X
মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৬ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

এক বিষয়ে ফেল করেও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক

আপডেট : ১১ জুন ২০২১, ০২:৩৩

অনার্সে এক বিষয়ে ফেল এবং দ্বিতীয় শ্রেণি পেয়েও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষক হয়েছেন ইন্দ্রনীল মিশ্র নামের এক ব্যক্তি। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনফরমেশন অ্যান্ড কমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (আইসিই) বিভাগের প্রভাষক পদে নিয়োগ পেয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় ফেল করে কোটায় ভর্তি হয়েছিলেন ইন্দ্রনীল মিশ্র। অনার্সে দ্বিতীয় শ্রেণি পেয়ে পাস করেছেন তিনি। তবে একটি বিষয়ে ফেল করেছেন। যদিও পরে ওই বিষয়ে পরীক্ষা দিয়ে পাস করেছেন। ওই বিভাগে যে ১৪ জন শিক্ষার্থী দ্বিতীয় শ্রেণি পেয়ে পাস করেছেন, তার মধ্যে ইন্দ্রনীল মিশ্রর মেধাক্রম দশম। ফলাফল খারাপ হওয়ায় এমএসসিতে থিসিস গ্রুপে যাওয়ার সুযোগ পাননি তিনি।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সদ্য বিদায়ী উপাচার্য অধ্যাপক আবদুস সোবহান গত ৬ মে ১১ জনকে শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দিয়েছেন। এদের মধ্যে ইন্দ্রনীল মিশ্রও রয়েছেন। এদিন শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ ১৩৮ জনকে অ্যাডহকে নিয়োগ দিয়েছেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে এ নিয়োগ দেন উপাচার্য।

আইসিই বিভাগ সূত্রে জানা যায়, ইন্দ্রনীল মিশ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক চিত্তরঞ্জন মিশ্রর ছেলে। অধ্যাপক চিত্তরঞ্জন মিশ্র বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইআর) পরিচালকের দায়িত্বে রয়েছেন।

আইসিই বিভাগের শিক্ষক ও একাধিক শিক্ষার্থী জানান, ইন্দ্রনীল মিশ্র ভর্তি পরীক্ষায় পাস করেননি। পরে ওয়ার্ড কোটায় ভর্তি হয়েছিলেন। ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে। ২০০৯ সালে আইসিই বিভাগ থেকে বিএসসি (সম্মান) ফাইনাল পরীক্ষায় (২০১০ সালে সেপ্টেম্বর-নভেম্বর মাসে অনুষ্ঠিত) দ্বিতীয় শ্রেণি পেয়ে পাস করেন। তবে তিনি মাস্টার্সে প্রথম শ্রেণিতে পাস করেন।

বাংলা ট্রিবিউনের হাতে আসা একটি নথি ঘেঁটে দেখা যায়, ইন্দ্রনীল মিশ্র অনার্সে দ্বিতীয় শ্রেণি পেয়ে পাস করেছেন। তবে অনার্সের ৪০৩ নম্বর বিষয়ে তিনি ফেল করেছেন।

এদিকে ফেলের বিষয়টি অস্বীকার করে ইন্দ্রনীল মিশ্রের বাবা অধ্যাপক চিত্তরঞ্জন মিশ্র বলেন, আমার ছেলে আপার সেকেন্ড ক্লাস পেয়ে পাস করেছে। ফেল করার বিষয়টি সম্পূর্ণ মিথ্যা। আমার ছেলের এসএসসি ও এইচএসসিতে জিপিএ-৫ রয়েছে।

ওয়ার্ড কোটায় ভর্তির বিষয়ে তিনি বলেন, এটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২০ বছর ধরে চালু রয়েছে। অনেক শিক্ষকের সন্তান ওয়ার্ড কোটা ভর্তি হয়েছে এবং হচ্ছে। এখানে নিয়মের কোনো ব্যত্যয় ঘটেনি। যারা আমার সন্তানকে নিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছেন তাদের বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে আইনি পদক্ষেপ নিয়েছি।

ইন্দ্রনীল মিশ্রকে নিয়োগ দেওয়ায় বিস্ময় প্রকাশ করেছেন খোদ আইসিই বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক এমদাদুল হক।

তিনি বলেন, আমাদের প্রত্যেক ব্যাচে প্রথম শ্রেণি পেয়ে পাস করা শিক্ষার্থী রয়েছেন। সেখানে দ্বিতীয় শ্রেণি পেয়ে পাস করা একজনকে কেন নিয়োগ দেওয়া হয়েছে, তা আমার বোধগম্য নয়।

এক বিষয়ে ফেল করেও শিক্ষক হওয়ার ব্যাপারে অধ্যাপক এমদাদুল হক বলেন, ফেল করার বিষয়টি আমি শুনেছি। কিন্তু এ সংক্রান্ত কোনও ডকুমেন্টস আমার হাতে নেই।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূ-তত্ত্ব ও খনিবিদ্যা বিভাগের শিক্ষক এবং দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষকদের মুখপাত্র সুলতান-উল ইসলাম টিপু বলেন, বিদায়ী উপাচার্য ছাত্রলীগের নাম ব্যবহার করে নিয়োগ দিয়েছেন। আমাদের জানা মতে, ছাত্রলীগের অনেক ছেলে আছে; যারা অনার্স-মাস্টার্সে প্রথম শ্রেণি পেয়ে পাস করেছে। সেখানে দ্বিতীয় শ্রেণি পেয়ে পাস করা একজনকে নিয়োগ দেওয়া অযৌক্তিক।

সার্বিক বিষয়ে জানতে রুটিন দায়িত্বে থাকা উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহাকে একাধিকবার ফোন দিলেও ধরেননি।

/এএম/

সম্পর্কিত

প্রেমের ফাঁদে গৃহবধূর নগ্ন ভিডিও ধারণ, যুবক গ্রেফতার

প্রেমের ফাঁদে গৃহবধূর নগ্ন ভিডিও ধারণ, যুবক গ্রেফতার

সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে ৪ পুলিশ আহত

সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে ৪ পুলিশ আহত

এক ছবি পোস্ট করেই ৭ বছর কারাদণ্ড, লাখ টাকা জরিমানা

এক ছবি পোস্ট করেই ৭ বছর কারাদণ্ড, লাখ টাকা জরিমানা

একটি সেতুর দাবিতে কেটে গেছে ৪৯ বছর

একটি সেতুর দাবিতে কেটে গেছে ৪৯ বছর

স্বামী ভরণ‌পোষণ না দেওয়ায় স্ত্রীর আত্মহত্যা

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২৩:১৩

ভরণপোষণ না দেওয়ায় স্বামীর ওপর অভিমান ক‌রে শাহনাজ বেগম (৩০) না‌মের এক গৃহবধূ গলায় ফাঁস দি‌য়ে আত্মহত‌্যা ক‌রে‌ছেন ব‌লে জানা গে‌ছে। সোমবার (২০ সে‌প্টেম্বর) বিকা‌লে ভোলা সদর উপ‌জেলার রাজাপুর ইউনিয়‌নের ৩ নম্বর ওয়া‌র্ডের রামদাশপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘ‌টে। নিহত শাহনাজ ওই গ্রা‌মের মো. মামুমের স্ত্রী।

স্থানীয়রা জানান, প্রায় ১০ বছর আগে পা‌রিবা‌রিকভা‌বে মামুন ও শাহনা‌জের বি‌য়ে হয়। বিবা‌হিত জীব‌নে তা‌দের চার সন্তান র‌য়ে‌ছে। মামুন পেশায় জে‌লে। কিন্তু ঠিকমতো সংসার প‌রিচালনা ও স্ত্রী সন্তান‌দের ভরণপোষণ দি‌তে না পারায় স্বামী-স্ত্রীর ম‌ধ্যে ঝগড়া প্রায় ঝগড়া হচ্ছিলো। এ ঘটনার প‌রি‌প্রেক্ষি‌তে আজও তা‌দের ম‌ধ্যে ঝগড়া হয়। প‌রে বিকা‌লের দি‌কে গলায় ফাঁস দি‌য়ে আত্মহত‌্যা ক‌রেন তিনি।

ভোলার ইলিশা পু‌লিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই শেখ ফ‌রিদ বলেন, খবর পে‌য়ে আমরা ঘটনাস্থ‌লে পৌঁ‌ছে নিহ‌তের লাশ উদ্ধার ক‌রে‌ছি। বিষয়‌টি তদন্ত চল‌ছে।

/এফআর/

সম্পর্কিত

বিএনপির তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি মূর্খতা: শ ম রেজাউল

বিএনপির তত্ত্বাবধায়ক সরকারের দাবি মূর্খতা: শ ম রেজাউল

সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে ৪ পুলিশ আহত

সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে ৪ পুলিশ আহত

মহাসড়কের গাছে ঝুলছিল লাশটি

মহাসড়কের গাছে ঝুলছিল লাশটি

ধর্ষণের অভিযোগে জাপা নেতা গ্রেফতার

ধর্ষণের অভিযোগে জাপা নেতা গ্রেফতার

মহেশখালী ও চকরিয়ায় নৌকার প্রার্থীরা মেয়র নির্বাচিত

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২৩:০৯

কক্সবাজারে দুটি পৌরসভায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ভোট চলে।

মহেশখালী পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আমিন আল পারভেজ জানান, মহেশখালী পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মকসুদ মিয়া সাত হাজার সাত ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নারিকেল প্রতীকে সাবেক মেয়র সরওয়ার আজম পেয়েছেন ৫ হাজার ৫৪৮ ভোট।

চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার ও চকরিয়ার ইউএনও সৈয়দ শামসুল তাবরীজ জানান, অপরদিকে চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আলমগীর চৌধুরী ২১ হাজার ৭৮৭ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী নারিকেল গাছ প্রতীকে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী জিয়াবুল হক পেয়েছেন ৯ হাজার ৮৮৬ ভোট।

 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

সন্দ্বীপে ১২ ইউনিয়নের ১০টিতেই নৌকার জয়

সন্দ্বীপে ১২ ইউনিয়নের ১০টিতেই নৌকার জয়

সুবর্ণচর-হাতিয়ায় আ.লীগ ৯, স্বতন্ত্র ৪

সুবর্ণচর-হাতিয়ায় আ.লীগ ৯, স্বতন্ত্র ৪

দুর্ঘটনার এক মাস পর সেই চিকিৎসকের মৃত্যু

দুর্ঘটনার এক মাস পর সেই চিকিৎসকের মৃত্যু

ব্যালটে সিল মারার সময় ৬ নির্বাচন কর্মকর্তা আটক

ব্যালটে সিল মারার সময় ৬ নির্বাচন কর্মকর্তা আটক

প্রেমের ফাঁদে গৃহবধূর নগ্ন ভিডিও ধারণ, যুবক গ্রেফতার

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৫২

বগুড়ায় বিয়ের প্রলোভনে এক গৃহবধূর নগ্ন ভিডিও নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকির অভিযোগে মাহমুদ মুন্না (২৫) নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাতে তাকে শেরপুর উপজেলার বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। তার কাছ থেকে একটি মোবাইল ফোন, দুটি সিম কার্ড ও একটি মেমোরি কার্ড পাওয়া গেছে। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে, ওই গৃহবধূ মুন্নার বিরুদ্ধে শেরপুর থানায় মামলা করেন।

পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্র জানায়, মাহমুদ মুন্না বগুড়ার শেরপুর উপজেলার পূণ্যতলা শ্রীরামপুর গ্রামের জমশের আলীর ছেলে। ওই গৃহবধূর সঙ্গে একটি মোবাইল টেলিকমের দোকানে তার দেখা হয়। এরপর ফেসবুক আইডি সংগ্রহ করে বন্ধুত্ব করে। এক পর্যায়ে তাদের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিছুদিন পর বিয়ের প্রলোভনে নগ্ন ছবি ও ভিডিও দাবি করে মুন্না। এতে গৃহবধূ রাজি না হলে তাদের মধ্যে মনোমালিন্য ঘটে। পরে ভিডিও কল থেকে ওই গৃহবধূর অর্ধনগ্ন কিছু ছবি ও ভিডিও সংগ্রহ করে সে। তাদের মধ্যে সম্পর্কের অবনতি হলে শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বেলা ১২টার দিকে ওই গৃহবধূকে অনৈতিক প্রস্তাব দেয় মুন্না। অন্যথায় সংগ্রহ করা ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়া হুমকি দেয়। এতে ওই গৃহবধূ বগুড়া ডিবি পুলিশের সাইবার টিমের কাছে অভিযোগ করেন। এছাড়া শেরপুর থানায় মামলা করেন। সাইবার পুলিশের একটি টিম রবিবার রাতে গোপনে খবর পেয়ে শেরপুর বাজার এলাকা থেকে মুন্নাকে গ্রেফতার করে।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) ফয়সাল মাহমুদ জানান, গ্রেফতার মাহমুদ মুন্নার মোবাইল ফোনে একাধিক মেয়ের কাছ থেকে কৌশলে নেওয়া নগ্ন ছবি পাওয়া গেছে। সোমবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

/এফআর/

সম্পর্কিত

গরিবের ৮ কোটি টাকা আত্মসাৎ, ৩ কর্মকর্তা ৬ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

গরিবের ৮ কোটি টাকা আত্মসাৎ, ৩ কর্মকর্তা ৬ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে ৪ পুলিশ আহত

সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে ৪ পুলিশ আহত

এক ছবি পোস্ট করেই ৭ বছর কারাদণ্ড, লাখ টাকা জরিমানা

এক ছবি পোস্ট করেই ৭ বছর কারাদণ্ড, লাখ টাকা জরিমানা

একটি সেতুর দাবিতে কেটে গেছে ৪৯ বছর

একটি সেতুর দাবিতে কেটে গেছে ৪৯ বছর

ভাঙ্গায় আ.লীগের ফয়েজ পুনরায় মেয়র নির্বাচিত

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৪৫

ফরিদপুরের ভাঙ্গা মডেল পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান মেয়র আবু রেজা মো. ফয়েজ নৌকা প্রতীক নিয়ে বিপুল ভোটে পুনরায় বিজয়ী হয়েছেন। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টা থেকে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে বিরতিহীনভাবে চলে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

সকাল থেকেই ভোটকেন্দ্রে ভোটারদের ব্যাপক উপস্থিতি লক্ষ করা গেছে। তবে পুরুষদের তুলনায় নারী ভোটারদের উপস্থিতি ছিল বেশি।

প্রথমবারের মতো এই পৌরসভার সব কেন্দ্রে ইভিএমে ভোট গ্রহণ করা হয়। কেন্দ্রগুলোতে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা জোরদার করতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশ, র‌্যাবের পাশাপাশি বিজিবি মোতায়েন করা হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা আজিম উদ্দিন খান জানান, আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবু রেজা মো. ফয়েজ ১২ হাজার ২৮৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন সমর্থিত প্রার্থী আছাদুজ্জামান আছাদ মিয়া (হাতপাখা প্রতীক) পেয়েছেন ৪ হাজার ৭৩৭ ভোট এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. ইসমাইল মুন্সি (নারিকেল গাছ) পেয়েছেন ২ হাজার ৭১৯ ভোট।

কাউন্সিলর হিসেবে বিজয়ী হয়েছেন ১নং ওয়ার্ডে আইয়ুব আলী, ২নং ওয়ার্ডে অ্যাডভোকেট জহুরুল হক মিঠু, ৩নং ওয়ার্ডে মো. শাহেবা আলী মাতুব্বর, ৪নং ওয়ার্ডে পান্না মিয়া, ৫নং ওয়ার্ডে সুমন মাতুব্বর মদা, ৬নং ওয়ার্ডে আবুল কালাম মাতুব্বর, ৭নং ওয়ার্ডে মো. রফিকুল আলম জাহিদ, ৮নং ওয়ার্ডে মো. লিয়াকত মোল্লা ও ৯নং ওয়ার্ডে মো. জাকির মুন্সী।

সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে বিজয়ী হয়েছেন ১নং ওয়ার্ডে নাজমা বিল্লাল, ২নং ওয়ার্ডে মুসলিমা আক্তার সাথী ও ৩নং ওয়ার্ডে পারুলী আক্তার।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

৩৫ কেজির বাগাড় ৪৭ হাজারে বিক্রি

৩৫ কেজির বাগাড় ৪৭ হাজারে বিক্রি

ইভ্যালির গ্রাহকের পণ্য রাতের আঁধারে খোলা বাজারে বিক্রির অভিযোগ

ইভ্যালির গ্রাহকের পণ্য রাতের আঁধারে খোলা বাজারে বিক্রির অভিযোগ

মহাসড়কের গাছে ঝুলছিল লাশটি

মহাসড়কের গাছে ঝুলছিল লাশটি

১৬০ ইউপিতে ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা

১৬০ ইউপিতে ভোটগ্রহণ শেষ, চলছে গণনা

খুলনার ৩৪ ইউপির ২১টিতে নৌকা জয়ী

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৪৫

খুলনার পাঁচ উপজেলার ৩৪ ইউনিয়নের মধ্যে ২১টিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকার চেয়ারম্যান প্রার্থী বিজয়ী হয়েছেন। আটটিতে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী ও চারটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচিত হয়েছেন। একটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ফলাফল স্থগিত রয়েছে। স্থানীয় ও রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র এ তথ্য জানায়। তবে রিটার্নিং অফিসার এখনও বেসরকারিভাবে ফলাফল ঘোষণা করেননি।

দিঘলিয়া উপজেলার বারাকপুর ইউপিতে নৌকার প্রার্থী গাজী জাকির হোসেন, আড়ংঘাটা ইউপিতে বামপন্থী স্বতন্ত্র আনারস প্রতীকের এসএম ফরিদ আক্তার, সদর ইউপিতে বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী হায়দার আলী মোড়ল, সেনহাটি ইউপিতে বিদ্রোহী স্বতন্ত্র জিয়া গাজী, গাজীরহাট ইউপিতে বিদ্রোহী স্বতন্ত্র মফিজুল ইসলাম ঠাণ্ডা, যোগীপোল ইউপিতে বিদ্রোহী স্বতন্ত্র সাজ্জদুর রহমান লিংকন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

পাইকগাছা উপজেলার কপিলমুনি ইউপিতে নৌকার কওসার আলী জোয়ার্দার, লতা ইউপিতে নৌকার কাজল কান্তি বিশ্বাস, লস্কর ইউপিতে নৌকার আরিফুজ্জান তুহিন কাগজী, গদাইপুর ইউপিতে নৌকার জিয়াদুল ইসলাম জিয়া, সোলাদানা ইউপিতে নৌকার আবদুল মান্নান গাজী, দেলুটি ইউপিতে নৌকার রিপন কান্তি মন্ডল, গড়ইখালি ইউপিতে বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুস সালাম ও রাড়ুলী ইউপিতে নৌকার আবুল কালাম আজাদ, চাঁদখালী ইউপিতে বিদ্রোহী স্বতন্ত্র শাহজাদা মো. আবু ইলিয়াস জয়ী হয়েছেন।

কয়রা উপজেলার উত্তর বেদকাশি ইউপিতে নৌকার সরদার নুরুল ইসলাম, দক্ষিণ বেদকাশি ইউপিতে বিদ্রোহী স্বতন্ত্র আছের আলী মোাড়ল, মহেশ্বরীপুর ইউপিতে নৌকার শাহনেওয়াজ, মহারাজপুর ইউপিতে নৌকার আবদুল্লাহ আল মাহমুদ, আমাদি ইউপিতে নৌকার জিয়াউর রহমান জিয়া ও বাগালী ইউপিতে নৌকার আব্দুস সামাদ গাজী নির্বাচিত হয়েছেন। 

কয়রা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. হযরত আলী বলেন, ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় কয়রা সদর ইউপিতে কয়রা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের নির্বাচন বন্ধ করে দেওয়া হয়। সে কারণে এই ইউপিতে চেয়ারম্যান পদের ফলাফল স্থগিত রাখা হয়েছে।

দাকোপ উপজেলার বাজুয়া ইউপিতে নৌকার মানষ কুমার রায়, তিলডাঙ্গা ইউপিতে স্বতন্ত্র গাজী জালাল উদ্দিন, কামারখোলা ইউপিতে নৌকার পঞ্চানন মণ্ডল, সদর ইউপিতে নৌকার বিনয় কৃষ্ণ রায়, বানিয়াশান্তা ইউপিতে নৌকার সুদেব রায়, লাউডোব ইউপিতে নৌকার শেখ যুবরাজ, পানখালী ইউপিতে স্বতন্ত্র সাব্বির আহমেদ, সুতারখালী ইউপিতে নৌকার মাসুম আলী ফকির, কৈলাশগঞ্জ ইউপিতে নৌকার মিহির মণ্ডল নির্বাচিত হয়েছেন।

বটিয়াঘাটা উপজেলার গঙ্গারামপুর ইউপিতে স্বতন্ত্র আসলাম হালদার, বালিয়াডাঙ্গা ইউপিতে বিদ্রোহী স্বতন্ত্র শেখ আসাবুর রহমান ও আমীরপুর ইউনিয়নে নৌকার জি এম মিলন নির্বাচিত হয়েছেন।

/এএম/

সম্পর্কিত

সন্দ্বীপে ১২ ইউনিয়নের ১০টিতেই নৌকার জয়

সন্দ্বীপে ১২ ইউনিয়নের ১০টিতেই নৌকার জয়

সুবর্ণচর-হাতিয়ায় আ.লীগ ৯, স্বতন্ত্র ৪

সুবর্ণচর-হাতিয়ায় আ.লীগ ৯, স্বতন্ত্র ৪

নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যানকে মিষ্টিমুখ করালেন এমপি নাবিল

নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যানকে মিষ্টিমুখ করালেন এমপি নাবিল

প্রথমবারের মতো ঘেরের পাড়ে হলুদ তরমুজ চাষে সফলতা

প্রথমবারের মতো ঘেরের পাড়ে হলুদ তরমুজ চাষে সফলতা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

প্রেমের ফাঁদে গৃহবধূর নগ্ন ভিডিও ধারণ, যুবক গ্রেফতার

প্রেমের ফাঁদে গৃহবধূর নগ্ন ভিডিও ধারণ, যুবক গ্রেফতার

সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে ৪ পুলিশ আহত

সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে ৪ পুলিশ আহত

এক ছবি পোস্ট করেই ৭ বছর কারাদণ্ড, লাখ টাকা জরিমানা

এক ছবি পোস্ট করেই ৭ বছর কারাদণ্ড, লাখ টাকা জরিমানা

একটি সেতুর দাবিতে কেটে গেছে ৪৯ বছর

একটি সেতুর দাবিতে কেটে গেছে ৪৯ বছর

ইমো ব্যবহারকারীরাই তাদের টার্গেট ছিল

ইমো ব্যবহারকারীরাই তাদের টার্গেট ছিল

স্বাস্থ্যবিধির দোহাই দিয়ে হল বন্ধ রাখা অযৌক্তিক

স্বাস্থ্যবিধির দোহাই দিয়ে হল বন্ধ রাখা অযৌক্তিক

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ওসিসহ ৪ জনকে বদলি

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার ওসিসহ ৪ জনকে বদলি

ঢাকার সঙ্গে উত্তর-দক্ষিণবঙ্গের রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

ঢাকার সঙ্গে উত্তর-দক্ষিণবঙ্গের রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

চাঁদাবাজির অভিযোগে ২ পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার

চাঁদাবাজির অভিযোগে ২ পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার

সর্বশেষ

আন্তর্জাতিক শান্তি দিবস আজ

আন্তর্জাতিক শান্তি দিবস আজ

হাবিপ্রবিতে তিন প্রশাসনিক পদে রদবদল 

হাবিপ্রবিতে তিন প্রশাসনিক পদে রদবদল 

বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের ম্যাজিক ফিগার: আইজিপি

বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের ম্যাজিক ফিগার: আইজিপি

ব্রাজিল থেকে বাংলাদেশে এসে করলেন ২১ গোল

ব্রাজিল থেকে বাংলাদেশে এসে করলেন ২১ গোল

পশ্চিমবঙ্গে দিলিপ ঘোষকে সরালো বিজেপি

পশ্চিমবঙ্গ বিজেপিতে রদবদল

© 2021 Bangla Tribune