X
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

দেশের প্রতিটি অর্জন এসেছে আ.লীগের হাত ধরে: ওবায়দুল কাদের

আপডেট : ০৯ জুলাই ২০২১, ১২:৪১

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আওয়ামী লীগ হঠাৎ গজিয়ে উঠা কোনও ভুঁইফোঁড় রাজনৈতিক সংগঠন নয়। দেশের প্রতিটি অর্জন আওয়ামী লীগের হাত ধরেই হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) তার সরকারি বাসভবনে নিয়মিত ব্রিফিংয়ে একথা বলেন ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, এদেশের মাটির অনেক গভীরে আওয়ামী লীগের শেকড়, শুধু ভৌগোলিক স্বাধীনতাই নয়, অর্থনৈতিক মুক্তিও এসেছে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে। মাটি ও মানুষের হৃদয়ের গভীরে আওয়ামী লীগের স্থান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগকে নিয়ে অতীতে অনেক ষড়যন্ত্র হয়েছে কিন্তু কোনও লাভ হয়নি। উল্টো এই রাজনৈতিক দলটি ফিনিক্স পাখির মতো জেগে উঠেছে।

তিনি বলেন,  বাংলাদেশ রাষ্ট্রের অস্তিত্বের সাথে আওয়ামী লীগের সম্পর্ক, এ সম্পর্ক চিরকালের। ইচ্ছে করলেই কেউ তা মুছে ফেলতে পারবে না। আওয়ামী লীগকে যারা নিশ্চিহ্ন করার ষড়যন্ত্র করেছিলো বরং তারাই নিশ্চিহ্ন হয়েছে। জনগণ তাদেরকেই ইতিহাসের কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আন্দোলন, সংগ্রাম, ত্যাগ আর মানুষের ভালোবাসায় আওয়ামী লীগ আজ মহীরূহে রূপান্তরিত একটি প্রতিষ্ঠান।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অদম্য গতিতে এগিয়ে যাওয়া আওয়ামী লীগকে যারা জনবিচ্ছিন্ন মনে করে, তারা নিজেরাই এখন জনবিচ্ছিন্ন ও জননিন্দিত। তাদের রাজনীতি আজ অস্তিত্ব সংকটে বলেও দাবি করেন ওবায়দুল কাদের।

করোনাকালে রাজনীতি হচ্ছে অসহায়, খেটে খাওয়া মানুষের পাশে দাঁড়ানো উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপি এ দুঃসময়েও মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে সরকারের বিরুদ্ধে বিষোদ্গার করে যাচ্ছে। বিএনপির রাজনীতি জনমানুষের জন্য নয়।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, তাদের রাজনীতিতে ত্যাগের কোনো মহিমা নেই, আছে শুধু ভোগের উদগ্র বাসনা।

ওবায়দুল কাদের বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাস বিকৃতির জনক বিএনপি, আওয়ামী লীগ নয়।

তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, কারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ভূলুণ্ঠিত করতে চায়, কারা স্বাধীনতা বিরোধীদের গাড়িতে পতাকা তুলে দিয়েছিলো, এখনও কারা স্বাধীনতা বিরোধীদের পৃষ্ঠপোষকতা দিয়ে যাচ্ছে তা দেশবাসী জানে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, স্বাধীনতার ঘোষক আর ঘোষণার পাঠক এক নয়, এ সত্যটা বিএনপিকে অনুধাবন করতে হবে।

আওয়ামী লীগ নাকি নিশ্চিহ্ন হয়ে যাবে বিএনপি নেতাদের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, এটা বিএনপি নেতাদের এক ধরনের ভ্রান্তিবিলাস, এ ভাবনা দেশের ইতিহাসের সবচেয়ে ব্যর্থ বিরোধী দলের নেতাদের আত্মতুষ্টি লাভের সস্তা খোরাক মাত্র।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ "মুজিববর্ষ" উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা ও পরিকল্পনায় গৃহহীনদের জন্য বিনামূল্যে গৃহ নির্মাণ কর্মসূচি বাস্তবায়িত হচ্ছে। জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলা তথা সমৃদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার অগ্রসরমান সংগ্রামের অংশ হিসেবে প্রধানমন্ত্রী অর্থনৈতিকভাবে সমাজের পিছিয়ে পড়া মানুষের জীবনের মানোন্নয়নে সময়োপযোগী কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন।

তিনি বলেন, যা বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা ও আওয়ামী লীগের উন্নয়ন নীতি থেকে উৎসারিত হয়েছে।

টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিতকরণে প্রধানমন্ত্রীর এসব উদ্যোগ ইতিহাসের একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে এবং বিশ্বব্যাপী ব্যাপক প্রশংসিত হয়েছে।

সড়ক পরিবহন মন্ত্রী বলেন, নাগরিকের মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠায় সকলের জন্য বাসস্থানের ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে ইতোমধ্যেই সরকার প্রায় এক লাখ বিশ হাজার গৃহহীন মানুষকে বাড়ি উপহার দিয়েছেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, এসব গৃহ সরকারি খাস জমিতে নির্মিত হয়েছে এবং অনেক ক্ষেত্রে খাস ভূমিসহ তুলনামূলক নিচু স্থানে হওয়ায় স্থাপনাসমূহ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

তারপরও বিশাল কর্মযজ্ঞের হিসেবের খাতায় ক্ষুদ্র অংশে ত্রুটি দেখা দিলেও যারা এই ত্রুটির জন্য দায়ী এবং দায়িত্বে অবহেলা ও অনিয়মে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে, কোনও ছাড় দেওয়া হবে না।

ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে এবং অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

এই প্রকল্প প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি মহৎ উদ্যোগ এবং গভীর আবেগ ও ভালোবাসার কর্মসূচি বলেও জানান ওবায়দুল কাদের।

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী সকল গৃহহীন মানুষের জন্য গৃহনির্মাণ নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত এ কর্মসূচি অব্যাহত থাকবে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, কিন্তু সরকারের এ মহৎ কার্যক্রম যখন দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হচ্ছে এবং প্রকল্প বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে দেশের বিরাট একটি জনগোষ্ঠীর অর্থনৈতিক অগ্রগতির পথে এগিয়ে যাচ্ছে, ঠিক তখন একটি মতলবি মহল বিষয়টি নিয়ে সমালোচনার নামে উদ্দেশ্য প্রণোদিত অপতৎপরতায় মেতে উঠেছে।

পরিকল্পিতভাবে অপপ্রচার চালিয়ে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টির অপচেষ্টা চালানোর বিরুদ্ধে সকলকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

/পিএইচসি/এমএস/

সম্পর্কিত

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

১০০ শিশু শিল্পীকে পুরস্কার দিলো আওয়ামী লীগ

১০০ শিশু শিল্পীকে পুরস্কার দিলো আওয়ামী লীগ

সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবের প্রতিবাদ রিজভীর

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:১০

সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবের প্রতিবাদ জানিয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলছেন, ‘সাংবাদিকরা কয় টাকা বেতন পান? বাংলাদেশ ব্যাংককে সাংবাদিক নেতাদের বিরুদ্ধে লেলিয়ে দেওয়া হয়েছে। অনেকের মাস গেলে খাওয়ার পয়সা থাকে না। এদের অ্যাকাউন্ট চেক করবে বাংলাদেশ ব্যাংক। তার মানে সামনে নির্বাচন আসছে। এই নির্বাচনে যত ধরনের অনাচার আছে এটা সরকার করবে এবং এর বিরুদ্ধে যেন কোনও সাংবাদিক না লেখেন, পত্রিকায় এই ধরনের কোনও খবর প্রচার না হয়, সে জন্য তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় অস্ত্র ব্যবহার করা হয়েছে।’

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের আকরাম খাঁ হলে গণতন্ত্র ফোরাম আয়োজিত এক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। 

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে উদ্দেশ করে রিজভী বলেন, তারা বলে আইন অনুযায়ী নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে। আইনই যেখানে নেই সেখানে আইন দিয়ে কী করবেন? এতে আপনাদের উদ্দেশ্যটা বুঝা যায়।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, আগামী ফেব্রুয়ারি মাসে নির্বাচন কমিশনের মেয়াদ শেষ সুতরাং তাদের খুঁজে বের করতে হবে কে এম নূরুল হুদার মতো একজন। কারণ আগামী নির্বাচন নিয়ে তাদের আরেকটি পরিকল্পনা রয়েছে। আগামী নির্বাচনে কে এম নূরুল হুদার মতো সিল মারবে, বৈধতা দেবে তাদের এমন একটা লোক প্রয়োজন।

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, সরকার যারা আছেন তারা আজীবন ক্ষমতায় থাকতে চান। তারা বিরোধীদল শূন্য দেশ কায়েম করতে চান।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি খলিলুর রহমান ইব্রাহিমের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন সিরাজীর সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, সাবেক এমপি মাসুদ অরুন, মৎসজীবী দলের সদস্য সচিব আব্দুর রহিম,ওলামা দলের আহ্বায়ক মাওলানা শাহ মো. নেছারুল হক, ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামল, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তবিবুর রহমান সাগর প্রমুখ বক্তব্য দেন।

/জেডএ/এমআর/

সম্পর্কিত

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

আন্দোলনকে দৃষ্টির আড়ালে রাখতে জিয়া বিতর্ক: বিএনপি

আন্দোলনকে দৃষ্টির আড়ালে রাখতে জিয়া বিতর্ক: বিএনপি

২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:৩৬

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান বলেছেন, জনগণ তাদের খুশিমতো নির্বাচনে ভোট দেবেন। জনগণই সিদ্ধান্ত নেবেন কারা দেশ পরিচালনা করবে। বঙ্গবন্ধুর সংবিধান অনুযায়ী বাংলাদেশে জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনকালীন সময়ে আওয়ামী সরকারই তত্ত্বাবধায়ক সরকার। নির্বাচন কমিশনের অধীনেই নির্বাচন হবে।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) মন্ত্রণালয়ে তার অফিসকক্ষে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে মতবিনিময়কালে প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, নির্বাচনী প্রেসক্রিপশন বিএনপি’র কাছ থেকে শিখতে হবে না। বাংলার জনগণ বিএনপি’র প্রেসক্রিপশন শুনতে চায় না। বিএনপির কাছে নির্বাচন শিখতে হবে না। 

তিনি বলেন, মির্জা ফখরুল হচ্ছেন খুনির অনুসারী; তিনি কীসের নির্বাচনী ফর্মুলা দেবেন। মিডিয়া বেজ রাজনৈতিক সংগঠন বিএনপি। ভোটের দিন নাটক রচনায় পটু। আর পল্টনে বসে মিডিয়ার সামনে কান্নাকাটি, ভোট বর্জন, এজেন্ট খুঁজে পায় না। এজেন্টরা যায় সিলেট, কক্সবাজার, থাইল্যান্ড ও মালয়েশিয়া ঘুরতে। এই হচ্ছে বিএনপি। সব দোষ আওয়ামী লীগের, বঙ্গবন্ধুর কন্যার; এই ব্যবসা আর বাংলাদেশে হবে না। 

ডা. মুরাদ বলেন, আজকে বাংলাদেশ বদলে গেছে। দেশ এখন সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে চলছে গতিময়তার সঙ্গে। খাদ্যের কোনও সংকট নেই বরং খাদ্য রফতানিকারক দেশ হিসেবে বিশ্বে পরিচিত পাচ্ছে বাংলাদেশ। মাথা পিছু আয় দুই হাজার ডলারের ওপরে। এটিই হলো বদলে যাওয়া বাংলাদেশ। এ বদলে যাওয়া কোনও জাদুর কারণে হয়নি। এ বদলে যাওয়া হয়েছে শেখ হাসিনার নেতৃত্বের কারণে।

/এসআই/এনএইচ/

সম্পর্কিত

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

১০০ শিশু শিল্পীকে পুরস্কার দিলো আওয়ামী লীগ

১০০ শিশু শিল্পীকে পুরস্কার দিলো আওয়ামী লীগ

এবারও গ্রহণযোগ্য পন্থায় নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে: ওবায়দুল কাদের

এবারও গ্রহণযোগ্য পন্থায় নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে: ওবায়দুল কাদের

৪২ বছরেও গঠনতন্ত্র পূর্ণাঙ্গ করতে পারেনি ছাত্রদল

৪২ বছরেও গঠনতন্ত্র পূর্ণাঙ্গ করতে পারেনি ছাত্রদল

আন্দোলনকে দৃষ্টির আড়ালে রাখতে জিয়া বিতর্ক: বিএনপি

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:০৩

সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানকে কেন্দ্র করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযুদ্ধ, ’৭৫ এর পটপরিবর্তন ও তার সমাধি সম্পর্কে লাগাতার মিথ্যাচার করে চলেছেন ‑ বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করে বলেন, ‘বিএনপির স্থায়ী কমিটি মনে করে জনগণকে বিভ্রান্ত করার লক্ষ্যে  মিথ্যা তথ্য সংসদে উপস্থাপন করছেন প্রধানমন্ত্রী। জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার এবং গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনকে দৃষ্টির আড়ালে রাখার ষড়যন্ত্র করছেন।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকালে রাজধানীর গুলশানের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এসব বলেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত স্থায়ী কমিটির সভার সিদ্ধান্ত তুলে ধরতে এ সংবাদ সম্মেলন করেন।

ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষা আইনের খসড়া তুলে নেওয়া হয়েছে

বিএনপি মহাসচিব ফখরুল জানান, প্রস্তাবিত ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষা আইনের খসড়া সরকারি ওয়েবসাইটে প্রকাশে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। সভা মনে করে ‑ এই ধরনের আইন ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষার কথা বলে নাগরিকের স্বাধীন মতপ্রকাশের অধিকার হরণ করবার আরেকটি চক্রান্ত। এই আইন গণতন্ত্রের জন্য একটি বড় ধরণের হুমকি হয়ে দাঁড়াবে। সভায় জনগণের ব্যক্তিগত অধিকার এবং মত প্রকাশের স্বাধীনতা অক্ষুন্ন রাখার জন্য আহ্বান জানানো হয়। 

এসময় ফখরুল জানান, শনিবার সরকারি ওয়েবসাইট থেকে খসড়াটি আবার তুলে নেওয়া হয়েছে।

জ্যাকসন হাইটে বিএনপির ওপর আক্রমণ

প্রধানমন্ত্রীর সফরকালে আমেরিকার নিউইয়র্কে বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপর হামলার নিন্দা জানান বিএনপির মহাসচিব। তিনি বলেন, ‘সেখানে শান্তিপূর্ণ মিটিংয়ে হামলা চালানো হয়েছে। আমরা এর প্রতিবাদ জানাই, নিন্দা জানাই।’

খালেদা জিয়াকে ভয় পায় সরকার

‘খালেদা জিয়াকে এত বেশি ভয় পান, এজন্য তাকে বিদেশে নেওয়া বা তার মুক্তি দিতে সাহস পান না। চিকিৎসকেরা বললেও এ কারণে সরকার একমত হচ্ছে না।’

তার মুক্তির জন্য বিএনপি কোনও চাপ তৈরি করবে কিনা ‑ এমন প্রশ্নে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘দল যখন সিদ্ধান্ত নেবে, তখন চাপ প্রয়োগ করবো।’

সংবাদ সম্মেলনে ফখরুল জানান, কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির নেতাদের ধারাবাহিকতায় আগামী ২১, ২১ ও ২৩ সেপ্টেম্বর মতবিনিময় সভা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিএনপি।

প্রসঙ্গত, গত ১৪, ১৫, ১৬ সেপ্টেম্বর কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান, উপদেষ্টা, মহাসচিব, যুগ্ম মহাসচিব, সাংগঠনিক ও সম্পাদকমণ্ডলী এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করে বিএনপি। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এ মতবিনিময় সভা ডাকেন।

সংবাদ সম্মেলনে রিয়াজ উদ্দিন নসু, শায়রুল কবির খান ও শামসুদ্দিন দিদার উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন: ২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

/এসটিএস/এমএস/

সম্পর্কিত

সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবের প্রতিবাদ রিজভীর

সাংবাদিক নেতাদের ব্যাংক হিসাব তলবের প্রতিবাদ রিজভীর

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৫১

কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির নেতাদের ধারাবাহিকতায় আগামী ২১, ২২ ও ২৩ সেপ্টেম্বর মতবিনিময় সভা করার সিদ্ধান্ত জানিয়েছে বিএনপি।

মির্জা ফখরুল জানান, শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) অনুষ্ঠিত স্থায়ী কমিটির সভায় এ কর্মসূচির সিদ্ধান্ত হয়েছে। বৈঠকে তারেক রহমানের সভাপতিত্বে স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান ও ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু উপস্থিত ছিলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমাদের ইতোমধ্যে অনুষ্ঠিত বৈঠকগুলোতে রাজনৈতিক, সাংগঠনিক বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। আর বৈঠকে যেসব সিদ্ধান্ত হয়েছে, সেগুলো আমরা পরবর্তীতে জানিয়ে দেবো।’

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৩টায় রাজধানীর গুলশানে দলের চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এ কথা জানান দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

প্রসঙ্গত, গত ১৪, ১৫, ১৬ সেপ্টেম্বর কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান, উপদেষ্টা, মহাসচিব, যুগ্ম মহাসচিব, সাংগঠনিক ও সম্পাদকমণ্ডলী এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করে বিএনপি। দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এ মতবিনিময় সভা ডাকেন।

 

/এসটিএস/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

এখন নির্বাচন কমিশন নিয়ে চিন্তা করছি না: মির্জা ফখরুল

এখন নির্বাচন কমিশন নিয়ে চিন্তা করছি না: মির্জা ফখরুল

সংসদে কাদের মির্জার বিচার চেয়েছে জাপা

সংসদে কাদের মির্জার বিচার চেয়েছে জাপা

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:১৪

সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য স্বাধীন ও নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠন করতে সুনির্দিষ্ট আইন থাকা জরুরি বলে দাবি করেছে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ।

দলটি মনে করছে, বর্তমানে বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচন, গণতন্ত্র ও সুশাসনের অভাব। একটি সুষ্ঠু নির্বাচন কমিশন গঠনের মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নেওয়ার উদ্যোগ সরকারকেই নিতে হবে।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে পার্টির চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া এ দাবি জানান।

তারা বলেন, নির্বাচন কমিশন নিয়োগে সুপারিশ প্রদানের জন্য সার্চ কমিটি গঠনের যে ব্যবস্থা বর্তমান ইসি ও তার আগের ইসি নিয়োগের সময় নেওয়া হয়েছে, তা ইসি নিয়োগে সংবিধান নির্দেশিত আইন প্রণয়নের দাবিকে এড়িয়ে যাওয়ার কৌশল ছাড়া অন্য কিছুই নয়। কারণ, সরকারি দল তথা প্রধানমন্ত্রী সার্চ কমিটিতে যাদের নাম প্রস্তাব করবেন, রাষ্ট্রপতি তা-ই অনুমোদন করবেন।

বিবৃতিতে বলা হয়, ইসি গঠনে সংবিধানের নির্দেশনা মোতাবেক ইসি নিয়োগে কোনও আইন প্রণীত না হওয়ায় স্বাধীনতার পর থেকে দলীয় সরকারগুলো জাতীয় নির্বাচনসহ সব নির্বাচনকে প্রভাবিত করার জন্য অধিকাংশ সময় তাদের দলীয় ভাবধারায় বিশ্বাসী ব্যক্তিদের নিয়ে ইসি গঠন করেছে। তাছাড়া, ক্ষমতাসীন কোনও দলের অধীনে অনুষ্ঠিত জাতীয় নির্বাচনে সে দলের পরাজিত হওয়ার নজির নেই।

 

/এসটিএস/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

২১-২৩ সেপ্টেম্বর বিএনপির মতবিনিময়

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু করার দাবি ওয়ার্কার্স পাটির

ইউপি নির্বাচন সুষ্ঠু করার দাবি ওয়ার্কার্স পাটির

আমাদের ১৬ কোটি মানুষ তালেবানদের কয়েক বছর খাওয়াতে পারেন: ডা. জাফরুল্লাহ 

আমাদের ১৬ কোটি মানুষ তালেবানদের কয়েক বছর খাওয়াতে পারেন: ডা. জাফরুল্লাহ 

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

১০০ শিশু শিল্পীকে পুরস্কার দিলো আওয়ামী লীগ

১০০ শিশু শিল্পীকে পুরস্কার দিলো আওয়ামী লীগ

এবারও গ্রহণযোগ্য পন্থায় নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে: ওবায়দুল কাদের

এবারও গ্রহণযোগ্য পন্থায় নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে: ওবায়দুল কাদের

চন্দ্রিমায় জিয়ার লাশ থাকার কোনও প্রমাণ কোথাও নেই: তথ্যমন্ত্রী

চন্দ্রিমায় জিয়ার লাশ থাকার কোনও প্রমাণ কোথাও নেই: তথ্যমন্ত্রী

আগামী দিনের রাজনীতি হতে হবে জ্ঞাননির্ভর: ওবায়দুল কাদের

আগামী দিনের রাজনীতি হতে হবে জ্ঞাননির্ভর: ওবায়দুল কাদের

নিয়মিত অসত্য বক্তব্য বিএনপি রেওয়াজে পরিণত করেছে: ওবায়দুল কাদের

নিয়মিত অসত্য বক্তব্য বিএনপি রেওয়াজে পরিণত করেছে: ওবায়দুল কাদের

সর্বশেষ

রাশিয়ার নির্বাচনে এগিয়ে পুতিনের দল

রাশিয়ার নির্বাচনে এগিয়ে পুতিনের দল

আজ থেকে চার ঘণ্টা সিএনজি স্টেশন বন্ধ

আজ থেকে চার ঘণ্টা সিএনজি স্টেশন বন্ধ

আইসিটি আইনের মামলায় বিএনপি সমর্থিত ১১ আইনজীবীর জামিন

আইসিটি আইনের মামলায় বিএনপি সমর্থিত ১১ আইনজীবীর জামিন

বঙ্গবন্ধু শিক্ষা বিমার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট চার্জ ফ্রি

বঙ্গবন্ধু শিক্ষা বিমার ব্যাংক অ্যাকাউন্ট চার্জ ফ্রি

যেভাবে ‘পুণ্যের প্রচার ও পাপ ঠেকাবে’ তালেবানের নৈতিকতা পুলিশ

যেভাবে ‘পুণ্যের প্রচার ও পাপ ঠেকাবে’ তালেবানের নৈতিকতা পুলিশ

© 2021 Bangla Tribune