X
সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৫ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

ময়মনসিংহ মেডিক্যালের কোভিড ওয়ার্ডে চিকিৎসক সংকট

আপডেট : ২৬ জুলাই ২০২১, ১৮:৫৩

‘রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় হাসপাতালের সব চিকিৎসককেই পালাক্রমে কোভিড ওয়ার্ডে দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে। যেভাবে রোগীর সংখ্যা বাড়ছে, তাতে আরও চিকিৎসক লাগবে।’ সোমবার (২৬ জুলাই) কথাগুলো বলছিলেন ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ (মমেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটের ফোকাল পারসন ও মেডিসিন বিভাগের কনসালটেন্ট ডা. মো. মহিউদ্দিন খান।

চিকিৎসক সংকট প্রসঙ্গে ডা. মো. মহিউদ্দিন খান আরও বলেন, ‘ছয়টি কোভিড ফ্লোর ও আইসিইউতে তিন শিফটে প্রতিদিন ৭৫ জন চিকিৎসককে দায়িত্ব পালন করতে হয়। এই ৭৫ জন চিকিৎসক ১৫ দিন দায়িত্ব পালন করার পর ১৫ দিনের জন্যে আইসোলেশনে থাকেন। চিকিৎসক ঘাটতি থাকায় নন কোভিড ওয়ার্ড থেকে চিকিৎসক নিয়ে কোভিড ওয়ার্ডে ডিউটি করাতে হচ্ছে। বর্তমানে হাসপাতালে ১২ জন চিকিৎসকসহ অর্ধশত স্বাস্থ্যকর্মী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন।’

জানা গেছে, ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নতুন ভবনে ডেডিকেটেড করোনা ইউনিটের ২১০ শয্যার প্রস্তুতি নিয়ে করোনা রোগীদের চিকিৎসা কার্যক্রম চলে আসছিল। রোগী বেড়ে যাওয়ায় দুই দফায় শয্যা সংখ্যা বাড়িয়ে করা হয় ৪৫০। আইসিইউ ১২ থেকে বাড়িয়ে করা হয়েছে ২২। সম্প্রতি আইসিইউয়ের সমমানের চিকিৎসাসেবা দিতে একই ফ্লোরে আরও ২৪টি শয্যা বাড়ানো হয়েছে। যেখানে রোগীদের হাই ফ্লো নেজাল ক্যানুলার মাধ্যমে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ থেকে দুই দফায় ৫০ জন এবং বিভাগীয় স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে ৩৩ জন চিকিৎসককে প্রেষণে মমেক হাসপাতালে দেওয়া হয়েছে।

হাসপাতালের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) ডা. জাকিউল ইসলাম জানান, রোগী বেড়ে যাওয়ার কারণে শয্যা সংখ্যা বাড়াতে হচ্ছে কিন্তু সেই হারে চিকিৎসক বাড়ছে না। হাসপাতালের অধিকাংশ চিকিৎসককেই কোভিড ইউনিটে দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে। এই দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে অনেকেই করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছেন। তবে রোগীর সংখ্যা আরও বেড়ে গেলে ঘাটতি চিকিৎসক দিয়ে চিকিৎসা কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়াটা কঠিন হয়ে যাবে। দ্রুত চিকিৎসক নিয়োগ দেওয়া জরুরি মনে করছেন এই কর্মকর্তা।

এদিকে ময়মনসিংহ স্বাস্থ্য বিভাগীয় পরিচালক ডা. মো. শাহ আলম বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, রোগীর সংখ্যা যেভাবে বাড়ছে তাতে চিকিৎসক বাড়ানো ছাড়া সেবা দেওয়াটা খুবই সমস্যা হয়ে যাচ্ছে। আগামী কিছুদিনের মধ্যেই চিকিৎসকদের ৪২তম বিসিএসের মৌখিক পরীক্ষা শুরু হবে। দ্রুতই চিকিৎসক নিয়োগ দেওয়ার বিষয়টি স্বাস্থ্য বিভাগ ভাবছে।

 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

ময়মনসিংহে মৃত্যু-শনাক্ত কমেছে

ময়মনসিংহে মৃত্যু-শনাক্ত কমেছে

চট্টগ্রামে সর্বনিম্ন শনাক্তের দিনে একজনের মৃত্যু

চট্টগ্রামে সর্বনিম্ন শনাক্তের দিনে একজনের মৃত্যু

বিয়ের দিন ধর্ষণের শিকার তরুণী

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৫৯

বরযাত্রী আসবে রাতে। সকাল থেকে চলছিল আয়োজন। সবাই যে যার মতো ব্যস্ত। এই সুযোগে রান্না করে নেওয়ার অনুরোধে বাড়িতে ডেকে তরুণীকে (১৮) ধর্ষণ করে প্রতিবেশী। তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসলে ধর্ষক পালিয়ে যায়। স্বজন ও প্রতিবেশীরা বিষয়টি গোপন রাখার চেষ্টা করলেও শেষ পর্যন্ত বিয়ে ভেঙে গেছে ভুক্তভোগী তরুণীর।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে। রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) দুপুরে পার্বতীপুর মডেল থানায় অভিযুক্ত আব্দুর রহমান বাবুলের (৪৫) বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন ভুক্তভোগীর মা। এরপর অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। 

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্য জাহাঙ্গীর আলম জানান, শনিবার রাতে ধর্ষরণের শিকার তরুণীর বিয়ের কথা ছিল। কিন্তু সকালে প্রতিবেশী বাবলু তাকে বাড়িতে রান্না করে নেওয়ার কথা বলে ডেকে নেয়। পরে তাকে ধর্ষণ করে। তরুণীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে বাবলু পালিয়ে যায়। মেয়ের বিয়ের কথা চিন্তা করে বিষয়টি গোপন রাখার চেষ্টা করেও পারেননি ভুক্তভোগীর পরিবার। পাত্রপক্ষ ঘটনা জানার পর বিয়ে ভেঙে যায়।

পার্বতীপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমাম জাফর জানান, দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভুক্তভোগী তরুণীর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। 

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

বিলীন হওয়ার পথে ৩ গ্রাম

বিলীন হওয়ার পথে ৩ গ্রাম

‘বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের পুরস্কারদাতারা অন্ধকারে হারিয়ে গেছে’

‘বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের পুরস্কারদাতারা অন্ধকারে হারিয়ে গেছে’

যৌন হয়রানির অভিযোগে পুলিশ কনস্টেবল গ্রেফতার

যৌন হয়রানির অভিযোগে পুলিশ কনস্টেবল গ্রেফতার

হিলির ২১ মন্দিরে চলছে প্রতিমা তৈরির কাজ

হিলির ২১ মন্দিরে চলছে প্রতিমা তৈরির কাজ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশের খালে হাতির লাশ

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩১

কক্সবাজারের টেকনাফের শালবন রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশের একটি খাল থেকে হাতির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে লাশ উদ্ধার করেন আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের সদস্যরা।

কক্সবাজার ১৬ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক এসপি তারিকুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে দীর্ঘ চেষ্টার পর ঝিরিখাল থেকে হাতির লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে। 

বন বিভাগ ও এলিফ্যান্ট রেসপন্স টিমকে (ইআরটি) খবর দেওয়া হয়েছে। তারা এসে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানান তিনি।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

সিনহা হত্যা মামলা: তৃতীয় দফা সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

সিনহা হত্যা মামলা: তৃতীয় দফা সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে মার্কিন রাষ্ট্রদূত

রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে মার্কিন রাষ্ট্রদূত

কক্সবাজারে বছরজুড়ে খোঁড়াখুঁড়ি, দুর্ভোগের শেষ নেই

কক্সবাজারে বছরজুড়ে খোঁড়াখুঁড়ি, দুর্ভোগের শেষ নেই

চলছে ১৬০ ইউপির নির্বাচন, কেন্দ্রে নারী ভোটার বেশি

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:১৩

দেশের ১৬০টি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়, চলবে একটানা বিকাল ৪টা পর্যন্ত। এছাড়াও আজ দেশের ৯টি পৌরসভা ও স্থানীয় সরকার পরিষদের কয়েকটি উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এসব নির্বাচনকে ঘিরে বিভিন্ন স্থানে উত্তেজনা, ভোট বর্জন এবং নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠলেও সকাল থেকে বড় ধরনের কোনও সংঘর্ষ বা বিশৃঙ্খলার খবর পাওয়া যায়নি।  কেন্দ্রগুলোতে ভোটার উপস্থিতি ভালো ছিল। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার বাড়ছে বলে জানিয়েছেন বাংলা ট্রিবিউনের প্রতিনিধিরা। তাদের দেওয়া তথ্যমতে কেন্দ্রগুলোতে নারী ভোটারের সংখ্যা ছিল চোখে পড়ার মতো।

খুলনা প্রতিনিধি জানান, খুলনা বিভাগের ১৬ উপজেলার ১২০টি ইউনিয়ন পরিষদে সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে। খুলনার পাঁচটি উপজেলা, বাগেরহাটের ৯টি উপজেলা এবং সাতক্ষীরার দুইটি উপজেলার ১২০টি ইউনিয়নে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। গতরাত থেকে শুরু হওয়া বৃষ্টি উপেক্ষা করে ভোটাররা কেন্দ্রে এসে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এসময় পুরুষ ভোটারদের পাশাপাশি প্রচুর নারী ভোটারও দেখা যায়। 

খুলনায় বৃষ্টি ও জলাবদ্ধতা উপেক্ষা করে কেন্দ্রে ভিড় জমান ভোটাররা খুলনা জেলা নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, খুলনার পাঁচটি উপজেলার ৩৪টি ইউনিয়নের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ১৫৬ জন, ৩০৬টি ওয়ার্ডে ইউপি সদস্য পদে ১ হাজার ৪৮১ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ৪৬৪ জন প্রার্থী লড়ছেন।  ইউনিয়নগুলোতে মোট ভোটার সংখ্যা ৬ লাখ ৪০ হাজার ৭৭৯ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ৩ লাখ ১৭ হাজার ৩৯৬ জন ও নারী ৩ লাখ ২৩ হাজার ৩৮৩ জন।

খুলনা জেলা সিনিয়র নির্বাচন অফিসার এম মাজহারুল ইসলাম বলেছেন,  সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণের জন্য সার্বক্ষণিক তদারকি চলছে। 

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি জানান, সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেছেন, ‘চট্টগ্রামে ১২টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভায় ভোটগ্রহণ চলছে। এবার সন্দ্বীপে ১২টি ইউনিয়ন পরিষদের মধ্যে মগধরা, বাউরিয়া, সারিকাইত ও হারামিয়া ইউনিয়নে প্রতিপক্ষ প্রার্থী না থাকায় চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন হচ্ছে না। গাছুয়া, সন্তোষপুর, আমানউল্লাহ, ঘরিশপুর, রহমতপুর, আজিমপুর, মুছাপুর, মাইটভাঙ্গাসহ বাকি ৮ ইউনিয়নে নির্বাচন হচ্ছে। তবে মেম্বার পদে সবগুলো ইউনিয়নে নির্বাচন হচ্ছে। বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে নারী ভোটারদের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। 

টেকনাফের বিভিন্ন কেন্দ্রে নারী ভোটারদের ব্যাপক উপস্থিতি ছিল টেকনাফ প্রতিনিধি জানান, কক্সবাজারে টেকনাফের চারটি ইউনিয়নের নির্বাচনে অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।  বিভিন্ন কেন্দ্রে ঘুরে নারী ভোটারদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। সাবরাং কমিউনিটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শাহপরীর দ্বীপ উত্তর পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, শাহপরীর দ্বীপ মাঝার পাড়াসহ আরও কয়েকটি কেন্দ্রে ঘুরে পুরুষদের চেয়ে নারী ভোটারদের উপস্থিতি বেশি দেখা গেছে।

বাগেরহাটে পুরুষদের পাশাপাশি কেন্দ্রে নারী ভোটারের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো বাগেরহাট প্রতিনিধি জানান, ভোটের আগের রাতে নির্বাচনি সহিংসতায় এক নারী নিহত হয়েছেন। তবে সকাল থেকে ভোট শুরুর পর বিশৃঙ্খলার কোনও খবর পাওয়া যায়নি। তবে জেলার ৯টি উপজেলার ৬৫টি ইউনিয়নের ৫৯৯টি কেন্দ্রের সবকটিকেই ‘ঝুঁকিপূর্ণ’ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। তবে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ইতোমধ্যে ৬৫টি ইউনিয়নের ৩৮টিতে চেয়াম্যান পদে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা নির্বাচিত হয়েছেন। 

কক্সবাজারের ভোট কেন্দ্রে নারী ভোটারদের উপস্থিতি কক্সবাজার প্রতিনিধি জানান, চকরিয়া ও মহেশখালী পৌরসভা এবং চার উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন পরিষদে প্রথম ধাপের নির্বাচন চলছে। নির্বাচনকে ঘিরে কিছু এলাকায় বিচ্ছিন্ন ঘটনা ঘটলেও তা নির্বাচনে প্রভাব ফেলবে না বলে জানিয়েছে প্রশাসন। ভোট শুরুর পর এখন পর্যন্ত জেলার কোথাও অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি।  কক্সবাজার জেলা নির্বাচন অফিসার এস.এম শাহাদাত হোসেন বলেন, ভোটের জন্য তিন স্থরের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়েছে। চকরিয়া পৌরসভার জন্য আলাদা ব্যবস্থা রয়েছে।

নোয়াখালীতে সকাল থেকেই কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি ছিল ভালো নোয়াখালী প্রতিনিধি জানান, কবিরহাট পৌরসভা, হাতিয়ার সাতটি ও সুবর্ণচর উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের আজ নির্বাচন হচ্ছে। তবে হাতিয়ার পাঁচটি ইউপির চেয়ারম্যান প্রার্থীরা ভোট বর্জন করেছেন। এদের মধ্যে সরকার দল মনোনীত দুই প্রার্থীও রয়েছেন। এছাড়া কবিরহাট পৌরসভায় মেয়র পদে আওয়ামী লীগ প্রার্থী জহিরুল হক রায়হান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ায় শুধুমাত্র কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এদিকে সকাল থেকে বিভিন্ন কেন্দ্রে পুরষদের পাশাপাশি প্রচুর নারী ভোটারের উপস্থিতি দেখা গেছে।

এদিকে ১৬০টি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত ৪৪ জন চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। অনেক প্রার্থীর নির্বাচন বর্জনের ঘোষণায় এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। দলীয় প্রতীকের এ ভোটে বিএনপি না থাকলেও আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশসহ কয়েকটি দল অংশ নিয়েছে। আর স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন বিএনপিরও কয়েকজন নেতাকর্মী।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

এহসান এমডি রাগীবের প্রতারণা খতিয়ে দেখছে সিআইডি 

এহসান এমডি রাগীবের প্রতারণা খতিয়ে দেখছে সিআইডি 

বৃষ্টিতে ভোটকেন্দ্রের চাল দিয়ে পড়ছে পানি 

বৃষ্টিতে ভোটকেন্দ্রের চাল দিয়ে পড়ছে পানি 

নোয়াখালীতে নৌকার দুই প্রার্থীর ভোট বর্জন

নোয়াখালীতে নৌকার দুই প্রার্থীর ভোট বর্জন

সিনহা হত্যা মামলা: তৃতীয় দফা সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:০৯
video

সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলার তৃতীয় দফায় প্রথম দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়েছে। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইলের আদালতে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) ফরিদুল আলম জানান, আজ তৃতীয় দফায় সপ্তম সাক্ষী হিসেবে আবদুল হামিদকে দিয়ে প্রথম দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়েছে। তৃতীয় দফার সাক্ষ্যগ্রহণ চলবে আগামী ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

এর আগে গত ২৩ থেকে ২৫ আগস্ট টানা তিন দিন মামলার প্রথম দফায় ১নং সাক্ষী ও বাদী শারমিন সাহরিয়া ফেরদৌস এবং ২নং সাক্ষী সাহেদুল ইসলাম সিফাতের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়। একইভাবে গত ৫ থেকে ৮ সেপ্টেম্বর টানা চার দিনে দ্বিতীয় দফায় সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ করেন আদালত। এ নিয়ে প্রথম ও দ্বিতীয় দফায় ৭৬ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে। আজ সাত সাক্ষী নিয়ে তৃতীয় দফায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়।

গত বছর ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া ইউনিয়নের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান। এ ঘটনায় সে সময় সিনহার বোন শারমিন শাহরিয়ার ফেরদৌস বাদী হয়ে টেকনাফ থানার সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের সাবেক ইনচার্জ পরিদর্শক লিয়াকত আলীসহ নয় পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা করেন। 

মামলায় প্রধান আসামি করা হয় লিয়াকত আলীকে। আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে র‌্যাবকে তদন্তের দায়িত্ব দেয়। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে টেকনাফ থানায় একটি এবং রামু থানায় আরেকটি মামলা করে। এরপর মেজর সিনহা নিহতের ছয় দিন পর লিয়াকত আলী ও ওসি প্রদীপসহ সাত পুলিশ সদস্য আদালতে আত্মসমর্পণ করেন। পরে ঘটনায় সংশ্লিষ্টতা পাওয়ার অভিযোগে টেকনাফ থানায় পুলিশের করা মামলার তিন সাক্ষী এবং শামলাপুর চেকপোস্টে ঘটনার সময় দায়িত্ব পালনকারী আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) তিন সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর টেকনাফ থানার সাবেক কনস্টেবল রুবেল শর্মাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। গত ২৪ জুন মামলার অন্য পলাতক আসামি টেকনাফ থানার সাবেক এএসআই সাগর দেব আদালতে আত্মসমর্পণ করেন।

আসামিদের মধ্যে ওসি প্রদীপ ও কনস্টেবল রুবেল শর্মা ছাড়া অন্য ১২ জন আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। তদন্ত শেষে গত বছর ১৩ ডিসেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তৎকালীন র‌্যাব ১৫-এর সহকারী পুলিশ সুপার মো. খাইরুল ইসলাম ১৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। গত ২৭ জুন ১৫ জন আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন আদালত। এতে ৮৩ জনকে সাক্ষী করা হয়।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশের খালে হাতির লাশ

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাশের খালে হাতির লাশ

চট্টগ্রামে সর্বনিম্ন শনাক্তের দিনে একজনের মৃত্যু

চট্টগ্রামে সর্বনিম্ন শনাক্তের দিনে একজনের মৃত্যু

নোয়াখালীতে নৌকার দুই প্রার্থীর ভোট বর্জন

নোয়াখালীতে নৌকার দুই প্রার্থীর ভোট বর্জন

হামলা ও প্রাণনাশের হুমকিতে কবিরহাটের ২ কাউন্সিলর প্রার্থীর ভোট বর্জন 

হামলা ও প্রাণনাশের হুমকিতে কবিরহাটের ২ কাউন্সিলর প্রার্থীর ভোট বর্জন 

ময়মনসিংহে মৃত্যু-শনাক্ত কমেছে

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৪৩

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ (মমেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় চার জনের মৃত্যু হয়েছে। সবাই করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকালে হাসপাতালের মুখপাত্র ডা. মহিউদ্দিন খান মুন এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ২৪ ঘণ্টায় ১৪ জন ভর্তি হয়েছেন। বর্তমানে হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ৯৬ জন এবং আইসিইউতে ১২ জন চিকিৎসা নিচ্ছেন। এছাড়া ২৩ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

এদিকে জেলা সিভিল সার্জন ডা. নজরুল ইসলাম জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৫৬টি নমুনা পরীক্ষায় ২৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ৭.০২ শতাংশ। সংক্রমণের শুরু থেকে ময়মনসিংহে এ পর্যন্ত মোট ২১ হাজার ৭৭২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আর সুস্থ হয়েছেন ২০ হাজার ৫৯৯ জন।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

চট্টগ্রামে সর্বনিম্ন শনাক্তের দিনে একজনের মৃত্যু

চট্টগ্রামে সর্বনিম্ন শনাক্তের দিনে একজনের মৃত্যু

জীবিত থেকেও এক জেলার শতাধিক মানুষ ‘মৃত’

জীবিত থেকেও এক জেলার শতাধিক মানুষ ‘মৃত’

নারী পুলিশ সদস্যকে কুপিয়ে আহত

নারী পুলিশ সদস্যকে কুপিয়ে আহত

রাজশাহী মেডিক্যালের করোনা ইউনিটে আরও ৪ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালের করোনা ইউনিটে আরও ৪ মৃত্যু

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ময়মনসিংহে মৃত্যু-শনাক্ত কমেছে

ময়মনসিংহে মৃত্যু-শনাক্ত কমেছে

চট্টগ্রামে সর্বনিম্ন শনাক্তের দিনে একজনের মৃত্যু

চট্টগ্রামে সর্বনিম্ন শনাক্তের দিনে একজনের মৃত্যু

এক চিকিৎসক দিয়েই চলছে একটি হাসপাতাল

এক চিকিৎসক দিয়েই চলছে একটি হাসপাতাল

জীবিত থেকেও এক জেলার শতাধিক মানুষ ‘মৃত’

জীবিত থেকেও এক জেলার শতাধিক মানুষ ‘মৃত’

নারী পুলিশ সদস্যকে কুপিয়ে আহত

নারী পুলিশ সদস্যকে কুপিয়ে আহত

রাজশাহী মেডিক্যালের করোনা ইউনিটে আরও ৪ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালের করোনা ইউনিটে আরও ৪ মৃত্যু

‘চাকরিজীবীরা কীভাবে অর্থশালী আমি বুঝি, সৎভাবে হওয়া অসম্ভব’

‘চাকরিজীবীরা কীভাবে অর্থশালী আমি বুঝি, সৎভাবে হওয়া অসম্ভব’

সর্বশেষ

‘অপহৃত’ শাওন দলবদল করলো বিশেষ ব্যবস্থায়!

‘অপহৃত’ শাওন দলবদল করলো বিশেষ ব্যবস্থায়!

স্বাস্থ্য অধিদফতরের ড্রাইভার মালেকের ১৫ বছরের কারাদণ্ড

স্বাস্থ্য অধিদফতরের ড্রাইভার মালেকের ১৫ বছরের কারাদণ্ড

বিয়ের দিন ধর্ষণের শিকার তরুণী

বিয়ের দিন ধর্ষণের শিকার তরুণী

ফ্রান্সের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র সফরে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী

ফ্রান্সের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র সফরে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী

আইপিএলেও অধিনায়কত্ব ছাড়ছেন কোহলি

আইপিএলেও অধিনায়কত্ব ছাড়ছেন কোহলি

© 2021 Bangla Tribune