X
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর জয়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আদালতে মমতা

আপডেট : ১৮ জুন ২০২১, ০১:৩৬

নন্দীগ্রাম বিধানসভার ফল নিয়ে এবার আদালতে গেলেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গণনায় কারচুপিসহ একাধিক অভিযোগ তুলে মামলা করেছেন তিনি। শুক্রবার বেলা ১১টা নাগাদ কলকাতা হাই কোর্টে বিচারপতি কৌশিক চন্দের বেঞ্চে এই মামলার শুনানির সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গেছে।

গত ২ মে ভোটের ফল প্রকাশের দিনই মমতা বলেছিলেন, নন্দীগ্রামের ফল নিয়ে আদালতে যাবেন। কিন্তু কবে যাবেন, সে ব্যাপারে তখন কিছু জানাননি।

ভোট গণনার দিন টান টান উত্তেজনায় প্রথমে খবর চাউর হয়, ১২শ’ ভোটে নন্দীগ্রামে জয়ী হয়েছেন মমতা। তার ঠিক কিছুক্ষণ পরেই আবার খবর আসে, নন্দীগ্রামে মমতা নয়, জিতেছেন শুভেন্দু। এক হাজার ৯০০-এরও কিছু বেশি ভোটের ব্যবধানে তিনি জিতেছেন নন্দীগ্রামে। পরে শুভেন্দুকে জয়ী ঘোষণা করেন রিটার্নিং অফিসার। তখন থেকেই গণনায় কারচুপির অভিযোগ তুলেছে তৃণমূল। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে এবার নন্দীগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রে পুর্নগণনার দাবি জানালেন মমতা।

গণনায় কারচুপির অভিযোগে একাধিক বিষয় তুলে ধরা হয়েছে তৃণমূলের তরফে। গণনার সময়ে দুই ঘণ্টার জন্য সার্ভার চলে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছিল। তা নিয়ে বার বার প্রশ্ন তুলেছে জোড়াফুল শিবির। এ ছাড়াও মমতা ১২শ’ ভোটে জিতে গেছেন; এমন খবর প্রকাশ্যে আসার পরও নতুন করে গণনা করে শুভেন্দুকে জয়ী ঘোষণার বিষয়টি ভালো চোখে দেখেনি কংগ্রেস। শুধু তাই নয়, মোবাইলে একটি মেসেজ দেখিয়ে মমতা সাংবাদিকদের সামনে বলেছিলেন, ‘একজনের কাছ থেকে এসএমএস পেয়েছি। নন্দীগ্রামের এক রিটার্নিং অফিসার জানিয়েছেন, বন্দুকের নলের মুখে কাজ করতে হচ্ছে। তিনি যদি পুনর্গণনার নির্দেশ দেন, তাহলে তার প্রাণ সংশয় হতে পারে। নন্দীগ্রামে মেশিন পাল্টে দেওয়া হয়েছে।’

শুভেন্দু কিন্তু ভোটের ফল বেরুনোর পর থেকেই মমতাকে লাগাতার আক্রমণ করে এসেছেন। মমতা ভোটে হেরে মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন, এসব বলেও কটাক্ষ করেছেন তাকে। জোড়াফুল শিবির শুভেন্দুর পাল্টা নানা কথা বললেও মমতা এসব নিয়ে তেমন করে মুখ খোলেননি। তবে এবার তিনি পূর্ব ঘোষণা মতো আদালতের শরণাপন্ন হলেন।

তৃণমূল কংগ্রেসের প্রবীণ এমপি সৌগত রায় বলেছেন, ‘নির্বাচন নিয়ে যদি কারও অভিযোগ থাকে তাহলে একমাত্র উপায় হচ্ছে জনপ্রতিনিধিত্বমূলক আইন অনুসারে ইলেকশন পিটিশন করা। নিয়ম হচ্ছে ভোট প্রক্রিয়া শেষে দেড় মাসের মধ্যে এই পিটিশন জমা দিতে হয়। হাইকোর্টে এই ধরনের মামলার শুনানি শুরু হলে টানা শুনানি চলে। মুখ্যমন্ত্রী আগেই বলেছিলেন গণনা নিয়ে তার অভিযোগ আছে। সঙ্গে অন্যান্য অভিযোগ আছে। নিয়ম মেনেই তিনি দেড় মাসের মধ্যে সেই পিটিশন জমা দিয়েছেন। ২ মে ভোটের ফলাফল বেরিয়েছে। ১৭ জুন দেড় মাসের মেয়াদ শেষ হয়েছে। তার আগেই পিটিশন দায়ের করায় শুক্রবার থেকে মামলা শুরু হয়ে যাচ্ছে। মুখ্যমন্ত্রী যে ঘোষণা দিয়েছিলেন সেই প্রতিশ্রুতি মতোই তিনি কাজ করেছেন।’

বিজেপি-র মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য বলেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মনের কোণের গোপন ব্যথা প্রকাশ হয়েছে আদালতে যাওয়ার ফলে। একটা সময়ে ভারতবর্ষের সবচেয়ে ছোট দলের এমপি দেবেগৌড়া প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন। তখন সবচেয়ে বড় দল বিরোধী দল ছিল। এটাই ভারতীয় গণতন্ত্রের উৎকর্ষ। এটা মেনে নেওয়া উচিত।’

তিনি আরও বলেন, ‘ভারতীয় গণতন্ত্রের নিয়ম মেনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হেরেও মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন। অন্য দিকে, শুভেন্দু জিতেও বিরোধী দলনেতা হয়েছেন। এটাই গণতন্ত্রের নিয়ম। এটা মেনে নেওয়া উচিত।’

বিজেপির আইটি সেলের সর্বভারতীয় প্রধান অমিত মালব্য টুইটে কটাক্ষ বলেন, ‘হেরেও জনগণের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে আদালতে গেলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।‘’

/এমপি/

সম্পর্কিত

'ইতিহাসের চরম বিতর্কিত অধ্যায় শেষ হোক': অস্ট্রেলিয়া

'ইতিহাসের চরম বিতর্কিত অধ্যায় শেষ হোক': অস্ট্রেলিয়া

আজেরি সীমান্তে রুশ সেনা চায় আর্মেনিয়া

আজেরি সীমান্তে রুশ সেনা চায় আর্মেনিয়া

আফগানিস্তান নিয়ে চীনের আগ্রহ ইতিবাচক: যুক্তরাষ্ট্র

আফগানিস্তান নিয়ে চীনের আগ্রহ ইতিবাচক: যুক্তরাষ্ট্র

শুধু শুধু বিরক্ত করায় যুবককে পিষে দিলো হাতি (ভিডিও)

শুধু শুধু বিরক্ত করায় যুবককে পিষে দিলো হাতি (ভিডিও)

তালেবান নিয়ন্ত্রিত প্রদেশে প্রবল বন্যায় ১৫০ জনের মৃত্যু

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২২:১৬

আফগানিস্তানের তালেবান শাসিত নূরিস্তান প্রদেশে প্রবল বন্যায় দেড় শতাধিক মানুষের প্রাণহানি হয়েছে। আকস্মিক বন্যায় কমপক্ষে একশ ঘর বিধ্বস্তের খবর জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। বানের পানি ও কাঁদামাটিতে চাপা পড়ে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

বৃহস্পতিবার তুরস্কের সংবামাধ্যম টিরটি তাদের খবরে জানিয়েছে, পাহাড়ের পাদদেশে থাকা বহু ঘর-বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। নিখোঁজদের সন্ধানে এখনও তল্লাশি চালাচ্ছে গ্রামবাসী। 

সেখানে তালেবানের শাসন কায়েম থাকায় আফগান সরকারের কার্যক্রম নেই বললেই চলে। এতে করে কোন ধরনের উদ্ধার তৎপরতা চালাতে পারেনি দেশটির সরকার।

এ বিষয়ে প্রাদেশিক গভর্নরের মুখপাত্র মোহাম্মদ সৈয়দ মোহাম্মদ জানান, পাহাড়ি ঢলের পানি তারদেশ গ্রামের শতাধিক ঘরে ঢুকে পড়ে। ক্ষতিগ্রস্ত অনেক পরিবার পার্শ্ববর্তী কুনার অঞ্চলে আশ্রয় নিয়েছেন।

উদ্ধার কাজের সুযোগ দিতে তালেবানের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে নূরিস্তানের সরকার। তালেবান বলছে, এই এলাকায় মানবাধিকার সংস্থাগুলোকে প্রবেশের সুযোগ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া নিজেরাও উদ্ধারকাজ চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে গোষ্ঠীটি।

/এলকে/

সম্পর্কিত

আফগানিস্তান নিয়ে চীনের আগ্রহ ইতিবাচক: যুক্তরাষ্ট্র

আফগানিস্তান নিয়ে চীনের আগ্রহ ইতিবাচক: যুক্তরাষ্ট্র

আফগানিস্তানের মাটি চীনের বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না: তালেবান

আফগানিস্তানের মাটি চীনের বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না: তালেবান

বলপূর্বক কাবুল দখল করলে তালেবান স্বীকৃতি পাবে না: যুক্তরাষ্ট্র

বলপূর্বক কাবুল দখল করলে তালেবান স্বীকৃতি পাবে না: যুক্তরাষ্ট্র

তালেবানের বিরুদ্ধে জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতাকে হত্যার অভিযোগ

তালেবানের বিরুদ্ধে জনপ্রিয় কৌতুক অভিনেতাকে হত্যার অভিযোগ

অনির্দিষ্টকাল ইরানের সঙ্গে আলোচনা চলতে পারে না: মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২১:৫৮
image

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন বলেছেন ইরানের পারমাণবিক চুক্তিতে ওয়াশিংটনের ফেরা নিয়ে অনির্দিষ্টকাল আলোচনা চলতে পারে না। তবে আলোচনা চালিয়ে যেতে সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছে ওয়াশিংটন। বৃহস্পতিবার কুয়েত সফরের সময় মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা কূটনীতির প্রতি প্রতিশ্রুতিশীল কিন্তু এই প্রক্রিয়া অনির্দিষ্টকাল চলতে পারে না।’ কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

২০১৫ সালে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, ফ্রান্স, জার্মানি, রাশিয়া ও যুক্তরাজ্যের সঙ্গে ইরানের একটি পারমাণবিক চুক্তি স্বাক্ষর হয়। ওই চুক্তির শর্ত অনুযায়ী, তেহরান তার ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ কমিয়ে আনার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক পরিদর্শকদের পারমাণবিক প্রকল্প এলাকায় প্রবেশ করতে দেবে বলে একমত হয়েছিল। এর বিনিময়ে তেহরানের ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞাগুলো প্রত্যাহার করা হয়। ওই চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল ওবামা আমলে। তবে যুক্তরাষ্ট্রে ক্ষমতার পালাবদলের পর এ ইস্যুতে কঠোর অবস্থানে যান তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি ইরানকে নতুন একটি চুক্তিতে আসার জন্য আলোচনা করতে চাপ দেন। একইসঙ্গে এই চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে সরিয়ে নিয়ে ট্রাম্প ইরানের ওপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা পুনর্বহাল করেন।

জো বাইডেন প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব নেওয়ার পর এই বছরের এপ্রিল থেকে ওই চুক্তিতে ফিরতে ভিয়েনায় আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। ইরানসহ চুক্তিতে থাকা বাকি পক্ষগুলোর সঙ্গে আলোচনা চলছে। তবে এই আলোচনায় কোনও অগ্রগতি না হওয়ায় খানিক হতাশ হয়ে পড়েছে ওয়াশিংটন কর্তৃপক্ষ। কুয়েত সফরের সময় মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন বলেন, ‘আমরা দেখতে চাই ইরান ভিয়েনায় আলোচনা চালিয়ে যেতে সম্পূর্ণ প্রস্তুত রয়েছে। বল ইরানের কোর্টে রয়েছে।’

ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির সরকার বারবারই বলেছেন চুক্তিতে ফেরার আগে ওয়াশিংটনকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে প্রথম পদক্ষেপ নিতে হবে। তবে ইরানের নতুন নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি আগামী মাসে দায়িত্ব নেওয়ার আগে কোনও চুক্তির সম্ভাবনা খুবই কম। রাইসি অতি রক্ষণশীল হলেও পারমাণবিক আলোচনার প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন।

/জেজে/

সম্পর্কিত

বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের কাছে রকেট হামলা

বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের কাছে রকেট হামলা

প্রথমবারের মতো কাতারে অনুষ্ঠিত হবে আইনসভার নির্বাচন

প্রথমবারের মতো কাতারে অনুষ্ঠিত হবে আইনসভার নির্বাচন

ভূমিকম্পের পর আলাস্কা-হাওয়াইতে সুনামির সতর্কতা

ভূমিকম্পের পর আলাস্কা-হাওয়াইতে সুনামির সতর্কতা

আফগানিস্তান নিয়ে চীনের আগ্রহ ইতিবাচক: যুক্তরাষ্ট্র

আফগানিস্তান নিয়ে চীনের আগ্রহ ইতিবাচক: যুক্তরাষ্ট্র

করোনার 'সুপার স্প্রেডার' রাষ্ট্র হওয়ার পথে মিয়ানমার

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২১:৪৩

সংক্রমণ বৃদ্ধির পাশাপাশি জান্তা বিরোধী বিক্ষোভসহ নানা কারণে মিয়ানমার কোভিডের ‘সুপার স্প্রেডার’ রাষ্ট্রে পরিণত হতে পারে। এ অবস্থায় দেশটিতে অবিলম্বে যুদ্ধবিরতি কার্যকর করতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদকে আহ্বান জানিয়েছেন সংস্থাটির বিশেষ দূত টম অ্যান্ড্রুজ।

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দেশেটিতে করোনার সংক্রমণ হু হু করে বাড়ছে, এমন খবর দিচ্ছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়র্টাসহ কয়েকটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ থেকেই সংক্রমণ আরও ছড়াচ্ছে।

খবরে বলা হয়েছে, মিয়ানমারে রাজনৈতিক সংকটের ফলে দেখা দিয়েছে অর্থনৈতিক মন্দা। প্রয়োজনের তুলনায় স্বল্প পরিসরে চলছে ভ্যাকসিন কার্যক্রম। কিন্তু করোনার পরীক্ষা কার্যক্রমেও ধসে নেমেছে। একইসঙ্গে হাসপাতালগুলোতে আছে চিকিৎসকের সংকট।

এ বিষয়ে জাতিসংঘের বিশেষ দূত জানান, সেনা সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ কর্মসূচির অংশ হিসেবে সরকারি হাসপাতালের চিকিৎসকরা দায়িত্ব পালন বন্ধ রেখেছেন। সরকারের সহিংস কর্মকাণ্ড ও গ্রেপ্তারের হুমকির কারণে তারা গোপনে ব্যক্তিগতভাবে রোগীদের চিকিৎসা দিচ্ছেন। তবে কিন্তু এটি সামান্য।

টম অ্যান্ড্রুজ বলেন, মিয়ানমারজুড়ে বিভিন্ন শহরে অক্সিজেন, মেডিকেল সরঞ্জাম ও ওষুধের তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। বাড়ির সামনে হলুদ ও সাদা পতাকা ঝুলিয়ে রাখছে অনেকে। এর অর্থ, তাদের খাবার অথবা ওষুধের প্রয়োজন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমজুড়ে সাহায্যের জন্যে হাহাকার চলছে। সরকারের বিরুদ্ধে অক্সিজেনের সংকট তৈরি করার অভিযোগ তুলেছেন বাসিন্দরা।

তার মতে, দেশটির প্রকৃত পরিস্থিতি কেমন তার সঠিক তথ্য পাওয়া কঠিন। সামরিক শাসনের কারণে খবর পাওয়া জটিল। এমনকি করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার কেমন তার সঠিক পরিসংখ্যানও নেই। ফলে রাজনৈতিক ও স্বাস্থ্য ব্যবস্থার ভয়াবহ সংকটের পথে রয়েছে মিয়ানমার। তিনি আশঙ্কা করছেন, সুপার-স্প্রেডার রাষ্ট্রে পরিণত হলে এই অঞ্চলে আরও বেশি দুর্ভোগ সৃষ্টি হতে পারে। 

এদিকে জান্তা সরকার বলছে, গত পহেলা জুন থেকে দেশটিতে সাড়ে চার হাজারের বেশি মানুষ করোনায় মারা গেছেন।

/এলকে/

সম্পর্কিত

করোনায় মৃতের সংখ্যা ৪২ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনায় মৃতের সংখ্যা ৪২ লাখ ছাড়িয়েছে

টিকা নিলেও সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা, মাস্ক পরার পরামর্শ সিডিসি’র

টিকা নিলেও সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা, মাস্ক পরার পরামর্শ সিডিসি’র

তিনবার করোনায় আক্রান্ত ভারতীয় চিকিৎসক, ২ বার টিকা নেওয়ার পর

তিনবার করোনায় আক্রান্ত ভারতীয় চিকিৎসক, ২ বার টিকা নেওয়ার পর

করোনা টিকার মিশ্র ডোজ নিয়ে গবেষণায় সুখবর

করোনা টিকার মিশ্র ডোজ নিয়ে গবেষণায় সুখবর

বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের কাছে রকেট হামলা

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২১:০০
image

ইরাকের রাজধানী বাগদাদের সুরক্ষিত গ্রিন জোনে মার্কিন দূতাবাসের কাছে রকেট হামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোরে এই হামলা চালানো হয়। তবে এতে কেউ হতাহত বা কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, ইরাকি প্রধানমন্ত্রী মুস্তফা আল-খাদিমি ওয়াশিংটন সফর থেকে ফেরার দিনেই এই হামলার ঘটনা ঘটলো।

গত সোমবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সঙ্গে হোয়াইট হাউজে সাক্ষাৎ করেন ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মুস্তফা আল-খাদিমি। ওই বৈঠকে ইরাক থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বাইডেন।

গত কয়েক মাস ধরে নিয়মিতভাবে ইরাকে মার্কিন স্বার্থে হামলা অব্যাহত রয়েছে। এসব হামলার জন্য ইরান সমর্থিত বিভিন্ন গোষ্ঠীকে দায়ী করে আসছে নিরাপত্তা সংস্থাগুলো। তবে আল-খাদেমির ওয়াশিংটন সফরের আগে এসব হামলার পরিমাণ কমে আসে।

ইরাকের এক ঊর্ধ্বতস নিরাপত্তা কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার চালানো হামলায় রকেট দুইটি বাগদাদের পূর্বাঞ্চলের শিয়া অধ্যুষিত একটি এলাকা থেকে ছোড়া হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে মনে হচ্ছে এগুলো যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস লক্ষ্য করে ছোড়া হয়েছিল, তবে ‘টার্গেটে’ পৌঁছাতে পারেনি। একটি রকেট গ্রিন জোনের ভেতরের পার্কিং লটে আঘাত হেনেছে, অন্যটি পড়েছে কাছাকাছি একটি খালি জায়গায়।

এই মাসের শুরুতে ইরাক ও সিরিয়ায় মার্কিন কূটনীতিক ও বাহিনীর সদস্যদের ওপর তিন দফা রকেট ও ড্রোন হামলা হয়। এর মধ্যে এক হামলায় একটি বিমান ঘাঁটিতে ১৪টি রকেট আছড়ে পড়ে দুই মার্কিন সেনা আহতও হয়।

কোনো গোষ্ঠী বৃহস্পতিবারের হামলার দায় স্বীকার না করলেও ইরান সমর্থিত গোষ্ঠী এ রকেট হামলার পেছনে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

/জেজে/

সম্পর্কিত

অনির্দিষ্টকাল ইরানের সঙ্গে আলোচনা চলতে পারে না: মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অনির্দিষ্টকাল ইরানের সঙ্গে আলোচনা চলতে পারে না: মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রথমবারের মতো কাতারে অনুষ্ঠিত হবে আইনসভার নির্বাচন

প্রথমবারের মতো কাতারে অনুষ্ঠিত হবে আইনসভার নির্বাচন

চুরি হওয়া প্রত্ন নিদর্শন ইরাককে ফিরিয়ে দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

চুরি হওয়া প্রত্ন নিদর্শন ইরাককে ফিরিয়ে দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

প্রথমবারের মতো কাতারে অনুষ্ঠিত হবে আইনসভার নির্বাচন

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২০:১৭
image

কাতারে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আইনসভার নির্বাচন। দেশটির আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি এই সংক্রান্ত একটি আইনের অনুমোদন দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার তার কার্যালয় থেকে জানানো হয়েছে, আগামী অক্টোবরে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

নতুন অনুমোদিত আইন অনুযায়ী ৪৫ সদস্যের শুরা কাউন্সিলের ৩০ সদস্য নির্বাচিত হবেন। বাকি এক তৃতীয়াংশ সদস্য মনোনীত করা অব্যাহত রাখবেন দেশটির আমির। মনোনীত ও নির্বাচিত সদস্যদের অধিকার ও দায়িত্ব একই থাকবে। তারা সরকারের সাধারণ নীতি ও বাজেট অনুমোদন করবেন। এছাড়াও নির্বাহী কর্তৃপক্ষের উপর তাদের নিয়ন্ত্রণ থাকবে।

কাতারের শুরা কাউন্সিলের সদস্যরা জনগণ সংক্রান্ত ইস্যুতে প্রস্তাব সরকারকে দিতে পারবে। কাতারের আমিরের কার্যালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, শুরা কাউন্সিলের নির্বাচন নাগরিকদের অংশগ্রহণ নিশ্চিতের লক্ষ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ।

কাতারের প্রধানমন্ত্রী শেখ খালিদ বিন খলিফা আল থানি জানিয়েছেন, পুরো দেশকে ৩০টি নির্বাচনি জেলায় ভাগ করা হবে। প্রতিটি জেলা থেকে একজন করে প্রতিনিধি নির্বাচিত হবেন।

নতুন আইন অনুযায়ী ১৮ বছরের বেশি বয়সী কাতারের সব নাগরিক ভোট দিতে পারবেন। তবে যেসব নাগরিকের দাদার জন্ম কাতারে হয়নি তারা ভোট দিতে পারবেন না। প্রার্থীকে অবশ্যই কাতারি বংশোদ্ভূত এবং অন্তত ৩০ বছর বয়সী হতে হবে।

কাতারে এখনই মিউনিসিপ্যাল নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে। তবে দেশটিতে সব রাজনৈতিক দল নিষিদ্ধ। ২০০৩ সালে গণভোটের মাধ্যমে অনুমোদিত হয় দেশটির নতুন সংবিধান।

/জেজে/

সম্পর্কিত

অনির্দিষ্টকাল ইরানের সঙ্গে আলোচনা চলতে পারে না: মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অনির্দিষ্টকাল ইরানের সঙ্গে আলোচনা চলতে পারে না: মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের কাছে রকেট হামলা

বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের কাছে রকেট হামলা

চুরি হওয়া প্রত্ন নিদর্শন ইরাককে ফিরিয়ে দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

চুরি হওয়া প্রত্ন নিদর্শন ইরাককে ফিরিয়ে দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

ইসরায়েলি কাস্টডিতে ফিলিস্তিনিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

ইসরায়েলি কাস্টডিতে ফিলিস্তিনিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

সর্বশেষ

১০ মিনিটে ২ ডোজ টিকা নেওয়া ব্যক্তি পর্যবেক্ষণে

১০ মিনিটে ২ ডোজ টিকা নেওয়া ব্যক্তি পর্যবেক্ষণে

বিশ্বকাপ জিততে চান নেইমার-এমবাপ্পে

বিশ্বকাপ জিততে চান নেইমার-এমবাপ্পে

আইসিইউ খালি নেই রংপুর বিভাগের করোনা হাসপাতালে

আইসিইউ খালি নেই রংপুর বিভাগের করোনা হাসপাতালে

‘মানবপাচার মামলার প্রসিকিউশনে ত্রুটিগুলোর দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে’

‘মানবপাচার মামলার প্রসিকিউশনে ত্রুটিগুলোর দিকে লক্ষ্য রাখতে হবে’

তালেবান নিয়ন্ত্রিত প্রদেশে প্রবল বন্যায় ১৫০ জনের মৃত্যু

তালেবান নিয়ন্ত্রিত প্রদেশে প্রবল বন্যায় ১৫০ জনের মৃত্যু

সৌদি আরব থেকে ফেরত পাঠালে হজ-ওমরাহ ছাড়া প্রবেশ করা যাবে না

সৌদি আরব থেকে ফেরত পাঠালে হজ-ওমরাহ ছাড়া প্রবেশ করা যাবে না

বিনা দোষে মিনুর কারাভোগ, কুলসুম ও তার সহযোগী রিমান্ডে 

বিনা দোষে মিনুর কারাভোগ, কুলসুম ও তার সহযোগী রিমান্ডে 

জেলের বড়শিতে বিশাল বোয়াল

জেলের বড়শিতে বিশাল বোয়াল

অনির্দিষ্টকাল ইরানের সঙ্গে আলোচনা চলতে পারে না: মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

অনির্দিষ্টকাল ইরানের সঙ্গে আলোচনা চলতে পারে না: মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বিয়ের চার দিনের মাথায় কিশোরীর ‘আত্মহত্যা’

বিয়ের চার দিনের মাথায় কিশোরীর ‘আত্মহত্যা’

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় র‌্যাবের অভিযান

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় র‌্যাবের অভিযান

করোনার 'সুপার স্প্রেডার' রাষ্ট্র হওয়ার পথে মিয়ানমার

করোনার 'সুপার স্প্রেডার' রাষ্ট্র হওয়ার পথে মিয়ানমার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

'ইতিহাসের চরম বিতর্কিত অধ্যায় শেষ হোক': অস্ট্রেলিয়া

'ইতিহাসের চরম বিতর্কিত অধ্যায় শেষ হোক': অস্ট্রেলিয়া

আজেরি সীমান্তে রুশ সেনা চায় আর্মেনিয়া

আজেরি সীমান্তে রুশ সেনা চায় আর্মেনিয়া

আফগানিস্তান নিয়ে চীনের আগ্রহ ইতিবাচক: যুক্তরাষ্ট্র

আফগানিস্তান নিয়ে চীনের আগ্রহ ইতিবাচক: যুক্তরাষ্ট্র

শুধু শুধু বিরক্ত করায় যুবককে পিষে দিলো হাতি (ভিডিও)

শুধু শুধু বিরক্ত করায় যুবককে পিষে দিলো হাতি (ভিডিও)

আমি লিডার নই, ক্যাডার: দিল্লিতে মমতা

আমি লিডার নই, ক্যাডার: দিল্লিতে মমতা

আফগানিস্তানের মাটি চীনের বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না: তালেবান

আফগানিস্তানের মাটি চীনের বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না: তালেবান

বলপূর্বক কাবুল দখল করলে তালেবান স্বীকৃতি পাবে না: যুক্তরাষ্ট্র

বলপূর্বক কাবুল দখল করলে তালেবান স্বীকৃতি পাবে না: যুক্তরাষ্ট্র

করোনা কবলিত মালয়েশিয়ায় বিধিনিষেধ শিথিলে ক্ষোভ

করোনা কবলিত মালয়েশিয়ায় বিধিনিষেধ শিথিলে ক্ষোভ

© 2021 Bangla Tribune