X
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৭ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

৯/১১ হামলার ২০ বছর: চোখের জলে নিহতদের স্মরণ

আপডেট : ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:৩৯

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলায় (৯/১১ সন্ত্রাসী হামলা) নিহতদের চোখের জলে স্মরণ করেছেন স্বজনরা। ১১ সেপ্টেম্বর হামলার ২০ বছর পূর্তি উপলক্ষে টুইন টাওয়ারের ধ্বংসস্তুপের পাশে গ্রাউন্ড জিরোতে তারা নিহতদের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানান। এ সময় অনেকে চোখের জল ফেলেন। 

ওই হামলায় লিসা রেইনা নামে একজন হারিয়েছেন তার স্বামীকে। তিনি বলেন, ‘২০ বছর হিসাব করলে অনেক সময়; কিন্তু অনুভূতিটা এমন, যেন গতকালের ঘটনা’।

ছিনতাই করা ওই বিমানটি বিধ্বস্তের সময় থেকে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। সকাল ৮টা ৪৬ মিনিট থেকে তারা ১ মিনিট নীরবতা পালন করেন। ২০২১ সালের ঠিক এই সময়ে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের উত্তর টাওয়ারে প্রথমে হামলা হয়। গ্রাউন্ড জিরো মেমোরিয়ালে নিহতদের নামের পাশে দিনভর পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন স্বজনসহ অন্যান্য নাগরিকরা। 

দুই দশক আগে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টার ধসে পড়ার স্থানে জড়ো হন বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন, সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ও বিল ক্লিনটন। তাদের সবার পরনে ছিল নীল রঙের রিবন। নিরবতার মাধ্যমে শ্রদ্ধা জানাতে তারা সবাই বুকে হাত রেখে দাঁড়ান। সেখানে জড়ো হন কয়েক হাজার মার্কিন জনগণ। অনেকের হাতে ছিল নিহত স্বজনের ছবি।

আরও ৫টি মুহূর্তে নীরবতা পালন করা হয়। এর মধ্যে দক্ষিণ টাওয়ারে দ্বিতীয় প্লেন হামলার সময় একবার, ভার্জিনিয়ার পেন্টগনে তৃতীয় জেট বিমান হামলার সময়ে একবার, পেনসিলভানিয়াতে চতুর্থ প্লেন হামলার সময় এবং সর্বশেষ টাওয়ার ধ্বংসের সময় থেকে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। 

এদিকে, আলোর দুটি রশ্মি চার মাইল উচ্চে আকাশে জ্বলতে দেখা গেছে, যে পর্যন্ত  টাওয়ারগুলো দাঁড়িয়ে ছিল। নিহতদের স্মরণের এই আনুষ্ঠানিকতা রাত পর্যন্ত চলবে।

উল্লেখ্য ২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কের স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৯টার দিকে টুইন টাওয়ারে সন্ত্রাসী হামলায় নিহত হয়েছিলেন ২ হাজার ৯৭৭ জন মানুষ। যাত্রীবাহী বিমান ব্যবহার করে টুইন টাওয়ারে চালানো সন্ত্রাসী হামলাকে মনে করা হয় আমেরিকার ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ হামলার ঘটনাগুলোর একটি। আলকায়েদাকে এ হামলার জন্য দায়ী করা হয়।  

সূত্র: বিবিসি

/আইএ/

সম্পর্কিত

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

২-৬ মাসের ব্যবধানে বুস্টার ডোজে বাড়ে কার্যকারিতা: জনসন অ্যান্ড জনসন

২-৬ মাসের ব্যবধানে বুস্টার ডোজে বাড়ে কার্যকারিতা: জনসন অ্যান্ড জনসন

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৯

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে বিশ্ব নেতাদের সামনে কথা বলতে চেয়েছে তালেবান। এই সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক শহরে বসছে এই অধিবেশন। গত সোমবার তালেবান পররাষ্ট্রমন্ত্রী চিঠি দিয়ে এই অনুরোধ জানিয়েছেন। এই অনুরোধের বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেবে জাতিসংঘের একটি কমিটি।

এছাড়া তালেবান তাদের দোহাভিত্তিক মুখপাত্র সুহাইল শাহিনকে জাতিসংঘে আফগানিস্তানের দূত নিয়োগ করেছেন। গত মাসে আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেওয়া তালেবান বলছে উৎখাত হওয়া সরকারের দূত আর আফগানিস্তানের প্রতিনিধিত্ব করে না।

জাতিসংঘের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, উচ্চ পর্যায়ের বিতর্কে অংশগ্রহণের অনুরোধ বিবেচনা করে একটি আস্থা কমিটি। এই কমিটির নয় সদস্যের মধ্যে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, চীন ও রাশিয়া।

তবে আগামী সোমবার সাধারণ অধিবেশন শেষ হওয়ার আগে ওই কমিটির বৈঠকের সম্ভাবনা কম। অন্তত তখন পর্যন্ত জাতিসংঘের নিয়ম অনুযায়ী গুলাম ইসাকজাই সংস্থাটিতে জাতিসংঘের প্রতিনিধিত্ব করবেন। আশা করা হচ্ছে তিনি আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর অধিবেশনের শেষ দিনে বক্তব্য রাখবেন।

তবে তালেবান দাবি করেছে, গুলাম ইসাকজাই এর মিশন আর আফগানিস্তানের প্রতিনিধিত্ব করে না। তালেবান আরও বলেছে, বেশ কয়েকটি দেশ এখন আর সাবেক প্রেসিডেন্ট আশরাফ গণিকে আর নেতা স্বীকৃতি দেয় না।

গত ১৫ আগস্ট তালেবান কাবুলের পৌঁছানোর আগে আশরাফ গণি পালিয়ে যান। তারপর থেকেই তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাতে আশ্রয় নিয়েছেন।

/জেজে/
টাইমলাইন: আফগানিস্তান সংকট
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৯
জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:২৫
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:২৯
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:১৮

সম্পর্কিত

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

তালেবানকে বয়কট করবেন না: জাতিসংঘে কাতারের আমির

তালেবানকে বয়কট করবেন না: জাতিসংঘে কাতারের আমির

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৫৬

যুদ্ধ বিধ্বস্ত আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও তুরস্ক। মঙ্গলবার জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের পার্শ্ব বৈঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন ও তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু আফগান ইস্যুতে এমন প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

ন্যাটোর মিত্র দেশের পরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের আগে ব্লিনকেন বলেন, আফগানিস্তানে আঙ্কারা-ওয়াশিংটন একসঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে। এজন্য তাদের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ।

আর কাভুসোগলু বলেন, আঙ্কারা আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রকে সহযোগিতা দিয়ে যাবে। পাশাপাশি দু’দেশের দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতাও জোরদার করবে’।

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর তুরস্ক কাবুল বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ও লজিস্টিক  সহায়তা দেবে কিনা এমন ইস্যুতে বেশ কিছুদিন দিন ধরেই আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে এই দুই দেশ। কিন্তু আলোচনায় এখনও পর্যন্ত কোন ইতিবাক ফলাফল আসেনি। 

/এলকে/
টাইমলাইন: আফগানিস্তান সংকট
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৫৩
আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:২৫
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:২৯
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:১৮

সম্পর্কিত

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

তালেবানকে বয়কট করবেন না: জাতিসংঘে কাতারের আমির

তালেবানকে বয়কট করবেন না: জাতিসংঘে কাতারের আমির

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৫৭

১৯৫০-৫৩ সালের কোরীয় যুদ্ধ অবসানে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণার আহ্বান জানিয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন। নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিয়ে মুন বলেন, কোরীয় যুদ্ধের সমাপ্তির জন্য আমি আবারও বিশ্ব সম্প্রদায়ের সহযোগিতার জোর আহ্বান জানাচ্ছি।

এই সংকট চিরতরে নিরসনে একটি প্রস্তাব দিয়ে তিনি বলেন, কোরিয়ার তিনটি দল অথবা দুই কোরিয়ার চারটি দলের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্র এবং চীন মিলে ঘোষণা দেবে যে কোরীয় যুদ্ধ সমাপ্তি হয়েছে।

উত্তর কোরিয়াও এই উপদ্বীপের যুদ্ধ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা চেয়েছিল। এ বিষয়ে পিয়ংইয়ং-এর তৎপরতাও দেখা যায়। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্ত্বাধীন জাতিসংঘের কমান্ডের কৌশলগত ভূমিকার কারণে তা সম্ভব হয়নি।

মুন এর আগেও যুদ্ধ বন্ধের ঘোষণা নিয়ে চেষ্টা চালান। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যুদ্ধ বন্ধের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে সহায়তা করবে। কিন্তু ওয়াশিংটন জানিয়েছে, আগে পিয়ংইয়ং-কে অবশ্যই পরমাণু অস্ত্র ছাড়তে হবে।  

১৯৫০ সালের ২৫ জুন শুরু হয় কোরীয় যুদ্ধ। ওই সময় দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে সর্বাত্মক যুদ্ধে উত্তর কোরীয় ট্যাংক ও সেনারা সীমান্ত অতিক্রম করে। যুদ্ধে দক্ষিণ কোরিয়ার হয়ে উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে অংশ নেয় যুক্তরাষ্ট্র। সত্তর বছর আগের ওই যুদ্ধে উত্তর কোরিয়ায় নিহত হন কয়েক হাজার মার্কিন সেনা। এর তিন বছরের মাথায় একটি চুক্তি সইয়ের মধ্যে দিয়ে যুদ্ধবিরতিতে পৌঁছায় দুই দেশ। কিন্তু আনুষ্ঠানিকভাবে কোরীয় যুদ্ধের এখনও ইতি টানা হয়নি।

/এলকে/

সম্পর্কিত

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

২-৬ মাসের ব্যবধানে বুস্টার ডোজে বাড়ে কার্যকারিতা: জনসন অ্যান্ড জনসন

২-৬ মাসের ব্যবধানে বুস্টার ডোজে বাড়ে কার্যকারিতা: জনসন অ্যান্ড জনসন

তালেবানকে বয়কট করবেন না: জাতিসংঘে কাতারের আমির

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৩৪

তালেবানকে বয়কট না করতে বিশ্ব নেতাদের প্রতি জোর আহ্বান জানিয়েছেন কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগ দিয়ে বিশ্ব নেতাদের সামনে তিনি আফগানিস্তানের পরিস্থিতি তুলে ধরেন।

মঞ্চে দাঁড়িয়ে কাতারের আমির উদ্বেগ জানিয়ে বলেন, ‘তালেবানকে প্রত্যাখান করা মানে সংকট আরও তীব্রতর হওয়া। এজন্য সবার উচিত তালেবান গোষ্ঠীর সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাওয়া। কারণ আলোচনার মাধ্যমেই ইতিবাচক ফলাফল বয়ে আনতে পারে’।  

তালেবান রাজধানী কাবুল দখলের পর বিদেশি সেনা প্রত্যাহার এবং দেশটি থেকে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশগুলো মুখ ফিরিয়ে নেয়। তবে সংকটময় পরিস্থিতিতেও পাশে দাঁড়িয়েছে কাতার। ইতোমধ্যে আফগান জনগণের জন্য ত্রাণ সহায়তাও পাঠিয়েছে দেশটি।

তালেবান সরকার ক্ষমতায় আসায় বিদেশি সহায়তার ওপর নির্ভরশীল আফগানিস্তানে ত্রাণ সহায়তা বন্ধ করে দিয়েছে পশ্চিমা দেশগুলো। এতে দুর্ভিক্ষের মুখোমুখি আফগানরা। এমন পরিস্থিতিতে বিশ্ব সম্প্রদায়কে তালেবান সরকারের পাশে থাকতে আহ্বান জানান আমির শেখ তামিম।

/এলকে/
টাইমলাইন: আফগানিস্তান সংকট
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:২৮
তালেবানকে বয়কট করবেন না: জাতিসংঘে কাতারের আমির
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:২৫
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:২৯
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:১৮

সম্পর্কিত

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:৫৮

গত ২০ বছরে আফগানিস্তানের সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবানের বিরুদ্ধে লড়াই ‘বৃথা যায়নি’ বলে দাবি করেছেন ন্যাটো মহাসচিব জেন্স স্টোলটেনবার্গ। তবে দীর্ঘ দুই দশকের লড়াইয়ে ন্যাটোর মিত্রদেরকে উচ্চ মূল্য দিতে হয়েছে বলে জানান তিনি। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) জাতিসংঘের বাইরে কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরাকে এক সাক্ষাৎকারে আফগানিস্তানের প্রসঙ্গে এ কথা বলেন ন্যাটো মহাসচিব।

আফগান যুদ্ধে ৩৬০০ মার্কিন ও ন্যাটো সেনা নিহতের বিষয়ে স্টোলটেনবার্গকে প্রশ্ন করা হলে জবাবে বলেন, ‘দীর্ঘ সময়ের যুদ্ধের কারণে আমাদের মিত্রদের চড়া মূল্য দিতে হয়েছে। কিন্তু আমাদের প্রচেষ্টা বিফল ছিল না’।

সন্ত্রাস নির্মুলের যুদ্ধে গত বিশ বছর আফগানিস্তানের মাটিতে কাটাতে হয়েছে ন্যাটোর সেনাদের। এত কিছুর পরও গত ১৫ আগস্ট রাজধানী কাবুল দখলে করে নেয় তালেবান গোষ্ঠী। এ প্রসঙ্গে আল-জাজিরাকে তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করতে আমরা আফগানিস্তানে গিয়েছিলাম। আমাদের মিত্রদের বিরুদ্ধে হামলা বন্ধ করতে। গত ২০ বছরে আফগানিস্তান থেকে কোনও সন্ত্রাসী হামলা সংগঠিত হয়নি। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়, আফগানদের সামজিক ও অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নতি ঘটাতে সাহায্য করেছি’।  

তবে, আফগানিস্তান এখন তালেবানের অধীনে চলে যাওয়াকে আফগানদের জন্য ট্রাজেডি এবং হৃদয়বিদারক বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

/এলকে/
টাইমলাইন: আফগানিস্তান সংকট
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩:২৩
‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:২৫
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:২৯
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:১৮

সম্পর্কিত

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

২-৬ মাসের ব্যবধানে বুস্টার ডোজে বাড়ে কার্যকারিতা: জনসন অ্যান্ড জনসন

২-৬ মাসের ব্যবধানে বুস্টার ডোজে বাড়ে কার্যকারিতা: জনসন অ্যান্ড জনসন

যুক্তরাষ্ট্র ‘নতুন শীতল যুদ্ধ’ চায় না: চীনকে ইঙ্গিত করে বাইডেন

যুক্তরাষ্ট্র ‘নতুন শীতল যুদ্ধ’ চায় না: চীনকে ইঙ্গিত করে বাইডেন

'সতর্ক বার্তা', পারমাণবিক সাবমেরিন ইস্যুতে ফ্রান্সের পাশে জার্মানি

'সতর্ক বার্তা', পারমাণবিক সাবমেরিন ইস্যুতে ফ্রান্সের পাশে জার্মানি

টিকা গ্রহণকারীদের জন্য খুলছে যুক্তরাষ্ট্রের দুয়ার

টিকা গ্রহণকারীদের জন্য খুলছে যুক্তরাষ্ট্রের দুয়ার

তিন বিশ্ব শক্তির চুক্তিতে পারমাণবিক অস্ত্র প্রতিযোগিতা শুরু হতে পারে: উ. কোরিয়া

আকাস চুক্তির কারণে অস্ত্র প্রতিযোগিতা শুরুর আশঙ্কা উ. কোরিয়ার

ফ্রান্সের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র সফরে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী

ফ্রান্সের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যেই যুক্তরাষ্ট্র সফরে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী

সাবমেরিন বিতর্কে যুক্তরাজ্যের সঙ্গে বৈঠক বাতিল করলো ফ্রান্স

যুক্তরাজ্যের সঙ্গে ফ্রান্সের প্রতিরক্ষা বৈঠক বাতিল

সর্বশেষ

রাজধানীতে মাদকসহ গ্রেফতার ৫০ 

রাজধানীতে মাদকসহ গ্রেফতার ৫০ 

আমদানি কমার অজুহাতে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম

আমদানি কমার অজুহাতে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম

সিনহা হত্যা মামলা: তৃতীয় দফায় শেষ দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

সিনহা হত্যা মামলা: তৃতীয় দফায় শেষ দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

রামেকের করোনা ইউনিটে ২২ দিনে ১৩৮ জনের মৃত্যু

রামেকের করোনা ইউনিটে ২২ দিনে ১৩৮ জনের মৃত্যু

ইভ্যালিকাণ্ডে ই-কমার্সে আস্থার সংকট চরমে

ইভ্যালিকাণ্ডে ই-কমার্সে আস্থার সংকট চরমে

© 2021 Bangla Tribune