X
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ৭ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

বাজেটে নতুন দরিদ্রদের স্বীকৃতি নেই

আপডেট : ০৯ জুন ২০২১, ১৭:১৪

জাতীয় সংসদে ঘোষিত প্রস্তাবিত নতুন বাজেটে সরকার সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচিতে বরাদ্দ বাড়ালেও করোনার কারণে নতুন যুক্ত হওয়া দরিদ্ররা এতে দৃশ্যমান নয়।

বুধবার (৯ জুন) ‘খাদ্য অধিকার বাংলাদেশ’ আয়োজিত ‘বাজেট ২০২১-২২: করোনাকালে জীবন ও জীবিকা’ শীর্ষক ওয়েবিনারে এ কথা বলেছেন বক্তারা।

তারা বলছেন, চলমান করোনার প্রভাবে দেশের অনেক মানুষ দরিদ্র্যসীমার আরও নিচে চলে গেছে। শ্রমিক ও কর্মজীবী মানুষ কাজ হারিয়ে বেকার জীবনযাপন করছে। বিশেষ করে করোনার প্রভাবে চাকরি হারানো, আয় কমে যাওয়া, ব্যবসা বাণিজ্য বন্ধ হয়ে যাওয়াসহ নানা কারণে শহরের অনেক মানুষ গ্রামে ফিরছেন। অভিবাসীরা তাদের চাকরি হারিয়ে দেশে ফিরছেন। এছাড়া সম্ভাব্য অভিবাসীদের অভিবাসন চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হচ্ছে।

খাদ্য অধিকার বাংলাদেশ ও পিকেএসএফের চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওয়েবিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে যুক্ত ছিলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

খাদ্য অধিকার বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক ও ওয়েভ ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক মহসিন আলীর সঞ্চালনায় এতে আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন— ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগের অধ্যাপক ড. রাশেদ আল মাহমুদ তিতুমীর, সেন্টার ফর পলিসি ডায়লগের (সিপিডি) গবেষণা পরিচালক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম। ওয়েবিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. সায়েমা হক বিদিশা।

আলোচনায় অংশ নিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘এবারের বাজেটে দরিদ্র্য ও ন্যায়বিচারকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে, যেখানে নাগরিক হিসেবে জনমানুষের চাহিদার প্রতিফলন ঘটেছে।’ তবে জীবনচক্রের কথা বিবেচনায় নিয়ে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচি ঢেলে সাজানো প্রয়োজন বলে মন্তব্য করেন তিনি।

সভাপতির বক্তব্যে ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ বলেন, ‘পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীকে এগিয়ে নিতে সহায়তা করতে না পারলে বাংলাদেশের নড়বড়ে অর্থনীতির পুনরুদ্ধার ঘটবে না। গ্রামীণ অর্থনীতি ব্যাপকভাবে ভেঙে পড়বে।’

ড. রাশেদ আল মাহমুদ তিতুমীর বলেন, ‘করোনা অতিমারি জীবন ও জীবিকার ওপরে মারাত্মক আঘাত হেনেছে। ফলে নতুন দরিদ্র্য বেড়েছে এবং দরিদ্র্যের হার তিন দশক আগের হারে পৌঁছে গেছে।  এবারের বাজেটে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির বরাদ্দ বাড়ানো হলেও মাথাপিছু বরাদ্দ বাড়েনি।’ অধিকাংশ জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে এবারের বাজেটে নতুন কর্মসংস্থান তৈরি, পিছিয়ে পড়াদের জন্য প্রণোদনা, বাজেট বাস্তবায়নে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহি নিশ্চিতকরণ, জনগণকে সম্পৃক্তকরণ এবং সর্বপরি সঠিক তথ্যের পর্যাপ্ততার বিষয়গুলোয় গুরুত্ব দেওয়ার জন্য পরামর্শ দেন তিনি।

তিনি বলেন, ‘সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচিতে আগের বছরের চেয়ে বরাদ্দ ১৩ শতাংশ বেড়েছে। নতুন ১৪ লাখ মানুষকে এর আওতায় আনা হয়েছে। নগর দরিদ্রসহ আড়াই কোটি নতুন দরিদ্রের জন্য তা অপ্রতুল। তার ওপর বরাদ্দকৃত অর্থের বেশিরভাগ অংশ সরকারি কর্মচারীদের পেনশন, সঞ্চয়পত্রের সুদ প্রভৃতি প্রদানে ব্যয় হবে। সরকারি প্রতিবেদনই বলছে, যোগ্য না হয়েও সামাজিক সুরক্ষা কর্মসূচির ভাতা নেন ৪৬ শতাংশ সুবিধাভোগী।’

ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম বলেন, ‘নতুন বাজেটে সরকার স্বাস্থ্য, কৃষি, কর্মসংস্থান এবং স্টিমুলাস প্যাকেজকে মূল বিবেচনায় নিয়েছে। তবে বেশকিছু বরাদ্দের ক্ষেত্রে রিস্ট্রাকচারিং হলে ভালো হতো। যেমন- সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির ছোট ছোট অনেক উপখাতের বরাদ্দ কমানো হয়েছে।’

মূল প্রবন্ধের উপস্থাপক ড. সায়েমা হক বিদিশা বলেন, ‘বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে, এই করোনাকালে নিম্ন আয়ের মানুষের খাদ্য অধিকার ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে। অনেক মানুষ কর্মসংস্থান হারিয়ে বেকার হয়েছে। মাতৃমৃত্যু, শিশুমৃত্যু হার বৃদ্ধিসহ সার্বিক স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘২০১৬ সালের খানা জরিপে দেখা গেছে, ২৪.৩ % মানুষ দরিদ্র্যসীমার নিচে বাস করে। আর দরিদ্র্যসীমার কাছাকাছি যে মানুষগুলো থাকে, তারা যেকোনও দুর্যোগের কবলে পড়লেই দরিদ্র্যসীমার নিচে নেমে যায়।’

 

/জিএম/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

আফসানুল আদনান থেকে ত্ব-হা মুহাম্মদ হওয়ার গল্প

আফসানুল আদনান থেকে ত্ব-হা মুহাম্মদ হওয়ার গল্প

সরকারি ঘর পেলেন নৌকায় থাকা গোলাপী

সরকারি ঘর পেলেন নৌকায় থাকা গোলাপী

ব্যাটারিচালিত রিকশা-ভ্যান বন্ধ করে দেওয়া হবে

ব্যাটারিচালিত রিকশা-ভ্যান বন্ধ করে দেওয়া হবে

পরিবহন শ্রমিকদের নিয়োগপত্র দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

পরিবহন শ্রমিকদের নিয়োগপত্র দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

‘মাদক নির্মূলে কয়েকশ’ বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হলেও কাজের কাজ হয়নি’

‘মাদক নির্মূলে কয়েকশ’ বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড হলেও কাজের কাজ হয়নি’

দাম্পত্যে আস্থার অভাব: বাড়ছে হত্যাকাণ্ড

দাম্পত্যে আস্থার অভাব: বাড়ছে হত্যাকাণ্ড

করোনাভাইরাসের ভয়ংকর বিস্তার ঘটছে: ওবায়দুল কাদের

করোনাভাইরাসের ভয়ংকর বিস্তার ঘটছে: ওবায়দুল কাদের

‘আগে ছিলাম ভিখারি এখন আমি লাখপতি’

‘আগে ছিলাম ভিখারি এখন আমি লাখপতি’

আগামী নির্বাচনের জন্য দলকে প্রস্তুত করতে হবে: ওবায়দুল কাদের

আগামী নির্বাচনের জন্য দলকে প্রস্তুত করতে হবে: ওবায়দুল কাদের

খুলনায় রেকর্ড ২৮ জনের মৃত্যু

খুলনায় রেকর্ড ২৮ জনের মৃত্যু

৩ ঘণ্টার ব্যবধানে রাবির প্রশাসন ভবনে ফের তালা

৩ ঘণ্টার ব্যবধানে রাবির প্রশাসন ভবনে ফের তালা

ঘর পাওয়া মানুষের হাসিই আমার কাছে বড়: প্রধানমন্ত্রী

ঘর পাওয়া মানুষের হাসিই আমার কাছে বড়: প্রধানমন্ত্রী

সর্বশেষ

ইরান নিয়ে ইসরায়েলের হুঁশিয়ারি

ইরান নিয়ে ইসরায়েলের হুঁশিয়ারি

লন্ডনে গাড়ি দুর্ঘটনায় আমিরাতের অ্যাক্টিভিস্টের মৃত্যু

লন্ডনে গাড়ি দুর্ঘটনায় আমিরাতের অ্যাক্টিভিস্টের মৃত্যু

৫ লাখ ছাড়ালো ব্রাজিলে করোনায় মৃতের সংখ্যা

৫ লাখ ছাড়ালো ব্রাজিলে করোনায় মৃতের সংখ্যা

রোহিঙ্গা ইস্যুতে পশ্চিমা বিশ্বকে শক্ত বার্তা দিয়েছে বাংলাদেশ

রোহিঙ্গা ইস্যুতে পশ্চিমা বিশ্বকে শক্ত বার্তা দিয়েছে বাংলাদেশ

জাতিসংঘে নিজের বিপক্ষেই ভোট দিয়েছে মিয়ানমার

জাতিসংঘে নিজের বিপক্ষেই ভোট দিয়েছে মিয়ানমার

যুক্তরাষ্ট্রে ঘূর্ণিঝড়ে গাড়ির সংঘর্ষে শিশুসহ নিহত ১০

যুক্তরাষ্ট্রে ঘূর্ণিঝড়ে গাড়ির সংঘর্ষে শিশুসহ নিহত ১০

ফেসবুকে দুই মন্ত্রীর 'দ্বন্দ্ব' বিষয়ক স্ট্যাটাস

ফেসবুকে দুই মন্ত্রীর 'দ্বন্দ্ব' বিষয়ক স্ট্যাটাস

সিডনিতে ‘ধূমকেতু’ ব্যান্ডের সফল কনসার্ট

সিডনিতে ‘ধূমকেতু’ ব্যান্ডের সফল কনসার্ট

মায়ের কপালে চুমু খেয়ে কলেজছাত্রের আত্মহত্যা

মায়ের কপালে চুমু খেয়ে কলেজছাত্রের আত্মহত্যা

ওয়েলসকে হারিয়ে ইতালি গ্রুপ সেরা

ওয়েলসকে হারিয়ে ইতালি গ্রুপ সেরা

কনওয়ের হাফসেঞ্চুরিতে শক্ত অবস্থানে কিউইরা

কনওয়ের হাফসেঞ্চুরিতে শক্ত অবস্থানে কিউইরা

‘রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার রক্ষায় আন্তর্জাতিক মহল অগ্রগামী নয়’

‘রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার রক্ষায় আন্তর্জাতিক মহল অগ্রগামী নয়’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

আফসানুল আদনান থেকে ত্ব-হা মুহাম্মদ হওয়ার গল্প

আফসানুল আদনান থেকে ত্ব-হা মুহাম্মদ হওয়ার গল্প

দাম্পত্যে আস্থার অভাব: বাড়ছে হত্যাকাণ্ড

দাম্পত্যে আস্থার অভাব: বাড়ছে হত্যাকাণ্ড

অতিভারী বৃষ্টি হতে পারে, থাকছে ভূমিধসের শঙ্কা

অতিভারী বৃষ্টি হতে পারে, থাকছে ভূমিধসের শঙ্কা

এবার চাকরি হারানোর আতঙ্কে বেসরকারি কলেজের অনার্স-মাস্টার্সের শিক্ষকরা

এবার চাকরি হারানোর আতঙ্কে বেসরকারি কলেজের অনার্স-মাস্টার্সের শিক্ষকরা

ভারী বৃষ্টির সতর্কতা, ভূমিধসের শঙ্কা

ভারী বৃষ্টির সতর্কতা, ভূমিধসের শঙ্কা

প্রযুক্তির পথে এগোচ্ছে হাইআতুল উলয়া

প্রযুক্তির পথে এগোচ্ছে হাইআতুল উলয়া

‘সুস্থ সাইবার সংস্কৃতির জন্য সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে’

‘সুস্থ সাইবার সংস্কৃতির জন্য সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে’

ভল্টের টাকা আত্মসাৎ: ঢাকা ব্যাংকের ২ কর্মকর্তা কারাগারে

ভল্টের টাকা আত্মসাৎ: ঢাকা ব্যাংকের ২ কর্মকর্তা কারাগারে

আগামী মার্চে শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রোরেলের কাজ

আগামী মার্চে শুরু হবে দেশের প্রথম পাতাল মেট্রোরেলের কাজ

‘যাত্রীদের ধারণা সিএনজি চালকরা জুলুম করে, কিন্তু মূলকথা কেউ জানে না’

‘যাত্রীদের ধারণা সিএনজি চালকরা জুলুম করে, কিন্তু মূলকথা কেউ জানে না’

© 2021 Bangla Tribune