X
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

কঙ্গোতে বাস-জ্বালানি ট্রাকের সংঘর্ষে বিস্ফোরণ, নিহত ৩৩

আপডেট : ০২ আগস্ট ২০২১, ২৩:৪৮

ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অব কঙ্গোতে একটি যাত্রীবোঝাই বাস জ্বালানি ট্রাককে ধাক্কা দিলে ভয়াবহ বিস্ফোরণে আগুন ধরে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই নিহত হন ৩৩ জন।

সোমবার দেশটির পুলিশ জানিয়েছে, রাজধানী কিনশাসা থেকে ৮০ কিলোমিটার দূরের কিবুবা গ্রামের সড়কে বাস ও ট্রাকের মধ্যে ভয়াবহ সংঘর্ষ হয়। শনিবার রাতে দ্রুতগামী যাত্রীবাহী বাসটি জ্বালানি ট্রাকটিকে ধাক্কা দিলে আগুন ধরে যায়। এতে দগ্ধ হয়ে এ হতাহতের ঘটনা ঘটে। পুলিশ বলছে, অধিকাংশের শরীর আগুনে পুড়ে যায়। উদ্ধার হওয়া দেহাবশেষ সোমবার দাফন করা হয়েছে।

ওই সড়কটি নিরাপদ নয় বলে জানা গেছে। সেখানে প্রায় দুর্ঘটনার খবর পাওয়া যায়। পুরনো গাড়ি নিয়ম না মেনে চলাচল করায় হতাহতের ঘটনা ঘটে। এছাড়া সড়ক মেরামত না করা এবং চালকরা মাতাল অবস্থায় গাড়ি চালানোকে দুর্ঘটনার জন্য দায়ী করছে পুলিশ।

২০১৮ সালে কিনশাসার একটি সড়কে জ্বালানি ট্যাংকার দুর্ঘটনায় ৫৩ জন নিহত হন। আর ২০১০ সালে একই রকম দুর্ঘটনায় ২৩০ জনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়।

/এলকে/

সম্পর্কিত

ভারতে যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে নিহত ১৭

ভারতে যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে নিহত ১৭

কঙ্গোয় অগ্ন্যুৎপাতে বহু মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা, গৃহহীন হাজার হাজার

কঙ্গোয় অগ্ন্যুৎপাতে বহু মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা, গৃহহীন হাজার হাজার

ইলিশ রফতানি: বাংলাদেশের শর্তকে অবাস্তব বললো ভারত

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:০৭

ভারতে ৪৬০০ মেট্রিক টন ইলিশ রফ্তানি নিয়ে দেখা দিয়েছে জটিলতা। বাংলাদেশের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, আগামী ১০ অক্টোবরের পরিবর্তে তিন অক্টোবরের মধ্যে ভারতে ইলিশ রফতানির সময় বেঁধে দিয়েছে। এই সময়ের মধ্যে বিপুল সংখ্যক ইলিশ রফতানি সম্ভব নয় মনে করছেন ভারতীয়রা।

বৃহস্পতিবার সকাল থেকে গড়িয়াহাট, মানিকতলায় সবে দেখা মিলেছে পদ্মার ইলিশ। পশ্চিমবঙ্গের ইলিশ ব্যবসায়ীরা আশায় বসে, পুঁজোর মধ্যেই ইলিশের বড় চালান বাংলাদেশ থেকে প্রবেশ করতে পারবে। কিন্তু ঢাকার বাণিজ্য মন্ত্রাণলয়ের ঘোষণা, ইলিশ রফতানির সময়সীমা ১০ অক্টোবর নয়, ৩ অক্টোবরের মধ্যেই সারতে হবে।

তবে ভারতের জন্য খুশির খবর হলো, নতুন করে ২৫২০ মেট্রিক টন ইলিশ ভারতে রফতানি করা সম্ভব বলছে বাংলাদেশ। এতে ইলিশের পরিমাণ দাঁড়ায় ৪৬০০ মেট্রিক টন। যা গত বছরের চেয়ে দ্বিগুণ।

ইলিশের রফতানির সময় বেঁধে দেওয়ার পেছনে অবশ্য যোক্তিক কারণও রয়েছে। আগামী ৪ অক্টোবর থেকে ২২ অক্টোবর পর্যন্ত ইলিশ ধরায় নিষেধাজ্ঞা জারি করছে বাংলাদেশ সরকার। তখন ইলিশ রফতানিও ৩ অক্টোবরের পরে বন্ধ রাখা হচ্ছে বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

এমন পরিস্থিতিতে পশ্চিমবঙ্গ ফিশ ইমপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের সচিব সৈয়দ আনোয়ার মাকসুদ দিল্লিতে বাংলাদেশ হাই কমিশনার মহম্মদ ইমরানের কাছে আহ্বান জানিয়েছেন যে, আপাতত ৩ অক্টোবর পর্যন্ত যা ইলিশ ঢোকার ঢুকুক। কিন্তু ২২ অক্টোবরের পরে ঢাকার ঘোষণা অনুযায়ী ধাপে ধাপে বাকি ইলিশও ঢুকতে দেওয়া হোক।

আনোয়ার বলেন, ‘ইলিশ বাজার এবং পরিকাঠামোর যা অবস্থা, তাতে দৈনিক এপার বাংলায় বড় জোর ৫০ মেট্রিক টন পদ্মার ইলিশ ঢুকতে পারে। ৩ অক্টোবরের মধ্যে ঢাকার উপহারের সামান্য ইলিশই ঢুকতে পারবে!’

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) দু’দিনে বেনাপোলে হয়ে ৮০ মেট্রিক টন ইলিশ ঢুকেছে ভারতে। কলকাতা বা রাজ্যের অন্যান্য বাজারে ইলিশের দাম আকারভেদে ৭০০-৮০০ থেকে ১২০০-১৩০০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে।

এদিকে, ঢাকার ইলিশ ব্যবসায়ী মুহাম্মদ রফিকুল ইসলাম বলেছেন, ‘এবার একেবারে খুব ভালো মানের ইলিশ ভারতে যাচ্ছে। তবে এত অল্প সময়ে অত ইলিশ পাঠানো সম্ভব নয়!’

বরিশালের নিকটবর্তী মনপুরা, হাকিমদ্দিন, তজিমুদ্দিন, পাথরঘাটা, মহীপুরের সেরা ইলিশ পাঠাচ্ছে ঢাকা। প্রথমে ৫২টি সংস্থাকে ৪০ মেট্রিক টন করে ইলিশ রফতানির ছাড়পত্র দেয় ঢাকা। এরপরে আরও ৬৩টি সংস্থাকে সুযোগ দেওয়া হয়। রফিকুলের মতে,‘মনে হচ্ছে বেশি সংস্থাকে সুযোগ দিতেই ইলিশের পরিমাণ বাড়ানো হল। কিন্তু তাতে কারও লাভ হবে না’।

যশোরের ইলিশ ব্যবসায়ী মুহাম্মদ কুদ্দুসের জানান, ‘ভারতে পুজোয় ইলিশ পাঠাতে চাই। নইলে ইলিশের বাড়তি জোগানে বাংলাদেশ ভাল দাম পাব না! কিন্তু এবার বেশি ইলিশ পাঠানো যাবে না’।

সূত্র: আনন্দবাজার।

/এলকে/

সম্পর্কিত

ভারতে ৯ মাস ধরে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, ২৮ জন আটক

ভারতে ৯ মাস ধরে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, ২৮ জন আটক

ভবানীপুর জিতে বিজেপিকে দুর্বল করতে চান মমতা

ভবানীপুর জিতে বিজেপিকে দুর্বল করতে চান মমতা

উচ্ছেদ অভিযান ঘিরে রণক্ষেত্র আসাম, পুলিশের গুলিতে নিহত ২

উচ্ছেদ অভিযান ঘিরে রণক্ষেত্র আসাম, পুলিশের গুলিতে নিহত ২

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে প্রস্তুত উ.কোরিয়া : কিম ইয়ো

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:০০

দক্ষিণ কোরিয়া যদি তাদের ‘শত্রুতাপূর্ণ নীতি’ থেকে সরে আসে তবেই দেশটির সঙ্গে পুনরায় আলোচনা শুরু করা যেতে পারে। এমন মন্তব্য করেছেন উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উনের বোন কিম ইয়ো জং। ১৯৫০-৫৩ সালের কোরীয় যুদ্ধ অবসানে দ.কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন-এর আহ্বানের পর প্রতিক্রিয়া জানালেন তিনি।

সম্প্রতি জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনের এক ভাষণে কোরীয় যুদ্ধ বন্ধে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণার আহ্বান জানান দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন। মুন বলেন, কোরীয় যুদ্ধের সমাপ্তির জন্য আমি বিশ্ব সম্প্রদায়ের সহযোগিতার জোর আহ্বান জানাচ্ছি।

তার এমন আহ্বানকে শুক্রবার এক বিবৃতিতে প্রশংসনীয় উল্লেখ করেছেন কিম ইয়ো। দ. কোরিয়ার উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আলোচনার আগে অবশ্যই দ্বিমুখী মনোভাব, অযৌক্তিক পক্ষপাত, খারাপ অভ্যাস পরিহার করতে হবে। এছাড়া আমাদের আত্মরক্ষার অধিকারের ন্যায়সঙ্গত অনুশীলনে দোষ দেওয়া বন্ধ করা প্রয়োজন’।

আর যখনই এই শর্তগুলো পূরণ করা সম্ভব তখনই দু’পক্ষ মুখোমুখি আলোচনায় বসে কোরীয় যুদ্ধ বন্ধ করা সম্ভব।

মুন এর আগেও যুদ্ধ বন্ধের চেষ্টা চালান। তখন তিনি বলেন, যুদ্ধ বন্ধের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে সহায়তা করবে। কিন্তু ওয়াশিংটন জানিয়েছে, আগে পিয়ংইয়ং-কে অবশ্যই পরমাণু অস্ত্র ছাড়তে হবে।  

১৯৫০ সালের ২৫ জুন শুরু হয় কোরীয় যুদ্ধ। ওই সময় দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে সর্বাত্মক যুদ্ধে উত্তর কোরীয় ট্যাংক ও সেনারা সীমান্ত অতিক্রম করে। যুদ্ধে দক্ষিণ কোরিয়ার হয়ে উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে অংশ নেয় যুক্তরাষ্ট্র। ৭০ বছর আগের ওই যুদ্ধে উত্তর কোরিয়ায় নিহত হন কয়েক হাজার মার্কিন সেনা। এর তিন বছরের মাথায় একটি চুক্তি সইয়ের মধ্যে দিয়ে যুদ্ধবিরতিতে পৌঁছায় দুই দেশ। কিন্তু আনুষ্ঠানিকভাবে কোরীয় যুদ্ধের এখনও ইতি টানা হয়নি।

/এলকে/

সম্পর্কিত

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

তিন বিশ্ব শক্তির চুক্তিতে পারমাণবিক অস্ত্র প্রতিযোগিতা শুরু হতে পারে: উ. কোরিয়া

আকাস চুক্তির কারণে অস্ত্র প্রতিযোগিতা শুরুর আশঙ্কা উ. কোরিয়ার

ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ স্থাপনা সম্প্রসারণ করছে উত্তর কোরিয়া

ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধকরণ স্থাপনা সম্প্রসারণ করছে উত্তর কোরিয়া

বৃদ্ধ ও গৃহপালিত পশু ছাড়া কেউ নেই, যেন এক ভুতুড়ে শহর

বৃদ্ধ ও গৃহপালিত পশু ছাড়া কেউ নেই, যেন এক ভুতুড়ে শহর

ভারতে ৯ মাস ধরে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, ২৮ জন আটক

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৫৯

ভারতের মহারাষ্ট্রের থানে ১৫ বছরে এক কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে ২৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ বলছে, ওই কিশোরীকে টানা ৯ মাস ধরে ধষর্ণ করে অভিযুক্তরা। এ ঘটনায় বিস্তর তদন্তে নেমেছে প্রশাসন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি তাদের খবরে জানিয়েছে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে তার ওপর শারীরিক নির্যাতন শুরু হয়। এ ঘটনায় জড়িতদের মুম্বাই থেকে আটক করা হয়েছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, প্রথমে ওই কিশোরীর প্রেমিক তাকে ধর্ষণ করে এবং এর ভিডিও ধারণ করে। পরে ওই ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে দিনের পর দিন তার প্রেমিক ও বন্ধুরা মিলে ধর্ষণ করে আসছিল।

নির্যাতিত ওই মেয়ে বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) থানায় এ বিষয়ে অভিযোগ করে। মহারাষ্ট্রের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার দত্তরায় কারালে জানিয়েছেন, কিশোরী নিজেই থানায় এসে গত নয় মাসে তার ওপর হওয়া নির্যাতনের বর্ণনা দিয়েছে। তাকে  হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভারতের গত বছরে ২৮ হাজার ৪৬টি ধর্ষণের প্রমাণ পাওয়া গেছে।

/এলকে/

সম্পর্কিত

‘ইলিশ রপ্তানি: বাংলাদেশের শর্তকে অবাস্তব বললো ভারত’

‘ইলিশ রপ্তানি: বাংলাদেশের শর্তকে অবাস্তব বললো ভারত’

ভবানীপুর জিতে বিজেপিকে দুর্বল করতে চান মমতা

ভবানীপুর জিতে বিজেপিকে দুর্বল করতে চান মমতা

উচ্ছেদ অভিযান ঘিরে রণক্ষেত্র আসাম, পুলিশের গুলিতে নিহত ২

উচ্ছেদ অভিযান ঘিরে রণক্ষেত্র আসাম, পুলিশের গুলিতে নিহত ২

অকাস জোটে ভারত-জাপানকে রাখছে না যুক্তরাষ্ট্র

অকাস জোটে ভারত-জাপানকে রাখছে না যুক্তরাষ্ট্র

কাতালোনিয়ার স্বাধীনতাকামী নেতা পুজদেমন ইতালিতে গ্রেফতার

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:১৩

স্পেনের কাতালোনিয়ার বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা কার্লেস পুজদেমন ইতালি থেকে গ্রেফতার হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ইতালির সার্দিনিয়া দ্বীপে ভ্রমণের সময় গ্রেফতার হন তিনি। স্পেন সরকারের একটি অ্যারেস্ট ওয়ারেন্টের ভিত্তিতে তাকে আটক করা হয়েছে।  

পুজদেমনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ এনেছে স্পেন। দেশটির দাবি, ২০১৭ সালে কাতালানের স্বাধীনতার দাবিতে অবৈধ গণভোট আয়োজনে মুখ্য ভূমিকা পালন করেন এই আলোচিত কাতালান নেতা।

২০১৭ সালে কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার দাবিতে বিক্ষোভ

তিনি স্বায়ত্বশাসিত কাতালোনিয়া অঞ্চলের সাবেক প্রেসিডেন্ট ছিলেন। সেখানে গণভোটের আয়োজনের পর রাজনৈতিক সংকট সৃষ্টি হওয়ায় স্পেন থেকে পালিয়ে যান। এরপর থেকেই বেলজিয়ামে অবস্থান করছিলেন তিনি।

কার্লেস পুজদেমনের আইনজীবী বলছেন, স্থানীয় সময় শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) তাকে আদালতে তোলা হবে। এছাড়া তাকে প্রত্যর্পণ করা হতে পারে। তাকে গ্রেপ্তারে টুইট বার্তায় নিন্দা জানিয়েছেন কাতালোনিয়ার নতুন প্রেসিডেন্ট পেরে আরাগোনস। আরাগোনস নিজেও একজন বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা। 

/এলকে/

সম্পর্কিত

সব শ্রমিকের জন্য হেলথ পাস বাধ্যতামূলক করলো ইতালি

সব শ্রমিকের জন্য হেলথ পাস বাধ্যতামূলক করলো ইতালি

কাবুল বিমানবন্দরে ইতালির সামরিক বিমানে গুলি

কাবুল বিমানবন্দরে ইতালির সামরিক বিমানে গুলি

ইতালির এই শহরে মাত্র ১০০ টাকায় মিলবে বাড়ি!

ইতালির এই শহরে মাত্র ১০০ টাকায় মিলবে বাড়ি!

২ হাজার বছরের পুরনো গাছ বাঁচাতে স্থানীয়দের 'যুদ্ধ'

২ হাজার বছরের পুরনো গাছ বাঁচাতে স্থানীয়দের 'যুদ্ধ'

কমলা হ্যারিসে মুগ্ধ নরেন্দ্র মোদি

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০৫

প্রথম সাক্ষাতেই কমলা হ্যারিসে মুগ্ধ হলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রথম মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস-কে সকলের কাছে ‘অনুপ্রেরণা’ বলেন তিনি। আগামীতে ভারতে আসার জন্যও আমন্ত্রণ জানান কমলা হ্যারিসকে।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) হোয়াইট হাউসে মুখোমুখি হন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস ও ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আফগানিস্তান, কোভিড পরিস্থিতিসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় মোদি-কমলার।

এদিন কমলার প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট পদের নির্বাচনে আপনার লড়াই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও ঐতিহাসিক একটি পর্ব ছিল। গোটা বিশ্বজুড়েই আপনি অনুপ্রেরণা। আমি নিশ্চিত যে প্রেসিডেন্ট বাইডেন ও আপনার নেতৃত্বে দিল্লি ও ওয়াশিংটনের মধ্য দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক এক নতুন উচ্চতায় পৌঁছবে’।

মোদি আরও বলেন, ‘ভারত ও আমেরিকার মূল্যবোধ অনেকটাই একই রকম, রাজনৈতিক স্বার্থও এক। সকল ভারতীয়ই আপনার জন্য অপেক্ষা করছে, সেই কারণে আমি আপনাকে ভারত সফরে আসার জন্য আমন্ত্রণ জানাচ্ছি’।

/এলকে/

সম্পর্কিত

মোদি-কমলার বৈঠক, পাকিস্তানকে সন্ত্রাসীদের সমর্থন বন্ধ করা উচিত: কমলা

মোদি-কমলার বৈঠক, পাকিস্তানকে সন্ত্রাসীদের সমর্থন বন্ধ করা উচিত: কমলা

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় হতাহত ১৩, হামলাকারীর আত্মহত্যা

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় হতাহত ১৩, হামলাকারীর আত্মহত্যা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ভারতে যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে নিহত ১৭

ভারতে যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে নিহত ১৭

কঙ্গোয় অগ্ন্যুৎপাতে বহু মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা, গৃহহীন হাজার হাজার

কঙ্গোয় অগ্ন্যুৎপাতে বহু মানুষের মৃত্যুর আশঙ্কা, গৃহহীন হাজার হাজার

সর্বশেষ

একই ব্যানারে গাজীপুরে আ.লীগের পাল্টাপাল্টি সমাবেশ

একই ব্যানারে গাজীপুরে আ.লীগের পাল্টাপাল্টি সমাবেশ

একটি হাত ব্যাগ ও সৌদি আরব প্রবাসীর কান্না-হাসি

একটি হাত ব্যাগ ও সৌদি আরব প্রবাসীর কান্না-হাসি

ইলিশ রফতানি: বাংলাদেশের শর্তকে অবাস্তব বললো ভারত

ইলিশ রফতানি: বাংলাদেশের শর্তকে অবাস্তব বললো ভারত

ই-কমার্সের বিরুদ্ধে অভিযোগের পাহাড়, শীর্ষে ইভ্যালি,  ই-অরেঞ্জ ও দারাজ

ই-কমার্সের বিরুদ্ধে অভিযোগের পাহাড়, শীর্ষে ইভ্যালি, ই-অরেঞ্জ ও দারাজ

সাইক্লিং নিরাপদে ১০ সুপারিশ

সাইক্লিং নিরাপদে ১০ সুপারিশ

© 2021 Bangla Tribune