X
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

দেশে করোনায় মৃত্যুর হার ভারতের চেয়ে বেশি: ওবায়দুল কাদের

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ১৩:৪৯

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে দলমত নির্বিশেষে সচেতনতা তৈরি করতে হবে। পাশাপাশি সরকারকে সহযোগিতা করার আহবান জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে করোনায় মৃত্যুর হার প্রতিবেশী দেশ ভারতের চেয়ে বেশি। এমন বাস্তবতায় মানুষের জীবনের সুরক্ষাকেই সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছে সরকার।

বুধবার (২৮ জুলাই) নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। তার বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি বলেন তিনি।

জীবন রক্ষা না পেলে জীবিকা দিয়ে কী হবে ‑ জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, অনেকে লকডাউন শিথিলের কথা বললেও এমন সংকটকালে জীবনের সুরক্ষাকেই অগ্রাধিকার দিতে হবে। মনে রাখতে হবে, কারও কারও অবহেলায় পরিস্থিতি ক্রমে অবনতির দিকে যাচ্ছে। এ অবস্থা চলমান থাকলে অনাকাঙ্ক্ষিত বিপর্যয়ের পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে।

তিনি বলেন, দেশের মানুষের সুরক্ষায় বিশেষজ্ঞদের সাথে পরামর্শ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তার প্রতি আস্থা রাখার জন্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সকলের প্রতি আহবান জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ব্যাপকহারে সংক্রমণ রোধে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মেনে চলার পাশাপাশি ভ্যাকসিন প্রদানকেই সরকার সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়েছে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, দেশে ভ্যাকসিনের কোন সংকট নেই।মানুষের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভ্যাকসিন নিশ্চিত করতে চূড়ান্ত করা হয়েছে ভ্যাকসিন রোডম্যাপ।

দুর্যোগ ও সংকটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি জনমানুষের আস্থা রয়েছে জানিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী জনমানুষের আস্থা পূরণে দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। করোনার এ সংকটে তিনি বিনিদ্র রজনীও যাপন করছেন।

জীবন ও জীবিকার সমন্বয় করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী সিদ্ধান্তে দেশের সামষ্টিক  অর্থনীতি অন্যান্য দেশের তুলনায় ভালো অবস্থায় রয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।

তিনি বলেন, দেশের উন্নয়ন-অর্জন ও সমৃদ্ধিতে যারা লাভবান হয়েছে, বিশেষ করে সমাজের ধনী শ্রেণী‑ মানুষের প্রতি এই সংকটে অন্তত কিছু সহযোগিতা নিয়ে হলেও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ একটি বিশাল রাজনৈতিক সংগঠন। কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত এ সংগঠনের বিস্তৃতি। অনেকসময় দলে অনুপ্রবেশকারীরা বিতর্কিত কর্মকাণ্ড চালায়। এসকল কর্মকাণ্ড নজরে এলে সাথে সাথেই তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

তিনি জানান, অনেক সময় শুধু সাংগঠনিক নয়। আইনগত ব্যবস্থাও নেওয়ার নজির রয়েছে। যার উদাহরণ সাম্প্রতিককালে সাহেদ, পাপিয়াসহ অনেকের ক্ষেত্রে দল অত্যন্ত কঠোর অবস্থান দেখিয়েছে।

অনেকে অনেক কথাই বলেন, কিন্তু দল ক্ষমতায় থাকাকালে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগে দলের নেতাকর্মী এমনকি জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে যে কঠোরতা আওয়ামী লীগ দেখিয়েছে তা অতীতে দেশের কোন রাজনৈতিক দল দেখাতে পেরেছেন কী? ‑ প্রশ্ন ওবায়দুল কাদেরের।

শেখ হাসিনা সরকার এবং আওয়ামী লীগ অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান ইতিমধ্যেই স্পষ্ট করেছে‑ উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, দলের অনেক সংসদ সদস্যদের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা চলমান এবং তদন্তাধীন, আবার কারও সাজাও হয়েছে।

তিনি বলেন, দল কখনো অনিয়মকারীদের প্রশ্রয় দেয়নি। ভবিষ্যতেও দিবে না।

তিনি বলেন, করোনার এ সংকটকালে আওয়ামী লীগের প্রতিটি ইউনিট অত্যন্ত সক্রিয় ভূমিকা পালন করছে, কোথাও নেই কোন গতিহীনতা।

ওবায়দুল কাদের বলেন, কেন্দ্র থেকে তৃণমূলে সাংগঠনিক সিদ্ধান্তসমূহ অত্যন্ত দক্ষতার সাথে বাস্তবায়িত হচ্ছে। পাশাপাশি দলের উপকমিটি ও সহযোগী সংগঠনগুলো সক্রিয়তার সাথে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে।

/পিএইচসি/এমএস/

সম্পর্কিত

বাঙালি জাতির কলঙ্ক মোচনে জিয়ার বিচার অবশ্যম্ভাবী: তথ্য প্রতিমন্ত্রী 

বাঙালি জাতির কলঙ্ক মোচনে জিয়ার বিচার অবশ্যম্ভাবী: তথ্য প্রতিমন্ত্রী 

বিএনপির সিরিজ বৈঠক হচ্ছে সিরিজ ষড়যন্ত্রের অংশ: ওবায়দুল কাদের

বিএনপির সিরিজ বৈঠক হচ্ছে সিরিজ ষড়যন্ত্রের অংশ: ওবায়দুল কাদের

শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে যুবলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে যুবলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন করবে কে, প্রশ্ন মির্জা ফখরুলের

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:০৭

নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন করতে সরকারের প্রতি ৫২ বিশিষ্ট নাগরিকের আহ্বানের প্রেক্ষিতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রশ্ন করেছেন- এই আইন কে করবে। শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবে সাংবাদিকদের একটি সংগঠনের সভায় তিনি এ প্রশ্ন করেন।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘দেশে নির্বাচন ব্যবস্থা সম্পূর্ণভাবে ধ্বংস হয়ে গেছে। এই নির্বাচন কমিশন সম্পূর্ণভাবে একটা আজ্ঞাবহ প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। আজকে আবার শোনা যাচ্ছে, ফেব্রুয়ারি মাসে নতুন করে নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে। আমি পত্রিকায় দেখলাম, আমাদের ৫২ জন বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবী তারা একটা আইন প্রণয়ন করতে বলেছেন নির্বাচন কমিশনের জন্য।’

ফখরুল যোগ করেন, ‘ভালো কথা। কিন্তু আইনটা করবে কে? এই আইন তো পাস করবে সেই পার্লামেন্ট, যে পার্লামেন্টে আওয়ামী লীগ ছাড়া আর কিছু নেই। যারা দেশের গণতন্ত্র ধ্বংস করছে, জনগণের সমস্ত অধিকারগুলোকে হরণ করে নিচ্ছে; তারা এই আইনটা পাস করবে। সুতরাং নির্বাচনের আইন যারা করতে চান সবার আগে তাদের এই বিষয়টি লক্ষ্য রাখা উচিত।’

প্রসঙ্গত, আজ (রবিবার) সকালে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) সম্পাদক অধ্যাপক বদিউল আলম মজুমদার স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে ৫২ জন নাগরিক নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।

/এসটিএস/এনএইচ/

সম্পর্কিত

বিরোধী জোটে বিভক্তি আনতে এজেন্সিগুলো সক্রিয়: মির্জা ফখরুল

বিরোধী জোটে বিভক্তি আনতে এজেন্সিগুলো সক্রিয়: মির্জা ফখরুল

‘জাতীয় শিক্ষাক্রম-২০২০’  বাতিলের দাবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের

‘জাতীয় শিক্ষাক্রম-২০২০’  বাতিলের দাবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের

‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন এরশাদ’

‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন এরশাদ’

ব্যাটারিচালিত যানবাহন চলাচল নীতিমালা প্রণয়নের দাবি

ব্যাটারিচালিত যানবাহন চলাচল নীতিমালা প্রণয়নের দাবি

বিরোধী জোটে বিভক্তি আনতে এজেন্সিগুলো সক্রিয়: মির্জা ফখরুল

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৩৫

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করেছেন, বিরোধী ঐক্যে ‘বিভক্তি’ আনতে সরকার তার এজেন্সিগুলোকে সক্রিয় করেছে।’ শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবে ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের বার্ষিক সাধারণ সভার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিএনপি মহাসচিব এসব অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, ‘আজকে আমরা বিভক্ত। আমাদের সাংবাদিক সমাজ বলেন, রাজনৈতিক দলগুলো বলেন, আমাদের পেশাজীবী সংগঠনগুলো বলেন- এসব জায়গাগুলোতে বিভক্তি এসে গেছে এবং বিভক্তি সৃষ্টি করা হচ্ছে। অত্যন্ত সচেতনভাবে এই সরকারের যে এজেন্সিগুলো আছে; তারা আজ অত্যন্ত অ্যাক্টিভ। তারা আমরা যারা গণতন্ত্র চাই, দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব চাই- তাদের মধ্যে বিভিন্নভাবে ঐক্যের বিনষ্ট ঘটাচ্ছে।’

ফখরুল বলেন, ‘এই বিষয়টা সম্পর্কে আমাদের সকলকে সজাগ থাকতে হবে। আমরা যারা গণতন্ত্রের জন্য কাজ করছি, লড়াই করছি, সংগ্রাম করছি; আমাদের বিভক্তির কোনও অবকাশ নেই। এই ফ্যাসিস্ট সরকারকে যদি সরাতে চাই জনগণের একটা দৃঢ় ঐক্যের প্রয়োজন আছে। একই সঙ্গে সমস্ত সংগঠনগুলো যারা গণতন্ত্রের বিশ্বাস করে তাদের ঐক্যের প্রয়োজন আছে।’

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘এদেশের মানুষ এক দলীয় শাসনব্যবস্থা, কর্তৃত্ববাদী শাসন ব্যবস্থা চায় না। তারা বহুদলীয় গণতন্ত্রের বিশ্বাস করে। সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আমাদেরকে এই ভয়াবহ শাসনের সরকারকে সরিয়ে জনগণের নির্বাচিত সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। সেই লক্ষে আমাদের সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এগিয়ে যেতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘আপনাদের সকলের প্রতি আমার আবেদন; বিভেদ নয়, জনগণের ঐক্য দিয়ে এদেশের মুক্তি হবে। গণতন্ত্র মুক্তি পাবে, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া মুক্ত হবেন।’

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘দুর্ভাগ্য আমাদের ১/১১ এর চক্রান্ত থেকে আমরা মুক্তি পাইনি। ২০০৮ সালের নির্বাচন, পরবর্তী নির্বাচন সবই কিন্তু এক লক্ষে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। আজকে আমাদের দুর্ভাগ্য দেশ কিন্তু রাজনীতিবিদরা পরিচালনা করে না। রাষ্ট্রের সমস্ত প্রতিষ্ঠাগুলোকে তারা সুপরিকল্পিতভাবে ধ্বংস করে দিচ্ছে।’

ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) সভাপতি কাদের গণির চৌধুরী সভাপতিত্বে ও ডিইউজে নেতা শাহজাহান সাজু ও দিদারুল আলম দিদারের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় জামায়াতে ইসলামীর সহকারী সেক্রেটারি জেনারেল মাওলানা আবদুল হালিম, বিএফইউজের সভাপতি এম আবদুল্লাহ, মহাসচিব নুরুল আমিন রোকন, বিএফইউজে-ডিই্উজে-জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক নেতা এমএ আজিজ, আবদুল হাই শিকদার, কামাল উদ্দিন সবুজ, সৈয়দ আবদাল আহমেদ, বাকের হোসাইন, জাহাঙ্গীর আলম প্রধান, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি মুরসালিন নোমানী, ডিইউজে সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম, সহ-সভাপতি শাহীন হাসনাত, বাসির জামাল ও রাশেদুল হক বক্তব্য রাখেন।

/এসটিএস/এনএইচ/

সম্পর্কিত

‘জাতীয় শিক্ষাক্রম-২০২০’  বাতিলের দাবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের

‘জাতীয় শিক্ষাক্রম-২০২০’  বাতিলের দাবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের

‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন এরশাদ’

‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন এরশাদ’

ব্যাটারিচালিত যানবাহন চলাচল নীতিমালা প্রণয়নের দাবি

ব্যাটারিচালিত যানবাহন চলাচল নীতিমালা প্রণয়নের দাবি

সঞ্চয়পত্রের মুনাফা কমানোর সিদ্ধান্ত নিষ্ঠুরতা: বাংলাদেশ ন্যাপ

সঞ্চয়পত্রের মুনাফা কমানোর সিদ্ধান্ত নিষ্ঠুরতা: বাংলাদেশ ন্যাপ

‘জাতীয় শিক্ষাক্রম-২০২০’  বাতিলের দাবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৫৭

‘জাতীয় শিক্ষাক্রম-২০২০’ কে রাজনৈতিক এজেন্ডা বাস্তবায়নের পদক্ষেপ বলে আখ্যা দিয়ে বাতিলের দাবি জানিয়েছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট (মার্ক্সবাদ)।

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে আয়োজিত সমাবেশে এ দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি মাসুদ রানা এবং সঞ্চালনা করেন  সাধারণ সম্পাদক রাশেদ শাহরিয়ার। 

সমাবেশে বক্তারা বলেন, সম্প্রতি ‘জাতীয় শিক্ষাক্রম-২০২০’ অনুমোদিত হয়েছে। যা কার্যকর হবে ২০২৩ সাল থেকে। সরকার একে ‘যুগোপযোগী-কার্যকর’ পদক্ষেপ বলছে। কিন্তু বাস্তবে এ হলো শাসক শ্রেণির রাজনৈতিক এজেন্ডা বাস্তবায়নের একটি পদক্ষেপ।  সামনের দিনে প্রযুক্তিগত উন্নয়নের ফলে একদল দক্ষ শ্রমিকের প্রয়োজন হবে। বাংলাদেশের শাসকরা সেই সুযোগটি কাজে লাগাতে চায়। ফলে শিক্ষা ব্যবস্থাকে সে অনুযায়ী গড়ে তোলার জন্যই এই শিক্ষাক্রম প্রণয়ন করেছে। মানুষকে শিক্ষা দেওয়া তার মূল লক্ষ্য নয়। এই শিক্ষাক্রমে এমন সব নীতি নেওয়া হয়েছে যা শিক্ষা ব্যবস্থায় ভয়ংকর বিপর্যয় নামিয়ে আনবে। 

বক্তারা আরও বলেন,  সামগ্রিক দিক থেকে বিবেচনা করে আমরা মনে করি জাতীয় শিক্ষাক্রম শিক্ষাক্ষেত্রে ভয়ংকর বিপর্যয় ডেকে আনবে। তাই এই শিক্ষাক্রম অবিলম্বে বাতিলের দাবি জানাচ্ছি।

এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন প্রচার প্রকাশনা সম্পাদক রাফিকুজ্জামান ফরিদ ও অর্থ সম্পাদক প্রগতি বর্মণ তমা।

/এমআর/

সম্পর্কিত

বিরোধী জোটে বিভক্তি আনতে এজেন্সিগুলো সক্রিয়: মির্জা ফখরুল

বিরোধী জোটে বিভক্তি আনতে এজেন্সিগুলো সক্রিয়: মির্জা ফখরুল

‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন এরশাদ’

‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন এরশাদ’

ব্যাটারিচালিত যানবাহন চলাচল নীতিমালা প্রণয়নের দাবি

ব্যাটারিচালিত যানবাহন চলাচল নীতিমালা প্রণয়নের দাবি

সঞ্চয়পত্রের মুনাফা কমানোর সিদ্ধান্ত নিষ্ঠুরতা: বাংলাদেশ ন্যাপ

সঞ্চয়পত্রের মুনাফা কমানোর সিদ্ধান্ত নিষ্ঠুরতা: বাংলাদেশ ন্যাপ

‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন এরশাদ’

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৪৬

জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেছেন, ‘হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিলেন এবং সকল ধর্মের অধিকার রক্ষায় অনন্য ভূমিকা রেখেছিলেন তিনি।’

শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান বনানী কার্যালয় মিলনায়তনে বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় জিএম কাদের এ কথা বলেন।

সংখ্যালঘুদের বিষয়ে এরশাদের অবদান তুলে ধরে জিএম কাদের বলেন, ‘শুভ জন্মাষ্টমীর দিনটিকে সরকারি ছুটি ঘোষণা করেছিলেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। জাতীয় পার্টির শাসনামলে প্রায় চার যুগ পরে রাজধানীতে জন্মাষ্টমীর শোভাযাত্রা বের হয়। এ ছাড়া বিভিন্ন পূজা-উৎসবে নিরাপত্তা ও আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন। পল্লীবন্ধুর হাতে গড়া হিন্দু কল্যাণ ট্রাস্ট এখন শতকোটি টাকার প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। মন্দির নির্মাণ ও সংস্কারে পল্লীবন্ধু বরাদ্দ রেখেছেন সব সময়।’

জিএম কাদের বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ঐতিহ্য রয়েছে আমাদের। যে কোন ত্যাগের বিনিময়ে আমরা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় বদ্ধপরিকর। যারা এ সম্প্রীতি বিনষ্টে ষড়যন্ত্র করবে তারা কখনই সফল হতে পারবে না।’

এ সময় বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদ সংখ্যালঘু সুরক্ষা খসড়া আইন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান এর হাতে তুলে দেন।

মতবিনিময় সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য এটিইউ তাজ রহমান, অ্যাড. মো. রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, দফতর সম্পাদক এমএ রাজ্জাক খান।

/এসটিএস/এনএইচ/

সম্পর্কিত

বিরোধী জোটে বিভক্তি আনতে এজেন্সিগুলো সক্রিয়: মির্জা ফখরুল

বিরোধী জোটে বিভক্তি আনতে এজেন্সিগুলো সক্রিয়: মির্জা ফখরুল

‘জাতীয় শিক্ষাক্রম-২০২০’  বাতিলের দাবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের

‘জাতীয় শিক্ষাক্রম-২০২০’  বাতিলের দাবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের

ব্যাটারিচালিত যানবাহন চলাচল নীতিমালা প্রণয়নের দাবি

ব্যাটারিচালিত যানবাহন চলাচল নীতিমালা প্রণয়নের দাবি

সঞ্চয়পত্রের মুনাফা কমানোর সিদ্ধান্ত নিষ্ঠুরতা: বাংলাদেশ ন্যাপ

সঞ্চয়পত্রের মুনাফা কমানোর সিদ্ধান্ত নিষ্ঠুরতা: বাংলাদেশ ন্যাপ

ব্যাটারিচালিত যানবাহন চলাচল নীতিমালা প্রণয়নের দাবি

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:১৬

ব্যাটারিচালিত যানবাহন চলাচল নীতিমালা প্রণয়নে ব্যাটারি রিকশা ও ইজিবাইককে অন্তর্ভুক্ত করা ও লাইসেন্স প্রদানসহ ৪ দফা দাবি জানানো হয়েছে। শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে রিকশা, ব্যাটারি রিকশা, ইজি বাইক চালক সংগ্রাম পরিষদের নেতৃবৃন্দরা এসব দাবি তুলে ধরেন। 

তাদের দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে, ব্যাটারিচালিত যানবাহন উচ্ছেদ না করা; আধুনিকায়ন করে রিকশা, ভ্যান, ইজিবাইকসহ ব্যাটারিচালিত যানবাহনের লাইসেন্স প্রদান করা; প্রতিটি সড়ক-মহাসড়কে রিকশা, ইজিবাইকসহ স্বল্প গতির এবং জনগণের সীমিত গতির যানবাহন চলাচলের স্বার্থে পৃথক লেন তৈরি করা এবং সার্ভিস রোড নির্মাণ করা।

এ ছাড়াও দাবি আদায়ের লক্ষে আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর সকাল ১১টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সমাবেশ ও সড়ক পরিবহন মন্ত্রণালয় বরাবর স্মারকলিপি পেশ করার ঘোষণা দিয়েছেন তারা।

তাদের আরও কিছু কর্মসূচী হলো- ব্যাটারিচালিত যানবাহন চলাচল নীতিমালায় ব্যাটারি রিকশা এবং ইজিবাইককে অন্তর্ভুক্ত করা ও লাইসেন্স প্রদানসহ ৪ দফা দাবিতে আগামী ১-১৫ অক্টোবর সারাদেশে প্রচার পক্ষ পালন। ১১ অক্টোবর সারাদেশে ডিসি অফিসের মাধ্যমে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় এবং প্রত্যেক জেলায় বিআরটিএ কর্তৃপক্ষ বরাবর স্মারকলিপি পেশ করা। ১৫ থেকে ৩০ অক্টোবর ৪ দফা দাবিতে বিভাগীয় শহরে ব্যাটারি রিকশা ও ইজিবাইক চালক-গ্যারেজ মালিক মেকানিক শ্রমিক সমাবেশ অনুষ্ঠিত।

আগামী ১-২০ নভেম্বরে বিভাগীয় শহরসহ খেলায় জেলায় স্থানীয় রাজনৈতিক, ট্রেড ইউনিয়ন, পরিবহন শ্রমিক নেতৃবৃন্দ, প্রকৌশলী, সাংবাদিক, মেকানিক, চালক-মালিক-যাত্রী প্রতিনিধিদের নিয়ে 'ব্যাটারি চালিত যানবাহন উচ্ছেদ নয় সাধারণ যাত্রী ও শ্রমিকদের স্বার্থে আধুনিকায়ন চাই' শীর্ষক গোল টেবিল বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। ২০-৩০ নভেম্বরে প্রত্যেক জেলা ও অঞ্চলে ৪ দফা দাবিতে সমাবেশ, মানববন্ধন ও মিছিল অনুষ্ঠিত হবে।

এ সময় সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন পরিষদের আহবায়ক খালেকুজ্জামান লিপন, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ও বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক বজলুর রশিদ ফিরোজ, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুল্লাহ হেল কাফী রতন, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রাজেকুজ্জামান রতন প্রমুখ।

/বিআই/এনএইচ/ 

সম্পর্কিত

সঞ্চয়পত্রের মুনাফা কমানোর সিদ্ধান্ত নিষ্ঠুরতা: বাংলাদেশ ন্যাপ

সঞ্চয়পত্রের মুনাফা কমানোর সিদ্ধান্ত নিষ্ঠুরতা: বাংলাদেশ ন্যাপ

ভোটাধিকার নিশ্চিত করার দাবিতে মঙ্গলবার বিক্ষোভ করবে সিপিবি

ভোটাধিকার নিশ্চিত করার দাবিতে মঙ্গলবার বিক্ষোভ করবে সিপিবি

করোনায় শ্রমজীবী নারীরা প্রণোদনা পায়নি: মেনন

করোনায় শ্রমজীবী নারীরা প্রণোদনা পায়নি: মেনন

সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে প্রার্থী দিতে চায় ন্যাশনাল পিপলস পার্টি 

সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে প্রার্থী দিতে চায় ন্যাশনাল পিপলস পার্টি 

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

বাঙালি জাতির কলঙ্ক মোচনে জিয়ার বিচার অবশ্যম্ভাবী: তথ্য প্রতিমন্ত্রী 

বাঙালি জাতির কলঙ্ক মোচনে জিয়ার বিচার অবশ্যম্ভাবী: তথ্য প্রতিমন্ত্রী 

বিএনপির সিরিজ বৈঠক হচ্ছে সিরিজ ষড়যন্ত্রের অংশ: ওবায়দুল কাদের

বিএনপির সিরিজ বৈঠক হচ্ছে সিরিজ ষড়যন্ত্রের অংশ: ওবায়দুল কাদের

শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে যুবলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে যুবলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

মাহবুব তালুকদারের বক্তব্য রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত: ওবায়দুল কাদের

মাহবুব তালুকদারের বক্তব্য রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত: ওবায়দুল কাদের

শেখ হাসিনার এসডিজি পুরস্কারপ্রাপ্তি ইতিহাসের মাইলফলক: ওবায়দুল কাদের

শেখ হাসিনার এসডিজি পুরস্কারপ্রাপ্তি ইতিহাসের মাইলফলক: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

ইউপি নির্বাচনআওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

‘স্থানীয় সরকার নির্বাচন তৃণমূলে গণতন্ত্রের ভিত্তি মজবুত করে’

‘স্থানীয় সরকার নির্বাচন তৃণমূলে গণতন্ত্রের ভিত্তি মজবুত করে’

সর্বশেষ

নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন করবে কে, প্রশ্ন মির্জা ফখরুলের

নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন করবে কে, প্রশ্ন মির্জা ফখরুলের

নতুন করে আইনজীবী হলেন ৫৯৭২ জন

নতুন করে আইনজীবী হলেন ৫৯৭২ জন

রাস্তার মোড়ে ক্রেনে মরদেহ ঝুলালো তালেবান

রাস্তার মোড়ে ক্রেনে মরদেহ ঝুলালো তালেবান

করোনায় ঘরবন্দি সময় কাজে লাগিয়ে সফল উদ্যোক্তা এলিজা

করোনায় ঘরবন্দি সময় কাজে লাগিয়ে সফল উদ্যোক্তা এলিজা

আফগান নারীদের প্রতি একাত্মতা ও সংহতি জানিয়ে ঢাকায় সমাবেশ

আফগান নারীদের প্রতি একাত্মতা ও সংহতি জানিয়ে ঢাকায় সমাবেশ

© 2021 Bangla Tribune