X
শুক্রবার, ০৬ আগস্ট ২০২১, ২১ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

উড়োজাহাজ নিলাম ঠেকাতে ইউনাইটেড এয়ারের দৌড়ঝাঁপ

আপডেট : ১৯ জুলাই ২০২১, ১২:২০

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পরিত্যক্ত উড়োজাহাজ সরাতে দীর্ঘদিন ধরে বারাবর চিঠি দিয়েও সাড়া পায়নি বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। একদিকে বকেয়া পাওনা, অন্যদিকে পরিত্যক্ত উড়োজাহাজগুলো জায়গা দখল করে বিমানবন্দরে ডাম্পিং স্টেশনে পরিণত হয়েছে। কৌশলগত পদক্ষেপ হিসেবে উড়োজাহাজগুলো সরাতে নিলামে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বেবিচক। বেবিচকের নিলামের তৎপরতা শুরু হওয়ার পর তা ঠেকাতে দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছে ইউনাইটেড এয়ার।

বেবিচক সূত্রে জানা গেছে, শাহজালালে পরিত্যক্ত ১২টি উড়োজাহাজের মধ্যে আটটিই বন্ধ হয়ে যাওয়া এয়ারলাইন্সে ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের। এ ছাড়াও জিএমজি এয়ারলাইন্সের একটি, রিজেন্ট এয়ারওয়েজের দুটি এবং অ্যাভিয়েনা এয়ারলাইন্সের একটি উড়োজাহাজ রয়েছে। পার্কিং চার্জ না দিয়েই দুই থেকে আট বছর ধরে পড়ে থাকা এসব অকেজো উড়োজাহাজ বিমানবন্দরের জায়গা দখল করে আছে।

বেবিচকের নিলামের প্রস্তুতির খবরে ইউনাইটেড এয়ার নড়েচড়ে বসেছে। ইউনাইটেড এয়ারের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান চিঠি দিয়ে উড়াজাহাজগুলো ব্যবহারের অনুমতি চেয়েছেন। একই সঙ্গে বেবিচকের কর্মকর্তাদের গণমাধ্যমে নিলাম নিয়ে মতামত না দেওয়ার অনুরোধও জানিয়েছেন।

শাহজালালের সবচেয়ে বেশি পরিত্যক্ত উড়োজাহাজের মালিক ইউনাইটেড এয়ার ২০০৫ সালে বেবিচকের অনুমোদন পায়। পরে ২০০৭ সালের ১০ জুলাই ফ্লাইট অপারেশন শুরু করে। ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে কোনও ঘোষণা না দিয়েই ফ্লাইট অপারেশন বন্ধ করে দেয় পুঁজিবাজারের তালিকাভুক্ত এয়ারলাইন্সটি। আর ২০২১ সালের এপ্রিল মাস পর্যন্ত ইউনাইটেড এয়ারওয়েজের কাছে বেবিচকের বকেয়া পাওনা দাঁড়ায় ৩১ হাজার ১৭৩ কোটি ২২ লাখ ২ হাজার ৫০০ টাকা।

অকেজো উড়োজাহাজগুলোকে সরিয়ে নিতে দীর্ঘদিন ধরেই এয়ারলাইন্সগুলোকে একের পর এক চিঠি দিয়ে আসছে বেবিচক। কিন্তু এয়ারলাইন্সগুলোর সাড়া না পাওয়ায় বিপত্তিতে পড়ে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ। বিমানবন্দর থেকে সহসাই সরাতে না পারলেও কার্গো ভিলেজের সামনে জায়গা খালি করতে অন্যত্র সরানো হয়েছে এসব উড়োজাহাজ। বাতিল করা হয়েছে রেজিস্ট্রেশন। সবশেষ উপায়ন্তর না পেয়ে পরিত্যাক্ত উড়োজাহাজ নিলামে তোলার প্রক্রিয়াও শুরু করেছে বেবিচক।

এ খবর গণমাধ্যমে প্রকাশের পর গত ১৪ জুলাই বেবিচক চেয়ারম্যানকে চিঠি দেন ইউনাইটেড এয়ারের পরিচালনা পর্ষদ চেয়ারম্যান কাজী ওয়াহিদুল আলম। ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, বিমানবন্দরে রক্ষিত উড়োজাহাজ নিলামের খবরে আমরা উৎকণ্ঠিত, কেননা ওখানে রক্ষিত উড়োজাহাজগুলোর মধ্যে ৮টি ইউনাইটেড এয়ারের। এ উড়োজাহাজের প্রকৃত মালিক দেশের প্রায় দেড় লাখ শেয়ার হোল্ডার।

শাহজালালে ইউনাইটেডের আটটি উড়োজাহাজ আছে, সেগুলো যথাযথ রক্ষণাবেক্ষণের জন্য এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষকে পরিদর্শনের সুযোগ দেওয়ারও প্রস্তাব জানানো হয় চিঠিতে। বলা হয়, যথাযথ পরিদর্শন, টেকনিক্যাল অডিট ও বেবিচকের সঙ্গে আলোচনা করে আমরা উড়োজাহাজগুলোর ভবিষৎ কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ এবং শিগগির স্থানান্তরে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবো। উড়োজাহাজগুলো এখনও ৫০ ভাগ উড্ডয়নের সমক্ষমতা আছে বলে আমরা অবগত হয়েছি। প্রয়োজনীয় রক্ষণাবেক্ষণ সাপেক্ষে উড্ডয়ন যোগ্য করার বিষয়ে আমরা আশাবাদী। আলাপ আলোচনার মাধ্যমে আমরা একটি সমাধানে পৌঁছাতে পারবো বলে আশা করছি।

এছাড়া মধ্য ভারতের ছত্তিশগড়ের রাজধানী রায়পুরের স্বামী বিবেকানন্দ এয়ারপোর্টে ইউনাইটেড এয়ারলাইন্সটির একটি বিমান দীর্ঘদিন পড়ে থাকার পর সরানোর উদ্যোগ না নেওয়ায় ২০১৮ সালে আগস্টে সেটিকে রানওয়ের পার্কিং লট থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। 

সম্প্রতি একটি গণমাধ্যমে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কাজী ওয়াহিদুল আলম জানিয়েছেন, এই উড়োজাহাজটিকেও ভারতে স্ক্র্যাপ হিসেবে নিলামে তোলার প্রস্তুতি চলছিল। তারা যোগাযোগ করে অনেক কষ্টে ছয় মাসের সময় নিয়েছেন। তবে তহবিল না থাকায় এবং করোনা পরিস্থিতির কারণে সেখানে কাউকে পাঠানো যাচ্ছে না, ফলে সেটার অবস্থাও জানতে পারছেন না তারা। পাকিস্তানেও এয়ারলাইন্সটির একটি উড়োজাহাজ আটকা পড়ে আছে বলেও ওই সাক্ষাৎকারে জানান ওয়াহিদুল আলম।

ইউনাইটেড এয়ারের চিঠি প্রাপ্তির কথা জানালেও এ বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) কর্মকর্তারা।

আরও পড়ুন
জুনের মধ্যে সরবে বিমানবন্দরের পরিত্যক্ত উড়োজাহাজ
পরিত্যক্ত উড়োজাহাজের জঞ্জাল সরাতে নতুন কৌশল
ভারতের বিমানবন্দরে ঠেলে সরানো হলো বাংলাদেশের বিকল বিমান

/সিএ/ইউএস/

সম্পর্কিত

বিমানবন্দরে ইয়াবাসহ গ্রেফতার সাদ্দাম রিমান্ডে

বিমানবন্দরে ইয়াবাসহ গ্রেফতার সাদ্দাম রিমান্ডে

আড়াই কোটি টাকা মূল্যের বিদেশি মুদ্রাসহ তুরস্কগামী যাত্রী আটক

আড়াই কোটি টাকা মূল্যের বিদেশি মুদ্রাসহ তুরস্কগামী যাত্রী আটক

শাহজালালে কর্মীদের মাংস বিতরণ

শাহজালালে কর্মীদের মাংস বিতরণ

পরিত্যক্ত উড়োজাহাজ নিলামে তোলার প্রস্তুতি বেবিচকের

পরিত্যক্ত উড়োজাহাজ নিলামে তোলার প্রস্তুতি বেবিচকের

কওমি মাদ্রাসা খোলার ঘোষণা সত্য নয়: বেফাক

আপডেট : ০৬ আগস্ট ২০২১, ০০:৫৯

কওমি মাদ্রাসা খুলে দেওয়ার ঘোষণা সত্য নয় বলে জানিয়েছে বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশ (বেফাক)। বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) রাতে প্রতিষ্ঠানটির এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এদিন রাতে বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায়, ১১ আগস্ট থেকে কওমি মাদ্রাসা খুলে দেওয়ার অনুমতি দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের মহাপরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মাওলানা মোহাম্মদ জোবায়ের স্বাক্ষরিত ওই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর শিক্ষা মন্ত্রণালয় প্রেস বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানিয়ে দেয়, কওমি মাদ্রাসা খুলে দেওয়ার বিষয়ে মন্ত্রণালয় এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি।

এই ঘটনার পর বেফাকের ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক নতুন করে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানান, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে তাদের প্যাড ব্যবহার করে আগামী ১১ আগস্ট থেকে মাদ্রাসা খোলার মিথ্যা খবর প্রকাশ করা হয়, যা নিতান্তই গর্হিত ও নিন্দনীয় কাজ। এরূপ নিন্দনীয় কাজের ফলে জনমনে বিভান্তির সৃষ্টি এবং বেফাকের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ণ হচ্ছে। অতিসত্বর এমন মিথ্যা খবরগুলো স্ব স্ব আইডি থেকে মুছে ফেলা এবং ভবিষ্যতে এমন কাজ না করার অনুরোধ করা হচ্ছে।

সেইসঙ্গে ফেসবুক কর্তৃক ভেরিফায়েডকৃত বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের নিজস্ব ফেসবুক পেইজ (http://www.facebook.com/wifaqbd) ব্যতীত অন্য কোনও আইডি থেকে প্রকাশিত বেফাক সংশ্লিষ্ট খবরে বিভ্রান্ত না হওয়া এবং তা প্রচার না করার আহ্বান জানানো হচ্ছে।

/এসএমএ/এমপি/

সম্পর্কিত

মরদেহ সংরক্ষণে দুর্ভোগে ঢামেক

মরদেহ সংরক্ষণে দুর্ভোগে ঢামেক

কওমি মাদ্রাসা খোলার অনুমতি দেয়নি সরকার

কওমি মাদ্রাসা খোলার অনুমতি দেয়নি সরকার

ভ্রাম্যমাণ আদালতের কিছু কার্যক্রমে হাইকোর্টের অসন্তোষ

ভ্রাম্যমাণ আদালতের কিছু কার্যক্রমে হাইকোর্টের অসন্তোষ

পরীমণির বাসায় নিয়মিত পার্টিতে মাদক সরবরাহ করতেন রাজ

পরীমণির বাসায় নিয়মিত পার্টিতে মাদক সরবরাহ করতেন রাজ

মরদেহ সংরক্ষণে দুর্ভোগে ঢামেক

আপডেট : ০৬ আগস্ট ২০২১, ০০:০৪

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগে মরচুয়ারি কুলার (মরহেদ রাখার ফ্রিজ) নিয়ে দুর্ভোগ বহুদিনের। যে ক’টি মরচুয়ারি কুলার রয়েছে সেগুলো বেশ পুরনো। প্রায়ই বিকল হয়ে পড়ে। সেগুলো মেরামত করতে হয় মাঝে মাঝেই। নতুন দুটি কুলার স্থাপন করা হলেও টেনেটুনে চালাতে হচ্ছে কর্তৃপক্ষকে। বড় কোনও দুর্ঘটনা ঘটলেই পড়তে হয় বিপাকে। আবার পরিচয়হীন মরদেহ দীর্ঘদিন ফ্রিজে রাখার কারণেও দেখা দেয় সংকট। কর্তৃপক্ষ জানালো, মর্গের কুলার নিয়ে শিগগিরই কেটে যাবে জটিলতা।

ঢামেকের মর্গ সহকারী সেকান্দর আলী জানালেন, এখন পাঁচটি মরচুয়ারি কুলার রয়েছে। একটিতে পাঁচটি করে ২০টি মরদেহ রাখা যায়। পাঁচটির মধ্যে একটি আবার বিকল।

 স্থাপনার জন্য জায়গাটি পরিস্কার করা হচ্ছে সেকান্দর আলী আরও জানান, ‘অস্বাভাবিক মৃত্যুতে ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ প্রথমে ফ্রিজিং-এ রাখা হয়। পরে সংশ্লিষ্ট থানাকে জানালে তারা সুরতহাল করে। এরপর ময়নাতদন্ত করেন ফরেনসিক চিকিৎসকরা। আবার যে মরদেহের পরিচয় পাওয়া যায় না, সেগুলো ফ্রিজিং করতে হয় অনেকদিন। এখন যে ধারণক্ষমতার মরচুয়ারি আছে তা নিয়ে হিমশিম খেতে হয় আমাদের।’

সংশ্লিষ্টরা বলেন, যে কোনও প্রাকৃতিক দুর্যোগ বা বড় দুর্ঘটনা ঘটলে সমস্যায় পড়তে হয়। সম্প্রতি মগবাজার ও রূপগঞ্জের ঘটনায় পরিচয় না পাওয়া সব মরদেহ ঢামেকের মরচুয়ারিতে রাখা যায়নি। এরপরও কোনোমতে ২৫টি মরদেহ রাখা হয়েছিল। বাকিগুলো সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রাখতে হয়েছিল। এ ছাড়া, আইনি প্রক্রিয়া শেষ না হওয়ায় তিন বিদেশির মরদেহও দীর্ঘদিন মরচুয়ারিতে পড়ে আছে।

মর্গের প্রবেশ পথ এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ঢামেক হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ডা. মোহাম্মদ মাকসুদ বলেন, ‘এ সমস্যা দীর্ঘদিনের। বিষয়টি কলেজের প্রিন্সিপালের মাধ্যমে সংশ্লিষ্টদের জানানো হয়েছে। কর্তৃপক্ষ আশ্বস্ত করেছেন। ইতোমধ্যে সরকারি নিয়ম অনুসারে দরপত্র ডাকা হয়েছে। রেড ক্রিসেন্টের পক্ষ থেকেও বড় আকারে একটি মরচুয়ারি দেওয়ার কথা হয়েছে।’

কতটি মরদেহ রাখা যাবে সেই মরচুয়ারিতে, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘এটা এখনও জানতে পারেননি। আমরা শুধু স্থাপনার জন্য জায়গা দেখিয়ে দিয়েছি।’

তিনি বলেন, রেড ক্রিসেন্ট ও সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া মরচুয়ারি স্থাপন হলে আর সমস্যা থাকবে না। ফরেনসিক বিভাগের মর্গকেও আরও আধুনিক করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।’

 

/এফএ/

সম্পর্কিত

কওমি মাদ্রাসা খোলার ঘোষণা সত্য নয়: বেফাক

কওমি মাদ্রাসা খোলার ঘোষণা সত্য নয়: বেফাক

পরীমণির বাসায় নিয়মিত পার্টিতে মাদক সরবরাহ করতেন রাজ

পরীমণির বাসায় নিয়মিত পার্টিতে মাদক সরবরাহ করতেন রাজ

নির্মাণশৈলীতে ভিন্নতা আনতে 'ভাস্কর্যে বিকৃতি'

নির্মাণশৈলীতে ভিন্নতা আনতে 'ভাস্কর্যে বিকৃতি'

টিকার প্রথম ডোজের আওতায় এক কোটি মানুষ

টিকার প্রথম ডোজের আওতায় এক কোটি মানুষ

যাত্রাবাড়ীতে ৭০ কেজি গাঁজাসহ দুজন গ্রেফতার

আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২১, ২৩:৫২

রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে ৭০ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) সন্ধ্যায় গ্রেফতার করেছে র‍্যাব।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন‑ মো. স্বপন ও জহিরুল ইসলাম। এ সময় মাদক পরিবহনে ব্যবহৃত একটি কার্গো ট্রাক, দুটি মোবাইল ফোন ও নগদ ৮২০ টাকা জব্দ করা হয়।

র‍্যাব-১০ এর উপ-অধিনায়ক মেজর শাহরিয়ার জিয়াউর রহমান বলেন, উদ্ধারকৃত ৭০ কেজি গাঁজার আনুমানিক মূল্য ২১ লাখ টাকা। গ্রেফতারকৃতরা দীর্ঘদিন ধরে ট্রাকযোগে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় গাঁজাসহ অন্যান্য মাদকদ্রব্য সরবরাহ করে আসছিল বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন।

 

 

/আরটি/এমএস/

সম্পর্কিত

কারবারিরা লেনদেন করছে ভার্চুয়াল মুদ্রায়

কারবারিরা লেনদেন করছে ভার্চুয়াল মুদ্রায়

মাদকের মামলায় ৪ নাইজেরিয়ান কারাগারে

মাদকের মামলায় ৪ নাইজেরিয়ান কারাগারে

নতুন মাদকের টার্গেট ঢাকা

নতুন মাদকের টার্গেট ঢাকা

লকডাউনেও মাদক পরিবহনে সক্রিয় চক্রগুলো, গ্রেফতার ৩

লকডাউনেও মাদক পরিবহনে সক্রিয় চক্রগুলো, গ্রেফতার ৩

নাটকে প্রতিবন্ধীদের নিয়ে ভিত্তিহীন মন্তব্য: মানবাধিকার কমিশনের ক্ষোভ

আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২১, ২৩:৪৬

টেলিভিশন নাটকে প্রতিবন্ধীদের নিয়ে ভিত্তিহীন মন্তব্য করায় নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করা হয়েছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সভায়। বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ও অটিজম বিষয়ক থিমেটিক কমিটির ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় বক্তারা এ ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান নাছিমা বেগমের সভাপতিত্বে সভায় বক্তারা বলেন, ‘ঈদের বিশেষ অনুষ্ঠানমালায় চ্যানেল আইতে প্রচারিত “ঘটনা সত্য” নামে একটি নাটক নিয়ে বিভিন্ন মহলে তীব্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। প্রতিবন্ধিতা জীববৈচিত্র্যের একটি অংশ। অথচ ওই নাটকের শেষ অংশে প্রতিবন্ধী শিশুর জন্ম নেওয়াকে মা-বাবার পাপের ফল হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। যা সম্পূর্ণরূপে অবৈজ্ঞানিক, ভিত্তিহীন, অযৌক্তিক ও ভ্রান্ত ধারণাপ্রসূত। এ মন্তব্যের মাধ্যমে প্রতিবন্ধী ব্যক্তি ও তাদের অভিভাবকদের অনুভূতিতে তীব্র আঘাত দেওয়া হয়েছে।’

বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে এ বিষয়ে অনেকেই তীব্র নিন্দা জানিয়ে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। ইতোপূর্বেও গণমাধ্যমে প্রচারিত অনুষ্ঠানে প্রতিবন্ধিতাকে নেতিবাচকভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। প্রতিবাদের পর দুঃখ প্রকাশ এবং ক্ষমা চাওয়া হয়েছে। এবারও নাটকের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট পক্ষ থেকে দুঃখ প্রকাশ ও ক্ষমা চাওয়া হয়েছে। কিন্তু প্রতিবারই ক্ষমা ও একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি কাম্য নয়। এ ধরনের নেতিবাচক ও বিরূপ বক্তব্য প্রচার ‘প্রতিবন্ধী ব্যক্তির অধিকার ও সুরক্ষা আইন, ২০১৩’-এর ৩৭ (৪) ধারা অনুসারে একটি দণ্ডযোগ্য অপরাধ।

সভায় এ বিষয়ে বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সেগুলো হচ্ছে– ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রচারিত সব কনটেন্টে প্রতিবন্ধী জনগোষ্ঠীর অধিকার ও মর্যাদা সমুন্নত রাখার বিষয়টি নিশ্চিতের জন্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনা জারি করতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে চিঠি পাঠানো হবে; কোভিড-১৯ টিকা কার্যক্রমে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অগ্রাধিকার প্রদানের সুপারিশ জানিয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে চিঠি পাঠানো হবে; সব গণস্থাপনা ও সেবাসমূহে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের অধিকার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে একটি সার্বজনীন ন্যায়সংগত অধিকার আইনের খসড়া প্রস্তুত করে সরকারের কাছে সুপারিশ আকারে পাঠাতে হবে।

আলোচনা সভায় অংশ নেন– কমিটির সম্মানিত সদস্য ও নিউরো ডেভেলপমেন্টাল প্রতিবন্ধী সুরক্ষা ট্রাস্টের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আনোয়ার উল্লাহ, ডিজঅ্যাবিলিটি কাউন্সিল ইন্টারন্যাশনালের সদস্য মনসুর আহমেদ চৌধুরী, সেন্টার ফর ডিজঅ্যাবিলিটি ইন ডেভেলপমেন্টের (সিডিডি) নির্বাহী পরিচালক এ এইচ এম নোমান খান, সেন্টার ফর সার্ভিসেস অ্যান্ড ইনফরমেশন অন ডিজঅ্যাবিলিটির (সিএসআইডি) নির্বাহী পরিচালক খন্দকার জহুরুল আলম, ডিজঅ্যাবিলিটি রিসার্চ অ্যান্ড রিহ্যাবিলিটেশন অ্যাসোসিয়েশনের (ডিআরআরএ) নির্বাহী পরিচালক ফরিদা ইয়াসমিন, উইম্যান উইথ ডিজঅ্যাবিলিটিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক আশরাফুন্নাহার মিষ্টি।

/জেইউ/এমএএ/

 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

এডিস মশা নিধনে ডিএসসিসির অভিযান: ৩৬ ভবনকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা

এডিস মশা নিধনে ডিএসসিসির অভিযান: ৩৬ ভবনকে ৬ লাখ টাকা জরিমানা

রাজউক ও অন্যান্য সংস্থাকে মশকনিধন অভিযানের নির্দেশ স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর

রাজউক ও অন্যান্য সংস্থাকে মশকনিধন অভিযানের নির্দেশ স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর

মতিঝিল আইডিয়ালের আতিককে গ্রেফতারের দাবি

মতিঝিল আইডিয়ালের আতিককে গ্রেফতারের দাবি

জনজীবন স্বাভাবিক, সড়কে বেড়েছে মানুষের চাপ

জনজীবন স্বাভাবিক, সড়কে বেড়েছে মানুষের চাপ

শিক্ষক নিয়োগে এনটিআরসিএ’র বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তি

আপডেট : ০৫ আগস্ট ২০২১, ২৩:২৮

দেশের বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ৬৮৮ পদে কারিগরি শিক্ষক নিয়োগে বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যায়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ)। বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়।  

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আগামী ৮ আগস্ট সকাল ১০টা থেকে ৩১ আগস্ট রাত ১২টা পর্যন্ত অনলাইনে আবেদন করতে হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, সেকেন্ডারি এডুকেশন ইনভেস্টমেন্ট প্রোগ্রাম (সেসিপ) এর চাহিদার ভিত্তিতে সাধারণ শিক্ষা ধারার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের (বিদ্যালয় ও দাখিল মাদ্রাসা) ভোকেশনাল কোর্স চালু করার লক্ষ্যে বিভিন্ন বিষয়ের শূন্য পদে অনলাইনে আবেদন আহ্বান করা হচ্ছে।

আবেদনকারীর বয়স ২০২১ সালের ১ জানুয়ারি তারিখে ৩৫ বছর বা তার কম হতে হবে। উচ্চ আদালতের রায়ে অনুযায়ী ২০১৮ সালের ১২ জুন তারিখের আগে যারা শিক্ষক নিবন্ধন করেছেন তাদের ক্ষেত্রে বয়স শিথিলযোগ্য।

অনলাইনে আবেদন ও ফি জমা দেওয়ার সংক্রান্ত নিয়ম টেলিটকের htt://ngi.teletalk.com.bd  ওয়েবসাইট এবং এনটিআরসিএ www.ntrca.gov.bd ওয়েবসাইটে স্বতন্ত্রভাবে দেখানো হয়েছে। 

কারিগরির যেসব ট্রেডের শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হবে তার মধ্যে রয়েছে ফুড প্রসেসিং অ্যান্ড প্রিজার্ভেশন বিষয়ে ৫৮ জন, সিভিল কনস্ট্রাকশন ওয়ার্কস ১৯ জন, জেনারেল ইলেকট্রনিক ওয়ার্কস/জেনারেল ইলেকট্রনিকস ৪৪টি, ড্রেস ম্যাকিং ৫৩ জন, কম্পিউটার অ্যান্ড ইনফরমেশন টেকনোলজি ২৪২ জন, জেনালে ম্যাকনিক্স ২২ জন, রিফ্রাজারেশন অ্যান্ড এয়ার কন্ডিশনিং ৩৪ জন, প্লাম্বিং অ্যান্ড পাইপ ফিটিং ১৮ জন, ওয়েলডিং অ্যান্ড ফ্রেব্রিকেশন ৫জন।

 

/এসএমএ/এফএএন/

সম্পর্কিত

কওমি মাদ্রাসা খোলার অনুমতি দেয়নি সরকার

কওমি মাদ্রাসা খোলার অনুমতি দেয়নি সরকার

ঢাবি উপাচার্যকে মার্কিন দূতাবাসের অভিনন্দন

ঢাবি উপাচার্যকে মার্কিন দূতাবাসের অভিনন্দন

মতিঝিল আইডিয়ালের আতিককে গ্রেফতারের দাবি

মতিঝিল আইডিয়ালের আতিককে গ্রেফতারের দাবি

বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষায়িত ল্যাব স্থাপন করা হবে: ইউজিসি

বিশ্ববিদ্যালয়ে বিশেষায়িত ল্যাব স্থাপন করা হবে: ইউজিসি

সর্বশেষ

ত্রিপুরার পর আসাম-কেরালাকে টার্গেট তৃণমূলের

ত্রিপুরার পর আসাম-কেরালাকে টার্গেট তৃণমূলের

বাংলাদেশের রাব্বি পেলেন রূপা

বাংলাদেশের রাব্বি পেলেন রূপা

গাজীপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি মাসুদ সম্পাদক রাহিম

গাজীপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি মাসুদ সম্পাদক রাহিম

সিটি করপোরেশন এলাকায় ৭-৯ আগস্ট ভ্যাকসিন ক্যাম্পেইন চালানো যাবে

সিটি করপোরেশন এলাকায় ৭-৯ আগস্ট ভ্যাকসিন ক্যাম্পেইন চালানো যাবে

কওমি মাদ্রাসা খোলার ঘোষণা সত্য নয়: বেফাক

কওমি মাদ্রাসা খোলার ঘোষণা সত্য নয়: বেফাক

রবীন্দ্রনাথের পারস্য মুগ্ধতা

রবীন্দ্রনাথের পারস্য মুগ্ধতা

বার্সেলোনার ঘোষণা, মেসি থাকছেন না

বার্সেলোনার ঘোষণা, মেসি থাকছেন না

পরীমণির সঙ্গে আমার পবিত্র সম্পর্ক: চয়নিকা চৌধুরী

পরীমণির সঙ্গে আমার পবিত্র সম্পর্ক: চয়নিকা চৌধুরী

মরদেহ সংরক্ষণে দুর্ভোগে ঢামেক

মরদেহ সংরক্ষণে দুর্ভোগে ঢামেক

রবীন্দ্র প্রয়াণ দিবসে ‘পয়লা নম্বর’

রবীন্দ্র প্রয়াণ দিবসে ‘পয়লা নম্বর’

যাত্রাবাড়ীতে ৭০ কেজি গাঁজাসহ দুজন গ্রেফতার

যাত্রাবাড়ীতে ৭০ কেজি গাঁজাসহ দুজন গ্রেফতার

নাটকে প্রতিবন্ধীদের নিয়ে ভিত্তিহীন মন্তব্য: মানবাধিকার কমিশনের ক্ষোভ

নাটকে প্রতিবন্ধীদের নিয়ে ভিত্তিহীন মন্তব্য: মানবাধিকার কমিশনের ক্ষোভ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

বিমানবন্দরে ইয়াবাসহ গ্রেফতার সাদ্দাম রিমান্ডে

বিমানবন্দরে ইয়াবাসহ গ্রেফতার সাদ্দাম রিমান্ডে

আড়াই কোটি টাকা মূল্যের বিদেশি মুদ্রাসহ তুরস্কগামী যাত্রী আটক

আড়াই কোটি টাকা মূল্যের বিদেশি মুদ্রাসহ তুরস্কগামী যাত্রী আটক

শাহজালালে কর্মীদের মাংস বিতরণ

শাহজালালে কর্মীদের মাংস বিতরণ

পরিত্যক্ত উড়োজাহাজ নিলামে তোলার প্রস্তুতি বেবিচকের

পরিত্যক্ত উড়োজাহাজ নিলামে তোলার প্রস্তুতি বেবিচকের

সৌদি প্রবাসীদের সঙ্গে প্রতারণা, এভসেকের হাতে ধরা ২ প্রতারক

সৌদি প্রবাসীদের সঙ্গে প্রতারণা, এভসেকের হাতে ধরা ২ প্রতারক

আইফোন, সোনারবারসহ শাহজালালের ইলেকট্রিশিয়ান আটক

আইফোন, সোনারবারসহ শাহজালালের ইলেকট্রিশিয়ান আটক

বিমানবন্দরে ফাঁকি দিয়ে কোয়ারেন্টিনের ৬ যাত্রী বাড়িতে

বিমানবন্দরে ফাঁকি দিয়ে কোয়ারেন্টিনের ৬ যাত্রী বাড়িতে

এয়ারপোর্ট রেস্তোরাঁয় ১১৯টি  মরা মুরগি

এয়ারপোর্ট রেস্তোরাঁয় ১১৯টি মরা মুরগি

‘বিমানবন্দর থেকে হজক্যাম্প পর্যন্ত টানেল থাকবে’

‘বিমানবন্দর থেকে হজক্যাম্প পর্যন্ত টানেল থাকবে’

শাহজালালে বিমান চলাচল বিঘ্ন

শাহজালালে বিমান চলাচল বিঘ্ন

© 2021 Bangla Tribune