X
মঙ্গলবার, ২৭ জুলাই ২০২১, ১২ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

কুমিল্লা-৫ আসনের উপনির্বাচন: ৮ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র সংগ্রহ

আপডেট : ১৪ জুন ২০২১, ২১:২১

কুমিল্লা-৫ (বুড়িচং-ব্রাহ্মণপাড়া) আসনের উপনির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতার লক্ষ্যে আট প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। তাদের মধ্যে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট আবুল হাসেম খান ও প্রয়াত আবদুল মতিন খসরুর স্ত্রী সেলিমা সোবহান খসরু রয়েছেন।

সোমবার (১৪ জুন) কুমিল্লার ব্রাহ্মণপাড়া ও বুড়িচং উপজেলা নির্বাচন অফিস এবং জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে তারা মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ও সহকারী রিটার্নিং অফিসার মোহাম্মদ শাহাদাত হোসাইন।

জানা গেছে, ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন প্রার্থী মাহতাব হোসেন, সাজ্জাদ হোসেন ও জাপা নেতা জসিম উদ্দিন। বুড়িচং উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে মনোনয়নপত্র করেছেন অ্যাডভোকেট আবুল হাসেম খান, এহতেশামুল হাসান ভূঁইয়া রুমি এবং কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন সেলিমা সোবহান খসরু, শামসুল আলম ও আবদুল জলিল ভূঁইয়া।

এই প্রার্থীদের মধ্যে হাসেম খান, সেলিমা সোবহান খসরু, মাহতাব হোসেন ও এহতেশামুল হাসান ভূঁইয়া রুমি আওয়ামী লীগের মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছিলেন। তাদের মধ্যে হাসেম খান নৌকা প্রতীকের প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পান। তাদের অনেকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী ঘোষণার আগেই মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে রেখেছিলেন।

ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা বুলবুল আহমেদ বলেন, ‘ব্রাহ্মণপাড়া থেকে এ পর্যন্ত তিন প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেছেন। ১৫ জুন মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ।’

/এমএএ/

সম্পর্কিত

করোনায় চট্টগ্রামে রেকর্ড মৃত্যু, শনাক্ত ১৩১০ জন

করোনায় চট্টগ্রামে রেকর্ড মৃত্যু, শনাক্ত ১৩১০ জন

লকডাউনে কাদের মির্জার চা-চক্রের আয়োজন

লকডাউনে কাদের মির্জার চা-চক্রের আয়োজন

টেকনাফের প্রধান সড়কে বন্যহাতি

টেকনাফের প্রধান সড়কে বন্যহাতি

আমেরিকায় যাওয়ার আগে ‘শান্তি প্রতিষ্ঠার’ ডাক কাদের মির্জার

আমেরিকায় যাওয়ার আগে ‘শান্তি প্রতিষ্ঠার’ ডাক কাদের মির্জার

রাজশাহী মেডিক্যালে ২৭ দিনে ৪৭৪ মৃত্যু

আপডেট : ২৭ জুলাই ২০২১, ০৯:৫৪

রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত আরও ১০ জন মারা গেছেন। একই সময় করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ১১ জন। 

সোমবার (২৬ জুলাাই) সকাল ৮টা থেকে মঙ্গলবার (২৭ জুলাাই) সকাল ৮টার মধ্যে করোনা ইউনিটে এই ২১ জন মারা গেছেন। এ নিয়ে চলতি মাসে (১ জুলাই থেকে ২৭ জুলাই সকাল পর্যন্ত) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৪৭৪ জন। এর আগে জুন মাসে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৪০৫ জন মারা যান।

এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী। তিনি আরও জানান, নতুন মারা যাওয়াদের মধ্যে রাজশাহীর সাত জন, নাটোরের তিন জন, নওগাঁর চার জন, পাবনার পাঁচ জন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ ও ঝিনাইদহের একজন করে রোগী রয়েছেন। এদের মধ্যে ১১ জন পুরুষ এবং ১০ জন নারী।

মৃতদের মধ্যে ১১ জনের বয়স ৬১ বছরের ওপরে। বাকিদের মধ্যে ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে তিন জন, ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সের মধ্যে তিন জন, ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সের মধ্যে চার জন রোগী রয়েছেন।

হাসপাতালের পরিচালক শামীম ইয়াজদানী জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ইউনিটে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন ৫৫ জন। একই সময় সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৪০ জন। 

মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত করোনা ইউনিটের ৫১৩ বেডের বিপরীতে ভর্তি আছেন ৩৯৯ জন। এদের মধ্যে আইসিইউতে রয়েছেন ২০ জন।

করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন ৩৯৯ জনের মধ্যে ১৭৮ জন করোনা পজিটিভ। উপসর্গ নিয়ে ভর্তি রয়েছেন ১৭৭ জন। এছাড়াও করোনামুক্ত হয়েও পরবর্তী স্বাস্থ্য জটিলতায় চিকিৎসাধীন আছেন ৪৪ জন।

রামেক হাসপাতাল পরিচালক জানান, সোমবার রাতে দুটি ল্যাবে রাজশাহী জেলার ৪১৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এতে ৯৩ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ২২ দশমিক ৫২ শতাংশ। এর আগের দিন রবিবার শনাক্তের হার ছিল ৩০ দশমিক ৭৮ শতাংশ এবং গত শনিবার ৪৫ দশমিক শূন্য ৭ শতাংশ।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ১৯ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ১৯ মৃত্যু

ভালো নেই নেত্রকোনার মিলন বয়াতি

ভালো নেই নেত্রকোনার মিলন বয়াতি

করোনায় চট্টগ্রামে রেকর্ড মৃত্যু, শনাক্ত ১৩১০ জন

করোনায় চট্টগ্রামে রেকর্ড মৃত্যু, শনাক্ত ১৩১০ জন

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ১৯ মৃত্যু

আপডেট : ২৭ জুলাই ২০২১, ০৯:৪৩

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ডেডিকেটেড করোনা ইউনিটে মৃত্যুর সংখ্যা কমেছে। সোমবার (২৬ জুলাই) হাসপাতালে সর্বোচ্চ ২৩ জন মারা গেলেও গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমেছে। আজ ১৯ জনের মৃত্যুর তথ্য জানানো হয়। এরমধ্যে পাঁচ জন করোনা পজিটিভ ও বাকি ১৪ জন উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। 

করোনায় মারা যাওয়াদের মধ্যে ময়মনসিংহের তিন জন এবং নেত্রকোনা ও জামালপুরের একজন করে রোগী মারা গেছেন। এছাড়া করোনা উপসর্গ নিয়ে ময়মনসিংহের ছয় জন, জামালপুরের তিন, নেত্রকোনার দুই, গাজীপুর, কিশোরগঞ্জ ও টাঙ্গাইলের একজন করে রোগী মারা গেছেন। 

১৯ জন মারা যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের করোনা ইউনিটের ফোকাল পারসন ডা. মহিউদ্দিন খান মুন। তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৭৬ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন। বর্তমানে হাসপাতালের  করোনা ইউনিটে ৪৩৮ জন এবং আইসিইউতে ১৯ জন রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন। এছাড়া ৭৯ জন রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। 

এদিকে জেলা সিভিল সার্জন ডা. নজরুল ইসলাম জানান, একদিনে আরও ১৩০০টি নমুনা পরীক্ষায় ৩৩২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বর্তমানে করোনা শনাক্ত ব্যক্তির সংখ্যা হচ্ছে ১৩ হাজার ১৮৭ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ৯ হাজার ৮৯৯ জন।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

রাজশাহী মেডিক্যালে ২৭ দিনে ৪৭৪ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে ২৭ দিনে ৪৭৪ মৃত্যু

ভালো নেই নেত্রকোনার মিলন বয়াতি

ভালো নেই নেত্রকোনার মিলন বয়াতি

ভালো নেই নেত্রকোনার মিলন বয়াতি

আপডেট : ২৭ জুলাই ২০২১, ০৯:৩৫

করোনাকালে অভাব-অনটনের কারণে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েন নেত্রকোনার বিশিষ্ট পালাকার মিলন বয়াতি। করোনা পরিস্থিতির আগে মাঝে মধ্যে বিভিন্ন জায়গায় অনুষ্ঠান করতে পারতেন। সম্মানি হিসেবে যা পেতেন তাই দিয়েই চলতো সংসার। এখন সেই পথও বন্ধ। এ অবস্থায় সম্প্রতি তিনি শারীরিকভাবেও অসুস্থ হয়ে পড়েন। গত ১৫ জুলাই রাত থেকে তার ডান হাত ও ডান পা অনুভূতিহীন হয়ে যায়। আর্থিকভাবে চরম ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় তিনি চিকিৎসাটাও চালিয়ে যেতে পারছেন না। 

জানা যায়, নেত্রকোনার সদর উপজেলার কালিয়ারা গাবরাগাতি ইউনিয়নের ছেওপুর গ্রামে জন্ম মিলন বয়াতির। শৈশব থেকেই নেত্রকোনার বিভিন্ন গ্রামগঞ্জে গান বাজনা করে বেড়িয়েছেন তিনি। বর্তমানে অসুস্থতার কারণে তিনি কেন্দুয়ার নওপাড়ায় মেয়ের বাড়িতে অবস্থান করছেন।

মিলন বয়াতি বিশেষ সুনামের সঙ্গে নেত্রকোনাসহ সারা দেশে পালা গানের নান্দনিক উপস্থাপনার মাধ্যমে ভূয়সী প্রশংসা কুড়িয়েছেন। সারা জীবন লোকসংস্কৃতির চর্চার মাধ্যমে বেঁচে থাকতে চান তিনি। কোনোকালেই অর্থের প্রতি ঝোঁক ছিল না এই শিল্পীর। নতুন গান বাঁধা ও পালা তৈরির মাধ্যমে নতুন সৃষ্টি নিয়ে মানুষের সামনে হাজির হতে পারাই ছিল তার চরম আনন্দ। 

স্থানীয় সাংস্কৃতিক ব্যক্তিরা জানান, এই গুণী শিল্পীকে বাঁচিয়ে রাখতে পারলে আবারও দুর্দান্ত দাপট নিয়ে মঞ্চে ফিরবেন। মানুষকে বিমোহিত করে নির্মল আনন্দে দেবেন। তার বর্তমান অসুস্থতা থেকে উত্তরণের জন্য উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন। সমাজের সক্ষম ও বিত্তশালী মানুষেরা যদি যার যার সামর্থ্য নিয়ে এই শিল্পীর পাশে দাঁড়ান, তাহলে আরও ভালো কিছু সৃষ্টি মাধ্যমে দেশের লোকসংস্কৃতিকে আরও সমৃদ্ধ করবেন মিলন বয়াতি, এমনটাই তাদের ধারণা। 

 মিলন বয়াতির অসুস্থতার খবর পেয়ে তার প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন নেত্রকোনা জেলা প্রশাসক কাজী মো. আবদুর রহমান। তিনি তাৎক্ষণিকভাবে ১০ হাজার টাকা আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছেন। 

জেলা প্রশাসক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মিলন বয়াতিকে চিকিৎসাসহ অন্যান্য সহযোগিতা করা হয়েছে। সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে এলে এই শিল্পী আরও অনেদকিন শিল্প-সংস্কৃতির জন্য কাজ করে যেতে পারবেন।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

রাজশাহী মেডিক্যালে ২৭ দিনে ৪৭৪ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে ২৭ দিনে ৪৭৪ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ১৯ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ১৯ মৃত্যু

করোনায় চট্টগ্রামে রেকর্ড মৃত্যু, শনাক্ত ১৩১০ জন

করোনায় চট্টগ্রামে রেকর্ড মৃত্যু, শনাক্ত ১৩১০ জন

ফেরিঘাট সরানো পদ্মা সেতুর জন্য ঝুঁকিপূর্ণ: প্রকৌশলী

আপডেট : ২৭ জুলাই ২০২১, ০৯:০০

পদ্মা সেতুর নিরাপত্তার জন্য ফেরিঘাট স্থানান্তরের সুপারিশ করেছে তদন্ত কমিটি। কমিটির সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে বিআইডব্লিউটিসি চেয়ারম্যান স্বাক্ষরিত একটি চিঠিও দেওয়া হয়েছে পদ্মা সেতুর প্রকল্প পরিচালক ও নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন দফতরে। তবে ফেরিঘাট স্থানান্তর পদ্মা সেতুর জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হবে বলে জানিয়েছেন সেতু প্রকল্প সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীরা। ফেরিঘাট স্থানান্তরের সুপারিশের যৌক্তিকতা নিয়ে স্বয়ং বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান বলছেন, ‘ঘাট সরানো অযৌক্তিক। এত কোটি টাকা খরচ করে ঘাট সরানো ঠিক হবে না।’

গত শুক্রবার (২৩ জুলাই) রো রো ফেরি শাহজালাল পদ্মা সেতুর ১৭ নম্বর পিলারে ধাক্কা দেওয়ার পর তদন্ত কমিটি গঠন করেছিল বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি)।

রবিবার (২৫ জুলাই) ইস্যু করা বিআইডব্লিউটিসির চিঠিতে বলা হয়, দেশের অতি গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো পদ্মা সেতুর নিরাপত্তা নিশ্চিতের লক্ষ্যে অনতিবিলম্বে শিমুলিয়া ফেরিঘাট পুরাতন মাওয়া ঘাটে অথবা বাংলাবাজার ঘাটটি মাঝিরকান্দির ঘাটে স্থানান্তরের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ করা যেতে পারে।

ফেরির ধাক্কায় ক্ষতিগ্রস্ত পিলার

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে পদ্মা সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী দেওয়ান মো. আব্দুল কাদের বলেন, ‘আমাদের চিঠি দেওয়া হয়েছে। তবে এ ব্যাপারে পরবর্তী করণীয় কি হবে তা পরে জানানো হবে।’

এদিকে, ফেরিঘাট স্থানান্তর পদ্মা সেতুর জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হবে বলে জানিয়েছেন সেতুর নির্বাহী প্রকৌশলী (নদীশাসন) মো. শরফুল ইসলাম সরকার।

তিনি বলেন, ‘২০১৪ সালের ১০ নভেম্বরের চুক্তি অনুসারে নদীশাসন কাজের জন্য চীনা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সিনোহাইড্রো করপোরেশনকে পুরাতন মাওয়া ফেরিঘাট এলাকা বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সালে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানকে ওয়ার্ক অর্ডার দেওয়া হয়। নদীশাসন কাজ শেষে তারা আমাদের ওই জায়গা বুঝিয়ে দেবে। এখন পুরাতন মাওয়া ঘাটে যদি ফেরিঘাট স্থানান্তরের উদ্যোগ নেওয়া হয়, তাহলে দুই-তিন মৌসুম নদীশাসনের কাজ করা যাবে না। কারণ ফেরিঘাট স্থাপন করতে মাটি ভরাট কাজসহ অন্যান্য আনুষঙ্গিক কাজ করতে হবে। সেক্ষেত্রে নদীশাসনের কাজের ড্রেজার, বার্জ পরিবহনে সমস্যা হবে। নদীশাসনের কাজ বন্ধ থাকলে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ক্ষতিপূরণ দাবি করতে পারে। অন্যদিকে যদি দুই-তিন বছর নদীশাসনের কাজ করা না যায় এবং মাওয়া প্রান্তে নদীভাঙন শুরু হয়, তাহলে ঝুঁকির মধ্যে পড়বে পদ্মা সেতু।’

শরফুল ইসলাম সরকার বলেন, ‘ঘাট স্থানান্তর কাজ সম্পন্ন করতে এক বছর সময় লাগবে। পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শেষ হতে লাগবে ১১ মাস। হিসাবে ঘাট স্থানান্তরের কাজ শেষ হওয়ার আগেই পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শেষ হয়ে যাবে।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাবাজার ঘাটকে মাঝিকান্দির ঘাটে স্থানান্তর করা হলে অনেক সুযোগ-সুবিধা দেওয়া লাগবে। ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে নদীশাসন কাজের সুবিধার জন্য প্রায় ১৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে কাঁঠালবাড়ি ঘাট থেকে বাংলাবাজার স্থানান্তর করা হয়েছিল।’

পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা দেয় ফেরি শাহ জালাল

অন্যদিকে, আগামী বছর পদ্মা সেতু উদ্বোধনের কথা। যদি আগামী বছরের মাঝামাঝি সময়ে পদ্মা সেতু যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করা হয়, তাহলে এত টাকা খরচ করে নতুন ঘাট নির্মাণ কতটুকু যৌক্তিক এমন প্রশ্নের জবাবে বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান সৈয়দ মো. তাজুল ইসলাম বলেন, ‘ঘাট সরালে পদ্মা সেতুর নদীশাসন ব্যাহত হবে। এত কোটি টাকা খরচ করে ঘাট স্থানান্তর ঠিক হবে না।’

তিনি বলেন, ‘যেহেতু পদ্মা সেতু একটি গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো সেহেতু তদন্ত কমিটির সুপারিশের প্রেক্ষাপটে ঘাট সরানোর সুপারিশের চিঠি পদ্মা সেতু প্রকল্পের পরিচালক ও নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়সহ বিভিন্ন দফতরে পাঠানো হয়েছে। এখন যদি মন্ত্রণালয় প্রয়োজন মনে করে, তাহলে ঘাট সরানোর সিদ্ধান্ত নেবে। সুপারিশ নাও গ্রহণযোগ্য হতে পারে। সেতু কর্তৃপক্ষ ৪ নম্বর পিলার থেকে ১২ নম্বর পিলার পর্যন্ত ফেরি চলাচলের জন্য নির্ধারণ করে দিয়েছে। ফেরিচালকরা সেদিক দিয়েও সতর্কতার সঙ্গে চলতে পারেন।’

/এএম/

সম্পর্কিত

সিলিন্ডারের দাম নিয়ে বাগবিতণ্ডায় দোকানে আগুন, যুবকের মৃত্যু

সিলিন্ডারের দাম নিয়ে বাগবিতণ্ডায় দোকানে আগুন, যুবকের মৃত্যু

১৫০০ টাকায় ফেরিঘাট থেকে গাজীপুর!

১৫০০ টাকায় ফেরিঘাট থেকে গাজীপুর!

আশুলিয়ায় ১৩ দিনেও খোঁজ মেলেনি শিক্ষকের

আশুলিয়ায় ১৩ দিনেও খোঁজ মেলেনি শিক্ষকের

পুড়ে গেছে ৩৬টি বসতঘর, বেঁচে আছে কবুতরগুলো

পুড়ে গেছে ৩৬টি বসতঘর, বেঁচে আছে কবুতরগুলো

করোনায় চট্টগ্রামে রেকর্ড মৃত্যু, শনাক্ত ১৩১০ জন

আপডেট : ২৭ জুলাই ২০২১, ০৮:৫৯

ঈদের পর চট্টগ্রামে করোনায় মৃত্যু ও শনাক্তের হার বেড়েছে। মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) একদিনে চট্টগ্রামে সর্বোচ্চ ১৮ জনের মৃত্যুর তথ্য জানানো হয়। নগরীর বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তারা মারা যান। সিভিল সার্জন সেখ ফজলে রাব্বি এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। একই সময়ে চট্টগ্রামে নতুন করে আরও এক হাজার ৩১০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে বলেও জানান তিনি।  

গত বছরের ৪ এপ্রিল চট্টগ্রামে প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের পর চট্টগ্রামে একদিনে এটিই সর্বোচ্চ মৃত্যু। এর আগে গত ২০ জুলাই চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত হয়ে একদিনে সর্বোচ্চ ১৫ জন মারা যান। ওই ঘটনার সাত দিনের মাথায় আজ ১৮ জনের মৃত্যুর তথ্য জানানো হয়।

সেখ ফজলে রাব্বি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, গত ২৪ ঘন্টায় চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এটি এখন পর্যন্ত চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত হয়ে একদিনে সর্বোচ্চ রোগীর মারা যাওয়ার ঘটনা। অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন এক হাজার ৩১০ জন। এ নিয়ে চট্টগ্রামে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৭৭ হাজার ৫২১ জন। এর মধ্যে ৫৮ হাজার ৩২৩ জন চট্টগ্রাম নগরীর। বাকি ১৯ হাজার ১৯৮ জন বিভিন্ন উপজেলার।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামের ১০টি ল্যাবে তিন হাজার ৩৮৯ টি নমুনা পরীক্ষায় এক হাজার ৩১০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ২২৫টি, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেস (বিআইটিআইডি) ল্যাবে ৫০৬টি, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ৩০৭টি এবং চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় ল্যাবে ৩৪৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। 

এর মধ্যে চবি ল্যাবে ১২৩ জন বিআইটিআইডি ল্যাবে ১৭৫ জন, চমেক ল্যাবে ১৩৪ জন এবং সিভাসু ল্যাবে ১৫০ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এছাড়া এদিন এক হাজার ২৯০টি অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় ৪২৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

অন্যদিকে বেসরকারি ইমপেরিয়াল হাসপাতালে ৪৫৬ টি নমুনা পরীক্ষায় ১৭৭ জন, শেভরন হাসপাতাল ল্যাবে ১৪১টি নমুনা পরীক্ষায় ৬৮ জন, চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতালে ৬৩টি নমুনা পরীক্ষা করে ২৮ জন এবং মেডিক্যাল সেন্টার হাসপাতালে ৪৪টি নমুনা পরীক্ষায় ২৩ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চট্টগ্রামের ১২টি নমুনা পরীক্ষা করে তিন জনের করোনা শনাক্ত হয়।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

রাজশাহী মেডিক্যালে ২৭ দিনে ৪৭৪ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে ২৭ দিনে ৪৭৪ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ১৯ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ১৯ মৃত্যু

সর্বশেষ

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

ঈদের আগের লকডাউনে বেশি কঠোর ছিল পুলিশ

ঈদের আগের লকডাউনে বেশি কঠোর ছিল পুলিশ

রাজশাহী মেডিক্যালে ২৭ দিনে ৪৭৪ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে ২৭ দিনে ৪৭৪ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ১৯ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ১৯ মৃত্যু

ভালো নেই নেত্রকোনার মিলন বয়াতি

ভালো নেই নেত্রকোনার মিলন বয়াতি

ফেরিঘাট সরানো পদ্মা সেতুর জন্য ঝুঁকিপূর্ণ: প্রকৌশলী

ফেরিঘাট সরানো পদ্মা সেতুর জন্য ঝুঁকিপূর্ণ: প্রকৌশলী

করোনায় চট্টগ্রামে রেকর্ড মৃত্যু, শনাক্ত ১৩১০ জন

করোনায় চট্টগ্রামে রেকর্ড মৃত্যু, শনাক্ত ১৩১০ জন

সব মামলায় জামিনের মেয়াদ আরও এক দফা বাড়লো

সব মামলায় জামিনের মেয়াদ আরও এক দফা বাড়লো

সরকার স্টার্টআপ সংস্কৃতি গড়ে তুলতে নতুন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে: পলক

সরকার স্টার্টআপ সংস্কৃতি গড়ে তুলতে নতুন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে: পলক

বেলগ্রেডে বঙ্গবন্ধুর ব্যস্ত দিন

বেলগ্রেডে বঙ্গবন্ধুর ব্যস্ত দিন

আত্মহত্যা বাড়ছে মার্কিন বাহিনীতে, উদ্বেগে পেন্টাগন প্রধান

আত্মহত্যা বাড়ছে মার্কিন বাহিনীতে, উদ্বেগে পেন্টাগন প্রধান

এবার লখনৌ অবরোধের হুঁশিয়ারি ভারতীয় কৃষকদের

এবার লখনৌ অবরোধের হুঁশিয়ারি ভারতীয় কৃষকদের

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

করোনায় চট্টগ্রামে রেকর্ড মৃত্যু, শনাক্ত ১৩১০ জন

করোনায় চট্টগ্রামে রেকর্ড মৃত্যু, শনাক্ত ১৩১০ জন

লকডাউনে কাদের মির্জার চা-চক্রের আয়োজন

লকডাউনে কাদের মির্জার চা-চক্রের আয়োজন

টেকনাফের প্রধান সড়কে বন্যহাতি

টেকনাফের প্রধান সড়কে বন্যহাতি

আমেরিকায় যাওয়ার আগে ‘শান্তি প্রতিষ্ঠার’ ডাক কাদের মির্জার

আমেরিকায় যাওয়ার আগে ‘শান্তি প্রতিষ্ঠার’ ডাক কাদের মির্জার

সম্পত্তি নিয়ে বিরোধে ৮ জনকে কুপিয়ে জখম

সম্পত্তি নিয়ে বিরোধে ৮ জনকে কুপিয়ে জখম

সংসদ সদস্য আঞ্জুম সুলতানা সীমা করোনায় আক্রান্ত

সংসদ সদস্য আঞ্জুম সুলতানা সীমা করোনায় আক্রান্ত

রোগীকে ভর্তি না নেওয়ায় চিকিৎসককে পেটালেন স্বজনরা

রোগীকে ভর্তি না নেওয়ায় চিকিৎসককে পেটালেন স্বজনরা

© 2021 Bangla Tribune