X
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

পিএইচডি, মাস্টার্স ডিগ্রির কোনও মূল্য নেই: তালেবানের নতুন শিক্ষামন্ত্রী

আপডেট : ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৫৬

কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার এক মাসেরও কম সময়ের মধ্যে মঙ্গলবার আফগানিস্তানে নতুন সরকার গঠনের ঘোষণা দিয়েছে তালেবান। একই দিন প্রথমবারের মতো প্রকাশ্য বিবৃতি দিয়েছেন তালেবানের সর্বোচ্চ নেতা হাইবাতুল্লাহ আখুন্দজাদা। এতে তিনি বলেছেন, ‘ভবিষ্যতে আফগানিস্তানের শাসন ও জীবনের সবকিছুই নিয়ন্ত্রিত হবে শরিয়াহ আইনের মাধ্যমে।’

তালেবান কট্টরপন্থা থেকে সরে আসার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বৈশ্বিক স্বীকৃতি চাইছে। তবে তাদের এই প্রতিশ্রুতি নিয়ে ইতোমধ্যে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়া একটি ভিডিওতে তালেবানের নতুন শিক্ষামন্ত্রী শেখ মৌলভি নুরুল্লাহ মনিরকে উচ্চশিক্ষার যৌক্তিকতা প্রশ্নবিদ্ধ করতে দেখা গেছে।

ওই ভিডিওতে মৌলভি নুরুল্লাহকে বলতে শোনা যায়, ‘আজকের দিনে পিএইডি ডিগ্রি, মাস্টার্স ডিগ্রির কোনও মূল্য নেই। দেখুন, আজকে ক্ষমতায় থাকা মোল্লা এবং তালেবানের কারোরই পিএইচডি, এমএ এমনকি হাইস্কুল ডিগ্রিও নেই, কিন্তু তারাই সবার চেয়ে বড়।’ তার এ মন্তব্য নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনা চলছে।

এক টুইটার ব্যবহারকারী লিখেছেন, ‘এই লোক কেন শিক্ষা নিয়ে কথা বলছে।’ আরেকজন লিখেছেন, ‘উচ্চশিক্ষা তদারককারী মন্ত্রী বলছেন উচ্চশিক্ষার কোনও মূল্য নেই’।

/জেজে/এমওএফ/
টাইমলাইন: আফগানিস্তান সংকট
২০ অক্টোবর ২০২১, ১২:৫৯
০৫ অক্টোবর ২০২১, ২০:১০
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:২৫
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:২৯

সম্পর্কিত

উদ্বেগজনক ইস্যুতে চীন-মার্কিন আলোচনায় অগ্রগতি

উদ্বেগজনক ইস্যুতে চীন-মার্কিন আলোচনায় অগ্রগতি

প্রথমবারের মতো জান্তার আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন সু চি: এএফপি

প্রথমবারের মতো জান্তার আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন সু চি: এএফপি

‘ফেক নিউজ’ ভারতে বেশি

‘ফেক নিউজ’ ভারতে বেশি

আফগান নারী বিচারকরা আত্মগোপনে, অপরাধীরা রাস্তায়

আফগান নারী বিচারকরা আত্মগোপনে, অপরাধীরা রাস্তায়

উদ্বেগজনক ইস্যুতে চীন-মার্কিন আলোচনায় অগ্রগতি

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ২১:০৩

অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যের উদ্বেগজনক ইস্যুতে চীন ও মার্কিন সরকারের আলোচনায় কিছুটা অগ্রগতি হয়েছে। চীনের ভাইস প্রিমিয়ার লিউ হি ও যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্যমন্ত্রী জ্যানেট ইয়েলেন চার মাসের মধ্যে দ্বিতীয়বার ফোনালাপ করেছেন। এই ফোনালাপের পর বেইজিংয়ের পক্ষ থেকে দেওয়া বিবৃতিতে একথা বলা হয়েছে। মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গ এখবর জানিয়েছে।

মঙ্গলবার বেইজিংয়ের বিবৃতিতে এই আলোচনাকে ‘বাস্তববাদী, অকপট এবং গঠনমূলক’ বলে উল্লেখ করা হয়েছে। দুই পক্ষ যোগাযোগ জোরদার ও ক্ষুদ্র অর্থনীতির নীতির বিষয়ে সমন্বয়ের একমত হয়েছে।

গত মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের ফোনালাপের পর ওয়াশিংটন-বেইজিংয়ের সম্পর্কের উন্নতি হতে শুরু করে। জলবায়ু আলোচনার সঙ্গে সম্পর্কিত অগ্রগতি নিয়ে বেইজিংয়ের ওপর বাইডেন প্রশাসনের হতাশার পর ফোনালাপ অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এর কিছুদিনের মধ্যে হুয়াওয়ে টেকনোলজি কোম্পানির প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা মেং ওয়াঝুকে মুক্তি দিতে এক সমঝোতায় পৌঁছায় দুই দেশ।

ওই ঘটনার পর থেকেই বিশ্বের বড় দুটি অর্থনীতি ট্রাম্প শাসনামলে নীরব থাকা যোগাযোগ লাইন পুনরায় গঠনে এগিয়ে যায়। তারিখ নির্ধারিত না হলেও বাইডেন ও শি জিনপিং ভার্চুয়ালি প্রথম সম্মেলনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

ব্লুমবার্গের খবরে বলা হয়েছে, জুনে প্রথম ফোনালাপের চেয়ে এবার চীনা বিবৃতিতে ইতিবাচক সুর ছিল। যদিও বাণিজ্যিক ও অর্থনৈতিক ইস্যুতে গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি কম হয়েছে।

চীনের পক্ষ থেকে মার্কিন শুল্ক ও চীনা কোম্পানির সঙ্গে মার্কিন আচরণের বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে। তবে চীনা বা মার্কিন বিবৃতিতে এসব বিষয়ে মার্কিন বাণিজ্যমন্ত্রীর কোনও প্রতিক্রিয়া ও বক্তব্য উল্লেখ করা হয়নি।

 

/এএ/

সম্পর্কিত

প্রথমবারের মতো জান্তার আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন সু চি: এএফপি

প্রথমবারের মতো জান্তার আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন সু চি: এএফপি

‘ফেক নিউজ’ ভারতে বেশি

‘ফেক নিউজ’ ভারতে বেশি

আফগান নারী বিচারকরা আত্মগোপনে, অপরাধীরা রাস্তায়

আফগান নারী বিচারকরা আত্মগোপনে, অপরাধীরা রাস্তায়

পশ্চিমা রাষ্ট্রদূতদের বহিষ্কার ইস্যুতে এরদোয়ানের ইউটার্ন

পশ্চিমা রাষ্ট্রদূতদের বহিষ্কার ইস্যুতে এরদোয়ানের ইউটার্ন

ওমরাহ পালনের নিয়ম শিথিল করলো সৌদি আরব

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ২০:৫৮

ওমরাহ পালনে আগ্রহীদের বুকিং দিতে ১৪ দিন অপেক্ষা করার নিয়ম বাতিল করেছে সৌদি আরব। দেশটির হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তার বরাতে আরব নিউজ এখবর জানিয়েছে।

সৌদি মন্ত্রণালয়ের পরিকল্পনা ও কৌশল বিভাগের প্রধান ড. আমর আল-মাদ্দাহ জানিয়েছেন, বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করায় মসজিদুল হারামে ওমরাহ ও নামাজ পরিচালনার সক্ষমতা উল্লেখযোগ্যভাবে বাড়ানো হয়েছে।

তিনি বলেন, অগ্রগতির এই পর্যায়ে ওমরাহ পালনে আগ্রহীদের সংখ্যা বাড়ায় হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ১৪ দিন অপেক্ষা করার শর্ত এখন আর প্রযোজ্য না। এতে সবাই সমান সুযোগ পাবেন।

গত ১৬ অক্টোবর সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দেশজুড়ে বিধিনিষেধ শিথিলের ঘোষণা দেয়। মক্কার মসজিদুল হারাম এবং মদিনার মসজিদে নববীতে পূর্ণ ধারণক্ষমতা অনুযায়ী প্রার্থনা ফের শুরুর নির্দেশনাও দেওয়া হয়।

/জেজে/এএ/

সম্পর্কিত

নাগরিকত্ব আইন সংশোধনের ইঙ্গিত দিলেন কাতারের আমির

নাগরিকত্ব আইন সংশোধনের ইঙ্গিত দিলেন কাতারের আমির

পশ্চিমা রাষ্ট্রদূতদের বহিষ্কার ইস্যুতে এরদোয়ানের ইউটার্ন

পশ্চিমা রাষ্ট্রদূতদের বহিষ্কার ইস্যুতে এরদোয়ানের ইউটার্ন

পশ্চিম তীরে নতুন ১৩০০ বাড়ি বানাবে ইসরায়েল

পশ্চিম তীরে নতুন ১৩০০ বাড়ি বানাবে ইসরায়েল

আরব দেশগুলোর উচিত ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করা: খামেনি

আরব দেশগুলোর উচিত ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করা: খামেনি

প্রথমবারের মতো জান্তার আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন সু চি: এএফপি

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ২০:৫৪

সেনা সরকারের অধীনে বিচার শুরুর প্রায় চার মাসের মাথায় প্রথমবারের মতো আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত নেতা অং সান সু চি। মঙ্গলবার তিনি সাক্ষ্য দিয়েছেন বলে খবর দিয়েছে ফরাসি বার্তা সংস্থা এএফপি।

গত ১ ফেব্রুয়ারির অভ্যুত্থানের পর থেকেই অস্থির মিয়ানমার। স্থানীয় এক পর্যবেক্ষক গ্রুপের হিসেবে দেশজুড়ে বিক্ষোভে এক হাজার একশ’র বেশি মানুষ হত্যা করেছে নিরাপত্তা বাহিনী।

অভুত্থানের দিনে হেফাজতে নেওয়ার চার মাসের মাথায় গত জুনে শুরু হয় সু চির বিচার। আনা হয়েছে বেশ কিছু অভিযোগ। যাতে তাকে আরও কয়েক দশক কারাগারে রাখা যেতে পারে।

মঙ্গলবার আদালতে দেওয়া নিজেই সাক্ষ্য দিয়েছেন সু চি। বিষয়টি সম্পর্কে সরাসরি অবগত একটি সূত্র এএফপিকে জানিয়েছে, অভ্যুত্থানের সমালোচনা করে দেওয়া দুইটি বিবৃতির বিষয়ে এদিন নিজের বক্তব্য উপস্থাপন করেন তিনি।

তবে আদালতে তিনি ঠিক কোন বক্তব্য দিয়েছেন তা জানা যায়নি। আদালত অনুমোদন না করলে ওই বক্তব্য প্রকাশ করা যাবে না বলে জানিয়েছে সূত্রটি। আশা করা হচ্ছে আগামী সপ্তাহে ওই অনুমোদন পাওয়া যাবে।

সেনা সরকারের তৈরি রাজধানী নেপিদোর এক বিশেষ আদালতে সু চির শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। তবে সেখানে সংবাদমাধ্যম উপস্থিত থাকতে দেওয়া হয় না। এছাড়া সম্প্রতি সু চির আইনজীবীদেরও সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে।

সেনা সরকার ইতোমধ্যেই সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্র্যাসিকে বিলুপ্ত করার হুমকি দিয়েছে। একই সঙ্গে সেনা শাসনবিরোধীদের বিরুদ্ধে প্রাণঘাতী নিপীড়ন অব্যাহত রাখার কথাও জানিয়েছে তারা।

/জেজে/

সম্পর্কিত

উদ্বেগজনক ইস্যুতে চীন-মার্কিন আলোচনায় অগ্রগতি

উদ্বেগজনক ইস্যুতে চীন-মার্কিন আলোচনায় অগ্রগতি

‘ফেক নিউজ’ ভারতে বেশি

‘ফেক নিউজ’ ভারতে বেশি

আফগান নারী বিচারকরা আত্মগোপনে, অপরাধীরা রাস্তায়

আফগান নারী বিচারকরা আত্মগোপনে, অপরাধীরা রাস্তায়

পশ্চিমা রাষ্ট্রদূতদের বহিষ্কার ইস্যুতে এরদোয়ানের ইউটার্ন

পশ্চিমা রাষ্ট্রদূতদের বহিষ্কার ইস্যুতে এরদোয়ানের ইউটার্ন

‘ফেক নিউজ’ ভারতে বেশি

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ২১:৪০

জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ‘ফেক নিউজ’ বেশি ছড়ায় ভারতে। তা ঠেকাতে যুক্তরাষ্ট্রের পর সবচেয়ে বড় উদ্যোগ ভারতে নিয়েছে কোম্পানিটি। এসব উদ্যোগের মধ্যে রয়েছে স্থানীয় দশটি ফ্যাক্ট-চেকিং সংস্থার সঙ্গে পার্টনারশিপ। পুরো নেটওয়ার্কজুড়ে ইংরেজি ও অপর ১১টি ভারতীয় ভাষায় ফ্যাক্ট চেক করা হচ্ছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি’র এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে।

সম্প্রতি মার্কিন সংবাদমাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমস ও অন্যান্য মিডিয়া যোগাযোগমাধ্যমটির অভ্যন্তরীণ নথি দ্য ফেসবুক পেপার্স হাতে পেয়েছে। এসব নথিতে উঠে এসেছে, সবচেয়ে বড় বাজার ভারতে ফেক নিউজ, বিদ্বেষমূলক বক্তব্য ও উসকানিমূলক কনটেন্ট- সহিংসতার উদযাপনের অনেক কিছু ঠেকাতে হিমশিম খাচ্ছে ফেসবুক।

ফ্যাক্ট-চেক করা ফেসবুকের ভুয়া তথ্য ঠেকানোর উদ্যোগের একটি অংশ মাত্র। ভারতের এই সমস্যা আরও বিশাল। বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের ছড়াছড়ি, বট ও ভুয়া অ্যাকাউন্ট ভারতীয় রাজনীতিক ও দলের সঙ্গে সম্পর্কিত, মুসলিম ও অন্যান্য সংখ্যালঘুদের টার্গেট করে ভুয়া তথ্য ছড়ায় বিভিন্ন পেজ ও বড় বড় গ্রুপ। সুসংগঠিত ও সতর্কভাবে দেশটিতে ভুয়া তথ্য ছড়ানো হয়। নির্বাচন ও প্রাকৃতিক দুর্যোগের মতো ঘটনা এবং করোনাভাইরাস মহামারিতে ফেক নিউজ ব্যাপকভাবে ছড়ায়।

বিবিসি’র খবরে বলা হয়েছে, ভারতে পরিস্থিতি খুব জটিল। ফ্যাক্ট-চেকিং সংস্থাগুলো সন্দেহজনক নিউজ ও পোস্টগুলোকে ক্রস টেক করে ফেসবুককে জানায়। এরপর প্রত্যাশা থাকে ফেসবুকে এমন পোস্ট বা কনটেন্টের বিতরণ কমাবে।

এক ফ্যাক্ট-চেকিং সংস্থার সিনিয়র কর্মকর্তা বলেন, একটি নিউজ বা পোস্ট ভুয়া বলে চিহ্নিত করার পর ফেসবুক কী করবে সে বিষয়ে আমাদের নৈতিক বা আইনি কোনও এখতিয়ার নেই।

স্বাধীন ফ্যাক্ট-চেকিং ওয়েবসাইট অল্ট নিউজের সহ-প্রতিষ্ঠাতা প্রতীক সিনহা বলেন, ভারতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভুয়া তথ্যের বেশিরভাগের জন্য ক্ষমতাসীন দলের রাজনীতিকরা। তাদের বড় ধরনের সমর্থক রয়েছে কিন্তু ফেসবুক তাদের ফ্যাক্ট-চেক করে না।

তিনি আরও বলেন, কোনও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমই অভিযোগের ঊর্ধ্বে না।

বিবিসি’র খবরে বলা হয়েছে, টুইটারেও ভারতে বিদ্বেষমূলক বক্তব্য, সংখ্যালঘু ও নারীদের ব্যঙ্গ ও আক্রমণ করা হয়। ফেসবুকের মালিকানাধীন হোয়াটঅ্যাপ ফেক নিউজের সবচেয়ে বড় বাহন। গুগলের মালিকানাধীন ইউটিউবে ফেসবুক ও গুজব ছড়ালেও তা ফেসবুকের মতো মনোযোগ আকর্ষণ করে না।

বিবিসি’র প্রতিবেদনে উদাহরণ হিসেবে গত বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু নিয়ে ষড়যন্ত্র হাজির করে ১২ ঘণ্টা দীর্ঘ একটি লাইভ ভিডিও ছিল।

কোম্পানিটির এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, ফেসবুক এসব বিষয়ে অবগত হওয়ার পর ভারতের সুপারিশমালা নিয়ে গভীর ও কঠোর বিশ্লেষণ করেছে এবং উন্নতির জন্য পণ্যে পরিবর্তন এনেছে।

হিন্দি ও বাংলাসহ বিভিন্ন ভাষায় বিদ্বেষমূলক বক্তব্য শনাক্তের প্রযুক্তিতে বড় ধরনের বিনিয়োগ করেছে কোম্পানি। এর ফলে এই বছরের প্রথম ছয় মাসে আমরা তা কমিয়ে আনতে পেরেছি। এখন তা ০.০৫ শতাংশ। মুসলিমসহ প্রান্তিক গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে বিশ্বজুড়েই বিদ্বেষমূলক বক্তব্য বাড়ছে। তাই আমরা প্রয়োগ বাড়াচ্ছি এবং নীতি হালনাগাদ করতে অঙ্গীকারবদ্ধ।

/এএ/

সম্পর্কিত

উদ্বেগজনক ইস্যুতে চীন-মার্কিন আলোচনায় অগ্রগতি

উদ্বেগজনক ইস্যুতে চীন-মার্কিন আলোচনায় অগ্রগতি

প্রথমবারের মতো জান্তার আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন সু চি: এএফপি

প্রথমবারের মতো জান্তার আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন সু চি: এএফপি

আফগান নারী বিচারকরা আত্মগোপনে, অপরাধীরা রাস্তায়

আফগান নারী বিচারকরা আত্মগোপনে, অপরাধীরা রাস্তায়

পশ্চিমা রাষ্ট্রদূতদের বহিষ্কার ইস্যুতে এরদোয়ানের ইউটার্ন

পশ্চিমা রাষ্ট্রদূতদের বহিষ্কার ইস্যুতে এরদোয়ানের ইউটার্ন

নাগরিকত্ব আইন সংশোধনের ইঙ্গিত দিলেন কাতারের আমির

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ২০:২৫

কাতারে অতিরিক্ত উপজাতীয়তাবাদের বিষয়ে সতর্ক করেছেন দেশটির ক্ষমতাসীন আমির। মঙ্গলবার তিনি বলেছেন, এতে হুমকির মুখে পড়ছে জাতীয় ঐক্য। এই সংকট মোকাবিলায় নাগরিকদের সাম্য প্রতিষ্ঠায় নাগরিকত্ব আইন সংশোধনের প্রস্তাব দিয়েছেন তিনি। বর্তমানে এই আইন উপজাতীয়তাবাদ উসকে দিচ্ছে বলে মনে করেন তিনি। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

এই মাসের শুরুর দিকে কাতারে প্রথমবারের মতো শুরা কাউন্সিলের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এই উপদেষ্টা কাউন্সিলের উদ্বোধনী অধিবেশনে আমির আগামী বছর ফুটবল বিশ্বকাপ আয়োজনের সময়ে কাতারের জনগণকে আরও বেশি সহিষ্ণুতা প্রদর্শনের আহ্বান জানান।

কাতারের বর্তমান নাগরিকত্ব আইন অনুযায়ী, ১৯৩০ সালের আগে যাদের পরিবার কাতারে বসবাস করতেন না তারা শুরা কাউন্সিলের নির্বাচনে ভোট দিতে পারেনি। এ নিয়ে দেশটিতে তীব্র বিতর্ক শুরু হয়েছে।

আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি বলেছেন, কাতারের জনগণকে সমান অধিকার দিয়ে আইন সংশোধন করতে মন্ত্রিসভাকে নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি। ওই সংশোধনী অনুমোদনের জন্য শুরা কাউন্সিলে পাঠানো হবে।

উপজাতীয় অসহিষ্ণুতাকে রোগ আখ্যা দিয়ে কাতারের আমির বলেন, ‘যদিও... নাগরিকত্ব সম্পূর্ণ আইনি ইস্যু নয় কিন্তু এটা মূলত সভ্যতা এবং আনুগত্য এবং কর্তব্যের ইস্যু, কেবল অধিকার নয়।’ তিনি বলেন, ‘ঘৃণাবাদী অসহিষ্ণুতা, সেটা উপজাতীয়তা হোক কিংবা অন্য কিছু, তা জাতীয় ঐক্য ধ্বংস করে দিতে পারে।’

আগামী বছর বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনে তোড়জোড় শুরু করেছে কাতার। তারা আশা করছেন, ২৮ দিনের টুর্নামেন্টে প্রায় ১২ লাখ অনুরাগী দেশটি সফর করবেন। আমির শেখ তামিম বলেন, এই আয়োজন বিশ্বের দরবারে কাতারের মর্যাদা বাড়ানোর সুযোগ।

/জেজে/এমওএফ/

সম্পর্কিত

ওমরাহ পালনের নিয়ম শিথিল করলো সৌদি আরব

ওমরাহ পালনের নিয়ম শিথিল করলো সৌদি আরব

পশ্চিমা রাষ্ট্রদূতদের বহিষ্কার ইস্যুতে এরদোয়ানের ইউটার্ন

পশ্চিমা রাষ্ট্রদূতদের বহিষ্কার ইস্যুতে এরদোয়ানের ইউটার্ন

পশ্চিম তীরে নতুন ১৩০০ বাড়ি বানাবে ইসরায়েল

পশ্চিম তীরে নতুন ১৩০০ বাড়ি বানাবে ইসরায়েল

আরব দেশগুলোর উচিত ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করা: খামেনি

আরব দেশগুলোর উচিত ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করা: খামেনি

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

উদ্বেগজনক ইস্যুতে চীন-মার্কিন আলোচনায় অগ্রগতি

উদ্বেগজনক ইস্যুতে চীন-মার্কিন আলোচনায় অগ্রগতি

প্রথমবারের মতো জান্তার আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন সু চি: এএফপি

প্রথমবারের মতো জান্তার আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন সু চি: এএফপি

‘ফেক নিউজ’ ভারতে বেশি

‘ফেক নিউজ’ ভারতে বেশি

আফগান নারী বিচারকরা আত্মগোপনে, অপরাধীরা রাস্তায়

আফগান নারী বিচারকরা আত্মগোপনে, অপরাধীরা রাস্তায়

পশ্চিমা রাষ্ট্রদূতদের বহিষ্কার ইস্যুতে এরদোয়ানের ইউটার্ন

পশ্চিমা রাষ্ট্রদূতদের বহিষ্কার ইস্যুতে এরদোয়ানের ইউটার্ন

জান্তা স্বীকৃতি পেলেও মিয়ানমারে সহিংসতা থামবে না: জাতিসংঘ দূত

জান্তা স্বীকৃতি পেলেও মিয়ানমারে সহিংসতা থামবে না: জাতিসংঘ দূত

জাতিসংঘের প্রতিবেদন বিদ্বেষপূর্ণ: দাবি উত্তর কোরিয়ার

জাতিসংঘের প্রতিবেদন বিদ্বেষপূর্ণ: দাবি উত্তর কোরিয়ার

আফগানিস্তান ইস্যুতে সিরিজ বৈঠকে অংশ নেবে রাশিয়া

আফগানিস্তান ইস্যুতে সিরিজ বৈঠকে অংশ নেবে রাশিয়া

সর্বশেষ

একটি সেতুর জন্য পাঁচ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ

একটি সেতুর জন্য পাঁচ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ

ক্ষতিপূরণ না পেয়ে মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে রিট

ক্ষতিপূরণ না পেয়ে মেয়র আতিকের বিরুদ্ধে রিট

সৌদি খেজুর ও ভিয়েতনামের নারিকেল চাষে মিলবে ব্যাংক ঋণ

সৌদি খেজুর ও ভিয়েতনামের নারিকেল চাষে মিলবে ব্যাংক ঋণ

মাংস খাওয়া নিয়ে সংঘর্ষে নববধূকে তালাক, পরদিন ফের বিয়ে

মাংস খাওয়া নিয়ে সংঘর্ষে নববধূকে তালাক, পরদিন ফের বিয়ে

মীরসরাইয়ে বিদ্রোহী প্রার্থীর অফিসে ভাঙচুরের অভিযোগ

মীরসরাইয়ে বিদ্রোহী প্রার্থীর অফিসে ভাঙচুরের অভিযোগ

© 2021 Bangla Tribune