X
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে টি-টোয়েন্টিতে গর্জন বাংলাদেশের

আপডেট : ০৩ আগস্ট ২০২১, ২২:৩২

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ জিতেছে। সেই আত্মবিশ্বাস নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ঘরের মাঠে নামা। তবে বলার অপেক্ষা রাখে না, জিম্বাবুয়ে ও অস্ট্রেলিয়া একই মানের দল নয়। বাংলাদেশের খেলোয়াড়রাও বিষয়টি জানতেন। তবে মাহমুদউল্লাহ সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছিলেন, নিজেরদের সেরাটা দিতে পারলে অস্ট্রেলিয়াকে হারানো সম্ভব। ব্যাটিংয়ে সেই ‘সেরা’টা দিতে না পারলেও বোলারদের অসাধারণ পারফরম্যান্সে জয় দিয়েই পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরু করেছে বাংলাদেশ।

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়াকে ২৩ রানে হারিয়েছে বাংলাদেশ। স্পিনাররা, বিশেষ করে নাসুম আহমেদের দুর্দান্ত বোলিংয়ে একেবারেই সুবিধা করতে পারেনি সফরকারীরা। বাংলাদেশের ৭ উইকেটে করা ১৩১ রানের জবাবে অস্ট্রেলিয়া নির্ধারিত ২০ ওভারে অলআউট হয় ১০৮ রানে।

আর এরই সঙ্গে টি-টোয়েন্টিতে নিজেদের শক্তির জানান দিলো বাংলাদেশ। কুড়ি ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশ পিছিয়ে আছে অনেক- এই অপবাদ ও ব্যর্থতা থেকে বেরোনোর প্রথম ধাপটাও হয়তো ফেললো শক্তিধর অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে। তাও আবার মাত্র ১৩১ রানের সংগ্রহ দাঁড় করিয়ে। বলার অপেক্ষা রাখে না, জয়ের পুরো কৃতিত্বই পাবেন বোলাররা। যেখানে নাসুম ৪ ওভারে মাত্র ১৯ রান দিয়ে নিয়েছেন ৪ উইকেট।

অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে আগের চারবারের সাক্ষাতে কোনও জয় ছিল না বাংলাদেশের। পঞ্চমবারে সফল লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। ব্যাটসম্যানরা সুবিধা করতে না পারলেও বোলাররা স্বল্প পুঁজিতে এনে দিয়েছেন জয়ের আনন্দ। সফরকারীদের অলআউট করার পথে নেতৃত্ব দিয়েছেন ম্যাচসেরার পুরস্কার জেতা নাসুম আহমেদ। এছাড়া মোস্তাফিজুর রহমান ৪ ওভারে ১৬ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। আরেক পেসার শরিফুল ইসলাম ৩ ওভারে পেয়েছেন ২ উইকেট। মেহেদী ৪ ওভারে ২২ রান দিয়ে পান ১ উইকেট। সাকিব আল হাসানও ১ উইকেট ‍পেয়েছেন ২৪ রান খরচায়।

মিরপুরে নাসুম-শো

বাংলাদেশের উইকেট উৎসবের শুরুটা করেছিলেন শেখ মেহেদী হাসান। তবে অস্ট্রেলিয়ার ওপর ছড়ি ঘুরিয়েছেন আসলে নাসুম আহমেদ। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে চলেছে নাসুম-শো। এই বাঁহাতি স্পিনার একের পর এক উইকেট তুলে নিয়ে এনে দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়া-বধের আনন্দ।

৪ ওভারের বোলিং কোটা পূরণ করেছেন এই স্পিনার। তার বোলিং ফিগারটা এমন- ৪-০-১৯-৪। অর্থাৎ, ১৯ রান দিয়ে নিয়েছেন ৪ উইকেট। শুরুটা করেছিলেন ওপেনার জশ ফিলিপেকে দিয়ে। এরপর তুলে নেন ম্যাথু ওয়েড ও অ্যাশটন অ্যাগারের উইকেট। আর সবশেষে এই ম্যাচে অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উইকেট মিচেল মার্শকে তুলে নেন।

মার্শ টিকে থাকায় অস্ট্রেলিয়া আশার আলো দেখতে পাচ্ছিল। কিন্তু নিজের শেষ ওভারে এই ব্যাটসম্যানকেও নাসুম ফেরান শরিফুল ইসলামের হাতে ক্যাচ বানিয়ে। ফেরার আগে মার্শ ৪৫ বলে ৪ বাউন্ডারি ও ১ ছক্কায় করেন ৪৫ রান।

অস্ট্রেলিয়ার ‘মরার ওপর খাড়ার ঘা’

এমনিতেই বাংলাদেশের স্পিনারদের সামনে নাস্তানাবুদ, এর ওপর আবার হিট উইকেটের শিকার! এ যেন অস্ট্রেলিয়ার ‘মরার ওপর খাড়ার ঘা’ অবস্থা। অ্যাশটন অ্যাগার পা দিয়ে আঘাত করে স্টাম্প ভাঙলে পঞ্চম উইকেট হারায় সফরকারীরা।

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে পাঁচ ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে স্বাগতিক স্পিনারদের সামনে ৪৯ রানে ৪ উইকেট হারানোর পর অ্যাগারকে নিয়ে জুটি গড়ার চেষ্টায় ছিলেন মিচেল মার্শ। সঙ্গ দেওয়া অ্যাগার উইকেট বিলিয়ে এসেছেন হিট উইকেট হয়ে।

নাসুম আহমেদের বল এতটা পিছিয়ে খেলতে গিয়েছিলেন অ্যাগার যে, তার জুতার পেছনের অংশ আঘাত করে স্টাম্পে। বেল পড়ে যাওয়ায় হতাশায় পোড়ে অস্ট্রেলিয়া, আর উইকেট আনন্দে মাতে বাংলাদেশ।

ব্যর্থ ওয়েড

অ্যারন ফিঞ্চের অনুপস্থিতিতে অস্ট্রেলিয়ার টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব পেয়েছেন ম্যাথু ওয়েড। জাতীয় দলের জার্সিতে অধিনায়কত্বের অভিষেকটা মোটেও সুখকর হলো না তার। ব্যাট হাতে কিছুই করতে পারেননি। প্রয়োজনের সময় ২৩ বলে ১৩ রান করে নাসুমের শিকার হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি। যেখানে চাপের মধ্যে থাকা দলকে তোলার দায়িত্ব ছিল তার। তা তো করতে পারেনইনি, উল্টো দলকে ফেলে আসেন আরও বিপদে।

বাংলাদেশের স্পিনে এলোমেলো অস্ট্রেলিয়া

দ্বিতীয় ইনিংসে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং শুরুর হচ্ছে, টেলিভিশনের সামনে থাকা দর্শকেরা নড়েচড়ে বসারও সুযোগ পেলেন না। উইকেট আনন্দে মাতলেন শেখ মেহেদী হাসান। সেই শুরু, একে একে আসতে থাকলো উৎসবের উপলক্ষ। নাসুম আহমেদ হয়ে সাকিব আল হাসান। ফল, বাংলাদেশের স্পিন আক্রমণে এলোমেলো অস্ট্রেলিয়া।

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ১১ রান তুলতে ৩ উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। প্রথম বলে উইকেট হারানোর পর ধাক্কা আরও জোরে লাগে দ্রুত ২ উইকেট হারালে। বাংলাদেশের স্পিন আক্রমণের বিপক্ষে যে কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে, সে কথা অস্ট্রেলিয়ান খেলোয়াড়রা বলে গিয়েছিলেন সংবাদমাধ্যমের কাছে। তাই বলে এতটা হবে, সেটা হয়তো চিন্তা করেননি।

সাকিব বল তুলে নিয়েই করেছেন উইকেট উদযাপন। মোয়েসেস হেনরিকসকে বোল্ড করে তৃতীয় উইকেট এনে দিয়েছেন তিনি। অফ স্টাম্পের বল লেগ সাইডে টেনে খেলতে গিয়ে বোল্ডের শিকার এই ব্যাটসম্যান। ফেরার আগে ২ বলে করেন মাত্র ১ রান।

প্রথম বলেই উইকেট

প্রথম বলেই উইকেট বাংলাদেশের। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশকে দুর্দান্ত শুরু এনে দিলেন শেখ মেহেদী হাসান। এই স্পিনারের প্রথম বলে আউট হয়ে গেছেন অ্যালেক্স ক্যারি। এখানেই শেষ নয়, দ্বিতীয় ওভারে বাংলাদেশ পেয়েছে আরেকটি উইকেট।

প্রথম টি-টোয়েন্টিতে আগে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৩১ রান করেছে বাংলাদেশ। বড় স্কোর গড়তে না পারায় বোলিংয়ে দারুণ শুরু প্রয়োজন ছিল স্বাগতিকদের। সেই শুরুটা এনে দিলেন মেহেদী। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ শুরুতে তার হাতেই তুলে দিয়েছিলেন বল। বল পেয়েই বোল্ড করে প্যাভিলিয়নে ফিরিয়েছেন ক্যারিকে।

তাতে কোনও রান তোলার আগেই উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। শুরুর ধাক্কা সামলাবে কী, দ্বিতীয় ওভারে আবার উইকেট হারিয়েছে তারা। নাসুম আহমেদের বলে ফিরে গেছেন জশ ফিলিপে। স্টাম্পিং হয়ে ফেরার আগে ৫ বলে ১ ছক্কায় করেন ৯ রান।

বাংলাদেশের ১৩১

অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বমানের বোলারদের সামলানোর চ্যালেঞ্জ অবশ্যই ছিল। বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ সে কথা সংবাদ সম্মেলনে বলেও গিয়েছিলেন। তবে অস্ট্রেলিয়ান বোলারদের ‍খুব বেশি চেষ্টা করতে হয়নি, বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরাই উইকেট বিলিয়ে দিয়ে তাদের কাজ সহজ করে দিয়েছেন। উইকেট ছেড়ে ‍আসার খেলায় নির্ধারিত ২০ ওভারে বাংলাদেশ করেছে ৭ উইকেটে ১৩১ রান।

মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বাজেভাবে আউট হয়েছেন বাংলাদেশের প্রায় সব ব্যাটসম্যান। দুই ওপেনার সৌম্য সরকার (৯ বলে ২) ও নাঈম শেখের (২৯ বলে ৩০) আউট ছিল দৃষ্টিকটু। নুরুল হাসান সোহানও (৪ বলে ৩) উঠবেন কাঠগড়ায়। ধৈর্যশীল ইনিংস খেলা সাকিব আল হাসানের (৩৩ বলে ৩৬) আউটেও কৃতিত্ব পাবেন না বোলার জশ হ্যাজেলউড। ‍কেবল আফিফ হোসেন (১৬ বলে ২৩) ও শামীম হোসেনের (৩ বলে ৪) আউট দুটিতে ছিল মিচেল স্টার্কের প্রশংসা করার মতো বোলিং।

অস্ট্রেলিয়ার সবচেয়ে সফল বোলার হ্যাজেলউড। ৪ ওভারে ২৪ রান দিয়ে তার শিকার ৩ উইকেট। স্টার্ক ৪ ওভারে ৩৩ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। আর একটি করে উইকেট পেয়েছেন অ্যাডাম জাম্পা ও অ্যান্ড্রু টাই।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ: ২০ ওভারে ১৩১/৭ (সাকিব ৩৬, নাঈম ৩০, আফিফ ২৩, মাহমুদউল্লাহ ২০; হ্যাজেলউড ৩/২৪, স্টার্ক ২/৩৩)।

অস্ট্রেলিয়া: ২০ ওভারে ১০৮ (মার্শ ৪৫, স্টার্ক ১৪, ওয়েড ১৩; নাসুম ৪/১৯, মোস্তাফিজ ২/১৬, শরিফুল ২/১৯)।

ফল: বাংলাদেশ ২৩ রানে জয়ী।

ম্যাচসেরা: নাসুম আহমেদ।

/কেআর/

সম্পর্কিত

টানা দুই জয়ে চারে সাকিবরা  

টানা দুই জয়ে চারে সাকিবরা  

জানা গেলো তামিমের নেপাল যাওয়ার কারণ

জানা গেলো তামিমের নেপাল যাওয়ার কারণ

বোলিং অ্যাসেসমেন্টের জন্য বিদেশে পাঠানো হবে হাসানকে

বোলিং অ্যাসেসমেন্টের জন্য বিদেশে পাঠানো হবে হাসানকে

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং ‘লিভ দ্য গেম’ (ভিডিও)

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং ‘লিভ দ্য গেম’ (ভিডিও)

টানা দুই জয়ে চারে সাকিবরা  

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০০:১৯

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে সামনে পেলে বার বার দিশাহীন হয়ে পড়তে দেখা গেছে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে। আইপিএলের দ্বিতীয় পর্বে অবশ্য ভিন্ন রুপেই ধরা দিয়েছে কেকেআর। রোহিত শর্মার দলকে ৩ উইকেটে হারিয়ে মরুর বুকে টানা দ্বিতীয় জয় তুলে নিয়েছে সাকিবদের দল।

অবশ্য আজকের ম্যাচেও উইনিং কম্বিনেশন ভাঙেনি কলকাতা। মাঠে নামে সাকিবকে ছাড়াই। টস হেরে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ৬ উইকেটে করেছে ১৫৫ রান। শুরু থেকে বোলারদের ওপর চড়াও হয়ে খেলেছেন মুম্বাইয়ের দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও কুইন্টন ডি কক। স্বভাবসিদ্ধ ব্যাটিংয়ে মারকুটে ভঙ্গিতে খেলেছেন রোহিত। কেকেআরের বিপক্ষে করেছেন অনন্য এক রেকর্ডও। আইপিএলে কোন এক দলের বিপক্ষে একমাত্র ব্যাটার হিসেবে পূরণ করেছেন হাজার রান। তবে মাইলফলকের ম্যাচে ৩৩ রানের বেশি করতে পারেননি। তাকে বিদায় দিয়ে ওপেনিংয়ের দারুণ জুটি ভাঙেন নারাইন। অপরপ্রান্তে বড় ইনিংস না হলেও মুম্বাইয়ের ইনিংস সমৃদ্ধ হয়েছে ডি ককের কারণে। প্রোটিয়া ব্যাটার ৪২ বলে ৫৫ রান করেন ৪টি চার ও ৩ ছক্কায়।

মূলত মাঝের ওভারগুলোতে নারিন ও চক্রবর্তীর বোলিংয়েই অস্বস্তিতে পড়ে যায় মুম্বাই। ২৭ রানে দুটি উইকেট নিয়েছেন লকি ফার্গুসন, ৪৩ রানে দুটি নিয়েছেন প্রসিদ্ধ কৃষ্ণাও। ২০ রানে একটি নিয়েছেন নারিন। ম্যাচসেরাও হন তিনি।

জবাবে মুম্বাইয়ের চেয়েও বেশি আগ্রাসী ছিল কলকাতা। যে ওপেনিং জুটি তাদের মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল, সেখানে যোগ্যতার প্রমাণ দিয়েছেন ভেঙ্কটেশ আইয়ার। গিল ১৩ রানে ফিরলে আইয়ার ও রাহুল ত্রিপাঠির বিস্ফোরক জুটি-ই জয়ের ভিত গড়ে দিয়েছে কলকাতার।  

 আইয়ারের ৩০ বলে করা ৫৩ রানের ইনিংসে ছিল ৪টি চার ও ৩টি ছয়। তার বিদায়ের পর বাকি কাজ সারেন রাহুল ত্রিপাঠি। একার দায়িত্বে ৪২ বলে ৭৪ রানের বিস্ফোরক এক ইনিংসে জয়ের বন্দরে নোঙর ফেলেন তিনি। রাহুলের ইনিংসে ছিল ৮টি চার ও ৩টি ছয়। ৩ উইকেট হারানো কেকেআর জয় নিশ্চিত করেছে ১৫.১ ওভারে।

টানা দুই জয়ে পয়েন্ট টেবিলেও উন্নতি হয়েছে কলকাতার। উঠে গেছে চারে। ৯ ম্যাচে তাদের অর্জন ৮ পয়েন্ট। মুম্বাই চার থেকে নেমে গেছে ছয়ে।

/এফআইআর/            

সম্পর্কিত

জানা গেলো তামিমের নেপাল যাওয়ার কারণ

জানা গেলো তামিমের নেপাল যাওয়ার কারণ

বোলিং অ্যাসেসমেন্টের জন্য বিদেশে পাঠানো হবে হাসানকে

বোলিং অ্যাসেসমেন্টের জন্য বিদেশে পাঠানো হবে হাসানকে

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং ‘লিভ দ্য গেম’ (ভিডিও)

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং ‘লিভ দ্য গেম’ (ভিডিও)

জয়ের ৭৩, আকবরের ৫১ 

জয়ের ৭৩, আকবরের ৫১ 

জানা গেলো তামিমের নেপাল যাওয়ার কারণ

আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:৪৯

২৫ সেপ্টেম্বর শুরু হতে যাচ্ছে নেপালের এভারেস্ট প্রিমিয়ার লিগ (ইপিএল)। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে না থাকায় সেখানেই খেলবেন তামিম ইকবাল। সেখানে অংশ নিতে ওয়ানডে অধিনায়ক নেপাল যাচ্ছেন কাল শুক্রবার।  

প্রায় ১৬ মাস টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে খেলেননি তামিম। সর্বশেষ ২০২০ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে খেলেছেন। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে না থাকলেও তামিম সেখানে যাচ্ছেন মূলত পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে- এমনটাই জানিয়েছেন বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী। তিনি বলেছেন, ‘জিম্বাবুয়ে সিরিজের পর তামিমকে মেডিকেল বিভাগ থেকে ৮ সপ্তাহের পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। জাতীয় দলের ফিজিও-ট্রেনারের তত্ত্বাবধানে তামিম পুনর্বাসন পরিকল্পনা মেনে চলেছেন। যথেষ্ট কষ্ট ও অধ্যাবসায়ের সঙ্গে এই জটিল ও দীর্ঘ প্রক্রিয়া প্রায় শেষ করে এনেছেন। গত ২-৩ দিন ধরে স্কিল ট্রেনিং করেছেন। আস্তে আস্তে আত্মবিশ্বাসও ফিরে পাচ্ছেন। আমরা আশাবাদী, এভাবে স্কিল ট্রেনিং চালিয়ে গেলে ইপিএলে তার খেলা সম্ভব হবে।'

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ শেষেই ঘরের মাঠে আছে পাকিস্তান সিরিজ। সেখানে কী পাওয়া যাবে দেশসেরা এই ওপেনারকে? দেবাশীষ চৌধুরী বলেছেন, ‘আমাদের সঙ্গে তামিমের যে পরিকল্পনা করা হয়েছে, তার অংশ হিসেবে ইপিএলে খেলা পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার একটা অংশ। এই খেলায় বোঝা যাবে স্কিল ও অন্য বিষয়গুলো তিনি কতটা সামলে নিতে পারছেন। এর ওপর নির্ভর করেই পরবর্তী দিক নির্দেশনা দিবো আমরা।’

ছয় দলের প্রতিযোগিতার চতুর্থ আসরের পর্দা উঠবে আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর। চলবে ৯ অক্টোবর পর্যন্ত। তামিম খেলবেন ভৈরহাওয়া গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে। শুক্রবার ভোর সাড়ে ৪টায় কাতার এয়ারওয়েজের ফ্লাইটে নেপালের উদ্দেশে দেশ ছাড়বেন তিনি।

/আরআই/এফআইআর/

সম্পর্কিত

টানা দুই জয়ে চারে সাকিবরা  

টানা দুই জয়ে চারে সাকিবরা  

বোলিং অ্যাসেসমেন্টের জন্য বিদেশে পাঠানো হবে হাসানকে

বোলিং অ্যাসেসমেন্টের জন্য বিদেশে পাঠানো হবে হাসানকে

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং ‘লিভ দ্য গেম’ (ভিডিও)

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং ‘লিভ দ্য গেম’ (ভিডিও)

জয়ের ৭৩, আকবরের ৫১ 

জয়ের ৭৩, আকবরের ৫১ 

বোলিং অ্যাসেসমেন্টের জন্য বিদেশে পাঠানো হবে হাসানকে

আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:২০

চোট আক্রান্ত হয়ে দীর্ঘদিন ধরে মাঠের বাইরে পেস বোলার হাসান মাহমুদ। পুনর্বাসনের পর বোলিং অ্যাসেসমেন্টের জন্য তাকে দেশের বাইরে পাঠাচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এদিকে আরেক পেসার আল আমিন হোসেন চোটমুক্ত হয়ে জাতীয় ক্রিকেট লিগ দিয়ে মাঠে ফেরার অপেক্ষায় আছেন। বৃহস্পতিবার  দুই পেসারের ইনজুরি নিয়ে সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কথা বলেছেন বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী। 

হাসানের পুনর্বাসন চলছে জাতীয় দলের ফিজিও জুলিয়ান কালেফাতোর অধীনে। পিঠের চোটে ভোগা এই গতি তারকার কোন সমস্যা ধরা পড়েনি। তার পরও হাসানকে বায়োমেকানিক্যাল বোলিং অ্যাসেসমেন্টের জন্য পাঠানো হবে দেশের বাইরে। এ প্রসঙ্গে বিসিবির এই চিকিৎসক বলেছেন, ‘আমরা মনে করছি ওর একটা সঠিক বায়োমেকানিক্যাল বোলিং অ্যাসেসমেন্ট দরকার। যেটা দুর্ভাগ্যজনকভাবে আমাদের এখানে সম্ভব না। এখন চেষ্টা করছি বিদেশে, যেখানে এই সুযোগ-সুবিধাগুলো আছে, সেখানে পাঠিয়ে ওর ফুল অ্যাসেসমেন্টের জন্য।’

আগামী দুই থেকে তিন সপ্তাহের মধ্যে হাসানকে দেশের বাইরে পাঠানো হবে বলে নিশ্চিত করেছেন তিনি, ‘করোনার কারণে বিভিন্ন দেশে এখন কড়াকড়ি রয়ে গেছে। আমরা দুই-তিন জায়গায় কথা বলেছি। আশা করছি, আগামী দুই-তিন সপ্তাহের মধ্যে আমরা ওকে দেশের বাইরে কোথাও পাঠাতে পারবো।’

এছাড়া অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য অভিষেক দাসও ভুগছেন পিঠের ইনজুরিতে। তাকেও উন্নত চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে পাঠানো হবে। এছাড়া একই দলের মৃতুঞ্জয় চৌধুরী কাঁধের চোট থেকে সেরে উঠেছেন, এনসিএল দিয়ে মাঠে ফেরার কথা তার।

পাশাপাশি আল আমিন হোসেনও অনেক দিন ধরে পায়ের ইনজুরিতে ভুগছিলেন। পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার শেষ দিকে আছেন। গত কয়েকদিন ধরে মিরপুরে বোলিং অনুশীলন করছেন। আল আমিনকে নিয়ে দেবাশীষ চৌধুরী বলেছেন, ‘আল-আমিনের পুনর্বাসন প্রক্রিয়া শেষ পর্যায়ে। সে মোটামুটি শতভাগ চেষ্টা দিয়ে বোলিং করছে। এখন পর্যন্ত ওর অগ্রগতি যথেষ্ট সন্তোষজনক। আমরা আশা করি, এনসিএলে ওর খেলার সম্ভাবনা আছে।’

/আরআই/এফআইআর/

সম্পর্কিত

টানা দুই জয়ে চারে সাকিবরা  

টানা দুই জয়ে চারে সাকিবরা  

জানা গেলো তামিমের নেপাল যাওয়ার কারণ

জানা গেলো তামিমের নেপাল যাওয়ার কারণ

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং ‘লিভ দ্য গেম’ (ভিডিও)

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং ‘লিভ দ্য গেম’ (ভিডিও)

জয়ের ৭৩, আকবরের ৫১ 

জয়ের ৭৩, আকবরের ৫১ 

অধিনায়কত্ব নিয়ে কী ভাবছেন বাংলাদেশের নতুন কোচ?

আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:২৩

জেমি ডের অধীনে তিন বছর ধরে জাতীয় দলের অধিনায়কত্ব করেছেন জামাল ভূঁইয়া। নতুন কোচ আসায় নেতৃত্বের পরিবর্তন নিয়েও আলোচনা হচ্ছে খুব। অস্কার ব্রুজনের অধীনে কে অধিনায়ক থাকবেন—জামাল নাকি নতুন কেউ? স্প্যানিশ এই কোচ কিন্তু জামালের ওপরই আস্থা রাখছেন।

বুধবার অনুশীলন শেষে ব্রুজন বলেছেন, ‘অধিনায়কত্ব নিয়ে কেন প্রশ্ন উঠলো আমি বুঝতে পারছি না। আমরা ধারাবাহিকতায় বিশ্বাসী। আহামরি কোনও পরিবর্তনের পরিকল্পনা আমাদের নেই। জামাল অধিনায়ক হিসেবে ভালো করেছে। জামালই অধিনায়ক এবং তাকে আমরা এই ভূমিকাতেই চাই।’

প্রথম দিনের অনুশীলনে ২৭ খেলোয়াড়ের ফিটনেস বোঝার চেষ্টা করেছেন ব্রুজন। সার্বিক মূল্যায়নে ৪৪ বছর বয়সী কোচ বলেছেন, ‘কিছু খেলোয়াড় তিন সপ্তাহ আগে লিগের খেলা শেষ করেছে, কেউ তিন দিন আগে। বিষয়গুলো বিবেচনায় নিয়ে তাদের বর্তমান ফিটনেসের অবস্থা বোঝার চেষ্টা করেছি। তিন-চারটা সেশনের পর ফিজিক্যাল পার্টের বিষয়টা আমরা সেভাবে দেখবো না। পরে টেকনিক্যাল এবং ট্যাকটিক্যাল বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করবো।’

এতদিন বসুন্ধরা কিংসের কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন ব্রুজন। এই প্রথম লাল-সবুজ দলের দায়িত্ব তার কাঁধে। তাই স্প্যানিশ কোচও বিষয়টি অন্যভাবে দেখছেন, ‘ক্লাব-জাতীয় দলের দায়িত্বের বিষয়টি ভিন্ন। শুধু বলতে পারি, ক্লাবের হয়ে ১৩ মাস অনেক কাজ করার পর মুক্ত বাতাসে এসেছি, বাকিদেরও মনে হয় একই মনোভাব। এতদিন একই খেলোয়াড় নিয়ে কাজ করেছি, এখন নতুনদের নিয়ে কাজ করছি। আমি মনে করি, এটা হয়তো সবার জন্যই ভালো।’

মালদ্বীপে ১ থেকে ১৬ অক্টোবর হবে সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ। তার আগে অনুশীলন ম্যাচ খেলার কোনও সম্ভাবনা নেই। ব্রুজন তাতে কোনও সমস্যা দেখছেন না, ‘ছেলেদের ফিটনেস ভালো। একটি-দুটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে পারলে হয়তো ভালো হতো। কিন্তু এটাকে আমি অজুহাত হিসেবে নেবো না। আমরা কম্পিটিশন টাইমের মধ্যে চলে এসেছি। এখন আমাদের গুরুত্বপূর্ণ দিকে দৃষ্টি দিতে হবে, কোনও পরিকল্পনায় খেলবো সেটা নিয়ে ভাবতে হবে।’

শেষ মুহূর্তে দলে যুক্ত হয়েছেন ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার মোহাম্মদ হৃদয়। তার অন্তর্ভুক্তি হাঠৎ হলেও বিষয়টি ইতিবাচকভাবেই দেখছেন ব্রুজন, ‘আমাদের তরুণ খেলোয়াড় প্রয়োজন, তারা দেশের ভবিষ্যৎ। কেবল কিংসের বিরুদ্ধেই নয়, লিগের শেষ তিন-চারটা ম্যাচে ও (হৃদয়) খুব ধারাবাহিক আর ইম্প্রেসিভ ছিল। ফিজিক্যালি খুবই শক্তিশালী। এখানে সিনিয়র-জুনিয়র কোনও বিষয় নয়, পারফরম্যান্সই মূল বিষয়।’

 

/টিএ/এফআইআর/এমওএফ/

সম্পর্কিত

বাংলাদেশ দলের জার্সি পরেও আবেগাক্রান্ত নন কিংসলে!

বাংলাদেশ দলের জার্সি পরেও আবেগাক্রান্ত নন কিংসলে!

ব্রুজন যা চায় সেটার সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে: জামাল ভূঁইয়া

ব্রুজন যা চায় সেটার সঙ্গে মানিয়ে নিতে হবে: জামাল ভূঁইয়া

বার্সেলোনার রাডারে থাকা কোচেরা কে কী বলছেন

বার্সেলোনার রাডারে থাকা কোচেরা কে কী বলছেন

এমবাপ্পের আচরণ নিয়ে প্রশ্ন প্রতিপক্ষ কোচের

এমবাপ্পের আচরণ নিয়ে প্রশ্ন প্রতিপক্ষ কোচের

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং ‘লিভ দ্য গেম’ (ভিডিও)

আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:২৭

শুরু হয়ে গেছে বিশ্বকাপের উন্মাদনা। আগামী ১৭ অক্টোবর পর্দা উঠবে কুড়ি ওভারের বিশ্বকাপের। করোনাকালে আসরটির উন্মাদনা বাড়াতে আইসিসি প্রকাশ করেছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের অফিসিয়াল থিম সং ‘লিভ দ্য গেম’। 

বৃহস্পতিবার  আইসিসির ওয়েবসাইট ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে একযোগে প্রকাশ করা হয় এই সং। প্রকাশিত গানটি কম্পোজ করেছেন ভারতের অমিত ত্রিবেদী। গানটির ভিডিওটি অ্যানিমেটেড চরিত্র নিয়ে বানানো। সেখানে দেখা গেছে বিরাট কোহলি, কিয়েরন পোলার্ড, রশিদ খান ও গ্লেন ম্যাক্সওয়েলদের কার্টুন চরিত্র। এনিমেটেড চেহারায় দেখানো হয়েছে তাদের নিয়ে বিশ্বকাপ উন্মাদনায় মত্ত ক্রিকেটভক্তরা। 

এছাড়া সমর্থকরা কীভাবে তাদের প্রিয় ক্রিকেটারের সাক্ষাৎ পাচ্ছেন, তাদের সঙ্গে খেলছেন, উল্লাসে মেতে উঠছেন- সবই দেখানো হয়েছে ভিডিওটিতে। এই থিম সংয়ের এনিমেশন তৈরিতে কাজ করেছেন মোট ৪০ জন কর্মী।

থিম সং নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন পোলার্ড-ম্যাক্সওয়েলরা। পোলার্ড বলেছেন, ‘বারবার টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট প্রমাণ করেছে, এটি সব বয়সের ভক্তদের মাঝে কতটা উত্তেজনা ছড়ায়।’

ম্যাক্সওয়েল বলেছেন, ‘টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হতে যাচ্ছে অন্যতম কঠিন ও সবচেয়ে উত্তেজনাকর প্রতিযোগিতা। ট্রফির জন্য অনেক দল লড়বে এবং প্রত্যেক ম্যাচ হবে ফাইনালের মতো। প্রতিপক্ষের সঙ্গে লড়তে আমাদের আর তর সইছে না।’

১৭ অক্টোবর উদ্বোধনী দিনে গ্রুপ পর্বে ‘বি’ গ্রুপের ওমান-পাপুয়া নিউগিনির ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে আসর। ‘এ’ গ্রুপের বাংলাদেশ-স্কটল্যান্ডও লড়বে একই দিনে। গ্রুপ পর্বের সেরা চারটি দল যাবে সুপার টুয়েলভে। পুরো আসরটি গড়াবে ওমান ও আমিরাতে।

/আরআই/এফআইআর/

সম্পর্কিত

টানা দুই জয়ে চারে সাকিবরা  

টানা দুই জয়ে চারে সাকিবরা  

জানা গেলো তামিমের নেপাল যাওয়ার কারণ

জানা গেলো তামিমের নেপাল যাওয়ার কারণ

বোলিং অ্যাসেসমেন্টের জন্য বিদেশে পাঠানো হবে হাসানকে

বোলিং অ্যাসেসমেন্টের জন্য বিদেশে পাঠানো হবে হাসানকে

জয়ের ৭৩, আকবরের ৫১ 

জয়ের ৭৩, আকবরের ৫১ 

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

টানা দুই জয়ে চারে সাকিবরা  

টানা দুই জয়ে চারে সাকিবরা  

জানা গেলো তামিমের নেপাল যাওয়ার কারণ

জানা গেলো তামিমের নেপাল যাওয়ার কারণ

বোলিং অ্যাসেসমেন্টের জন্য বিদেশে পাঠানো হবে হাসানকে

বোলিং অ্যাসেসমেন্টের জন্য বিদেশে পাঠানো হবে হাসানকে

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং ‘লিভ দ্য গেম’ (ভিডিও)

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের থিম সং ‘লিভ দ্য গেম’ (ভিডিও)

জয়ের ৭৩, আকবরের ৫১ 

জয়ের ৭৩, আকবরের ৫১ 

বোলিংয়ের পর আফগান ব্যাটসম্যানদেরও দাপট

বোলিংয়ের পর আফগান ব্যাটসম্যানদেরও দাপট

বাংলাদেশ সফর করবেন আফগান ক্রিকেট প্রধান

বাংলাদেশ সফর করবেন আফগান ক্রিকেট প্রধান

বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়ার দুশ্চিন্তা বাড়লো

বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়ার দুশ্চিন্তা বাড়লো

পাক মন্ত্রীর দাবি, নিউজিল্যান্ড দলকে হুমকি দেওয়া হয়েছে ভারত থেকে

পাক মন্ত্রীর দাবি, নিউজিল্যান্ড দলকে হুমকি দেওয়া হয়েছে ভারত থেকে

হায়দরাবাদকে হারিয়ে শীর্ষে দিল্লি

হায়দরাবাদকে হারিয়ে শীর্ষে দিল্লি

সর্বশেষ

আসিয়ানের প্রতি অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করলো যুক্তরাষ্ট্র

আসিয়ানের প্রতি অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করলো যুক্তরাষ্ট্র

সুম্বা দ্বীপের নাচুনে গাছ! (ফটোফিচার)

সুম্বা দ্বীপের নাচুনে গাছ! (ফটোফিচার)

ভোক্তা প্রতারণা বন্ধে কার্যকর উপায় বের করার নির্দেশ রাষ্ট্রপতির

ভোক্তা প্রতারণা বন্ধে কার্যকর উপায় বের করার নির্দেশ রাষ্ট্রপতির

বৈশ্বিক সুদৃঢ় খাদ্য ব্যবস্থা গড়ে তোলার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর

বৈশ্বিক সুদৃঢ় খাদ্য ব্যবস্থা গড়ে তোলার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর

বিশ্বে ‘ভ্যাকসিন বিভাজন’ দূর করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

বিশ্বে ‘ভ্যাকসিন বিভাজন’ দূর করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

© 2021 Bangla Tribune