X
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

শতাধিক মানুষকে বোকা বানিয়ে ২০ লাখ টাকা নিয়েছেন তিনি

আপডেট : ২০ জুন ২০২১, ২৩:১১

আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) সেজে প্রতারণার অভিযোগে মো. মনজিল নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

শনিবার (১৯ জুন) গভীর রাতে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা মডেল থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানিয়েছেন ডবলমুরিং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন। রবিবার (২০ জুন) আদালতের মাধ্যমে তাকে তিন দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ।

ওসি মোহাম্মদ মহসীন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, মনজিল বড় ধরনের প্রতারক। তিনি মানুষকে কোটি টাকার ঋণ প্রদানের লোভ দেখিয়ে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। অনলাইনে চাকরি দেওয়ার বিজ্ঞাপন দিয়েও জামানতের নামে টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। তিনি বিভিন্ন জেলায় ঘুরে ঘুরে এমন প্রতারণা করেন। ২০২০ সালের ১ জুন থেকে ২১ জুলাই পর্যন্ত চট্টগ্রামে এ ধরনের প্রতারণামূলক কার্যক্রম চালানোর পর পালিয়ে সিলেট চলে যান। সিলেটেও একই কায়দায় প্রতারণা করেছেন। চক্রের সবাই গ্রেফতার হলেও তিনি ধরাছোঁয়ার বাইরে ছিলেন।

পুলিশ জানায়, মনজিল মূলত মুদি ব্যবসায়ী ছিলেন। লেখাপড়া করেন পঞ্চম শ্রেণি পর্যন্ত। মুদি দোকানের ব্যবসায় মন্দা দেখা দিলে ঢাকায় একটি ট্রাভেল এজেন্সিতে চাকরি নেন। চাকরির সুবাদে পরিচয় হয় এক আদম ব্যবসায়ীর সঙ্গে। আদম ব্যবসায়ীর পরামর্শে খুলে বসেন আর্থিক প্রতিষ্ঠান। নাম দেন বি.এস.এম. বিজনেস অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল লজিস্টিকস কোম্পানি লিমিটেড। নিজেই হন ওই প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। চট্টগ্রামের আগ্রাবাদ শেখ মুজিব রোডের আগ্রাবাদ সেন্টারের চারতলায় করেন অফিস। কারও যেন সন্দেহ না হয় সেজন্য বোর্ড মেম্বার ও অর্গানোগ্রামও নির্ধারণ করেন। সেই অর্গানোগ্রাম অনুযায়ী সাইফুল ইসলামকে (৩৬) চেয়ারম্যান, মো. মামুনুর রশিদ চৌধুরীকে (২৮) জিএম, নাহিদুল ইসলামকে (৩০) এজিএম ও সাগরিকাকে (২৮) অডিট অফিসার হিসেবে দেখানো হয়।

মাঠপর্যায়ে সদস্য সংগ্রহ ও ঋণ বিতরণের জন্য নিয়োগ দেওয়া হয় এরিয়া ম্যানেজার। তারাই মূলত বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে ঋণের নামে জামানত সংগ্রহ করে। পাঁচ লাখের জন্য ১০ হাজার টাকা, ১০ লাখের জন্য ১৫ হাজার টাকা, ১১ লাখ থেকে ৩০ লাখের জন্য ২৩ হাজার টাকা, ৩১ লাখ থেকে ৫০ লাখের জন্য ৪৩ হাজার টাকা এবং ৫১ লাখ থেকে এক কোটির জন্য ৮২ হাজার টাকা সার্ভিস চার্জ নেওয়া হয়। সঙ্গে আছে প্রোফাইল খরচ।

এভাবে শতাধিক মানুষকে বোকা বানিয়ে ৩২ কোটি ৪৫ লাখ টাকা ঋণ দেওয়ার কথা বলে ২০ লাখ ৫১ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যান মনজিল। তবে কিছুদিনের মধ্যেই তার প্রতারণা ধরা পড়ে যায়। মামলাও হয়। ওই মামলায় চেয়ারম্যান গ্রেফতার হলেও অধরা থেকে যান মনজিল। অবশেষে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানা থেকে গ্রেফতার হন তিনিও।

/এএম/

সম্পর্কিত

লকডাউনে মায়ের চেহলাম আয়োজন করায় ছেলেকে জরিমানা

লকডাউনে মায়ের চেহলাম আয়োজন করায় ছেলেকে জরিমানা

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

মোটরসাইকেল চালককে টেনে-হিঁচড়ে ৫ কিলোমিটার নিয়ে গেলো ট্রাকটি

মোটরসাইকেল চালককে টেনে-হিঁচড়ে ৫ কিলোমিটার নিয়ে গেলো ট্রাকটি

যার সাজা খেটেছিলেন মিনু, সেই কুলসুম গ্রেফতার

যার সাজা খেটেছিলেন মিনু, সেই কুলসুম গ্রেফতার

বিয়ের চার দিনের মাথায় কিশোরীর ‘আত্মহত্যা’

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২১:৪২

শরীয়তপুরের ডামুড্যা উপজেলায় বর পছন্দ না হওয়ায় বিয়ের চার দিনের মাথায় এক কিশোরী (১৫) বিষপানে আত্মহত্যা করেছে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা করেছেন কিশোরীর বাবা।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) দুপুরে উপজেলার ধানকাটি ইউনিয়নের চরপাতালিয়া এলাকার বাড়ি থেকে কিশোরীর লাশ উদ্ধার করা হয়। পরে লাশ মর্গে পাঠায় পুলিশ।

এর আগে সোমবার (২৬ জুলাই) একই ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মোল্লাকান্দি গ্রামের নুর মোহাম্মাদ বেপারির দুবাইপ্রবাসী ছেলে জহিরুল ইসলামের (৩৫) সঙ্গে কিশোরীর বিয়ে হয়।

কিশোরীর চাচাতো ভাই ও প্রতিবেশীরা জানান, স্থানীয় বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী ছিল কিশোরী। উচ্চশিক্ষা গ্রহণের স্বপ্ন ছিল তার। এজন্য বিয়েতে রাজি ছিল না। পরিবারের চাপে বিয়ে করতে বাধ্য হয়েছে। কিন্তু বরের বয়সের বিষয়টি কিশোরীকে জানানো হয়নি। পরে কিশোরী জানতে পারে বরের সঙ্গে ২০ বছর বয়সের ব্যবধান। এজন্য বর পছন্দ হয়নি তার।

বিষয়টি নিয়ে বর ও নিজের পরিবারের লোকজনের সঙ্গে রাগারাগি হয়। সকালে সবার অজান্তে বাড়ির ছাদে বিষপান করে কিশোরী। পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে ডামুড্যা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে কিশোরীর বাবা কোনও কথা বলতে রাজি হননি। তবে তাদের এক ঘনিষ্ঠ আত্মীয় বলেছেন, ‘পরিবারের লোভের কারণে মেয়েটিকে জীবন দিতে হলো।’

ধানকাটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক পিন্টু বলেন, ‘শুনেছি বয়সের ব্যবধানের কারণে স্বামীকে অপছন্দ হওয়ায় মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে।’ 

ডামুড্যা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শরীফ আহম্মেদ বলেন, স্বামীকে অপছন্দ হওয়ায় এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন প্রতিবেশীরা। মেয়ের বাবা থানায় অপমৃত্যু মামলা করেছেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/এএম/

সম্পর্কিত

৭১ বছরের বৃদ্ধের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ায় তরুণীর আত্মহত্যা

৭১ বছরের বৃদ্ধের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ায় তরুণীর আত্মহত্যা

৩ ঘণ্টা পর শিমুলিয়া-বাংলাবাজার ফেরি চলাচল শুরু

৩ ঘণ্টা পর শিমুলিয়া-বাংলাবাজার ফেরি চলাচল শুরু

রাস্তা পার হতে গিয়ে প্রাণ হারালেন স্বামী-স্ত্রী

রাস্তা পার হতে গিয়ে প্রাণ হারালেন স্বামী-স্ত্রী

টিকার নিবন্ধনে জনপ্রতি নেওয়া হয় দেড় হাজার টাকা!

টিকার নিবন্ধনে জনপ্রতি নেওয়া হয় দেড় হাজার টাকা!

লকডাউনে মায়ের চেহলাম আয়োজন করায় ছেলেকে জরিমানা

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২১:২৭

লকডাউন অমান্য করে নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলার বদলকোট ইউনিয়নের পাটোয়ারী বাড়িতে মায়ের চেহলাম অনুষ্ঠান আয়োজন করায় ছেলেকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) বেলা সাড়ে ১২টায় ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে এ জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও চাটখিল উপজেলা  নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এ এস এম আবু সালেহ মোহাম্মদ মোসা এ অভিযান পরিচালনা করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বদলকোট ইউনিয়নের পাটোয়ারী বাড়ির বজলুল রশীদ তার মৃত মায়ের জন্য লকডাউনের মধ্যেও জনসমাগম করে চেহলাম অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছেন। বিষয়টি জানতে পেরে, ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে অভিযোগের সত্যতা পেয়ে আয়োজককে পাঁচ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করে। একইসঙ্গে জনসমাগম না করে রান্না করা খাবার দাওয়াত পাওয়া সবার ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হয়।

আদালত পরিচালনায় সহযোগিতা করে চাটখিল থানার পুলিশ।

/এফআর/

সম্পর্কিত

৭১ বছরের বৃদ্ধের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ায় তরুণীর আত্মহত্যা

৭১ বছরের বৃদ্ধের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ায় তরুণীর আত্মহত্যা

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

মোটরসাইকেল চালককে টেনে-হিঁচড়ে ৫ কিলোমিটার নিয়ে গেলো ট্রাকটি

মোটরসাইকেল চালককে টেনে-হিঁচড়ে ৫ কিলোমিটার নিয়ে গেলো ট্রাকটি

৭১ বছরের বৃদ্ধের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ায় তরুণীর আত্মহত্যা

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২০:৩১

৭১ বছরের বৃদ্ধের সঙ্গে বিয়ে দেওয়ায় আত্মহত্যা করেছেন এক তরুণী। নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলার নিঝুম দ্বীপ ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

বুধবার (২৮ জুলাই) দুপুরে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। লিমা আক্তার নামের ওই তরুণী উপজেলার নিঝুম দ্বীপ ইউনিয়নের মদিনানগর গ্রামের জাফর উদ্দিনের মেয়ে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা থেকে নিঝুম দ্বীপে আসা মো. ননু মিয়ার (৭১) সঙ্গে লিমার বিয়ে দেন তার মা মিনারা বেগম। এ বিয়েতে লিমার কোনও মত ছিল না। কিন্তু তার মা মিনারা বেগম জোরপূর্বক তাকে ওই বৃদ্ধের সঙ্গে বিয়ে দেন। এ নিয়ে মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) সন্ধ্যায় মায়ের সঙ্গে তার ঝগড়া হয়। এরপর রাত সাড়ে ৮টার দিকে পরিবারের অগোচরে বিষপানে আত্মহত্যা করেন লিমা।

তবে মা মিনারা বেগমের দাবি, তার মেয়ে শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকায় বিষপানে আত্মহত্যা করেছে।

নিঝুম দ্বীপ পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সৌরজিৎ বড়ুয়া জানান, খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ ফাঁড়িতে আনা হয়। বুধবার ময়নাতদন্তের জন্য লাশ নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট হাতে এলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

/এফআর/এমওএফ/

সম্পর্কিত

বিয়ের চার দিনের মাথায় কিশোরীর ‘আত্মহত্যা’

বিয়ের চার দিনের মাথায় কিশোরীর ‘আত্মহত্যা’

লকডাউনে মায়ের চেহলাম আয়োজন করায় ছেলেকে জরিমানা

লকডাউনে মায়ের চেহলাম আয়োজন করায় ছেলেকে জরিমানা

ঘরের আড়ায় ঝুলছিল অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ 

ঘরের আড়ায় ঝুলছিল অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর লাশ 

লকডাউনে ছেলের বিয়ের আয়োজন, জরিমানা গুনলেন নারী মেম্বার 

লকডাউনে ছেলের বিয়ের আয়োজন, জরিমানা গুনলেন নারী মেম্বার 

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২০:০২

কুমিল্লায় লকডাউনেও কমছে না করোনার সংক্রমণ। প্রতিদিন বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। সংক্রমণের হার কমাতে কঠোর অবস্থানে রয়েছে জেলা প্রশাসন। বিধিনিষেধ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে প্রতিদিন। ২৩ জুলাই থেকে শুরু হওয়া লকডাউনের ছয় দিনে এক হাজার ২৩৯ মামলায় ১২ লাখ ৬৬ হাজার ৫০ টাকা জরিমানা আদায় করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। 

সবশেষ বুধবার (২৮ জুলাই) ২৮টি অভিযান পরিচালনা করা হয়। জেলা ও ১৭ উপজেলা প্রশাসন বিধিনিষেধ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ২৮টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ১৭০টি মামলা করেছেন। এসব মামলায় ১৭০ ব্যক্তিকে দুই লাখ ৮৯ হাজার ৯০০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। 

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, চলমান কঠোর লকডাউনের ছয় দিনে ২০৬টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন। অভিযানে এক হাজার ২৩৯টি মামলা করা হয়। জেলা প্রশাসনের ছয় জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে জেলা শহরে ২৮টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়। এছাড়া আদর্শ সদর, সদর দক্ষিণ, চান্দিনা, মেঘনা, তিতাস, হোমনা, চৌদ্দগ্রাম লাকসাম, দেবিদ্বার ও মনোহরগঞ্জে একটি করে এবং বুড়িচং, দাউদকান্দি, মুরাদনগর, বরুড়া, নাঙ্গলকোট ও লালমাই দুটি করে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়।

কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেন বলেন, লকডাউনে বিধিনিষেধ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে বুধবার ২৮টি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়েছে। পাশাপাশি জেলা প্রশাসন গত ছয় দিনে একা হাজার ১৩২ গরিব ও অসহায় পরিবারের মাঝে ত্রাণ সহায়তা বিতরণ করেছে। করোনা প্রতিরোধে সরকারের দেওয়া যেকোনও নির্দেশনা পালনে বিধিনিষেধ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

/এএম/

সম্পর্কিত

লকডাউনে মায়ের চেহলাম আয়োজন করায় ছেলেকে জরিমানা

লকডাউনে মায়ের চেহলাম আয়োজন করায় ছেলেকে জরিমানা

মোটরসাইকেল চালককে টেনে-হিঁচড়ে ৫ কিলোমিটার নিয়ে গেলো ট্রাকটি

মোটরসাইকেল চালককে টেনে-হিঁচড়ে ৫ কিলোমিটার নিয়ে গেলো ট্রাকটি

যার সাজা খেটেছিলেন মিনু, সেই কুলসুম গ্রেফতার

যার সাজা খেটেছিলেন মিনু, সেই কুলসুম গ্রেফতার

মোটরসাইকেল চালককে টেনে-হিঁচড়ে ৫ কিলোমিটার নিয়ে গেলো ট্রাকটি

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৯:৪৯

চাঁদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নাসির উদ্দিন নামের এক মোটরসাইকেল চালক নিহত হয়েছেন। ঘাতক ট্রাকটি নাসিরকে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার পথ টেনে-হিঁচড়ে নিয়ে গেছে। পরে ট্রাকের নিচ থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) সকালে চাঁদপুর সদর উপজেলার চাঁনখার বাজারের চাঁদপুর-কুমিল্লা আঞ্চলিক মহাসড়কের এম এম নুরুল হক উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে ঘাতক ট্রাক ও চালককে আটক করেছে পুলিশ।

নিহত নাসির উদ্দিন চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জ উপজেলার ৯নং উত্তর গোবিন্দপুর ইউনিয়নের পূর্ব ধানুয়া গ্রামের মিজি বাড়ির মৃত সোলেমান মিজির ছেলে। তিনি এক ছেলে ও এক কন্যা সন্তানের জনক। কুমিল্লার শাসনগাছা এলাকায় থেকে ঠিকাদারির ব্যবসা করতেন তিনি।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, যশোর থেকে ছেড়ে আসা গাছ বোঝাই একটি ট্রাক চাঁদপুর হয়ে নাঙ্গলকোটের উদ্দেশে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে ট্রাকটি চাঁদখার বাজার এলাকায় এলে ওই পথ দিয়ে যাওয়া একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে ধাক্কা লাগে। এ সময় মোটরসাইকেল চালক নাসির উদ্দিনকে বেপরোয়া ট্রাকটি প্রায় পাঁচ কিলোমিটার টেনে-হিঁচড়ে নিয়ে যায়। কিছুদূর যাওয়ার পর ট্রাকের নিচে দিয়ে মোটরসাইকেলটি বেরিয়ে গেলেও ট্রাকের নিচের কোনও এক স্থানে আটকে যান নাসির।

পরে ঘোষেরহাট এলাকার কয়েকজন সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক ট্রাকের নিচ থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে।

চাঁদপুর সদর মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ইকবাল হোসেন বলেন, সহযোগী পালিয়ে গেলেও চালক গোলাম মোস্তফা ডাবলুকে সিএনজি চালকরা আটক করে রাখেন। চালকের বাড়ি যশোরের মনিরামপুর উপজেলায়। আমরা ঘটনাস্থলে এসে ঘাতক ট্রাক ও চালককে আটক করে থানায় নিয়ে আসি।

এ বিষয়ে চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুর রশিদ বলেন, নিহত নাসির উদ্দিন পেশায় একজন ঠিকাদার ছিলেন। দুর্ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে চাঁদপুর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

/এফআর/

সম্পর্কিত

লকডাউনে মায়ের চেহলাম আয়োজন করায় ছেলেকে জরিমানা

লকডাউনে মায়ের চেহলাম আয়োজন করায় ছেলেকে জরিমানা

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

যার সাজা খেটেছিলেন মিনু, সেই কুলসুম গ্রেফতার

যার সাজা খেটেছিলেন মিনু, সেই কুলসুম গ্রেফতার

ডুবে গেছে বান্দরবানের নিম্নাঞ্চল, পাহাড়ধসের আশঙ্কা

ডুবে গেছে বান্দরবানের নিম্নাঞ্চল, পাহাড়ধসের আশঙ্কা

সর্বশেষ

বিয়ের চার দিনের মাথায় কিশোরীর ‘আত্মহত্যা’

বিয়ের চার দিনের মাথায় কিশোরীর ‘আত্মহত্যা’

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় র‌্যাবের অভিযান

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় র‌্যাবের অভিযান

করোনার 'সুপার স্প্রেডার' রাষ্ট্র হওয়ার পথে মিয়ানমার

করোনার 'সুপার স্প্রেডার' রাষ্ট্র হওয়ার পথে মিয়ানমার

লকডাউনে মায়ের চেহলাম আয়োজন করায় ছেলেকে জরিমানা

লকডাউনে মায়ের চেহলাম আয়োজন করায় ছেলেকে জরিমানা

ফেরি ‘শাহজালাল’ দুর্ঘটনার অনুসন্ধানে চার সদস্যের কমিটি

ফেরি ‘শাহজালাল’ দুর্ঘটনার অনুসন্ধানে চার সদস্যের কমিটি

অসংক্রামক রোগ প্রতিরোধে নীতিমালা প্রণয়নের আহ্বান

অসংক্রামক রোগ প্রতিরোধে নীতিমালা প্রণয়নের আহ্বান

অধস্তন আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কালো ব্যাজ পরিধানের নির্দেশ

অধস্তন আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কালো ব্যাজ পরিধানের নির্দেশ

অবৈধ মজুতদারদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হবে: খাদ্যমন্ত্রী

অবৈধ মজুতদারদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হবে: খাদ্যমন্ত্রী

২৪ ঘণ্টায় ঢাকায় মৃত্যু ৭৬, শনাক্ত ৬৯৯৬

২৪ ঘণ্টায় ঢাকায় মৃত্যু ৭৬, শনাক্ত ৬৯৯৬

শ্রমিক ছাঁটাই এবং কারখানা লে-অফ ঘোষণা না করার অনুরোধ

শ্রমিক ছাঁটাই এবং কারখানা লে-অফ ঘোষণা না করার অনুরোধ

বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের কাছে রকেট হামলা

বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসের কাছে রকেট হামলা

সিনোফার্মের আরও ৩০ লাখ ডোজ টিকা আসছে রাতে

সিনোফার্মের আরও ৩০ লাখ ডোজ টিকা আসছে রাতে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

লকডাউনে মায়ের চেহলাম আয়োজন করায় ছেলেকে জরিমানা

লকডাউনে মায়ের চেহলাম আয়োজন করায় ছেলেকে জরিমানা

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

মোটরসাইকেল চালককে টেনে-হিঁচড়ে ৫ কিলোমিটার নিয়ে গেলো ট্রাকটি

মোটরসাইকেল চালককে টেনে-হিঁচড়ে ৫ কিলোমিটার নিয়ে গেলো ট্রাকটি

যার সাজা খেটেছিলেন মিনু, সেই কুলসুম গ্রেফতার

যার সাজা খেটেছিলেন মিনু, সেই কুলসুম গ্রেফতার

শিক্ষিকাকে যৌন হয়রানির অভিযোগে মাদ্রাসা সভাপতি গ্রেফতার

শিক্ষিকাকে যৌন হয়রানির অভিযোগে মাদ্রাসা সভাপতি গ্রেফতার

ডুবে গেছে বান্দরবানের নিম্নাঞ্চল, পাহাড়ধসের আশঙ্কা

ডুবে গেছে বান্দরবানের নিম্নাঞ্চল, পাহাড়ধসের আশঙ্কা

১৫ দিন ধরে ফাঁকা নেই করোনা ইউনিট, চালু হচ্ছে আরও ৫০ শয্যা

১৫ দিন ধরে ফাঁকা নেই করোনা ইউনিট, চালু হচ্ছে আরও ৫০ শয্যা

নমুনা দিতে এসে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আরেকজনের মৃত্যু

নমুনা দিতে এসে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আরেকজনের মৃত্যু

© 2021 Bangla Tribune