X
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

গাজীপুরে বেতন-ভাতার দাবিতে ফের পোশাক শ্রমিকদের অবরোধ

আপডেট : ১৪ জুলাই ২০২১, ১৪:৪৭

বেতন-ভাতার দাবিতে ঢাকা-গাজীপুর সড়কের লক্ষ্মীপুরা এলাকা অবরোধ করেছেন স্টাইল ক্র্যাফ্ট পোশাক কারখানার শ্রমিক ও কর্মকর্তা-​কর্মচারীরা। বুধবার (১৪ জুলাই) সকাল ১০টা থেকে স্থানীয় সড়ক অবরোধ করেন তারা।

এর আগেও তারা একই দাবিতে বিক্ষোভ করেন। মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) একই স্থানে দুই ঘণ্টা অবরোধের পর রাত ৮টা পর্যন্ত কারখানা কর্তৃপক্ষের সাথে সাক্ষাতের জন্য অপেক্ষা করেন শ্রমিকরা। পরে ব্যর্থ হয়ে রাতে ফিরে যান।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বুধবার সকাল ৮টায় কারখানায় এসে কাজে যোগদান না করে বিক্ষোভ শুরু করেন শ্রমিকরা। এক পর্যায়ে সকাল ১০টার দিকে ঢাকা-গাজীপুর সড়ক অবরোধ করেন। এতে দুই দিকে যানবাহন আটকে পড়ে যানজট তৈরি হয়। এসবের মধ্যে পণ্যবাহী যানবাহনের সংখ্যাই বেশি।

কারখানার সুইং শাখার চামেলী ও খাদিজাসহ কয়েকজন শ্রমিক জানান, নতুন কোনো তারিখ বা প্রতিশ্রুতির প্রয়োজন নেই। আমাদের বেতন-ভাতা দিতে হবে। 

স্টাইল ক্র্যাফ্ট পোশাক কারখানায় প্রায় সাড়ে ৭০০ কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং প্রায় পাঁচ হাজার শ্রমিক রয়েছে। তাদের চলতি বছরের মার্চ, মে, জুন এবং ২০২০ সালের মার্চ ও আগস্ট মাসের শতকরা ৫০ ভাগ, ২০১৯ সালের ডিসেম্বর, অক্টোবর মাসের ৩৫ ভাগ, নভেম্বর মাসের ১৫ ভাগ বেতন পাওনা রয়েছে। 

এছাড়া কারখানার কর্মচারীরা বেতন বৃদ্ধিসহ তাদের চার বছরের বাৎসরিক ছুটি ও দুই বছরের ঈদ বোনাসের টাকা পাওনা রয়েছে। তারা বেশকিছু দিন ধরে এসব পাওনাদি পরিশোধের জন্য কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানিয়ে আসছিলেন। কারখানা কর্তৃপক্ষ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পাওনাদি পরিশোধের একাধিকবার তারিখ ঘোষণা করলেও পরিশোধ করেনি। 

সর্বশেষ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পাওনা গত মার্চ মাসের বকেয়া বেতন ৭ জুলাই এবং মে ও জুন মাসের বকেয়া বেতন ১৫ জুলাই এবং ঈদের বোনাস ১৮ জুলাই পরিশোধের আশ্বাস দিয়ে তারিখ নির্ধারণ করে ঘোষণা দেয়। কিন্তু মালিকপক্ষ প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী ৭ জুলাই কারখানার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পাওনা পরিশোধ না করে তিন মাসের বকেয়া পাওনা একত্রে ১৫ জুলাই পরিশোধের ঘোষণা দেয়। এতে কর্মচারীদের মধ্যে অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়ে। গত ঈদুল ফিতরের সময়ও আন্দোলন করে তাদের বেতন-বোনাস নিতে হয়েছে।

গাজীপুর শিল্প পুলিশের পরিদর্শক সমীর চন্দ্র সূত্রধর জানান, বুধবার বেতন-ভাতার দাবিতে সকাল ১০টা থেকে সড়ক অবরোধ করে। শ্রমিকদের পাওনা টাকা দিতে হবে। এছাড়া আলোচনার কোনও সুযোগ নেই। অনেকবার মালিকপক্ষ থেকে প্রতিশ্রুতি দিয়ে সে অনুযায়ী প্রতিশ্রুতি রক্ষা করা হয়নি। শ্রমিকদের টাকা দেওয়া ছাড়া বোঝানোর আর কোনও পথ নেই। তাছাড়া শ্রমিকেরা রাত পর্যন্ত কারখানা মালিকের জন্য অপেক্ষা করে না পেয়ে ফিরে গেছেন। বুধবার সকাল গড়িয়ে দুপুর হয়েছে। এখনও মালিকপক্ষের কেউ শ্রমিকদের সাথে কথা বলতে আসেননি।

কারখানার ইনচার্জ আবু বকর সিদ্দিক জানান, শ্রমিকদের রোজার ঈদের আগে এপ্রিল মাসের ১৯ দিনের বেতন এবং ঈদ বোনাস দেয়া হয়েছে। এখন শুধু এপ্রিলের ১১ দিন এবং মে-জুন মাসের বেতন পাবেন তারা। গত ১০ জুলাই শ্রমিকদের নিয়ে কারখানার এমডি ভার্চুয়ালি মিটিং করেছেন। মিটিংয়ে করোনাকালীন বন্ধের প্রথম ৪৫ দিনের ৫০ শতাংশ এবং পরের দিনগুলোর ২৫ শতাংশ বেতন দেওয়ার কথা জানানো হয়। কিন্তু শ্রমিকরা সিদ্ধান্তটি না মেনে বিক্ষোভ করছে। বিষয়টি নিয়ে কল-কারখানা অধিদফতর এবং ইন্ডাস্ট্রিয়াল পুলিশের সঙ্গে আলোচনা চলছে। শিগগিরই এ সমস্যার সমাধান করা হবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

পদ্মার ৩৭ কেজির বাগাড় ৪৮ হাজারে বিক্রি

পদ্মার ৩৭ কেজির বাগাড় ৪৮ হাজারে বিক্রি

যুবদলের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল

যুবদলের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল

পদ্মায় কম থাকলেও বাজার ভরে গেছে ‘পদ্মার ইলিশে’

পদ্মায় কম থাকলেও বাজার ভরে গেছে ‘পদ্মার ইলিশে’

১১ লাখ টাকার অর্ডার নিয়ে প্রতারণা, ধামাকার ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

১১ লাখ টাকার অর্ডার নিয়ে প্রতারণা, ধামাকার ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

পুকুরে ডুবে যমজ ভাইবোনের মৃত্যু

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:৩৫

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে পুকুরে ডুবে জাকিয়া বেগম ও জাকির হোসেন নামে আড়াই বছর বয়সী যমজ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টার দিকে উপজেলার কুন্ডা ইউনিয়নের মুসলেন্দপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। তাদের বাবা মসলেন্দপুর গ্রামের মাসুক মিয়া।

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, আজ সকালে জাকিয়া ও জাকিরকে সকালের খাবার খাওয়ানোর পর পাশের বাড়িতে যান তাদের মা। এ সময় বাড়ির আঙিনায় খেলা করছিলো তারা। একটু পর তাদের মা বাড়িতে এসে দেখেন, তারা নেই। আশপাশের সব জায়গায় খুঁজের না পেয়ে বাড়ির পাশে পুকুরে গিয়ে একজনকে ভাসতে দেখেন। এলাকাবাসীর সহযোগিতায় দুইজনকে উদ্ধার করে কুন্ডা ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে গেলে কর্তৃব্যরত চিকিৎসকরা তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

কুন্ডা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ওয়াছ আলী জানান, পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। 

নাসিরনগর থানার ভারপ্রাপ্ত (ওসি) কর্মকর্তা হাবিবুল্লাহ সরকার বলেন, পরিবারের আপত্তি না থাকায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই তাদের লাশ দাফন করা হয়েছে। তাদের দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

প্রশিক্ষণের জন্য বরাদ্দ অর্ধকোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

প্রশিক্ষণের জন্য বরাদ্দ অর্ধকোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

যুবদলের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল

যুবদলের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল

রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত ৩ বাংলাদেশিকে উদ্ধার

রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত ৩ বাংলাদেশিকে উদ্ধার

প্রশিক্ষণের জন্য বরাদ্দ অর্ধকোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:২০

কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২০২০-২১ অর্থবছরে করোনার টিকাদান ও হাম রুবেলা (এমআর) কর্মসূচিসহ বিভিন্ন প্রশিক্ষণের নামে বরাদ্দ অর্থ থেকে প্রায় ৫৪ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। হাসপাতালের প্রধান সহকারী শাহ আলম ও ইপিআই টেকনিশিয়ান নিজাম উদ্দিন মজুমদারের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ তুলে জেলা সিভিল সার্জন ও স্বাস্থ্য বিভাগের বিভিন্ন দফতরসহ দুর্নীতি দমন কমিশনে (দুদক) চিঠি দিয়েছেন হাসপাতালের মাঠকর্মীরা। 

অভিযোগপত্রে বলা হয়েছে, মুরাদনগর উপজেলা ২২টি ইউনিয়নের ৬৬টি ওয়ার্ডের জন্য প্রায় ৩৪ লাখ দুই হাজার ৮০০ টাকা বরাদ্দ আসে। বরাদ্দ বিবরণীতে বলা হয়, প্রতিটি ইউনিয়নে একটি করে উপজেলা সদরের তিনটিসহ মোট ২৫টি দল টিকাদানকারী হিসেবে প্রশিক্ষণ শেষে কাজ শুরু করবেন। কিন্তু এখানে কোনও প্রশিক্ষণ না দিয়েই ‘টিকাদানকারী ও স্বেচ্ছাসেবকদের কাছ থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন’ মর্মে স্বাক্ষর নেওয়া হয়েছে।

এ ছাড়া মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ২০২০-২১ অর্থবছরে করোনা টিকাদান কর্মসূচি ও এমআর ক্যাম্পেইনসহ অন্যান্য প্রশিক্ষণের জন্য ৫৩ লাখ ৯৪ হাজার ৬৭০ টাকা বরাদ্দ আসে। ওই টাকা খরচ দেখিয়ে উত্তোলন করেছেন দুই কর্মকর্তা। ফলে হাসপাতালে কর্মরত নার্স, স্বাস্থ্য সহকারী ও স্বেচ্ছাসেবকরা প্রশিক্ষণের ভাতা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। এতে তাদের মধ্যে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে। এ বিষয়ে কেউ প্রকাশ্যে মুখ না খুললেও ৫৪ জন মাঠকর্মী স্বাক্ষরিত কাগজ অভিযোগের সঙ্গে সংযুক্ত করা হয়েছে।

অভিযোগপত্রে আরও উল্লেখ করা হয়েছে, প্রধান সহকারী শাহ আলম গত ১৩ বছর ধরে এই হাসপাতালে আছেন। চিকিৎসক, নার্স ও মাঠ পর্যায়ের কর্মচারীসহ কেউ মাতৃত্বকালীন ছুটি ও যোগদান, বদলিসহ অন্যান্য অফিসিয়াল কাজে তার কাছে গেলে দুই থেকে পাঁচ হাজার টাকা দিতে হয়। মাসে মাসে মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে কমপ্লেক্সের এক আয়া আট বছর ধরে কর্মস্থলে না এসেই বেতন-ভাতা তুলছেন।

অভিযোগের বিষয়ে ইপিআই টেকনিশিয়ান নিজাম উদ্দিন মজুমদার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‌‘আমি এ বিষয়ে কিছুই জানি না। উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (ইউএইচও) নাজমুল আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তিনি সব বলতে পারবেন।’

প্রধান সহকারী শাহ আলম বলেন, ‘হাসপাতালের টাকা আত্মসাতের সঙ্গে আমার কোনও সম্পৃক্ততা নেই। তাছাড়া কেউ এ বিষয়ে আমার কাছ থেকে কিছুই জানতে চায়নি।’

মুরাদনগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নাজমুল আলম বলেন, ‌‘কোনও ধরনের দুর্নীতির বিষয়ে আমার জানা নেই। বিভিন্ন মাধ্যমে খবর পাচ্ছি, হাসপাতালের দুই জন কর্মচারীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন দফতরে অভিযোগ হয়েছে। এর বেশি কিছু বলতে পারবো না।’

কুমিল্লা জেলা সিভিল সার্জন ডা. মীর মোবারক হোসেন বলেন, ‘অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তাই এখন কোনও মন্তব্য করতে চাই না।’

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

পুকুরে ডুবে যমজ ভাইবোনের মৃত্যু

পুকুরে ডুবে যমজ ভাইবোনের মৃত্যু

যুবদলের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল

যুবদলের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল

রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত ৩ বাংলাদেশিকে উদ্ধার

রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হাতে অপহৃত ৩ বাংলাদেশিকে উদ্ধার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৫৮০ মণ্ডপে হবে দুর্গাপূজা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৫৮০ মণ্ডপে হবে দুর্গাপূজা

কালীগঙ্গা নদীতে সেতুর খবরে এলাকাবাসীর মাঝে আনন্দ

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:১২

পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলার কালীগঙ্গা নদীর (অতুলনগর খেয়াঘাট থেকে এক হাজার মিটার) ওপর সেতু নির্মিত হচ্ছে। সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব আব্দুল্লাহ-আল-মাসুদ স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ তথ্য জানা গেছে। পিরোজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম ওই চিঠিটি ফেসবুকে শেয়ার করেছেন। সেতু নির্মাণের এ খবরে এলাকাবাসীর মধ্যে আনন্দ বিরাজ করছে।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী জানান, গত ৫ সেপ্টেম্বর তিনি পিরোজপুর-গোপালগঞ্জ-ঢাকা মহাসড়কের চেইনেজ তিন হাজার ১৫০ মিটার অংশে পার্শ্ববর্তী কালিগঙ্গা নদীর ওপর অতুলনগর ঘাটে এক হাজার মিটার সেতু নির্মাণের ডিও লেটার দেন।

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব আব্দুল্লাহ-আল-মাসুদ স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে, কালিগঙ্গা নদীর ওপর অতুলনগর ঘাটে সেতু নির্মাণের ফিজিবিলিটি স্টাডি সম্পাদন করে প্রতিবেদন পাঠাতে বলা হয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেন, ‘উন্নত সমৃদ্ধ পিরোজপুর গড়ার জন্য আমি কাজ করে যাচ্ছি।’

মালিখালী এলাকার বাসিন্দা নাজিরপুর উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক কৃষ্ণা বসু বলেন, ‘কালীগঙ্গা নদীর ওপর সেতু হচ্ছে এ খবরে আমরা আনন্দিত। বর্ষাকালে এ নদী থাকে খুবই উত্তাল। খেয়া পার হতে গিয়ে অনেক সময় নৌকাডুবির ঘটনা ঘটে। আমরা কৃতজ্ঞতা জানাই, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি। কৃতজ্ঞতা জানাই, পিরোজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমের প্রতি। তার চেষ্টায়ই এটি নির্মিত হচ্ছে।’

মালিখালী ইউনিয়নের ৪নং মালিখালী ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য তপন মণ্ডল বলেন, ‘বর্ষাকালে কালীগঙ্গা নদী থাকে উত্তাল। এই নদীতে (অতুলনগর এলাকায়) সেতু হচ্ছে এ খবরে আমাদের মাঝে এখন আনন্দের বান। দোয়া করি পিরোজপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিমের জন্য। মালিখালী এলাকার মানুষের রোগব্যাধি হলে চিকিৎসা করাতে যেতে হয় টুঙ্গিপাড়ায়। সেতু হলে তারা নাজিরপুরে চিকিৎসা করাতে যেতে পারবেন।’

স্থানীয় বাসিন্দা অধ্যাপক প্রাণকৃষ্ণ বিশ্বাস বলেন, ‘পিরোজপুর-১ আসনের নাজিরপুর উপজেলা ছিল সবচেয়ে বেশি অবহেলিত। শ্রদ্ধেয় শ ম রেজাউল করিম সংসদ সদস্য ও মন্ত্রী হওয়ার পর তার এলাকায় একের পর এক উন্নয়ন করে যাচ্ছেন।’ 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

পদ্মার ৩৭ কেজির বাগাড় ৪৮ হাজারে বিক্রি

পদ্মার ৩৭ কেজির বাগাড় ৪৮ হাজারে বিক্রি

পরীক্ষায় ‘নকল উৎসব’, শিক্ষকদের সহায়তার অভিযোগ

পরীক্ষায় ‘নকল উৎসব’, শিক্ষকদের সহায়তার অভিযোগ

কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে বিআরটিসির এ অবস্থা: চেয়ারম্যান

কর্তৃপক্ষের গাফিলতির কারণে বিআরটিসির এ অবস্থা: চেয়ারম্যান

‘ডিসেম্বরের মধ্যে অর্ধেকের বেশি মানুষকে টিকার আওতায় আনা হবে’

‘ডিসেম্বরের মধ্যে অর্ধেকের বেশি মানুষকে টিকার আওতায় আনা হবে’

রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলের ছাত্র করোনায় আক্রান্ত

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৩৪

রাজশাহী কলেজিয়েট স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্র করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। বর্তমানে সে বাসায় থেকে চিকিৎসা নিচ্ছে।

রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে স্কুলের প্রধান শিক্ষক ড. নূরজাহান বেগম জানান, ওই ছাত্রের পরিবার আগে থেকে করোনায় আক্রান্ত। সেখান থেকে সে আক্রান্ত হয়ে থাকতে পারে। গত ১৮ সেপ্টেম্বর তার করোনা শনাক্ত হয়। এর আগে সে স্কুলে এসেছিলো। 

তিনি আরও জানান, ওই শিক্ষার্থীর দাদিসহ পরিবারের আরও দুইজন করোনা রোগী বাড়িতে ছিলেন। তাদের মাধ্যমেই সে আক্রান্ত হতে পারে। এ জন্য তাকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে। স্কুলের অন্যদের মধ্যে এখনও করোনার উপসর্গ দেখা যায়নি। তাই নিয়ম অনুযায়ী ক্লাস চলবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিএনপির তিন শীর্ষ নেতার জামিন

রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় বিএনপির তিন শীর্ষ নেতার জামিন

৪ ঘণ্টা পর পাবনা-রাজশাহী রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

৪ ঘণ্টা পর পাবনা-রাজশাহী রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক

রামেকের করোনা ইউনিটে ২৬ দিনে ১৫০ জনের মৃত্যু

রামেকের করোনা ইউনিটে ২৬ দিনে ১৫০ জনের মৃত্যু

পদ্মার ৩৭ কেজির বাগাড় ৪৮ হাজারে বিক্রি

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:১৪

রাজবাড়ির গোয়ালন্দে পদ্মা নদীতে ৩৭ কেজি ওজনের একটি বিশাল বাগাড় মাছ ধরা পড়েছে। পরে মাছটি ৪৮ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়। রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) ভোর রাতে দৌলতদিয়া চর কর্ণেশনা কলাবাগান এলাকার পদ্মা নদী থেকে মাছটি ধরা হয়।

মানিকগঞ্জ জেলার জাফরগঞ্জের জেলে গোবিন্দ হালদারের জালে মাছটি ধরা পড়ে।

জানা গেছে, জেলে গোবিন্দ হালদার সকাল ৯টার দিকে মাছটি বিক্রির উদ্দেশ দৌলতদিয়া বাইপাস সড়কের পাশে দুলাল মণ্ডলের মৎস্য আড়তে আনেন। সেখানে উন্মুক্ত নিলামে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে স্থানীয় মৎস্য ব্যবসায়ী চাঁদনী-আরিফা মৎস্য আড়তের মালিক মো. চান্দু মোল্লা এক হাজার ৩০০ টাকা কেজি দরে ৪৮ হাজার ১০০ টাকায় মাছটি কিনে নেন।

চান্দু মোল্লা বলেন, ‘সকালে ঘাটে এসেই দেখি একটি বড় বাগাড় নিলামে উঠেছে। পদ্মার মাছের চাহিদা বেশি, তার ওপর এত বড় বাগাড়। তাই সর্বোচ্চ দাম দিয়ে কিনে নিই। আশা করছি, বেশ লাভে বিকালের মধ্যেই মাছটি বিক্রি করতে পারবো।’

এ বিষয়ে জেলা মৎস্য কর্মকর্তা রোকোনুজ্জামান জানান, পদ্মায় আজকাল নিয়মিতই বড় বড় মাছ ধরা পড়ছে। এতে জেলে ও ব্যবসায়ীরা খুব খুশি।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

কালীগঙ্গা নদীতে সেতুর খবরে এলাকাবাসীর মাঝে আনন্দ

কালীগঙ্গা নদীতে সেতুর খবরে এলাকাবাসীর মাঝে আনন্দ

পদ্মায় কম থাকলেও বাজার ভরে গেছে ‘পদ্মার ইলিশে’

পদ্মায় কম থাকলেও বাজার ভরে গেছে ‘পদ্মার ইলিশে’

জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের কর্মীর হয়রানি থেকে বাঁচতে আবেদন 

জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের কর্মীর হয়রানি থেকে বাঁচতে আবেদন 

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

পদ্মার ৩৭ কেজির বাগাড় ৪৮ হাজারে বিক্রি

পদ্মার ৩৭ কেজির বাগাড় ৪৮ হাজারে বিক্রি

যুবদলের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল

যুবদলের পকেট কমিটি বাতিলের দাবিতে ঝাড়ু ও জুতা মিছিল

পদ্মায় কম থাকলেও বাজার ভরে গেছে ‘পদ্মার ইলিশে’

পদ্মায় কম থাকলেও বাজার ভরে গেছে ‘পদ্মার ইলিশে’

১১ লাখ টাকার অর্ডার নিয়ে প্রতারণা, ধামাকার ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

১১ লাখ টাকার অর্ডার নিয়ে প্রতারণা, ধামাকার ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা

জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের কর্মীর হয়রানি থেকে বাঁচতে আবেদন 

জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের কর্মীর হয়রানি থেকে বাঁচতে আবেদন 

‘পদ্মা সেতু এলাকায় সোনারগাঁ হোটেলকে সম্প্রসারণ করার পরিকল্পনা আছে’

‘পদ্মা সেতু এলাকায় সোনারগাঁ হোটেলকে সম্প্রসারণ করার পরিকল্পনা আছে’

বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে জন্ম নেওয়া সিংহ-শাবক মারা গেছে

বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে জন্ম নেওয়া সিংহ-শাবক মারা গেছে

‘১৭ হাজার কোটি টাকার এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে ২০২৬ সালে চালু’

‘১৭ হাজার কোটি টাকার এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে ২০২৬ সালে চালু’

পদ্মার ১২ কেজির চিতল ১৯ হাজারে বিক্রি

পদ্মার ১২ কেজির চিতল ১৯ হাজারে বিক্রি

সর্বশেষ

পুকুরে ডুবে যমজ ভাইবোনের মৃত্যু

পুকুরে ডুবে যমজ ভাইবোনের মৃত্যু

‘মেয়েরা অনেক ভালো খেলেছে’

‘মেয়েরা অনেক ভালো খেলেছে’

টিসিবির পণ্য বিক্রির মেয়াদ বাড়লো  

টিসিবির পণ্য বিক্রির মেয়াদ বাড়লো  

দুই বিশিষ্ট ব্যক্তির নামে ডিএনসিসির দুই সড়কের নামকরণ

দুই বিশিষ্ট ব্যক্তির নামে ডিএনসিসির দুই সড়কের নামকরণ

১০,৫০০ শ্রমিককে ভিসা দেবে যুক্তরাজ্য

১০,৫০০ শ্রমিককে ভিসা দেবে যুক্তরাজ্য

© 2021 Bangla Tribune