও সিদ্ধান্ত আমরা কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে পাইনি’ উল্লেখ করে রিয়াদ হোসেন বলেন, ‘১৪ জুন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার যে সিদ্ধান্ত দেয়া হয়েছে তা একটি দুধের বাচ্চাও বিশ্বাস করে না। যে শিক্ষার্থীরা হলে থাকেন, তারা হুট করে ঢাকায় এসে কোথায় থাকবেন? এক মাসের জন্য তাদের বাসা ভাড়া কে দেবে?’

এসময় বিক্ষোভকারীরা আগামী ১১ জুন নীলক্ষেত মোড়ে সংহতি সমাবেশ করারও ঘোষণা দেয়।

উপাচার্যকে দেওয়া স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, ‘করোনাকালে অনলাইন ক্লাস চালু করা হলেও তাতেও অধিকাংশ শিক্ষার্থী অংশ নিতে পারেনি। অনলাইন ক্লাসে আর্থিক সংকট, ডিভাইস সংকট ও নেটওয়ার্কের সমস্যার কারণে প্রায় অধিকাংশ শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করতে পারেনি।’

এ কারণে ক্যাম্পাসগুলো বন্ধ রেখে অনলাইনে কার্যক্রম চালানোর ঘোষণার ফলে অনেক শিক্ষার্থী শিক্ষা কার্যক্রম থেকে ঝরে পড়েছে, বলেও স্মারকলিপিতে জানানো হয়।

এতে আরও উল্লেখ করা হয়, যেখানে অফিস-আদালত-মার্কেট-কারখানা সব খোলা রাখা হয়েছে, সেখানে করোনার অজুহাতে স্কুল-কলেজ বন্ধ রাখা অযৌক্তিক।

স্মারকলিপিতে বলা হয়, ‘ঢাবি অধিভুক্ত ৭ কলেজের বেশিরভাগ শিক্ষার্থী ঢাকার বাইরে থেকে এসে পড়াশোনা করে। হল, মেস ও সাবলেটে থেকে বিভিন্ন জায়গায় টিউশনি করে নিজের খরচ চালায় অনেকেই। আবার অনেকেই তাদের পরিবারকেও আর্থিক সহযোগিতা করে।

ভিসিকে স্মারকলিপি দিয়ে বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীরা সাংবাদিকদের জানান, ভিসি মো. আকতারুজ্জামান তাদের স্মারকলিপি গ্রহণ করেছেন। তিনি বলেছেন, আলোচনা করে শিক্ষার্থীদের সিদ্ধান্ত জানাবেন।

/ইউএস/

সম্পর্কিত

চলতি মাসেই ঢাবির হল খোলার দাবি ছাত্র সংগঠনগুলোর

চলতি মাসেই ঢাবির হল খোলার দাবি ছাত্র সংগঠনগুলোর

বিশ্ববিদ্যালয় খোলা নিয়ে যা বলছে কর্তৃপক্ষ

বিশ্ববিদ্যালয় খোলা নিয়ে যা বলছে কর্তৃপক্ষ

১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ঢাবির হল সংস্কারের নির্দেশ

১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ঢাবির হল সংস্কারের নির্দেশ

বিশ্ববিদ্যালয় খুলে না দিলে উন্মুক্ত জায়গায় ক্লাস

বিশ্ববিদ্যালয় খুলে না দিলে উন্মুক্ত জায়গায় ক্লাস

রাবির ভর্তি পরীক্ষা শুরু ৪ অক্টোবর

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:১৯

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা আগামী ৪ অক্টোবর শুরু হবে। চলবে ৬ অক্টোবর পর্যন্ত। বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক বিজ্ঞপ্তিতে ভর্তি পরীক্ষা সংক্রান্ত তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ৪ অক্টোবর ‘সি’ ইউনিটের (বিজ্ঞান) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। ‘সি’ ইউনিটের পরীক্ষা তিন শিফটে অনুষ্ঠিত হবে। প্রথম শিফটে পরীক্ষা সকাল সাড়ে ৯টায় শুরু হয়ে শেষ হবে সাড়ে ১০টায়। দ্বিতীয় শিফটের পরীক্ষা দুপুর ১২টায় শুরু হয়ে চলবে দুপুর ১টা পর্যন্ত। তৃতীয় শিফটের পরীক্ষা দুপুর ৩টা থেকে ৪টা পর্যন্ত চলবে। তিন শিফটে পর্যায়ক্রমে গ্রুপ-১, গ্রুপ-২ ও গ্রুপ-৩ এর শিক্ষার্থীরা অংশ নেবেন।

আগামী ৫ অক্টোবর ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষাও তিনটি শিফটে অনুষ্ঠিত হবে। বিজ্ঞান, মানবিক ও বাণিজ্য সব বিভাগের শিক্ষার্থীরা এ ইউনিটে পরীক্ষা দিতে পারবেন। এ ছাড়া আগামী ৬ অক্টোবর ‘বি’ ইউনিটের (বাণিজ্য) ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এ পরীক্ষাও অনুষ্ঠিত হবে তিনটি শিফটে। 

পরীক্ষা পদ্ধতি ও মান বণ্টন

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের এবারের ভর্তি পরীক্ষা শুধু বহুনির্বাচনী পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হবে। ১০০ নম্বরের পরীক্ষায় মোট ৮০টি বহুনির্বাচনী প্রশ্ন থাকবে, সময় এক ঘণ্টা। প্রতিটি প্রশ্নের মান ১ দশমিক ২৫। প্রতিটি ভুল উত্তরের দশমিক ২০ করে নম্বর কাটা হবে। পরীক্ষায় ন্যূনতম পাস নম্বর ৪০।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

রাবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু ৪ অক্টোবর

রাবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু ৪ অক্টোবর

রাবির ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত

রাবির ভর্তি পরীক্ষা স্থগিত

চবিতে আবেদনের রেকর্ড, এক আসনের বিপরীতে ৪০ শিক্ষার্থী

চবিতে আবেদনের রেকর্ড, এক আসনের বিপরীতে ৪০ শিক্ষার্থী

পূজায় বন্ধ থাকবে জবির পরীক্ষা 

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:২০

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের দুর্গাপূজার সময় সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) কর্তৃপক্ষ। আগামী ১১-১৬ অক্টোবর পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের অনুষ্ঠিতব্য পরীক্ষা বন্ধ থাকবে। তবে ঘোষণা অনুযায়ী ৭ অক্টোবর থেকেই পরীক্ষা শুরু হতে পারে বলে জানা গেছে।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ দফতরের ফেসবুক পাতায় প্রকাশিত রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী ওহিদুজ্জামান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের রুটিন দায়িত্বে থাকা ট্রেজারার কামালউদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ডিনদের সভায় ১১-১৬ অক্টোবর পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে কোনও পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে না বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এছাড়া সভায় ৭ অক্টোবরের আগে কোনও পরীক্ষা হবে না বলেও সিদ্ধান্ত হয়। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞান অনুষদের ডিন রবীন্দ্রনাথ মন্ডল বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, 'আমাদের পূজার ছুটি ১৩-১৫ তারিখ ছিল। কিন্তু ১১ তারিখ থেকেই পূজা শুরু হচ্ছে। বিভিন্ন মাধ্যমে আমাদের কাছে এ বিষয়ে অনুরোধ আসছিল। যেহেতু এটা সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব তাই, শিক্ষার্থীদের কথা মাথায় রেখে আমরা বৈঠকে বসেছিলাম। বৈঠকে ১১-১৬ তারিখ বিভাগগুলো তাদের পরীক্ষা বন্ধ রাখবে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।'

প্রসঙ্গত, আগামী ৭ অক্টোবর থেকে জবিতে সশরীরে সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা শুরু হচ্ছে। সে অনুযায়ী পরীক্ষার রুটিনও প্রকাশ করেছে বিভাগগুলো।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

জবির প্রক্টরিয়াল টিমে নতুন তিন মুখ

জবির প্রক্টরিয়াল টিমে নতুন তিন মুখ

জ্বরে আক্রান্ত জবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

জ্বরে আক্রান্ত জবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

জবিতে ৭ অক্টোবর থেকে সশরীরে পরীক্ষা 

জবিতে ৭ অক্টোবর থেকে সশরীরে পরীক্ষা 

কমেছে বাজেট, গুরুত্ব গবেষণায়

কমেছে বাজেট, গুরুত্ব গবেষণায়

কুবির ৪০ শিক্ষার্থীকে কারণ দর্শানোর নোটিশে ১৪ ভুল

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫৩

সেশনজট নিরসন ও পরীক্ষা নেওয়ার দাবিতে ‘সরাসরি উপাচার্যের কাছে যাওয়া’, ‘আন্দোলন’ ও ফেসবুকে লেখালেখি করাসহ নানা অভিযোগে ৪০ শিক্ষার্থীকে কারণ দর্শানোর নোটিশ (শোকজ) দিয়েছে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ। নোটিশে বেশ কয়েকটি বানান ভুল নিয়ে চলছে আলোচনা-সমালোচনা। অনলাইন-অফলাইনের এ আলোচনায় বলা হচ্ছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি বিভাগীয় প্রধানের স্বাক্ষরিত নোটিশে বানান ভুল লজ্জাজনক।

বিভাগের দাফতরিক প্যাডে দেওয়া ও বিভাগীয় প্রধান মুহাম্মদ সোহরাব উদ্দীন স্বাক্ষরিত নোটিশে দেখা যায়, এতে অন্তত ১৪টি বানান ভুল লেখা হয়েছে। শুরুতে তারিখের ঘরে ২০২১ এর স্থলে লেখা হয়েছে '২০২-১'। নোটিশের দ্বিতীয় লাইনে অন্তত চারটি বানান ভুল দেখা গেছে। এর মধ্যে আছে, 'প্লাটফর্ম' শব্দটি। যার প্রচলিত সঠিক বানান 'প্ল্যাটফর্ম'। এছাড়া লেখা হয়েছে 'সোসাল' যার প্রচলিত বানান সোশ্যাল। আবার ফেসবুকে লিখতে গিয়ে লেখা হয়েছে 'ফেইজবুক' এবং ধরনের লিখতে গিয়ে ‘ধরণের’ লেখা হয়েছে।

অন্যদিকে, তৃতীয় লাইনের শুরুতেই কটূক্তি বানানটিকে লেখা হয়েছে 'কটুক্তি'। একই লাইনে এমনকি এর জায়গায় লেখা হয়েছে 'এমন কি', এছাড়া অভ্যন্তরীণ শব্দটিকে লেখা হয়েছে ‘আভ্যন্তরীণ’।

পরে চতুর্থ লাইনে স্ক্রিনশট শব্দটির বানান লেখা হয়েছে 'স্কিনশট'। তবে পঞ্চম লাইন থেকে শুরু করে সপ্তম লাইন পর্যন্ত আর বানান ভুল চোখে না পড়লেও অষ্টম লাইনে শরণাপন্ন বানানটিকে লেখা হয়েছে 'স্মরণাপন্ন'। এর পরের লাইনে আবার ধরনের স্থলে ‘ধরণের’ এবং লঙ্ঘনের বদলে 'লঙ্ঘণ' লেখা হয়েছে।

নোটিশের শেষ অংশের শুরুর লাইনে পাশাপাশি দুটি বানান ভুল লেখা হয়েছে। অনাকাঙ্ক্ষিত বানান লেখা হয়েছে 'অনাকাঙ্খিত', পরের বানানেই কর্মকাণ্ডের জায়গায় লেখা হয়েছে 'কর্মকান্ডের'।

নোটিশে এমন ভুল বানানের ছড়াছড়ি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়টিতে চলছে সমালোচনা, হাস্যরস। এন. সজীব নামে এক শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ফেসবুক গ্রুপে লিখেছেন, 'শিক্ষক হয়ে এমন ভুল কীভাবে করেন তারা? তাদেরই বরং কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া উচিত।'

ভুল বানানে লেখা নোটিশের সমালোচনা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের আরেক শিক্ষার্থী নাজমুল হাসান বলেন, ঢালাওভাবে নোটিশ প্রদান করে ওনারা নিঃসন্দেহে ক্ষমতা ও স্বেচ্ছাচারিতা প্রকাশ করেছেন। আর নোটিশে এ ধরনের ভুলগুলোই যথেষ্ট প্রমাণ করে শিক্ষক হিসেবে ওনারা শিক্ষার্থীদের বিষয়ে কতটা যত্নশীল এবং গুরুত্ব দেন।

উল্লেখ্য, গত ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৬-১৭ সেশন এবং ওই বিভাগের চতুর্থ ব্যাচের ৪০ শিক্ষার্থীকে কারণ দর্শানোর ওই নোটিশ দেওয়া হয়। ওই ব্যাচের শিক্ষার্থীরা ২০১৭ সালে ভর্তি হওয়ার পর থেকে প্রায় পাঁচ বছরে মাত্র চার সেমিস্টার শেষ করে পঞ্চম সেমিস্টারের পরীক্ষায় বসেছে। সেশনজট নিরসনের দাবি জানিয়ে ফেসবুকে লেখালেখি, আন্দোলন ও সরাসরি উপাচার্যের কাছে যাওয়ায় তাদের কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

৪ বছরে চতুর্থ সেমিস্টার, কুবি ছাত্রের আত্মহত্যার হুমকি

৪ বছরে চতুর্থ সেমিস্টার, কুবি ছাত্রের আত্মহত্যার হুমকি

গণমাধ্যমে দেওয়া বক্তব্য ‘অসম্পূর্ণ ও অর্ধসত্য’ দাবি কুবি প্রশাসনের

গণমাধ্যমে দেওয়া বক্তব্য ‘অসম্পূর্ণ ও অর্ধসত্য’ দাবি কুবি প্রশাসনের

কুবির সেই ২ শিক্ষকের বিরুদ্ধে নেওয়া সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি

কুবির সেই ২ শিক্ষকের বিরুদ্ধে নেওয়া সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবি

‘বন্ধ’ হলেও দিব্যি আছেন তারা

‘বন্ধ’ হলেও দিব্যি আছেন তারা

হাবিপ্রবিতে তিন প্রশাসনিক পদে রদবদল 

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০১:১৯

হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি) একই দিনে তিন প্রশাসনিক পদে রদবদল করা হয়েছে।

সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত পৃথক অফিস আদেশে এই রদবদল করা হয়।

অফিস আদেশ অনুযায়ী ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের সহকারী পরিচালকের দু’টি পদে দায়িত্ব পেয়েছেন অ্যাকাউন্টিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. মাইন উদ্দিন ও ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. মিজানুর রহমান। 

অন্যদিকে পরিকল্পনা, উন্নয়ন ও ওয়াকর্সের পরিচালক পদে নিযুক্ত হয়েছেন কৃষি অনুষদের উদ্ভিদ রোগতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ড. এ. টি. এম. শফিকুল ইসলাম।

/এনএইচ/

সম্পর্কিত

রাবির ভর্তি পরীক্ষা শুরু ৪ অক্টোবর

রাবির ভর্তি পরীক্ষা শুরু ৪ অক্টোবর

পূজায় বন্ধ থাকবে জবির পরীক্ষা 

পূজায় বন্ধ থাকবে জবির পরীক্ষা 

কুবির ৪০ শিক্ষার্থীকে কারণ দর্শানোর নোটিশে ১৪ ভুল

কুবির ৪০ শিক্ষার্থীকে কারণ দর্শানোর নোটিশে ১৪ ভুল

১৫ মাসের কাজ ৬৫ মাসেও হয়নি শেষ 

১৫ মাসের কাজ ৬৫ মাসেও হয়নি শেষ 

১৫ মাসের কাজ ৬৫ মাসেও হয়নি শেষ 

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২৩:০০

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুবি) জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের সম্প্রসারণকাজ ১৫ মাসে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও ৬৫ মাসেও হয়নি। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের নীরব ভূমিকা ও ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের কাজে অবহেলার কারণে এমন অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশল দফতর সূত্রে জানা যায়, ১৩ কোটি ১৪ লাখ টাকা ব্যয়ে ২০১৬ সালের ৩১ মে হলের সম্প্রসারণকাজ শুরু হয়। কাজ পায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান স্টার লাইট সার্ভিস লিমিটেড। ১৫ মাসের মধ্যে কাজ শেষ করে বিশ্ববিদ্যালয়কে বুঝিয়ে দেওয়ার কথা ছিল। এরপর কয়েক দফায় কাজ শেষের মেয়াদ বাড়ানো হয়। কিন্তু ৬৫ মাস চলে গেলেও শেষ হয়নি কাজ।

সম্প্রসারিত ভবনের নির্মাণকাজ ঘুরে দেখা যায়, ভবনের ভেতর ও বাইরে পলেস্তারার কাজ শেষ করে টাইলসের কাজ শুরু হয়েছে। তবে গোসলখানা, টয়লেট, পানির লাইন, বৈদ্যুতিক সংযোগ, দরজা-জানালা লাগানোসহ প্রায় অধিকাংশ কাজ এখনও বাকি। 

প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটি জানায়, বারবার তাগাদা দেওয়ার পরও ঠিকাদার দায়সারাভাবে ৫-৬ জন শ্রমিক দিয়ে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। এতে কাজ শেষ হতে দেরি হচ্ছে।

শিক্ষার্থীরা বলছেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের গাফিলতির কারণে নিম্নমানের নির্মাণসামগ্রী ব্যবহার, পাহাড় কাটা, বিভিন্ন দফায় মেয়াদ বাড়ানোসহ নানা অভিযোগের পর ৬৫ মাসেও কাজ শেষ করতে পারেনি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। ফলে মাসের পর মাস ভাড়া বাসা কিংবা মেসে থাকতে হচ্ছে তাদের।

১৩ কোটি ১৪ লাখ টাকা ব্যয়ে ২০১৬ সালের ৩১ মে হলের সম্প্রসারণকাজ শুরু হয়

হল সম্প্রসারণকাজ নিয়ে স্টার লাইট সার্ভিস লিমিটেডের ঠিকাদার আমির হোসেন মিলন বলেন, ‘আমাদের এই প্রকল্পের মাত্র ১০ শতাংশ কাজ বাকি। ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রকল্পের বর্ধিত মেয়াদ থাকলেও নভেম্বরের মধ্যেই কাজ হস্তান্তরের চেষ্টা করবো। তবে প্রশাসন চাইলে সামনের মাস থেকেও দুটি ফ্লোর ব্যবহার করতে পারবে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশলী এসএম শহিদুল হাসান বলেন, ‘এবার বঙ্গবন্ধু হলের বর্ধিতাংশের কাজ খুব দ্রুত হবে। আশা করি, ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান দুই মাসের মধ্যে হলটি হস্তান্তর করতে পারবে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের বলেন, ‘আমরা এ ব্যপারে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং ইউজিসির সঙ্গে কথা বলেছি। তারা বলেছে, প্রয়োজনে নতুন ঠিকাদার দিয়ে কাজ দ্রুত শেষ করার জন্য। বঙ্গবন্ধু হলের প্রকল্পের বর্ধিত মেয়াদ যেহেতু ডিসেম্বর পর্যন্ত আছে, সেহেতু কাজ সেভাবে চলছে। আশা করছি, নির্দিষ্ট মেয়াদেই তা শেষ হবে।’

/এএম/

সম্পর্কিত

রাবির ভর্তি পরীক্ষা শুরু ৪ অক্টোবর

রাবির ভর্তি পরীক্ষা শুরু ৪ অক্টোবর

পূজায় বন্ধ থাকবে জবির পরীক্ষা 

পূজায় বন্ধ থাকবে জবির পরীক্ষা 

কুবির ৪০ শিক্ষার্থীকে কারণ দর্শানোর নোটিশে ১৪ ভুল

কুবির ৪০ শিক্ষার্থীকে কারণ দর্শানোর নোটিশে ১৪ ভুল

হাবিপ্রবিতে তিন প্রশাসনিক পদে রদবদল 

হাবিপ্রবিতে তিন প্রশাসনিক পদে রদবদল 

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

চলতি মাসেই ঢাবির হল খোলার দাবি ছাত্র সংগঠনগুলোর

চলতি মাসেই ঢাবির হল খোলার দাবি ছাত্র সংগঠনগুলোর

বিশ্ববিদ্যালয় খোলা নিয়ে যা বলছে কর্তৃপক্ষ

বিশ্ববিদ্যালয় খোলা নিয়ে যা বলছে কর্তৃপক্ষ

১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ঢাবির হল সংস্কারের নির্দেশ

১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ঢাবির হল সংস্কারের নির্দেশ

বিশ্ববিদ্যালয় খুলে না দিলে উন্মুক্ত জায়গায় ক্লাস

বিশ্ববিদ্যালয় খুলে না দিলে উন্মুক্ত জায়গায় ক্লাস

ঢাবির হল-ক্যাম্পাস খোলার দাবিতে সমাবেশ

ঢাবির হল-ক্যাম্পাস খোলার দাবিতে সমাবেশ

অধ্যাপক আসিফ নজরুলকে ‘হয়রানি’র প্রতিবাদে নাগরিক সমাবেশ 

অধ্যাপক আসিফ নজরুলকে ‘হয়রানি’র প্রতিবাদে নাগরিক সমাবেশ 

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না খোলার প্রতিবাদে গাছতলায় ক্লাস নিলেন রাবি শিক্ষক

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান না খোলার প্রতিবাদে গাছতলায় ক্লাস নিলেন রাবি শিক্ষক

ঢাবিতে বঙ্গমাতার নামে সেন্টার স্থাপনের উদ্যোগ

ঢাবিতে বঙ্গমাতার নামে সেন্টার স্থাপনের উদ্যোগ

এডিস মশা নিধনে ঢাবি প্রশাসনের উদ্যোগ

এডিস মশা নিধনে ঢাবি প্রশাসনের উদ্যোগ

শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে পেছালো বুয়েটের টার্ম ফাইনাল পরীক্ষা

শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে পেছালো বুয়েটের টার্ম ফাইনাল পরীক্ষা

সর্বশেষ

তালেবানকে বয়কট করবেন না: জাতিসংঘে কাতারের আমির

তালেবানকে বয়কট করবেন না: জাতিসংঘে কাতারের আমির

লিঙ্গ সমতার জন্য নারী নেতৃবৃন্দের নেটওয়ার্ক গঠনের ওপর গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর

লিঙ্গ সমতার জন্য নারী নেতৃবৃন্দের নেটওয়ার্ক গঠনের ওপর গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

৭১ লাখ ফাইজার টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

৭১ লাখ ফাইজার টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

পানিতে ডুবে শিশুমৃত্যু, নেপথ্যে ‘নজরদারির অভাব’

গবেষণাপানিতে ডুবে শিশুমৃত্যু, নেপথ্যে ‘নজরদারির অভাব’

© 2021 Bangla Tribune