X
সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৫ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

অন্যের হয়ে জেলখাটা মিনুর সন্তানদের দায়িত্ব নিতে চায় কেএসআরএম

আপডেট : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:১২

অন্যের হয়ে জেলখাটা মিনু আক্তারের দুই সন্তান ইয়াসিন (১২) ও গোলাপের (৯) পড়ালেখা ও ভরণপোষণের দায়িত্ব নিচ্ছে দেশের অন্যতম ইস্পাত নির্মাণ শিল্প প্রতিষ্ঠান কেএসআরএম। বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশের পর প্রতিষ্ঠানের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহরিয়ার জাহান রাহাত মিনুর দুই সন্তানের দায়িত্ব নেওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেন। 

কেএসআরএমের মিডিয়া অ্যাডভাইজার মিজানুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, কোম্পানির উপব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহরিয়ার জাহান রাহাতের আগ্রহের কথা ইতোমধ্যে জেলা প্রশাসককে জানানো হয়েছে। মূলত জেলা প্রশাসকের নির্দেশনা অনুযায়ী কেএসআরএম করণীয় নির্ধারণ করবে।  

টাকার বিনিময়ে অন্যজনের পরিবর্তে সাজা খাটা সেই মিনু মুক্ত

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক মমিনুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, কেএসআরএম মিনুর দুই সন্তানের পড়ালেখা ও ভরণপোষণের দায়িত্ব নিতে চায়। তারা এটি আমাদের জানিয়েছে। আমরাও চাই ওই দুই শিশু সমাজের অন্য ৮/১০ ছেলে মেয়ের মতো সুযোগ-সুবিধা পেয়ে বড় হোক। তাই কেএসআরএমের প্রস্তাবে আমরা সম্মতি দিয়েছি। খুব শিগগির অনুষ্ঠানিক প্রক্রিয়ার মাধ্যমে কেএসআরএমকে এই দায়িত্ব দেওয়া হবে।

মিনুর দুই সন্তানের পড়ালেখা ও ভরণপোষণের দায়িত্ব নিতে চাওয়ায় কেএসআরএমের প্রশংসা করেন মিনুর আইনজীবী গোলাম মাওলা মুরাদ। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, কেএসআরএমের এমন উদারতা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবিদার। 

প্রসঙ্গত, স্বামী ছেড়ে চলে যাওয়ার পর মিনু আক্তার তার তিন সন্তানের ভরণপোষণের আশ্বাসে অন্যের হয়ে কারাগারে যান। সম্প্রতি বিষয়টি আদালতে নজরে আনেন তার আইনজীবী। এরপর আইনি প্রক্রিয়া শেষে গত ১৬ জুন মিনু কারাগার থেকে মুক্তি পান। এরমধ্যে নানা অভাব অনটনে মারা যায় মিনুর কন্যসন্তান জান্নাত। কারামুক্তির ১৩ দিনের মাথায় রহস্যজনক সড়ক দুর্ঘটনায় মিনুও মারা যান। গত ২৮ জুন দিবাগত রাতে চট্টগ্রাম নগরের বায়েজিদ বোস্তামী ফৌজদার হাট সংযোগ সড়কের আরেফিন নগর এলাকায় মিনুকে গাড়িচাপা দেয়। এতে গুরুতর আহত হন তিনি। খবর পেয়ে পুলিশ তাকে উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখানে ২৯ জুন ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান মিনু। কোনও পরিচয় না পাওয়ায় এক দিন পরে অজ্ঞাত হিসেবে তার লাশ দাফন করে আঞ্জুমান মফিদুল ইসলাম। ৩ জুলাই রাতে পুলিশ ও তার পরিবারের সদস্যরা নিশ্চিত হন যে অজ্ঞাত হিসেবে দাফন করা লাশটি মিনুর।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

টেকনাফে সংঘাত, দুই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত

টেকনাফে সংঘাত, দুই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত

কক্সবাজারে নির্বাচনি সহিংসতায় নিহত ২

কক্সবাজারে নির্বাচনি সহিংসতায় নিহত ২

সোনাগাজীতে কেন্দ্রের গোপন কক্ষ থেকে ৯ বহিরাগত আটক  

সোনাগাজীতে কেন্দ্রের গোপন কক্ষ থেকে ৯ বহিরাগত আটক  

মহেশখালীতে আ.লীগ-বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের গোলাগুলিতে নিহত ১  

মহেশখালীতে আ.লীগ-বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের গোলাগুলিতে নিহত ১  

টেকনাফে সংঘাত, দুই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৫৮

ব্যালট ছিনতাইয়ের ঘটনায় টেকনাফের উনছিপ্রাং ও লম্বাবিল কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। এ ঘটনায় রাস্তায় অবরোধ করে গাড়ি ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পারভেজ চৌধুরী, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) আবু সুফিয়ান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইরফানুল হক চৌধুরী ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন। 

টেকনাফ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটানিং কর্মকর্তা মো. বেদারুল ইসলাম বলেন, 'উনছিপ্রাং ও লম্বাবিল কেন্দ্রে ব্যালট পেপার খুঁজে না পাওয়াকে কেন্দ্র করে দুই ইউপি সদস্যর সমর্থকরা হামলা ও ভাঙচুর চালায়। পরে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।’ 

এছাড়া টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ হাজি বশির আহমদ উচ্চ বিদ্যালয়ে জাল ভোট দেওয়ার অভিযোগে এক রোহিঙ্গা যুবককে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তা মো.ফারুক। 

এদিকে কক্সবাজারে টেকনাফের চারটি ইউনিয়নে সোমবার সকাল ৮টায় শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। বিভিন্ন কেন্দ্রে ঘুরে নারী ভোটারদের স্বতঃস্ফূর্ত উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।

চার ইউনিয়নের নির্বাচনে চেয়ারম্যান, সংরক্ষিত মহিলা ও সাধারণ সদস্য হিসেবে ৪২৮ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এতে নৌকার চার জনসহ চেয়ারম্যান ২৫ জন, সংরক্ষিত মহিলা ৬৮ জন ও সাধারণ সদস্য হিসেবে ৩৩৫ জন লড়ছেন।



/টিটি/

সম্পর্কিত

কক্সবাজারে নির্বাচনি সহিংসতায় নিহত ২

কক্সবাজারে নির্বাচনি সহিংসতায় নিহত ২

জুয়ার আসর থেকে ইউপি চেয়ারম্যানসহ গ্রেফতার ৬

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৫০

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে জুয়ার আসর থেকে ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানসহ ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার নারায়ণপুর গ্রামের একটি বাড়ি থেকে তাদেরকে আটক করে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন—গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার ১নং কিশোরগাড়ী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম রিন্টু (৫২), সদর উপজেলার মধ্যপাড়া গ্রামের মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে হুমায়ুন কবীর (৬৩), দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটের রামপাড়া গ্রামের শামীম মিয়া (৪৫), নুরপুর গ্রামের রাইনুর ইসলাম রানু সরকার (৪৫), কশিগাড়ী গ্রামের শ্রী বকুল সরকার (৪৫) এবং সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুর উপজেলার শহিদুল ইসলাম (৪২)।

গ্রেফতারকালে তাদের কাছ থেকে নগদ তিন লাখ ৯৪ হাজার টাকা, তিনটি মোটরসাইকেল ও পাঁচটি মোবাইল উদ্ধার করা হয়েছে।

ঘোড়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু হাসান কবির জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে আমরা জুয়া খেলার বিভিন্ন সরঞ্জাম ও নগদ অর্থসহ প্রায় সাড়ে আট লাখ টাকার মালামাল উদ্ধার করেছি। তাদের বিরুদ্ধে জুয়া আইনে মামলার পর আজ সকালে দিনাজপুর আদালতে পাঠানো হয়েছে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

বিয়ের দিন ধর্ষণের শিকার তরুণী

বিয়ের দিন ধর্ষণের শিকার তরুণী

বিলীন হওয়ার পথে ৩ গ্রাম

বিলীন হওয়ার পথে ৩ গ্রাম

‘বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের পুরস্কারদাতারা অন্ধকারে হারিয়ে গেছে’

‘বঙ্গবন্ধুর হত্যাকারীদের পুরস্কারদাতারা অন্ধকারে হারিয়ে গেছে’

যৌন হয়রানির অভিযোগে পুলিশ কনস্টেবল গ্রেফতার

যৌন হয়রানির অভিযোগে পুলিশ কনস্টেবল গ্রেফতার

কক্সবাজারে নির্বাচনি সহিংসতায় নিহত ২

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৩৩

কক্সবাজারের মহেশখালী এবং কুতুবদিয়ায় নির্বাচনি সহিংসতায় দুই জন প্রাণ হারিয়েছেন। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টার দিকে মহেশখালীর কুতুবজোম ইউনিয়নের নোয়াপাড়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে আওয়ামী লীগ ও বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনায় একজন নিহত হন।

অন্যদিকে কুতুবদিয়া উপজেলার পিলটকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র দখলের সময় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে গুলিতে একজন নিহতের খবর পাওয়া গেছে। ঘটনার পর দুটি কেন্দ্রেই ভোটগ্রহণ স্থগিত রয়েছে। 

মহেশখালীতে দুই পক্ষের গোলাগুলিতে নিহত হন আবুল কালাম (৪০) নামে এক ব্যক্তি। এ ঘটনায় আরও সাত জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, সকাল ১০ টার দিকে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী শেখ কামাল ও বিদ্রোহী প্রার্থী মোশাররফ হোসেন খোকনের সমর্থকরা কেন্দ্র দখলে নেওয়ার চেষ্টা করেন। দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে এ সময় গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে। গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলে আবুল কালাম নামের একজন মারা যান।

মহেশখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল হাই বলেন, কেন্দ্র দখলের চেষ্টার সময় দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। এতে একজন নিহত হয়েছেন, গুলিবিদ্ধ অবস্থায় সাত জনকে কক্সবাজারের জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত রয়েছে বলে জানান তিনি।

অন্যদিকে স্থানীয়রা জানান, কুতুবদিয়া উপজেলার পিলটকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র দখলের চেষ্টা করলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় গুলিতে স্থানীয় মো. হোসেনের ছেলে আব্দুল হালিম (৩৫) গুলিতে হয়ে প্রাণ হারান। 

কুতুবদিয়া থানার ওসি ওমর হায়দার নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ঘটনার পর কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত আছে বলে জানান তিনি। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

টেকনাফে সংঘাত, দুই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত

টেকনাফে সংঘাত, দুই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত

হাঁটুপানি মাড়িয়ে ভোট কেন্দ্রে ভোটাররা (ফটোস্টোরি)

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৩২

যশোরের নওয়াপাড়া পৌরসভা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে। তবে রবিবার রাত থেকে বৃষ্টি হওয়ায় সকালে ভোটারের উপস্থিতি ছিল কম। অধিকাংশ কেন্দ্রে পানি জমে আছে। তবে এই পৌরসভায় প্রথমবারের মতো ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএমে) ভোটগ্রহণ হওয়ায় ভোটারদের মাঝে ছিল ব্যাপক উৎসাহ। তাই কষ্ট হলেও বৃষ্টি ও কেন্দ্রের জলাবদ্ধতা উপেক্ষা করে এসে ভোট দিতে পেরে সন্তুষ্ট তারা।

বাংলা ট্রিবিউনের যশোর প্রতিনিধির পাঠানো ছবিতে দেখুন ভোট কেন্দ্রের পরিস্থিতি-

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

বৃষ্টিতে ভোটকেন্দ্রের চাল দিয়ে পড়ছে পানি 

বৃষ্টিতে ভোটকেন্দ্রের চাল দিয়ে পড়ছে পানি 

ছাতা মাথায় কেন্দ্রে খুলনার ভোটাররা 

ছাতা মাথায় কেন্দ্রে খুলনার ভোটাররা 

মোংলায় ভোটের আগের রাতে সহিংসতায় নারীর মৃত্যু

মোংলায় ভোটের আগের রাতে সহিংসতায় নারীর মৃত্যু

বেনাপোল ইমিগ্রেশনে ভারতফেরত বাংলাদেশির মৃত্যু

বেনাপোল ইমিগ্রেশনে ভারতফেরত বাংলাদেশির মৃত্যু

সোনাগাজীতে কেন্দ্রের গোপন কক্ষ থেকে ৯ বহিরাগত আটক  

আপডেট : ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:৪৪

শক্তিশালী বিরোধী দলগুলোর প্রার্থী না থাকায় রঙ হারিয়েছিল সোনাগাজী পৌর নির্বাচন। সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে ভোটগ্রহণ শুরুর পর বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ উঠে। ভোটকেন্দ্রে বহিরাগতদের ব্যাপক উপস্থিতির বিষয়ে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় ভোটাররা। পুলিশ কেন্দ্রের গোপন কক্ষ থেকে ৯ জন বহিরাগতকে আটকও করেছে। 

সকাল ৮টা থেকে তিন স্তরের নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে পৌর এলাকার ৯টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। তবে কেন্দ্রে ভোটারদের উপস্থিতি কম লক্ষ্য করা গেছে। 

নির্বাচনে মেয়র পদে চার জন, সাধারণ ৯টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ২৩ জন এবং সংরক্ষিত দুটি ওয়ার্ডে চার জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সংরক্ষিত ২ নম্বর ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে তাছলিমা আক্তার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

মেয়র পদের প্রার্থীরা হলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান মেয়র অ্যাড. রফিকুল ইসলাম (নৌকা), ইসলামি আন্দোলনের হাফেজ মো. হিজবুল্লাহ (হাতপাখা), স্বতন্ত্র প্রার্থী শেখ সেলিম (জগ) ও আবু নাছের (মোবাইলফোন)।

প্রথমবারের মতো এ পৌরসভার সব কটি কেন্দ্রেই ইভিএমে ভোটগ্রহণ হচ্ছে। ৯টি কেন্দ্রের ৪৯ বুথে ৭৫টি ইভিএম মেশিনে ভোট দিচ্ছেন ১৫ হাজার ৯৮৫ জন ভোটার। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

টেকনাফে সংঘাত, দুই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত

টেকনাফে সংঘাত, দুই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত

কক্সবাজারে নির্বাচনি সহিংসতায় নিহত ২

কক্সবাজারে নির্বাচনি সহিংসতায় নিহত ২

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

টেকনাফে সংঘাত, দুই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত

টেকনাফে সংঘাত, দুই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত

কক্সবাজারে নির্বাচনি সহিংসতায় নিহত ২

কক্সবাজারে নির্বাচনি সহিংসতায় নিহত ২

সোনাগাজীতে কেন্দ্রের গোপন কক্ষ থেকে ৯ বহিরাগত আটক  

সোনাগাজীতে কেন্দ্রের গোপন কক্ষ থেকে ৯ বহিরাগত আটক  

মহেশখালীতে আ.লীগ-বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের গোলাগুলিতে নিহত ১  

মহেশখালীতে আ.লীগ-বিদ্রোহী প্রার্থীর সমর্থকদের গোলাগুলিতে নিহত ১  

সিনহা হত্যা মামলা: তৃতীয় দফা সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

সিনহা হত্যা মামলা: তৃতীয় দফা সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

চট্টগ্রামে সর্বনিম্ন শনাক্তের দিনে একজনের মৃত্যু

চট্টগ্রামে সর্বনিম্ন শনাক্তের দিনে একজনের মৃত্যু

নোয়াখালীতে নৌকার দুই প্রার্থীর ভোট বর্জন

নোয়াখালীতে নৌকার দুই প্রার্থীর ভোট বর্জন

হামলা ও প্রাণনাশের হুমকিতে কবিরহাটের ২ কাউন্সিলর প্রার্থীর ভোট বর্জন 

হামলা ও প্রাণনাশের হুমকিতে কবিরহাটের ২ কাউন্সিলর প্রার্থীর ভোট বর্জন 

৪ সন্তানসহ মায়ের বিষপান, ঘরে ধরিয়ে দেন আগুন

৪ সন্তানসহ মায়ের বিষপান, ঘরে ধরিয়ে দেন আগুন

এক চিকিৎসক দিয়েই চলছে একটি হাসপাতাল

এক চিকিৎসক দিয়েই চলছে একটি হাসপাতাল

সর্বশেষ

ই-কমার্স রেগুলেটরি অথরিটি গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

ই-কমার্স রেগুলেটরি অথরিটি গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

বিএনপির আন্দোলনের বর্তমান প্রয়াসও নিষ্ফল হবে: ওবায়দুল কাদের

বিএনপির আন্দোলনের বর্তমান প্রয়াসও নিষ্ফল হবে: ওবায়দুল কাদের

টেকনাফে সংঘাত, দুই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত

টেকনাফে সংঘাত, দুই কেন্দ্রে ভোট স্থগিত

স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সঠিকভাবে কাজ করানোর দায়িত্ব আমার: এলজিআরডিমন্ত্রী

স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সঠিকভাবে কাজ করানোর দায়িত্ব আমার: এলজিআরডিমন্ত্রী

পারিশ্রমিকে ইতিহাস গড়তে যাচ্ছে কঙ্গনা

পারিশ্রমিকে ইতিহাস গড়তে যাচ্ছে কঙ্গনা

© 2021 Bangla Tribune