X
বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

সিরিয়াফেরত ‘জঙ্গি’ শাখাওয়াত ৩ দিনের রিমান্ডে

আপডেট : ১২ জুন ২০২১, ২২:৫৪
image

চট্টগ্রামে গ্রেফতার আনসার আল ইসলামের সদস্য শাখাওয়াত আলী লালুর (৪০) তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

শনিবার (১২ জুন) চট্টগ্রাম মহানগর হাকিম হোসেন মোহাম্মদ রেজা এ আদেশ দেন। নগর পুলিশের উপ-পরিদর্শক (কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট) রাছিব খান এ তথ্য জানিয়েছেন।

বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, আটকের পর তাকে কারাগারে পাঠানোর জন্য আদালতে তুলে পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন করি। শুনানি শেষে আদালত তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

শাখাওয়াত আলী লালু চট্টগ্রামের দামপাড়া এমএম আলী রোড এলাকার বাসিন্দা এবং শেখ মো. শমসের আলীর ছেলে।

এর আগে শুক্রবার (১১ জুন) রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চট্টগ্রাম নগরের খুলশী থানাধীন এলাকায় অভিযান চালিয়ে একটি মসজিদের সামনে থেকে তাকে গ্রেফতার করে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট। ওই সময় তার কাছ থেকে একটি পাসপোর্ট, মোবাইল ফোন, ট্যাব ও মিনি নোটবুক উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারের পর পুলিশ জানায়, শাখাওয়াত যুদ্ধ করার জন্য চার বছর আগে বাংলাদেশ থেকে সিরিয়ায় যান। এরপর গত মার্চ মাসে দেশে ফেরেন। সিরিয়া থেকে চট্টগ্রামে আসার খবরে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি দেশে থাকাকালীন উল্লেখিত জঙ্গি সংগঠনের পক্ষে বাংলাদেশের জননিরাপত্তা বিঘ্ন, অস্থিতিশীল, অকার্যকর ও ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার উদ্দেশে ধর্মীয় উগ্রবাদী মতাদর্শ প্রচার করতেন।

পুলিশ জানায়, ২০১২ সাল থেকে তার ভায়রা ভাই আরিফ এবং মামুনদের অনুপ্রেরণায় জঙ্গি কার্যক্রমের সঙ্গে সম্পৃক্ত হন। তাদের সংগঠনের নেতা মোয়াজসহ (চাকরিচ্যুত মেজর জিয়া), মনসুরাবাদ এলাকার হুজুর শফিক, চট্টগ্রাম লালখান বাজার এলাকার এসির দোকানের কর্মচারী ওমর ফারুকদের সহায়তায় দেশের বিভিন্ন স্থানে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের সদস্যদের সংগঠিত করার লক্ষ্যে সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনা করছিলেন। অভিযুক্ত ইলেকট্রনিক মাধ্যমে বিভিন্ন জিহাদি কার্যক্রম প্রচারের কাজে আইটি বিশেষজ্ঞ হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন।

জিহাদে অংশগ্রহণ করার জন্য ২০১৭ সালে তুরস্কে যায়। সেখান থেকে অবৈধ পথে সীমান্ত অতিক্রম করে সিরিয়াতে ঢুকে ছয় মাস ‘হায়াত তাহরীর আরশাম’-এর কাছ থেকে ভারী অস্ত্রশস্ত্রের প্রশিক্ষণ নিয়ে সিরিয়ার ‘ইদলিব’ এলাকায় যুদ্ধে অংশগ্রহণ করে। পরে সিরিয়া থেকে অবৈধ পথে সীমান্ত অতিক্রম করে তুরস্কে হয়ে ইন্দোনেশিয়ায় প্রবেশ করেন। ইন্দোনেশিয়া থেকে শ্রীলঙ্কা হয়ে পুনরায় ইন্দোনেশিয়ায় গিয়ে বসবাস করেন। সেখানে বসবাসকালে জিহাদি কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

/এফআর/

সম্পর্কিত

বঙ্গোপসাগরে বিকল সেন্টমার্টিনগামী যাত্রীবাহী ট্রলার

বঙ্গোপসাগরে বিকল সেন্টমার্টিনগামী যাত্রীবাহী ট্রলার

কুমিল্লায় একদিনে সর্বোচ্চ ১১৯০ জনের করোনা শনাক্ত

কুমিল্লায় একদিনে সর্বোচ্চ ১১৯০ জনের করোনা শনাক্ত

দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে এএসআই নিহত

দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে এএসআই নিহত

মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত কমিটি, ৬ শিক্ষক গ্রেফতার

মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত কমিটি, ৬ শিক্ষক গ্রেফতার

বৃদ্ধ বাবা-মাকে আশ্রয়হীন করায় ৩ ছেলেকে পুলিশে দিলেন ইউএনও

আপডেট : ০৪ আগস্ট ২০২১, ০০:০৩

বৃদ্ধ বাবা-মাকে ভরণপোষণ না দিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দেওয়ার কারণে তিন ছেলেকে আটকের পর পুলিশের সোপর্দ করা হয়েছে। ওই বাবা-মার ভরণপোষণের দায়িত্ব নিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। পাইকগাছা উপজেলায় এ চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে। এ ঘটনায় আটক তিন ছেলে মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) আদালত থেকে মুচলেকায় জামিন পেয়েছেন।

পাইকগাছা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. এজাজ শফি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, গোপালপুর গ্রামের বাসিন্দা বৃদ্ধ মেছের আলী গাজী (৯৮) এবং তার স্ত্রী সোনাভান বিবি (৮৬)। তাদের চার ছেলে ও পাঁচ মেয়ে রয়েছে। তাদের জমি কয়েক বছর আগেই ছেলেরা লিখে নিয়েছেন। এরপর থেকে বড় ছেলে রওশন আলী গাজী মায়ের এবং বাকি তিন ছেলে পালাক্রমে বাবার ভরণপোষণের দায়িত্ব নেন। নিয়ম অনুযায়ী ২ আগস্ট ছিল মেজ ছেলের পর ছোট ছেলের খাবার দেওয়ার পালা। কিন্তু ছোট ছেলে বাবাকে খেতে না দিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। অগত্যা স্বামীর সঙ্গে স্ত্রীও বাড়ি থেকে বের হন এবং পার্শ্ববর্তী মানিকতলা বাজারের একটি দোকানে আশ্রয় নেন। এ খবর পেয়ে ওই রাতেই ১০টার দিকে মানিকতলা বাজারে আসেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী। চার ছেলেকে খুঁজে বের করে গদাইপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গাজী জুনায়েদুর রহমান ও স্থানীয় লোকজনের উপস্থিতিতে শুনানি করেন। ছেলেদের কাছে ঘটনার বিস্তারিত শোনেন। এরপর বৃদ্ধ বাবা মেছের আলী গাজী ও মা সোনাভান বিবিকে বড় ছেলে রওশন গাজীর জিম্মায় দেন। একই সঙ্গে বৃদ্ধ বাবা-মার জন্য বালতি, জগ, মগ, গামছাসহ নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের একটি সেট এবং একমাসের খাবার দেন তিনি। আর বাকি তিন ছেলে মতলেব গাজী, মশিয়ার গাজী ও মোশাররফ গাজীকে পুলিশে সোপর্দ করেন।

বৃদ্ধ মেছের আলী গাজী ও তার স্ত্রী সোনাভান বিবি উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান, ওই বৃদ্ধ বাবা-মার খাদ্য, চিকিৎসা, পোশাকসহ যাবতীয় ব্যয়ভার এখন থেকে স্থানীয় চেয়ারম্যানের মাধ্যমে উপজেলা প্রশাসন বহন করবে। 

গদাইপুর ইউপি চেয়ারম্যান গাজী জুনায়েদুর রহমান বলেন, ‘সার্বক্ষণিক তাদের খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। বর্তমানে তারা ভালো আছেন। কোনও অসুবিধা হচ্ছে না।’

পাইকগাছা থানার ওসি বলেন, ‘অভিযুক্ত তিন ছেলেকে সামাজিক চাপে বাবা-মার ভরণপোষণের দায়িত্ব নিলেও ঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করেনি। এমনকি বাবা-মাকে বাড়ি থেকে বের করে দেয়। এ ঘটনায় তাদের সিআরপিসির ১৫১ ধারায় অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের অভিযোগে আটক দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হয়। তবে পরবর্তী তারিখে হাজির হওয়ার শর্তে মঙ্গলবার পাইকগাছা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত থেকে তারা জামিন লাভ করেন।’

/এমএএ/

সম্পর্কিত

স্ত্রীকে অপহরণের অভিযোগে সেনাসদস্য গ্রেফতার

স্ত্রীকে অপহরণের অভিযোগে সেনাসদস্য গ্রেফতার

যশোরে করোনা ও উপসর্গে আরও ৮ মৃত্যু

যশোরে করোনা ও উপসর্গে আরও ৮ মৃত্যু

খুলনায় শনাক্ত কমলেও বেড়েছে মৃত্যু

খুলনায় শনাক্ত কমলেও বেড়েছে মৃত্যু

মাদক বিক্রিতে বাধা দেওয়ায় ২ যুবককে কুপিয়ে জখম

মাদক বিক্রিতে বাধা দেওয়ায় ২ যুবককে কুপিয়ে জখম

স্ত্রীকে অপহরণের অভিযোগে সেনাসদস্য গ্রেফতার

আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০২১, ২৩:২০

কুড়িগ্রামের রৌমারীতে স্ত্রীকে অপহরণের অভিযোগে করা মামলায় লিটন মিয়া নামে এক সেনা সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (২ আগস্ট) বগুড়া ক্যান্টনমেন্ট কর্তৃপক্ষ লিটন মিয়াকে বগুড়ার শাহজাহানপুর থানায় সোপর্দ করলে মঙ্গলবার সকালে তাকে রৌমারী নিয়ে আসে থানা পুলিশ। এর আগে ২০ জুলাই তার স্ত্রী লাকী আক্তারের বড় ভাই হাসানুজ্জামান বাদী হয়ে আট জনকে আসামি করে রৌমারী থানায় মামলা দায়ের করেন। রৌমারী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুন্তাছের বিল্লাহ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেফতার লিটন মিয়া উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়নের বকবান্দা গ্রামের ছেবার উদ্দিনের ছেলে। তিনি বগুড়া ক্যান্টমেন্টে কর্মরত ছিলেন বলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সূত্রে জানা গেছে।

নিখোঁজ লাকি আক্তারের বড় ভাই হাসানুজ্জামান জানান, বিয়ের পর থেকেই লিটন যৌতুকের জন্য স্ত্রী লাকি আক্তারের ওপর নানাভাবে নির্যাতন করে আসছিলেন। নির্যাতন সইতে না পেরে এক সময় লাকি নির্যাতনের বিষয়টি সেনা ইউনিটে মৌখিকভাবে জানান। এতে লিটন ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে নানাভাবে হত্যা ও গুমের হুমকি দিয়ে আসছিলেন। এরই ধারাবাহিকতায় গত ২৬ জুন লিটন মায়ের অসুস্থতার কথা বলে স্ত্রীকে উপজেলার যাদুরচর নতুনগ্রামে (দিগলাপাড়া) তার (লিটনের) ভগ্নিপতি জাবেদ আলীর বাড়িতে ডেকে নেন। এরপর থেকে লাকি আক্তারের আর কোনও খোঁজ মিলছে না। এ নিয়ে গত ২ জুলাই রৌমারী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করে লাকির পরিবার।

পুলিশ ও নিখোঁজ লাকির পরিবার সূত্রে জানা যায়, লাকি নিখোঁজের সাধারণ ডায়েরি হওয়ার পর তদন্তকালে পুলিশ ওই সেনা সদস্যের ভগ্নিপতি জাবেদ আলীর বাড়ির পশ্চিম পাশে ব্রহ্মপুত্র নদের অপর প্রান্তের পাটক্ষেত থেকে একটি ওড়না, ম্যাক্সি ও জামা উদ্ধার করে। পরে লাকিকে অপহরণের অভিযোগ এনে থানায় মামলা করে লাকির পরিবার।

লাকি আক্তারের বড় ভাই হাসানুজ্জামান বলেন, ‘লাকিকে জীবিত অবস্থায় ফেরত চাই। অন্তত তার খোঁজ চাই।’ এ ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছে লাকির পরিবার। 

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রৌমারী থানার ওসি (তদন্ত) এম আর সাইদ বলেন, ‘লাকির পরিবারের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে বগুড়া ক্যান্টনমেন্ট কর্তৃপক্ষ অভিযুক্ত সেনা সদস্যকে শাহজাহানপুর থানায় হস্তান্তর করে। পরে সেখান থেকে মঙ্গলবার সকালে তাকে রৌমারী থানায় নিয়ে আসা হয়। স্ত্রী লাকি আক্তার অপহরণ মামলায় লিটন মিয়াকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।’

রৌমারী থানার ওসি মোন্তাছের বিল্লাহ বলেন, ‘পুলিশ প্রাথমিক তদন্তে কিছু আলামত জব্দ করেছে। এগুলো লাকি আক্তারের ব্যবহৃত কিনা তা যাচাই করা হচ্ছে।’

তিনি জানান, লিটন মিয়াকে অপহরণ মামলায় গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার সকালে তাকে আদালতে নেওয়া হবে।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

সকালে জন্ম নেওয়া নবজাতককে দুপুরে বিক্রির অভিযোগ

সকালে জন্ম নেওয়া নবজাতককে দুপুরে বিক্রির অভিযোগ

রংপুর বিভাগে করোনায় একদিনে ১৪ মৃত্যু

রংপুর বিভাগে করোনায় একদিনে ১৪ মৃত্যু

সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন মেয়েকে পুলিশের এসআই বাবার স্যালুট

সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন মেয়েকে পুলিশের এসআই বাবার স্যালুট

মাদ্রাসাশিক্ষার্থীকে ২ দিন আটকে রেখে ধর্ষণ, ইমাম গ্রেফতার

মাদ্রাসাশিক্ষার্থীকে ২ দিন আটকে রেখে ধর্ষণ, ইমাম গ্রেফতার

বঙ্গোপসাগরে বিকল সেন্টমার্টিনগামী যাত্রীবাহী ট্রলার

আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০২১, ২৩:১৮

কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিন দ্বীপে ফেরার সময় যাত্রীবাহী একটি ট্রলারের ইঞ্জিন বিকল হয়ে পড়েছে। বঙ্গোপসাগরে ভাসমান অবস্থায় ৩০ জন যাত্রীসহ ট্রলারটি উদ্ধার করতে দ্বীপে থেকে আরেকটি ট্রলার পাঠানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) বিকালে টেকনাফ থেকে ছেড়ে যাওয়া যাত্রীবাহী ট্রলারটি বঙ্গোপসাগরের মিয়ানমার সীমান্ত ঘেঁষা নাইক্ষ্যংদ্বীপ এলাকায় পৌঁছালে ট্রলারটির ইঞ্জিন বিকল হয়ে পড়ে।

জানা গেছে, বিকালে টেকনাফ পৌরসভার খায়ুকখালী ঘাট থেকে ৩০ জন যাত্রী নিয়ে মাঝি মো. ইলিয়াছ সেন্টমার্টিনের উদ্দেশে রওনা দেয়। যাত্রীবাহী ট্রলারটি বঙ্গোপসাগরের মিয়ানমার সীমান্ত ঘেঁষা নাইক্ষ্যং দ্বীপ এলাকায় পৌঁছালে ইঞ্জিন বিকল হয়ে পড়ে। এতে ঝোড়ো হাওয়া শুরু হলে যাত্রীদের মাঝে ভয়ভীতি কাজ করে। 
এ সময় ট্রলারের থাকা যাত্রীরা কূলে স্বজনদের কাছে ফোন করে কান্নাকাটি করেন। স্থানীয় লোকজন সেন্টমার্টিন থেকে একটি ট্রলার পাঠিয়ে বিকল যাত্রীবাহী ট্রলারটি অবস্থান নির্ণয় করে সেটি টেনে আনার কথা রয়েছ।

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) রাত সাড়ে ৮ দিকে বিষয়টি নিশ্চিত করে সেন্টমার্টিন বোট মালিক সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ রশিদ জানান, টেকনাফ থেকে দ্বীপে ফেরার পথে যাত্রীবাহী একটি ট্রলার সাগরের মাঝখানে পৌঁছে ইঞ্জিন বিকল হয়ে পড়ে। ট্রলারে ৪০ জন যাত্রী রয়েছে বলে খবর পাচ্ছি। বিষয়টি জানার পর বিকল যাত্রীবাহী ট্রলারটি টেনে আনার জন্য একটি ট্রলার পাঠানো হয়েছে। এখন সেই ট্রলারটিরও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. পারভেজ চৌধুরী বলেন, ‘সাগরে যাত্রীবাহী একটি ট্রলার বিকল হওয়ার খবর পেয়েছি। এ বিষয়ে খোঁজখবর নিচ্ছি।’

সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুর আহমদ বলেন, ‘দ্বীপে যাত্রাকালে একটি ট্রলার বিকল হওয়ার খবর পেয়েছি। যাত্রীবাহী ট্রলারটি টেনে আনার জন্য দ্বীপ থেকে একটি ট্রলার পাঠানো হয়েছে। সে বিষয়ে খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে।’

সাড়ে ৭টার দিকে ট্রলারে থাকা মো. আবদুল্লাহ সরকার নামে এক যাত্রী তার ফেসবুকে লেখেন, ‘দুপুরে ট্রলারে করে ৪০ জন যাত্রী নিয়ে টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিনে রওনা দিয়েছি। ট্রলারটি বিকল হয়ে পড়েছে। বৈরী আবহাওয়ার কারণে খুব ভয়ে আছি।’

/এফআর/

সম্পর্কিত

কুমিল্লায় একদিনে সর্বোচ্চ ১১৯০ জনের করোনা শনাক্ত

কুমিল্লায় একদিনে সর্বোচ্চ ১১৯০ জনের করোনা শনাক্ত

দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে এএসআই নিহত

দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে এএসআই নিহত

মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত কমিটি, ৬ শিক্ষক গ্রেফতার

মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত কমিটি, ৬ শিক্ষক গ্রেফতার

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ করতে দেওয়া হবে না: চসিক মেয়র

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ করতে দেওয়া হবে না: চসিক মেয়র

করোনার টিকা ছাড়াই সুই পুশ, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক বরখাস্ত

আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০২১, ২২:৪৪

গ্রহীতাদের শরীরে সুই পুশ করেও টিকা না দেওয়া টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সেই সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক সাজেদা আফরিনকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর।

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) রাতে এ কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. আবুল ফজল মো. সাহাবুদ্দিন খান।

সিভিল সার্জন বলেন, ‘এ ঘটনার দিন (রবিবার) তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। সোমবার (২ আগস্ট) বিকালে কমিটি তদন্ত প্রতিবেদন জমা দেয়। তদন্তে অভিযুক্ত ব্যক্তি বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক বরাবর তদন্ত প্রতিবেদনসহ চিঠি পাঠানো হয়। আজ সন্ধ্যায় অভিযুক্ত সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক সাজেদা আফরিনকে সাময়িক বরখাস্তের বিষয়টি স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে জানানো হয়।’

প্রসঙ্গত, গত রবিবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে টাঙ্গাইলের দেলদুয়ার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ২ নম্বর বুথে মানুষের শরীরে টিকা দিচ্ছিলেন সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক সাজেদা আফরিন। এ সময় তিনি গ্রহণকারীদের শরীরে টিকা না দিয়ে শুধু সুই পুশ করেন। বিষয়টি নজরে আসে টিকা নিতে আসা এক ব্যক্তির। তিনি ঘটনাটি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল কর্মকর্তা (আরএমও) মো. শামীমকে জানান। পরে ফেলে দেওয়া সিরিঞ্জগুলো বাছাই করে ২০টির ভেতর টিকা দেখতে পান চিকিৎসক শামীম।

তখন তিনি নিশ্চিত হন, সুই পুশ করা হলেও এসব ব্যক্তির শরীরে টিকা দেওয়া হয়নি। এ ঘটনায় ওইদিন তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

/এফআর/

সম্পর্কিত

শুধু নারী রোগীদের জন্য করোনা ইউনিট চালুর সিদ্ধান্ত

শুধু নারী রোগীদের জন্য করোনা ইউনিট চালুর সিদ্ধান্ত

মানিকগঞ্জ করোনা হাসপাতালে সাংবাদিক প্রবেশ নিষেধ

মানিকগঞ্জ করোনা হাসপাতালে সাংবাদিক প্রবেশ নিষেধ

সকালে জন্ম নেওয়া নবজাতককে দুপুরে বিক্রির অভিযোগ

সকালে জন্ম নেওয়া নবজাতককে দুপুরে বিক্রির অভিযোগ

কুমিল্লায় একদিনে সর্বোচ্চ ১১৯০ জনের করোনা শনাক্ত

আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০২১, ২২:১৬

কুমিল্লায় করোনা সংক্রমণের আগের সব রেকর্ড ভেঙে নতুন রেকর্ড গড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় এক হাজার ১৯০ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। শনাক্তের হার ৩১ দশমিক ৯ শতাংশ। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩১ হাজার ২৭৮ জনে দাঁড়িয়েছে। দিনে আক্রান্তের তুলনায় সুস্থতার হার কম। 

মঙ্গলবার করোনা আক্রান্ত থেকে সুস্থ হয়েছেন ৩৫৫ জন। একই দিন করোনায় প্রাণ হারালেন আরও আট জন। তাদের মধ্যে পাঁচ জন পুরুষ এবং তিন জন নারী। মঙ্গলবার (০৩ আগস্ট) বিকালে জেলা সিভিল সার্জন ডা. মীর মোবারক হোসাইন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় কুমিল্লা সিটি করপোরেশন এলাকায় তিন, মুরাদনগরে দুই এবং দাউদকান্দি, দেবিদ্বার ও ব্রাহ্মণপাড়ায় একজন করে মৃত্যু হয়েছে।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ল্যাবে তিন হাজার ৭৩২টি নমুনা পরীক্ষায় এক হাজার ১৯০ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩১ হাজার ২৭৮ জনে।

নতুন আক্রান্তদের মধ্যে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ৩৫২, আদর্শ সদরের ৩৭, সদর দক্ষিণের ১৬, বুড়িচংয়ের ৫৫, ব্রাহ্মণপাড়ার ৪২, চান্দিনার ৪৫, চৌদ্দগ্রামের ২৩, দেবিদ্বারের ৫৩, দাউদকান্দির ৬৯, লাকসামের ৭৮, লালমাইয়ের ৪৫, নাঙ্গলকোটের ৬৯, বরুড়ার ৯৬, মনোহরগঞ্জের ৩৪, মুরাদনগরের ৬৮, মেঘনার ২৫, তিতাসের ২৯ ও হোমনার ৫৪ জন।

এদিকে, জেলায় নতুন করে সুস্থ হয়েছেন আরও ৩৫৫ জন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হয়েছেন ১৭ হাজার ১৭১ জন।

/এএম/

সম্পর্কিত

বঙ্গোপসাগরে বিকল সেন্টমার্টিনগামী যাত্রীবাহী ট্রলার

বঙ্গোপসাগরে বিকল সেন্টমার্টিনগামী যাত্রীবাহী ট্রলার

মানিকগঞ্জ করোনা হাসপাতালে সাংবাদিক প্রবেশ নিষেধ

মানিকগঞ্জ করোনা হাসপাতালে সাংবাদিক প্রবেশ নিষেধ

দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে এএসআই নিহত

দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে এএসআই নিহত

সর্বশেষ

বৃদ্ধ বাবা-মাকে আশ্রয়হীন করায় ৩ ছেলেকে পুলিশে দিলেন ইউএনও

বৃদ্ধ বাবা-মাকে আশ্রয়হীন করায় ৩ ছেলেকে পুলিশে দিলেন ইউএনও

মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতরের বাইরে গোলাগুলি

মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতরের বাইরে গোলাগুলি

৩ থেকে ১৭ বছর বয়সীদেরও টিকা দেবে আমিরাত

৩ থেকে ১৭ বছর বয়সীদেরও টিকা দেবে আমিরাত

স্ত্রীকে অপহরণের অভিযোগে সেনাসদস্য গ্রেফতার

স্ত্রীকে অপহরণের অভিযোগে সেনাসদস্য গ্রেফতার

বঙ্গোপসাগরে বিকল সেন্টমার্টিনগামী যাত্রীবাহী ট্রলার

বঙ্গোপসাগরে বিকল সেন্টমার্টিনগামী যাত্রীবাহী ট্রলার

আগের দিন থেকেই উত্তেজনায় কাঁপছিলেন নাসুম

আগের দিন থেকেই উত্তেজনায় কাঁপছিলেন নাসুম

তবুও পা মাটিতেই রাখছেন মাহমুদউল্লাহরা

তবুও পা মাটিতেই রাখছেন মাহমুদউল্লাহরা

কলকাতা পৌরসভায় নিরঙ্কুশ জয়ের পথে তৃণমূল!

কলকাতা পৌরসভায় নিরঙ্কুশ জয়ের পথে তৃণমূল!

৩ লাখ ২২ হাজার টিকা দেওয়া হয়েছে আজ

৩ লাখ ২২ হাজার টিকা দেওয়া হয়েছে আজ

ইরাকের লুট হওয়া ১৭ হাজার শিল্পকর্ম ফিরিয়ে দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

ইরাকের লুট হওয়া ১৭ হাজার শিল্পকর্ম ফিরিয়ে দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

৭ গোলের ম্যাচে চট্টগ্রাম আবাহনীর জয়

৭ গোলের ম্যাচে চট্টগ্রাম আবাহনীর জয়

করোনার টিকা ছাড়াই সুই পুশ, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক বরখাস্ত

করোনার টিকা ছাড়াই সুই পুশ, সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক বরখাস্ত

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

বঙ্গোপসাগরে বিকল সেন্টমার্টিনগামী যাত্রীবাহী ট্রলার

বঙ্গোপসাগরে বিকল সেন্টমার্টিনগামী যাত্রীবাহী ট্রলার

কুমিল্লায় একদিনে সর্বোচ্চ ১১৯০ জনের করোনা শনাক্ত

কুমিল্লায় একদিনে সর্বোচ্চ ১১৯০ জনের করোনা শনাক্ত

দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে এএসআই নিহত

দুই মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে এএসআই নিহত

মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত কমিটি, ৬ শিক্ষক গ্রেফতার

মাদ্রাসাছাত্রের মৃত্যুর ঘটনায় তদন্ত কমিটি, ৬ শিক্ষক গ্রেফতার

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ করতে দেওয়া হবে না: চসিক মেয়র

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ করতে দেওয়া হবে না: চসিক মেয়র

‘প্রতিনিধিদের কাছ থেকে প্রতি মাসে টাকা নিতেন হেলেনা জাহাঙ্গীর’

‘প্রতিনিধিদের কাছ থেকে প্রতি মাসে টাকা নিতেন হেলেনা জাহাঙ্গীর’

আবাসন সংকটে অনাথ শিশুদের দুর্ভোগ

আবাসন সংকটে অনাথ শিশুদের দুর্ভোগ

ডিসি-ইউএনও পরিচয়ে ত্রাণের জন্য টাকা দাবি, থানায় জিডি

ডিসি-ইউএনও পরিচয়ে ত্রাণের জন্য টাকা দাবি, থানায় জিডি

চাঁদপুরের এক হাসপাতালেই ২৪ ঘণ্টায় উপসর্গে ১১ জনের মৃত্যু

চাঁদপুরের এক হাসপাতালেই ২৪ ঘণ্টায় উপসর্গে ১১ জনের মৃত্যু

চট্টগ্রামে ১৯০ মিলিমিটার বৃষ্টি, ডুবে গেছে নিম্নাঞ্চল

চট্টগ্রামে ১৯০ মিলিমিটার বৃষ্টি, ডুবে গেছে নিম্নাঞ্চল

© 2021 Bangla Tribune