X
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

ভুঁড়ি কত প্রকার, কোনটা কীভাবে কমাবেন?

আপডেট : ২৬ জুলাই ২০২১, ১২:৫৯

ভুঁড়ি কত প্রকার এটা কোনও পরীক্ষায় না আসলেও উত্তরটা জানা থাকলে আছে কিছু উপকার। কারণ সব ভুঁড়ি একই কারণে গজায় না। ভুঁড়ি দেখে যেমন লোক চেনা যায়, আবার ভুঁড়ির গঠন দেখে বোঝা যায় সেটার কারণ। আর কারণ জানতে পারলে ভুঁড়িটাকে বাগে আনাও হবে সহজ।

 

স্ট্রেস বেলি

মানসিক চাপের প্রশ্নে আমরা যতই এড়িয়ে চলি না কেন, এর একটি বড় শারীরিক পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া আছে। অতিরিক্ত মানসিক চাপে থাকলে করটিসল নামের স্টেরয়েড হরমোনের মাত্রা বেড়ে তলপেটের আশপাশে চর্বির পরিমাণ বাড়িয়ে তোলে অস্বাভাবিক গতিতে। এ ধরনের ভুঁড়ি কমাতে চাই মানসিক প্রশান্তি। এর জন্য নিয়ম করে ইয়োগা করুন আর খেয়াল রাখুন ঠিকঠাক ঘুম হচ্ছে কিনা।

 

হরমোন বেলি

হরমোনের ভারসাম্যহীনতার কারণে এ ধরনের ভুঁড়ি তৈরি হয়। হাইপোথায়রয়েডিসম বা পিসিওএস এ ধরনের ভুঁড়ির জন্য দায়ী। এতে করে ভুঁড়ির পাশাপাশি সামগ্রিক ওজনও বেড়ে যেতে থাকে। এটাকে দমিয়ে রাখতে হলে অস্বাস্থ্যকর খাবার এড়িয়ে চলতে হবে। নিয়মিত বাদাম ও মাছ খেতে হবে। পাশাপাশি থাইরয়েড সংক্রান্ত পরীক্ষা ও পরামর্শ নিতে হবে ডাক্তারের কাছ থেকে।

 

লো বেলি

যখন কারও শরীরের উপরের অংশ চিকন ও নিচের দিকটা, বিশেষ করে তলপেটের দিকটা চওড়া হয়ে থাকে, সেটাকে বলে লো বেলি। শুয়ে বসে কাটানোই এর কারণ। আর এ সমস্যা কাটাতে ফাইবার সমৃদ্ধ খাবার ও প্রচুর পানি পান করতে হবে। পাকস্থলীর ব্যায়ামগুলোও করতে হবে নিয়মিত।

 

ব্লটেড বেলি

ভুঁড়ি ছাড়াও অনেকের পেটটাকে ফোলা ফোলা মনে হয়। এটাকে বলে ব্লটেড বেলি। হজমের সমস্যার কারণেই এমনটা হয়। এ সমস্যা থেকে বাঁচতে একসঙ্গে বেশি খাবার খাওয়া যাবে না। এড়িয়ে চলতে হবে কোমল পানীয়। ভারী খাবার খাওয়ার পরপরই পানি খাওয়া যাবে না।

/এফএ/

সম্পর্কিত

ইয়োগায় যা করা যাবে না

ইয়োগায় যা করা যাবে না

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

রেসিপি : কোকোনাট বিস্কুট

রেসিপি : কোকোনাট বিস্কুট

শারদ সাজে বিশ্বরঙ-এর ‘দিদি’

শারদ সাজে বিশ্বরঙ-এর ‘দিদি’

ইয়োগায় যা করা যাবে না

আপডেট : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:৫০

করোনাকালে বাসায় করা ব্যায়ামের তালিকায় ইয়োগা উঠে এসেছে এক নম্বরে। এ সময় অনেকেই শিখেছেন এটি। ইউটিউব দেখে শিখলেও, দেখা গেলো কিছু নিয়মকানুন না জানায় ইয়োগা করতে গিয়ে বড় ধরনের ভুল করে বসছেন কেউ কেউ।

 

শুরুতেই কঠিন নয়

ইয়োগার কিছু আসন আছে বেশ কঠিন। শুরুতেই ওইরকম কোনও আসন চর্চা করতে গেলে ক্ষতিও হতে পারে। হারিয়ে যেতে পারে ইয়োগার আগ্রহটাও। তাই শুরুর দিকে বেছে নিন প্রাণায়ামের মতো সহজ কোনও আসন।

 

আবহাওয়া

খুব গরম বা ঠান্ডার মধ্যে ইয়োগা করতে যাবেন না। বাতাসের বেশি আর্দ্রতাও ইয়োগার জন্য অনুকূল নয়।

 

শ্বাস-প্রশ্বাস

ইয়োগা বা ব্যায়ামের কোনও কোনও পর্যায়ে অনেকেই অবচেতনে দম আটকে রাখেন। এতে অস্বস্তিকর একটা অনুভূতিতে পড়তে হয়। ইয়োগার নিয়ম মেনে শ্বাস-প্রশ্বাস যতটা সম্ভব স্বাভাবিক রাখুন।

 

খাওয়ার পর বারণ

খাওয়া থেকে উঠেই ইয়োগা শুরু করে দেবেন না। ভারী কিছু খেলে কমপক্ষে ২-৩ ঘণ্টা অপেক্ষা করুন।

 

ক্লান্ত শরীরে নয়

ইয়োগাকে অনেকে কম পরিশ্রমের ব্যায়াম মনে করেন, যা ঠিক নয়। ইয়োগাতেও ঘাম ঝরতে পারে। তাই অসুস্থ বা খুব ক্লান্ত থাকলে ইয়োগা করতে যাবেন না।

 

প্রশিক্ষণ নিন

বই বা ভিডিও দেখেই সঙ্গে সঙ্গে ইয়োগা শুরু করবেন না। ভালো একজন প্রশিক্ষক না পেলে অন্তত ইয়োগা জানে এমন কাউকে পার্টনার হিসেবে নিন। কারণ নিয়মে একটু উল্টোপাল্টা হলেই দেখা যাবে মাসল পুল হচ্ছে বা ব্যথায় কাতর হয়ে পড়ছেন।

 

টাইট পোশাক নয়

ইন্টারনেটে ইয়োগার ছবি দেখে আবার একেবারে টাইট ফিটিং পোশাক পরতে যাবেন না। টাইট পোশাক আপনার পাঁজর ও ফুসফুসকে বাধা দেবে। ঠিকমতো শ্বাসও নিতে পারবেন না।

 

গোসল

ইয়োগা শেষে সঙ্গে সঙ্গে শাওয়ারে ঢুকে পড়বেন না। ঘাম শুকানো পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

 

অন্য ব্যায়াম

ইয়োগার পর ভারী কোনও ব্যায়াম করা ঠিক হবে না। যদি করতেই হয় তবে সেটা ইয়োগার আগে স্বল্প পরিসরে সেরে ফেলতে হবে।

 

পানি

ইয়োগা চলাকালীন বা আগে-পরে পেট ভরে পানি পান করতে যাবেন না। তৃষ্ণার্ত বোধ করলে মাঝে মাঝে দুয়েক চুমুক পান করতে পারেন।

/এমআর/

সম্পর্কিত

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

রেসিপি : কোকোনাট বিস্কুট

রেসিপি : কোকোনাট বিস্কুট

শারদ সাজে বিশ্বরঙ-এর ‘দিদি’

শারদ সাজে বিশ্বরঙ-এর ‘দিদি’

রেসিপি : তালপাকা গরমে চার শরবত

রেসিপি : তালপাকা গরমে চার শরবত

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৪৮

হাড় অথবা জয়েন্টের ব্যথা আর্থ্রাইটিস। এই রোগের অসহনীয় ব্যথা থেকে বাঁচতে নিচের খাবারগুলো এড়িয়ে চলার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

 

অতিরিক্ত চিনি

আপনার যদি আর্থ্রাইটিস থাকে, তবে অবশ্যই চিনি খাওয়ার পরিমাণ শূন্যের কোঠায় নামিয়ে আনতে হবে। বিশেষ করে ক্যান্ডি, সফট ড্রিংকস, সোডা, সস বা আইসক্রিমকে পুরোপুরি না বলতে হবে। যেকোনও ধরনের ডেজার্টেও চিনির ব্যবহার বন্ধ করতে হবে।

 

প্রক্রিয়াজাত মাংস ও রেড মিট

বাজারের প্রক্রিয়াজাত মাংস বা রেড মিট যেমন গরু, ছাগল, মহিষের মাংসও এ রোগের লক্ষণগুলো বাড়িয়ে দেয়। এসব খাবার আপনার দেহের ইন্টারলিউকিন-৬, সি-রিয়েক্টিভ প্রোটিন এবং হিমোসিস্টিনের মাত্রা বাড়িয়ে দেয় যা দেহে প্রদাহের কারণ।

 

গ্লুটেনযুক্ত খাবার

গ্লুটেন হচ্ছে এক ধরনের প্রোটিন যেটা মূলত গম, রাই, বার্লি ইত্যাদিতে থাকে। এ সবে এক ধরনের আঠালো পদার্থ থাকে এসব খাবারে। যা খাবারটিকে বেক করার সময় ফেঁপে উঠতে সাহায্য করে। মূলত রুটি, পাউরুটি, পাস্তা, কেক, চিপস, সসে গ্লুটেন থাকে। এটিও আর্থ্রাইটিসের জন্য ক্ষতিকর।

 

অতি প্রক্রিয়াজাত খাবার

এসব খাদ্য তালিকায় আছে মিষ্টি বা মসলাদার স্ন্যাক্স, কোমল পানীয়, ইনস্ট্যান্ট নুডলস ও স্যুপ, হিমায়িত অথবা দীর্ঘ সময় ধরে সংরক্ষিত খাবার, চর্বি দিয়ে তৈরি প্রক্রিয়াজাত খাবার ইত্যাদি। এগুলোর পাশাপাশি ফুড প্রিজারভেটিভ আমাদের অস্থি ও জয়েন্টের প্রদাহ বাড়িয়ে দেয়। এগুলো আর্থ্রাইটিস ঘটানোর পেছনেও দায়ী।

 

বাড়তি লবণ

লবণ খাওয়া একেবারেই কমিয়ে দেওয়া আর্থ্রাইটিসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য সঠিক সিদ্ধান্ত হবে। ভর্তা, শুঁটকি, আচার, সালাদ, টেস্টিং সল্ট, সয়া সস, অয়েস্টার সস, ক্যানড স্যুপ, পিৎজা, চিজ, প্রক্রিয়াজাত মাংসসহ অনেক খাবারে বাড়তি লবণ দেওয়া হয়। এগুলো হাড়ের পাশাপাশি হৃদযন্ত্র, ধমনি, কিডনি ও মস্তিষ্কের ওপর চাপ তৈরি করে ও ব্যথা বাড়ায়।

 

ভাজাপোড়া

অ্যাডভান্সড গ্লাইকেশন এন্ড প্রোডাক্টস (এজিই) হলো সুগার, প্রোটিন ও আরও কয়েকটি উপাদানের সমন্বয়। বাইরের ভাজাপোড়া খাবারে এজিই বেশি থাকে। বিভিন্ন প্রকার খাবারের ভাজা মাংসেও এটি থাকে। এরপর যথাক্রমে ভেজিটেবল অয়েল, পনির ও মাছে এজিইর উপস্থিতি পাওয়া যায়। ফ্রেঞ্চ ফ্রাই, চিপস, প্যান-ফ্রাইড স্টেক, গ্রিলড মিট এবং ডুবোতেলে ভাজা মাছ পরিহার করতে হবে। কারণ উচ্চ-তাপমাত্রায় রান্নার সময় এতে থাকা সুগার, প্রোটিন বা ফ্যাটগুলোর সঙ্গে প্রতিক্রিয়া করে উচ্চমাত্রার এজিই সৃষ্টি করে, যা দেহের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট প্রক্রিয়াগুলোসহ সেলুলার কর্মহীনতা এবং অন্ত্রের ব্যাকটেরিয়ায় নেতিবাচক প্রভাব ফেলে। এতে আর্থ্রাইটিসের সমস্যার বৃদ্ধির পাশাপাশি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও কমে যায়।

সূত্র: হেলথ লাইন

 

 

/এফএ/

সম্পর্কিত

ইয়োগায় যা করা যাবে না

ইয়োগায় যা করা যাবে না

রেসিপি : কোকোনাট বিস্কুট

রেসিপি : কোকোনাট বিস্কুট

শারদ সাজে বিশ্বরঙ-এর ‘দিদি’

শারদ সাজে বিশ্বরঙ-এর ‘দিদি’

রেসিপি : তালপাকা গরমে চার শরবত

রেসিপি : তালপাকা গরমে চার শরবত

রেসিপি : কোকোনাট বিস্কুট

আপডেট : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:৪৪

এ বিস্কুটের টেক্সচারটাই আলাদা। চা-কফির সঙ্গে নারিকেল স্বাদের এ বিস্কুট খেতেও বেশ। কনভেকশন ওভেনে সহজেই বানানো যায় এটি। চলুন জেনে নেওয়া যাক কোকোনাট বিস্কুটের রেসিপি ।

 

ছোটখাট এক বয়াম বিস্কুটের জন্য যা যা লাগবে

  • ১/২ কাপ মাখন।
  • ১/২ কাপ কোরানো নারিকেল।
  • ১/২ চা চামচ বেকিং পাউডার।
  • ১/২ চা চামচ ভ্যানিলা এসেন্স।
  • ১/২ কাপ মিহি করে নেওয়া চিনি।
  • ১ কাপ ময়দা।
  • পরিমাণমতো দুধ।

 

প্রস্তুত প্রণালী

  • মাখনটাকে গলিয়ে একটি বাটিতে নিয়ে তাতে মিহি করা চিনি মেশান। হুইস্ক দিয়ে ভালো করে মেশান। অন্তত ৩-৪ মিনিট জোরসে নাড়ুন, যাতে মিশ্রণটা একেবারে মসৃণ হয়।
  • এরপর ওই বাটিতে ময়দা দিন। একে নারিকেল, বেকিং পাউডার ও ভ্যানিলা এসেন্স দিন। হাত দিয়ে ভালো করে মাখতে থাকুন। ২-৩ টেবিল চামচ দুধ দিন। নরম ডো না হওয়া পর্যন্ত মাখতে থাকুন।
  • ডো থেকে ছোট ছোট করে গোল স্কুপ নিন। সামান্য চাপ দিয়ে খানিকটা চ্যাপ্টা করে নিন। গুঁড়ো করা নারিকেলের ওপর চেপে খানিকটা কোট দিন। এরপর একটি বেকিং ট্রেতে পার্চমেন্টের ওপর লাইন করে রাখুন।
  • ওভেন প্রি হিট করে ১৭০ ডিগি সেলসিয়াসে ১৫ মিনিট বেক করুন। সংরক্ষণ করতে হবে এয়ারটাইট জারে।

 

/এফএ/

সম্পর্কিত

ইয়োগায় যা করা যাবে না

ইয়োগায় যা করা যাবে না

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

শারদ সাজে বিশ্বরঙ-এর ‘দিদি’

শারদ সাজে বিশ্বরঙ-এর ‘দিদি’

রেসিপি : তালপাকা গরমে চার শরবত

রেসিপি : তালপাকা গরমে চার শরবত

শারদ সাজে বিশ্বরঙ-এর ‘দিদি’

আপডেট : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:০৫

বাংলাদেশের ফ্যাশন শিল্পে অন্যতম ফ্যাশন ব্রান্ড বিশ্বরঙ। ব্র্যান্ডটি ২৫ বছরে বহু প্রতিভাবান মডেল উপহার দিয়েছে বিভিন্ন ইভেন্ট আয়োজনের মাধ্যমে। সেই ধারাবাহিকতায় ষষ্ঠবারের মতো শুরু হতে যাচ্ছে অনলাইন রিয়েলিটি শো ‘শারদ সাজে বিশ্বরঙ-এর দিদি-২০২১’। বিগত বছরগুলোতে এ আয়োজনে যারা বিজয়ী হয়েছেন তাদের থেকে অনেকেই উঠে এসেছেন মিডিয়া জগতের বিভিন্ন ক্ষেত্রে। হয়তো তারাই আগামীতে উজ্জ্বল নক্ষত্র হয়ে থাকবেন। এবার প্রস্তুতি নিতে পারেন আপনিও।

দেশের যেকোনও প্রান্ত থেকে যেকোনও বয়সের, যেকেউ অংশগ্রহণ করতে পারবেন  প্রতিযোগিতায়।

  • বায়োডাটাসহ শারদ সাজে ছবি ও ভিডিও পাঠিয়ে দিতে হবে [email protected] এই ঠিকানায়।
  • রেজিস্ট্রেশন ফি নেই।
  • ছবি ও ভিডিও পাঠানোর শেষ সময় ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১।
  • প্রতিযোগীতায় বিচারক থাকবেন বাংলাদেশের প্রখ্যাত মিডিয়া ব্যক্তিত্বরা।
  • শুরু হয়েছে শারদ সাজে দিদি

 

/এফএ/

সম্পর্কিত

ইয়োগায় যা করা যাবে না

ইয়োগায় যা করা যাবে না

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

রেসিপি : কোকোনাট বিস্কুট

রেসিপি : কোকোনাট বিস্কুট

রেসিপি : তালপাকা গরমে চার শরবত

রেসিপি : তালপাকা গরমে চার শরবত

রেসিপি : তালপাকা গরমে চার শরবত

আপডেট : ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:২০

ভাদ্র শেষ হতে চললো। তবু চারপাশে ভ্যাপসা গরম। আর এমন গরমে একগ্লাস মিষ্টিমধুর শরবতের জন্য গলাটা হা পিত্যেশ করতেই পারে। রইল চারটি স্বাস্থ্যকর মনজুড়ানো শরবতের রেসিপি।

 

খেজুরের শরবত

যা যা লাগবে

  • নরম খেজুর আধা কাপ
  • ঘন দুধ ১ কাপ
  • চিনি পরিমাণমতো
  • কিশমিশ ১ চা চামচ
  • বাদাম কুচি ১ চা চামচ
  • পানি পরিমাণমতো।

 

প্রস্তুত প্রণালী

প্রথমে খেজুর ভালো করে ধুয়ে বিচি ফেলে টুকরা করে পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে বরফ কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন।

 

লাবাং

  • যা যা লাগবে
  • মিষ্টি দই আধা কেজি
  • ১ কাপ চিনি
  • পরিমাণমতো লবণ
  • অল্প পরিমাণ গরম মসলা
  • পরিমাণমতো মাঠা

 

প্রস্তুত প্রণালী

প্রথমেই মিষ্টি দই, গরম মসলা, লবণ, চিনি, মাঠা মিশিয়ে আধা ঘণ্টা ধরে রেখে দিন। এরপর ব্লেন্ড করুন। তৈরি হয়ে গেল গরমে প্রশান্তির লাবাং।

 

লেবু-পুদিনার শরবত

যা যা লাগবে

  • মাঝারি আকারের লেবু ২টি
  • পানি ২৫০ মিলিলিটার
  • পুদিনা পাতা ১০ গ্রাম
  • বরফকুচি পরিমাণমতো
  • চিনি ১০ গ্রাম
  •  

প্রস্তুত প্রণালী

প্রথমে লেবুর খোসা ফেলে টুকরো করে নিন। পুদিনা পাতা ধুয়ে কুচি করে কার্টুন। ব্লেন্ডারে লেবু, পুদিনা পাতা, পানি, চিনি দিয়ে ভালোভাবে ব্লেন্ড করুন। এরপর ছাঁকনি দিয়ে ছেঁকে গ্লাসে বরফ কুচি দিয়ে পরিবেশন করুন।

 

 

কলা ও কাঠবাদামের শরবত

যা যা লাগবে

  • বড় কলা ১টি
  • ভ্যানিলা এসেন্স কয়েক ফোঁটা
  • ঠান্ডা দুধ ১ কাপ
  • কাঠবাদাম (খোসা ছাড়ানো) ৫-৬টি

 

প্রস্তুত প্রণালী

সব উপকরণ একসঙ্গে ব্লেন্ডারে দিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করুন। কাঠবাদাম ভালো করে দুধের সঙ্গে মিশে গেলে গ্লাসে ঢেলে পরিবেশন করুন। এটি বেশ স্বাস্থ্যকর।

/এফএ/

সম্পর্কিত

ইয়োগায় যা করা যাবে না

ইয়োগায় যা করা যাবে না

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

রেসিপি : কোকোনাট বিস্কুট

রেসিপি : কোকোনাট বিস্কুট

শারদ সাজে বিশ্বরঙ-এর ‘দিদি’

শারদ সাজে বিশ্বরঙ-এর ‘দিদি’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ইয়োগায় যা করা যাবে না

ইয়োগায় যা করা যাবে না

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

আর্থ্রাইটিসের ব্যথা কমাতে এড়িয়ে চলুন খাবারগুলো

রেসিপি : কোকোনাট বিস্কুট

রেসিপি : কোকোনাট বিস্কুট

শারদ সাজে বিশ্বরঙ-এর ‘দিদি’

শারদ সাজে বিশ্বরঙ-এর ‘দিদি’

রেসিপি : তালপাকা গরমে চার শরবত

রেসিপি : তালপাকা গরমে চার শরবত

কোন ওষুধের সঙ্গে কী খাবেন না

কোন ওষুধের সঙ্গে কী খাবেন না

নতুন পণ্য এনেছে ফামি ইউকে

নতুন পণ্য এনেছে ফামি ইউকে

প্রাকৃতিক উপায়ে সুগার নিয়ন্ত্রণ

প্রাকৃতিক উপায়ে সুগার নিয়ন্ত্রণ

‘লোলাভি’ নিয়ে এলেন জেনিফার

‘লোলাভি’ নিয়ে এলেন জেনিফার

পরিচ্ছন্নতার ৫টি টিপস

পরিচ্ছন্নতার ৫টি টিপস

সর্বশেষ

তালেবানকে হঠাতে মার্কিন অস্ত্র চান মাসুদ

তালেবানকে হঠাতে মার্কিন অস্ত্র চান মাসুদ

কাবুলে রকেট হামলা

কাবুলে রকেট হামলা

ছিনতাইকারীকে ধরতে গিয়ে ছুরিকাঘাতে আহত দিনমজুরের মৃত্যু

ছিনতাইকারীকে ধরতে গিয়ে ছুরিকাঘাতে আহত দিনমজুরের মৃত্যু

ইভ্যালিতে প্রতারিতরা কি টাকা ফেরত পাবেন?

ইভ্যালিতে প্রতারিতরা কি টাকা ফেরত পাবেন?

এক দশক পর ভেলভেট উইংস (ভিডিও)

এক দশক পর ভেলভেট উইংস (ভিডিও)

© 2021 Bangla Tribune