X
সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

বিকল্প মূল্যায়নে এসএসসি-এইচএসসির ফল

আপডেট : ১০ জুলাই ২০২১, ১৮:৩৭

করোনা পরিস্থিতি প্রকট আকার ধারণ করায় এসএসসি ও এইচএসসি সমমানের পরীক্ষা বাদ দিয়ে বিকল্প পদ্ধতিতে মূল্যায়ন করে ফল ঘোষণার দিকেই হাঁটছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। যদিও কিভাবে মূল্যায়ন হবে তা এখনও নিশ্চিত হয়নি।  তবে মূল্যায়ন যাই হোক প্রতিবেশী দেশগুলোর অভিজ্ঞতা কাজে লাগানো হবে।

এ বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘কোনও না কোনও মূল্যায়ন তো হবেই। শিক্ষার্থীরা যেন লেখাপড়া করে। সংক্ষিপ্ত যে সিলেবাস দেওয়া হয়েছে তা বাড়িতে বসেই পড়ে ফেলা সম্ভব। পরিকল্পনা ছিল সংক্ষিপ্ত সিলেবাস পড়িয়েই শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নেওয়া হবে। যদি পড়ানো না যায়, তা হলে অ্যাসাইনমেন্ট করা হচ্ছে, সেটা করেই মূল্যায়নে যাবো, নাকি  এসএসসির ওপর ভিত্তি করে এইচএসসির মূল্যায়ন করবো? তাহলে এসএসসির কী হবে? এ ক্ষেত্রে অষ্টম শ্রেণির মূল্যায়ন শুধু পাবো। কীভাবে মূল্যায়নটা হবে সে বিষয়ে শিগগিরই সিদ্ধান্ত নেবো।’

মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক বলেন, ‘পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনা আমাদের রয়েছে। তবে যদি পরীক্ষা না নিতে পারি সেই চিন্তা করে বিকল্প মূল্যায়ন কীভাবে করা যায় তা নিয়ে আমরা কাজ করছি।’

অ্যাসাইনমেন্টের ভিত্তিতে মূল্যায়ন করা হবে কিনা জানতে চাইলে ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক বলেন, ‘সংক্ষিপ্ত সিলেবাসের ভিত্তিতে পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত ছিল। সে কারণে ২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট করানো হয়নি।  ষষ্ঠ থেকে নবম শ্রেণির জন্য অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হয়েছে। ২০২২ সালের এসএসসি এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য অ্যাসাইনমেন্ট দেওয়া হয়েছে।’

গত ৪ ফেব্রুয়ারি স্বাক্ষরিত অফিস আদেশসহ পরদিন ৫ ফেব্রুয়ারি এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য  সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশ ঢাকা শিক্ষা বোর্ড। এর আগে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) সংক্ষিপ্ত পাঠ্যসূচি পুনর্বিন্যাস করে শিক্ষা বোর্ডগুলোতে পাঠায়।

সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রকাশের পর করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় পরীক্ষা না নেওয়া গেলে মূল্যায়নের দিকে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেছিলেন, ‘সংক্ষিপ্ত সিলেবাস পড়িয়েই পরীক্ষা নেওয়া হবে। যদি পরীক্ষা না নেওয়া যায় তখন বিকল্প মূল্যায়নের কথা চিন্তা করবো।  এ বিষয়টি নিয়ে কাজ করছি।’

সংক্ষিপ্ত এই সিলেবাস পড়িয়ে পরীক্ষা নেওয়ার পরিকল্পনা থাকায় এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট করানো হয়নি। যদিও করোনাকালে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের সময় ষষ্ঠ শ্রেণি থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের সাপ্তাহিক অ্যাসাইনমেন্ট শুরু করা হয়।  এ কারণে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমেও মূল্যায়নের কোনও সুযোগ নেই।

এই পরিস্থিতিতে কীভাবে মূল্যায়ন করা যেতে পারে তা নিয়ে আলোচনায় বসে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের তথ্য উপাত্তও সংগ্রহ করে। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী কয়েকটি দেশের চিত্র বিশ্লেষণ করা হচ্ছে বলে জানা গেছে।

এসব তথ্যের মধ্যে রয়েছে গত ১ জুন ভারতের কেন্দ্রীয় শিক্ষা বোর্ড দ্বাদশ শ্রেণির পাবলিক পরীক্ষা স্থগিত করেছে। এক্ষেত্রে বিকল্প উপায়ে মূল্যায়নের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ভারতে অভ্যন্তরীণ মূল্যায়ন, প্রজেক্ট ও ব্যবহারিক পরীক্ষার ক্ষেত্রে বহিঃপরীক্ষক নিয়োগ করা হবে। বহিঃপরীক্ষক অনলাইনে মৌখিক পরীক্ষা নেবেন। যে সকল শিক্ষার্থীর বিকল্প মূল্যায়নে আপত্তি থাকবে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগও থাকবে।

পশ্চিমবঙ্গে বিকল্প মূল্যায়নের ক্ষেত্রে মাধ্যমিক পরীক্ষা নবম শ্রেণির পাওয়া নম্বর ও অভ্যন্তরীণ গাঠনিক মূল্যায়ন হবে অর্ধেক অর্ধেক। উচ্চ মাধ্যমিকের ক্ষেত্রে মূল্যায়ন হবে ২০১৯ সালের মাধ্যমিক পর্যায়ের ৪টি বিষয়ের সর্বোচ্চ নম্বরের ৪০ শতাংশ, একাদশ শ্রেণির বার্ষিক পরীক্ষায় পাওয়া নম্বরের ৬০ শতাংশ এবং প্রজেক্টে ২০ নম্বর বা ব্যবহারিক ৩০ নম্বরের মূল্যায়ন থাকবে।

নেপালে দশম ও দ্বাদশ পরীক্ষার তারিখ নির্ধারণ করা হয়নি। বিকল্প মূল্যায়ন পদ্ধতি বাস্তবায়নে টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে। গত বছর নম্বর কমিয়ে পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল।

নিউজিল্যান্ডের কোয়ালিফিকেশনস অথরিটি এচিভমেন্ট টেস্টের তিনিটি লেভেলেই আংশিকভাবে অনলাইন পরীক্ষার ব্যবস্থা রেখেছে। তবে অনলাইনে অংশ নেওয়া বাধ্যতামূলক নয়।

অস্ট্রেলিয়ায় ভ্যাকেশন কারিকুলাম অ্যান্ড এসেসমেন্ট অথরিটি এবং নিউ এডুকেশন স্ট্যান্ডার্ড অথরিটি তাদের মাধ্যমিক স্তরের পরীক্ষার্থীদের জন্য আংশিকভাবে অনলাইন পরীক্ষার ব্যবস্থা রেখেছে।

ক্যারিবিয়ান অঞ্চলের ক্ষেত্রে ক্যারিবিয়ান পরীক্ষা কাউন্সিলের অধীনে গত জুন থেকে পাবলিক পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে। পরীক্ষার্থী করোনা পরিস্থিতির কারণে পরীক্ষা না দেওয়ার সিদ্ধান্তও নিতে পারছে। তবে সেক্ষেত্রে বিদ্যালয়ভিত্তিক মূল্যায়নের মাধ্যমে তাদের ফলাফল দেওয়া হবে।

 এছাড়া শ্রীলঙ্কায় জিসিই (অ্যাভান্সড) লেভেলের পরীক্ষা নেওয়া হবে অক্টোবরে।  ফেডারেল বোর্ড অব পাকিস্তান আগামী ১২ জুলাই থেকে ইন্টারমিডিয়েট পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ব্যবহারিক পরীক্ষা বাদ দেওয়া হয়েছে।  নাইজেরিয়ার সিনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট পরীক্ষা আগস্টে অনুষ্ঠিত হবে, বিদ্যালয়ভিত্তিক মূল্যায়ন হবে।

স্বাভাবিক সময়ে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় প্রতি বছর ফেব্রুয়ারি শুরুতে। আর এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় এপ্রিলের শুরু থেকে। 

২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর করোনার প্রকোপ বাড়ায় ফল প্রকাশে দেরি হয়। বন্ধ হয়ে যায় এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা।  শেষ পর্যন্ত পরীক্ষা বাদ দিয়ে বিকল্প মূল্যায়নের পথ বেছে নেয় শিক্ষা মন্ত্রণালয়।  এছাড়া অষ্টম শ্রেণির পাবলিক পরীক্ষা ও পঞ্চম শ্রেণির পাবলিক পরীক্ষা বাতিল করা হয়।

করোনার প্রকোপ আবার বাড়তে থাকায় ২০২১ সালের এসএসসি সমমান ও এইচএসসি সমমানের পরীক্ষা এখনও অনুষ্ঠিত হয়নি।

উল্লেখ্য, গত বছর ৮ মার্চ দেশে করোনা রোগী শনাক্ত হলে ওই বছর ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়। দফায় দফায় তা বাড়িয়ে আগামী ৩১ জুলাই পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

 

/এমআর/

সম্পর্কিত

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের করোনা চিকিৎসার ব্যয় কার?

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের করোনা চিকিৎসার ব্যয় কার?

এসএসসি পরীক্ষার সূচির প্রস্তাবে মন্ত্রণালয়ের সম্মতি সোমবার

এসএসসি পরীক্ষার সূচির প্রস্তাবে মন্ত্রণালয়ের সম্মতি সোমবার

প্রাথমিকে নতুন ক্লাস যুক্ত হচ্ছে না

প্রাথমিকে নতুন ক্লাস যুক্ত হচ্ছে না

নভেম্বরে ‘বিশেষ পরীক্ষা’ নেবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

নভেম্বরে ‘বিশেষ পরীক্ষা’ নেবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০৬

২০২১ সালের এসএসসি ও সমমান এবং এইচএসসি পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ করা হয়েছে। নতুন সময়সূচি অনুযায়ী ১৪ নভেম্বর থেকে এসএসসি এবং ২ ডিসেম্বর এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হবে।

বিস্তারিত আসছে...

/এসএমএ/ইউএস/

বিদেশগমনে দুদক নিষেধাজ্ঞা দিতে পারবে কি না- সিদ্ধান্তের অপেক্ষা বাড়লো

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৫৪

‘আদালতের অনুমতি ছাড়া কারও বিদেশ যাত্রায় দুদক নিষেধাজ্ঞা দিতে পারবে না’ মর্মে হাইকোর্টের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে করা আপিল আবেদনটি পর্যবেক্ষণসহ নিষ্পত্তি করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। তবে পর্যবেক্ষণে কী থাকছে সে বিষয়ে জানতে রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ হওয়ার আগ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিলি বিভাগ এ রায় দেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন। অন্যদিকে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।

এর আগে গত ১৬ মার্চ ‘সুনির্দিষ্ট বিধি বা আইন প্রণয়ন না করা পর্যন্ত দুর্নীতি মামলার আসামি বা সন্দেহভাজন কোনও ব্যক্তির বিদেশ যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার বিষয়ে দুদক নয়, সিদ্ধান্ত নেবেন বিশেষ জজ আদালত’ মর্মে পর্যবেক্ষণ দেন হাইকোর্ট। বিদেশ যাওয়ায় দুদকের নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে নরসিংদীর আতাউর রহমান ওরফে সুইডেন আতাউর রহমানের করা এক আবেদনের ওপর শুনানিকালে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ পর্যবেক্ষণ দেন। হাইকোর্ট বলেন, এ বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ আদেশ দেওয়ার সময় প্রয়োজনীয় গাইডলাইন ঠিক করে দেওয়া হবে।

আদালতে আতাউর রহমানের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মুন্সী মনিরুজ্জামান। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. সারওয়ার হোসেন বাপ্পী। দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট একেএম ফজলুল হক।

আদালত বলেছেন, বিদেশ যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার বিষয়ে দুদকের সুনির্দিষ্ট আইন বা বিধি নেই। এ কারণে এ বিষয়ে দ্রুত সুনির্দিষ্ট আইন বা বিধিমালা করা প্রয়োজন। তাই আশা করছি, এ বিষয়ে দুদক বা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় আইন বা বিধি করার বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে।

পরে হাইকোর্টের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল (আপিলের অনুমতি চেয়ে আবেদন) দায়ের করে দুদক।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের ২৪ আগস্ট আতাউর রহমানের সম্পদের তথ্য চেয়ে নোটিশ দেয় দুর্নীতি দমন কমিশন। এই নোটিশের পর ২২ অক্টোবর তিনি তার সম্পদের তথ্য দুদকে দাখিল করেন। এরপর দুদক অনুসন্ধানে নামে। এই অনুসন্ধানকালে দুদক গত বছরের ২০ ডিসেম্বর আতাউর রহমানের বিদেশ যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়ে পুলিশের বিশেষ শাখায় (এসবি) চিঠি দেয়। ওই চিঠির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করেন আতাউর রহমান। সেই রিটে জারি করা রুল শুনানি নিয়ে গত ১৬ মার্চ রায় দেন হাইকোর্ট। রায়ে ওই চিঠিকে অবৈধ ঘোষণা করেন হাইকোর্ট।

/বিআই/ইউএস/

সম্পর্কিত

রাবির সাবেক ভিসির বিরুদ্ধে দুদককে তদন্তের নির্দেশনা স্থগিত

রাবির সাবেক ভিসির বিরুদ্ধে দুদককে তদন্তের নির্দেশনা স্থগিত

দ্বিতীয় বিয়ে করতে চাওয়ায় ঘুমন্ত স্বামীর গায়ে ফুটন্ত তেল

দ্বিতীয় বিয়ে করতে চাওয়ায় ঘুমন্ত স্বামীর গায়ে ফুটন্ত তেল

টিকটক আসক্তিতে ঘর ছাড়া কিশোরী ময়মনসিংহে উদ্ধার

টিকটক আসক্তিতে ঘর ছাড়া কিশোরী ময়মনসিংহে উদ্ধার

মিজান ও বাছিরের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ ১২ অক্টোবর

মিজান ও বাছিরের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ ১২ অক্টোবর

ভারতের উপকূল অতিক্রম করেছে ‘গুলাব’, নেমেছে সংকেত 

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:০৮

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হওয়া ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’ ভারতের উপকূল অতিক্রম করেছে। এর প্রভাবে আর বাংলাদেশের সমুদ্রবন্দর ও নদীবন্দরে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার শংকাও দূর হয়েছে। তাই সমুদ্রবন্দরগুলোকে দেয়া ২ নম্বর (দুই নম্বর) দূরবর্তী সতর্কতা সংকেত নামিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে এবং তবে নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর (এক নম্বর) সর্তকতা সংকেত এখনও দেখাতে বলা হয়েছে।
 
সমুদ্রবন্দরগুলোর সতর্ক বার্তায় বলা হয়, উত্তর পশ্চিয় ও উত্তর-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় গুলাব মধ্যরাতে ভারতের উত্তর অন্ধ্র প্রদেশ এবং দক্ষিণ উড়িষ্যা উপকূল অতিক্রম করে গভীর নিম্নচাপ হিসেবে উত্তর অন্ধ্র প্রদেশ ও দক্ষিণ উড়িষ্যায় অবস্থান করছে। এটি আরও পশ্চিম ও উত্তর পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে আস্তে আস্তে দুর্বল হয়ে পড়তে পারে। এজন্য চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরগুলোকে ২ নম্বর (দুই নম্বর) দূরবর্তী হুশিয়ারি সতর্কতা সংকেত নামিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে। তবে উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারগুলোকে বিকাল পর্যন্ত সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

এদিকে আবহাওয়া অধিদফতরের পূবাভাসে বলা হয়, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়, ঢাকা ও রাজশাহী বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেটের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী বৃষ্টি হতে পারে।
 
নদীবন্দরগুলোর সতর্ক বার্তায় বলা হয়, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, কুষ্টিয়া, যশোর,  খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী,  নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার অঞ্চলগুলোর ওপর দক্ষিণ-দক্ষিণ পূর্বদিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ী দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ জন্য এসব এলাকার বন্দরগুলোকে ১ নম্বর (এক নম্বর) সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

/এসএনএস/ইউএস/

সম্পর্কিত

ভ্যাপসা গরমের পর রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

ভ্যাপসা গরমের পর রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

ঘূর্ণিঝড় 'গুলাব' ভারতের দিকে যাচ্ছে, গতিবেগ ঘণ্টায় ৮৮ কিলোমিটার

ঘূর্ণিঝড় 'গুলাব' ভারতের দিকে যাচ্ছে, গতিবেগ ঘণ্টায় ৮৮ কিলোমিটার

গভীর নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’-এ পরিণত, বাতাসের গতিবেগ ৬২ কিলোমিটার

গভীর নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’-এ পরিণত, বাতাসের গতিবেগ ৬২ কিলোমিটার

দুর্বল হয়েছে নিম্নচাপ, নামলো সমুদ্র বন্দরের সতর্কতা সংকেত

দুর্বল হয়েছে নিম্নচাপ, নামলো সমুদ্র বন্দরের সতর্কতা সংকেত

উপকূলীয় অঞ্চলে ‘ওয়ান টাইম প্লাস্টিক’ বন্ধে বিশেষ উদ্যোগ

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫৭

উপকূলীয় ১২টি জেলার ৪০ উপজেলা এবং চট্টগ্রাম মহানগরীর আটটি এলাকায় সিঙ্গেল ইউজ (ওয়ান টাইম) প্লাস্টিক ব্যবহার বন্ধে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে পরিবেশ অধিদফতর। তিন বছর মেয়াদী পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে এসব এলাকার সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিক ব্যবহার বন্ধ করা হবে। সম্প্রতি পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত একটি কর্ম পরিকল্পনার প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

যেসব এলাকায় সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিক বন্ধে পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে সেগুলো হলো- বাগেরহাট জেলার মোংলা, শরণখোলা ও মোড়েলগঞ্জ; বরগুনা জেলার আমতলী, সদর, পাথরঘাটা ও বামনা; ভোলা জেলার সদর, বোরহানউদ্দিন, চরফ্যাশনে, দৌলতখান লালমোহন, মনপুরা ও তজুমুদ্দিন; চট্টগ্রাম জেলার আনোয়ারা, বাঁশখালী, মীরসরাই, সন্দ্বীপ ও সীতাকুণ্ড এবং চট্টগ্রাম মহানগরীর বন্দর, ডাবলমুরিং, পাহাড়তলী, পাঁচলাইশ, পতেঙ্গা, হালিশহর, কোতোয়ালী ও বায়েজীদ বোস্তামী; কক্সবাজার জেলার চকরিয়া, সদর, কুতুবদিয়া, মহেশখালী, রামু ও টেকনাফ; ফেনী জেলার সোনাগাজী; খুলনার দাকোপ ও কয়রা; লক্ষ্মীপুরের রামগতি; নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ, হাতিয়া ও সদর; পটুয়াখালী জেলার দশমিনা, রাঙ্গাবালী, গলাচিপা ও কলাপাড়া; পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া; এবং সাতক্ষীরা জেলার আশাশুনি ও শ্যামনগর।

তিন ধাপে আগামী ২০২৩ সালের মধ্যে এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়। যেসব সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিক পণ্য বন্ধ করা হবে সেগুলোর মধ্যে রয়েছে- ওয়ান টাইম গ্লাস প্লেট ও অন্যান্য পণ্য; জুসের স্ট্র, ললিপপ কভার, স্যাসেট, সিগারেটের ফিল্টার, কটন বাড, সার্জিক্যাল গ্লভস বা মাস্ক এবং নন-রিসাইকেবল পণ্য (মাল্টিলেয়ার প্যাকেট)।

পরিকল্পনা অনুযায়ী প্রথম ধাপে ২০২১ সালের মধ্যে যাত্রী ও পণ্যবাহী নৌযান, অভ্যন্তরীণ বিমান বন্দর; দ্বিতীয় ধাপে ২০২১ সালের জুনের মধ্যে সমুদ্র সৈকত সংলগ্ন হোটেল-মোটেল রেস্টুরেন্ট; একই বছর ডিসেম্বরের মধ্যে সৈকত সংলগ্ন হাট বাজার, বাস স্টান্ড, ঘোষিত পাবলিক প্লেস উপজেলা অন্তর্গত সরকারি-আধা সরকারি দপ্তর, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং সর্বশেষ তৃতীয় ধাপে ২০২৩ সালের জুনের মধ্যে সৈকত সংলগ্ন সকল উপজেলা এবং ডিসেম্বরের মধ্যে সৈকত সংলগ্ন জেলায় সিঙ্গেল প্লাস্টিক পণ্য বন্ধ করা হবে।

এ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে কোস্টাল এলাকায় পরিবেশসম্মতভাবে পাইলট প্রকল্প হিসেবে কক্সবাজার ও পটুয়াখালীতে বর্জ্য সংগ্রহ ও বর্জ্য ফেলার সুবিধাদি স্থাপনের কথা বলা হয়েছে। 

/ইএইচএস/ইউএস/

সম্পর্কিত

টেকসই বেড়িবাঁধের অভাবে ঝুঁকির মুখে উপকূলের জীবন-জীবিকা

টেকসই বেড়িবাঁধের অভাবে ঝুঁকির মুখে উপকূলের জীবন-জীবিকা

খবর পেতে দিন গুনতে হয় না তাদের

খবর পেতে দিন গুনতে হয় না তাদের

উপকূলের আঁধার কাটালো সৌরবাতি

উপকূলের আঁধার কাটালো সৌরবাতি

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের করোনা চিকিৎসার ব্যয় কার?

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২৩

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীরা করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হলে দ্রুত চিকিৎসা নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। কিন্তু আক্রান্ত শিক্ষক-কর্মচারী ও শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার ব্যয় মেটানোর বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনও নির্দেশনা নেই। ফলে কে তাদের ব্যয় মেটাবে তা নিয়ে প্রশ্ন শিক্ষক ও অভিভাবকদের।

জানতে চাইলে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহম্মদ মনসুরুল আলম বলেন, ‘যাদের সামর্থ্য আছে তারা করোনা চিকিৎসা নিজেরাই করবেন। কারণ চিকিৎসা সরকারি হাসপাতালে ফ্রি। তারপরও যে অনুষঙ্গিক বাড়তি খরচ তাতে যাদের সামর্থ্য নেই তাদের বিষয়ে স্কুল ম্যানেজিং কমিটির তত্ত্বাবধানে স্থানীয় প্রশাসন সহযোগিতা নিয়ে করতে হবে।’

প্রসঙ্গত, গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সশরীরে শ্রেণি কার্যক্রম শুরুর পর শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে করোনাভাইরাস সংক্রান্ত হচ্ছে। বিগত কয়েকদিনে দেশের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষক ও শিক্ষার্থী করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর গণমাধ্যমে প্রকাশিত হয়।

প্রাথমিকে নতুন ক্লাস যুক্ত হচ্ছে না
করোনা পরিস্থিতি অনুকূলে এলে পর্যায়ক্রমে পুরোপুরি শ্রেণি পাঠদান শুরুর পরিকল্পনা থাকলেও সংক্রমণের এই অবস্থায় সরকারি প্রাথমিকে বিদ্যালয়ের শ্রেণি কার্যক্রমে নতুন করে কোনও ক্লাস যুক্ত হবে না।

করোনা সংক্রমণ কমলেও শিক্ষার্থীদের মধ্যে করোনা যাতে না ছড়িয়ে পড়ে সে লক্ষ্যেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর।

এ বিষয়ে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক আলমগীর মুহাম্মদ মনসুরুল আলম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আপাতত যেভাবে চলছে সেভাবেই বিদ্যালয়ে শ্রেণি পাঠদান চলবে। প্রত্যেক শ্রেণির জন্য প্রতিদিন তিনটি করে বিষয়ের শ্রেণি পাঠদান চলছে। স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর (এসওপি) অনুসারে পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে স্থানীয়ভাবে পাঠদান পরিকল্পনা নতুন করে করার কথা বলা থাকলেও এই পরিস্থিতিতে আপাতত নতুন ক্লাস যুক্ত হবে না।

/এসএমএ/এমআর/ইউএস/

সম্পর্কিত

এসএসসি পরীক্ষার সূচির প্রস্তাবে মন্ত্রণালয়ের সম্মতি সোমবার

এসএসসি পরীক্ষার সূচির প্রস্তাবে মন্ত্রণালয়ের সম্মতি সোমবার

রবিবার টিকা দেওয়া হয়েছে সাড়ে ৬ লাখ  

রবিবার টিকা দেওয়া হয়েছে সাড়ে ৬ লাখ  

প্রাথমিকে নতুন ক্লাস যুক্ত হচ্ছে না

প্রাথমিকে নতুন ক্লাস যুক্ত হচ্ছে না

নভেম্বরে ‘বিশেষ পরীক্ষা’ নেবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

নভেম্বরে ‘বিশেষ পরীক্ষা’ নেবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের করোনা চিকিৎসার ব্যয় কার?

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের করোনা চিকিৎসার ব্যয় কার?

এসএসসি পরীক্ষার সূচির প্রস্তাবে মন্ত্রণালয়ের সম্মতি সোমবার

এসএসসি পরীক্ষার সূচির প্রস্তাবে মন্ত্রণালয়ের সম্মতি সোমবার

প্রাথমিকে নতুন ক্লাস যুক্ত হচ্ছে না

প্রাথমিকে নতুন ক্লাস যুক্ত হচ্ছে না

নভেম্বরে ‘বিশেষ পরীক্ষা’ নেবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

নভেম্বরে ‘বিশেষ পরীক্ষা’ নেবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

চার লাখ শিক্ষার্থীকে ওরিয়েন্টেশন দেবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

চার লাখ শিক্ষার্থীকে ওরিয়েন্টেশন দেবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

প্রাথমিকে শিক্ষক বদলির পাইলটিং শুরু আগামী মাসে

প্রাথমিকে শিক্ষক বদলির পাইলটিং শুরু আগামী মাসে

বিডিএসে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী কোটায় ‘অ-আদিবাসী’ শিক্ষার্থী ভর্তি বন্ধের দাবি

বিডিএসে ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী কোটায় ‘অ-আদিবাসী’ শিক্ষার্থী ভর্তি বন্ধের দাবি

ক্লাস আপাতত বাড়ছে না: মাউশি মহাপরিচালক

ক্লাস আপাতত বাড়ছে না: মাউশি মহাপরিচালক

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে ক্লাস চালুর পরামর্শ

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে ক্লাস চালুর পরামর্শ

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

সর্বশেষ

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ

১৯ শিক্ষক-কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়নি বেরোবি কর্তৃপক্ষ

বিকৃত জাতীয় পতাকা প্রদর্শন১৯ শিক্ষক-কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়নি বেরোবি কর্তৃপক্ষ

এসেনসিয়াল ড্রাগসে চাকরি, বয়স ৩০ থেকে ৩৫ বছর

এসেনসিয়াল ড্রাগসে চাকরি, বয়স ৩০ থেকে ৩৫ বছর

বিদেশগমনে দুদক নিষেধাজ্ঞা দিতে পারবে কি না- সিদ্ধান্তের অপেক্ষা বাড়লো

বিদেশগমনে দুদক নিষেধাজ্ঞা দিতে পারবে কি না- সিদ্ধান্তের অপেক্ষা বাড়লো

কোপ-২৬ জলবায়ু সম্মেলনে অংশ নিতে চায় না অস্ট্রেলিয়া!

কোপ-২৬ জলবায়ু সম্মেলনে অংশ নিতে চায় না অস্ট্রেলিয়া!

© 2021 Bangla Tribune