X
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

লকডাউন শিথিলে সামাজিক দূরত্ব গায়েব

আপডেট : ১৫ জুলাই ২০২১, ২৩:৫৫

ঈদের আগে আটদিন বিধিনিষেধ শিথিল করেছে সরকার। টানা দু’সপ্তাহ দোকান, বাজার, শপিং মল বন্ধ থাকার পর আজ বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) থেকে আবারও সব খুলেছে। সুযোগ পেয়ে এতদিন ঘরে আটকা মানুষ ছুটছেন বাজারে ও শপিং মলে। বেশিরভাগের মুখে মাস্ক থাকলেও ভিড়ের মধ্যে গাদাগাদি করেই কিনছেন এটা-ওটা। রাজধানীর নিউমার্কেট ও কয়েকটি শপিং মল ঘুরে দেখা গেছে এ চিত্র।

মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের প্রজ্ঞাপনে দোকানপাট খোলার সিদ্ধান্ত জানানো হয়। এরপর যাবতীয় মার্কেট খোলার সিদ্ধান্ত নেয় ঢাকা মহানগর দোকান মালিক সমিতি।

সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক আরিফুর রহমান টিপু স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, এ বৃহস্পতিবার থেকে পরের বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) পর্যন্ত আটদিন শপিং মল, মার্কেট ও অন্যান্য দোকানপাট খোলা থাকবে। এসময় সরকারি সকল বিধিনিষেধ ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতেও দোকান মালিকদের আহ্বান জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার নিউমার্কেটে দেখা গেছে ক্রেতাদের উপচেপড়া ভিড়। কেউ ঈদের কেনাকাটা করতে এসেছেন, কেউ এসেছেন সাংসারিক জিনিসপত্র কিনতে। প্রায় সবার মুখে মাস্ক থাকলেও গা ঘেঁষে দাঁড়িয়ে জিনিসপত্র কিনতে দেখা যায় তাদের। ঠেলাঠেলি করে কেউ কিনছেন কানের দুল, কেউ জুতা, ব্যাগ, কসমেটিকস ও পোশাক।

গাউসিয়া ও চাঁদনি চক এলাকাতেও একই দৃশ্য। ফুটপাত থেকে শুরু করে মার্কেটের দোকানগুলোতেও চাপ ছিল ক্রেতার। দোকানের ভেতর নির্দিষ্ট দূরত্বে দাঁড়ানোর উপায় ছিল না কারও।

গাউসিয়ার কসমেটিকস ব্যবসায়ী আজমল জানান, ‘ক্রেতাদের চাপ দোকানের ভেতর এসে পড়লে সামলানো মুশকিল হয়ে যায়। পর্যাপ্ত জায়গা না থাকায় সামাজিক দূরত্ব মানানো যায় না। এখন কাস্টমার কমিয়ে দিলে দেখা যাবে তিনি আরেক দোকানে চলে যাবেন। সবদিকেই সমস্যা।’

মিরপুর থেকে চাঁদনি চকে পরিবারসহ কেনাকাটা করতে এসেছেন একরাম। সঙ্গে দুই শিশুসন্তানও ছিল। শিশুদের নিয়ে ভিড়ের মধ্যে গাদাগদি করে কেনাকাটা করা ঠিক হচ্ছে কিনা- এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘কিছু করার নাই।’

শপিংমলগুলোতেও একই চিত্র। মাস্ক পরে মার্কেটে প্রবেশ করছেন ঠিকই, কিন্তু ভেতরে গাদাগাদি। বসুন্ধরা সিটি শপিং মলে দেখা যায়, ক্রেতারা লাইন ধরে মার্কেটে ঢুকছেন। ঢোকার সময় শরীরের তাপমাত্রা মাপা হলেও ভেতরের চিত্র নিউমার্কেটের মতোই। সামাজিক দূরত্ব মানার প্রবণতা দেখা যায়নি কারও মধ্যে। এসকেলেটর ও লিফটে গাদাগাদি করেই উঠছেন সবাই।

মলটির দায়িত্বরত এক কর্মচারী জানান, ‘মার্কেটের সামনে ও ভেতরে একটু পর পর মাইকিং করে নির্দেশনা দেওয়া হচ্ছে। তারপরও শোনে না কেউ।’

কেনাকাটায় মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে সংক্রমণ কমতে পারে বলে আশা প্রকাশ করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তিনি বলেন, ‘লকডাউন শিথিল করা হলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে আশা করি সংক্রমণের হার নিয়ন্ত্রণে থাকবে। আমরা এমনভাবে ঘোরাফেরা না করি, যাতে ঈদের আনন্দ ট্রাজেডিতে পরিণত হয়। মানুষ মারা গেলে ঈদ আর ঈদ থাকবে না।’

মহামারিতে সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার এখন সর্বোচ্চ পর্যায়ে। ভয়াবহ এ পরিস্থিতিতে লকডাউন শিথিল করার সরকারি সিদ্ধান্তে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি। সেইসঙ্গে সারাদেশে কঠোর লকডাউন আরও ১৪ দিন বাড়ানোসহ কোরবানির পশুর হাট বন্ধ রাখারও সুপারিশ করেছে তারা।

কেনাকাটায় মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

/এফএ/

সম্পর্কিত

আগারগাঁওয়ে ছয়তলা ভবন থেকে পড়ে যুবকের মৃত্যু

আগারগাঁওয়ে ছয়তলা ভবন থেকে পড়ে যুবকের মৃত্যু

বুড়িগঙ্গা রক্ষায় সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান 

বুড়িগঙ্গা রক্ষায় সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান 

সিআরবি রক্ষায় সাংস্কৃতিক প্রতিবাদে মুখর শাহবাগ

সিআরবি রক্ষায় সাংস্কৃতিক প্রতিবাদে মুখর শাহবাগ

‘ক্ষতিগ্রস্ত গ্রাহকদের টাকা ফেরতের ব্যবস্থা নিতে হবে’

‘ক্ষতিগ্রস্ত গ্রাহকদের টাকা ফেরতের ব্যবস্থা নিতে হবে’

নকল ওষুধসহ গ্রেফতার ৩

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:৩১

উৎপাদন নিষিদ্ধ ও দেশি-বিদেশি নামিদামি ব্র্যান্ডের নকল ওষুধ ও ক্রিম উদ্ধারসহ তিন জনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ-ডিবি। গ্রেফতারকৃতরা হলো— ফয়সাল আহমেদ, সুমন চন্দ্র মল্লিক ও লিটন গাজী।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) ঢাকার কোতোয়ালি থানার মিটফোর্ড এলাকার বিভিন্ন ওষুধের দোকানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার ও নকল ওষুধ জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃত ব্যক্তিদের কাছ থেকে একশ’ পিস আই পিল, ১৬০ পিস সুপার গোল্ড কস্তুরি, ৩ হাজার পিস ন্যাপ্রোক্সেন প্লাস, ৩৫০ পিস বেটনোভেট-সি, এক হাজার পিস প্রটোবিট, ১১৫ বক্স ইনো, ৪০০ পিস সাঙ্গারা, ১৫০০ পিস পেরিয়াক্টিন, ১১০টি মুভ ক্রিম, ৫০০ কৌটা হোয়াইটফিল্ড, ৩০টি রিংগার্ড, ২৫০টি নিক্স রাবিং বাম, ৩০০টি ভিক্স কোল্ড প্লাস, ২০ কৌটা ভ্যাপোরাব ও ৪২০ কৌটা গ্যাকোজিমা উদ্ধার করা হয়েছে।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ডিবির যুগ্ম কমিশনার (দক্ষিণ) মাহবুব আলম। তিনি বলেন, ‘কতিপয় অসাধু ব্যবসায়ী রাজধানীর মিটফোর্ডের পাইকারি ওষুধ মার্কেটের বিভিন্ন দোকানে নিষিদ্ধ ও জীবন রক্ষাকারী দেশি-বিদেশি ব্র্যান্ডের নকল ওষুধ ও ক্রিম বিক্রয় করে আসছে। গোপন তথ্যের ভিত্তিতে  ভিত্তিতে ওষুধ অধিদফতরের সহায়তায় মিটফোর্ডের সুরেশ্বরী মেডিসিন প্লাজার নিচ তলার মেডিসিন ওয়ার্ল্ড ও অলোকনাথ ড্রাগ হাউস এবং হাজি রানি মেডিসিন মার্কেটের নিচতলায় রাফসান ফার্মেসিতে অভিযান চালানো হয়।’

ডিবির এই কর্মকর্তা জানান, রাজধানীর মিটফোর্ড মার্কেটটি ওষুধের পাইকারি বাজার হওয়ায় নকল ওষুধ উৎপাদন ও বাজারজাতকারী চক্র সমগ্র দেশে নকল ওষুধ ছড়িয়ে দিতে এই মার্কেটকে ক্যামোফাজ হিসেবে ব্যবহার করে আসছে।

তিনি আরও জানান, গ্রেফতারকৃতরা অধিক লাভের আশায় এসব দেশি ও বিদেশি নামিদামি ব্র্যান্ডের ওষুধ ও ক্রিম তাদের সহযোগীদের কাছ থেকে সংগ্রহ করে মিটফোর্ড এলাকায় বাজারজাত করে আসছিল।

অভিযান পরিচালনকারী গোয়েন্দা লালবাগ জোনের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার সাইফুল ইসলাম আজাদ বলেন, ‘গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে কোতোয়ালি থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা করা হয়েছে। এই চক্রে আরও লোকজন রয়েছে। তাদের গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

/এনএল/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাবরের আত্মপক্ষ সমর্থন ২১ সেপ্টেম্বর

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাবরের আত্মপক্ষ সমর্থন ২১ সেপ্টেম্বর

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাবরের আত্মপক্ষ সমর্থন ২১ সেপ্টেম্বর

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:১৪

২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার ঘটনায়  মৃত্যুদণ্ড পাওয়া আসামি ও সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লুৎফুজ্জামান বাবরের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য আগামী ২১ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৭ এর বিচারক মোহাম্মদ শহীদুল ইসলামের আদালতে মামলাটির পুনরায় সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হলে আসামির আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য নতুন তারিখ ধার্য করেন আদালত।

এর আগে গত ২১ জানুয়ারি মামলাটি যুক্তিতর্ক উপস্থাপনের জন্য ধার্য  ছিল। কিন্তু রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোশারফ হোসেন কাজল মামলাটির পুনরায় সাক্ষ্যগ্রহনের জন্য আদালতে আবেদন করেন। তার আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত তা মঞ্জুর করেন।

মামলায় অভিযোগ থেকে জানা যায়, বাবরের বিরুদ্ধে ৭ কোটি ৫ লাখ ৯১ হাজার ৮৯৬ টাকার অবৈধ সম্পদ রাখার অভিযোগ আনা হয়। কিন্তু দুদকে ৬ কোটি ৭৭ লাখ ৩১ হাজার ৩১২ টাকার সম্পদের হিসাব দাখিল করেছিলেন তিনি। তার অবৈধ সম্পদের মধ্যে প্রাইম ব্যাংক এবং এইচএসবিসি ব্যাংকে দুইটি এফডিআরে ৬ কোটি ৭৯ লাখ ৪৯ হাজার ২১৮ টাকা এবং বাড়ি নির্মাণ বাবদ ২৬ লাখ ৪২ হাজার ৬৭৮ টাকা গোপন করার অভিযোগ করা হয়।

ওই ঘটনায় ২০০৮ সালের ১৩ জানুয়ারি এই আসামির বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জন ও তথ্য গোপন করার অভিযোগে রমনা থানায় মামলাটি দায়ের করে দুদক। পরে তদন্তকারী কর্মকর্তা দুদকের উপ-সহকারী পরিচালক রূপক কুমার সাহা তদন্ত শেষে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

/এমএইচজে/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

উগ্রবাদী বইয়ের প্রকাশক গ্রেফতার

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:১৪

নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের (এবিটি) উগ্রবাদী মতাদর্শ প্রচার করা বইয়ের প্রকাশক হাবিবুর রহমান ওরফে শামীমকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের অ্যান্টি টেরোরিজম ইউনিট (এটিইউ)।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর বাংলাবাজারের ইসলামি মার্কেট এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত শামীম আল রিহাব পাবলিকেশন্সের স্বত্বাধিকারী ও প্রকাশক।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে এ তথ্য নিশ্চিত করেন অ্যান্টি টেরোরিজম ইউনিটের মিডিয়া অ্যান্ড অ্যাওয়ারনেস শাখার পুলিশ সুপার মো. আসলাম খান।

তিনি বলেন, ২০১৬ সাল থেকে হাবিবুর রহমান ওরফে শামিম আল রিহাব পাবলিকেশন্স নামে একটি প্রকাশনা চালু করে। মুফতি জসীমউদ্দিন রাহমানীর একান্ত সহযোগী ফিরোজ তাকে মুফতি জসিম উদ্দিন রহমানের কিছু বই প্রকাশ করার জন্য দেয়। সে তার প্রকাশনা থেকে বইগুলো প্রকাশ ও বিক্রি করে। বই প্রকাশ সূত্রে সে মুফতি জসীমউদ্দিন রাহমানীর মতাআদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে আনসারুল্লাহ বাংলা টিম সমর্থন করা শুরু করে। সে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সক্রিয় সদস্য। প্রকাশনাসূত্রে আনসারুল্লাহ বাংলাটিমের কতিপয় সংগঠকের সাথে তার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

গ্রেফতারকৃত হাবিবুর এবিটি সদস্য ও অন্যান্য অনুসারীদের কাছে মুফতি জসীমুদ্দীন রাহমানীর উগ্রবাদী বই ছাড়াও অন্যান্য উগ্রপন্থী বই-পত্রিকার প্রকাশনা সরবরাহ, বিতরণ ও অনলাইন প্লাটফর্মে গোপনে বিক্রি করতো। এছাড়া বিভিন্ন সময়ে সে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের মতাদর্শের বিভিন্ন প্রিন্ট ও ভিডিও কনটেন্ট সমর্থকদের সাথে শেয়ার করত।

এটিইউ’র মিডিয়া অ্যান্ড অ্যাওয়ারনেস শাখার এএসপি ওয়াহিদা বলেন, উগ্রপন্থী মতাদর্শের বিভিন্ন বই গোপনে অনলাইনে এবং অফলাইনে বিক্রি ও উগ্রপন্থী কর্মকাণ্ডকে উদ্বুদ্ধ করায় তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। গত ১৬ সেপ্টেম্বর ময়মনসিংহ থেকে গ্রেফতারকৃত আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সদস্য কায়সার আহমেদ ওরফে মিলন ও জাহিদ মোস্তফা দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে বাংলাবাজার থেকে গ্রেফতার করা হয় হাবিবুরকে।

/আরটি/এমএস/

সম্পর্কিত

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের গড়িমসির ব্যাখ্যা তলব

হাইকোর্টের রেজিস্ট্রারের গড়িমসির ব্যাখ্যা তলব

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

ইভ্যালির বিরুদ্ধে এবার ব্যবসায়ীর মামলা, রাসেলসহ ১২ জন আসামি

ফোনে আড়িপাতা বন্ধে তদন্ত চেয়ে রিটের আদেশ ২৯ সেপ্টেম্বর

ফোনে আড়িপাতা বন্ধে তদন্ত চেয়ে রিটের আদেশ ২৯ সেপ্টেম্বর

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:০৩

সরকারি অফিস থেকে ‘তথ্য চুরি’র অভিযোগে শাহাবাগ থানায় দায়ের করা মামলায় দৈনিক প্রথম আলোর জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক রোজিনা ইসলামের পাসপোর্ট, দুটি মোবাইল ফোন ও পিআইডি অ্যাক্রেডিটেশন কার্ড ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবুবকর সিদ্দিকের আদালত এই আদেশ দেন। আদালতের সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে এ তথ্য জানা যায়।

এর আগে, গত ১৫ সেপ্টেম্বর ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. আসাদুজ্জামান নূরের আদালতে এ আবেদন করেছিলেন রোজিনার আইনজীবী প্রশান্ত কুমার কর্মকার। এরপর এই বিষয়ে শুনানির জন্য আদালত আজকের দিন ধার্য করেন।

চলতি বছর ১৭ মে সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কক্ষ থেকে ‘তথ্য চুরি’র অভিযোগ এনে সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে শাহবাগ থানায় সোপর্দ করা হয়। পরে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। প্রায় এক সপ্তাহ দেশব্যাপি বিষয়টি নিয়ে তুমুল আলোচনার সৃষ্টি করে। গত ২৩ মে সকালে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বাকি বিল্লার আদালত পাঁচ হাজার টাকার মুচলেকায় সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের জামিন মঞ্জুর করেন।

আরও পড়ুন:
সাংবাদিক রোজিনার রিমান্ড নামঞ্জুর, কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ 
সাংবাদিক রোজিনা ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের

/এমএইচজে/ইউএস/

সম্পর্কিত

নকল ওষুধসহ গ্রেফতার ৩

নকল ওষুধসহ গ্রেফতার ৩

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাবরের আত্মপক্ষ সমর্থন ২১ সেপ্টেম্বর

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাবরের আত্মপক্ষ সমর্থন ২১ সেপ্টেম্বর

উগ্রবাদী বইয়ের প্রকাশক গ্রেফতার

উগ্রবাদী বইয়ের প্রকাশক গ্রেফতার

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

‘নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে’

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:০৩

বিষয়ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগ ও কর্মরত শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ দিয়ে দক্ষ হিসেবে প্রস্তুত করতে না পারলে নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রম বাস্তবায়ন সম্ভব নয় বলে অভিমত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞ ও সংশ্লিষ্টরা। তারা বলেছেন, নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়ন করতে হলে সবার আগে শিক্ষকদের প্রস্তুত করতে হবে।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) রাতে ‘আগামীর বাংলাদেশ’ আয়োজিত ‘নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা-২০২০: চ্যালেঞ্জ ও করণীয়’ শীর্ষক ভার্চুয়াল আলোচনায় এই অভিমত উঠে আসে।

আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, জবাবদিহিমূলক অ্যাকাডেমিক ভিজিটের মাধ্যমে নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রম বাস্তবায়ন সম্ভব হবে।

সাবেক শিক্ষা সচিব নজরুল ইসলাম আই খান বলেন, ‘নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা-২০২০’ বাস্তবায়নের জন্য সকল পক্ষের জবাবদিহি নিশ্চিত করতে হবে। অ্যাকাডেমিক পরদর্শন, ফেস অনুযায়ী অ্যাকশন প্ল্যান বাস্তবায়ন, এলাকাভিত্তিক প্রান্তিক শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ, স্থানীয় রাজনীতিবিদ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটিকে সম্পৃক্ত করতে হবে। বিষয়ভিত্তিক শিক্ষক নিয়োগ ও শিক্ষকদের শিক্ষা প্রশাসনের কাজের সুযোগ সৃষ্টি করতে হবে। শিক্ষকদের সামাজিক মর্যাদা বাড়াতে হবে। প্রশিক্ষণ দিয়ে শিক্ষকদের দক্ষ হিসেবে প্রস্তুত করা না গেলে এবং অ্যাকশন প্ল্যান বাস্তবায়ন সম্ভব না হলে, নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়ন সম্ভব হবে না।’

জাতীয় শিক্ষাক্রম উন্নয়ন কমিটির সদস্য অধ্যাপক ড. তারিক আহসান বলেন, ‘যুগের প্রয়োজনে নতুন জাতীয় শিক্ষাক্রমকে যুগোপযোগী করা হচ্ছে। এটি বাস্তবায়নের জন্য দক্ষ শিক্ষক ও স্থানীয় পর্যায়ের প্রশিক্ষণের বিষয়ে প্রতিবেদনে জোরোলো সুপারিশ করা হয়েছে। নবম-দশম শ্রেণিতে বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের যথাযথ মৌলিক জ্ঞানের পাশাপাশি উদ্ভাবনী ও বাস্তবসম্মত জ্ঞান অর্জনের পথ তৈরি করা হয়েছে এই শিক্ষাক্রমে। মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের কারিকুলামও  আধুনিকায়ন করা হবে।  পাঠ্যবই তৈরি হবে সেভাবেই।’

সেশনের শুরুতে শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক আবু জাফর আহমেদ মুকুল জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা-২০২০ এর সার সংক্ষেপ উপস্থাপন ধরেন।

 

/এসএমএ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

নকল ওষুধসহ গ্রেফতার ৩

নকল ওষুধসহ গ্রেফতার ৩

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাবরের আত্মপক্ষ সমর্থন ২১ সেপ্টেম্বর

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাবরের আত্মপক্ষ সমর্থন ২১ সেপ্টেম্বর

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

সাংবাদিক রোজিনার পাসপোর্ট-মোবাইল ফেরতের আবেদন নামঞ্জুর

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

ই-কমার্সের প্রতারণা কমাতে জনস্বার্থে প্রচারণার পরামর্শ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

আগারগাঁওয়ে ছয়তলা ভবন থেকে পড়ে যুবকের মৃত্যু

আগারগাঁওয়ে ছয়তলা ভবন থেকে পড়ে যুবকের মৃত্যু

বুড়িগঙ্গা রক্ষায় সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান 

বুড়িগঙ্গা রক্ষায় সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান 

সিআরবি রক্ষায় সাংস্কৃতিক প্রতিবাদে মুখর শাহবাগ

সিআরবি রক্ষায় সাংস্কৃতিক প্রতিবাদে মুখর শাহবাগ

‘ক্ষতিগ্রস্ত গ্রাহকদের টাকা ফেরতের ব্যবস্থা নিতে হবে’

‘ক্ষতিগ্রস্ত গ্রাহকদের টাকা ফেরতের ব্যবস্থা নিতে হবে’

ডিজিটাল নিরাপত্তায় ৯৯৯ সংযুক্তির দাবি

ডিজিটাল নিরাপত্তায় ৯৯৯ সংযুক্তির দাবি

রাজধানীতে নির্মাণাধীন প্রজেক্ট থেকে শ্রমিকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

রাজধানীতে নির্মাণাধীন প্রজেক্ট থেকে শ্রমিকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

গুলিস্তানে ভ্যান উল্টে চালকের মৃত্যু

গুলিস্তানে ভ্যান উল্টে চালকের মৃত্যু

ফাইজার-মডার্নার টিকা না পাওয়ায় প্রবাসীদের বিক্ষোভ

ফাইজার-মডার্নার টিকা না পাওয়ায় প্রবাসীদের বিক্ষোভ

সৌদিগামী যাত্রীর ব্যাগে ১৮ হাজার ইয়াবা

সৌদিগামী যাত্রীর ব্যাগে ১৮ হাজার ইয়াবা

চোখে ছানি অপারেশনে ফ্রি ক্যাম্প (ফটোস্টোরি)

চোখে ছানি অপারেশনে ফ্রি ক্যাম্প (ফটোস্টোরি)

সর্বশেষ

মামলা করতে আদালতে জেমস

মামলা করতে আদালতে জেমস

নকল ওষুধসহ গ্রেফতার ৩

নকল ওষুধসহ গ্রেফতার ৩

ঢাবি সাংবাদিক সমিতির ৩৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

ঢাবি সাংবাদিক সমিতির ৩৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাবরের আত্মপক্ষ সমর্থন ২১ সেপ্টেম্বর

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বাবরের আত্মপক্ষ সমর্থন ২১ সেপ্টেম্বর

উগ্রবাদী বইয়ের প্রকাশক গ্রেফতার

উগ্রবাদী বইয়ের প্রকাশক গ্রেফতার

© 2021 Bangla Tribune