X
বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৭ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

চীনে নতুন সংক্রমণের সঙ্গে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের যোগসূত্র

আপডেট : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:৫০

চীনের ফুজিয়ান প্রদেশে নতুন করে করোনাভাইরাস আক্রান্ত বাড়ার সঙ্গে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্টতা সামনে এসেছে। প্রাথমিক অনুসন্ধানে দেখা যাচ্ছে এই সংক্রমণ সম্ভবত এক শিক্ষার্থীর বাবার কাছ থেকে ঘটেছে। গত সপ্তাহে তিনি করোনা আক্রান্ত হন।

গত চার দিনে একশ’রও বেশি আক্রান্ত শনাক্তের পর ফুজিয়ান কর্তৃপক্ষ এক সপ্তাহের মধ্যে সব শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীর করোনাভাইরাস পরীক্ষার নির্দেশ দিয়েছে। নানজিং সংক্রমণ ঠেকানোর এক মাসের মধ্যে ফুজিয়ানে সংক্রমণের কথা জানা গেছে। উহানের পর সবচেয়ে বড় সংক্রমণ নানজিংয়ে হয়েছে বলে মনে করে চীনা কর্তৃপক্ষ।

ফুজিয়ান প্রদেশের পুতিয়ান শহরেই সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ দেখা গেছে। শহরটিতে প্রায় ৩০ লাখ মানুষের বসবাস। ওই এলাকায় প্রথম আক্রান্তের সঙ্গে একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।

এই সংক্রমণের প্রাথমিক উৎস বলে মনে করা হচ্ছে এক শিক্ষার্থীর বাবাকে। তিনি গত ৪ আগস্ট সিঙ্গাপুর থেকে ফেরার ৩৮ দিনের মাথায় গত ১০ সেপ্টেম্বর করোনায় আক্রান্ত হন। রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস জানিয়েছে, ওই ব্যক্তি ২১ দিন কোয়ারেন্টিন কাটিয়েছেন। সেই সময়ে তার নয়টি নিউক্লিক এসিড এবং সেরোলোজিক পরীক্ষা করা হয়। তার প্রতিটিইতে নেগেটিভ রেজাল্ট আসে।

সংক্রমণ ঠেকানোর চেষ্টায় নানা পদক্ষেপের ঘোষণা দিয়েছেন কর্মকর্তারা। স্কুল বন্ধ করে দেওয়ার পাশাপাশি পুতিয়ান থেকে কেই বের হতে চাইলে বিগত ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে করোনার নেগেটিভ রেজাল্টের প্রমাণ সরবরাহ করতে হচ্ছে। সিনেমা, জাদুঘর এবং লাইব্রেরির ঘরের অভ্যন্তরের কার্যক্রম বন্ধ করতে বলা হয়েছে। আর রেস্টুরেন্ট খোলা রাখার সময়ও কমানো হয়েছে।

/জেজে/

সম্পর্কিত

চীন কখনও কর্তৃত্ব চাইবে না: শি জিনপিং

চীন কখনও কর্তৃত্ব চাইবে না: শি জিনপিং

চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তানের কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠক আফগান প্রধানমন্ত্রীর

চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তানের কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠক আফগান প্রধানমন্ত্রীর

চীনা বিলিয়নিয়ারের লোকসান ২৭০০ কোটি ডলার

চীনা বিলিয়নিয়ারের লোকসান ২৭০০ কোটি ডলার

সম্পর্কের উন্নতি চাইলে সীমান্তের সেনা প্রত্যাহার করুন: চীনকে ভারত

সম্পর্কের উন্নতি চাইলে সীমান্তের সেনা প্রত্যাহার করুন: চীনকে ভারত

চীন কখনও কর্তৃত্ব চাইবে না: শি জিনপিং

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:২৭

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে উত্তেজনা বাড়ার মধ্যে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বলেছেন, কোনও দেশের মধ্যে বিরোধ হলে তা আলোচনা ও সহযোগিতার মধ্য দিয়ে নিরসনের প্রয়োজন। এছাড়া তিনি বিশ্ব নেতাদের ‘সংঘাত ও বর্জন’ এড়ানোর আহ্বান জানান।

৭৬তম জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে ভিডিও লিংকের মাধ্যমে রাখা বক্তব্যে শি জিনপিং বলেন, বিশ্বের উচিত শান্তি, উন্নয়ন, সমতা, ন্যায়বিচার, গণতন্ত্র এবং স্বাধীনতার পক্ষে থাকা। তিনি বলেন, এগুলোই মানবতার সাধারণ মূল্যবোধ। ছোট ছোট চক্র গড়ার চর্চা প্রত্যাখ্যানের আহ্বান জানান তিনি।

চীনা প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘দেশগুলোর মধ্যে ভিন্নতা ও সমস্যা, এড়ানো কঠিন হলে তা সমতা এবং পারস্পারিক সম্মানের ভিত্তিতে আলোচনা এবং সহযোগিতার মধ্য দিয়ে নিরসনের প্রয়োজন। এক দেশের সফলতার অর্থ অন্য দেশের ব্যর্থতা নয়। আর সব দেশের উন্নয়ন ও প্রগতির জন্য বিশ্ব যথেষ্ট বড়।’

জিনপিংয়ের বক্তব্যের কয়েক ঘণ্টা আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, চীনের সঙ্গে ‘নতুন স্বায়ু যুদ্ধ’ শুরুর কোনও ইচ্ছা তার নেই। বাণিজ্য, প্রযুক্তি, দক্ষিণ চীন সমুদ্র এবং মানবাধিকারের মতো বেশ কিছু ইস্যুতে চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মতবিরোধ চলছে।

চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বলেন, সংঘাত ও বর্জনের বদলে আমাদের আলোচনা এবং অংশগ্রহণ অনুসন্ধানের প্রয়োজন। আমাদের নতুন ধরনের এক আন্তর্জাতিক সম্পর্ক তৈরি করা দরকার, যার ভিত্তি হবে পারস্পারিক শ্রদ্ধা, সমতা, ন্যায়বিচার, এবং সকলের জন্য লাভজনক সহযোগিতা। এছাড়া আমাদের স্বার্থ একীভূত করে সম্প্রসারণের সর্বোচ্চ চেষ্টা করা উচিত।

/জেজে/

সম্পর্কিত

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তানের কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠক আফগান প্রধানমন্ত্রীর

চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তানের কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠক আফগান প্রধানমন্ত্রীর

পৃথিবী এখন আরও বিভক্ত: জাতিসংঘ মহাসচিব

পৃথিবী এখন আরও বিভক্ত: জাতিসংঘ মহাসচিব

তালেবানের অংশগ্রহণ চায় পাকিস্তান, বাতিল হলো সার্ক বৈঠক: এএনআই

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩৩

নিউ ইয়র্কে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক সহযোগিতা সংগঠন সার্ক সদস্য দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের একটি বাতিল হয়েছে। আগামী শনিবার এই বৈঠকের কথা ছিলো। বিশ্বাসযোগ্য সূত্রের বরাতে ভারতীয় বার্তা সংস্থা এএনআই জানিয়েছে, পাকিস্তান চেয়েছিলো সার্ক বৈঠকে আফগানিস্তানের প্রতিনিধিত্ব করুক তালেবান।

তবে ভারতসহ কয়েকটি সদস্য দেশ ওই প্রস্তাবের বিরোধিতা করে। ফলে ঐক্যমত বা সম্মতির অভাবে বৈঠকটি বাতিল হয়ে গেছে।

বৈঠকটির আয়োজক ছিলো নেপাল। প্রতিবছর জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের পার্শ্ববৈঠক হিসেবে সার্ক সদস্যদের বৈঠক হয়ে থাকে।

তালেবানকে এখনও স্বীকৃতি দেয়নি ভারত। কাবুলের নতুন শাসকদের এখনও বিশ্ব স্বীকৃতি মেলেনি। আর তালেবান মন্ত্রিসভার কয়েক সদস্য এখনও জাতিসংঘের নিষিদ্ধ তালিকায় রয়েছেন।

তালেবান নেতৃত্বাধীন আফগান সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকি। তিনি সম্ভবত জাতিসংঘের এবং এর অনুমোদিত কোনও বৈঠকে উপস্থিত থাকতে পারছেন না।

দক্ষিণ এশিয়ার আঞ্চলিক সহায়তা সংগঠন সার্ক। এর সদস্য দেশগুলো হলো বাংলাদেশ, ভুটান, ভারত, মালদ্বীপ, নেপাল, পাকিস্তান এবং শ্রীলংকা।

এএনআই জানিয়েছে, সার্কের সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্য বৈঠকে আফগানিস্তানের জন্য একটি চেয়ার খালি রাখতে সম্মত হয়েছিলেন। তবে পাকিস্তান তাতে রাজি হয়নি। ফলে বাতিল হয়ে যায় বৈঠকটি।

সার্ক সচিবালয় জানিয়েছে, সব সদস্য দেশের সম্মতির অভাবে বৈঠকটি বাতিল হয়ে গেছে।

/জেজে/
টাইমলাইন: আফগানিস্তান সংকট
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩৩
তালেবানের অংশগ্রহণ চায় পাকিস্তান, বাতিল হলো সার্ক বৈঠক: এএনআই
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:২৫
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:২৯
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:১৮

সম্পর্কিত

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

তালেবানকে বয়কট করবেন না: জাতিসংঘে কাতারের আমির

তালেবানকে বয়কট করবেন না: জাতিসংঘে কাতারের আমির

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৯

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে বিশ্ব নেতাদের সামনে কথা বলতে চেয়েছে তালেবান। এই সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্ক শহরে বসছে এই অধিবেশন। গত সোমবার তালেবান পররাষ্ট্রমন্ত্রী চিঠি দিয়ে এই অনুরোধ জানিয়েছেন। এই অনুরোধের বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেবে জাতিসংঘের একটি কমিটি।

এছাড়া তালেবান তাদের দোহাভিত্তিক মুখপাত্র সুহাইল শাহিনকে জাতিসংঘে আফগানিস্তানের দূত নিয়োগ করেছেন। গত মাসে আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেওয়া তালেবান বলছে উৎখাত হওয়া সরকারের দূত আর আফগানিস্তানের প্রতিনিধিত্ব করে না।

জাতিসংঘের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, উচ্চ পর্যায়ের বিতর্কে অংশগ্রহণের অনুরোধ বিবেচনা করে একটি আস্থা কমিটি। এই কমিটির নয় সদস্যের মধ্যে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, চীন ও রাশিয়া।

তবে আগামী সোমবার সাধারণ অধিবেশন শেষ হওয়ার আগে ওই কমিটির বৈঠকের সম্ভাবনা কম। অন্তত তখন পর্যন্ত জাতিসংঘের নিয়ম অনুযায়ী গুলাম ইসাকজাই সংস্থাটিতে জাতিসংঘের প্রতিনিধিত্ব করবেন। আশা করা হচ্ছে তিনি আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর অধিবেশনের শেষ দিনে বক্তব্য রাখবেন।

তবে তালেবান দাবি করেছে, গুলাম ইসাকজাই এর মিশন আর আফগানিস্তানের প্রতিনিধিত্ব করে না। তালেবান আরও বলেছে, বেশ কয়েকটি দেশ এখন আর সাবেক প্রেসিডেন্ট আশরাফ গণিকে আর নেতা স্বীকৃতি দেয় না।

গত ১৫ আগস্ট তালেবান কাবুলের পৌঁছানোর আগে আশরাফ গণি পালিয়ে যান। তারপর থেকেই তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাতে আশ্রয় নিয়েছেন।

/জেজে/
টাইমলাইন: আফগানিস্তান সংকট
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:৩৯
জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:২৫
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:২৯
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:১৮

সম্পর্কিত

চীন কখনও কর্তৃত্ব চাইবে না: শি জিনপিং

চীন কখনও কর্তৃত্ব চাইবে না: শি জিনপিং

তালেবানের অংশগ্রহণ চায় পাকিস্তান, বাতিল হলো সার্ক বৈঠক: এএনআই

তালেবানের অংশগ্রহণ চায় পাকিস্তান, বাতিল হলো সার্ক বৈঠক: এএনআই

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৫৬

যুদ্ধ বিধ্বস্ত আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও তুরস্ক। মঙ্গলবার জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনের পার্শ্ব বৈঠকে পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিনকেন ও তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভুসোগলু আফগান ইস্যুতে এমন প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন।

ন্যাটোর মিত্র দেশের পরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকের আগে ব্লিনকেন বলেন, আফগানিস্তানে আঙ্কারা-ওয়াশিংটন একসঙ্গে কাজ করে যাচ্ছে। এজন্য তাদের প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ।

আর কাভুসোগলু বলেন, আঙ্কারা আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রকে সহযোগিতা দিয়ে যাবে। পাশাপাশি দু’দেশের দ্বিপাক্ষিক সহযোগিতাও জোরদার করবে’।

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর তুরস্ক কাবুল বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ও লজিস্টিক  সহায়তা দেবে কিনা এমন ইস্যুতে বেশ কিছুদিন দিন ধরেই আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে এই দুই দেশ। কিন্তু আলোচনায় এখনও পর্যন্ত কোন ইতিবাক ফলাফল আসেনি। 

/এলকে/
টাইমলাইন: আফগানিস্তান সংকট
২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৬:৫৩
আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:২৫
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:২৯
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:১৮

সম্পর্কিত

তালেবানের অংশগ্রহণ চায় পাকিস্তান, বাতিল হলো সার্ক বৈঠক: এএনআই

তালেবানের অংশগ্রহণ চায় পাকিস্তান, বাতিল হলো সার্ক বৈঠক: এএনআই

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

তালেবানকে বয়কট করবেন না: জাতিসংঘে কাতারের আমির

তালেবানকে বয়কট করবেন না: জাতিসংঘে কাতারের আমির

‘কোরীয় যুদ্ধ’ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণার আহ্বান দ. কোরিয়ার প্রেসিডেন্টের

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭:৫৭

১৯৫০-৫৩ সালের কোরীয় যুদ্ধ অবসানে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণার আহ্বান জানিয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন। নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিয়ে মুন বলেন, কোরীয় যুদ্ধের সমাপ্তির জন্য আমি আবারও বিশ্ব সম্প্রদায়ের সহযোগিতার জোর আহ্বান জানাচ্ছি।

এই সংকট চিরতরে নিরসনে একটি প্রস্তাব দিয়ে তিনি বলেন, কোরিয়ার তিনটি দল অথবা দুই কোরিয়ার চারটি দলের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্র এবং চীন মিলে ঘোষণা দেবে যে কোরীয় যুদ্ধ সমাপ্তি হয়েছে।

উত্তর কোরিয়াও এই উপদ্বীপের যুদ্ধ বন্ধে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা চেয়েছিল। এ বিষয়ে পিয়ংইয়ং-এর তৎপরতাও দেখা যায়। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্ত্বাধীন জাতিসংঘের কমান্ডের কৌশলগত ভূমিকার কারণে তা সম্ভব হয়নি।

মুন এর আগেও যুদ্ধ বন্ধের ঘোষণা নিয়ে চেষ্টা চালান। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, যুদ্ধ বন্ধের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু নিরস্ত্রীকরণে সহায়তা করবে। কিন্তু ওয়াশিংটন জানিয়েছে, আগে পিয়ংইয়ং-কে অবশ্যই পরমাণু অস্ত্র ছাড়তে হবে।  

১৯৫০ সালের ২৫ জুন শুরু হয় কোরীয় যুদ্ধ। ওই সময় দক্ষিণ কোরিয়ার বিরুদ্ধে সর্বাত্মক যুদ্ধে উত্তর কোরীয় ট্যাংক ও সেনারা সীমান্ত অতিক্রম করে। যুদ্ধে দক্ষিণ কোরিয়ার হয়ে উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধে অংশ নেয় যুক্তরাষ্ট্র। সত্তর বছর আগের ওই যুদ্ধে উত্তর কোরিয়ায় নিহত হন কয়েক হাজার মার্কিন সেনা। এর তিন বছরের মাথায় একটি চুক্তি সইয়ের মধ্যে দিয়ে যুদ্ধবিরতিতে পৌঁছায় দুই দেশ। কিন্তু আনুষ্ঠানিকভাবে কোরীয় যুদ্ধের এখনও ইতি টানা হয়নি।

/এলকে/

সম্পর্কিত

চীন কখনও কর্তৃত্ব চাইবে না: শি জিনপিং

চীন কখনও কর্তৃত্ব চাইবে না: শি জিনপিং

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে কথা বলতে চায় তালেবান

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

আফগানিস্তানে সহযোগিতা অব্যাহত রাখার প্রতিশ্রুতি যুক্তরাষ্ট্র-তুরস্কের

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

‘তালেবানের বিরুদ্ধে দুই দশকের লড়াই বৃথা যায়নি’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

চীন কখনও কর্তৃত্ব চাইবে না: শি জিনপিং

চীন কখনও কর্তৃত্ব চাইবে না: শি জিনপিং

চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তানের কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠক আফগান প্রধানমন্ত্রীর

চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তানের কূটনীতিকদের সঙ্গে বৈঠক আফগান প্রধানমন্ত্রীর

চীনা বিলিয়নিয়ারের লোকসান ২৭০০ কোটি ডলার

চীনা বিলিয়নিয়ারের লোকসান ২৭০০ কোটি ডলার

সম্পর্কের উন্নতি চাইলে সীমান্তের সেনা প্রত্যাহার করুন: চীনকে ভারত

সম্পর্কের উন্নতি চাইলে সীমান্তের সেনা প্রত্যাহার করুন: চীনকে ভারত

শেষ হলো চীনের সবচেয়ে দীর্ঘমেয়াদি মানুষবাহী মহাকাশ মিশন

পৃথিবীতে ফিরলেন তিন চীনা নভোচারী

অবস্থান জোরালো করতে বাণিজ্য চুক্তিতে যুক্ত হতে চায় চীন

অবস্থান জোরালো করতে বাণিজ্য চুক্তিতে যুক্ত হতে চায় চীন

৩ দেশের চুক্তি চরম দায়িত্বজ্ঞানহীনতা: চীন

৩ দেশের চুক্তি চরম দায়িত্বজ্ঞানহীনতা: চীন

অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ইঙ্গ-মার্কিন চুক্তিতে ‘শীতল যুদ্ধের মানসিকতা’ দেখছে চীন

অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ইঙ্গ-মার্কিন চুক্তিতে ‘শীতল যুদ্ধের মানসিকতা’ দেখছে চীন

চীনের মারাত্মক হুমকি, প্রতিরক্ষা ব্যয় বাড়াচ্ছে তাইওয়ান

প্রতিরক্ষা ব্যয় ৯০০ কোটি ডলার বাড়াচ্ছে তাইওয়ান

চীন মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ার চুক্তি স্বাক্ষর

চীন মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও অস্ট্রেলিয়ার চুক্তি স্বাক্ষর

সর্বশেষ

থেমে থাকা লড়ির সঙ্গে দ্রুতগামী পিকআপের ধাক্কা, নিহত ১ 

থেমে থাকা লড়ির সঙ্গে দ্রুতগামী পিকআপের ধাক্কা, নিহত ১ 

বিসিবির ১৭১ কাউন্সিলর চূড়ান্ত

বিসিবির ১৭১ কাউন্সিলর চূড়ান্ত

চীন কখনও কর্তৃত্ব চাইবে না: শি জিনপিং

চীন কখনও কর্তৃত্ব চাইবে না: শি জিনপিং

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে প্রাণ গেলো স্বামী-স্ত্রীর

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে প্রাণ গেলো স্বামী-স্ত্রীর

ঘরের আড়ায় ঝুলছিল মা, বিছানায় শিশুর লাশ

ঘরের আড়ায় ঝুলছিল মা, বিছানায় শিশুর লাশ

© 2021 Bangla Tribune