X
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

বিএনপি বিদ্বেষপ্রসূত মিথ্যাচার করছে: ওবায়দুল কাদের

আপডেট : ০২ আগস্ট ২০২১, ১৭:৫৯

বিএনপি সরকারের বিরুদ্ধে বিদ্বেষপ্রসূত মিথ্যাচার করছে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেছেন, বিএনপি করোনা সংকটে জনগণের পাশে আছে‑ এ কথা পাগলেও বিশ্বাস করে না।

সোমবার (২ আগস্ট) তাঁর বাসভবনে ব্রিফিংকালে এ কথা জানান তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ মাঠে থেকে জনমানুষের পাশে রয়েছে। অন্যদিকে বিএনপি গৃহকোণে অবস্থান করছে। বিএনপি গৃহকোণে আইসোলেশনে থেকে গোয়েবলসীয় কায়দায় বাক্যচর্চা করছে। সংকট দেখলে বিএনপি নেতাদের শামুকের মতো খোলসের আড়ালে গুটিয়ে থাকা আর পলায়নপরতা জনগণের কাছে এখন স্পষ্ট।

করোনা সংকটে সরকার কিছুই করছে না, বিএনপিই জনগণের সঙ্গে রয়েছে‑ দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যকে আজগুবি ও কাল্পনিক বলে আখ্যা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

তিনি বলেন, এটা তাদের অক্ষমতা আর ব্যর্থতা আড়াল করার অপপ্রয়াস। যারা নির্বাচনে অংশ নিয়ে নির্বাচনের দিন ঘরে বসে থাকে আর আন্দোলনের ডাক দিয়ে দরজা-জানালা বন্ধ করে পুলিশের গতিবিধি দেখে, তারা নাকি করোনাকালে জনমানুষের সঙ্গে রয়েছে। এ কথা এখন কেউই বিশ্বাস করে না।

সরকার করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা নিয়ে লুকোচুরি করছে, বিএনপি নেতাদের এমন অভিযোগকে 'হাস্যকর' আখ্যা দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, করোনার নমুনা পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন, ফলাফলসহ প্রতিটি বিষয় প্রযুক্তির সহায়তায় এবং বিভিন্ন অ্যাপসের মাধ্যমে সম্পন্ন হচ্ছে। এখানে তথ্য লুকানোর কোনও সুযোগ নেই। এসব তথ্য লুকিয়ে সরকারের কী লাভ?

তিনি বলেন, এ করোনাকালে বিএনপিকে হাজার পাওয়ারের বাতি জ্বালিয়েও কোথাও খুঁজে পাওয়া যায় না। তারা করোনা সংকটকে দেখছে চোখ বন্ধ করে অন্ধের হাতি দেখার মতো করে।

গার্মেন্ট কারখানা খুলে দেওয়ার বিষয়ে বিএনপি মহাসচিবের সমালোচনার বিষয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ফখরুল সাহেব একদিকে শ্রমিকদের স্বার্থ নিয়ে কথা বলেন, অপরদিকে গার্মেন্ট কারখানা খুলে দিলেও আবার বিরোধিতা করেন।

তিনি বলেন, ইতোমধ্যে বিশ্ববাজারে পোশাক রফতানিতে বাংলাদেশ থেকে ভিয়েতনাম এগিয়ে গেছে। করোনাকালে উৎপাদন ব্যাহত হওয়ায় পোশাক রফতানি কমেছে। এই প্রেক্ষাপটে রফতানি আদেশসমূহ কোনোভাবে বাতিল হোক, তা চায় না সরকার। জীবন ও জীবিকার সমন্বয় করে অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে সরকার সচেষ্ট। দেশের ভবিষ্যৎ এবং কল্যাণ চিন্তা করে সরকার বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নিচ্ছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ভ্যাকসিন নিয়ে বর্তমানে কোনও সংকট নেই। অথচ একটি মহল ভ্যাকসিন সংকট আছে বলে আতঙ্ক তৈরির অপপ্রয়াস চালাচ্ছে। এই স্বার্থান্বেষী মহল সংকটে মানুষের মনোবল ভেঙে দেওয়ার অপচেষ্টা করছে। সরকারের পরিকল্পনা অনুযায়ী একদিকে টিকাদান কার্যক্রম চলতে থাকবে, অন্যদিকে ভ্যাকসিন আসাও অব্যাহত থাকবে। একসঙ্গে কয়েক কোটি ভ্যাকসিন জমিয়ে রেখে কার্যক্রম শুরু করার কথা যারা ভাবছেন, তারা সঠিক বলছেন না।

সংশ্লিষ্টদের ভ্যাকসিন প্রদানের প্রটোকল অনুসরণ করে ধৈর্যের সঙ্গে গ্রামের মানুষদের টিকা প্রদানের আহ্বান জানান আওয়ামী লীগের এই শীর্ষ নেতা।

তিনি বলেন, ভ্যাকসিন একদিকে আসতে থাকবে, পাশাপাশি ভ্যাকসিন প্রদানের কর্মসূচিও চলতে থাকবে। এ নিয়ে সংশয়ের কোনও অবকাশ নেই। আগামী সাত আগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে দেশব্যাপী গ্রাম পর্যায়ে গণটিকাদান কার্যক্রম। এ কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সমন্বয়ের মাধ্যমে সম্পন্ন করতে ইতোমধ্যে সরকার প্রয়োজনীয় প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে।

আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের কেন্দ্র থেকে জেলা, উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতাকর্মীদের টিকাদান কর্মসূচি সফল করতে প্রশাসনকে সহযোগিতার আহ্বান জানান দলটির সাধারণ সম্পাদক।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ করোনার শুরু থেকে জনমানুষের পাশে রয়েছে। টিকাদান কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী জনমানুষের পাশে থাকবে দলের নেতাকর্মীরা।

/পিএইচসি/এমএস/এমওএফ/

সম্পর্কিত

বাঙালি জাতির কলঙ্ক মোচনে জিয়ার বিচার অবশ্যম্ভাবী: তথ্য প্রতিমন্ত্রী 

বাঙালি জাতির কলঙ্ক মোচনে জিয়ার বিচার অবশ্যম্ভাবী: তথ্য প্রতিমন্ত্রী 

বিএনপির সিরিজ বৈঠক হচ্ছে সিরিজ ষড়যন্ত্রের অংশ: ওবায়দুল কাদের

বিএনপির সিরিজ বৈঠক হচ্ছে সিরিজ ষড়যন্ত্রের অংশ: ওবায়দুল কাদের

শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে যুবলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে যুবলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে বিএনপিকে নেতৃত্ব দিতে হবে: সেলিম

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:৩৬

এলডিপি মহাসচিব শাহাদাত হোসেন সেলিম বলেন, বাংলাদেশে গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারের আন্দোলনে বিএনপিকে নেতৃত্ব দিতে হবে। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন নিশ্চিত করতে দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে আন্দোলন গড়ে তুলতে পারলেই গণতন্ত্র ফিরে আসবে।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জ উপজেলায় এক সভায় তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় উপজেলার ৫ নং চন্ডিপুর ইউনিয়নের ছাত্রদলের সহ-সম্পাদক ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত রাকিব হোসেনকে সহযোগিতা দেন সেলিম।

এলডিপির দফতর থেকে পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে শুক্রবার বিকালে রামগঞ্জে রাকিবের বাড়িতে গিয়ে দেখা করে তাকে ফুলের তোড়া দিয়ে মানসিকভাবে সাহস যোগান শাহাদাত হোসেন। এ সময় চিকিৎসার জন্য তাৎক্ষণিক এক লাখ টাকা নগদ অনুদান দেন তিনি। পাশাপাশি তার চিকিৎসার দায়িত্বও তিনি গ্রহণ করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপি নেতা শেখ জালাল আহামদ মন্টু, ইঞ্জিনিয়ার নুরুল আমিন প্রমুখ।

/এসটিএস/এনএইচ/

সম্পর্কিত

দলীয় প্রতীকেও নির্বাচন করার চাপ জাসদে

দলীয় প্রতীকেও নির্বাচন করার চাপ জাসদে

জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন ব্যবসায়ী ফজলুল হক বাবু

জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন ব্যবসায়ী ফজলুল হক বাবু

ঘরের শত্রু নিয়ে সতর্ক হোন, প্রধানমন্ত্রীকে ইনু

ঘরের শত্রু নিয়ে সতর্ক হোন, প্রধানমন্ত্রীকে ইনু

সরকারকে আতঙ্ক তাড়া করছে: রিজভী

সরকারকে আতঙ্ক তাড়া করছে: রিজভী

দুই দিনব্যাপী কেন্দ্রীয় কমিটির সভা

দলীয় প্রতীকেও নির্বাচন করার চাপ জাসদে

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:১৪

১৪ দলীয় জোটের শরিক হিসেবে নৌকা প্রতীকের পাশাপাশি দলীয় ‘মশাল’ প্রতীকেও নির্বাচন করার চাপ সৃষ্টি হয়েছে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল- জাসদে। পাশাপাশি দলটির নেতাদের অভিযোগ— আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট ও মহাজোটে সমন্বয়হীনতা চলছে, যার রেশ দেখা গেছে করোনাকালে।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) থেকে শুরু হওয়া দুই দিনব্যাপী কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে দলটির নেতারা শীর্ষ নেতাদের সামনে এসব অবস্থান তুলে ধরেন। রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত গ্রহণে এই কমিটিই দলের সর্বোচ্চ ফোরাম।

শুক্রবার সকালে গুলিস্তানের শহীদ কর্নেল তাহের মিলনায়তনে দুই দিনব্যাপী সভার প্রথম দিনে ১৩৩ জন অংশগ্রহণ করছেন। জাতীয় কমিটির সদস্য হিসেবে কেন্দ্রীয় কমিটি, উপদেষ্টা কমিটি ও জেলার সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকরা বৈঠকে অংশগ্রহণ করছেন।

বৈঠকে অংশ নেওয়া জাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির একজন দায়িত্বশীল জানান, বৈঠকে সাংগঠনিক ও রাজনৈতিক— উভয় দিক নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, করোনা ভাইরাসের কারণে বাংলাদেশের সুবর্ণজয়ন্তী ও জাসদের ৫০ বছর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী আড়ম্বরে উদযাপন করা, জঙ্গিবাদ ও মৌলবাদী সংস্কৃতির বিপরীতে বাঙালিয়ানা সংস্কৃতিকে তুলে ধরা, সাম্প্রদায়িক শক্তির কার্যকর বিরোধিতার বিষয়টিও রয়েছে।

বৈঠকে দলের জাতীয় কমিটির সদস্যরা আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট ও নির্বাচনি মহাজোটে সমন্বয়হীনতা রয়েছে বলে অভিযোগ করেন। জেলা পর্যায়ের নেতারা জানান, জেলা পর্যায়ে মহাজোট বা ১৪ দলীয় জোটের কার্যক্রমে শরিকদের মূল্যায়ন করা হয় না। গেলো দেড় বছর ধরে করোনার সংক্রমণের সময় সামাজিক কোনও কার্যক্রমেই শরিকদের ডাকা হয়নি। আরেক জেলার গুরুত্বপূর্ণ নেতা ‘নৌকা’ প্রতীকের পাশাপাশি দলীয় প্রতীক হিসেবে ‘মশাল’ প্রতীকে নির্বাচন করার প্রতি জোর দিতে নেতাদের পরামর্শ দেন।

খুলনা বিভাগের একজন জেলা সভাপতি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, বৈঠকে অধিকাংশ সদস্যই স্বকীয়তা ধরে রাখতে দলীয় মশাল প্রতীকে নির্বাচন করার পক্ষে মত দিয়েছেন। এছাড়া, ‘ঘরকাটা ইঁদুর’ আর ‘দুর্নীতির সিন্ডিকেট’ নিয়েও কথা বলেছেন কেউ-কেউ।

দুই দিনব্যাপী সভায় দলের কেন্দ্রীয় নেতারা

বৈঠকে দলের সভাপতি হাসানুল হক ইনু তার প্রারম্ভিক বক্তব্যেও এ বিষয়টি উল্লেখ করেছেন। তিনি বলেন, ‘শত্রুদের ষড়যন্ত্র এবং বন্ধুদের সমালোচনার পার্থক্য সরকার ও প্রধানমন্ত্রীকে বুঝতে হবে। শুধু বাইরের শত্রুই নয়, ঘরের শত্রু ঘরকাটা ইঁদুর-উঁইপোকাদের মোকাবিলায় সতর্ক ও প্রস্তুত হোন।’

গাইবান্ধার জেলা সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল হক জনি বলেন, ‘বৈঠকে বলেছি, ১৪ দলকে শক্তিশালী করতে হবে। জাসদকে শক্তিশালী করতে হবে। মৌলবাদ ও জঙ্গিবাদ রুখতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। আওয়ামী লীগের সঙ্গে পার্থক্য থাকা সত্ত্বেও আমরা ঐক্যবদ্ধ আছি। ঐক্যবদ্ধভাবে যেন নির্বাচন হয়, সে বিষয়েও আলোচনা হয়েছে।’

জাসদের সাতক্ষীরা জেলা সভাপতি ওবায়দিস সুলতান বাবলু বলেন, ‘মূলত রাজনৈতিক ও সাংগঠনিক বিষয়গুলো নিয়েই জাতীয় কমিটির সভা হচ্ছে। সংগঠনকে শক্তিশালী করার প্রক্রিয়া নিয়েও আলোচনা হচ্ছে। সভা শেষ হলে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে পার্টি।’

জাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির একনেতা বলেন, দীর্ঘদিন সরকারে থাকার কারণে সুশাসনের অভাব, স্থানীয় সরকারে একতরফা নির্বাচন নিয়েও কথা বলেছেন জাতীয় কমিটির সদস্যরা। সাম্প্রদায়িক সংস্কৃতির আগ্রাসন, ইন্টারনেটের আগ্রাসন এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ফিরে এলেও বাঙালিয়ানা যে অনুপস্থিত, সেসব বিষয়গুলোকে সামনে রেখে কর্মসূচি প্রণয়নের লক্ষ্যে সভা হচ্ছে।

জাসদের প্রভাবশালী আরেক নেতা জানান, নির্বাচন কমিশন গঠনে স্থায়ী পদ্ধতির প্রয়োজন মনে করছে জাসদ। এক্ষেত্রে সংখ্যানুপাতিক পদ্ধতির পক্ষে জাসদ।

বৈঠক সূত্র জানায়, ২০১৪ সালে ৫টি ও একটি সংরক্ষিত আসন এবং ২০১৮ সালের নির্বাচনে তিনটি আসন পেলেও আগামী দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলের চাহিদা বাড়ানোর পরামর্শ দিয়েছেন কোনও কোনও সদস্য।  

জাসদ সূত্রে জানা গেছে, বৈঠকে দেশের সর্বশেষ রাজনৈতিক পরিস্থিতির ওপর খসড়া রাজনৈতিক রিপোর্ট উপস্থাপন করেন দলের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি। প্রতিবেদনে জাসদের রাজনীতির ৫০ বছরের খতিয়ান তুলে ধরা হয়েছে বলে জানায় সূত্রটি।

দলের দফতর সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, সভায় দলের কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির সদস্য, জেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক এবং বিশেষ আমন্ত্রণে কেন্দ্রীয় উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্যরা অংশগ্রহণ করেছেন। সভা আগামীকাল শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাত পর্যন্ত চলবে।

আরও পড়ুন:

ঘরের শত্রু নিয়ে সতর্ক হোন, প্রধানমন্ত্রীকে ইনু

জাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির সভা ২৪-২৫ সেপ্টেম্বর

/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

ঘরের শত্রু নিয়ে সতর্ক হোন, প্রধানমন্ত্রীকে ইনু

ঘরের শত্রু নিয়ে সতর্ক হোন, প্রধানমন্ত্রীকে ইনু

‘সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার কমায় আয় সংকটে পড়বে মানুষ’

‘সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার কমায় আয় সংকটে পড়বে মানুষ’

নেতাদের সঙ্গে দ্বিতীয় দফার শেষ বৈঠকে বিএনপি

নেতাদের সঙ্গে দ্বিতীয় দফার শেষ বৈঠকে বিএনপি

জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন ব্যবসায়ী ফজলুল হক বাবু

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:৪০

কুড়িগ্রামের ভুরুঙ্গমারী সরকারি কলেজের সাবেক ভিপি ফজলুল হক বাবু জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন। তিনি ম্যাক্রো পেপার প্রোডাক্ট লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠানের স্বত্বাধিকারী।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকালে জাপা চেয়ারম্যানের উত্তরার বাসভবনে গোলাম মোহাম্মদ কাদেরের (জিএম কাদের) হাতে ফুল দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পার্টিতে যোগ দেন তিনি।

এসময় জাতীয় পার্টির উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য পনির উদ্দিন আহমেদ, জাতীয় পার্টির যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম সালাউদ্দিন, কুড়িগ্রাম জেলা জাতীয় পার্টির নেতা মো. সুমন, মাসুদ রানা, ফিরোজ রানা উপস্থিত ছিলেন।

/এসটিএস/ইউএস/

সম্পর্কিত

নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন প্রণয়ন করতে হবে: জিএম কাদের

নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন প্রণয়ন করতে হবে: জিএম কাদের

আগামী বছর রাজনীতির রোডম্যাপ ঘোষণা করবে জাতীয় পার্টি

আগামী বছর রাজনীতির রোডম্যাপ ঘোষণা করবে জাতীয় পার্টি

সুশাসন নিশ্চিত করাই জাপার রাজনীতি: জিএম কাদের

সুশাসন নিশ্চিত করাই জাপার রাজনীতি: জিএম কাদের

পরীক্ষামূলকভাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হোক: জিএম কাদের

পরীক্ষামূলকভাবে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হোক: জিএম কাদের

ঘরের শত্রু নিয়ে সতর্ক হোন, প্রধানমন্ত্রীকে ইনু

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:৩৮

জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু বলেছেন, ‘শত্রুদের ষড়যন্ত্র এবং বন্ধুদের সমালোচনার পার্থক্য সরকার ও প্রধানমন্ত্রীকে বুঝতে হবে। শুধু বাইরের শত্রুই নয়, ঘরের শত্রু ঘরকাটা ইঁদুর-উইপোকাদের মোকাবিলায় সতর্ক ও প্রস্তুত হোন।’

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর গুলিস্তানের শহীদ কর্নেল তাহের মিলনায়তনে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের জাতীয় কমিটির দুই দিনব্যাপী সভার উদ্বোধনী বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

হাসানুল হক ইনু বলেন, ‘একদিকে বিএনপি তাদের পুরাতন সঙ্গী জামায়াত-জঙ্গিদের সঙ্গে নিয়ে অসাংবিধানিক সরকার আনার অস্বাভাবিক রাজনীতির পথে থেকেই নতুন করে জল ঘোলা করা শুরু করেছে। অন্যদিকে সরকার-প্রশাসনের চারিদিকে দুর্নীতির চোরাবালি তৈরি হয়েছে। দুর্নীতির সিন্ডিকেট সরকারকে ঘিরে ফেলছে।’

ইনু জঙ্গিবাদ-দুর্নীতির সিন্ডিকেট-গুন্ডাতন্ত্র-বৈষম্য মোকাবিলায় সব গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ অবস্থান গ্রহণের আহ্বান জানান।

সভায় দেশের সর্বশেষ রাজনৈতিক পরিস্থিতির ওপর খসড়া রাজনৈতিক রিপোর্ট উপস্থাপন করেন দলের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি।

খসড়া রাজনৈতিক রিপোর্টের ওপর আলোচনা করেন কার্যকরী সভাপতি অ্যাডভোকেট রবিউল আলম, অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন, মীর হোসাইন আখতার, আফরোজা হক রীনা, আব্দুল হাই তালুকদার, মোহাম্মদ ফজলুর রহমান বাবুল, শহীদুল ইসলাম, শফি উদ্দিন মোল্লা, মোহর আলী চৌধুরী, নইমুল হক চৌধুরী টুটুল, উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্য এম সবেদ আলী, সাবেক এমপি আব্দুল মতিন মিঞা, আফজাল হোসেন খান জকি, মোখলেছুর রহমান মুক্তাদির, আব্দুল্লাহিল কাইয়ূম, শওকত রায়হান, মো. মোহসীন, নইমুল আহসান জুয়েল, ওবায়দুর রহমান চুন্নু, মীর্জা মো. আনোয়ারুল হক, সৈয়দ শফিকুল ইসলাম মিন্টু, অ্যাভোকেট. আব্দুল হাই মাহবুব, আব্দুল আলিম স্বপন, জাহাঙ্গীর আলম, অধ্যাপক রাজিউর রহমান বাবুল, অধ্যক্ষ শফিকুর রহমান, সৈয়দা শামীমা সুলতানা হ্যাপী, অ্যাডভোকেট নিলঞ্জনা রিফাত সুরভী, রোকেয়া সুলতানা আঞ্জু প্রমুখ।

সভার শুরুতে ৪৫তম তাহের দিবস উপলক্ষে দলের মুখপত্র ‘লড়াই’ এর বিশেষ সংখ্যার মোড়ক উন্মোচন করা হয়।

সভায় দলের কেন্দ্রীয় কার্যকরী কমিটির সদস্যবৃন্দ, জেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ এবং বিশেষ আমন্ত্রণে কেন্দ্রীয় উপদেষ্টামণ্ডলীর সদস্যবৃন্দ অংশগ্রহণ করছেন। সভা আগামীকাল শনিবার রাত পর্যন্ত চলবে।

 

/এসটিএস/আইএ/

সম্পর্কিত

দলীয় প্রতীকেও নির্বাচন করার চাপ জাসদে

দলীয় প্রতীকেও নির্বাচন করার চাপ জাসদে

‘সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার কমায় আয় সংকটে পড়বে মানুষ’

‘সঞ্চয়পত্রের মুনাফার হার কমায় আয় সংকটে পড়বে মানুষ’

খালেদা জিয়া মুক্ত হলে চন্দ্রিমা উদ্যানে নিয়ে যাবেন: ডা. জাফরুল্লাহ 

খালেদা জিয়া মুক্ত হলে চন্দ্রিমা উদ্যানে নিয়ে যাবেন: ডা. জাফরুল্লাহ 

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

ইসি পুনর্গঠনের আগে আইন প্রণয়নের দাবি বাংলাদেশ ন্যাপের

সরকারকে আতঙ্ক তাড়া করছে: রিজভী

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:৫৪

দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর বিশ্ববিদ্যালয়গুলো খুলছে। আর বিশ্ববিদ্যালয় খোলার পর সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করতে বিভিন্ন ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ জায়গাগুলোতে লাগানো হচ্ছে সিসিটিভি ক্যামেরা। এর তীব্র সমালোচনা করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ। তিনি সরকারকে উদ্দেশ করে বলেছেন, ‘এত ভয় কীসের? শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নজরদারিতে থাকবে কেন?’

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে রাজধানীর নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় অফিসের নিচে নিশতাক আহমেদ রাখীর স্মরণে তার রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল ও আলোচনায় এসব কথা বলেন রিজভী।

রিজভী বলেন, গোটা দেশের মধ্যে স্বৈরাচার কায়েম হলেও বিশ্ববিদ্যালয় মুক্ত থাকে। ক্যাম্পাসে সিসি টিভি বসানোর কথা বলেছে কর্তৃপক্ষ। তাহলে এতদিন যে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখলেন, এটা তবে রাজনৈতিক কারণেই বন্ধ রেখেছেন?’

বিএনপির এই নেতা সরকারকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘আপনি তো ভোটে ক্ষমতায় আসেননি, এজন্য আতঙ্ক তাড়া করছে। কোথা থেকে আন্দোলনের ঢেউ আসে..., এজন্য আপনি ভিত।’ রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে সরকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রেখেছে বলেও অভিযোগ তোলেন রিজভী।

দলীয় লোককে খুশি করতে লুটপাটের সংস্কৃতি বিদ্যমান রাখতে কুইক রেন্টাল অব্যাহত রাখা হয়েছে বলেও অভিযোগ করেন রুহুল কবির রিজভী। তিনি আরও বলেন, ‘ওবায়দুল কাদেরের ভাই বলছেন, গণদুশমনের সরকার আজকের সরকার।’

এসময় দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রসঙ্গ টেনে রিজভী বলেন, ‘মানুষ ক্ষুধার্ত। হাহাকার করছে মানুষ। জিনিসপত্রের দাম হু-হু করে বাড়ছে। দেশের মানুষের আমানতের উপর সুদ কমিয়ে দিয়েছেন। সুদ কমিয়ে দিচ্ছেন। আপনি চান, ওরা মরুক। আপনারা প্লেনে প্লেনে ঘুরে বেড়াবেন, কিন্তু মানুষ মরবে।’

/এসটিএস/ইউএস/

সম্পর্কিত

গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে বিএনপিকে নেতৃত্ব দিতে হবে: সেলিম

গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে বিএনপিকে নেতৃত্ব দিতে হবে: সেলিম

দলীয় প্রতীকেও নির্বাচন করার চাপ জাসদে

দলীয় প্রতীকেও নির্বাচন করার চাপ জাসদে

জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন ব্যবসায়ী ফজলুল হক বাবু

জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন ব্যবসায়ী ফজলুল হক বাবু

ঘরের শত্রু নিয়ে সতর্ক হোন, প্রধানমন্ত্রীকে ইনু

ঘরের শত্রু নিয়ে সতর্ক হোন, প্রধানমন্ত্রীকে ইনু

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

বাঙালি জাতির কলঙ্ক মোচনে জিয়ার বিচার অবশ্যম্ভাবী: তথ্য প্রতিমন্ত্রী 

বাঙালি জাতির কলঙ্ক মোচনে জিয়ার বিচার অবশ্যম্ভাবী: তথ্য প্রতিমন্ত্রী 

বিএনপির সিরিজ বৈঠক হচ্ছে সিরিজ ষড়যন্ত্রের অংশ: ওবায়দুল কাদের

বিএনপির সিরিজ বৈঠক হচ্ছে সিরিজ ষড়যন্ত্রের অংশ: ওবায়দুল কাদের

শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে যুবলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে যুবলীগের বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি

মাহবুব তালুকদারের বক্তব্য রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত: ওবায়দুল কাদের

মাহবুব তালুকদারের বক্তব্য রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত: ওবায়দুল কাদের

শেখ হাসিনার এসডিজি পুরস্কারপ্রাপ্তি ইতিহাসের মাইলফলক: ওবায়দুল কাদের

শেখ হাসিনার এসডিজি পুরস্কারপ্রাপ্তি ইতিহাসের মাইলফলক: ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

ইউপি নির্বাচনআওয়ামী লীগ বিদ্রোহী চায় না, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতাও নয়

‘স্থানীয় সরকার নির্বাচন তৃণমূলে গণতন্ত্রের ভিত্তি মজবুত করে’

‘স্থানীয় সরকার নির্বাচন তৃণমূলে গণতন্ত্রের ভিত্তি মজবুত করে’

সর্বশেষ

শর্ত মানলে শান্তি আলোচনায় রাজি উত্তর কোরিয়া: কিমের বোন

শর্ত মানলে শান্তি আলোচনায় রাজি উত্তর কোরিয়া: কিমের বোন

গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে বিএনপিকে নেতৃত্ব দিতে হবে: সেলিম

গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে বিএনপিকে নেতৃত্ব দিতে হবে: সেলিম

ফায়ার সার্ভিসে এসএসসি পাসে চাকরির সুযোগ

ফায়ার সার্ভিসে এসএসসি পাসে চাকরির সুযোগ

শেয়ার বাজার চাঙা রাখতে আরও কিছু উদ্যোগ বিএসইসির

শেয়ার বাজার চাঙা রাখতে আরও কিছু উদ্যোগ বিএসইসির

সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকে চাকরি, বয়স সর্বোচ্চ ৫০ বছর

সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংকে চাকরি, বয়স সর্বোচ্চ ৫০ বছর

© 2021 Bangla Tribune