X
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

সরকারি ৫ হাসপাতালে অতিরিক্ত রোগী

আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০২১, ১৯:২০

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ১৫ হাজার ৭৭৬ জন। গতকাল শনাক্ত হয়েছিলেন ১৫ হাজার ৯৮৯ জন। তার আগের দিন (১ আগস্ট) তা ছিল ১৪ হাজার ৮৪৪ জন। আর তার আগের দিন শনাক্ত হয়েছিলেন নয় হাজার ৩৬৯ জন।

নতুন শনাক্ত হওয়া ১৫ হাজার ৭৭৬ জনকে নিয়ে দেশে করোনাতে সরকারি হিসেবে এখন পর্যন্ত মোট শনাক্ত হলেন ১২ লাখ ৯৬ হাজার ৯৩ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ২৩৫ জন। তাদের নিয়ে দেশে করোনাতে সরকারি হিসেবে মোট মারা গেলেন ২১ হাজার ৩৯৭ জন। এর আগে গতকাল ২৪৬ জনের মৃত্যুর কথা জানানো হয়। তার আগের দিন (১ আগস্ট) তা ছিল ২৩১ জন। তার আগের দিন (৩১ জুলাই) ছিল ২১৮ জন।

সংক্রমণ এবং মৃত্যুর বাড়ার মধ্যে দিয়েই অধিদফতর জানাচ্ছে, রাজধানী ঢাকার করোনা রোগীদের জন্য ডেডিকেটেড পাঁচ অন্যতম বড় সরকারি হাসপাতালে নির্ধারিত সাধারণ শয্যার বিপরীতে ভর্তি আছেন অতিরিক্ত রোগী।

অধিদফতরের তথ্য থেকে জানা যায়, কুয়েত বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতালের নির্ধারিত ১৬৯ বেডের বিপরীতে অতিরিক্ত চারজন, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে নির্ধারিত ২৭৫ জনের বিপরীতে ৮২ জন, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নির্ধারিত ৭০৫ বেডের বিপরীতে অতিরিক্ত ৪৬ জন, শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নির্ধারিত ২৬৩ বেডের বিপরীতে অতিরিক্ত ৮১ জন আর মুগদা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নির্ধারিত২৮৭ বেডের বিপরীতে অতিরিক্ত দুইজন অতিরিক্ত রোগী ভর্তি আছেন।

/জেএ/এমআর/

সম্পর্কিত

‘১২-১৭ বছর বয়সীদের টিকার সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি’

‘১২-১৭ বছর বয়সীদের টিকার সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি’

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

৫ লাখেরও বেশি টিকা দেওয়া হয়েছে আজ 

৫ লাখেরও বেশি টিকা দেওয়া হয়েছে আজ 

আজও করোনায় নারীমৃত্যু বেশি

আজও করোনায় নারীমৃত্যু বেশি

স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা জাতীয়করণের দাবি

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৫৪

স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা জাতীয়করণ করাসহ ৫ দফা দাবি জানিয়েছে স্বাধীনতা স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষক পরিষদ। রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলন থেকে এসব দাবি জানান পরিষদের মহাসচিব মো. তাজুল ইসলাম ফরাজী। দাবি আদায় না হলে আগামী ৪ অক্টোবর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধন করার ঘোষণা দেওয়া হয়।
তারা বলেন, স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা এমপিওভুক্তির জন্য প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদিত প্রায় ৩১১ কোটি টাকা বরাদ্দ বাস্তবায়নসহ ডাটা এন্ট্রিকৃত ৭৪৫৩টি মাদ্রাসার জন্য প্রয়োজনীয় বরাদ্দ দিয়ে চলতি অর্থ বছরে এমপিওভুক্ত করতে হবে।

তাদের অন্যান্য দাবিগুলো হচ্ছে- চলতি অর্থ বছরে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদিত ৩১১ কোটি টাকা বাস্তবায়নসহ ডাটাবেজভুক্ত ৭ হাজার ৪৫৩টি স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা এমপিওভুক্তির জন্য প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ দেওয়া; আর্থিক কারণে ঝরে পরা রোধ করতে অতিদরিদ্র পরিবারের শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ ভিত্তিসহ প্রাইমারি স্কুলের শিক্ষার্থীদের ন্যায় স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের দুপুরের খাবার এবং পোশাকের জন্য অর্থ বরাদ্দ প্রদান; প্রাইমারি স্কুলের ন্যায় স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা ভৌত অবকাঠামো উন্নয়নের জন্য অর্থ বরাদ্দ প্রদান করা এবং মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক পাঠদান অনুমতিপ্রাপ্ত সকল স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসায় কোড নাম্বার প্রদান সহ স্থায়ী রেজিস্ট্রেশন প্রদান করা।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন পরিষদের সভাপতি এস এম জয়নুল আবেদীন জেহানী, সাধারণ সম্পাদক ও বেসরকারি শিক্ষক কর্মচারী কল্যাণ ট্রাস্ট এর সচিব অধ্যক্ষ শাহজাহান আলম সাজু, স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ সাইদুর রহমান পান্না, অধ্যক্ষ পরিষদের সভাপতি অধ্যক্ষ মমতাজ উদ্দিন মর্তুজা প্রমুখ।

/জেডএ/এমআর/

সম্পর্কিত

মাদ্রাসায় শিক্ষক সংকট, শূন্য পদের তথ্য চেয়েছে সরকার

মাদ্রাসায় শিক্ষক সংকট, শূন্য পদের তথ্য চেয়েছে সরকার

৫ কোটি টাকার বিশেষ অনুদান পাচ্ছে মাদ্রাসা ও কারিগরির শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

৫ কোটি টাকার বিশেষ অনুদান পাচ্ছে মাদ্রাসা ও কারিগরির শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

মাদ্রাসায় বঙ্গবন্ধু কর্নার স্থাপন না করলে এমপিও নয়

মাদ্রাসায় বঙ্গবন্ধু কর্নার স্থাপন না করলে এমপিও নয়

ভর্তি চলছে কওমি মাদ্রাসায়, অনুমতি পেলে ক্লাস

ভর্তি চলছে কওমি মাদ্রাসায়, অনুমতি পেলে ক্লাস

কোনও মামলা নেই আমার ছাত্রদের জন্য এসেছি, আদালতে ডা. জাফরুল্লাহ

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৫৮

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে বাংলাদেশ ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় সংগঠনটির ২০ নেতাকর্মীর জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত। রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েসের আদালতে জামিন শুনানির সময় উপস্থিত ছিলেন গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী ও সাবেক ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর।

এদিন আদালতে এজলাসে বিচারক আসার আগে রাষ্ট্রপক্ষকে উদ্দেশ করে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলতে থাকেন, আপনারা যেভাবেই হোক এই ছাত্রগুলোর জামিন করিয়ে দিয়েন। এরা কোনও দোষ করেনি। তারা শুধু নরেন্দ্র মোদির বিপক্ষে স্লোগান দিয়েছে। সামান্য স্লোগান দেওয়ার কারণে যদি এতোদিন তাদের জেল খাটতে হয়। তাহলে এটা কী করে হয়? আপনারা একটু সমর্থন দিয়েন এই ছাত্রদের। তাদের পরীক্ষা দেওয়ার জন্য হলেও জামিন করিয়ে দিন। তাদের দয়া করে জামিন দিয়ে দেন।

এরপর রাষ্ট্রপক্ষের পাবলিক প্রসিকিউটর তাপস কুমার পাল পাল্টা ডা. জাফরুল্লাহকে জিজ্ঞেস করেন আপনার কোনও মামলা কিংবা কোনও মামলায় হাজিরা আছে কিনা। তার উত্তরে তিনি বলেন, ‘না, আমার কোনও মামলা নেই। আমি এসেছি আমার ছাত্রদের জন্য। তাদের দয়া করে জামিন দেওয়ার জন্য চেষ্টা করবেন। জামিন না দিলে তারা পরীক্ষা দিতে পারবে না।’

আসামিপক্ষের আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদারসহ আরও অনেকে জামিনের আবেদন করেন। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষ থেকে আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর তাপস কুমার পাল তার বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত ২০ আসামির জামিন মঞ্জুর করেন।

এরপর আদালতের বিচারক এজলাসে আসলে আসামিপক্ষের আইনজীবীরা জামিনের জন্য শুনানি করেন। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষ থেকে তার বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত ২০ আসামিকে জামিনের আদেশ দেন।

ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীদের সঙ্গে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী

জামিনপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- মো. ইউনুস, নাজমুল হাসান, নাহিদুল তারেক, মো. নাইম, আসাদুজ্জামান, আজহারুল ইসলাম, সোহেল মৃধা, মোস্তাক আহমেদ, আজিম হোসেন, মো. রুহুল ইসলাম সোহেল, আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জিশান, মো. সোহেল আহমদ, শেখ খায়রুল কবির, সবুজ হোসেন, হোলাম তানভীর, মো. হেমায়েত, ইসমাইল হোসেন, মো. রেজাউল করিম, মুনতাজুল ইসলাম ও কাজী বাহাউদ্দীন মনির।

উল্লেখ্য, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফর ঘিরে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের নেতৃত্বে চলতি বছর ২৫ মার্চ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর বিজয়নগর পানির ট্যাংকি এলাকা থেকে ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের একটি মিছিল শুরু হয়। এতে পাঁচ শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশের বাধা পেয়ে আন্দোলনকারীরা নুরের নেতৃত্বে মিছিল নিয়ে মতিঝিলের শাপলা চত্বরের দিকে যান। সেখানে পুলিশের সঙ্গে ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ বাঁধে। বিক্ষোভ মিছিল থেকে সৃষ্ট ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় ৭ পুলিশ সদস্য আহত হন। শাপলা চত্বরে সেই মিছিল থেকে ৩২ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়। ওই ঘটনায় একাধিক থানায় কয়েকটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:
মোদিবিরোধী বিক্ষোভ : ছাত্র ও যুব অধিকারের ২০ নেতাকর্মীর জামিন

/এমএইচজে/ইউএস/

সম্পর্কিত

মোদিবিরোধী বিক্ষোভ : ছাত্র ও যুব অধিকারের ২০ নেতাকর্মীর জামিন

মোদিবিরোধী বিক্ষোভ : ছাত্র ও যুব অধিকারের ২০ নেতাকর্মীর জামিন

র‌্যাংগসের চেয়ারম্যানসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা

র‌্যাংগসের চেয়ারম্যানসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা

নির্বাচনে কোনও সহায়তা করতে পারে কিনা জানতে চায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৫৩

আগামী নির্বাচনে কোনও সহায়তা করতে পারে কিনা সেটি জানতে চায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ডিক্যাব আয়োজিত ডিক্যাব টকে জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি মিয়া সেপ্পো বলেন, ‘যে কোনও দেশের নির্বাচনের আগে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় কোনও সহায়তা করতে পারে কিনা সেটি জানতে চায় এবং আমি নিশ্চিত বাংলাদেশেও এটি হবে।’

তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মধ্যে রয়েছে জাতিসংঘ, কিছু দেশের রাষ্ট্রদূত এবং এর আগের নির্বাচনে যা হয়েছে তার থেকে ভিন্ন কিছু হবে এটি আমি আশা করি না।’

বাংলাদেশের কিছু ক্ষেত্রে মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে জাতিসংঘ উদ্বিগ্ন। এরমধ্যে রয়েছে নারীদের প্রতি সহিংসতা, বৈষম্য বৃদ্ধি এবং এটি একটি বৈশ্বিক সমস্যা। আমরা আরও উদ্বিগ্ন সুশীল সমাজের কাজের সংকুচিত ক্ষেত্র এবং এটিও একটি বৈশ্বিক সমস্যা বলে তিনি জানান।

তিনি বলেন, আমরা আশা করি সরকার ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন পুনর্বিবেচনা করবে এবং আমরা এটি নিয়ে আইন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে আলোচনা করছি বলে তিনি জানান।

/এসএসজেড/এনএইচ/

সম্পর্কিত

মোদিবিরোধী বিক্ষোভ : ছাত্র ও যুব অধিকারের ২০ নেতাকর্মীর জামিন

মোদিবিরোধী বিক্ষোভ : ছাত্র ও যুব অধিকারের ২০ নেতাকর্মীর জামিন

‘১২-১৭ বছর বয়সীদের টিকার সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি’

‘১২-১৭ বছর বয়সীদের টিকার সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি’

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

নট ফর সেল ক্লাব: মধু পূর্ণিমায় উন্মুক্ত হচ্ছে ‘বুদ্ধ’

নট ফর সেল ক্লাব: মধু পূর্ণিমায় উন্মুক্ত হচ্ছে ‘বুদ্ধ’

মোদিবিরোধী বিক্ষোভ : ছাত্র ও যুব অধিকারের ২০ নেতাকর্মীর জামিন

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৩৯

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে বাংলাদেশ ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের বিক্ষোভ মিছিলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের ২০ নেতা কর্মীর জামিন দিয়েছেন আদালত।

রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েসের আদালতে আসামিপক্ষের আইনজীবী মাসুদ আহমেদ তালুকদারসহ আরও অনেকে জামিনের আবেদন করেন। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষ থেকে আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর তাপস কুমার পাল তার বিরোধিতা করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত ২০ আসামির জামিন মঞ্জুর করেন।

এদিন জামিন শুনানিতে গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর উপস্থিত ছিলেন।

জামিনপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, মো. ইউনুস, নাজমুল হাসান, নাহিদুল তারেক, মো. নাইম, আসাদুজ্জামান, আজহারুল ইসলাম,সোহেল মৃধা, মোস্তাক আহমেদ, আজিম হোসেন, মো. রুহুল ইসলাম সোহেল, আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জিশান, মো. সোহেল আহমদ, শেখ খায়রুল কবির, সবুজ হোসেন, হোলাম তানভীর, মো. হেমায়েত, ইসমাইল হোসেন, মো. রেজাউল করিম, মুনতাজুল ইসলাম ও কাজী বাহাউদ্দীন মনির।

উল্লেখ্য, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফর ঘিরে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুরের নেতৃত্বে চলতি বছর ২৫ মার্চ বেলা সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর বিজয়নগর পানির ট্যাংকি এলাকা থেকে ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের একটি মিছিল শুরু হয়। এতে পাঁচ শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশের বাধা পেয়ে আন্দোলনকারীরা নুরের নেতৃত্বে মিছিল নিয়ে মতিঝিলের শাপলা চত্বরের দিকে যান। সেখানে পুলিশের সঙ্গে ছাত্র অধিকার পরিষদের নেতাকর্মীদের সংঘর্ষ বাঁধে। বিক্ষোভ মিছিল থেকে সৃষ্ট ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় ৭ পুলিশ সদস্য আহত হন। শাপলা চত্বরে সেই মিছিল থেকে ৩২ জন নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়। ওই ঘটনায় একাধিক থানায় কয়েকটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

/এমএইচজে/ইউএস/

সম্পর্কিত

কোনও মামলা নেই আমার ছাত্রদের জন্য এসেছি, আদালতে ডা. জাফরুল্লাহ

কোনও মামলা নেই আমার ছাত্রদের জন্য এসেছি, আদালতে ডা. জাফরুল্লাহ

র‌্যাংগসের চেয়ারম্যানসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা

র‌্যাংগসের চেয়ারম্যানসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা

‘১২-১৭ বছর বয়সীদের টিকার সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি’

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:২২

১২ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের টিকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত এখনও চূড়ান্ত হয়নি বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। আজ রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) আয়োজিত ভার্চুয়াল বুলেটিনে এ কথা বলেন অধিদফতরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম।

বুলেটিনে ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের টিকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়েছে কিনা প্রশ্নে তিনি বলেন, টিকা বিষয়ক জাতীয় পরামর্শক কমিটিসহ অন্যান্য সবার পরামর্শ নিয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং অধিদফতর সে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে।

দেশে আবারও গণটিকা কার্যক্রম প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এ বিষয়ে এখনও কোনও নির্দেশনা পাইনি। যদি এরকম পরিকল্পনা হয়- সেটি নিশ্চয়ই জানানো হবে।

দেশের সংক্রমণ পরিস্থিতি সম্পর্কে জানাতে গিয়ে তিনি বলেন, গত সাত দিনে শনাক্ত হয়েছেন ১২ হাজার ৭৫৮ জন, তার আগের সপ্তাহের চাইতে ৩ হাজার ৭৫৮ জন কম। মৃত্যু সংখ্যাও কমেছে।

পুরো সপ্তাহের প্রথম দুদিন শনাক্তের হার সাত শতাংশের কিছুটা বেশি ছিল, এরপরের দিনগুলোতে থেকে ছয় শতাংশ বা এর চেয়ে কিছুটা বেশি। সামগ্রিকভাবে গত ৩০ দিনের সংক্রমণের যে চিত্র সেটা এই মুহূর্তে নিম্মমুখী প্রবণতাতেই আছে। এই শনাক্তের হার যদি ধারাবাহিকভাবে অব্যাহত রাখা যায় তাহলে আমাদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যাওয়ার যে প্রচেষ্টা চলছে, সেটা বেগবান হবে।

জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দেশে করোনা পরিস্থিতির চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, সবচেয়ে বেশি রোগী দেখা গিয়েছে গত জুলাই মাসে। সে মাসে শনাক্ত হয়েছিলেন ৩ লাখ ৩৬ হাজার ২২৬ জন, আর সেপ্টেম্বর মাসে এখন পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন ৪০ হাজার ৬৮২ জন।

এ সময়ে (জানুয়ারি-সেপ্টেম্বর) সংক্রমণের ভিত্তিতে শীর্ষ ১০ জেলার মধ্যে ঢাকা জেলা সবার শীর্ষে রয়েছে জানিয়ে অধ্যাপক নাজমুল ইসলাম বলেন, এ জেলায় এখন পর্যন্ত ৫ লাখ ১৩ হাজার ৯৪২ জন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। আর শীর্ষ ১০ জেলার তালিকায় দশম স্থানে রয়েছে নোয়াখালী জেলা, এ জেলায় শনাক্ত হয়েছে ২২ হাজার ৬২৯ জন।

তিনি জানান, করোনাতে আক্রান্ত হয়ে যাদের মৃত্যু হচ্ছে তাদের মধ্যে ৫১ থেকে ৬০ বছর এবং ৬১ থেকে ৭০ বছর বয়সীদের সংখ্যাই বেশি।

বর্তমান পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চললে এবং টিকা নিলে অনেক অনাকাঙ্খিত মৃত্যু প্রতিরোধ করা সম্ভব হবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন ডা. নাজমুল ইসলাম।

/জেএ/ইউএস/

সম্পর্কিত

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

৫ লাখেরও বেশি টিকা দেওয়া হয়েছে আজ 

৫ লাখেরও বেশি টিকা দেওয়া হয়েছে আজ 

আজও করোনায় নারীমৃত্যু বেশি

আজও করোনায় নারীমৃত্যু বেশি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

‘১২-১৭ বছর বয়সীদের টিকার সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি’

‘১২-১৭ বছর বয়সীদের টিকার সিদ্ধান্ত এখনও হয়নি’

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

চিকিৎসকসহ সাড়ে ৯ হাজার স্বাস্থ্যকর্মী করোনায় আক্রান্ত

৫ লাখেরও বেশি টিকা দেওয়া হয়েছে আজ 

৫ লাখেরও বেশি টিকা দেওয়া হয়েছে আজ 

আজও করোনায় নারীমৃত্যু বেশি

আজও করোনায় নারীমৃত্যু বেশি

চলতি মাসেই ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ৫ হাজার ছাড়ালো  

চলতি মাসেই ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ৫ হাজার ছাড়ালো  

এবার কেন ডেঙ্গু ভয়ংকর

এবার কেন ডেঙ্গু ভয়ংকর

করোনায় নারীমৃত্যু পুরুষের দ্বিগুণ

করোনায় নারীমৃত্যু পুরুষের দ্বিগুণ

‘ডেল্টার মতো ভ্যারিয়েন্টের পুনরায় সংক্রমণের আশঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যায় না’

‘ডেল্টার মতো ভ্যারিয়েন্টের পুনরায় সংক্রমণের আশঙ্কা উড়িয়ে দেওয়া যায় না’

ডেঙ্গু: সেপ্টেম্বরের ১৭ দিনেই শনাক্ত ৪৮৭২, মৃত্যু ১১

ডেঙ্গু: সেপ্টেম্বরের ১৭ দিনেই শনাক্ত ৪৮৭২, মৃত্যু ১১

নিয়ন্ত্রণে আসছে না ডেঙ্গু, দিনে ৩০০ রোগী

নিয়ন্ত্রণে আসছে না ডেঙ্গু, দিনে ৩০০ রোগী

সর্বশেষ

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের স্বপ্ন দেখে লাভ নেই: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

যুক্তরাষ্ট্রের পাশে থাকতে গিয়ে চড়া মূল্য দিয়েছে পাকিস্তান: ইমরান খান

যুক্তরাষ্ট্রের পাশে থাকতে গিয়ে চড়া মূল্য দিয়েছে পাকিস্তান: ইমরান খান

মেয়েদের স্কুলে যেতে না দেওয়ায় পাল্টা বার্তা দিলো শিশুরা

মেয়েদের স্কুলে যেতে না দেওয়ায় পাল্টা বার্তা দিলো শিশুরা

‘ভাসানচর নিয়ে সমঝোতা চুক্তির আলোচনা চূড়ান্ত পর্যায়ে’

‘ভাসানচর নিয়ে সমঝোতা চুক্তির আলোচনা চূড়ান্ত পর্যায়ে’

স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা জাতীয়করণের দাবি

স্বতন্ত্র ইবতেদায়ী মাদ্রাসা জাতীয়করণের দাবি

© 2021 Bangla Tribune