X
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ৬ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

তালেবানে বাস্তববাদী ও কট্টরপন্থীদের বিরোধ বাড়ছে

আপডেট : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:৪৪

তালেবান নেতৃত্বে বাস্তববাদী ও আদর্শগত কট্টরপন্থী অংশের মধ্যে বিরোধ বাড়ছে। গত সপ্তাহে কট্টরপন্থীদের নিয়ে মন্ত্রিসভা গঠনের এই বিরোধ জোরালো হয়েছে। নতুন মন্ত্রিসভাটি সাম্প্রতিক অন্তর্ভুক্তিকরণের প্রতিশ্রুতির চেয়ে তালেবানের প্রথম শাসনামলের কঠোর আইনের সঙ্গে বেশি সংগতিপূর্ণ। কাবুলে ক্ষমতার দ্বন্দ্বের বিষয়টি সম্পর্কে অবগত দুই আফগানকে উদ্ধৃত করে মার্কিন বার্তা সংস্থা এপি এখবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, তালেবান নেতাদের এই টানাপড়েন পর্দার আড়ালে ঘটছে। কিন্তু এই বিষয়ে জল্পনা দ্রুতই ছড়িয়ে পড়ছে। বিশেষ প্রেসিডেন্ট প্যালেসে দুই পক্ষের সহিংস সংঘর্ষের পর তার আরও জোরদার হয়েছে। গুজব ছড়ায় বাস্তববাদী অংশের নেতা আবদুল গণি বারাদার নিহত হয়েছেন।

গুজবটি এত জোরালো ছিল যে তালেবানের পক্ষ থেকে বারাদারের অডিও এবং হাতে লেখা বার্তা প্রকাশ করা হয়। তালেবান দাবি করেছে, এগুলো বারাদারের নিজের। অস্বীকার করা হয়েছে তার নিহতের কথা। পরে বুধবার বারাদার আফগানিস্তানের জাতীয় টেলিভিশনে সাক্ষাৎকারে হাজির হয়েছেন।

নিহতের গুজবের বিষয়ে বারাদার বলেছেন, আমি কাবুল থেকে ভ্রমণে ছিলাম। তাই এমন খবর অস্বীকার করতে মিডিয়া কাছে হাজির হওয়ার সুযোগ ছিল না।

যুক্তরাষ্ট্রের স্বাক্ষরিত শান্তিচুক্তির ক্ষেত্রে তালেবানের প্রধান মধ্যস্থতাকারী ছিলেন বারাদার। এই চুক্তির আওতায় যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তান ছেড়ে যায়। যা ৩০ আগস্ট সম্পন্ন হয়। এর দুই সপ্তাহ আগে তালেবান কাবুল দখল করে।

কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর পরই বারাদারই ছিলেন প্রথম সিনিয়র তালেবান কর্মকর্তা যিনি অন্তর্ভুক্তিমূলক সরকারের সম্ভাব্যতার কথা বলেছিলেন। কিন্তু গত সপ্তাহে কেবল পুরুষ ও কেবল তালেবান নেতাদের সরকার গঠন করায় এই সম্ভাবনার মৃত্যু হয়।

কট্টরপন্থীরাই যে এখন প্রভাবশালী ও তাদের নিয়ন্ত্রণে আফগানিস্তান সেটির ইঙ্গিত উঠে আসে যখন আফগানিস্তানের জাতীয় পতাকার বদলে তালেবানের সাদা পতাকা দেশটির প্রেসিডেন্ট প্যালেসে উড়তে দেখা যায়।

এক তালেবান কর্মকর্তা জানান, নেতারা এখনও পতাকার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি। অনেকেই দুই পতাকা পাশাপাশি উড়ানোর কথা সমর্থন করছেন।

নিরাপত্তা স্বার্থে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দুই আফগান জানান, মন্ত্রিসভা নিয়ে গোষ্ঠীটির মধ্যে বিরোধ বাড়ছে। একজন জানান, মন্ত্রিসভার এক সদস্য মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব গ্রহণে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন। দেশের জাতিগত ও ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের বাদ দিয়ে কেবল তালেবান সরকার গঠনে ক্ষুব্ধ হয়ে তিনি এই অস্বীকৃতি জানান।

সরকারি অনুষ্ঠানে নেই বারাদার

তালেবান মুখপাত্র জবিউল্লাহ মুজাহিদ নেতাদের বিরোধের কথা অস্বীকার করেছেন। মঙ্গলবার তালেবান পররাষ্ট্রমন্ত্রী আমির খান মুত্তাকি এমন খবরকে প্রোপাগান্ডা বলে উল্লেখ করেছেন।

প্রকাশ্যে অস্বীকার করলেও গত কিছুদিন ধরে সরকারের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে মোল্লা বারাদারের উপস্থিতি নেই। এমনকি এই সপ্তাহে কাতারের উপ-প্রধানমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন আবদুর রহমান আল-থানিকে অভ্যর্থনা জানাতে প্রেসিডেন্ট প্যালেসে ছিলেন না তিনি। তার অনুপস্থিতি আলোচনার জন্ম দিয়েছে কারণ দীর্ঘদিন ধরে কাতারে রাজনৈতিক কার্যালয়ের প্রধান ছিলেন তিনি।

কিন্তু বুধবার প্রকাশিত সাক্ষাৎকারে বারাদার বলেছেন, কাতারি মন্ত্রীর সফর সম্পর্কে তিনি অবগত ছিলেন না। বলেন, আমি কাবুল ছেড়ে চলে আসি এবং ফিরতে পারিনি।

বারাদারের সঙ্গে যোগাযোগ থাকা বেশ কয়েকজন কর্মকর্তা ও আফগান এর আগে বলেছিনে, তালেবান নেতা হাইবাতুল্লাহ আখুন্দজাদার সঙ্গে বৈঠকের জন্য তিনি কান্দাহার রয়েছেন।

আরেক তালেবান সদস্য জানান, কান্দাহার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করতে গেছেন বারাদার। যুদ্ধের কারণে গত বিশ বছর তাদের সঙ্গে তার দেখা হয়নি।

বিশ্লেষকরা বলছেন, এই বিরোধ আপাতত তালেবানের জন্য গুরুতর কোনও হুমকি হয়ে দেখা দেবে না। ওয়াশিংটনভিত্তিক উইলসন সেন্টারের এশিয়া প্রোগ্রামের উপ-পরিচালক মাইকেল কুগেলম্যান বলেন, অনেক বছর ধরে আমরা দেখে আসছি বিরোধের পরও তালেবান মূলত ঐক্যবদ্ধ সংগঠন হিসেবে বিরাজ করছে এবং এই বিরোধের পরও তাদের বড় সিদ্ধান্তে কোনও গুরুতর পিছিয়ে আসার সম্ভাবনা কম।  

তিনি আরও বলেন, আমার মনে হয় অভ্যন্তরীণ এই বিরোধ সামলে নেবে তালেবান। এরপরও তাদেরকে অনেক চাপে থাকতে হবে। কারণ তাদের ক্ষমতা সুসংহত, বৈধতা আদায় এবং বড় ধরনের নীতিগত চ্যালেঞ্জ সমাধান করতে হবে। এগুলোতে যদি ব্যর্থতা আসে তাহলে যে কোনও সংগঠনেই অভ্যন্তরীণ বিরোধ চরম হয়ে উঠতে পারে।

/এএ/

সম্পর্কিত

বিদেশি শ্রমিকদের ওপর আংশিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার মালয়েশিয়ার

বিদেশি শ্রমিকদের ওপর আংশিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার মালয়েশিয়ার

আফগান জনগণের কঠিন মুহূর্তে পাশে আছে পাকিস্তান

আফগান জনগণের কঠিন মুহূর্তে পাশে আছে পাকিস্তান

অনির্দিষ্টকাল রাস্তা আটকে বিক্ষোভ চলতে পারে না: ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

অনির্দিষ্টকাল রাস্তা আটকে বিক্ষোভ চলতে পারে না: ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

সহকর্মীকে গুলি, পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দিচ্ছেন না নার্সরা

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ২৩:০২

পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দিতে অস্বীকৃতি জানাচ্ছেন এসওয়াতিনির নার্সরা। তাদের অভিযোগ গত বুধবার গণতন্ত্রপন্থী বিক্ষোভের সময় সহকর্মী নার্সদের ওপর গুলি চালিয়েছে পুলিশ।

আফ্রিকার সর্বশেষ চরম রাজতন্ত্র এসওয়াতিনি। পুরনো নাম সোয়াজিল্যান্ড। গত জুন থেকে সেই দেশে বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে। বিক্ষোভের কারণে এই সপ্তাহে ফেসবুকের মতো বেশ কিছু ইন্টারনেট সার্ভিস সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হয়।

সরকার দাবি করে আসছে নিরাপত্তা বাহিনী তাজা গুলি ব্যবহার করেনি। এবার তারা সব ধরণের বিক্ষোভই নিষিদ্ধ করে দিয়েছে।

তবে শুক্রবার জানা যাচ্ছে, তিনটি হাসপাতালের নার্সরা বিক্ষোভ করছেন। দ্য সোয়াজি নিউজ টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে। এতে দেখা গেছে, দেশের দক্ষিণাঞ্চলের নাহলানগো হেলথ সেন্টারের নার্সরা বিক্ষোভ করছেন।

এই সপ্তাহের আগের দিকে স্বাস্থ্যকর্মীসহ সরকারি সেক্টরের কর্মীরা জীবনমানের উন্নয়নের দাবির আবেদন পত্র পার্লামেন্টে জমা দিতে যান। সোয়াজিল্যান্ড ডেমোক্র্যাটিক নার্সেস ইউনিয়ন (এসডিএনইউ) বলেছে, সেখানে এসব কর্মীরা ‘অভূতপূর্ব শক্তির প্রদর্শনি দেখেছে।’ ইউনিয়নের দাবি সেদিন পুলিশ ও সেনাবাহিনী গুলি চালালে ৩০ নার্স আহত এবং এক তরুণ পথচারী নিহত হয়।

নিরাপত্তা বাহিনীকে ‘রক্তখেকোদের বংশধর’ উল্লেখ করে এসডিএনইউ সব নার্সকে ‘গুলিবিদ্ধ নার্সদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে পুলিশ সদস্যদের সেবা না দেওয়ার’ আহ্বান জানিয়েছে।

এই পদক্ষেপ সবাইকে সেবা দেওয়ার মূলনীতির বিরুদ্ধে যাচ্ছে স্বীকার করে ইউনিয়নের প্রেসিডেন্ট ওয়েলকাম মুদুলি বলেছেন, তাদের সদস্যরা এখন পুলিশ ভয় পাচ্ছে। তিনি বলেন, ‘আমরা শুনতে পাচ্ছি হাসপাতালের অভ্যন্তরে পুলিশ স্বাস্থ্যকর্মীদের ওপর গুলি চালিয়েছে... আমরা তাদের ভয় পাচ্ছি।’

ওয়েলকাম মুদুলির এখন দাবি, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় নিশ্চয়তা দিক যে- নার্সরা নিরাপদ থাকবে। তারপরই চিকিৎসা সেবা দেওয়া বয়কটের অবসান ঘটবে বলে জানান তিনি।

কর্তৃপক্ষ বলছে, কেউ গুলিবিদ্ধ হয়নি আর গত বুধবার পুলিশ সহিংস হয়ে উঠতে যাওয়া একটি মিছিল ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করেছে। এসওয়াতিনির উপপ্রধানমন্ত্রী থেম্বা মাসুকু বলেন, পুলিশ রাখাই হয়েছে সম্পদ রক্ষায়। তিনি বলেন, ‘রাস্তায় পুলিশ গুলি চালিয়েছে- এমন কথার মধ্যে কোনও সত্যতা নেই।’

/জেজে/

সম্পর্কিত

পার্লামেন্টে ঢুকে শিক্ষকদের বেতনের দাবি জানালো স্কুল শিক্ষার্থীরা

পার্লামেন্টে ঢুকে শিক্ষকদের বেতনের দাবি জানালো স্কুল শিক্ষার্থীরা

সেই মিশনারিদের জন্য ১ কোটি ৭০ লাখ ডলার মুক্তিপণ দাবি

সেই মিশনারিদের জন্য ১ কোটি ৭০ লাখ ডলার মুক্তিপণ দাবি

প্রতিশোধের অঙ্গীকার নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্টের

প্রতিশোধের অঙ্গীকার নাইজেরিয়ার প্রেসিডেন্টের

নাইজেরিয়ায় বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত ৪৩

নাইজেরিয়ায় বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত ৪৩

শুটিং সেটে অ্যালেক বল্ডউইনের প্রপ গানের গুলিতে চিত্রগ্রাহক নিহত

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ২২:৩৯

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ মেক্সিকোর একটি শুটিং সেটে তারকা অভিনেতা অ্যালেক বল্ডউইনের চলচ্চিত্রে ব্যবহৃত বন্দুকের (প্রপ গান) গুলিতে একনারী চিত্রগ্রাহক নিহত হয়েছেন। এতে আহত হয়েছেন ছবিটির পরিচালক। উনিশ শতকের ওয়েস্টার্ন ঘরানার চলচ্চিত্র ‘রাস্ট’-এর সেটে এই ঘটনা ঘটে। স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার আনুমানিক বেলা ১টা ৫০ এর দিকে পুলিশ গুলির ঘটনা জানতে পারে।

নিহত ৪২ বছর বয়সী নারী হ্যালিনা হাচিন্স ডিরেক্টর অব ফটোগ্রাফি হিসেবে কাজ করছিলেন। সেটে কর্মরত অবস্থাতেই তিনি গুলিবিদ্ধ হন। তাকে দ্রুত হেলিকপ্টারে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও গুরুতর জখমের কারণে তার মৃত্যু হয়। এছাড়া ৪৮ বছর বয়সী পরিচালক জোয়েল সুজা গুলিবিদ্ধ হলে তাকে বনানজা ক্রিক র‍্যাঞ্চের সেট থেকে অ্যাম্বুলেন্সে করে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, তারা ঘটনার তদন্ত করছে এবং এখন পর্যন্ত কারও বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

বল্ডউইনের এক মুখপাত্র জানান, প্রপ গান দিয়ে ফাঁকা গুলি চালানোর সময় এমন ঘটনা ঘটেছে।

এনবিসি টিভির সিটকম থার্টি রক-এ জ্যাক ডোনাহির চরিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে ব্যাপক পরিচিতি পান বল্ডউইন। এছাড়া স্কেচ শো স্যাটারডে নাইট লাইভে ডোনাল্ড ট্রাম্পের চরিত্রে অভিনয়ের কারণেও তিনি আলোচনায় এসেছেন। চার ভাইয়ের মধ্যে সবচেয়ে বড় বল্ডউইন ১৯৮০-র দশক থেকে অসংখ্য টিভি এবং চলচ্চিত্রের চরিত্রে অভিনয় করেছেন।

বার্তা সংস্থা এএফপিকে দেওয়া এক বিবৃতিতে সান্টা ফে শেরিফের মুখপাত্র জানান, বল্ডউইন পুলিশের গোয়েন্দাদের সঙ্গে কথা বলেছেন। তিনি বলেন, তিনি স্বেচ্ছায় কথা বলতে এসেছেন এবং জিজ্ঞাসাবাদ শেষ হওয়ার পর তিনি এখান চলে যান।

বল্ডউইন এই চলচ্চিত্রের একজন সহ-প্রযোজক এবং তিনি ছবির নাম ভূমিকায় অভিনয় করছেন। এতে তিনি এক দস্যু চরিত্রে অভিনয় করেছেন যার ১৩ বছর বয়সী নাতি হত্যার দায়ে দোষী সাব্যস্ত হয়েছে।

নিহত হ্যালিনা হাচিন্স

নিহত হাচিন্সের ব্যক্তিগত ওয়েবসাইট থেকে জানা গেছে, তিনি ইউক্রেনের বাসিন্দা ছিলেন এবং তিনি আর্কটিক সার্কেলে সাবেক সোভিয়েত সামরিক ঘাঁটিতে বেড়ে ওঠেন। তিনি কিয়েভে সাংবাদিকতা এবং লস অ্যাঞ্জেলসে চলচ্চিত্র নিয়ে পড়াশোনা করেন। ২০১৯ সালে আমেরিকান সিনেমাটোগ্রাফার ম্যাগাজিন তাকে 'উদীয়মান তারকা' হিসেবে উল্লেখ করেছিল। তিনি অ্যাডাম ইজিপ্ট মর্টিমার পরিচালিত ২০২০ সালের অ্যাকশনধর্মী চলচ্চিত্র 'আর্কেনেমি'-এর ডিরেক্টর অব ফটোগ্রাফি ছিলেন।

ইন্টারন্যাশনাল সিনেমাটোগ্রাফার্স গিল্ড এক বিবৃতিতে বলেছে, হাচিন্সের মৃত্যুর খবর আমাদের ব্যাপকভাবে নাড়া দিয়েছে এবং তার মৃত্যু একটি ‘ভয়াবহ ক্ষতি’।

গিল্ডের সভাপতি জন লিন্ডলে এবং নির্বাহী পরিচালক রেবেকা রাইন বলেন, এই মুহূর্তে পুরো ঘটনাটাই অস্পষ্ট, কিন্তু আমরা আরও তথ্য জানতে কাজ করে যাচ্ছি এবং আমরা এই মর্মান্তিক ঘটনার তদন্তে সব ধরণের সহায়তা দিয়ে যাবো।

শুটিংয়ের সেটে এমন মারাত্মক গোলাগুলির ঘটনা অত্যন্ত বিরল, তবে আগেও ঘটেছে।  ১৯৯৩ সালে প্রয়াত মার্শাল আর্ট তারকা ব্রুস লির ২৮-বছর বয়সী ছেলে ব্র্যান্ডন লিও ঠিক একইভাবে প্রপ গানের গুলিতে নিহত হন। সূত্র: বিবিসি বাংলা

/এএ/

সম্পর্কিত

লম্বা চুল নিষিদ্ধের প্রতিবাদে আদালতে শিক্ষার্থীরা

লম্বা চুল নিষিদ্ধের প্রতিবাদে আদালতে শিক্ষার্থীরা

উইঘুর ইস্যুতে চাপ বাড়ছে চীনের ওপর

উইঘুর ইস্যুতে চাপ বাড়ছে চীনের ওপর

৫-১১ বছরের শিশুদের ওপর ৯০ শতাংশ কার্যকর ফাইজারের টিকা

৫-১১ বছরের শিশুদের ওপর ৯০ শতাংশ কার্যকর ফাইজারের টিকা

লম্বা চুল নিষিদ্ধের প্রতিবাদে আদালতে শিক্ষার্থীরা

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ২১:৫৬

লম্বা চুল নিষিদ্ধ করার প্রতিবাদে টেক্সাসের একটি স্কুল ডিস্ট্রিক্টের বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে সাত শিক্ষার্থী। তাদের অভিযোগ, লম্বা চুল রাখার শাস্তি হিসেবে ৯ বছরের এক ছেলেকে এক মাস বরখাস্ত, তার বিশ্রাম ও সাধারণ মধ্যহ্নভোজের বিরতি বাতিল করেছেন স্কুল কর্মকর্তারা।

শিক্ষার্থীদের হয়ে মামলাটি করেছে আমেরিকান সিভিল লিবার্টিজ ইউনিয়ন অব টেক্সাস। অভিযোগে ওই ছেলেসহ ৭ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীরা বলছে, স্কুলের এই পোশাকবিধি সংবিধানের লঙ্ঘন এবং যৌন বৈষম্য ঠেকানোর আইন পরিপন্থী।

বৃহস্পতিবার স্কুল ডিস্ট্রিক্টের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তারা মামলাটি পর্যালোচনা করছেন। এক বিবৃতিতে নারী মুখপাত্র বলেন, ম্যাগনোলিয়া ইন্ডিপেন্ডেন্ট স্কুল ডিস্ট্রিক্ট ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গিকে শ্রদ্ধা করে এবং নাগরিকের পরিবর্তন চাওয়ার অধিকারকেও শ্রদ্ধা করে।

এই স্কুল ডিস্ট্রিক্টের আওতায় প্রায় ১৩ হাজার শিক্ষার্থী রয়েছে। তাদের পোশাকবিধি অনুসারে, ছেলের চুল তাদের চোখের উপর আসতে পারবে না, কানের নিচের অংশ ছাড়িয়ে যেতে পারবে না অথবা শার্টের কলারের নিচের অংশের চেয়ে বেশি হবে না। সমালোচনার মুখেও কর্তৃপক্ষ নিজেদের সমর্থনে বলেছে, এতে আমাদের কমিউনিটির মূল্যবোধের প্রতিফলন। সূত্র: বিবিসি

/এএ/

সম্পর্কিত

শুটিং সেটে অ্যালেক বল্ডউইনের প্রপ গানের গুলিতে চিত্রগ্রাহক নিহত

শুটিং সেটে অ্যালেক বল্ডউইনের প্রপ গানের গুলিতে চিত্রগ্রাহক নিহত

উইঘুর ইস্যুতে চাপ বাড়ছে চীনের ওপর

উইঘুর ইস্যুতে চাপ বাড়ছে চীনের ওপর

৫-১১ বছরের শিশুদের ওপর ৯০ শতাংশ কার্যকর ফাইজারের টিকা

৫-১১ বছরের শিশুদের ওপর ৯০ শতাংশ কার্যকর ফাইজারের টিকা

উইঘুর ইস্যুতে চাপ বাড়ছে চীনের ওপর

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ২২:৫৭

জিনজিয়াংয়ের মুসলিম উইঘুর জনগোষ্ঠীর জন্য আইনের শাসনের প্রতি পূর্ণ শ্রদ্ধা প্রদর্শন করতে চীনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে ৪৩টি দেশ। বৃহস্পতিবার জাতিসংঘে পঠিত এক বিবৃতিতে এই আহ্বান জানানো হয়েছে। তবে এর ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে বেইজিং।

বিবৃতিতে স্বাক্ষরকারী দেশগুলোর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র ছাড়াও রয়েছে বেশ কয়েকটি ইউরোপীয়ান ও এশিয়ান দেশ। তাদের অভিযোগ, উইঘুরদের বিরুদ্ধে চীন মানবাধিকার হরণ করেই যাচ্ছে। এরমধ্যে রয়েছে নির্যাতন, জোর করে বন্ধ্যাকরণ এবং গুম।

যৌথ ওই বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আমরা চীনকে অবিলম্বে জিনজিয়াংয়ে জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক কমিশনার এবং তার কার্যালয়সহ স্বাধীন পর্যবেক্ষকদের অর্থবহ এবং অবাধ প্রবেশাধিকার দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।’

ফ্রান্সের পঠিত বিবৃতিতে বলা হয়, ‘জিনজিয়াংয়ের উইঘুর স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চলের পরিস্থিতি নিয়ে আমরা বিশেষভাবে উদ্বিগ্ন।’ সেখানে রাজনৈতিক পুনঃশিক্ষণ শিবিরের বড় নেটওয়ার্ক থাকার ‘বিশ্বাসযোগ্য’ প্রতিবেদন রয়েছে বলে উল্লেখ করা হয় বিবৃতিতে। এসব শিবিরে লাখ লাখ মানুষকে বিনা বিচারে আটক রাখা হয়েছে বলে ধারণা করা হয়।

চীনের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে উইঘুর, মূলত মুসলিম তাজিকদের ওপর নিপীড়নের অভিযোগ উঠছে। আর তা ক্রমাগত অস্বীকার করে আসছে বেইজিং। বিশেষজ্ঞদের ধারণা, সেখানে দশ লাখেরও বেশি মানুষকে বন্দিশিবিরে রাখা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ৪৩ দেশের ওই যৌথ বিবৃতিকে ‘মিথ্যা এবং চীনকে আঘাতের ষড়যন্ত্র’ আখ্যা দিয়েছেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বেইজিংয়ের দূত ঝ্যাং জান। তিনি বলেন, ‘জিনজিয়াংয়ের জনগণ উন্নয়ন উপভোগ করছেন এবং সেখানকার মানুষ প্রতিদিন মুক্ত হয়ে উঠছে আর তৈরি করা অগ্রগতিতে তারা গর্বিত।’

এদিকে সাংবাদিকদের চীনা দূত বলেছেন, ওই অঞ্চলে বন্ধুত্বপূর্ণ সফর আয়োজনে বেইজিং সম্মত। তবে জাতিসংঘের মানবাধিকার কার্যালয়ের মাধ্যমে তদন্তে রাজি নন তিনি। ওয়াশিংটন, প্যারিস এবং লন্ডনের মানবাধিকার পরিস্থিতির রেকর্ড ভয়াবহ বলে অভিযোগ করেন চীনা দূত।

যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে স্থানীয় আমেরিকানদের বিরুদ্ধে অমানবিক জাতিগত নির্মূলতা চালানোর অভিযোগ তুলে থাকে চীন। এছাড়া ফ্রান্সের বিরুদ্ধে ঔপনিবেশিক আমলের মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ করে থাকে বেইজিং।

উল্লেখ্য, ২০১৯ ও ২০২০ সালেও একই ধরনের বিবৃতিতে দিয়ে চীনের নিন্দা করা হয়। যুক্তরাষ্ট্র অভিযোগ তোলে বেইজিং গণহত্যা চালাচ্ছে। এসব ঘোষণায় সমর্থন না দিতে সদস্য দেশগুলোর ওপর চাপ প্রয়োগ করে চীন।

/জেজে/এমওএফ/

সম্পর্কিত

শুটিং সেটে অ্যালেক বল্ডউইনের প্রপ গানের গুলিতে চিত্রগ্রাহক নিহত

শুটিং সেটে অ্যালেক বল্ডউইনের প্রপ গানের গুলিতে চিত্রগ্রাহক নিহত

লম্বা চুল নিষিদ্ধের প্রতিবাদে আদালতে শিক্ষার্থীরা

লম্বা চুল নিষিদ্ধের প্রতিবাদে আদালতে শিক্ষার্থীরা

৫-১১ বছরের শিশুদের ওপর ৯০ শতাংশ কার্যকর ফাইজারের টিকা

৫-১১ বছরের শিশুদের ওপর ৯০ শতাংশ কার্যকর ফাইজারের টিকা

প্রায় চার কোটি নাগরিককে নগদ অর্থ দেবে ফ্রান্স

প্রায় চার কোটি নাগরিককে নগদ অর্থ দেবে ফ্রান্স

নেতাদের সামনেই বিজেপি কর্মীদের মারপিট

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ২০:৫৪

ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) পশ্চিমবঙ্গ শাখার অভ্যন্তরীণ বিরোধ সামনে এসেছে। শুক্রবার রাজ্য বিজেপি সভাপতি সুকান্ত মজুমদার এবং তার পূর্বসূরি দিলিপ ঘোষের সামনেই মারপিটে জড়িয়েছে কর্মীরা। শুক্রবার পশ্চিম বর্ধমানের কাটোয়ায় এক অনুষ্ঠানে এই ঘটনা ঘটেছে।

তবে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপের সময় সুকান্ত মজুমদার এবং দিলিপ ঘোষ উভয়েই ঘটনাটিকে খাটো করে দেখাতে চেয়েছেন। আর এই ঘটনার জন্য তৃণমূল কংগ্রেসের এজেন্টদের দায়ী করেছেন। তারা উভয়েই দাবি করেন রাজ্যের নতুন নেতৃত্বের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধ রয়েছে বিজেপি কর্মীরা।

দলীয় এক বৈঠকে যোগ দিতে দুই নেতা কাটোয়ার দইহাটে পৌঁছালে একদল বিজেপি কর্মী দিলিপ ঘোষের বিরুদ্ধে স্লোগান শুরু করে। তার বিরুদ্ধে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় আক্রান্ত দলীয় কর্মীদের সহায়তায় ব্যর্থতার অভিযোগ তোলে বিজেপি কর্মীরা।

সাংবাদিকদের সামনে ওই স্লোগান চলতে থাকলে আরেক দল কর্মী উঠে তাদের সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। তখনই দুই পক্ষের মধ্যে মারপিট শুরু হয়। চেয়ার ছোড়াছুড়ির পাশাপাশি হাতাহাতিও চলে। কিছুক্ষণ পর জেলা পর্যায়ের নেতাদের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

বর্তমানে বিজেপির সর্ব ভারতীয় সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন দিলিপ ঘোষ। আর সুকান্ত মজুমদার সম্প্রতি রাজ্য সভাপতির দায়িত্ব নিয়েছেন।

এই বছরের শুরুতে রাজ্য নির্বাচনে পরাজয়ের পর বেশ কয়েক জন নেতা বিজেপি ছেড়ে গেছেন। বেশিরভাগই ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন। সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়ও যোগ দিয়েছেন তৃণমূলে।

অভ্যন্তরীণ বিবাদের জন্য তৃণমূল কংগ্রেসকে দায়ী করে সুকান্ত মজুমদার বলেন, ‘আমাদের বৈঠকে বিশৃঙ্খলা তৈরি করতে এজেন্ট পাঠিয়েছে তৃণমূল। বিশৃঙ্খলাকারীদের আমরা অবশ্যই শনাক্ত করবো।’

বিশৃঙ্খলায় কোনও কর্মী জড়িত থাকলেও তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান সুকান্ত মজুমদার।

/জেজে/

সম্পর্কিত

আসামে রকেট সিস্টেম বসাচ্ছে ভারত

আসামে রকেট সিস্টেম বসাচ্ছে ভারত

ত্রিপুরায় তৃণমূল এমপির ওপর হামলা

ত্রিপুরায় তৃণমূল এমপির ওপর হামলা

মুম্বাইয়ের ৬০ তলা আবাসিক ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, নিহত ১

মুম্বাইয়ের ৬০ তলা আবাসিক ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, নিহত ১

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

বিদেশি শ্রমিকদের ওপর আংশিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার মালয়েশিয়ার

বিদেশি শ্রমিকদের ওপর আংশিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার মালয়েশিয়ার

আফগান জনগণের কঠিন মুহূর্তে পাশে আছে পাকিস্তান

আফগান জনগণের কঠিন মুহূর্তে পাশে আছে পাকিস্তান

অনির্দিষ্টকাল রাস্তা আটকে বিক্ষোভ চলতে পারে না: ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

অনির্দিষ্টকাল রাস্তা আটকে বিক্ষোভ চলতে পারে না: ভারতের সুপ্রিম কোর্ট

তালেবানের সঙ্গে বৈঠক ভারতের

তালেবানের সঙ্গে বৈঠক ভারতের

প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে সেলফি তোলায় পুলিশ সদস্যদের নোটিস

প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে সেলফি তোলায় পুলিশ সদস্যদের নোটিস

মালয়েশিয়াকে ধন্যবাদ জানালো হামাস

মালয়েশিয়াকে ধন্যবাদ জানালো হামাস

সুপারম্যান-এর বিরুদ্ধে ভারতে ক্ষোভ

সুপারম্যান-এর বিরুদ্ধে ভারতে ক্ষোভ

সর্বশেষ

রোহিঙ্গাদের অভিযোগে আরসা, পুলিশ বললো অস্তিত্ব নেই

রোহিঙ্গাদের অভিযোগে আরসা, পুলিশ বললো অস্তিত্ব নেই

সহকর্মীকে গুলি, পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দিচ্ছেন না নার্সরা

সহকর্মীকে গুলি, পুলিশ সদস্যদের চিকিৎসা দিচ্ছেন না নার্সরা

শুটিং সেটে অ্যালেক বল্ডউইনের প্রপ গানের গুলিতে চিত্রগ্রাহক নিহত

শুটিং সেটে অ্যালেক বল্ডউইনের প্রপ গানের গুলিতে চিত্রগ্রাহক নিহত

সিরাজগঞ্জে মনসুর আলীর নাতির ওপর হামলা

সিরাজগঞ্জে মনসুর আলীর নাতির ওপর হামলা

সহিংসতার বিরুদ্ধে সংগীত 

সহিংসতার বিরুদ্ধে সংগীত 

© 2021 Bangla Tribune