X
শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ৪ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

সন্তানসহ সৌদি থেকে ফিরলেন আরও এক নারী শ্রমিক

আপডেট : ০৮ জুন ২০২১, ২৩:১২

সৌদি আরব থেকে ৬ মাসের ছেলে সন্তান নিয়ে দেশে ফিরেছেন ৩২ বছরের এক নারী। মঙ্গলবার (৮ জুন) সকালে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান তিনি। তিনি দাবি করেন, তার চাকরিদাতা তার সন্তানের বাবা। নিজ বাড়িতে কীভাবে সন্তানকে নিয়ে ফেরত যাবেন সেই দুশ্চিন্তায় এখন আশ্রয় নিয়েছেন আশকোনার ব্র্যাক লার্নিং সেন্টারে।

বিমানবন্দরে দায়িত্বরত কর্মকর্তারা জানান, ওই নারীর গ্রামের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। ওই নারীর দাবি, সৌদি আরবে যে বাড়িতে কাজ করতেন, সেই গৃহকর্তা তার সন্তানের বাবা।

ওই নারী বলেন, ‘আমার পরিবারের কেউ বিষয়টি জানে না। তাকে নিয়ে আমি পরিবারে ফিরতে পারবো না। সমাজের লোকেরা ভালোভাবে নেবে না।’

বিমানবন্দরে নেমেই কোন উপায় না পেয়ে তিনি বিষয়টি জানান বিমানবন্দর আর্মড পুলিশের কাছে। এরপর সেখান থেকে এই নারীকে নিরাপদ আশ্রয়ের জন্য হস্তান্তর করা হয় ব্র্যাক মাইগ্রেশন প্রোগ্রামের কাছে। এই নারী বর্তমানে ব্র্যাক লার্নিং সেন্টারে অবস্থান করছেন।

২০১৯ সালের নভেম্বরে এই নারী সৌদি আরব যান। তিনি জানান, সৌদি আরব যাওয়ার পর থেকেই প্রতিনিয়ত নির্যাতনের শিকার হতেন। একপর্যায়ে তিনি অন্তঃসত্ত্বা হলে তাকে সফর জেলে পাঠানো হয়। সফর জেলেই জন্ম হয় এই ছোট্ট শিশুটির।

ব্র্যাকের অভিবাসন কর্মসূচি প্রধান শরিফুল হাসান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘এ ধরনের ঘটনা ভীষণ দুর্ভাগ্যজনক। তবে ঘটনাগুলোর সুষ্ঠু তদন্ত হওয়া উচিত। সৌদি আরবের কোন বাড়িতে তিনি কাজ করতে গিয়েছিলেন, তার নিয়োগকর্তা কে, এগুলো তদন্ত হওয়া উচিত। প্রয়োজনে ডিএনএ টেস্ট করে সন্তানের পিতৃপরিচয় বের করা উচিত। এর আগে আমরা এ ধরনের ১২টি ঘটনা দেখেছি। তাদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি। কিন্তু এ ধরনের অপ্রত্যাশিত ঘটনা যেন না ঘটে সে বিষয়ে আমাদের সোচ্চার ও নীতিনির্ধারকদের দায়িত্বশীল ভূমিকা প্রয়োজন।’

এর আগে ২৬ মার্চ সৌদি আরব থেকে মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে সন্তান দিয়ে দেশে ফেরেন নরসিংদীর বেলাবো উপজেলার কুমারী শাহনাজ আক্তার। শাহনাজ সৌদি আরবের মক্কাস্থ কেন্দ্রীয় জেলে মানসিক ভারসাম্যহীন অবস্থায় পুত্র সন্তান জন্ম দেন।

তাছাড়া গত ২ এপ্রিল নিজের আট মাসের শিশু সন্তানকে বিমানবন্দরে ফেলেই চলে গেছেন সৌদি আরব ফেরত আরেক মা।

এছাড়া গত ২৪ ফেব্রুয়ারি চার মাসের মেয়ে সন্তান নিয়ে ওমান থেকে দেশে ফিরতে বাধ্য হন সাথী আক্তার নামের আরেক নারী গৃহকর্মী। বিমানবন্দরে পৌঁছার পর সাথী এয়ারপোর্ট আর্মড পুলিশ অফিসে গিয়ে বলেন, ‘তার সন্তানের পিতা একজন ওমানি নাগরিক।’ তিনি বলেন, ‘নির্যাতনের একপর্যায়ে তিনি অন্তঃসত্ত্বা হলে তাকে ওমান পুলিশের কাছে তুলে দেওয়া হয়। এরপর ওমান ডিপোরটেশন ক্যাম্পে থাকা অবস্থায় সন্তানের জন্ম হয়।’

এর আগে ২০২০ সালের ১৭ ডিসেম্বর ওমান থেকে হবিগঞ্জের গুলজাহান বেগম তিন মাস বয়সী সন্তানসহ দেশে ফিরতে বাধ্য হন।

 

/এসও/আইএ/এমওএফ/

সর্বশেষ

সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের ৫২৯১ কোটি টাকা

সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের ৫২৯১ কোটি টাকা

অশ্রুবিন্দুর মতো স্পষ্ট ও নিঃসঙ্গ

পাখিদের নির্মিত সাঁকোঅশ্রুবিন্দুর মতো স্পষ্ট ও নিঃসঙ্গ

শুরুতে কত ছিল বিদ্যার পারিশ্রমিক?

শুরুতে কত ছিল বিদ্যার পারিশ্রমিক?

রোনালদোদের বোতল সরাতে নিষেধ করেছে উয়েফা

রোনালদোদের বোতল সরাতে নিষেধ করেছে উয়েফা

চট্টগ্রামে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৯১ হাজার ডোজ টিকা

চট্টগ্রামে পৌঁছেছে সিনোফার্মের ৯১ হাজার ডোজ টিকা

শুটারগানসহ কেরানীগঞ্জ থেকে মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

শুটারগানসহ কেরানীগঞ্জ থেকে মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

আসছে মন পড়তে পারা হেলমেট

আসছে মন পড়তে পারা হেলমেট

সিআইডি প্রধানের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের সুপারিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের

সিআইডি প্রধানের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের সুপারিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের

চট্টগ্রামে বেড়েছে মৃত্যু ও সংক্রমণ 

চট্টগ্রামে বেড়েছে মৃত্যু ও সংক্রমণ 

ইটের কবরে দাফন

ইটের কবরে দাফন

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

সিনোফার্মের টিকা যারা পাবেন, যারা পাবেন না  

সিনোফার্মের টিকা যারা পাবেন, যারা পাবেন না  

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

শুটারগানসহ কেরানীগঞ্জ থেকে মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

শুটারগানসহ কেরানীগঞ্জ থেকে মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

সিআইডি প্রধানের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের সুপারিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের

সিআইডি প্রধানের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগের সুপারিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের

ঢাকায় ৬০ নমুনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট!

ঢাকায় ৬০ নমুনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট!

যাত্রাবাড়ীতে ১৫২ বোতল ফেন্সিডিলসহ যুবক গ্রেফতার

যাত্রাবাড়ীতে ১৫২ বোতল ফেন্সিডিলসহ যুবক গ্রেফতার

কর্মীর ছিনতাই হওয়া মালামাল উদ্ধার, বাংলাদেশ পুলিশকে জাতিসংঘের ধন্যবাদ

কর্মীর ছিনতাই হওয়া মালামাল উদ্ধার, বাংলাদেশ পুলিশকে জাতিসংঘের ধন্যবাদ

আসামির বয়স নির্ধারণ যেন পুলিশের ‘ইচ্ছে মতো’ না হয়: হাইকোর্ট

আসামির বয়স নির্ধারণ যেন পুলিশের ‘ইচ্ছে মতো’ না হয়: হাইকোর্ট

সুনাগরিক তৈরিতে মন্দিরভিত্তিক গণশিক্ষা বিশেষ ভূমিকা রাখছে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

সুনাগরিক তৈরিতে মন্দিরভিত্তিক গণশিক্ষা বিশেষ ভূমিকা রাখছে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

সাইবার অপরাধ: সতর্কতার মাঝেই উপায় দেখছেন সংশ্লিষ্টরা

সাইবার অপরাধ: সতর্কতার মাঝেই উপায় দেখছেন সংশ্লিষ্টরা

ট্রেনিং অব মাস্টার ট্রেইনার ইন ইংলিশ প্রকল্পের সনদ প্রদান অনুষ্ঠিত

ট্রেনিং অব মাস্টার ট্রেইনার ইন ইংলিশ প্রকল্পের সনদ প্রদান অনুষ্ঠিত

বঙ্গবন্ধুর রচিত বই জাতির ঐতিহাসিক দলিল: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

বঙ্গবন্ধুর রচিত বই জাতির ঐতিহাসিক দলিল: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

© 2021 Bangla Tribune