X
শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ৭ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

জলবায়ু পরিবর্তনে ‘চরম ঝুঁকিতে’ বাংলাদেশের শিশুরা: ইউনিসেফ

আপডেট : ২০ আগস্ট ২০২১, ১৮:৪৬

জলবায়ু পরিবর্তনের সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিতে দক্ষিণ এশিয়ার চারটি দেশের একটি হচ্ছে বাংলাদেশ। এই পরিবর্তনে শিশুদের স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও সুরক্ষা হুমকির মুখে রয়েছে। শুক্রবার জাতিসংঘ সংস্থা ইউনিসেফের প্রকাশিত নতুন একটি প্রতিবেদনে এই আশঙ্কার কথা তুলে ধরা হয়েছে।

ইউনিসেফের প্রতিবেদন অনুসারে, ঝুঁকিতে থাকা দক্ষিণ এশীয় অপর তিনটি দেশ হলো আফগানিস্তান, ভারত ও পাকিস্তান। এই অঞ্চলের নেপাল ও শ্রীলঙ্কা বৈশ্বিকভঅবে প্রভাবিত ৬৫টি দেশের তালিকায় রয়েছে।

এই প্রতিবেদন প্রকাশের মধ্য দিয়ে ইউনিসেফ শিশুদের জলবায়ু ঝুঁকি সূচক (সিসিআরআই) প্রবর্তন করলো।  এই সূচক তাপ্রবাহ ও ঘূর্ণিঝড়ের মতো জলবায়ু ও পরিবেশগত আঘাত এবং দুর্যোগে শিশুরা কতটা ঝুঁকিতে রয়েছে সেটির ভিত্তিতে তৈরি করা হয়েছে।

এই সূচকে ‘চরম উচ্চ ঝুঁকিপূর্ণ’ এলাকা হিসেবে চিহ্নিত করা ৩৩টি দেশে বসবাস করছে প্রায় ১০০ কোটি শিশু। এর মধ্যে দক্ষিণ এশিয়ার চারটি দেশও রয়েছে। বাংলাদেশ তালিকার ১৫ তম অবস্থানে রয়েছে। দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে পাকিস্তান ১৪তম, ভারত ২৬তম, নেপাল ৫১তম, শ্রীলঙ্কা ৬১তম এবং ভুটান ১১১তম অবস্থানে রয়েছে।

দক্ষিণ এশিয়ায় ইউনিসেফের আঞ্চলিক পরিচালক জর্জ লারিয়া-আদজেই বলেন, এই প্রথমবারের মতো দক্ষিণ এশীয় শিশুদের ওপর জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবের স্পষ্ট প্রমাণ আমরা পেয়েছি। খরা, বন্যা, বায়ু দূষণ ও নদী ভাঙনে লাখো শিশু গৃহহীন ও ক্ষুধা এবং স্বাস্থ্যসেবা ও পানিবিহীন পরিস্থিতিতে রয়েছে।

/এএ/

সম্পর্কিত

বিশ্ব ব্যাংকের প্রতিবেদন বদলের কথা অস্বীকার করলেন আইএমএফ প্রধান

প্রতিবেদন বদলানোর কথা অস্বীকার করলেন আইএমএফ প্রধান

আফগানিস্তানে তালেবান শাসনে ‘কঠিন পরীক্ষা’র মুখে ত্রাণ সংস্থাগুলো

তালেবান শাসনে ত্রাণ সংস্থাগুলোর ‘কঠিন পরীক্ষা’

করোনা টিকার বুস্টার ডোজ বন্ধের আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

করোনা টিকার বুস্টার ডোজ বন্ধের আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

দ্বিতীয় মেয়াদে জাতিসংঘের মহাসচিব গুতেরেস

দ্বিতীয় মেয়াদে জাতিসংঘের মহাসচিব গুতেরেস

মার্কিন ড্রোন হামলায় আল-কায়েদার শীর্ষ নেতা নিহত

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১১:২০

সিরিয়ায় আল-কায়েদার এক শীর্ষ নেতাকে ড্রোন হামলা চালিয়ে হত্যা করেছে মার্কিন সেনাবাহিনী। মার্কিন সেন্ট্রাল কমান্ডের মুখপাত্র জানান, নিহতের নাম আব্দুল হামিদ আল-মাতার।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর মেজর জন রিগসবি জানান, আল-কায়েদার এই জ্যেষ্ঠ নেতাকে অপসারণ করা না হলে মার্কিন নাগরিক, বেসামরিক মানুষ, আমাদের মিত্র এবং বিশ্বের জন্য হুমকি ছিল।

জেনারেল অ্যাটোমিকস এমকিউ র‌্যাপর-৯ দিয়ে হামলা পরিচালনা করা হয়। এতে অন্য কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি বলেও দাবি করে মার্কিন সামরিক বাহিনী। ড্রোন হামলা পরিচালনার দু'দিন আগে দক্ষিণ সিরিয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের একটি সামরিক ঘাঁটিতে হামলার ঘটনা ঘটে। এরপরই সন্ত্রাসীবিরোধী অভিযান চালালো যুক্তরাষ্ট্র।

মার্কিন সামরিক কর্মকর্তা রিবগবি আরও বলেন, নিষিদ্ধ জঙ্গি গোষ্ঠী আল-কায়েদা আমেরিকা এবং আমাদের মিত্রদের জন্য হুমকি। এই গোষ্ঠীটি সিরিয়াকে নিরাপদ আশ্রয়স্থল হিসেবে ব্যবহার করে আসছে।

গত সেপ্টেম্বরেও সিরিয়ার বিদ্রোহী অধ্যুষিত উত্তরাঞ্চলে মার্কিন ড্রোন হামলায় আল-কায়েদার আরেক সিনিয়র নেতা সেলিম আবু-আহমদ নিহত হন।

/এলকে/

সম্পর্কিত

প্রপ গানও বিপজ্জনক, আসল বন্দুকের সঙ্গে পার্থক্য কী?

প্রপ গানও বিপজ্জনক, আসল বন্দুকের সঙ্গে পার্থক্য কী?

শুটিং সেটে অ্যালেক বল্ডউইনের প্রপ গানের গুলিতে চিত্রগ্রাহক নিহত

শুটিং সেটে অ্যালেক বল্ডউইনের প্রপ গানের গুলিতে চিত্রগ্রাহক নিহত

লম্বা চুল নিষিদ্ধের প্রতিবাদে আদালতে শিক্ষার্থীরা

লম্বা চুল নিষিদ্ধের প্রতিবাদে আদালতে শিক্ষার্থীরা

উইঘুর ইস্যুতে চাপ বাড়ছে চীনের ওপর

উইঘুর ইস্যুতে চাপ বাড়ছে চীনের ওপর

তুষারপাত ও বৈরী আবহাওয়ায় ভারতে ১১ পর্বতারোহীর মৃত্যু

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ১০:৪৬

প্রবল তুষারপাত ও বৈরী আবহাওয়ার কবলে পড়ে ভারতের উত্তরাখণ্ডে ১১ পর্বতারোহীর মৃত্যু হয়েছে। আবহাওয়ার অবনিত হলে তারা পথ হারিয়ে ফেলেন। অভিযান চালিয়ে তাদের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনও ৪ জন নিখোঁজ থাকায় উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে বিমান বাহিনী।

বিশ্বের অন্যতম ঝুঁকিপূর্ণ পাবর্ত্য জায়গা লামখাজ পাস। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ১৭ হাজার ফুট উঁচু। ভারতের হিমাচল রাজ্যের কিন্নাউর জেলার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে উত্তরাখণ্ডের হারসিল রাজ্যে। এই বিপজ্জনক জায়গায় দলবদ্ধ হয়ে ট্র্যাকিং-এ যান পর্বতারোহীরা। হঠাৎ আবহাওয়া বদলে গেলে ১৭ অক্টোবর পথ হারিয়ে ফেলেন ১৭ জন। খবর পেয়ে গত ২০ অক্টোবর থেকে তাদের সন্ধানে নামে ভারতের কেন্দ্রীয় উদ্ধারকারী বাহিনী ন্যাশনাল ডিজাস্টার রেসপন্স ফোর্স (এনডিআরএফ)।

লামখাজ পাসের ১৫ হাজার ফুট উচ্চতা থেকে ৪ জনের মৃতদেহ পাওয়া যায়। বাকি ৭ জনের লাশ পর্বতের বিভিন্ন জায়গা থেকে উদ্ধার করা হয়। দুইজনকে জীবিত উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এখনও ৪ জন নিখোঁজ রয়েছেন। হেলিকপ্টারের সাহায্যে তাদের সন্ধান চালিয়ে যাচ্ছে ভারতীয় বিমান বাহিনী।

/এলকে/

সম্পর্কিত

এক সপ্তাহে কলকাতায় করোনা রোগী দ্বিগুণ

এক সপ্তাহে কলকাতায় করোনা রোগী দ্বিগুণ

বিজেপির ফেক নেটওয়ার্ক বন্ধ করেনি ফেসবুক: বিস্ফোরক সোফি

বিজেপির ফেক নেটওয়ার্ক বন্ধ করেনি ফেসবুক: বিস্ফোরক সোফি

নেতাদের সামনেই বিজেপি কর্মীদের মারপিট

নেতাদের সামনেই বিজেপি কর্মীদের মারপিট

আসামে রকেট সিস্টেম বসাচ্ছে ভারত

আসামে রকেট সিস্টেম বসাচ্ছে ভারত

‘দাবিটা সরল, তালেবানকে বসতে দেবেন না’

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৩৬

‘আমাদের দাবিটা সরল। তালেবান নয়, যে কিনা আফগানিস্তানের সবার অধিকারের প্রতি শ্রদ্ধাশীল এমন কাউকে জাতিসংঘের আসনে বসতে দিন।’ নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ নিরাপত্তা কাউন্সিলের সামনে সাংবাদিকদের এমনটাই বললেন আফগান নারীদের একটি প্রতিনিধিদল। তাদের মধ্যে এ কথা বলেছেন দেশটির সাবেক রাজনীতিক ও শান্তি বিষয়ক নেগোশিয়েটর ফৌজিয়া কুফি।

শুক্রবার (২২ অক্টোবর) জাতিসংঘে আফগান নারী ও মেয়েশিশুদের নিয়ে একটি মতবিনিময় সভার আয়োজন করেছিল ব্রিটেন, কাতার, কানাডা, ইউএন উইম্যান, জর্জটাউন ইন্সটিটিউট অব উইম্যান ও পিস অ্যান্ড সিকিউরিটি। ওই অনুষ্ঠান শুরুর আগেই সাংবাদিকদের এসব বলেছেন ফৌজিয়া ও তার সঙ্গীরা।

ফৌজিয়া কুফি বলেন, ‘আমরা এ নিয়ে অনেক বলেছি। কিন্তু আমাদের কথায় কেউ কান দিচ্ছে না। সুতরাং ত্রাণ, অর্থ বা স্বীকৃতি এ সবের চাপ দিয়ে হলেও বিশ্বের উচিত— নারীদের প্রতি শ্রদ্ধা দেখাতে ও প্রশাসনে অন্তর্ভুক্তিতে তাদের (তালেবান) বাধ্য করা।’

কুফির সঙ্গে ছিলেন সাবেক আফগান রাজনীতিক নাহিদ ফরিদ, সাবেক কূটনীতিক আসিলা ওয়ারদাক ও সাংবাদিক আনিসা শাহিদ।

নাহিদ ফরিদ বললেন, ‘আফগানিস্তান দখল করার সময় তারা বললো, নারীদের চাকরি করার অনুমতি তারা দেবে, স্কুলে যেতে দেবে। তারা কিন্তু প্রতিশ্রুতিটা রাখেনি।’

আফগানিস্তানের পক্ষ হয়ে জাতিসংঘে কাকে কথা বলার সুযোগ দেওয়া হবে তা নিয়ে জাতিসংঘ এখনও সিদ্ধান্তে পৌঁছায়নি। তালিবানরা চাচ্ছে দোহাভিত্তিক মুখপাত্র সুহেল শাহিনকে আসনে বসাতে। অন্যদিকে উৎখাত হওয়া সরকারের সাবেক জাতিসংঘ দূত গুলাম ইসাকযাই চাচ্ছেন তিনিই জাতিসংঘে দেশটির প্রতিনিধিত্ব করবেন। ধারণা করা হচ্ছে এ বছরের শেষের দিকে এ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছাবে জাতিসংঘ।

সাবেক কূটনীতিক আসিলা ওয়ারদাক বিশ্ববাসীর কাছে আহ্বান জানিয়েছেন, নারী অধিকারের প্রশ্নে সবাই যেন তালেবানকে তাদের মুখের কথাকে কাজে পরিণত করতে বাধ্য করে।

 

সূত্র: রয়টার্স

/এফএ/

সম্পর্কিত

এক সপ্তাহে কলকাতায় করোনা রোগী দ্বিগুণ

এক সপ্তাহে কলকাতায় করোনা রোগী দ্বিগুণ

বিজেপির ফেক নেটওয়ার্ক বন্ধ করেনি ফেসবুক: বিস্ফোরক সোফি

বিজেপির ফেক নেটওয়ার্ক বন্ধ করেনি ফেসবুক: বিস্ফোরক সোফি

প্রপ গানও বিপজ্জনক, আসল বন্দুকের সঙ্গে পার্থক্য কী?

প্রপ গানও বিপজ্জনক, আসল বন্দুকের সঙ্গে পার্থক্য কী?

বিদেশি শ্রমিকদের ওপর আংশিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার মালয়েশিয়ার

বিদেশি শ্রমিকদের ওপর আংশিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার মালয়েশিয়ার

এক সপ্তাহে কলকাতায় করোনা রোগী দ্বিগুণ

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০২:২৭

১৫ অক্টোবর শুক্রবার কলকাতায় করোনা রোগী ছিল ১২৭ জন। গত শুক্রবার (২২ অক্টোবর) তা বেড়ে দাঁড়ালো ২৪২ জনে। সপ্তাহের ব্যবধানে রোগী দ্বিগুণ হওয়ার পেছনে সাম্প্রতিক পূজার উৎসব, কেনাকাটা ও ভিড়বাট্টাকে দায়ী করেছেন পশ্চিমবঙ্গের কর্তাব্যক্তিরা। এনডিটির প্রতিবেদনে জানা গেলো এ খবর।

রোগী বেড়ে যাওয়ায় শহরের সেফ হাউস, কোয়ারেন্টিন সেন্টারগুলোতেও ফের ভিড় বেড়েছে।

এদিকে নতুন শনাক্তসহ মোট ২৪২ জনের মধ্যে দেখা গেলো ১৫০ জনই দুই ডোজ টিকা নেওয়া। এক ডোজ নিয়েছেন ১৫ জন।

কলকাতা শহরের স্বাস্থ্যের দায়িত্বে থাকা অতিন ঘোষ জানালেন, ‘দুর্গাপূজার পরপর রোগী বেড়ে যাওয়ার গতি দেখে আমরা দ্রুত সকল স্বাস্থ্যকর্মীর ছুটি বাতিল করেছি। কারণ আমরা দেখেছি, উৎসবে অনেকেই মাস্ক পরেনি। তাদের সংক্রমণের ইনকিউবেশন সময় এখন পার হয়নি। তাই পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে রেখেছি।’

প্রশাসনের কর্তারা আরও জানালেন, আশঙ্কার বিষয় হলো, নতুন করে আক্রান্ত প্রায় ২০০ জনই উপসর্গবিহীন। তারা দেদার ভাইরাস ছড়াতে পারেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

/এফএ/

সম্পর্কিত

তুষারপাত ও বৈরী আবহাওয়ায় ভারতে ১১ পর্বতারোহীর মৃত্যু

তুষারপাত ও বৈরী আবহাওয়ায় ভারতে ১১ পর্বতারোহীর মৃত্যু

‘দাবিটা সরল, তালেবানকে বসতে দেবেন না’

‘দাবিটা সরল, তালেবানকে বসতে দেবেন না’

বিজেপির ফেক নেটওয়ার্ক বন্ধ করেনি ফেসবুক: বিস্ফোরক সোফি

বিজেপির ফেক নেটওয়ার্ক বন্ধ করেনি ফেসবুক: বিস্ফোরক সোফি

বিজেপির ফেক নেটওয়ার্ক বন্ধ করেনি ফেসবুক: বিস্ফোরক সোফি

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ০১:১৮

‘ভারতের গত বছরের নির্বাচনে বিজেপিসহ কংগ্রেস, আম আদমি পার্টি ও ভারতীয় জনতা পার্টি; সবার আইটি সেলই ফেক অ্যাকাউন্টের নেটওয়ার্ক চালাচ্ছিল। এদের প্রায় সবার বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নিয়েছিল ফেসবুক। তবে বিজেপির বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।’ এমন বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন ফেসবুকের সাবেক কর্মকর্তা ও হুইসেল ব্লোয়ার সোফি ঝ্যাং। বিজেপির ফেক অ্যাকাউন্টগুলোর প্রতি এক ধরনের পক্ষপাত দেখানো হচ্ছিল বলে অভিযোগ তার।

সোফি আরও বলেন, বিজেপির লোকসভার এক সাংসদ ৫০-৬০টা ফেক অ্যাকাউন্টের একটি নেটওয়ার্ক চালাচ্ছিলেন। সেটা নিয়ে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা বারবার রিপোর্টও করেছিলেন। তারপরও নেটওয়ার্কটি সরানো হয়নি।

ফেক অ্যাকাউন্টের নেটওয়ার্কগুলো সাধারণত একটি নির্দিষ্ট রাজনৈতিক দল বা ব্যক্তির প্রচারে তৈরি হয়। অ্যাকাউন্টগুলো লাইক, কমেন্ট, শেয়ার করে প্রচার চালায়। বিপুল ‘রিচ’ তৈরি করে মানুষের মনে প্রভাব ফেলাই এর লক্ষ্য।

সোফি জানালেন, ‘২০১৯ সালের দিকেই ফেক নেটওয়ার্কগুলো ধরা পড়ে। তিনটি নেটওয়ার্ক আমরা সরিয়ে ফেলি। চার নম্বরটিতে এসেই সব থমকে যায়। দেখা যায় ওই নেটওয়ার্কের নেপথ্যে রয়েছে বিজেপির এক বড় মাপের নেতা। পরে পঞ্চম নেটওয়ার্ক সরাই আমরা, কিন্তু চার নম্বরটি অক্ষত থেকে যায়। বারবার রিপোর্ট করার পরও ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ছিল নিরব।’

হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সোফি ঝ্যাং বলেন, ‘ভারতের নাগরিকদের যদি তাদের কথা শোনাতে হয় তবে সরব হতে হবে। যদি তারা মনে করে যে কোনও নির্দিষ্ট রাজনৈতিক দলের প্রতি পক্ষপাতমূলক আচরণ করা হচ্ছে, তার বিরুদ্ধেও প্রতিবাদ করতে হবে। শক্তিশালী ও অভিজাতদের জন্য এক নিয়ম এবং বাকিদের জন্য আরেক নিয়ম, এভাবে গণতন্ত্র চলতে পারে না।’

সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের এক পার্লামেন্টারি কমিটিতে সোফি বলেছেন, ‘রাজনৈতিক স্বার্থ হাসিলের কাজে ফেসবুক ব্যবহৃত হচ্ছে। এখন ফেসবুককে জবাবদিহিতার কাঠগড়ায় দাঁড় করাবে কিনা সেটা ভারতের ব্যাপার।’

প্রায় ৩৩ কোটি ব্যবহারকারীর দেশ হওয়ায় ভারতকে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ একটু সমীহ করে চলে বলা যায়। এ নিয়ে গত বছরের আগস্টে ওয়ালস্ট্রিট জার্নালেও একটি প্রতিবেদনও ছাপা হয়েছিল। ওই সময় বিজেপির বিভিন্ন পেজে আপত্তিকর কথাবার্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেওয়ায় খোদ ফেসবুকের কর্মীরাই অসন্তোষ প্রকাশ করেছিলেন।

 

সূত্র: এনডিটিভি

 

/এফএ/

সম্পর্কিত

তুষারপাত ও বৈরী আবহাওয়ায় ভারতে ১১ পর্বতারোহীর মৃত্যু

তুষারপাত ও বৈরী আবহাওয়ায় ভারতে ১১ পর্বতারোহীর মৃত্যু

‘দাবিটা সরল, তালেবানকে বসতে দেবেন না’

‘দাবিটা সরল, তালেবানকে বসতে দেবেন না’

এক সপ্তাহে কলকাতায় করোনা রোগী দ্বিগুণ

এক সপ্তাহে কলকাতায় করোনা রোগী দ্বিগুণ

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

বিশ্ব ব্যাংকের প্রতিবেদন বদলের কথা অস্বীকার করলেন আইএমএফ প্রধান

প্রতিবেদন বদলানোর কথা অস্বীকার করলেন আইএমএফ প্রধান

আফগানিস্তানে তালেবান শাসনে ‘কঠিন পরীক্ষা’র মুখে ত্রাণ সংস্থাগুলো

তালেবান শাসনে ত্রাণ সংস্থাগুলোর ‘কঠিন পরীক্ষা’

করোনা টিকার বুস্টার ডোজ বন্ধের আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

করোনা টিকার বুস্টার ডোজ বন্ধের আহ্বান বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার

দ্বিতীয় মেয়াদে জাতিসংঘের মহাসচিব গুতেরেস

দ্বিতীয় মেয়াদে জাতিসংঘের মহাসচিব গুতেরেস

রেকর্ড গতিতে বেড়েছে খাবারের দাম: জাতিসংঘ

রেকর্ড গতিতে বেড়েছে খাবারের দাম: জাতিসংঘ

মহামারিতে নতুন করে দরিদ্র হবে ১০ কোটির বেশি শ্রমিক: জাতিসংঘ

মহামারিতে নতুন করে দরিদ্র হবে ১০ কোটির বেশি শ্রমিক: জাতিসংঘ

শান্তিরক্ষীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জাতিসংঘ মহাসচিবের

শান্তিরক্ষীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জাতিসংঘ মহাসচিবের

গাজায় ইসরায়েলি হামলায় যুদ্ধাপরাধ হয়ে থাকতে পারে: জাতিসংঘ

গাজায় ইসরায়েলি হামলায় যুদ্ধাপরাধ হয়ে থাকতে পারে: জাতিসংঘ

হৃদরোগে মৃত্যু বাড়ায় দীর্ঘ কর্ম ঘণ্টা: ডব্লিউএইচও, আইএলও

হৃদরোগে মৃত্যু বাড়ায় দীর্ঘ কর্ম ঘণ্টা: ডব্লিউএইচও, আইএলও

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন পেলো চীনা সিনোফার্মের ভ্যাকসিন

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার অনুমোদন পেলো চীনা সিনোফার্মের ভ্যাকসিন

সর্বশেষ

মুহিবুল্লাহ হত্যা: ‘কিলিং স্কোয়াড’ এর সদস্য গ্রেফতার

মুহিবুল্লাহ হত্যা: ‘কিলিং স্কোয়াড’ এর সদস্য গ্রেফতার

মার্কিন ড্রোন হামলায় আল-কায়েদার শীর্ষ নেতা নিহত

মার্কিন ড্রোন হামলায় আল-কায়েদার শীর্ষ নেতা নিহত

এখনও প্রণোদনার টাকা পাননি ৬৬ শতাংশ চিকিৎসক-নার্স

ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজএখনও প্রণোদনার টাকা পাননি ৬৬ শতাংশ চিকিৎসক-নার্স

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মাদ্রাসায় ‘ট্রেনিং সেন্টার’ করতে চেয়েছিল সন্ত্রাসীরা 

রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মাদ্রাসায় ‘ট্রেনিং সেন্টার’ করতে চেয়েছিল সন্ত্রাসীরা 

জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় বাংলাদেশকে সহায়তা দেবে সুইডেন : রাষ্ট্রদূত

জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলায় বাংলাদেশকে সহায়তা দেবে সুইডেন : রাষ্ট্রদূত

© 2021 Bangla Tribune