X
বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ৪ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

আমাদের ১৬ কোটি মানুষ তালেবানদের কয়েক বছর খাওয়াতে পারেন: ডা. জাফরুল্লাহ 

আপডেট : ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৪৮

তালেবানদের সাহায্য করতে হবে উল্লেখ করে গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, তালেবানরা মুক্তিযোদ্ধা। তারা ২০ বছর যুদ্ধ করে স্বাধীনতা অর্জন করেছে। তাদের সালাম করতে হবে। শুধু সালাম করলে হবে না, দায়িত্বও আছে। সেখানে খাদ্য সংকটের কথা উঠেছে। এখানের ১৬ কোটি মানুষ, তালেবানদের কয়েক বছর খাওয়াতে পারেন।

শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের আবদুস সালাম হলে 'সন্ত্রাস ও উগ্রবাদ নয়: সম্প্রীতি, ইনসাফ ও সহনশীলতাই ইসলাম' শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ জাতীয় মুফাসসির পরিষদ এই সভার আয়োজন করে। 

জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ভোট ডাকাতির চেয়ে বড় জঙ্গি নেই। যাদের দাঁড়ি আছে, টুপি পরে তাদের জঙ্গি বলি। এটা অন্যায়, ভাঁওতাবাজি। এই ভাঁওতাবাজি বন্ধের জন্য আমাদেরকে বুদ্ধিমান হতে হবে।

তিনি বলেন, ন্যায় প্রতিষ্ঠার প্রক্রিয়ার নামই হলো জিহাদ। মানুষের ওপর অত্যাচারের প্রতিবাদে ইসলাম একটি বিজ্ঞানসম্মত ধর্ম। অধর্মের বিরুদ্ধে সংগ্রামই জিহাদ। অন্যায়ের বিরুদ্ধে সংগ্রামই জিহাদ। অধিকার বঞ্চিত মানুষের ন্যায়ের অধিকার প্রতিষ্ঠা করাই জিহাদ। জিহাদ বললে আমাদের লজ্জা পাওয়ার কিছু নেই। ভাবতে হবে আমি ন্যায়ের পক্ষে আছি।

তিনি আরও বলেন, মুক্তিযুদ্ধের অঙ্গিকার ছিল গণতন্ত্র, সামান্য এবং জনগণের অধিকার। সবই ইসলামের কথা বলেছি। মানুষের কথায় বলেছি, ন্যায়ের কথায় বলেছি। আজ আমাদের মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ ভূলন্ঠিত, সে জন্য সংগ্রামে যেতে হবে।

ডা. জাফরুল্লাহ আরও বলেন, আমি নামাজ পড়ি না বলে আমাকে মুরদাদ বলার অধিকার আপনাদের নেই। এটা আল্লাহ সিদ্ধান্ত নেবেন। নামাজ পড়ি না বলে আমাকে বেত মারার অধিকার আপনার নেই, খোদা বিচার করবেন। আজকে আলেমদের নামে কেন বলাৎকারের অভিযোগ আসবে? অন্যরা করলে দোষ হয় না, কিন্তু আপনারা করলে দোষ হবে। কারণ মানুষ আপনাদের সম্মান করে। আপনারা ছোট দোষ করলে দোষটা বড় হয়ে যায়।

এ সময় আলোচনা সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল ( অব:) সৈয়দ মোহাম্মদ ইব্রাহিম, ড. মাওলানা এনায়েতুল্লাহ আব্বাসী, ড. আল্লামা সাইয়েদ কামাল উদ্দিন জাফরী, জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু প্রমুখ।

/বিআই/এনএইচ/ 

সম্পর্কিত

দুর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা খুবই অস্বস্তিকর: ১৪ দল

দুর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা খুবই অস্বস্তিকর: ১৪ দল

২০ দলীয় জোট: নেতা এলে অফিস খোলে

২০ দলীয় জোট: নেতা এলে অফিস খোলে

হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলায় চরমোনাই পীরের উদ্বেগ

হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলায় চরমোনাই পীরের উদ্বেগ

‘সাম্প্রদায়িক সহিংসতাগুলো পরিকল্পিত’

‘সাম্প্রদায়িক সহিংসতাগুলো পরিকল্পিত’

সরকার আমাদের ঘাড়ে চেপে বসে আছে: মির্জা ফখরুল

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ২০:৫৩

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের মন্তব্য, ‘দুর্ভাগ্য আমাদের, সরকার আমাদের ঘাড়ে চেপে বসে আছে। এমন দমবন্ধ করা শ্বাসরুদ্ধ পরিবেশের বাংলাদেশ আমরা চাইনি। আমরা স্বাধীনতা যুদ্ধ করেছিলাম মুক্ত বাংলাদেশের জন্য।’ মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের আবদুস সালাম হলে জিয়াউর রহমান ফাউন্ডেশনের ২২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুলের বক্তব্য, ‘আমি ঢাকেশ্বরী মন্দিরসহ বেশ কয়েকটি পূজামণ্ডপে গিয়ে দেখেছি অল্প কিছুসংখ্যক লোক আছে। আমার প্রশ্ন- আমাদের ভাই, আমাদের প্রতিবেশী, এ দেশের স্বাধীন নাগরিক, তারা কেন তাদের উৎসব পালনে ভয় পাবে? কারণ আওয়ামী লীগ সরকার পরিকল্পিতভাবে দেশে বিভাজন সৃষ্টি করছে। বিভাজন সৃষ্টি করে সেটাকে আবার রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করছে।’

বিএনপি মহাসচিবের কথায়, ‘আওয়ামী লীগকে আমরা জানি, চিনি এবং এটাই আওয়ামী লীগের চরিত্র। তারা আমাদের সবকিছু নষ্ট করে দিয়েছে। আমাদের অতীত নষ্ট করেছে, আমাদের সময় নষ্ট করছে, রাষ্ট্রকে ভেঙে খানখান করে দিচ্ছে। যতদিন আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকবে ততদিন এ দেশের মানুষ অনেক কষ্ট পাবে। আমাদের অর্থনৈতিক অবস্থা হারিয়ে যাবে। তাই এই ভয়াবহ দানবকে পরাজিত করা সবার দায়িত্ব।’

আলোচনা সভায় আরও ছিলেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, অধ্যাপক ডা. ফরহাদ হালিম ডোনারসহ বিশিষ্ট পেশাজীবী নেতৃবৃন্দ।

/জেডএ/জেএইচ/

সম্পর্কিত

কুমিল্লার ঘটনার দায় সরকারের: ভিপি নুর

কুমিল্লার ঘটনার দায় সরকারের: ভিপি নুর

দুর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা খুবই অস্বস্তিকর: ১৪ দল

দুর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা খুবই অস্বস্তিকর: ১৪ দল

‘ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন করতে হবে’

‘ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন করতে হবে’

সম্প্রীতি বিনষ্টের উসকানি ভারতের মুসলমানদেরও বিপদে ফেলেছে: ওবায়দুল কাদের

সম্প্রীতি বিনষ্টের উসকানি ভারতের মুসলমানদেরও বিপদে ফেলেছে: ওবায়দুল কাদের

কুমিল্লার ঘটনার দায় সরকারের: ভিপি নুর

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ২০:৫৬

কুমিল্লার ঘটনার দায় সরকারের উল্লেখ করে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর বলেছেন, ক্ষমতায় থাকতে তারা (সরকার) নিত্য নতুন ইস্যু তৈরি করে। কুমিল্লার ঘটনা পুলিশ যদি সঠিকভাবে নিয়ন্ত্রণ করতে পারতো, চাঁদপুরে মিছিলে কোনও সহিংসতা ছড়িয়ে পড়তো না।  

বিচার বিভাগীয় তদন্তের মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারী ও চলমান সংঘাত-সহিংসতায় জড়িত দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার এবং সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা নিশ্চিতের দাবিতে মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদের মানববন্ধন ও মৌন মিছিলে তিনি এসব কথা বলেন। 

নুর আরও বলেন, প্রত্যেক নাগরিকেরই মিছিল-মিটিং করার অধিকার রয়েছে। পুলিশ কেন সেই মিছিলে গুলি চালিয়ে পরিস্থিতি উসকে দিলো। চাঁদপুরের প্রশাসনকে এই দায়িত্ব নিতে হবে।  কুমিল্লায় ৪ ঘণ্টার মধ্যে পুলিশ কেন এলো না, এর জবাব প্রশাসনকে দিতে হবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশের মানুষ এতদিন ভোটের অধিকার থেকে বঞ্চিত। এখন গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার আন্দোলনের বীজ যখন বপন করছিল তখন তারা সাম্প্রদায়িক সহিংসতা সৃষ্টি করে বিশ্ববাসীসহ বাংলাদেশের দৃষ্টি অন্যদিকে সরিয়ে দিচ্ছে। কোনও হিন্দু মুসলমান হামলা করেনি। হামলা করেছে রাজনৈতিক দুর্বৃত্তরা। 

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন ডা. রেজা কিবরিয়াসহ যুব পরিষদের নেতাকর্মীরা।

/জেডএ/এমআর/এমওএফ/

সম্পর্কিত

ঐক্যবদ্ধ দলগঠন হচ্ছে না, পিছিয়েছে নুরদের ‘একক’ পার্টির আত্মপ্রকাশ

ঐক্যবদ্ধ দলগঠন হচ্ছে না, পিছিয়েছে নুরদের ‘একক’ পার্টির আত্মপ্রকাশ

রেজা কিবরিয়া যোগ দিচ্ছেন নুরুল হকের নতুন পার্টিতে

রেজা কিবরিয়া যোগ দিচ্ছেন নুরুল হকের নতুন পার্টিতে

মসজিদ-মাদ্রাসায়ও দলীয়করণ হচ্ছে: নুর

মসজিদ-মাদ্রাসায়ও দলীয়করণ হচ্ছে: নুর

‘লক্ষ্য থেকে সরে গেছে’ অভিযোগ করে নুরের সংগঠন থেকে এক নেতার পদত্যাগ

‘লক্ষ্য থেকে সরে গেছে’ অভিযোগ করে নুরের সংগঠন থেকে এক নেতার পদত্যাগ

দুর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা খুবই অস্বস্তিকর: ১৪ দল

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ২০:০৮

এবারের দুর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের পুনর্বাসনের দাবি জানিয়েছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে এ দাবি জানান জোটের প্রতিনিধিরা।

বৈঠকের পর ১৪ দলের পক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন।

রাশেদ খান মেনন বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি যেন বজায় থাকে এবং এ ধরনের ঘটনা যেন আর না হয়, সে জন্য যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়েছে। পাশাপাশি দেশের বিভিন্ন জায়গায় যেসব পূজামণ্ডপ বা বাড়িঘর ভাঙচুর করা হয়েছে, সেসব পুনর্বাসনের দাবি জানানো হয়েছে।’

মেনন আরও বলেন, ‘সভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমাদের জানিয়েছেন, পীরগঞ্জে ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িঘরগুলো নতুনভাবে গড়ে দিতে প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন। আমরা বলেছি, সারা দেশে যে ভাঙচুর হয়েছে— সেখানেও ক্ষতিপূরণ দেওয়ার ব্যবস্থা করতে। দুর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে যে ঘটনাগুলো ঘটেছে তাতে আমাদের অবজারভেশনগুলো জানিয়েছি। এ ঘটনায় ১৪ দলের মতামত হচ্ছে— এ ঘটনাগুলো একদমই পূর্বপরিকল্পিত। ৫০ বছরের বাংলাদেশে মন্দির ভাঙার ঘটনা ঘটেছে বিভিন্ন সময়ে। কিন্তু দুর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা আমাদের জন্য খুব অস্বস্তিকর ছিল।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, জড়িতদের শিগগিরই খুঁজে বের করে জনসম্মুখে হাজির করা হবে। আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফের নেতৃত্বে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কার্যালয়ে যায় ১৪ দলের একটি প্রতিনিধি দল। এই দলে বাংলাদেশের সাম্যবাদী দলের সাধারণ সম্পাদক দিলীপ বড়ুয়া, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতারসহ আরও অনেকে ছিলেন।

উল্লেখ্য, পুলিশ সদর দফতর জানিয়েছে, এসব ঘটনায় সোমবার পর্যন্ত ৭১টি মামলা হয়েছে। গ্রেফতার করা হয়েছে ৪৫০ জনকে।

/এসআই/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

সম্প্রীতি বিনষ্টের উসকানি ভারতের মুসলমানদেরও বিপদে ফেলেছে: ওবায়দুল কাদের

সম্প্রীতি বিনষ্টের উসকানি ভারতের মুসলমানদেরও বিপদে ফেলেছে: ওবায়দুল কাদের

রাজধানীতে আওয়ামী লীগের সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী মিছিল

রাজধানীতে আওয়ামী লীগের সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী মিছিল

২০ দলীয় জোট: নেতা এলে অফিস খোলে

২০ দলীয় জোট: নেতা এলে অফিস খোলে

হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলায় চরমোনাই পীরের উদ্বেগ

হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলায় চরমোনাই পীরের উদ্বেগ

‘ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন করতে হবে’

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১৫:১৮

ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি’র আহ্বায়ক আব্দুস সালাম বলেছেন, ‘ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনার জন্য ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আন্দোলন করতে হবে। তাহলেই ভোটের অধিকার ফিরে পাওয়া যাবে। তা না হলে বর্তমান সরকার জনগণকে ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেবে না।’ মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘আমি ভোট দিতে চাই’ ব্যানার নিয়ে গণমঞ্চ আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব মন্তব্য করেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার এই উপদেষ্টার মন্তব্য, ‘আমরা বিশ্বাস করি গণতন্ত্র, জনগণের ভোটের অধিকার, উন্নয়ন ও জনগণের ভাগ্য পরিবর্তন। কিন্তু আজ গুটিকয়েক মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন হচ্ছে, জনগণের ভাগ্য পরিবর্তন হচ্ছে না। তাদের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য দেশে সুষ্ঠু নির্বাচন দরকার। সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য তত্ত্বাবধায়ক সরকার দরকার। আর তত্ত্বাবধায়ক সরকার আনতে হলে আন্দোলন ছাড়া অন্য কোনও রাস্তা নাই। এই লড়াই শুধু বিএনপির জন্য নয়। এই লড়াই জনগণকে ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার লড়াই।’

আব্দুস সালামের ভাষ্য, ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার যদি না দেওয়া হয় তাহলে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ফিরিয়ে আনার জন্য আওয়ামী লীগ যা করেছিল আমরাও তাই করবো। আওয়ামী লীগ ও জামায়াত ইসলামী মিলে বিএনপির বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছিল, আমরাও তাই করবো।’

গণমঞ্চ’র সমন্বয়ক কে এম রকিবুল ইসলাম রিপনের প‌রিচালনায় মানববন্ধ‌নে ছি‌লেন শওকত আজিজ, মৎস্যজীবী দলের সদস্য সচিব আব্দুর রহিম, অধ্যক্ষ সেলিম মিয়া, আরিফা সুলতানা রুমা, ইয়াকুব সরকারসহ অনেকে।

/জেডএ/জেএইচ/

সম্প্রীতি বিনষ্টের উসকানি ভারতের মুসলমানদেরও বিপদে ফেলেছে: ওবায়দুল কাদের

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ২১:০০

বাংলাদেশে হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলা এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের যে উসকানি দেওয়া হচ্ছে, তাতে ভারতের মুসলমানদের একটা বড় অংশের জীবনকেও বিপন্ন করে ফেলছে বলে মনে করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সম্প্রীতি সমাবেশে তিনি এ কথা বলেন। 

ওবায়দুল কাদের বলেন, আজ কুমিল্লা; যেখান থেকে দুর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে এই তাণ্ডবের সূচনা। এই তাণ্ডব নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ, চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ, হাতিয়ার বুড়িরচরসহ চট্টগ্রাম হয়ে ছড়িয়ে পড়েছে। সর্বশেষ এই বিষবাষ্পে রংপুরের পীরগঞ্জে হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলা চালানো হয়েছে। কয়েকটি জেলে পরিবারের বাড়িঘর পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। মন্দিরে হামলা, প্রতিমা ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ, হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলা, ঠিক ২০০১ সালে বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতা গ্রহণের পর হিন্দুদের ওপর যে নির্যাতন চালিয়েছিল, তারই পুনরাবৃত্তি ঘটছে।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনা সরকারের আমলে ৩০-৩৫ হাজার মণ্ডপে দুর্গাপূজা শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। অথচ ‘গেল গেল’ বলে এবারই শান্তি বিনষ্ট করা হয়েছে। প্রতিমা ভাংচুর, প্রতিমায় আগুন, মন্দিরে আগুন, হিন্দুদের বাড়িঘরে আজকে হামলা চালানো হচ্ছে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আওয়ামী লীগ রাজপথ ছাড়েনি। সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে, অপশক্তির বিরুদ্ধে শেখ হাসিনার নির্দেশে আজ সারা বাংলাদেশে সম্প্রীতির সমাবেশ হচ্ছে, শান্তিপূর্ণ শোভাযাত্রা হচ্ছে।

/পিএইচসি/ইউএস/এমওএফ/

সম্পর্কিত

দুর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা খুবই অস্বস্তিকর: ১৪ দল

দুর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা খুবই অস্বস্তিকর: ১৪ দল

রাজধানীতে আওয়ামী লীগের সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী মিছিল

রাজধানীতে আওয়ামী লীগের সাম্প্রদায়িকতা বিরোধী মিছিল

মুক্তিযুদ্ধকে বাঁচাতে সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে পরাজিত করতে হবে: কাদের

মুক্তিযুদ্ধকে বাঁচাতে সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে পরাজিত করতে হবে: কাদের

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

দুর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা খুবই অস্বস্তিকর: ১৪ দল

দুর্গোৎসবকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা খুবই অস্বস্তিকর: ১৪ দল

২০ দলীয় জোট: নেতা এলে অফিস খোলে

২০ দলীয় জোট: নেতা এলে অফিস খোলে

হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলায় চরমোনাই পীরের উদ্বেগ

হিন্দুদের বাড়িঘরে হামলায় চরমোনাই পীরের উদ্বেগ

‘সাম্প্রদায়িক সহিংসতাগুলো পরিকল্পিত’

‘সাম্প্রদায়িক সহিংসতাগুলো পরিকল্পিত’

সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীদের পৃষ্ঠপোষকতা করছে সরকার: বামজোট

সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীদের পৃষ্ঠপোষকতা করছে সরকার: বামজোট

সরকারের পদত্যাগ করা উচিত: মান্না

সরকারের পদত্যাগ করা উচিত: মান্না

২০ দলীয় জোট: এক ভবনেই তিন শরিক দলের অফিস

২০ দলীয় জোট: এক ভবনেই তিন শরিক দলের অফিস

কুমিল্লার ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চায় ইসলামী ঐক্যজোট

কুমিল্লার ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চায় ইসলামী ঐক্যজোট

অসাম্প্রদায়িকতা নিয়ে আপস চলবে না: ইনু

অসাম্প্রদায়িকতা নিয়ে আপস চলবে না: ইনু

‘একদল-একনেতা’ ও ‘অনিবন্ধিত’দের ২০ দলীয় জোট, অনেকের অফিসও নেই 

‘একদল-একনেতা’ ও ‘অনিবন্ধিত’দের ২০ দলীয় জোট, অনেকের অফিসও নেই 

সর্বশেষ

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানোর কথা স্বীকার উত্তর কোরিয়ার

ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানোর কথা স্বীকার উত্তর কোরিয়ার

যুক্তরাষ্ট্রে বিমান বিধ্বস্ত, অলৌকিকভাবে বেঁচে গেলো ২১ আরোহী

যুক্তরাষ্ট্রে বিমান বিধ্বস্ত, অলৌকিকভাবে বেঁচে গেলো ২১ আরোহী

৫ গোলে জিতলো রিয়াল মাদ্রিদ, আতলেতিকোকে হারালো লিভারপুল

৫ গোলে জিতলো রিয়াল মাদ্রিদ, আতলেতিকোকে হারালো লিভারপুল

যুক্তরাজ্যে আবারও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু

যুক্তরাজ্যে আবারও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু

মেসির জোড়ায় পিএসজির রোমাঞ্চকর জয়

মেসির জোড়ায় পিএসজির রোমাঞ্চকর জয়

© 2021 Bangla Tribune