X
মঙ্গলবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

ভয়ংকর মাদক পর্ব- ২

৫০ বছরে মাদক বদলেছে পাঁচবার

আপডেট : ২৬ জুলাই ২০২১, ১৬:৩২

দেশে মাদকাসক্তের সংখ্যা ও বাজার দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে এখন অন্যতম। প্রতিনিয়ত ধরা পড়ছে কারবারিরা। তবু থেমে নেই নতুন মাদকের আমদানি। এ নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদনের আজ থাকলো দ্বিতীয় পর্ব।

শতবছর আগে থেকেই এই অঞ্চলে বিভিন্ন ধরনের মাদকের প্রচলন ছিল। দেশ স্বাধীন হওয়ার পরও অব্যাহত আছে এ ধারা। তবে গত ৫০ বছরে অন্তত পাঁচবার মাদকের ধরন পরিবর্তন করেছে সেবীরা। আফিম-গাঁজা দিয়ে শুরু হয়ে যা এখন ঠেকেছে ম্যাজিক মাশরুম-এ।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও গবেষকরা বলছেন, মাদক পরিবর্তনের এ ধারা কয়েকটি কারণে ঘটে। একসময় হেরোইন ও ফেনসিডিলের চাহিদা ছিল বেশি, পরে ওই বাজার দখল করে ইয়াবা। ইয়াবা থেকেও এখন অন্য মাদকে যাওয়ার প্রবণতা শুরু হয়েছে।

প্রতি দশকে নতুন মাদক

বাংলাদেশে গড়ে এক দশক পরপর মাদকের ধরন ও বাজার বদলেছে। তবে ইয়াবা ও গাঁজার রাজত্ব আছে আগের মতোই।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীবাহিনীর হাতে জব্দ মাদক গাঁজা (ফাইল ছবি)

জাতিসংঘের মাদক ও অপরাধ নিয়ন্ত্রণ সংস্থার (ইউএনওডিসি) তথ্য অনুযায়ী, ১৯৭০ সালে ধূমপানের পাশাপাশি গাঁজা, আফিম ও দেশি মদের বেশ দৌরাত্ম ছিল। ১৯৮৪ সালের দিকে মাদকসেবীরা মৃতসঞ্জীবনী, গাঁজা, ও বিভিন্ন ধরনের তরল নেশাদ্রব্য পান শুরু করে।

ছয় বছর পর ১৯৯০ সালে ভারত থেকে আসতে শুরু করে ফেনসিডিল। নব্বই দশক থেকে শুরু হয় হেরোইন, গাঁজা ও মদ। ২০০০ সালে এসব মাদকের পাশাপাশি যোগ হয় নানা ধরনের ইনজেকশন। তখন সরাসরি শরীরে মাদক পুশ করে নেশার জগতে বুঁদ হয়ে থাকতো সেবীরা। ২০০৫ সালে আসে ভয়ংকর ইয়াবা। গত দেড়যুগে এটি ছড়িয়েছে ব্যাঙের ছাতার মতো। গ্রামগঞ্জেও এখন ইয়াবার রমরমা বাজার।

২০০৮ সালের দিকে আঠাজাতীয় রাসায়নিকের ঘ্রাণ নেওয়ার প্রবণতাও দেখা যায়। মূলত বস্তি ও পথশিশুদের মধ্যে এ মাদকের ব্যবহার বেশি দেখা যায়। এর মাঝে ২০১৯ সালে দেশে আসে আইস ও এলএসডি। আর এ বছর সন্ধান পাওয়া যায় ম্যাজিক মাশরুম ও ডিএমটি নামের আরও ভয়ানক মাদকের।

ভয়ংকর মাদক আইস

আন্তর্জাতিক সংস্থা যা বলছে

গত ২৪ জুন মাদক নিয়ে একটি বার্ষিক প্রতিবেদন প্রকাশ করে জাতিসংঘের মাদক ও অপরাধ নিয়ন্ত্রণ সংস্থার (ইউএনওডিসি)। প্রতিবেদনের তথ্য বলছে, ২০৩০ সালের মধ্যে পৃথিবীতে মাদক সেবনকারী মানুষের সংখ্যা ১১ শতাংশ বাড়বে।

এই সময় আফ্রিকাসহ অনুন্নত দেশগুলোতে মাদক সেবন বাড়বে ৪০ শতাংশ। আর উন্নত দেশে কমবে ১ শতাংশ। তবে মাদক বাজারে করোনার প্রভাবও পড়তে পারে। অন্যদিকে এই সময়ে ইন্টারনেট ভিত্তিক মাদক বিক্রিও বেড়েছে।

সংস্থাটির দাবি, ইন্টারনেটের মাধ্যমেই এখন বিশ্বে সাড়ে ৩১ কোটি ডলারের মাদক বিক্রি হচ্ছে। এমনকি বর্তমানে বৈধ ওষুধকেও মাদকে রূপান্তর করে ব্যবহারের মাত্রা বেড়েছে।

সংস্থাটি দাবি করেছে বাংলাদেশে যত মাদক ঢুকছে তার মাত্র ১০ শতাংশ ধরা পড়ে। ৯০ শতাংশই চলছে অবাধে। এই হিসাবে গতবছর দেশে ৩০ কোটি ইয়াবা বড়ি বিক্রি হয়েছে। গড়ে প্রতি বড়ি সর্বনিম্ন ১৫০ টাকা হিসাবে যার বাজারমূল্য সাড়ে চার হাজার কোটি টাকা। এই অর্থের বেশিরভাগই চলে গেছে ইয়াবার মূল উৎসস্থল মিয়ানমারে।

গবেষণা বলছে, সব মিলিয়ে বাংলাদেশ এখন মাদকের বাজার আছে প্রায় ৪০ হাজার কোটি টাকার।

তবে উন্নয়ন সংস্থা মানস-এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও জাতীয় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ উপদেষ্টা কমিটির সদস্য অধ্যাপক ড. অরূপ রতন চৌধুরী বলেন, ‘মাদকসেবীরা একটি না পেলে আরেকটি নেবে। আবার সাপ্লায়ার যখন যা সাপ্লাই দিতে পারবে তারা সেটা নিতেও বাধ্য। ইয়াবা যেসব কাঁচামাল দিয়ে তৈরি, সেগুলাও সরাসরি ইয়াবাসেবীরা পাচ্ছে। আইস তার মধ্যে অন্যতম। ইয়াবা তৈরি হয় এমফিটামিন দিয়ে। আইস হচ্ছে সরাসরি এমফিটামিন। এটি সামান্য পরিমাণে গ্রহণ করলেই শরীতে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। এতে মৃত্যুঝুঁকিও বেশি।’

/এফএ/
টাইমলাইন: ভয়ংকর মাদক
২৯ জুলাই ২০২১, ১৫:০০
২৮ জুলাই ২০২১, ১৩:০০
২৬ জুলাই ২০২১, ১৬:০৯
৫০ বছরে মাদক বদলেছে পাঁচবার

সম্পর্কিত

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য ৪ দফা জরুরি নির্দেশনা

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য ৪ দফা জরুরি নির্দেশনা

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তথ্য পাঠাতে হবে নতুন নির্দেশনা অনুসারে

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তথ্য পাঠাতে হবে নতুন নির্দেশনা অনুসারে

চাল উৎপাদনে রেকর্ডের পরও আমদানি করতে হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী

চাল উৎপাদনে রেকর্ডের পরও আমদানি করতে হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী

দেশ আজ উন্নয়নে বিশ্বের বিস্ময়: শ্রম প্রতিমন্ত্রী

দেশ আজ উন্নয়নে বিশ্বের বিস্ময়: শ্রম প্রতিমন্ত্রী

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য ৪ দফা জরুরি নির্দেশনা

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৩২

করোনা আক্রান্ত ও করোনার লক্ষণ পাওয়া শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের বিষয়ে করণীয় নির্ধারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য আরও চার দফা জরুরি নির্দেশনা দিয়েছে সরকার। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের গত রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত আদেশ মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) প্রকাশ করা হয়।  

আদেশে জানানো হয়, সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে গত ১২ সেপ্টেম্বর থেকে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের আওতাধীন সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পুনরায় শ্রেণি কার্যক্রম শুরু হয়েছে। মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর থেকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পুনরায় চালুর জন্য একটি গাইডলাইন, নির্দেশিকা এবং স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিউর (এসওপি) জারি করা হয়েছে। এছাড়াও মনিটরিং চেকলিস্টের মাধ্যমে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে দৈনিক ভিত্তিতে তথ্য সংগ্রহ করে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ বরাবর পাঠানো হচ্ছে। করোনা সংক্রমণ রোধে আরও কিছু পদক্ষেপ নেওয়া জরুরি।

জরুরি পদক্ষেপ:

১) শিক্ষকরা শ্রেণিকক্ষে প্রবেশের পর প্রথমেই শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সম্বন্ধে খোঁজ-খবর নেবেন।

২. শিক্ষার্থীর পরিবারের কেউ করোনা আক্রান্ত বা করোনার লক্ষণ (জ্বর, সর্দি, কাশি ইত্যাদি) আছে কিনা তার খোঁজ নেবেন।

৩) কোনও শিক্ষার্থী বা তার পরিবারের কারও করোনা বা করোনার লক্ষণ দেখা দিলে দ্রুত সেই শিক্ষার্থীকে আইসোলেশনে রেখে বাড়িতে পাঠানোর ব্যবস্থা করবেন।

৪. প্রতিষ্ঠান প্রধান ওই শ্রেণিকক্ষের শিক্ষক এবং সব শিক্ষার্থীর দ্রুততম সময়ের মধ্যে করোনা টেস্ট করার ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

আদেশে বলা হয়, পরিচালক, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা (সব অঞ্চল); উপ-পরিচালক, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা সব অঞ্চল, সব জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এবং সব উপজেলা/থানা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা তাদের আওতাধীন সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে বিষয়টি অবহিত ও বাস্তবায়নে তত্ত্বাবধান করবেন। সর্বোচ্চ গুরুত্বের সঙ্গে তদারকি ও প্রয়োজনীয় সহযোগিতা নিশ্চিত করার অনুরোধ করা হয় নির্দেশনায়।

 

 

/এসএমএ/আইএ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তথ্য পাঠাতে হবে নতুন নির্দেশনা অনুসারে

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তথ্য পাঠাতে হবে নতুন নির্দেশনা অনুসারে

চাল উৎপাদনে রেকর্ডের পরও আমদানি করতে হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী

চাল উৎপাদনে রেকর্ডের পরও আমদানি করতে হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী

দেশ আজ উন্নয়নে বিশ্বের বিস্ময়: শ্রম প্রতিমন্ত্রী

দেশ আজ উন্নয়নে বিশ্বের বিস্ময়: শ্রম প্রতিমন্ত্রী

সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছেন বিমান প্রতিমন্ত্রী

সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছেন বিমান প্রতিমন্ত্রী

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তথ্য পাঠাতে হবে নতুন নির্দেশনা অনুসারে

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:৩৭

সরকারি-বেসরকারি সব বিদ্যালয় থেকে করোনা বিষয়ক তথ্য নতুন নির্দেশনা অনুযায়ী পাঠাতে বলেছে সরকার। দৈনিক ভিত্তিতে পাঠানো তথ্য আগের ছকের পরিবর্তে নতুন ছকে পাঠাতে বলা হয়েছে। রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) স্বাক্ষরিত মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের জরুরি নির্দেশনাটি মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) প্রকাশ করা হয়েছে।  

এতে বলা হয়, সরকারি ও বেসরকারি সব বিদ্যালয় থেকে করোনা বিষয়ে পাওয়া তথ্য দৈনিক ভিত্তিতে আগের ছকের পরিবর্তে সংযুক্ত নতুন ছক মোতাবেক মনিটরিং অ্যান্ড ইভ্যালুয়েশান উইংয়ের ই-মেইলে ([email protected]) পাঠাতে হবে।

নির্দেশনায় জানানো হয়, গত ১২ সেপ্টেম্বর স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পুনরায় চালুর পর উদ্ভূত সমস্যা সম্পর্কে মনিটরিং ছক অনুযায়ী দৈনিক তথ্য পাঠনো সংক্রান্ত বিষয়ে দুটি নির্দেশনাপত্র জারি করা হয়েছে।

এক. বর্তমান পরিস্থিতিতে করোনা সংক্রান্ত তথ্য আরও দ্রুত এবং নির্ভুলভাবে পাওয়ার জন্য মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতরের আওতাধীন সব আঞ্চলিক পরিচালকের অধীন সরকারি ও বেসরকারি কলেজ এবং উপজেলা/থানা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তাকে নিজ উপজেলা/থানার মাধ্যমিক পর্যায়ের সব সরকারি ও বেসরকারি বিদ্যালয় থেকে করোনা সংক্রান্ত তথ্য দৈনিক ভিত্তিতে সংযুক্ত নতুন ছক মোতাবেক মনিটরিং অ্যান্ড ইভ্যালুয়েশান উইংয়ের মেইলে পাঠাতে হবে।

দুই. উপজেলা/থানা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তারা জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এবং আঞ্চলিক উপ-পরিচালক (মাধ্যমিক) বরাবর তথ্যের অনুলিপি পাঠাবেন।

নির্দেশনায় আরও জানানো হয়, করোনা আক্রান্ত বা সংক্রমিত শিক্ষার্থী, শিক্ষক বা কর্মচারী থাকলেই কেবল তার তথ্য মইলে পাঠাবেন, অন্যথায় মেইল পাঠনোর প্রয়োজন নেই। প্রয়োজনে জরুরি ভিত্তিতে ০১৭১৬-৫৯৪৫২৭ নম্বরে যোগাযোগ করে তথ্য জানিয়ে দেওয়া যাবে।

 

 

/এসএমএ/আইএ/

সম্পর্কিত

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য ৪ দফা জরুরি নির্দেশনা

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য ৪ দফা জরুরি নির্দেশনা

মেয়ে শিক্ষার্থীদের তথ্য চেয়েছে সরকার

মেয়ে শিক্ষার্থীদের তথ্য চেয়েছে সরকার

২০২১ সালের এসএসসি-এইচএসসি’র অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

২০২১ সালের এসএসসি-এইচএসসি’র অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

সৃজনশীলতার ভিত্তিতে নম্বর দেওয়া হবে

সৃজনশীলতার ভিত্তিতে নম্বর দেওয়া হবে

চাল উৎপাদনে রেকর্ডের পরও আমদানি করতে হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:১৬

উৎপাদনে এত সাফল্যের পরও চাল আমদানি করতে হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।

মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সচিবালয়ের নিজ দফতর থেকে অনলাইনে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচি (এডিপি) বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় মন্ত্রী এ কথা বলেন।

কৃষি মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সভায় মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও সংস্থা প্রধানসহ প্রকল্প পরিচালকরা উপস্থিত ছিলেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘দেশে চালের রেকর্ড উৎপাদন হয়েছে। মোট উৎপাদন ও উৎপাদনশীলতা দুটোই বেড়েছে। এত সব সাফল্যের পরও চাল আমদানি করতে হচ্ছে। জনসংখ্যা বাড়ছে। অপরদিকে আবাদের জমি কমছে। এ অবস্থায়, উৎপাদনের পরিমাণ কীভাবে আরও বাড়ানো যায়, তা দেখতে হবে।’

মন্ত্রী আরও  বলেন, ‘এ বছর পেঁয়াজের উৎপাদন ভালো হয়েছে। দাম স্থিতিশীল অবস্থায় রয়েছে। আগামী বছর উৎপাদন আরও বাড়াতে হবে। একইসঙ্গে কৃষক যাতে পেঁয়াজের ভালো দাম পান, সেই দিকে খেয়াল রাখতে হবে।’

সভায় জানানো হয়, চলমান ২০২১-২২ অর্থবছরে কৃষি মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়নাধীন প্রকল্পের সংখ্যা ৭০টি। মোট বরাদ্দ দুই হাজার ৯৫৮ কোটি টাকা। আগস্ট ২০২১ পর্যন্ত বাস্তবায়ন অগ্রগতি হয়েছে ৫ দশমিক ৫০ শতাংশ। জাতীয় গড় অগ্রগতি হয়েছে ৩ দশমিক ৮২ শতাংশ।

কৃষি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মেসবাহুল ইসলাম বলেন, ‘প্রকল্পের আর্থিক অগ্রগতির সঙ্গে বাস্তব অগ্রগতির দিকেও নজর দিতে হবে। প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে কী প্রভাব পড়েছে ও কী ফলাফল এসেছে, তা খতিয়ে দেখতে হবে। ফলাফল ভালো না হলে প্রজেক্ট করে লাভ হবে না।’

 

/এসআই/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য ৪ দফা জরুরি নির্দেশনা

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য ৪ দফা জরুরি নির্দেশনা

দেশ আজ উন্নয়নে বিশ্বের বিস্ময়: শ্রম প্রতিমন্ত্রী

দেশ আজ উন্নয়নে বিশ্বের বিস্ময়: শ্রম প্রতিমন্ত্রী

সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছেন বিমান প্রতিমন্ত্রী

সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছেন বিমান প্রতিমন্ত্রী

‘প্রধানমন্ত্রী বিশ্বে বাঙালি জাতিকে আলোকিত করেছেন’

‘প্রধানমন্ত্রী বিশ্বে বাঙালি জাতিকে আলোকিত করেছেন’

দেশ আজ উন্নয়নে বিশ্বের বিস্ময়: শ্রম প্রতিমন্ত্রী

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:৫৭

দোয়া মাহফিল এবং কেক কেটে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন উদযাপন করলো শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়।

মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে দোয়া মাহফিলের এই আয়োজন করা হয়। শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান কেক কাটেন এবং বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন।

প্রধানমন্ত্রীকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানান প্রতিমন্ত্রী।

এ সময় বেগম মন্নুজান সুফিয়ান বলেন, ‘জাতির পিতা আমাদের একটি দেশ দিয়ে গেছেন। তাঁর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাকে উন্নত-সমৃদ্ধ দেশে হিসেবে উপহার দিয়েছেন।  দেশ আজ  উন্নয়নে বিশ্বের বিস্ময়। উন্নয়নে বিশ্বের রোল মডেল। দারিদ্র্য দূরীকরণ, পৃথিবীর সুরক্ষা এবং সবার জন্য শান্তি ও সমৃদ্ধি নিশ্চিত করতে সর্বজনীন আহ্বানে সাড়া দিয়ে বাংলাদেশের সঠিক পথে অগ্রসরের জন্য জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে  ‘এসডিজি অগ্রগতি পুরস্কার’ অর্জন করায় প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক অভিনন্দন এবং কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. এহছানে এলাহীর সভাপতিত্বে অতিরিক্ত সচিব বেগম জেবুন্নেছা করিম, ড. সেলিনা আক্তার, শাকিলা জেরিন আহমেদ, শ্রম অধিদফতরের মহাপরিচালক গৌতম কুমারসহ মন্ত্রণালয়ের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী অনুষ্ঠানে অংশ গ্রহণ করেন।

পরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয় এবং ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টে জাতির পিতা শেখ মুজিব, বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবসহ সেদিন শাহাদতবরণকারী সকলের রুহের মাগফিরাত কামনা করা হয়।

/এসআই/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য ৪ দফা জরুরি নির্দেশনা

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য ৪ দফা জরুরি নির্দেশনা

চাল উৎপাদনে রেকর্ডের পরও আমদানি করতে হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী

চাল উৎপাদনে রেকর্ডের পরও আমদানি করতে হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী

সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছেন বিমান প্রতিমন্ত্রী

সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছেন বিমান প্রতিমন্ত্রী

‘প্রধানমন্ত্রী বিশ্বে বাঙালি জাতিকে আলোকিত করেছেন’

‘প্রধানমন্ত্রী বিশ্বে বাঙালি জাতিকে আলোকিত করেছেন’

নিউজ পোর্টাল বন্ধ করতে গিয়ে যা হলো

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:৪৮

উচ্চ আদালতের নির্দেশে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি অনিবন্ধিত নিউজ পোর্টালগুলো বন্ধ করতে গেলে নিবন্ধিত অনেক নিউজ পোর্টালও বন্ধ হয়ে যায়। যদিও পরে পোর্টালগুলো খুলে দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে নিউজ পোর্টাল বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু হয় বলে বিটিআরসি সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, বিটিআরসি তালিকা ধরে নিউজ পোর্টালগুলো বন্ধের প্রক্রিয়া শুরু করেছিল। তালিকায় বেশ কিছু ত্রুটি আছে। ফলে আপাতত অনিবন্ধিত নিউজপোর্টাল বন্ধের প্রক্রিয়া স্থগিত করা হয়েছে। আমরা তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের কাছে তালিকা চেয়েছি, ওই তালিকা অনুযায়ী অনিবন্ধিত নিউজ পোর্টালগুলো বন্ধ করা হবে।

এদিন দুপুরের পর থেকে হঠাৎ করেই অনলাইনে পাওয়া যায়নি বিডিনিউজ২৪ ডটকম, বাংলানিউজ২৪ ডটকমসহ অনেক শীর্ষস্থানীয় পোর্টাল। যদিও পরে সাইটগুলো সচল হয়েছে।

বিটিআরসি সূত্রে জানা গেছে, পরবর্তী সময়ে অনিবন্ধিত নিউজ পোর্টালগুলো পর্যায়ক্রমে বন্ধ করা হবে।

বিডিনিউজ২৪ ডটকমের এক কর্মী বলেন, আমরা নিবন্ধন করেছি। মঙ্গলবার হঠাৎ সাইট বন্ধ করে দেওয়া হয়। কিন্তু কেন সেটি আমরা জানতে পারিনি। পরে বিকালের দিকে পোর্টাল খুলে দেওয়া হয়েছে।

বাংলানিউজে যোগাযোগ করা হলে তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়, আমরাসহ বেশ কিছু পোর্টাল বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরে বিষয়টি জানতে পারি। এটিও নিবন্ধিত অনলাইন।

ডিএমপি নিউজ বন্ধের বিষয়ে পোর্টালটির সম্পাদক ও উপ-পুলিশ কমিশনার ফারুক হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আমরা সব নিয়ম-কানুন মেনে নিবন্ধনের জন্য তথ্য মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছি। আমরা অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছি।

/এইচএএইচ/এমআর/এমওএফ/

সম্পর্কিত

বিটিআরসি ঘুমাচ্ছে: হাইকোর্ট

বিটিআরসি ঘুমাচ্ছে: হাইকোর্ট

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য ৪ দফা জরুরি নির্দেশনা

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য ৪ দফা জরুরি নির্দেশনা

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তথ্য পাঠাতে হবে নতুন নির্দেশনা অনুসারে

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের তথ্য পাঠাতে হবে নতুন নির্দেশনা অনুসারে

চাল উৎপাদনে রেকর্ডের পরও আমদানি করতে হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী

চাল উৎপাদনে রেকর্ডের পরও আমদানি করতে হচ্ছে: কৃষিমন্ত্রী

দেশ আজ উন্নয়নে বিশ্বের বিস্ময়: শ্রম প্রতিমন্ত্রী

দেশ আজ উন্নয়নে বিশ্বের বিস্ময়: শ্রম প্রতিমন্ত্রী

নিউজ পোর্টাল বন্ধ করতে গিয়ে যা হলো

নিউজ পোর্টাল বন্ধ করতে গিয়ে যা হলো

সার্বক্ষণিক মনিটরিং করছেন বিমান প্রতিমন্ত্রী

বিমানবন্দরে ল্যাব স্থাপনসার্বক্ষণিক মনিটরিং করছেন বিমান প্রতিমন্ত্রী

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ নির্মাণে কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী: স্পিকার 

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ নির্মাণে কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী: স্পিকার 

‘প্রধানমন্ত্রী বিশ্বে বাঙালি জাতিকে আলোকিত করেছেন’

‘প্রধানমন্ত্রী বিশ্বে বাঙালি জাতিকে আলোকিত করেছেন’

বিমানের সৈয়দপুর-কক্সবাজার রুটে ফ্লাইট শুরু ৭ অক্টোবর

বিমানের সৈয়দপুর-কক্সবাজার রুটে ফ্লাইট শুরু ৭ অক্টোবর

তথ্য অধিকার আইনের প্রয়োগ নিশ্চিত করার দাবি

তথ্য অধিকার আইনের প্রয়োগ নিশ্চিত করার দাবি

সর্বশেষ

শেখ হাসিনা ভালো থাকলে দেশ ভালো থাকবে: শিল্পমন্ত্রী

শেখ হাসিনা ভালো থাকলে দেশ ভালো থাকবে: শিল্পমন্ত্রী

শেষ হলো যশোর রোডে সুবাতাসের পদযাত্রা

শেষ হলো যশোর রোডে সুবাতাসের পদযাত্রা

৪৫ মিনিটে দুই ডোজ টিকা নিলেন নারী

৪৫ মিনিটে দুই ডোজ টিকা নিলেন নারী

টিকা কেন্দ্রে পুলিশকে থাপ্পড় মারায় প্রধান শিক্ষক গ্রেফতার

টিকা কেন্দ্রে পুলিশকে থাপ্পড় মারায় প্রধান শিক্ষক গ্রেফতার

সাফের মিশনে বাংলাদেশ দল এখন মালদ্বীপে

সাফের মিশনে বাংলাদেশ দল এখন মালদ্বীপে

© 2021 Bangla Tribune