X
শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

খুলনা বিভাগে একদিনে ৪০ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৮৮০

আপডেট : ০১ আগস্ট ২০২১, ১৭:৩২

খুলনা বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ৪০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময়ে শনাক্ত হয়েছে ৮৮০ জনের। রবিবার (১ আগস্ট) স্বাস্থ্য পরিচালকের দফতর সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগের মধ্যে সর্বোচ্চ ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে কুষ্টিয়ায়। এছাড়া যশোরে সাত জন, খুলনায় ও ঝিনাইদহে পাঁচ জন করে, বাগেরহাট তিন জন, নড়াইলে ও চুয়াডাঙ্গায় দুই জন করে মারা গেছেন।

করোনা সংক্রমণের শুরু থেকে ১ আগস্ট সকাল পর্যন্ত বিভাগের ১০ জেলায় মোট শনাক্ত হয়েছেন ৯৩ হাজার ৮১২ জন। আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন দুই হাজার ৪২৮ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৭০ হাজার ৯৫ জন।

খুলনায় নতুন শনাক্ত হয়েছেন ১৮৯ জন। মোট শনাক্ত ২৩ হাজার ৯৬৫ জন। মারা গেছেন ৬২৯ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১৭ হাজার ৮৫৪ জন। বাগেরহাটে নতুন শনাক্ত ৮৯ জন। মোট শনাক্ত ৬ হাজার ৭১ জন। মারা গেছেন ১২৬ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৫ হাজার ৪১৮ জন। সাতক্ষীরায় নতুন শনাক্ত ৮২ জন। মোট শনাক্ত ৫ হাজার ৭০৪ জন এবং মারা গেছেন ৮৫ জন। সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ৪৫৩ জন।

যশোরে নতুন শনাক্ত ৮৬ জন। মোট শনাক্ত ১৮ হাজার ৮২৬ জন। মারা গেছেন ৩৫১ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১৪ হাজার ২৭৩ জন। নড়াইলে নতুন শনাক্ত ৩৮ জন। মোট শনাক্ত ৪ হাজার ১৪২ জন। মোট মারা গেছেন ৯৪ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ২৮৭ জন। মাগুরায় নতুন শনাক্ত ৪৪ জন। মোট শনাক্ত ৩ হাজার ১২৫ জন। মারা গেছেন ৬৭ জন এবং সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ৯৬৯ জন। ঝিনাইদহে নতুন শনাক্ত ৮৫ জন। মোট শনাক্ত ৭ হাজার ৬৫৪ জন। মারা গেছেন ২০৭ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ৭২৩ জন।

কুষ্টিয়ায় নতুন শনাক্ত ১৮১ জন। মোট শনাক্ত ১৪ হাজার ৪১৫ জন। মারা গেছেন ৫৬৯ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১০ হাজার ৯৯২ জন। চুয়াডাঙ্গায় নতুন শনাক্ত ৫২ জন। মোট শনাক্ত ৬ হাজার ৪৬ জন। মারা গেছেন ১৬৩ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ১৭ জন। মেহেরপুরে নতুন শনাক্ত ৩৪ জন। মোট শনাক্ত ৩ হাজার ৮৬৪ জন। মারা গেছেন ১৩৭ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ১০৯ জন।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

ব্রেক করলেই উঠে যাচ্ছে ৩২১ কোটি টাকার সড়কের কার্পেটিং

ব্রেক করলেই উঠে যাচ্ছে ৩২১ কোটি টাকার সড়কের কার্পেটিং

ইমামের বক্তব্য নিয়ে জুমা শেষে সংঘর্ষ, হাসপাতালে ২১

ইমামের বক্তব্য নিয়ে জুমা শেষে সংঘর্ষ, হাসপাতালে ২১

এক বিদ্যালয়ের ৩ শিক্ষক করোনায় আক্রান্ত, দুই দিন বন্ধ

এক বিদ্যালয়ের ৩ শিক্ষক করোনায় আক্রান্ত, দুই দিন বন্ধ

ধাক্কা দেওয়া সিএনজির ওপর একই ট্রাকের চাপা, নিহত ৪

ধাক্কা দেওয়া সিএনজির ওপর একই ট্রাকের চাপা, নিহত ৪

আমি আপনাদের বেতনভুক্ত চাকর: পলক

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:১৪

সাধারণ জনতার উদ্দেশে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ‘আমি আপনাদের বেতনভুক্ত চাকর। আপনাদের ট্যাক্সের টাকায় আমার সংসার চলে। তাই আপনাদের সেবা করাই আমার কাজ।’ শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টায় নাটোরের সিংড়া উপজেলায় বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

জনগণের সেবায় তথ্যপ্রযুক্তিকে কাজে লাগাতে দিন-রাত শ্রম দিচ্ছেন উল্লেখ করে পলক বলেন, ‘এখন কোথাও আগুন লাগলে, চুরি-ডাকাতি হলে, মাদক ব্যবসা করলে, অ্যাম্বুলেন্স প্রয়োজন হলে ৯৯৯-এ ফোন করলেই সেবা পেয়ে যান জনগণ। আর এ সবকিছুই সম্ভব হয়েছে প্রযুক্তির সহায়তায়। শুধু তাই নয়, করোনাকালে স্কুল-কলেজ বন্ধ থাকলেও অনলাইন শিক্ষা চালু ছিল; যা সম্ভব করেছেন ডিজিটাল বাংলাদেশের স্থপতি সজীব ওয়াজেদ জয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘করোনার সময়ে মামলার জট কমাতে চালু ছিল ভার্চুয়াল আদালত। যার ফলে দেড় লাখ মামলার শুনানি হয়েছে। এ ছাড়া প্রযুক্তির সহায়তায় ডিজিটাল কুরবানির হাট চালু ছিল। যার ফলে করোনায় অর্থনীতির চাকা ছিল সচল।’

জনসেবায় প্রধানমন্ত্রীর কর্মদক্ষতার উদাহরণ এনে পলক বলেন, ‘বিশ্বের সব রাষ্ট্র যাতে করোনার ভ্যাকসিন পায় সেজন্য প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘে জোর দাবি জানান। এ জন্য আজ সারাবিশ্ব করোনার ভ্যাকসিন পাওয়ার নিশ্চয়তায় এসেছে।’

সিংড়া পৌর মেয়র (ভারপ্রাপ্ত) সঞ্জয় কুমার সাহার সভাপতিত্বে এ সময় বক্তব্য রাখেন– উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এম এম সামিরুল ইসলাম, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ওহিদুর রহমান শেখ, হুয়াওয়ে টেকনোলজি বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট জর্জ লিন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কামরুল হাসান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা রুহুল আমিন।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

মাতব্বরদের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া বাউল

মাতব্বরদের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া বাউল

মেসে ফ্রিতে থাকতে পারবেন রাবি ভর্তি পরীক্ষার্থীরা

মেসে ফ্রিতে থাকতে পারবেন রাবি ভর্তি পরীক্ষার্থীরা

ছাত্রীদের অনলাইন ক্লাসে ঢুকে ‘নাগিন ড্যান্স’

ছাত্রীদের অনলাইন ক্লাসে ঢুকে ‘নাগিন ড্যান্স’

শিকল খোলার পর প্রতিবন্ধীর লাঠির আঘাতে বোন নিহত

শিকল খোলার পর প্রতিবন্ধীর লাঠির আঘাতে বোন নিহত

মাতব্বরদের ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া বাউল

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:০৪

‘আমি মুসলমানের সন্তান, পূজা করি না। রাত জেগে তাহাজ্জুদ, ফজর ও রহমতের নামাজ আদায় করি। আল্লাহ, রাসুল এবং ঢাকার ওস্তাদ এমরান চিশতির নামে বাতি জ্বালিয়ে জিকির করি। গ্রামের মাতব্বররা আমাকে নিয়ে মিথ্যাচার করছেন। নাস্তিক বানানোর ষড়যন্ত্র করছেন। তারা গ্রামের মসজিদের ইমামের পরামর্শে আমাকে জোর করে ঘর থেকে বের করে মাথা ন্যাড়া করে দিয়েছেন। এখন অপরাধ থেকে বাঁচতে আমার বাবাকে হুমকি দিয়ে মিথ্যাচার করাচ্ছেন। তাদের ভয়ে বাড়ি থেকে পালিয়ে এক ওস্তাদের আশ্রয়ে আছি।’

বাউল শিল্পীর মাথা ন্যাড়া করে গ্রাম ছাড়ার হুমকি, গ্রেফতার ৩

অজ্ঞাত স্থান থেকে ফোনে এভাবেই নিজের ওপর হওয়া নির্যাতনের কথা জানান বগুড়ার কিশোর বাউল (১৬)। তিনি প্রশাসনের কাছে নিজের ও পরিবারের নিরাপত্তা চেয়েছেন। 

তবে শিবগঞ্জ থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, কিশোর বাউল নিরাপদে তার ওস্তাদের কাছে আছে। এখনও এলাকায় পুলিশ মোতায়েন আছে। অপর দুই মাতব্বরকে গ্রেফতারে এলাকায় অভিযান চলছে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ওই কিশোর বাউল বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার সদর ইউনিয়নের জুড়ি মাঝপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। বাবা-মায়ের একমাত্র ছেলে ওই বাউল শিল্পী সংসারে অভাবের কারণে দাদার বাড়িতে থাকেন। ষষ্ঠ শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করতে পেরেছেন তিনি। ছোটবেলা থেকে বাউল গানের আসক্ত ছিলেন তিনি। তাই বাউল গান শেখার জন্য ওস্তাদ মতিয়ার রহমান মতিন বাউল ও হারমনি মাস্টার খলিলুর রহমানের সঙ্গে চলাফেরা শুরু করেন। তাদের অনুসরণ করে বড় চুল রাখেন এবং সাদা রঙের গামছা, ফতুয়া ও লুঙ্গি পরিধান করতেন। দুই ওস্তাদের সঙ্গে থেকে মুক্তা সরকার, কাজল দেওয়ান, লতিফ সরকার, আমজাদ সরকার ও শাহ্ আবদুল করিমের অন্তত ১০০ গান মুখস্থ করেন। ওস্তাদদের সঙ্গে দেশের বিভিন্ন স্থানে গান থেকে উপার্জিত অর্থ দিয়ে চলতো তার জীবন।  

কিশোর বাউল বলেন, ‘সাদা পোশাকে চলাফেরা ও বিভিন্ন এলাকার অনুষ্ঠানে বাউল মুর্শিদি গান পরিবেশন করায় গ্রামের মাতব্বর শাফিউল ইসলাম খোকন, শিক্ষক মেজবাউল ইসলাম, তারেক রহমান, ফজলু মিয়া, আবু তাহের, মসজিদের ইমাম মোখলেসুর রহমান প্রমুখ ষড়যন্ত্র শুরু করেন। তারা আমাকে এবং ওস্তাদদের নিয়ে বাজে মন্তব্য করতেন। প্রতিবাদ করলে আমার ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। গত ১৮ সেপ্টেম্বর রাত ১০টার দিকে ঘরে জিকির করছিলাম। এ সময় অতর্কিতভাবে ঘরে ঢুকে তারা আমাকে টেনে বের করেন। এরপর জুড়ি মাঝপাড়া জামে মসজিদের ইমাম মোখলেসুর রহমানের পরামর্শে মেশিন দিয়ে আমার মাথা ন্যাড়া করে দেওয়া হয়। এরপর ফজলু মিয়া আমার বালিশের নিচ থেকে দেড় হাজার টাকা চুরি করে নিয়ে যায়। যাওয়ার আগে মাতব্বররা বাউল গান বন্ধ করতে নির্দেশ দেন। না হলে গ্রাম থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেন।’ 

এ ঘটনায় শিবগঞ্জ থানায় পাঁচ মাতব্বরের বিরুদ্ধে মামলা করেন নির্যাতনের শিকার বাউল। ২১ সেপ্টেম্বর রাতে পুলিশ শাফিউল ইসলাম খোকন, শিক্ষক মেজবাউল ইসলাম ও তারেক রহমানকে নিজ নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে। পরদিন তাদের আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেল হাজতে পাঠানো হয়।

এদিকে ঘটনার পর থেকে কিশোর বাউলের বাবা প্রচারণা চালাচ্ছেন এবং সাংবাদিকদের বলছেন, তার ছেলে বাউল গানের নামে ঘরে মূর্তি পূজা করতো। তাই তিনি নিজে তার ছেলের মাথা ন্যাড়া ও তাকে কলিমা পড়িয়েছেন। এতে গ্রামের মাতব্বরদের কোনও দোষ নেই। তার ছেলে তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করেছে।

তবে কিশোর বাউলের দাবি, ‘মাতব্বররা মামলা থেকে বাঁচতে বাবাকে হুমকি দিয়ে এসব বলতে বাধ্য করছেন।’ 

তিনি আরও বলেন, ফোনে জানতে পেরেছি আমার পরিবারের সদস্যরা নিরাপত্তহীনতায় রয়েছেন। মাতব্বরদের ভয়ে আমিও বাড়ি ফিরতে পারছি না। প্রশাসনের কাছে পরিবার, দুই ওস্তাদ ও নিজের নিরাপত্তা চাইছি। 

শিবগঞ্জ থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম বলেন, নির্যাতনের শিকার বাউলের এজাহার অনুসারে তিন মাতব্বরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ বিষয়ে এখনও তদন্ত চলছে। অন্য দুই জনকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে। তারা কোর্টে আত্মসমর্পণ করতে পারেন। বর্তমানে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে, পরিস্থিতিও নিয়ন্ত্রণে আছে। এছাড়া কিশোর বাউল তার ওস্তাদদের সঙ্গে নিরাপদে আছেন বলে জানান তিনি। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

আমি আপনাদের বেতনভুক্ত চাকর: পলক

আমি আপনাদের বেতনভুক্ত চাকর: পলক

‘১৭ হাজার কোটি টাকার এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে ২০২৬ সালে চালু’

‘১৭ হাজার কোটি টাকার এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে ২০২৬ সালে চালু’

‘মিটারগেজ রেলপথকে ব্রডগেজে রূপান্তর করা হবে’

‘মিটারগেজ রেলপথকে ব্রডগেজে রূপান্তর করা হবে’

নিকলী হাওরে নিখোঁজ পর্যটকের লাশ উদ্ধার

নিকলী হাওরে নিখোঁজ পর্যটকের লাশ উদ্ধার

ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণের অভিযোগে প্রধান শিক্ষক গ্রেফতার

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:২১

বান্দরবানের রুমায় ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ করে ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগে প্রধান শিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) রাতে রুমা বাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার শিক্ষকের নাম সমর কান্তি দত্ত (৫৬)। তিনি রুমা উপজেলার একটি নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক। তার বাড়ি চট্টগ্রামের লোহাগাড়ার চরম্বায়।

জানা যায়, ২০১৯ সালে এসএসসি পরীক্ষায় ওই ছাত্রী অকৃতকার্য হওয়ার পর শিক্ষক সমর কান্তি দত্তের বাড়িতে গিয়ে প্রাইভেট পড়ে। পড়ানোর সময় একপর্যায়ে সমর ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ এবং ভিডিওচিত্রে তা ধারণ করে। লজ্জা ও ভয়ে ঘটনাটি কাউকে বলেনি। কিন্তু এ ঘটনার পর থেকে শিক্ষক মেয়েটিকে বিয়ের জন্য চাপ দেন এবং বলেন বিয়ে না করলে ভিডিওটি ইন্টারনেটে ছেড়ে দেবেন। গত বুধবার ভিডিওটি মেয়েটির মোবাইল ফোনে পাঠালে সে ঘটনাটি বড় বোনকে জানায়। এরপর ওই ছাত্রীর বড় বোন শুক্রবার রাতে রুমা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন এবং পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করেন। মামলার পরপরই পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে।

রুমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল কাশেম বলেন, মামলা করার পর শিক্ষক সমর কান্তি দত্তকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

ক্যাম্পের পাহাড়ি ছড়ায় আরও এক বুনো হাতির মৃতদেহ

ক্যাম্পের পাহাড়ি ছড়ায় আরও এক বুনো হাতির মৃতদেহ

‘মিটারগেজ রেলপথকে ব্রডগেজে রূপান্তর করা হবে’

‘মিটারগেজ রেলপথকে ব্রডগেজে রূপান্তর করা হবে’

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণ: নতুন করে হবে অভিযোগ গঠন 

এমসি কলেজ ছাত্রাবাসে গৃহবধূ ধর্ষণ: নতুন করে হবে অভিযোগ গঠন 

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ নিয়ে যা বললেন রেলমন্ত্রী

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ নিয়ে যা বললেন রেলমন্ত্রী

ট্রেনে ডাকাতির সময় হত্যার ঘটনায় মামলা

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:১১

ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা জামালপুরগামী কমিউটার ট্রেনে ডাকাতি এবং দুই জনের খুনের ঘটনায় রেলওয়ে থানায় মামলা হয়েছে। ডাকাতের ছুরিকাঘাতে নিহত সাগরের মা হনুফা খাতুন বাদী হয়ে শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) রাতে ময়মনসিংহ জিআরপি থানায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় অজ্ঞাত আট-দশ জনকে আসামি করা হয়েছে।

ময়মনসিংহ জিআরপি থানার ওসি মামুন রহমান জানান, জামালপুরগামী কমিউটার ট্রেনে ডাকাতি ও দুই জনের খুনের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ গুরুত্বের সঙ্গে বিষয়টি তদন্ত করছে। দ্রুত খুনের সঙ্গে জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা হবে। 

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাতে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা জামালপুরগামী কমিউটার ট্রেনে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাত দলের মারধরের কারণে হানিফ ও সাগর নামে দুই যাত্রী মারা যান এবং দুই জন আহত হয়।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে বেড়েছে মৃত্যু  

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে বেড়েছে মৃত্যু  

বিকল ট্রাকে পিকআপভ্যানের ধাক্কায় নিহত ৩

বিকল ট্রাকে পিকআপভ্যানের ধাক্কায় নিহত ৩

আমরা চাকরি করি না, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে রাজনীতি করি: শিক্ষামন্ত্রী

আমরা চাকরি করি না, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে রাজনীতি করি: শিক্ষামন্ত্রী

কমিউটার ট্রেনে ডাকাতি, ছুরিকাঘাতে ২ যাত্রী নিহত

কমিউটার ট্রেনে ডাকাতি, ছুরিকাঘাতে ২ যাত্রী নিহত

ক্যাম্পের পাহাড়ি ছড়ায় আরও এক বুনো হাতির মৃতদেহ

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৫২

কক্সবাজারের টেকনাফে শালবন রোহিঙ্গা ক্যাম্পের পাহাড়ি এলাকায় এক বন্য হাতির মৃতদেহ পাওয়া গেছে। শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) হ্নীলা ইউনিয়নের ২৬ নম্বর শালবাগান রোহিঙ্গা শিবিরসংলগ্ন পানির ছড়ায় মৃত হাতিটি দেখা যায়। এক সপ্তাহে এর আগে একই স্থানে আরও একটি বুনো হাতির মৃতদেহ পাওয়া যায়।

এপিবিএন-১৬ অধিনায়ক পুলিশ সুপার (এসপি) তারিকুল ইসলাম বিষয়টি এ খবর নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, সকালে শালবাগান রোহিঙ্গা শিবিরের তারকাটার বেষ্টনির বাইরে পশ্চিমে পাহাড়ের পাদদেশে পানির ছড়ার মধ্যে একটি বুনো হাতি মৃত অবস্থায় দেখা যায়। ধারণা করা হচ্ছে, বন্য হাতিটি আনুমানিক তিন-চার দিন আগে পাহাড়চূড়া থেকে পানির ছড়ায় পড়ে যায়। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট বন বিভাগকে অবহিত করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, সপ্তাহখানেক আগে ওই ছড়ায় আরও একটি মৃত হাতি পাওয়া গিয়েছিল। পরে এটিকে পুঁতে ফেলা হয়।

টেকনাফ বিটের কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক আহমেদ জানান, মরা বাচ্চা হাতির প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। সেই সঙ্গে চিকিৎসকের মাধ্যমে কী কারণে মারা গেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণের অভিযোগে প্রধান শিক্ষক গ্রেফতার

ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণের অভিযোগে প্রধান শিক্ষক গ্রেফতার

‘মিটারগেজ রেলপথকে ব্রডগেজে রূপান্তর করা হবে’

‘মিটারগেজ রেলপথকে ব্রডগেজে রূপান্তর করা হবে’

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ নিয়ে যা বললেন রেলমন্ত্রী

সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণ নিয়ে যা বললেন রেলমন্ত্রী

গাছের সঙ্গে বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসের ধাক্কায় নিহত ১, আহত ১২

গাছের সঙ্গে বরযাত্রীবাহী মাইক্রোবাসের ধাক্কায় নিহত ১, আহত ১২

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ব্রেক করলেই উঠে যাচ্ছে ৩২১ কোটি টাকার সড়কের কার্পেটিং

ব্রেক করলেই উঠে যাচ্ছে ৩২১ কোটি টাকার সড়কের কার্পেটিং

ইমামের বক্তব্য নিয়ে জুমা শেষে সংঘর্ষ, হাসপাতালে ২১

ইমামের বক্তব্য নিয়ে জুমা শেষে সংঘর্ষ, হাসপাতালে ২১

এক বিদ্যালয়ের ৩ শিক্ষক করোনায় আক্রান্ত, দুই দিন বন্ধ

এক বিদ্যালয়ের ৩ শিক্ষক করোনায় আক্রান্ত, দুই দিন বন্ধ

ধাক্কা দেওয়া সিএনজির ওপর একই ট্রাকের চাপা, নিহত ৪

ধাক্কা দেওয়া সিএনজির ওপর একই ট্রাকের চাপা, নিহত ৪

নির্বাচনের আগেই খুলনায় পূর্ণাঙ্গভাবে চালু হবে বিটিভি: তথ্যমন্ত্রী

নির্বাচনের আগেই খুলনায় পূর্ণাঙ্গভাবে চালু হবে বিটিভি: তথ্যমন্ত্রী

জলবায়ু সংকট: প্রতীকী ফাঁসিতে ঝুলে প্রতিবাদ

জলবায়ু সংকট: প্রতীকী ফাঁসিতে ঝুলে প্রতিবাদ

নিজ ঘরে রাবি শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ

নিজ ঘরে রাবি শিক্ষার্থীর ঝুলন্ত লাশ

৫ স্কুলছাত্রীর করোনা শনাক্ত, ক্লাস বন্ধ

৫ স্কুলছাত্রীর করোনা শনাক্ত, ক্লাস বন্ধ

বিয়ে বার্ষিকীতে স্ত্রীকে চাঁদের জমি উপহার, দাবি স্বামীর

বিয়ে বার্ষিকীতে স্ত্রীকে চাঁদের জমি উপহার, দাবি স্বামীর

পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগ, গণপিটুনিতে নিহত

পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজির অভিযোগ, গণপিটুনিতে নিহত

সর্বশেষ

নিউ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকে যুক্ত হলো বাংলাদেশ

নিউ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকে যুক্ত হলো বাংলাদেশ

একদিনে ২২১ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

একদিনে ২২১ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

আমি আপনাদের বেতনভুক্ত চাকর: পলক

আমি আপনাদের বেতনভুক্ত চাকর: পলক

‘কক্সবাজারে নতুন রেললাইন চালু হবে আগামী বছর’

‘কক্সবাজারে নতুন রেললাইন চালু হবে আগামী বছর’

‘জাতীয় শিক্ষাক্রম-২০২০’  বাতিলের দাবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের

‘জাতীয় শিক্ষাক্রম-২০২০’  বাতিলের দাবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের

© 2021 Bangla Tribune