X
সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ৯ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

যে খবরে কমছে চালের দাম

আপডেট : ১৮ আগস্ট ২০২১, ২০:০২

দেশের বাজারে চালের দাম বেড়ে যাওয়ায় আমদানি শুল্ক কমিয়ে বেসরকারি পর্যায়ে ভারত থেকে চাল আমদানির সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। পাশের দেশ থেকে চাল আমদানির এমন খবরে অটোমিল মালিকরা চাল ছেড়ে দেওয়ায় কেজিতে কমেছে ২ থেকে ৪ টাকা কমেছে। এদিকে, চালের দাম কিছুটা কমায় স্বস্তি ফিরেছে নিম্ন আয়ের সাধারণ মানুষের মাঝে।

বুধবার (১৮ আগস্ট) সরেজমিনে হিলি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বাজারে সব দোকানেই চালের ভালো সরবরাহ রয়েছে। তবে ক্রেতার উপস্থিতি তুলনামূলক কম। সব ধরনের চালের দাম কেজি প্রতি ২ থেকে ৪ টাকা করে কমেছে। আটাশ জাতের চাল বর্তমানে ৪৬ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে; যা ৪৮ থেকে ৫০ টাকা ছিল। এছাড়া মিনিকেট জাতের চাল কমে ৫২ থেকে ৫৪ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে; যা আগে ৫৬ থেকে ৫৮ টাকা ছিল।

বাজারে চাল কিনতে আসা ইসরাইল হোসেন বলেন, ‘করোনার কারণে কাজকর্ম তেমন না থাকায় আয় অনেকটা কমে গেছে। এমন অবস্থায় যেভাবে গরিবের খাওয়ার মোটা চালের দাম বাড়ছিল তাতে চরম বিপাকে পড়তে হয়েছে। তবে সম্প্রতি ভারত থেকে চাল আমদানির খবরে কেজি প্রতি ২ থেকে ৪ টাকা কমেছে। এতে কিছুটা স্বস্তি ফিরেছে। আমরা এত কিছু বুঝি না, সরকার আমদানি করবে বা অন্যকিছু করবে করুক আমরা চাই, চালের দাম যেন কম থাকে।’

হিলি বাজারের চাল বিক্রেতা স্বপন কুমার ও অনুপ বসাক বলেন, ‘দেশে বোরো মৌসুমের ধানের দাম বেশি থাকায় চালের উৎপাদন খরচ বেশি হওয়ায় দাম বেশি বলে জানিয়েছিল অটোমিল মালিকরা। প্রায় প্রতিদিনই মোকামে চালের দাম বেড়েছে। এতে করে চালের বাজারে অস্থিতিশীল অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। আমাদের বাড়তি দামে কিনতে হচ্ছিল, ফলে বাড়তি দামে বিক্রি করতে হচ্ছিল। তবে আগামী ৪/৫ দিনের মধ্যেই ভারত থেকে হিলিসহ দেশের বিভিন্ন স্থলবন্দর দিয়ে চাল আমদানি শুরু হবে, এমন খবরে অটোমিল মালিকরা মজুত করা চাল বাজারে ছাড়তে শুরু করেছে, ফলে আমরা আগে যে দামে কিনতাম তার চেয়ে কেজিতে ২ থেকে ৩ টাকা করে কম দাম চাচ্ছে, এরপরও চাল নিতে বলছে। এদিকে ভারত থেকে চাল আমদানির খবরে ইতোমধ্যেই চালের দাম কেজি প্রতি ২ থেকে ৪ টাকা করে কমেছে। তবে বাজারে চালের ক্রেতা সংকট দেখা দিয়েছে।’

হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রফতানিকারক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, দেশে চালের বাজার স্থিতিশীল রাখতে সরকার চালের আমদানি শুল্ক কমিয়ে ইতোমধ্যেই প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। একইসঙ্গে বেসরকারি পর্যায়ে চাল আমদানির জন্য দেশের বিভিন্ন স্থানের আমদানিকারকদের কাছ থেকে আবেদন আহ্বান করেছে খাদ্য মন্ত্রণালয়। আগামী ২৫ আগস্ট পর্যন্ত আবেদনের সময়সীমা রয়েছে। ইতোমধ্যেই হিলি স্থলবন্দরের বেশ কয়েকজন আমদানিকারক চাল আমদানির অনুমতি চেয়ে আবেদন করেছে। যেহেতু ভারতে চালের দাম কম রয়েছে, আমদানির অনুমতির পর বন্দর দিয়ে চাল আমদানি শুরু হলে দেশে চালের বাজারে যে অস্থিতিশীল অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে সেটি কমে আসবে।

উল্লেখ্য, চাল আমদানির ক্ষেত্রে ৬২.৫ শতাংশ শুল্কহার বিদ্যমান ছিল। সম্প্রতি রেয়াতি হারে চাল আমদানির সুযোগ দিয়ে শুল্কহার কমিয়ে গত ১২ আগস্ট এক প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। ইতোমধ্যেই যা কাস্টমসের সার্ভারে সংযুক্ত করা হয়েছে। চাল আমদানির ক্ষেত্রে আমদানি শুল্ক ২৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ১০ শতাংশ করা হয়েছে। একইসঙ্গে সমুদয় রেগুলেটরি ডিউটি থেকে শর্তসাপেক্ষে অব্যাহতি দিয়েছে। খাদ্য মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন পেলে সংশ্লিষ্ট আমদানিকারকরা বর্তমানে ভারত থেকে চাল আমদানির ক্ষেত্রে ২৬ শতাংশ বা এর একটু কম বেশি শুল্ক পরিশোধ করে চাল খালাস করে নিতে পারবেন।

/এফআর/

সম্পর্কিত

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

পুঁজি হারানোর আশঙ্কা পান চাষিদের

পুঁজি হারানোর আশঙ্কা পান চাষিদের

পেঁয়াজ মজুত করে মাথায় হাত পাইকারদের

পেঁয়াজ মজুত করে মাথায় হাত পাইকারদের

সিনহা হত্যা মামলা: ষষ্ঠ দফায় প্রথম দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১১:০৯

সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলায় ষষ্ঠ দফায় প্রথম দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়েছে। সোমবার (২৫ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়। এই দফার সাক্ষ্যগ্রহণ চলবে আগামী ২৭ অক্টোবর পর্যন্ত।

এর আগে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মামলার আসামি টেকনাফ থানার বরখাস্তকৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাসসহ ১৫ জনকে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে আদালতে আনা হয়েছে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট ফরিদুল আলম জানান, আজ ১০ জনকে সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য হাজির করা হয়েছে। সকাল ১০টার দিকে এসআই আমিনুল ইসলামকে দিয়ে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়। পর্যায়ক্রমে সব সাক্ষীর সাক্ষ্য নেওয়া হতে পারে।

এর আগে গত ১০, ১১, ১২ অক্টোবর মামলার পঞ্চম দফার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়েছে। এ নিয়ে বিভিন্ন মেয়াদে এই মামলার প্রথম, থেকে পঞ্চম দফা সাক্ষ্যগ্রহণ সমাপ্ত হয়। এ ছাড়া গত ২৮-২৯ সেপ্টেম্বর দুই দিনে সাক্ষ্য দেন ছেনুয়ারা বেগম, আলী আহমদ, হাম জালাল, ফরিদুল মোস্তফা, সালেহ আহমদ ও বেবি বেগম। 

এ নিয়ে এখন পর্যন্ত চতুর্থ দফায় ২০ জন সাক্ষী তাদের জবানবন্দি দিয়েছেন। এ ছাড়া ২০,২১ ও ২২ সেপ্টেম্বর তিন দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য ২৮ ও ২৯  সেপ্টেম্বর দিন ধার্য করেছিলেন।

তৃতীয় ধাপের প্রথম দিন সাক্ষ্য দেন আব্দুল হামিদ, মোহাম্মদ ফিরোজ ও শওকত আলী নামে তিন জন। দ্বিতীয় দিন সাক্ষ্য দেন মারিশবনিয়া মসজিদের ইমাম হাফেজ জহিরুল ইসলাম ও ডা. রণবীর দেবনাথ। তাদেরকে ১৫ জন আসামিপক্ষের আইনজীবীরা জেরা করেন।

এর আগে দ্বিতীয় ধাপের চার দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয় গত ৮ সেপ্টেম্বর। দ্বিতীয় ধাপের চতুর্থ দিনে সাক্ষ্য দেন ৬ নম্বর সাক্ষী শামলাপুর বায়তুর নুর জামে মসজিদের ইমাম হাফেজ মাওলানা শহিদুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন মেজর (অব.) রাশেদ খান। তার সঙ্গে থাকা সাহেদুল ইসলাম সিফাতকে পুলিশ আটক করে। এরপর সিনহা যেখানে ছিলেন সেই নীলিমা রিসোর্টে ঢুকে তার ভিডিও দলের দুই সদস্য শিপ্রা দেবনাথ ও তাহসিন রিফাত নুরকে আটক করা হয়। পরে তাহসিনকে ছেড়ে দিলেও শিপ্রা ও সিফাতকে গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠায় পুলিশ। এই দুজন পরে জামিনে মুক্তি পান।

সিনহা হত্যার ঘটনায় মোট চারটি মামলা হয়েছে। ঘটনার পরপরই পুলিশ বাদী হয়ে তিনটি মামলা করে। এর মধ্যে দুটি মামলা হয় টেকনাফ থানায়, একটি রামু থানায়। ঘটনার পাঁচ দিন পর অর্থাৎ ৫ আগস্ট কক্সবাজার আদালতে টেকনাফ থানার বরখাস্ত হওয়া ওসি প্রদীপ, বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক লিয়াকত আলীসহ নয় পুলিশের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন সিনহার বড় বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস। চারটি মামলা তদন্তের দায়িত্ব পায় র‍্যাব।

২০২০ সালের ১৩ ডিসেম্বর ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ ১৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা ও র‍্যাব-১৫ কক্সবাজারের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. খাইরুল ইসলাম।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

স্বামীর মৃত্যুর ১৫ মিনিট পর মারা গেলেন স্ত্রী 

স্বামীর মৃত্যুর ১৫ মিনিট পর মারা গেলেন স্ত্রী 

পুকুরে নয়, ঝোপের ভেতর হনুমানের গদা দেখিয়ে দিলেন ইকবাল

পুকুরে নয়, ঝোপের ভেতর হনুমানের গদা দেখিয়ে দিলেন ইকবাল

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপে হামলার ঘটনায় আরও ৪ জন গ্রেফতার

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপে হামলার ঘটনায় আরও ৪ জন গ্রেফতার

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনায় করা মামলা সিআইডিতে

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনায় করা মামলা সিআইডিতে

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে করোনা উপসর্গে ৪ জনের মৃত্যু

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১১:০৩

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে উপসর্গ নিয়ে আরও চার জন মারা গেছেন। তবে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত কারও মৃত্যু হয়নি। মৃতদের মধ্যে ময়মনসিংহের তিন জন ও জামালপুরের একজন রোগী রয়েছেন। এদের মধ্যে দুই জন পুরুষ ও দুই জন নারী।

এ নিয়ে চলতি অক্টোবর মাসে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে কলেজ হাসপাতালে করোনা ও উপসর্গে ৯৫ জন মারা গেলেন। তবে গত জুলাই, আগস্ট ও সেপ্টেম্বরে হাসপাতালটিতে করোনা ও উপসর্গে এক হাজার ২৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডের ফোকাল পারসন ডা. মহিউদ্দিন খান আরও জানান, করোনা ইউনিটে নতুন ছয় জন ভর্তিসহ মোট ৫৮ জন রোগী ভর্তি আছেন। এদের মধ্যে আইসিউতে একজন চিকিৎসাধীন আছেন। এছাড়াও সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন সাত জন।

সিভিল সার্জন ডা. নজরুল ইসলাম বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় ৮০ টি নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়নি। এ পর্যন্ত জেলায় মোট আক্রান্ত ২২ হাজার ৬৯ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ২১ হাজার ৪৬৯ জন।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে জানুয়ারি থেকে বাড়বে ক্লাস: শিক্ষামন্ত্রী

পরিস্থিতি স্বাভাবিক থাকলে জানুয়ারি থেকে বাড়বে ক্লাস: শিক্ষামন্ত্রী

বিশেষ ট্রাইব্যুনালে বিশৃঙ্খলায় জড়িতদের বিচার চান রানা দাশগুপ্ত

বিশেষ ট্রাইব্যুনালে বিশৃঙ্খলায় জড়িতদের বিচার চান রানা দাশগুপ্ত

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১০:৪০

ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ড ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র জানায়, চলতি বন্যায় তিস্তা ব্যারাজের ফ্লাড ফিউজসহ (বাইপাস) কমান্ড এলাকার দশটি স্থানে ৯৮০ মিটার বাঁধ ধসে গেছে। এতে ক্ষতি হয়েছে ১৫ কোটি টাকা।

উজানের পাহাড়ি ঢল ও টানা বৃষ্টিপাতে গত বুধবার (২০ অক্টোবর) সকালে ডালিয়ায় তিস্তা ব্যারাজ পয়েন্টে নদীর পানি বিপৎসীমার ৭০ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। পানির চাপে কেটে যায় ব্যারাজের ফ্লাডবাইপাস। এতে করে ফ্লাড বাইপাসের ৩০০ মিটারসহ ব্যারাজের উজান ও ভাটির বিভিন্ন স্থানের বাঁধ বিধ্বস্ত হয় ৯৮০ মিটার।

এর মধ্যে ব্যারাজের উজানে কালিগঞ্জ গ্রোয়েন বাঁধের ১০০ মিটার, ছোটখাতা টি-গ্রোয়েন বাঁধের ১০০ মিটার, তিস্তা বাজার স্পার বাঁধের ৫০ মিটার, ভাটিতে ভেন্ডাবাড়ী স্পার বাঁধের ৫০ মিটার, ভাবনচুন স্পার বাঁধের ৫০ মিটার, তিস্তা ডানতীর বাঁধ ৮০ মিটার, ডাউয়াবাড়ী তিস্তার ডানতীর বাঁধ ১০০ মিটার, শৌলমারী বাঁধের ৫০ মিটার, বালাপাড়া কৈমারী বাঁধ ১০০ মিটার রয়েছে। সবমিলিয়ে আর্থিক ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা।

এবারের বন্যায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের ১৫ কোটিসহ মোট ৫০ কোটি টাকার ক্ষতি

উত্তরাঞ্চল রংপুরের প্রধান প্রকৌশলী জ্যোতি প্রসাদ ঘোষ জানান, এবারের বন্যায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের ১৫ কোটিসহ সর্বমোট ৫০ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। গত বুধবারের আকস্মিক ওই বন্যা অতীতের সকল রেকর্ড ভেঙেছে।

এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন, বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের অতিরিক্ত মহাপরিচালক এ কে এম সামছুল আলম, নকশা ও গবেষণা বিভাগের প্রধান প্রকৌশলী মো. এনায়েত উল্লাহ, ডালিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আসফাউদৌলা প্রিন্স প্রমুখ।

এদিকে রবিবার (২৪ অক্টোবর) সকাল থেকে নীলফামারীর ডিমলা ডালিয়া পয়েন্টে তিস্তার বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক ফজলুর রশিদ। পরিদর্শনের পর ডালিয়ায় পানি উন্নয়ন বোর্ডের সম্মেলন কক্ষে স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

মহাপরিচালক বলেন, ‘পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রকৌশলী, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বন্যার ক্ষতি অনেকটাই পুষিয়ে নিয়েছেন। ঢাকা থেকে সার্বক্ষণিক খোঁজ-খবর নেওয়া হচ্ছে ও দিক নির্দেশনা দিয়েছি। ক্ষতির পরিমাণ বের করে ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ শিগগিরই মেরামত করা হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘তিস্তার জন্য আট হাজার ২১০ কোটি টাকার মহাপরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। ওই টাকার মধ্যে সরকারি একটা অংশ আছে। বাকিটা দাতাসংস্থাদের কাছ থেকে পাওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।’

ফজলুর রশিদ বলেন, ‘ইতোমধ্যে এ অঞ্চলের ছোট নদীগুলো খনন করে পানির ধারণক্ষমতার পাশাপাশি ড্রেনেজ ক্ষমতাও বাড়ানো হয়েছে।’

/এফএ/ /এসএইচ/

সম্পর্কিত

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে করোনা উপসর্গে ৪ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে করোনা উপসর্গে ৪ জনের মৃত্যু

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

পুঁজি হারানোর আশঙ্কা পান চাষিদের

পুঁজি হারানোর আশঙ্কা পান চাষিদের

পেঁয়াজ মজুত করে মাথায় হাত পাইকারদের

পেঁয়াজ মজুত করে মাথায় হাত পাইকারদের

রূপসার শিয়ালীর মন্দিরে হামলা মামলায় ২৩ আসামি জেলে

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৯:০৯

রূপসা উপজেলার শিয়ালীতে মন্দিরে হামলা ও ভাঙচুরের মামলায় এখন পর্যন্ত ২৩ জন জেল হাজতে রয়েছেন। অন্যদিকে জামিনে রয়েছেন আরও ১০ জন। এদিকে হামলার ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্ত মন্দিরগুলো সংস্কার শেষে পূজার জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে। এলাকায় বিশৃঙ্খলা রোধে স্থানীয় টহল ফাঁড়িতে বাড়ানো হয়েছে জনবল। 

এদিকে ২০১৮ সালের অক্টোবরে খুলনা ক্রিসেন্ট জুট মিল মন্দিরে প্রতিমা ভাঙচুর মামলায় কোনও আসামি আটক না হওয়ায় শান্তি বজায় রাখার স্বার্থে বাদী এক বছরের মাথায় মামলা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। 

রূপসা উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক কৃষ্ণ গোপাল সেন বলেন, গত ৭ আগস্টের ওই ঘটনার পর বর্তমানে এলাকার পরিবেশ স্বাভাবিক রয়েছে। পুলিশের নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। মন্দিরে পূজা অর্চনা ও মসজিদে নামাজ আদায়সহ অন্যান্য ধর্মীয় আচার অনুষ্ঠানও চলছে স্বাভাবিক নিয়মে। ক্ষতিগ্রস্ত মন্দির মেরামত ও ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণও দেওয়া হয়েছে। এখনও কিছু ক্ষতিপূরণের অর্থ পাওয়া যায়নি বলে জানান তিনি। 

এদিকে রূপসা থানার পরিদর্শক ও এই মামলা তদন্ত কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম বলেন, মামলায় এ পর্যন্ত ২৩ জনকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ১০ জন জামিনে রয়েছেন। অন্যান্যদের গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে বলে জানান তিনি। 

রূপসা থানার ওসি সরদার মোশাররফ হোসেন বলেন, ওই হামলার ঘটনায় ২৫ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাতনামা ১৫০ থেকে ২০০ জনকে আসামি করে মামলা করা হয়। এ মামলাটি তদন্তাধীন রয়েছে। তবে, এলাকায় পুলিশের কঠোর নজরদারি রয়েছে। ফলে শিয়ালী এলাকায় এখন স্বাভাবিক পরিবেশ বিরাজ করছে।

উল্লেখ্য, ৭ আগস্ট সন্ধ্যার আগে শিয়ালী মহাশ্মশান মন্দিরে হামলার ঘটনা ঘটে। দুর্বৃত্তরা সেখানকার  প্রতিমা এবং শ্মশানের যাবতীয় উপকরণ ভাঙচুর করে। এরপর তারা শিয়ালী পূর্বপাড়া এলাকায় হামলার ঘটনা ঘটে। এ সময় শিয়ালী পূর্বপাড়ার হরি মন্দির, শিয়ালী পূর্বপাড়া দূর্গা মন্দির এবং শিবপদ ধরের গোবিন্দ মন্দিরে প্রতিমা ভাঙচুর করা হয়। এ সময় কয়েকজনের বাড়ি ও দোকানে হামলা এবং ভাঙচুর চালানো হয়।  এর আগে গত ৬ আগস্ট রাতে শিয়ালী গ্রামের কয়েকজন পুরুষ ও মহিলা নামকীর্ত্তণ করতে করতে শিয়ালী শ্মশান মন্দিরের দিকে যাচ্ছিলেন। শিয়ালী জামে মসজিদে এশার নামাজ চলাকালে তারা ওই এলাকায় পৌঁছান। এ অবস্থায় ইমাম বের হয়ে তাদের বাদ্যযন্ত্র বন্ধ করতে বলেন। এ ঘটনাকে ঘিরে মসজিদের মুসল্লি ও সনাতন ধর্মাবলম্বীদের মধ্যে বাগবিতণ্ডার ঘটনা ঘটে। এর জের ধরে হামলার ঘটনা ঘটে। 

এদিকে ক্রিসেন্ট জুট মিল মন্দির কমিটির তৎকালীন সভাপতি বসন্ত কুমার গঙ্গা বলেন, এক বছরেও মন্দিরে হামলার ঘটনায় কোনও আসামি গ্রেফতার না হওয়ায় মামলাটি প্রত্যাহার করে নিয়েছি। এ মামলার কারণে আমরা প্রতিনিয়ত পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়তাম। তাই সবার স্বস্তি ও শান্তি বজায় রাখার জন্য এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

উল্লেখ্য, মহানগরীর খালিশপুরে ক্রিসেন্ট জুট মিলের মন্দিরের ২০১৮ সালের ৫ অক্টোরর রাতে প্রতিমা ভাঙচুর হয়। পরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ একজনকে আটক করে। পরে তকে ছেড়ে দেওয়া হয়। মন্দির কমিটির তৎকালীন সভাপতি বসন্ত কুমার গঙ্গা বাদী হয়ে অজ্ঞাতদের নামে একটি মামলা দায়ের করেন। কিন্তু এক বছরেও এ মামলায় কোনও আসামি গ্রেফতার হয়নি। 

/টিটি/

সম্পর্কিত

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে করোনা উপসর্গে ৪ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে করোনা উপসর্গে ৪ জনের মৃত্যু

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

 র‌্যাব পরিচয়ে ব্যবসায়ীর ৮ লাখ টাকা ছিনতাই করে ধরা

 র‌্যাব পরিচয়ে ব্যবসায়ীর ৮ লাখ টাকা ছিনতাই করে ধরা

বাঁশ কাটায় প্রতিবেশীকে কুপিয়ে হত্যা

বাঁশ কাটায় প্রতিবেশীকে কুপিয়ে হত্যা

স্বামীর মৃত্যুর ১৫ মিনিট পর মারা গেলেন স্ত্রী 

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৪৭

কুমিল্লার লাকসামে স্বামী মৃত্যুর ১৫ মিনিটের মধ্যে স্ত্রীও মারা গেছেন। মর্মান্তিক এ ঘটনা রবিবার (২৪ অক্টোবর) সন্ধ্যায় লাকসাম পৌরসভার শ্রীপুর গ্রামে ঘটে।

লাকসাম পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ উল্লাহ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, শ্রীপুর গ্রামের মরহুম নোয়াব আলীর বড় ছেলে মো. শাহজাহান (৬৫) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। এ সময় কান্নাকাটির একপর্যায়ে ৬টা ৪৫ মিনিটে তার স্ত্রী কোহিনুর বেগমও (৪৫) মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন। এ ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে বলে জানান তিনি।

কাউন্সিলর মোহাম্মদ উল্লাহ আরও বলেন, সোমবার সকাল ১১টায় দুই জনের জানাজা নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে লাশ দাফন করা হবে। তার দুই ছেলে দেশের বাইরে থাকেন।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

সিনহা হত্যা মামলা: ষষ্ঠ দফায় প্রথম দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

সিনহা হত্যা মামলা: ষষ্ঠ দফায় প্রথম দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

পুকুরে নয়, ঝোপের ভেতর হনুমানের গদা দেখিয়ে দিলেন ইকবাল

পুকুরে নয়, ঝোপের ভেতর হনুমানের গদা দেখিয়ে দিলেন ইকবাল

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপে হামলার ঘটনায় আরও ৪ জন গ্রেফতার

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপে হামলার ঘটনায় আরও ৪ জন গ্রেফতার

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

নীলফামারীতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ক্ষতি ১৫ কোটি টাকা

পুঁজি হারানোর আশঙ্কা পান চাষিদের

পুঁজি হারানোর আশঙ্কা পান চাষিদের

পেঁয়াজ মজুত করে মাথায় হাত পাইকারদের

পেঁয়াজ মজুত করে মাথায় হাত পাইকারদের

প্রতিষ্ঠান প্রধানের স্বাক্ষর জাল করে কেন্দ্র পরিবর্তনের অভিযোগ

প্রতিষ্ঠান প্রধানের স্বাক্ষর জাল করে কেন্দ্র পরিবর্তনের অভিযোগ

কারমাইকেল কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত

কারমাইকেল কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত

পীরগঞ্জে হামলায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার সৈকত ও রবিউলের

পীরগঞ্জে হামলায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার সৈকত ও রবিউলের

পীরগঞ্জের ঘটনায় রিমান্ড শেষে কারাগারে ৩৭ আসামি

পীরগঞ্জের ঘটনায় রিমান্ড শেষে কারাগারে ৩৭ আসামি

সর্বশেষ

চীনের হাইপারসোনিক পরীক্ষা কি নতুন অস্ত্র প্রতিযোগিতার ইঙ্গিত?

চীনের হাইপারসোনিক পরীক্ষা কি নতুন অস্ত্র প্রতিযোগিতার ইঙ্গিত?

সিনহা হত্যা মামলা: ষষ্ঠ দফায় প্রথম দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

সিনহা হত্যা মামলা: ষষ্ঠ দফায় প্রথম দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে করোনা উপসর্গে ৪ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে করোনা উপসর্গে ৪ জনের মৃত্যু

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর স্বাক্ষর জাল করে ভুয়া ডিও লেটার

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর স্বাক্ষর জাল করে ভুয়া ডিও লেটার

আইডি নাম্বার পাচ্ছে সব সিটি ও পৌর সড়ক

আইডি নাম্বার পাচ্ছে সব সিটি ও পৌর সড়ক

© 2021 Bangla Tribune