X
সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

করোনার টিকা নেওয়ার বয়সসীমা ১৮ করার ঘোষণা শিগগিরই

আপডেট : ২৩ জুলাই ২০২১, ১৭:১২

করোনাভাইরাসের টিকা নিতে বয়সসীমা ১৮ বছর করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। বিষয়টি আলোচনায় রয়েছে আর এ  ঘোষণা শিগগিরই দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশিদ আলম।

শুক্রবার (২৩ জুলাই) দুপরে রাজধানীর মুগদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল পরিদর্শন শেষে তিনি এ কথা বলেন।  

তিনি বলেন, বয়সসীমা কমিয়ে ১৮ বছর করা যায় কিনা, সে বিষয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নির্দেশনা দিয়েছেন। এটা কীভাবে করা হবে, সে ব্যাপারে চিন্তাভাবনা করা হবে।

গ্রাম পর্যায়ে টিকা দেওয়ার বিষয়ে অধ্যাপক খুরশীদ আলম বলেন, অন্যান্য সরকারি টিকা যেভাবে দেওয়া হয়, করোনার টিকা সেভাবেই দেওয়া ও আরও সহজ কীভাবে করা যায়, সে বিষয়ে সরকার ভাবছে।

এর আগে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকও জানিয়েছিলেন, টিকা নিতে ১৮ বছর করার কথা চিন্তা-ভাবনা হচ্ছে

গত ১৫ জুলাই স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি টিকার জন্য নিবন্ধনের বয়সসীমা ১৮ বছর পর্যন্ত করার সুপারিশ করেছে। আমরা চিন্তা করছি টিকার জন্য বয়সসীমা আরও কমিয়ে আনা যায় কিনা। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গেও আলাপ হয়েছে। উনারও একটা নির্দেশনা আছে। আমাদের টেকনিক্যাল কমিটিও জানিয়েছে, ১৮ বছর এবং তার ঊর্ধ্বে টিকা দেওয়া যায় কিনা।’

তারও আগে গত ১২ ‍জুলাই কোভিড-১৯ বিষয়ক জাতীয় কারিগরি পরামর্শক কমিটি আরও মানুষকে দ্রুত টিকার আওতায় নিয়ে আসতে বয়সসীমা ১৮ বছরে কমিয়ে আনতে সুপারিশ করেন

প্রসঙ্গত, দেশে ৫৫ কিংবা তদূর্ধ্ব বয়সসীমার ব্যক্তিদের জন্যই সুযোগ রেখেই করোনাভাইরাস প্রতিরোধী টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়। পরে দ্বিতীয় দফায় বয়সসীমা কমিয়ে ৪০ বা তদূর্ধ্ব করা হয়। সেখান থেকে কমিয়ে তৃতীয় দফায় করা হয় ৩৫ বছর। এরপর চতুর্থ দফায় বয়স ৩০ বছরে নামিয়ে আনা হয়েছে। এখন বয়স ৩০ হলেই যে কেউ নিবন্ধন করে টিকা নিতে পারবেন। শিগগিরই বয়সসীমা আরও কমিয়ে ১৮-তে আনার চিন্তাভাবনা করছে সরকার।

/জেএ/এনএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

গণটিকাদান কর্মসূচি: প্রথম দুই ঘণ্টায় অগ্রাধিকার পাবেন যারা 

গণটিকাদান কর্মসূচি: প্রথম দুই ঘণ্টায় অগ্রাধিকার পাবেন যারা 

রবিবার টিকা দেওয়া হয়েছে সাড়ে ৬ লাখ  

রবিবার টিকা দেওয়া হয়েছে সাড়ে ৬ লাখ  

বিশেষ কোনও টিকা নিয়ে ‘ফ্যাসিনেশন’ থাকা যাবে না

বিশেষ কোনও টিকা নিয়ে ‘ফ্যাসিনেশন’ থাকা যাবে না

একদিনে নারীমৃত্যু দ্বিগুণ

একদিনে নারীমৃত্যু দ্বিগুণ

২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার সময়সূচি

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৩৯

চলতি বছরের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষার সময়সূচি চূড়ান্ত করে তা প্রকাশ করেছে সরকার। সময়সূচি অনুযায়ী, আগামী ১৪ নভেম্বর থেকে পরীক্ষা শুরু হবে, শেষ হবে ২৩ নভেম্বর। 

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের উপ-সচিব খালেদা আক্তার সাক্ষরিত এই সময় সূচি প্রকাশ করা হয়। তাতে বলা হয়েছে, বিশেষ প্রয়োজনে বোর্ড কর্তৃপক্ষ এ সময়সূচি পরিবর্তন করতে পারে।

সূচির বিশেষ নির্দেশনায় বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ অতিমারির কারণে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষার সময় দেড় ঘণ্টা। এক্ষেত্রে এমসিকিউ ও সিকিউ উভয় অংশের পরীক্ষার মধ্যে কোনও বিরতি থাকবে না।

সূচি অনুযায়ী প্রতিদিন সকাল ও বিকালে দুই শিফটে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সকালের পরীক্ষা ১০টায় এবং বিকালের পরীক্ষা ২টায় শুরু হবে।

প্রথমদিন (১৪ নভেম্বর) শুধু সকালে পদার্থ বিজ্ঞান (তত্ত্বীয়) পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

১৫ নভেম্বর সকালে বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্ব সভ্যতা এবং বিকালে হিসাব বিজ্ঞান পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

১৬ নভেম্বরও একটি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সকালের পরীক্ষা হবে রসায়ন (তত্ত্বীয়) বিষয়ে।

একইভাবে ১৮ ডিসেম্বরও শুধু সকালে শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া বিষয়ে পরীক্ষা নেওয়া হবে।

২১ নভেম্বর সকাল ও বিকালে যথাক্রমে ভুগোল ও পরিবেশ এবং ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং বিষয়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। 

২২ নভেম্বর সকালে উচ্চতর গণিত এবং জীববিজ্ঞান (ঐচ্ছিক) বিষয়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

২৩ নভেম্বর শেষদিনে সকালে পৌরনীতি ও নাগরিকতা এবং অর্থনীতি বিষয়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। বিকালে ব্যবসায় উদ্যোগ বিষয়ে পরীক্ষার মাধ্যমে এসএসসি পরীক্ষা শেষ হবে।

এসএসসি পরীক্ষার সূচি

/এসএমএ/ইউএস/

সম্পর্কিত

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের করোনা চিকিৎসার ব্যয় কার?

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের করোনা চিকিৎসার ব্যয় কার?

এসএসসি পরীক্ষার সূচির প্রস্তাবে মন্ত্রণালয়ের সম্মতি সোমবার

এসএসসি পরীক্ষার সূচির প্রস্তাবে মন্ত্রণালয়ের সম্মতি সোমবার

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষার সময়সূচি প্রকাশ

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৫৯

চলতি বছরের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) এবং উচ্চমাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) পরীক্ষার সময়সূচি চূড়ান্ত করে তা প্রকাশ করেছে সরকার। আগামী ১৪ নভেম্বর থেকে এসএসসি এবং ২ ডিসেম্বর থেকে এইচএসসি পরীক্ষা শুরু হবে। 

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের উপ-সচিব খালেদা আক্তার স্বাক্ষরিত এই সময় সূচি প্রকাশ করা হয়।

পরীক্ষার সূচির বিশেষ নির্দশনায় বলা হয়, কোডিড-১৯ অতিমারির কারণে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে অবশ্যই পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা কক্ষে আসন গ্রহণ করতে হবে। পরীক্ষার সময় দেড় ঘণ্টা। এমসিকিউ সিকিউ ও সিকিউ অংশের পরীক্ষার মধ্যে কোনও বিরতি থাকবে না।

সকাল ১০টা থেকে অনুষ্ঠেয় পরীক্ষার ক্ষেত্রে অলিখিত উত্তরপত্র এবং বহুনির্বাচনি ওএমআর শিট বিতরণ, সকাল ১০টায় বহুনির্বাচনি প্রশ্নপত্র বিতরণ। সকাল সোয়া ১০টায় বহুনির্বাচনী উত্তরপত্র (ওএমআর শিট) সংগ্রহ ও সৃজনশীল প্রশ্নপত্র বিতরণ করা হবে। আর দুপুর ২টা থেকে অনুষ্ঠেয় পরীক্ষার ক্ষেত্রে দুপুর দেড়টায় অলিখিত উত্তরপত্র ও বহুনির্বাচনি ওএমআর শিট বিতরণ, দুপুর সোয় ২টায় উত্তরপত্র (OMR শিট) সংগ্রহ ও সৃজনশীল প্রশ্নপত্র বিতরণ করা হবে।
 
পরীক্ষার্থীরা তাদের নিজ নিজ প্রতিষ্ঠান প্রধানের নিকট থেকে পরীক্ষা শুরুর কমপক্ষে তিনদিন আগে প্রবেশপত্র সংগ্রহ করবে।

শারীরিক শিক্ষা, স্বাস্থ্য বিজ্ঞান ও খেলাধুলা এবং ক্যারিয়ার শিক্ষা বিষয়ে এনসিটিবির নির্দেশনা অনুসারে ধারাবাহিক মূল্যয়নের মাধ্যমে প্রাপ্ত নম্বর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠাগুলো সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রকে সরবরাহ করবে। প্রতিষ্ঠান নিজ নিজ পরীক্ষার্থীর ব্যবহারিক খাতা (নোটবুক) এর নম্বর প্রদান করে নম্বরগুলো ২৮ নভেম্বরের মধ্যে সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রকে সরবরাহ করবে। সংশ্লিষ্ট কেন্দ্র ব্যবহারিক খাতার (নোটবুক) নম্বরের সঙ্গে ধারাবাহিক মূল্যায়নে প্রাপ্ত নম্বর বোর্ডের ওয়েবসাইটে অনলাইনে পাঠাবে।

পরীক্ষার্থীগণ তাদের নিজ নিজ উত্তরপত্রের ওএমআর (OMR) নামে তার পরীক্ষার রোল নম্বর, রেজিস্ট্রেশন নম্বর, বিষয় কোড ইত্যাদি যথাযথভাবে লিখে বৃত্ত ভরাট করবে। কোনও অবস্থাতেই উত্তপত্র ভাঁজ করা যাবে না। 

পরীক্ষার্থীকে সৃজনশীল বা রচনামূলক (তত্ত্বীয়), বহুনির্বাচনি ও ব্যবহারিক খাতার (নোটবুক) নম্বরের অংশে পৃথকভাবে পাস করতে হবে। পরীক্ষার্থী কেবল রেজিস্ট্রেশন ও প্রবেশপত্রে বর্ণিত বিষয়/বিষয়গুলোর পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। কোনও অবস্থাতেই ভিন্ন বিষয়ে অংশগ্রহণ করতে পারবে না।

কোনও পরীক্ষার্থীর পরীক্ষা নিজ বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হবে না। পরীক্ষার্থী স্থানান্তরের মাধ্যমে আসন বিন্যাস করতে হবে। পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষায় সাধারণ সাইন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যবহার করতে পারবে। প্রোগ্রামিং ক্যালকুলেটর ব্যবহার করা যাবে না। কোনও ব্যক্তি বা পরীক্ষার্থী পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ফোন আনতে এবং ব্যবহার করতে পারবেন না। শুধুমাত্র কেন্দ্র সচিব ফিচার ফোন (স্মার্ট ফোন ব্যতীত) ব্যবহার করতে পারবেন। 
সৃজনশীল বা রচনামূলক (তত্ত্বীয়) ও বহুনির্বাচনি পরীক্ষায় পরীক্ষার্থীর উপস্থিতির জন্য একই উপস্থিতি পত্র ব্যবহার করতে হবে। পরীক্ষার ফল প্রকাশের সাতদিনের মধ্যে পুনর্নিরীক্ষার জন্য অনলাইনে এসএমএস-এর মাধ্যমে আবেদন করা যাবে।

এসএসসির সময় সূচিতে জানানো হয়, বিশেষ প্রয়োজনে বোর্ড কর্তৃপক্ষ এ সময়সূচি পরিবর্তন করতে পারবে। প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত এবং বিকাল ২টা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। 

প্রথম দিন ১৪ নভেম্বর সকালে পদার্থ বিজ্ঞান (তত্ত্বীয়), ১৫ নভেম্বর বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্বসভ্যতা সকালে এবং হিসাব বিজ্ঞান বিকালে অনুষ্ঠিত হবে। ১৬ নভেম্বর (তত্ত্বীয়) রাসায়ন, ১৮ নভেম্বর শারীরিক শিক্ষা ও ক্রীড়া ((তত্ত্বীয়)) অনুষ্ঠিত হবে। ২১ নভেম্বর ভূগোল ও পরিবেশ, ২২ নভেম্বর উচ্চতর গণিত, জীববিজ্ঞান সকালে এবং ফিন্যান্স ও ব্যাকিং বিকালে অনুষ্ঠিত হবে। ২৩ নভেম্বর পৌরনীতি ও নাগরিকতা বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে সকালে আর বিকালে ব্যবসায় উদ্যোগ বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

এসএসসি পরীক্ষার সূচি

এইচএসসি পরীক্ষার সূচি

/এসএমএ/ইউএস/

সম্পর্কিত

২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার সময়সূচি

২০২১ সালের এসএসসি পরীক্ষার সময়সূচি

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের করোনা চিকিৎসার ব্যয় কার?

শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের করোনা চিকিৎসার ব্যয় কার?

এসএসসি পরীক্ষার সূচির প্রস্তাবে মন্ত্রণালয়ের সম্মতি সোমবার

এসএসসি পরীক্ষার সূচির প্রস্তাবে মন্ত্রণালয়ের সম্মতি সোমবার

বিদেশগমনে দুদক নিষেধাজ্ঞা দিতে পারবে কি না- সিদ্ধান্তের অপেক্ষা বাড়লো

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৫৪

‘আদালতের অনুমতি ছাড়া কারও বিদেশ যাত্রায় দুদক নিষেধাজ্ঞা দিতে পারবে না’ মর্মে হাইকোর্টের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে করা আপিল আবেদনটি পর্যবেক্ষণসহ নিষ্পত্তি করেছেন সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ। তবে পর্যবেক্ষণে কী থাকছে সে বিষয়ে জানতে রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশ হওয়ার আগ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন আপিলি বিভাগ এ রায় দেন। আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল এএম আমিন উদ্দিন। অন্যদিকে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান।

এর আগে গত ১৬ মার্চ ‘সুনির্দিষ্ট বিধি বা আইন প্রণয়ন না করা পর্যন্ত দুর্নীতি মামলার আসামি বা সন্দেহভাজন কোনও ব্যক্তির বিদেশ যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার বিষয়ে দুদক নয়, সিদ্ধান্ত নেবেন বিশেষ জজ আদালত’ মর্মে পর্যবেক্ষণ দেন হাইকোর্ট। বিদেশ যাওয়ায় দুদকের নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে নরসিংদীর আতাউর রহমান ওরফে সুইডেন আতাউর রহমানের করা এক আবেদনের ওপর শুনানিকালে বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ পর্যবেক্ষণ দেন। হাইকোর্ট বলেন, এ বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ আদেশ দেওয়ার সময় প্রয়োজনীয় গাইডলাইন ঠিক করে দেওয়া হবে।

আদালতে আতাউর রহমানের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মুন্সী মনিরুজ্জামান। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মো. সারওয়ার হোসেন বাপ্পী। দুদকের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট একেএম ফজলুল হক।

আদালত বলেছেন, বিদেশ যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার বিষয়ে দুদকের সুনির্দিষ্ট আইন বা বিধি নেই। এ কারণে এ বিষয়ে দ্রুত সুনির্দিষ্ট আইন বা বিধিমালা করা প্রয়োজন। তাই আশা করছি, এ বিষয়ে দুদক বা সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় আইন বা বিধি করার বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেবে।

পরে হাইকোর্টের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল (আপিলের অনুমতি চেয়ে আবেদন) দায়ের করে দুদক।

প্রসঙ্গত, ২০২০ সালের ২৪ আগস্ট আতাউর রহমানের সম্পদের তথ্য চেয়ে নোটিশ দেয় দুর্নীতি দমন কমিশন। এই নোটিশের পর ২২ অক্টোবর তিনি তার সম্পদের তথ্য দুদকে দাখিল করেন। এরপর দুদক অনুসন্ধানে নামে। এই অনুসন্ধানকালে দুদক গত বছরের ২০ ডিসেম্বর আতাউর রহমানের বিদেশ যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়ে পুলিশের বিশেষ শাখায় (এসবি) চিঠি দেয়। ওই চিঠির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করেন আতাউর রহমান। সেই রিটে জারি করা রুল শুনানি নিয়ে গত ১৬ মার্চ রায় দেন হাইকোর্ট। রায়ে ওই চিঠিকে অবৈধ ঘোষণা করেন হাইকোর্ট।

/বিআই/ইউএস/

সম্পর্কিত

রাবির সাবেক ভিসির বিরুদ্ধে দুদককে তদন্তের নির্দেশনা স্থগিত

রাবির সাবেক ভিসির বিরুদ্ধে দুদককে তদন্তের নির্দেশনা স্থগিত

দ্বিতীয় বিয়ে করতে চাওয়ায় ঘুমন্ত স্বামীর গায়ে ফুটন্ত তেল

দ্বিতীয় বিয়ে করতে চাওয়ায় ঘুমন্ত স্বামীর গায়ে ফুটন্ত তেল

টিকটক আসক্তিতে ঘর ছাড়া কিশোরী ময়মনসিংহে উদ্ধার

টিকটক আসক্তিতে ঘর ছাড়া কিশোরী ময়মনসিংহে উদ্ধার

মিজান ও বাছিরের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ ১২ অক্টোবর

মিজান ও বাছিরের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ ১২ অক্টোবর

ভারতের উপকূল অতিক্রম করেছে ‘গুলাব’, নেমেছে সংকেত 

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:০৮

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্টি হওয়া ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’ ভারতের উপকূল অতিক্রম করেছে। এর প্রভাবে আর বাংলাদেশের সমুদ্রবন্দর ও নদীবন্দরে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার শংকাও দূর হয়েছে। তাই সমুদ্রবন্দরগুলোকে দেয়া ২ নম্বর (দুই নম্বর) দূরবর্তী সতর্কতা সংকেত নামিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে এবং তবে নদীবন্দরগুলোকে ১ নম্বর (এক নম্বর) সর্তকতা সংকেত এখনও দেখাতে বলা হয়েছে।
 
সমুদ্রবন্দরগুলোর সতর্ক বার্তায় বলা হয়, উত্তর পশ্চিয় ও উত্তর-মধ্য বঙ্গোপসাগর এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় গুলাব মধ্যরাতে ভারতের উত্তর অন্ধ্র প্রদেশ এবং দক্ষিণ উড়িষ্যা উপকূল অতিক্রম করে গভীর নিম্নচাপ হিসেবে উত্তর অন্ধ্র প্রদেশ ও দক্ষিণ উড়িষ্যায় অবস্থান করছে। এটি আরও পশ্চিম ও উত্তর পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে আস্তে আস্তে দুর্বল হয়ে পড়তে পারে। এজন্য চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরগুলোকে ২ নম্বর (দুই নম্বর) দূরবর্তী হুশিয়ারি সতর্কতা সংকেত নামিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে। তবে উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারগুলোকে বিকাল পর্যন্ত সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।

এদিকে আবহাওয়া অধিদফতরের পূবাভাসে বলা হয়, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের অধিকাংশ জায়গায়, ঢাকা ও রাজশাহী বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেটের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী বৃষ্টি হতে পারে।
 
নদীবন্দরগুলোর সতর্ক বার্তায় বলা হয়, ঢাকা, ফরিদপুর, মাদারীপুর, কুষ্টিয়া, যশোর,  খুলনা, বরিশাল, পটুয়াখালী,  নোয়াখালী, কুমিল্লা, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার অঞ্চলগুলোর ওপর দক্ষিণ-দক্ষিণ পূর্বদিক থেকে ঘণ্টায় ৪৫ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে অস্থায়ী দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ জন্য এসব এলাকার বন্দরগুলোকে ১ নম্বর (এক নম্বর) সতর্কতা সংকেত দেখাতে বলা হয়েছে।

/এসএনএস/ইউএস/

সম্পর্কিত

ভ্যাপসা গরমের পর রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

ভ্যাপসা গরমের পর রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

ঘূর্ণিঝড় 'গুলাব' ভারতের দিকে যাচ্ছে, গতিবেগ ঘণ্টায় ৮৮ কিলোমিটার

ঘূর্ণিঝড় 'গুলাব' ভারতের দিকে যাচ্ছে, গতিবেগ ঘণ্টায় ৮৮ কিলোমিটার

গভীর নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’-এ পরিণত, বাতাসের গতিবেগ ৬২ কিলোমিটার

গভীর নিম্নচাপ ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’-এ পরিণত, বাতাসের গতিবেগ ৬২ কিলোমিটার

দুর্বল হয়েছে নিম্নচাপ, নামলো সমুদ্র বন্দরের সতর্কতা সংকেত

দুর্বল হয়েছে নিম্নচাপ, নামলো সমুদ্র বন্দরের সতর্কতা সংকেত

উপকূলীয় অঞ্চলে ‘ওয়ান টাইম প্লাস্টিক’ বন্ধে বিশেষ উদ্যোগ

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৫৭

উপকূলীয় ১২টি জেলার ৪০ উপজেলা এবং চট্টগ্রাম মহানগরীর আটটি এলাকায় সিঙ্গেল ইউজ (ওয়ান টাইম) প্লাস্টিক ব্যবহার বন্ধে বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে পরিবেশ অধিদফতর। তিন বছর মেয়াদী পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে এসব এলাকার সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিক ব্যবহার বন্ধ করা হবে। সম্প্রতি পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত একটি কর্ম পরিকল্পনার প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

যেসব এলাকায় সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিক বন্ধে পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে সেগুলো হলো- বাগেরহাট জেলার মোংলা, শরণখোলা ও মোড়েলগঞ্জ; বরগুনা জেলার আমতলী, সদর, পাথরঘাটা ও বামনা; ভোলা জেলার সদর, বোরহানউদ্দিন, চরফ্যাশনে, দৌলতখান লালমোহন, মনপুরা ও তজুমুদ্দিন; চট্টগ্রাম জেলার আনোয়ারা, বাঁশখালী, মীরসরাই, সন্দ্বীপ ও সীতাকুণ্ড এবং চট্টগ্রাম মহানগরীর বন্দর, ডাবলমুরিং, পাহাড়তলী, পাঁচলাইশ, পতেঙ্গা, হালিশহর, কোতোয়ালী ও বায়েজীদ বোস্তামী; কক্সবাজার জেলার চকরিয়া, সদর, কুতুবদিয়া, মহেশখালী, রামু ও টেকনাফ; ফেনী জেলার সোনাগাজী; খুলনার দাকোপ ও কয়রা; লক্ষ্মীপুরের রামগতি; নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ, হাতিয়া ও সদর; পটুয়াখালী জেলার দশমিনা, রাঙ্গাবালী, গলাচিপা ও কলাপাড়া; পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া; এবং সাতক্ষীরা জেলার আশাশুনি ও শ্যামনগর।

তিন ধাপে আগামী ২০২৩ সালের মধ্যে এ পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা হবে বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়। যেসব সিঙ্গেল ইউজ প্লাস্টিক পণ্য বন্ধ করা হবে সেগুলোর মধ্যে রয়েছে- ওয়ান টাইম গ্লাস প্লেট ও অন্যান্য পণ্য; জুসের স্ট্র, ললিপপ কভার, স্যাসেট, সিগারেটের ফিল্টার, কটন বাড, সার্জিক্যাল গ্লভস বা মাস্ক এবং নন-রিসাইকেবল পণ্য (মাল্টিলেয়ার প্যাকেট)।

পরিকল্পনা অনুযায়ী প্রথম ধাপে ২০২১ সালের মধ্যে যাত্রী ও পণ্যবাহী নৌযান, অভ্যন্তরীণ বিমান বন্দর; দ্বিতীয় ধাপে ২০২১ সালের জুনের মধ্যে সমুদ্র সৈকত সংলগ্ন হোটেল-মোটেল রেস্টুরেন্ট; একই বছর ডিসেম্বরের মধ্যে সৈকত সংলগ্ন হাট বাজার, বাস স্টান্ড, ঘোষিত পাবলিক প্লেস উপজেলা অন্তর্গত সরকারি-আধা সরকারি দপ্তর, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এবং সর্বশেষ তৃতীয় ধাপে ২০২৩ সালের জুনের মধ্যে সৈকত সংলগ্ন সকল উপজেলা এবং ডিসেম্বরের মধ্যে সৈকত সংলগ্ন জেলায় সিঙ্গেল প্লাস্টিক পণ্য বন্ধ করা হবে।

এ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে কোস্টাল এলাকায় পরিবেশসম্মতভাবে পাইলট প্রকল্প হিসেবে কক্সবাজার ও পটুয়াখালীতে বর্জ্য সংগ্রহ ও বর্জ্য ফেলার সুবিধাদি স্থাপনের কথা বলা হয়েছে। 

/ইএইচএস/ইউএস/

সম্পর্কিত

টেকসই বেড়িবাঁধের অভাবে ঝুঁকির মুখে উপকূলের জীবন-জীবিকা

টেকসই বেড়িবাঁধের অভাবে ঝুঁকির মুখে উপকূলের জীবন-জীবিকা

খবর পেতে দিন গুনতে হয় না তাদের

খবর পেতে দিন গুনতে হয় না তাদের

উপকূলের আঁধার কাটালো সৌরবাতি

উপকূলের আঁধার কাটালো সৌরবাতি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গণটিকাদান কর্মসূচি: প্রথম দুই ঘণ্টায় অগ্রাধিকার পাবেন যারা 

গণটিকাদান কর্মসূচি: প্রথম দুই ঘণ্টায় অগ্রাধিকার পাবেন যারা 

রবিবার টিকা দেওয়া হয়েছে সাড়ে ৬ লাখ  

রবিবার টিকা দেওয়া হয়েছে সাড়ে ৬ লাখ  

বিশেষ কোনও টিকা নিয়ে ‘ফ্যাসিনেশন’ থাকা যাবে না

বিশেষ কোনও টিকা নিয়ে ‘ফ্যাসিনেশন’ থাকা যাবে না

একদিনে নারীমৃত্যু দ্বিগুণ

একদিনে নারীমৃত্যু দ্বিগুণ

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে আবারও দেশে গণটিকা কর্মসূচি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে আবারও দেশে গণটিকা কর্মসূচি: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

৪ কোটি টিকা দেওয়া শেষ 

৪ কোটি টিকা দেওয়া শেষ 

আবারও বরিশালসহ ৩ বিভাগে করোনায় মৃত্যুহীন দিন

আবারও বরিশালসহ ৩ বিভাগে করোনায় মৃত্যুহীন দিন

একদিনে ২২১ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

একদিনে ২২১ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

‘স্বস্তির ঢিলেমি’ আবারও বিপর্যয় আনতে পারে

‘স্বস্তির ঢিলেমি’ আবারও বিপর্যয় আনতে পারে

সর্বশেষ

টেস্ট ক্রিকেট ছাড়ছেন মঈন আলী

টেস্ট ক্রিকেট ছাড়ছেন মঈন আলী

আ.লীগকে রাজনৈতিক সমঝোতায় আসার আহবান জোনায়েদ সাকির

আ.লীগকে রাজনৈতিক সমঝোতায় আসার আহবান জোনায়েদ সাকির

আফগানিস্তানে নারীর অধিকার লঙ্ঘনে জাতিসংঘের দফতরে সামনে বিক্ষোভ

আফগানিস্তানে নারীর অধিকার লঙ্ঘনে জাতিসংঘের দফতরে সামনে বিক্ষোভ

নওয়াজুদ্দিনের ডিকশনারিতে সুপারস্টারের অর্থটা অন্যরকম

নওয়াজুদ্দিনের ডিকশনারিতে সুপারস্টারের অর্থটা অন্যরকম

১৩ টাকা কেজিতে বিদ্যালয়ের বই বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক

১৩ টাকা কেজিতে বিদ্যালয়ের বই বিক্রি করলেন প্রধান শিক্ষক

© 2021 Bangla Tribune