X
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

জার্মানিতে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে রুশ বিজ্ঞানী গ্রেফতার

আপডেট : ২১ জুন ২০২১, ১৮:১১

জার্মান বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মস্কোর কাছে নগদ অর্থের বিনিময়ে স্পর্শকাতর তথ্য পাচারের অভিযোগে একজন রুশ বিজ্ঞানীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার জার্মানির ফেডারেল প্রসিকিউটর এই তথ্য জানিয়েছে। ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি’র এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানা গেছে।

এক বিবৃতিতে গ্রেফতারকৃত রুশ বিজ্ঞানীকে ইলনুর এন বলে উল্লেখ করা হয়েছে। তাকে শুক্রবার কাস্টডিতে নেওয়া হয়েছে। ২০২০ সালের অক্টোবর থেকে রাশিয়ার গোয়েন্দা সংস্থার হয়ে কাজ করার সন্দেহে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

নাম উল্লেখ না করা একটি জার্মান বিশ্ববিদ্যালয়ে ন্যাচারেল সায়েন্সেস ও টেকনোলজি বিভাগে গবেষণা সহকারী হিসেবে গ্রেফতারের আগ পর্যন্ত কর্মরত ছিলেন ইলনুর এন।

প্রসিকিউটরদের ধারণা, ২০২০ সালের অক্টোবর থেকে এ বছরের জুন পর্যন্ত এই রুশ বিজ্ঞানী অন্তত তিনবার রাশিয়ার গোয়েন্দা সংস্থার এক কর্মকর্তার সঙ্গে মিলিত হয়েছেন। দুটি বৈঠকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সংগৃহীত তথ্য পাচারের অভিযোগ আনা হয়েছে।

গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি তথ্য পাচারের বিনিময়ে নগদ অর্থ নিয়েছেন বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। তার বাসা ও কর্মক্ষেত্রে তল্লাশী চালিয়েছে জার্মান কর্তৃপক্ষ।

শনিবার সন্দেহভাজনকে আদালতে হাজির করা হলে কাস্টডিতে রাখার অনুমতি দেন বিচারক।

/এএ/

সম্পর্কিত

ফের সংঘাতে আজারবাইজান-আর্মেনিয়া, যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব মস্কোর

ফের সংঘাতে আজারবাইজান-আর্মেনিয়া, যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব মস্কোর

প্যারিসে কিউবার দূতাবাসে পেট্রোল বোমা হামলা

প্যারিসে কিউবার দূতাবাসে পেট্রোল বোমা হামলা

জার্মানির রাসায়নিক পার্কে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, বহু হতাহত

জার্মানির রাসায়নিক পার্কে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, বহু হতাহত

নাভালনি ও তার ঘনিষ্ঠদের ওয়েবসাইট ব্লক করলো রাশিয়া

নাভালনি ও তার ঘনিষ্ঠদের ওয়েবসাইট ব্লক করলো রাশিয়া

বিমানবন্দরেই করোনার বিশাল হাসপাতাল

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২০:০৫

সংকট কাটিয়ে উঠতে বিমানবন্দরের গুদাম ঘরকে বিশাল হাসপাতালে পরিণত করেছে থাইল্যান্ড। রাজধানীর একটি বিমানবন্দরের গুদাম হাউজে ১৮শ’ শয্যার অস্থায়ী হাসপাতাল গড়ে নজির স্থাপন করেছে দেশটি। বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।

করোনার ধাক্কায় থমকে গেছে থাইল্যান্ডের জনজীবন। অনেকেই এখন থাইল্যান্ডকে করোনার কেন্দ্রবিন্দু অ্যাখ্যা বলছে। ডেল্টার প্রকোপসহ স্থানীয় ভ্যারিয়েন্টেও আক্রান্ত হচ্ছেন অনেকে। হাসপাতালগুলোতে রোগীদের তিল ধারণের ঠাঁই নেই। বেডের জন্য এক হাসপাতাল থেকে অন্য হাসপাতালে ছুটছেন আক্রান্তরা। ভেঙে পড়েছে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা।

করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চাপ সামাল দিতে ব্যাংককের ডন মুয়াং আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আঠারশো শয্যার একটি ফিল্ড হাসপাতাল তৈরি করেছে দেশটির সরকার। এতে পর্যাপ্ত রোগী সেবা পাবে বলে আশা করছে।

হাসপাতালের পরিচালক রেইনথং নান্না জানান, ফিল্ড হাসপাতাল একসঙ্গে অনেক রোগীর চিকিৎসা নিতে পারবেন। হাসপাতালে যেসব রোগীর অবস্থা স্থিতিশীল তাদের চিকিৎসা দেওয়া হবে। আর যাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক তাদের অন্য হাসপাতালে স্থানান্তর করা হবে।

থাইল্যান্ডে টিকা সংকটের কারণে মাত্র ৫ শতাংশ মানুষকে পুরোপুরি ভ্যাকসিনের আওতায় আনা গেছে। ফলে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রেণ আনা কঠিন হয়ে পড়ছে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৪ হাজার মানুষ কোভিডে মারা গেছেন।

/এলকে/

সম্পর্কিত

করোনার আঁতুড়ঘর চীনেই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের প্রকোপ

করোনার আঁতুড়ঘর চীনেই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের প্রকোপ

করোনায় মৃতের সংখ্যা ৪২ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনায় মৃতের সংখ্যা ৪২ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনা কবলিত মালয়েশিয়ায় বিধিনিষেধ শিথিলে ক্ষোভ

করোনা কবলিত মালয়েশিয়ায় বিধিনিষেধ শিথিলে ক্ষোভ

বিধিনিষেধ শিথিলে ভ্যাকসিন প্রতিরোধী স্ট্রেইন-এর আশঙ্কা: গবেষণা

বিধিনিষেধ শিথিলে ভ্যাকসিন প্রতিরোধী স্ট্রেইন-এর আশঙ্কা: গবেষণা

'ইতিহাসের চরম বিতর্কিত অধ্যায় শেষ হোক': অস্ট্রেলিয়া

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৯:০৩

চুরি যাওয়া ১৪টি মূল্যবান প্রত্ন সামগ্রী অবশেষে ভারতকে ফিরিয়ে দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়া। প্রাচীন সম্পদগুলো অধিকাংশই চুরি যাওয়া অথবা চোরাচালানকারীদের হাত ঘুরে বিদেশে পাচার হয়। মহামূল্য প্রত্ন সম্পদ কীভাবে ভারত থেকে গায়েব হয় তা অজানাই রয়ে গেছে।

ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার সৌহার্দ্যের সম্পর্কের অংশ হিসেবেই, কয়েকটি ভাস্কর্য, তৈলচিত্রসহ আরও কিছু জিনিস ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার ন্যাশানাল গ্যালারি কর্তৃপক্ষ।

রাজধানী ক্যানবেরা সংগ্রহশালার তরফ থেকে ১৪টি প্রাচীন সামগ্রী ভারতের হাতে তুলে দেওয়ার জন্য চিহ্নিত করা হয়েছে। সিডনির ন্যাশানল গ্যালারির পরিচালক নিক মিতজেভিচ জানিয়েছেন, আগামী একমাসের মধ্যে ভারত সরকারের হাতে তুলে দেবে স্কট মরিসন সরকার।

তিনি জানান, ‘ভারতীয়দের হারিয়ে যাওয়া সম্পদ ফিরিয়ে দিতে পারলে অনেকটা নিশ্চিন্ত হওয়া যাবে। ইতিহাসের অতি বিতর্কিত একটা অধ্যায়ের পরিসমাপ্তি চায় ন্যাশানাল গ্যালারি’। এই প্রত্ন শিল্পগুলোর দাম আনুমানিক ২২ লাখ মার্কিন ডলার।

মিতজেভিচ আরও জানান, একটি দেশ থেকে চুরি করে আনা সম্পদ, অন্য একটি দেশের সংগ্রহশালার শোভা বর্ধন করবে, তা কোনও রাষ্ট্রের কাছেই কাম্য নয়। 

/এলকে/

সম্পর্কিত

শুধু শুধু বিরক্ত করায় যুবককে পিষে দিলো হাতি (ভিডিও)

শুধু শুধু বিরক্ত করায় যুবককে পিষে দিলো হাতি (ভিডিও)

আমি লিডার নই, ক্যাডার: দিল্লিতে মমতা

আমি লিডার নই, ক্যাডার: দিল্লিতে মমতা

আমি জ্যোতিষী নই: মমতা

আমি জ্যোতিষী নই: মমতা

মোদির কাছে পশ্চিমবঙ্গের নাম বদলের কথা তুললেন মমতা

মোদির কাছে পশ্চিমবঙ্গের নাম বদলের কথা তুললেন মমতা

আজেরি সীমান্তে রুশ সেনা চায় আর্মেনিয়া

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৮:৪৬
image

আজারবাইজান-আর্মেনিয়া সীমান্তে নতুন করে উত্তেজনা বাড়ায় সেখানে রুশ সেনা মোতায়েনের প্রস্তাব দিয়েছেন আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী নিকোল পাশিনিয়ান। বৃহস্পতিবার এই প্রস্তাব দেন তিনি। এর আগে পরস্পরের বিরুদ্ধে যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘনের অভিযোগ এনেছে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজান। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

রাশিয়ার মধ্যস্ততায় গত বছর সেপ্টেম্বরে শুরু হওয়া আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার সংঘাতের অবসান ঘটলেও নতুন করে সংঘাতে জড়িয়েঝে দেশ দুইটি। বুধবার আর্মেনিয়া দাবি করেছে, আজেরি বাহিনী আকস্মিক তাদের সেনাদের ওপর হামলা চালিয়েছে। এতে তাদের তিন সেনা প্রাণ হারিয়েছেন। আহত হন আরও দু’জন। সীমান্ত এলাকায় সংঘাতে জড়ানোর অভিযোগ তোলে দেশটি। সামরিক উত্তেজনা সৃষ্টিতে একে অপরকে দায়ী করেছে উভয় দেশ।

বৃহস্পতিবার এক সরকারি বৈঠকে আর্মেনিয়ার প্রধানমন্ত্রী নিকোল পাশিনিয়ান বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতির আলোকে আমার মনে হয় আর্মেনিয়ান-আজেরি সীমান্তের পুরো অঞ্চলে রাশিয়ার সীমান্ত রক্ষীদের মোতায়েনের প্রশ্নটি বিবেচনা করা যেতে পারে।’

নিকোল পাশিনিয়ান জানান, বিষয়টি নিয়ে মস্কোর সঙ্গে আলোচনা শুরুর প্রস্তুতি নিচ্ছেন তিনি। আর এটি বাস্তবায়িত হলে সামরিক সংঘাত ছাড়াই সীমান্ত বিরোধ নিষ্পত্তি করা যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন আর্মেনিয়ান প্রধানমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, নাগোরনো-কারাবাখ অঞ্চল নিয়ে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের পুরনো সংঘাত গত বছরের ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে নতুন করে আবার শুরু হয়। রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন জানান, ওই সংঘাতে অন্তত পাঁচ হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন। পরে নভেম্বরে রাশিয়ার মধ্যস্থতায় যুদ্ধ বন্ধে উপনীত হয় দু’দেশ।

/জেজে/

সম্পর্কিত

আফগানিস্তান নিয়ে চীনের আগ্রহ ইতিবাচক: যুক্তরাষ্ট্র

আফগানিস্তান নিয়ে চীনের আগ্রহ ইতিবাচক: যুক্তরাষ্ট্র

শুধু শুধু বিরক্ত করায় যুবককে পিষে দিলো হাতি (ভিডিও)

শুধু শুধু বিরক্ত করায় যুবককে পিষে দিলো হাতি (ভিডিও)

আমি লিডার নই, ক্যাডার: দিল্লিতে মমতা

আমি লিডার নই, ক্যাডার: দিল্লিতে মমতা

আফগানিস্তানের মাটি চীনের বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না: তালেবান

আফগানিস্তানের মাটি চীনের বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না: তালেবান

করোনার আঁতুড়ঘর চীনেই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের প্রকোপ

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৮:০৬

করোনার উৎপস্থিল চীনে এবার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ছে। করোনার সংক্রমণের হার দেশটিতে যখন নিচের দিকে তখন এই ধরণ শনাক্ত হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, চীনজুড়ে ডেল্টার ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়লে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে করোনাভাইরাসের উৎপত্তি হয় চীনের উহানের কাঁচাবাজার থেকে। এরপর ধীরে ধীরে ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বে। ধারণ করেছে মহামারি। কঠোর বিধিনিষেধে করোনা শনাক্তের হার চীনে প্রায় শূন্যের কোটায়। এমন অবস্থায় ডেল্টার প্রকোপ দেখা দিয়েছে জিয়াংসু প্রদেশের নানজিং শহরে।

চীন যখন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে যাচ্ছে তখনই উৎকণ্ঠার খবর দিলো দেশটির সরকার। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার ৪৯ জনের দেহে কোভিড শনাক্ত হয়েছে। আগের দিন এই সংখ্যা ছিল ৮৬। 

চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন জানিয়েছে, স্থানীয়ভাবে বিভিন্ন প্রদেশে ২৪ জন করোনায় শনাক্ত হন। এর মধ্যে রাজধানী বেইজিংয়েও একজন আছেন। এ ছাড়া ১৪ জনের শরীরে নতুন করে করোনার উপসর্গ পাওয়া গেছে।
নানজিং শহরের নানজিং লুকোউ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের এক কর্মী পর্যাপ্ত সুরক্ষা ব্যবস্থা না নিয়ে উড়োজাহাজ পরিষ্কার করছিলেন। সেখান থেকে ডেল্টার ধরণ ছড়িয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ফলে শহরটিতে ডেল্টার আতঙ্কে স্থানীয়রা। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বিমানবন্দরটি।

শুধু বিমানবন্দর নয় ডেল্টার সংক্রমণ ঠেকাতে নানজিং শহরও লকডাউনের আওতায় আনা হয়েছে। বলা হচ্ছে, বৃহস্পতিবার ২০০ জন কোভিডে শনাক্ত হয়েছেন। কর্তৃপক্ষও নিশ্চিত করেছেন এই শক্তিশালী ভ্যারিয়েন্টের কারণেই সংক্রমণ বাড়ছে। যা বিশ্বজুড়ে উদ্বেগের কারণ। সংক্রমণ ঠেকাতে চলছে টিকাকরণ। প্রথম ভারতে এই করোনার অতিসংক্রামক ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট দেখা দেয়। পরে দেশে দেশে ছড়িয়ে পড়ে এই ধরণটি।

/এলকে/

সম্পর্কিত

বিমানবন্দরেই করোনার বিশাল হাসপাতাল

বিমানবন্দরেই করোনার বিশাল হাসপাতাল

চীনে সরকার সমালোচক ধনকুবেরের কারাদণ্ড

চীনে সরকার সমালোচক ধনকুবেরের কারাদণ্ড

আফগানিস্তান নিয়ে চীনের আগ্রহ ইতিবাচক: যুক্তরাষ্ট্র

আফগানিস্তান নিয়ে চীনের আগ্রহ ইতিবাচক: যুক্তরাষ্ট্র

করোনায় মৃতের সংখ্যা ৪২ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনায় মৃতের সংখ্যা ৪২ লাখ ছাড়িয়েছে

চীনে সরকার সমালোচক ধনকুবেরের কারাদণ্ড

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৭:৪৫
image

চীনে সরকার সমালোচক ধনকুবের সান  দাওউকে ১৮ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। ‘বিবাদ এবং সমস্যা সৃষ্টিতে উস্কানি দেওয়ার’ অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হওয়ায় তাকে এই দণ্ড দেওয়া হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, সরকার সমালোচনাকারী বড় ব্যবসায়ীদের সাজার আওতায় আনার ধারাবাহিকতায় এই ব্যবসায়ীকে দণ্ডিত করা হয়েছে।

চীনের কৃষিখাতের সবচেয়ে বড় ব্যবসায়ী সান দাওউ। উত্তরাঞ্চলীয় হেবেই প্রদেশের ৬৫ বছর বয়সী এই ব্যবসায়ী মানবাধিকার এবং স্পর্শকাতর রাজনৈতিক বিষয় নিয়ে সরকারের সমালোচনা করে থাকেন।

সান দাওউয়ের বিরুদ্ধে আনা ‘বিবাদ এবং সমস্যা সৃষ্টিতে উস্কানি দেওয়ার’ অভিযোগ প্রায়ই চীনের সরকার সমালোচকদের বিরুদ্ধে আনা হয়ে থাকে। এছাড়াও তাকে অবৈধভাবে কৃষিজমি দখল, সরকারি সংস্থায় হামলার উদ্দেশ্যে লোক জমায়েত করা এবং সরকারি কর্মচারীদের কাজে বাধা দেওয়ায় অভিযুক্ত করা হয়েছে। তাকে ৩১ লাখ ইউয়ান জরিমানাও করা হয়েছে।

সান দাওউয়ের মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানে মাংস প্রক্রিয়াকরণ থেকে শুরু করে পোষা প্রাণীর খাবার এবং স্কুল কিংবা হাসপাতালের খাবারও সরবরাহ করে থাকে। এটি চীনের অন্যতম বড় কোম্পানি। গত বছর তাকে আটক করা হয়। তার সঙ্গে প্রায় ২০ জন আত্মীয় এবং ব্যবসায়ী সহযোগিকে আটক করা হয়। সরকার পরিচালিত প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে তাদের আটক করা হয়। ওই তিনি দাবি করেছিলেন, এই বিরোধের জেরে তার কয়েক ডজন কর্মী পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে আহত হয়েছেন।

চীনের বেশ কিছু ভিন্নমতাবলম্বী রাজনৈতিক ব্যক্তির সঙ্গে সানের যোগাযোগ রয়েছে। এছাড়া অতীতে সরকারের গ্রামীণ নীতির সমালোচনা করেছেন তিনি। ২০১৯ সালে আফ্রিকান ‘সোয়াইন ফ্লু’ মহামারি আড়াল করা নিয়ে খোলাখুলিভাবে চীন সরকারের সমালোচনা করেন তিনি। সেসময় মহামারিতে তার খামার ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং বিপর্যস্ত হয় চীনের পোল্ট্রি শিল্প।

২০০৩ সালে অবৈধভাবে তহবিল সংগ্রহের অভিযোগে একবার সান দাওউয়ের কারাদণ্ড হয়। দেশের জনগণ এবং আন্দোলন কর্মীদের দাবির মুখে ওই মামলা পরে বাতিল হয়ে যায়।

/জেজে/

সম্পর্কিত

করোনার আঁতুড়ঘর চীনেই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের প্রকোপ

করোনার আঁতুড়ঘর চীনেই ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের প্রকোপ

আফগানিস্তান নিয়ে চীনের আগ্রহ ইতিবাচক: যুক্তরাষ্ট্র

আফগানিস্তান নিয়ে চীনের আগ্রহ ইতিবাচক: যুক্তরাষ্ট্র

আফগানিস্তানের মাটি চীনের বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না: তালেবান

আফগানিস্তানের মাটি চীনের বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে দেওয়া হবে না: তালেবান

চীনের চাঞ্চল্যকর তথ্য ফাঁস করলো যুক্তরাষ্ট্র

চীনের চাঞ্চল্যকর তথ্য ফাঁস করলো যুক্তরাষ্ট্র

সর্বশেষ

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

সুন্দরবন যেমন আছে তেমনই থাকতে দিন: সুলতানা কামাল

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

কুমিল্লায় লকডাউনের ছয় দিনে ১২ লাখ টাকা জরিমানা আদায় 

স্বাগতিকদের কাঁদিয়ে সেমিতে জোকোভিচ 

স্বাগতিকদের কাঁদিয়ে সেমিতে জোকোভিচ 

বিমানবন্দরেই করোনার বিশাল হাসপাতাল

বিমানবন্দরেই করোনার বিশাল হাসপাতাল

মোটরসাইকেল চালককে টেনে-হিঁচড়ে ৫ কিলোমিটার নিয়ে গেলো ট্রাকটি

মোটরসাইকেল চালককে টেনে-হিঁচড়ে ৫ কিলোমিটার নিয়ে গেলো ট্রাকটি

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে: খেলাফত মজলিস

২৪ ঘণ্টায় আরও ২৩৯ মৃত্যু

২৪ ঘণ্টায় আরও ২৩৯ মৃত্যু

চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রেলপথে পণ্যবাহী ট্রেন চলাচল শুরু ১ আগস্ট

চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রেলপথে পণ্যবাহী ট্রেন চলাচল শুরু ১ আগস্ট

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

৯৯ জনকে জরিমানা র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের

৯৯ জনকে জরিমানা র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের

যার সাজা খেটেছিলেন মিনু, সেই কুলসুম গ্রেফতার

যার সাজা খেটেছিলেন মিনু, সেই কুলসুম গ্রেফতার

‘করোনাকালে মানুষের উপদ্রব কমায় সুন্দরবনে বাঘের সংখ্যা বেড়েছে’

‘করোনাকালে মানুষের উপদ্রব কমায় সুন্দরবনে বাঘের সংখ্যা বেড়েছে’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ফের সংঘাতে আজারবাইজান-আর্মেনিয়া, যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব মস্কোর

ফের সংঘাতে আজারবাইজান-আর্মেনিয়া, যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব মস্কোর

প্যারিসে কিউবার দূতাবাসে পেট্রোল বোমা হামলা

প্যারিসে কিউবার দূতাবাসে পেট্রোল বোমা হামলা

জার্মানির রাসায়নিক পার্কে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, বহু হতাহত

জার্মানির রাসায়নিক পার্কে ভয়াবহ বিস্ফোরণ, বহু হতাহত

নাভালনি ও তার ঘনিষ্ঠদের ওয়েবসাইট ব্লক করলো রাশিয়া

নাভালনি ও তার ঘনিষ্ঠদের ওয়েবসাইট ব্লক করলো রাশিয়া

তিউনিসিয়ায় রাজনৈতিক অস্থিরতায় বিশ্বের প্রতিক্রিয়া

তিউনিসিয়ায় রাজনৈতিক অস্থিরতায় বিশ্বের প্রতিক্রিয়া

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: ‘এই মুহূর্তে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ঝুঁকি’

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: ‘এই মুহূর্তে বিশ্বের সবচেয়ে বড় ঝুঁকি’

উল্কার ঝলকে আলোকিত নরওয়ে!

উল্কার ঝলকে আলোকিত নরওয়ে!

সম্প্রচারের আগে কাদা মেখে বিতর্কে জার্মান সাংবাদিক

সম্প্রচারের আগে কাদা মেখে বিতর্কে জার্মান সাংবাদিক

© 2021 Bangla Tribune