X
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১১ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

হাতেম সরকার স্পোর্টিং ক্লাবের বৃক্ষরোপণ

আপডেট : ১৮ আগস্ট ২০২১, ০৪:১৮

ময়মনসিংহ জেলার গফরগাঁও উপজেলাধীন ৭নং মশাখালী ইউনিয়নের কান্দি গ্রামে ‘হাতেম সরকার স্পোর্টিং ক্লাব’ বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি আয়োজন করেছে। সম্প্রতি আয়োজিত এই কর্মসূচির লক্ষ্য ছিল বর্তমান ও ভবিষ্যত প্রজন্মদের জন্য একটি সুন্দর পরিবেশ ও বাসযোগ্য পৃথিবী গড়া।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হাতেম সরকার বাড়ী জামে মসজিদ-এর সভাপতি মো: নূরুল ইসলাম।

এসময় ক্লাব সহ-সভাপতি হামিদা আক্তার, সেক্রেটারি মো: আরিফুল ইসলামসহ ক্লাবের অন্যান্য সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

/এএ/

সম্পর্কিত

আন্তর্জাতিক যুব দিবস উপলক্ষে সেমিনার অনুষ্ঠিত

আন্তর্জাতিক যুব দিবস উপলক্ষে সেমিনার অনুষ্ঠিত

শিশুদের জলবায়ু ঘোষণাপত্র কপ-২৬’র এজেন্ডায় অন্তর্ভুক্ত করা জরুরি: স্পিকার

আপডেট : ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৮:০৮

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এমপি বলেছেন, শিশুরাই হতে পারে পরিবর্তনের নিয়ামক। শিশু ও নীতিনির্ধারকদের মধ্যে সেতুবন্ধন তৈরি করছে শিশুদের জলবায়ু ঘোষণাপত্র। শিশুরা কেমন গ্রহ ও পৃথিবী চায়, তা নীতিনির্ধারকদের জানাতে পারছে। জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ে শিশুদের চিন্তাধারাকে কপ-২৬ এর বৈশ্বিক এজেন্ডায় অন্তর্ভুক্ত করা জরুরি। এক্ষেত্রে, বাংলাদেশ বৈশ্বিক প্লাটফর্মে নেতৃত্ব দিতে পারে।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) জাতীয় সংসদ ভবনের এলডি হলে ইউনিসেফ বাংলাদেশ আয়োজিত ‘শিশুদের জলবায়ু ঘোষণাপত্র হস্তান্তর’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্পিকার এসব কথা বলেন।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জলবায়ু ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলোর ফোরামে নেতৃত্ব দিয়ে থাকেন। তিনিই প্রথম নিজস্ব অর্থায়নে বাংলাদেশে জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট গঠন করেছিলেন। বহুমুখী পদক্ষেপ গ্রহণের কারণে তিনি ‘চ্যাম্পিয়ন অফ দি আর্থ’ পুরস্কার লাভ করেছেন।

স্পিকার বলেন, বিশ্বব্যাপী সকলে জলবায়ু চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন। বাংলাদেশ এক্ষেত্রে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ দেশগুলোর একটি, যদিও বাংলাদেশ এর জন্য দায়ী নয়।

পার্লামেন্টারি ককাস অন চাইল্ড রাইটসের সভাপতি মো. শামসুল হক টুকু এমপি’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী শাহাব উদ্দিন এমপি এবং আরমা দত্ত এমপি  বক্তব্য রাখেন।

ইউনিসেফ বাংলাদেশ প্রতিনিধি শেলডন ইয়েট অনুষ্ঠানে সূচনা বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

/ইএইচএস/এমআর/

সম্পর্কিত

মাদকের নতুন রুটের বিষয়ে ভারতকে জানালো বাংলাদেশ

মাদকের নতুন রুটের বিষয়ে ভারতকে জানালো বাংলাদেশ

প্রশ্নফাঁসের গুজব সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী

প্রশ্নফাঁসের গুজব সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী

করোনা আক্রান্ত হলে হাসপাতালে পরীক্ষার ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী 

করোনা আক্রান্ত হলে হাসপাতালে পরীক্ষার ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী 

রেইনট্রিতে শিক্ষার্থী ধর্ষণ মামলার রায় ১১ নভেম্বর

রেইনট্রিতে শিক্ষার্থী ধর্ষণ মামলার রায় ১১ নভেম্বর

মাদকের নতুন রুটের বিষয়ে ভারতকে জানালো বাংলাদেশ

আপডেট : ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৮:০১

ভারত ও মিয়ানমার থেকে আসা মাদকের বিভিন্ন রুটের বিষয়ে দিল্লিকে তথ্য দিয়েছে বাংলাদেশ।  সমুদ্রপথে মাদক চোরাচালান বৃদ্ধি পাওয়ায় বিষয়টিও তাদের জানানো হয়েছে।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) বাংলাদেশের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর ও ভারতের নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর মধ্যে মহাপরিচালক পর্যায়ে অনুষ্ঠিত সপ্তম দ্বিপাক্ষিক সম্মেলনে এই তথ্য জানিয়েছে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরে মহাপরিচালক আব্দুস সবুর মণ্ডল।  সকাল সাড়ে ৮ টা থেকে বিকাল পৌনে ৩ টা পর্যন্ত অনলাইনে এই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে আরও ছয়টি দ্বিপাক্ষিক সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভা পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরে মহাপরিচালক আব্দুস সবুর মণ্ডল বলেন, ভারতের সঙ্গে মাদক পাচারের নতুন নতুন রুট নিয়ে আলোচনা হয়েছে।  আমরা তাদের কিছু তথ্য দিয়েছি। তারাও কিছু তথ্য দিয়েছে।

তিনি বলেন, দুই দেশের সীমান্ত থাকায় উভয়দেশের আন্তর্জাতিক ভাবে গুরুত্ববহন করে।  আঞ্চলিক নিরাপত্তার জন্য দুই দেশই ভূমিকা রাখবে।

ইয়াবা নিয়েও আলোচনা হয়েছে। ভারতের কিছু অঞ্চল দিয়ে বাংলাদেশে ইয়াবা পাচার হয়। সেটিও ভারতকে অবহিত করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

সাম্প্রতিক মাদক পাচারে সমুদ্রপথ ব্যবহার করা হচ্ছে— এটি গুরুত্ব দিয়ে আলোচনা করা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সমুদ্রপথে ইয়াবা পাচার বেড়েছে। কারণ স্থলপথগুলোতে কড়াকড়িতে হয়তো সমুদ্রপথে আসছে।

ইয়াবার তুলনায় আইস আরও বেশি তীব্র আকার ধারণ করেছে। এবিষয়ে উভয় দেশে তৎপর রয়েছে বলেও জানান ডিজি।

তিনি বলেন, আমাদেরর সমস্যাগুলো ভারতকে বলেছি। তারা সীমান্তের অনেকগুলো ফেনসিডিল কারখানা বন্ধ করে দিয়েছে।

মিয়ানমারের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক রক্ষা করে মাদক সমস্যা সমাধানে অগ্রসর হতে হবে জানিয়ে মহাপরিচালক বলেন, গত ডিসেম্বরে মিয়ানমারের সঙ্গে আলোচনা হয়েছে, তারা আমাদের বিষয়গুলো জানে। মিয়ানমারের সরকার যদি ব্যবস্থা নিতো তাহলে হয়তো এরকম আসতো না।

তিনি বলেন, ভারতের সঙ্গে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দ্বিপাক্ষিক চুক্তি সাক্ষরিত হয়েছে। উভয় দেশই বেশ কিছু আন্তর্জাতিক এবং আঞ্চলিক সংস্থার (বিমসটেক, সার্ক, কমনওয়েলথ ইত্যাদি) সদস্য। এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ এবং ভারত মাদকদ্রব্য চোরাচালান এবং মাদক সন্ত্রাস নিয়ন্ত্রণে একযোগে কাজ করছে।

সভায় উভয় পক্ষই সমুদ্র পথকে ব্যবহার করে মাদক চোরাচালান এবং মাদক সন্ত্রাসীদের উদ্ভাবিত নতুন নতুন রুট সম্পর্কিত তথ্য বিনিময়, কেমিক্যাল ব্যবস্থাপনা বিষয়ক নীতিমালা ও বিধি-বিধান নিয়ে তথ্য বিনিময়, ফলপ্রসূ অপারেশনের মাধ্যমে অর্জিত অভিজ্ঞতা বিনিময়, মাদক বিষয়ক প্রাসঙ্গিক অপরাপর সম্যক তথ্য বিনিময়ের বিষয়ে গুরুত্ব প্রদান করা হয়।

তিনি বলেন, আমরা বিশ্বাস করি, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর ও নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো আগামীতে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে আরও বেগবান করবে এবং আঞ্চলিক পর্যায়ে মাদকদ্রব্য এবং মাদক সন্ত্রাসের বিস্তার নিয়ন্ত্রণে আরও অধিকতর ভূমিকা রাখবে।

/এআরআর/এমআর/

সম্পর্কিত

যাত্রাবাড়ীতে পিকআপ ভ্যানের ধাক্কায় প্রাণ গেলো নারী পথচারীর

যাত্রাবাড়ীতে পিকআপ ভ্যানের ধাক্কায় প্রাণ গেলো নারী পথচারীর

ইউনিফর্ম পরা দেখলেই ডিবি বা র‌্যাব মনে করবেন না: হারুন

ইউনিফর্ম পরা দেখলেই ডিবি বা র‌্যাব মনে করবেন না: হারুন

নারী সহকর্মীর ব্যক্তিগত ছবি ফেসবুকে ছড়ানোর অভিযোগে সাংবাদিক গ্রেফতার

নারী সহকর্মীর ব্যক্তিগত ছবি ফেসবুকে ছড়ানোর অভিযোগে সাংবাদিক গ্রেফতার

আইনজীবী আবদুল বাসেতের মৃত্যুতে নিম্ন আদালতের বিচার কার্যক্রম স্থগিত

আইনজীবী আবদুল বাসেতের মৃত্যুতে নিম্ন আদালতের বিচার কার্যক্রম স্থগিত

প্রশ্নফাঁসের গুজব সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী

আপডেট : ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৫২

প্রশ্নফাঁসের গুজব সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। বুধবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে সচিবালয়ে ২০২১ সালের এসএসসি, দাখিল, এসএসসি (ভোকেশনাল) ও দাখিল (ভোকেশনাল) পরীক্ষা নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এসব তথ্য জানান।

সোশাল মিডিয়া গুজব নিয়ে পদক্ষেপ নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে সভায় এটা আলোচনা হয়েছে। গুজব যেন বন্ধ করা যায়। সব গুজব বন্ধ করা যাবে কিনা, তবে পরীক্ষার জন্য যেটি ক্ষতিকর সেটা প্রশ্ন ফাঁসের গুজব। সেটি আমরা গত কয়েক বছর থেকে এটা যে গুজব সেটা জানতে পেরেছে। যারাই এ ধরনের গুজবে জড়িত থাকবে, প্রশ্নফাঁসের চেষ্টায় জড়িত থাকলে তাদের ধরার ব্যাপারে সমস্ত গোয়েন্দা সংস্থা এখন থেকেই তীক্ষ্ণ নজরদারি রয়েছে।

টিআইবির প্রতিবেদনে শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির বিষয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা পুরো রিপোর্টটি দেখেছি। পুরো রিপোর্টটিতে অনেক অসঙ্গতি আছে। শিক্ষক নিয়োগে যে কথাটি বলেছে, এখন সরকারিতে পিএসসির মাধ্যমে এবং বেসরকারি শিক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয় এনটিআরসিএ। শুধু প্রধান শিক্ষকের বিষয়টি কিংবা গ্রন্থাগারিকদের বিষয়টা এনটিআরসিএর মাধ্যমে হবে। তারা যে কথাটি বলেছেন সেটা এখন আর প্রযোজ্য নয়। ম্যানেজিং কমিটির বিষয় নিয়ে যা বলেছে সে বিষয়গুলো নিয়ে বহু আগে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সে কারণে ওই রিপোর্টের সেই কারণে আর খুব ভ্যালু আমি দেখি না। কিন্তু কেউ কোনও বিষয় খতিয়ে দেখলে আমাদের জন্য ভালো, আমাদের জন্য স্বচ্ছতা নিশ্চিত করা অনেক সহজ হয়। তবে সেটি নিরপেক্ষভাবে হতে হবে।

/এসএমএ/এমআর/

সম্পর্কিত

করোনা আক্রান্ত হলে হাসপাতালে পরীক্ষার ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী 

করোনা আক্রান্ত হলে হাসপাতালে পরীক্ষার ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী 

বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ্য শিক্ষক নিয়োগের আহ্বান ইউজিসি’র

বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ্য শিক্ষক নিয়োগের আহ্বান ইউজিসি’র

এসএসসি পরীক্ষা দেবে ২২ লাখ ২৭ হাজার

এসএসসি পরীক্ষা দেবে ২২ লাখ ২৭ হাজার

৮ থেকে ২৫ নভেম্বর কোচিং সেন্টার বন্ধ

৮ থেকে ২৫ নভেম্বর কোচিং সেন্টার বন্ধ

করোনা আক্রান্ত হলে হাসপাতালে পরীক্ষার ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী 

আপডেট : ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৪৭

আগামী ১৪ নভেম্বর থেকে অনুষ্ঠেয় এসএসসি পরীক্ষার সময় করোনা আক্রান্ত হলে এবং শিক্ষার্থী চাইলে হাসপাতালে থেকে পরীক্ষা দিতে পারবে।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) সচিবালয়ে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

পরীক্ষার্থী কেউ করোনায় আক্রান্ত হয়ে গেলে করণীয় সম্পর্কে জানতে চাইলে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘যদি কেউ আক্রান্ত হন, সে তো পরীক্ষা দিতে আসতে পারবে না। তারপরও যদি কেউ পরীক্ষা দিতে চায়, তাহলে সেক্ষেত্রে স্ব স্ব বোর্ড  সিদ্ধান্ত নিয়ে, যদি  পরীক্ষার্থী হাসপাতালে ভর্তি থাকে, তাহলে সেই হাসপাতালের তত্ত্বাবধানে ব্যবস্থা করে পরীক্ষা নিতে পারে। সেটা আমরা অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নেবো।’  

ডা. দীপু মনি বলেন, ‘সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। সামাজিক দূরত্ব রাখার জন্য অভিভাবকদের অনুরোধ করছি। অভিভাবকরা কেন্দ্রে না আসলেই ভালো। যদি আসতেই হয়— তাহলে একজনের বেশি যেন না আসেন। যদি আসেন তারা যেন কেন্দ্রের সামনে ভিড় না করেন। তারা যেন দূরে অবস্থান করেন।’

১২-১৭ বছর বয়সীদের টিকা কার্যক্রম শুরুর পর এসএসসি পরীক্ষার্থীদের অগ্রাধিকার দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘অবশ্যই যারা পরীক্ষার্থী, আমরা একেবারেই স্কুল ধরে ধরে (টিকা) দেবো। যারা পরীক্ষার্থী তাদেরকে সর্বাগ্রে যেন দেওয়া হয়।’

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘এখনও পর্যন্ত যে পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে, তাতে হয়তো একই দিনে এক স্কুলে সবারই টিকা দেওয়া হয়ে যাবে। সেক্ষেত্রে পরীক্ষার্থী এবং ১২ বছরের বেশি যারা, তারা সবাই পেয়ে যাবে।’

বিষয় কমানোয় মূল্যায়নের সমস্যা হবে কিনা, জানতে চাইলে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘আমার মনে হয় না। গতবছর আমরা সাবজেক্ট ম্যাপিং করে যেটা করেছি, সেটার সঙ্গে তার আগের তিন বছরের ফলাফল মিলিয়ে দেখেছি। মনে হয়, যেন পরীক্ষা নিয়েই ফলাফল দেওয়া হয়েছে। এতটাই সামঞ্জস্যতা ছিল।’  

বিভিন্ন প্রতিবেদনে শিক্ষার্থী ঝরে পড়ার তথ্য এবং এসএসসিতে প্রায় দুই লাখ পরীক্ষার্থী বেড়ে যাওয়া নিয়ে এক প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, ‘আপনি এখন কী কনক্লুশন ড্র করবেন, এটা আপনার ওপরে। আমাদের তথ্য বলছে, এবছর প্রায় দু্ই লাখের কাছাকাছি পরীক্ষার্থী বেড়েছে।’

নির্বাচনি পরীক্ষা না হওয়ায় পরীক্ষার্থী বেড়েছে কিনা  জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ‘হতে পারে।’

 

/এসএমএ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

প্রশ্নফাঁসের গুজব সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী

প্রশ্নফাঁসের গুজব সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী

রেইনট্রিতে শিক্ষার্থী ধর্ষণ মামলার রায় ১১ নভেম্বর

রেইনট্রিতে শিক্ষার্থী ধর্ষণ মামলার রায় ১১ নভেম্বর

‘অপসংস্কৃতির বিরুদ্ধে সামাজিকভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে’

‘অপসংস্কৃতির বিরুদ্ধে সামাজিকভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে’

বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ্য শিক্ষক নিয়োগের আহ্বান ইউজিসি’র

বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ্য শিক্ষক নিয়োগের আহ্বান ইউজিসি’র

রেইনট্রিতে শিক্ষার্থী ধর্ষণ মামলার রায় ১১ নভেম্বর

আপডেট : ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৩২

রাজধানীর বনানীতে রেইনট্রি হোটেলে দুই শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের মামলায় সাফাত আহমেদসহ পাঁচ জনের বিরুদ্ধে রায় ঘোষণার জন্য আগামী ১১ নভেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৭ এর বিচারক বেগম  কামরুন্নাহারের আদালত রায় ঘোষণার জন্য নতুন এই দিন ধার্য করেন।

বুধবার এ মামলার রায় ঘোষণার জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবী আব্দুল বাসেত মজুমদারের মৃত্যুতে ঢাকার নিম্ন আদালতের সকল বিচারিক কার্যক্রম স্থগিত করা হয়েছে। তাই বিচারক রায় ঘোষণার জন্য নতুন তারিখ ধার্য করেন।

এ মামলায় সাফাত ছাড়া অপর আসামিরা হলেন— সাফাতের বন্ধু নাঈম আশরাফ ওরফে এইচএম হালিম, সাদমান সাকিফ, দেহরক্ষী রহমত আলী ও গাড়িচালক বিল্লাল হোসেন।

গত ৩ অক্টোবর মামলার উভয়পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুনানি শেষ হয়। এরপর রায় ঘোষণার জন্য ১২ অক্টোবর দিনটি ধার্য করেন আদালত। কিন্তু অসুস্থতার কারণে বিচারক ছুটিতে থাকায় ওই দিন রায় ঘোষণা হয়নি।ফলে রায়ের জন্য নতুন দিন ধার্য করা হয় ২৭ অক্টোবর।

এর আগে ২২ আগস্ট একই আদালতে আসামিরা আত্মপক্ষ সমর্থনে নিজেদের নির্দোষ বলে দাবি করেছেন। মামলায় চার্জশিটভুক্ত ৪৭ জন সাক্ষীর মধ্যে ২২ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেছেন আদালত।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ৬ মে পাঁচ জন আসামির বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করা হয়। এর একমাস পর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশের উইমেন সাপোর্ট অ্যান্ড ইনভেস্টিগেশন ডিভিশনের (ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টার) পরিদর্শক ইসমত আরা এমি আদালতে আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। ২০১৭ সালের ১৩ জুলাই আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।

মামলার অভিযোগে জানা যায়, ২০১৭ সালের ২৮ মার্চ রাত ৯টা থেকে পরদিন সকাল ১০টা পর্যন্ত আসামিরা মামলার বাদী এবং তার বান্ধবী ও বন্ধুকে আটকে রাখে। অস্ত্র দেখিয়ে ভয়-ভীতি প্রদর্শন ও অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। পরে বাদী ও তার বান্ধবীকে জোর করে একটি কক্ষে নিয়ে যায় আসামিরা। সেখানে বাদীকে সাফাত আহমেদ ও তার বান্ধবীকে নাঈম আশরাফ একাধিকবার ধর্ষণ করে।

অভিযোগে আরও বলা হয়, আসামি সাদমান সাকিফকে দুই বছর ধরে চেনেন মামলার বাদী। তার মাধ্যমে ওই ঘটনার ১০-১৫ দিন আগে সাফাতের সঙ্গে দুই শিক্ষার্থীর পরিচয় হয়। পরে সাফাত তার জন্মদিনের অনুষ্ঠানের কথা বলে ওই দুই জনকে আমন্ত্রণ জানালে তারা যেতে সম্মত হন। আমন্ত্রণ জানাতে গিয়ে তাদের বলা হয়েছিল, অনেক লোকজনের উপস্থিতিতে বড় একটি অনুষ্ঠান হবে।

ঘটনার রাতে সাফাতের গাড়িচালক বিল্লাল ও দেহরক্ষী তাদের দুই জনকে বনানীর ২৭ নম্বর রোডে অবস্থিত হোটেল রেইনট্রিতে নিয়ে যায়। সেখানে তারা অন্য কোনও লোকজন দেখতে পাননি। কোনও আয়োজন না দেখে তারা চলে যেতে চাইলে আসামিরা বাদীর বন্ধু শাহরিয়ারের কাছ থেকে গাড়ির চাবি  নিয়ে তাকে মারধর করে। পরে বাদী ও তার বান্ধবীকে হোটেলের একটি রুমে নিয়ে ধর্ষণ করে। এ সময় সাফাত তার গাড়িচালককে ধর্ষণের ঘটনার ভিডিও ধারণ করতে বলেন। বাদীকে নাঈম আশরাফ মারধরও করেন।

 

/এমএইচজে/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

করোনা আক্রান্ত হলে হাসপাতালে পরীক্ষার ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী 

করোনা আক্রান্ত হলে হাসপাতালে পরীক্ষার ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী 

‘অপসংস্কৃতির বিরুদ্ধে সামাজিকভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে’

‘অপসংস্কৃতির বিরুদ্ধে সামাজিকভাবে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে’

বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ্য শিক্ষক নিয়োগের আহ্বান ইউজিসি’র

বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগ্য শিক্ষক নিয়োগের আহ্বান ইউজিসি’র

হাজারো মানুষের উপস্থিতিতে বাসেত মজুমদারের  জানাজা সম্পন্ন

হাজারো মানুষের উপস্থিতিতে বাসেত মজুমদারের  জানাজা সম্পন্ন

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

আন্তর্জাতিক যুব দিবস উপলক্ষে সেমিনার অনুষ্ঠিত

আন্তর্জাতিক যুব দিবস উপলক্ষে সেমিনার অনুষ্ঠিত

সর্বশেষ

আরও ৩৫ লাখ ডোজ ফাইজারের টিকা উপহার দিয়েছে যুক্তরাষ্ট

আরও ৩৫ লাখ ডোজ ফাইজারের টিকা উপহার দিয়েছে যুক্তরাষ্ট

বাংলাদেশের কাছে যেসব অস্ত্র বিক্রি করতে চায় যুক্তরাজ্য

বাংলাদেশের কাছে যেসব অস্ত্র বিক্রি করতে চায় যুক্তরাজ্য

শিশুদের জলবায়ু ঘোষণাপত্র কপ-২৬’র এজেন্ডায় অন্তর্ভুক্ত করা জরুরি: স্পিকার

শিশুদের জলবায়ু ঘোষণাপত্র কপ-২৬’র এজেন্ডায় অন্তর্ভুক্ত করা জরুরি: স্পিকার

আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের নতুন গান (ভিডিও)

আহমেদ ইমতিয়াজ বুলবুলের নতুন গান (ভিডিও)

সমৃদ্ধির ২২ বছর উদযাপন করলো প্রিমিয়ার ব্যাংক

সমৃদ্ধির ২২ বছর উদযাপন করলো প্রিমিয়ার ব্যাংক

© 2021 Bangla Tribune