X
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

ধর্মঘটের ডাক দিলেও নারায়ণগঞ্জে চলছে ট্রাক-কাভার্ডভ্যান

আপডেট : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:০৫

মোটরযান মালিকদের অগ্রিম আয়কর বাতিল ও কাগজপত্র চেকিংয়ের স্থান নির্ধারণসহ ১৫ দফা দাবিতে সারাদেশে ধর্মঘট পালন করছে বাংলাদেশ কাভার্ডভ্যান-ট্রাক-প্রাইমমুভার পণ্যপরিবহন মালিক অ্যাসোসিয়েশন ও ট্রাকচালক শ্রমিক ফেডারেশন। মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) ভোর ৬টা থেকে শুরু হওয়া এই ধর্মঘট আগামী ২৪ সেপ্টেম্বর ভোর ৬টা পর্যন্ত চলবে।

এদিকে ধর্মঘটের কথা জানে না অনেক পণ্য পরিবহনের চালকরা। সকাল থেকে নারায়ণগঞ্জের নিতাইগঞ্জসহ বিভিন্ন স্থানে ট্রাকে পণ্য আনা-নেওয়া করতে দেখা গেছে।

ট্রাকচালকরা বলছেন, সকালে এসে শুনেছেন আজ ধর্মঘট। কিন্তু কারা কী কারণে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন, তারা কিছুই জানেন না। তাদের সংগঠনের নেতারা এ বিষয়ে তাদের কিছুই জানায়নি বলে দাবি করেন।

ধর্মঘটের বিষয়ে জানেন না অনেক ট্রাকচালক

নিতাইগঞ্জে ট্রাকের ট্রাকের চালক মতিউর রহমান জানান, রাস্তায় থাকি। টিভি বা পেপার কিছুই দেখি না। তাই ধর্মঘট কারা ডেকেছে আমাদের জানা নেই।  সকালে এসে শুনছি আজ ধর্মঘট।

ফতুল্লা ট্রাক স্ট্যান্ডের চালক আব্দুল্লাহ জানান, পণ্য পরিবহন মালিক শ্রমিকদের একাধিক সংগঠন রয়েছে। এদের মধ্যে সমন্বয়হীনতার কারণে এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। যেসব দাবিতে ধর্মঘটের ডাকা হয়েছে, তা বাস্তবায়ন করার দাবি জানিয়ে আসছি দীর্ঘদিন ধরে। কিন্তু আমাদের দাবির কথা সরকার কানে তুলছে না।

তিনি আরও বলেন, সকল মালিক শ্রমিক সংগঠন একত্রে বসে যদি আন্দোলননের ডাক দেয় তবেই সুফল মিলবে। অন্যথায় বিচ্ছিন্নভাবে ধর্মঘট পালন করে দাবি আদায় সম্ভব নয়।

এদিকে বেনাপোল ট্রান্সপোর্ট মালিক সমিতির সভাপতি এ কে এম আতিকুজ্জামান ও সাধারণ সম্পাদক আজিম উদ্দীন গাজী জানান, ধর্মঘটে সমর্থন জানিয়ে বেনাপোল বন্দর এলাকায় লিফলেট বিতরণ করেছে বেনাপোল ট্রাক ও ট্রান্সপোর্ট মালিক সমিতি।

বাংলাদেশ ট্রাক কাভার্ডভ্যান ও প্রাইমমুভার পরিবহন মালিক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মুকবুল আহমেদ ও মহাসচিব চৌধুরী জাফর আহমেদ জানান, এর আগে এসব দাবি নিয়ে সরকারপক্ষকে অবগত করা হয়েছে। তবে সেখান থেকে সাড়া না পাওয়ায় বাধ্য হয়ে দাবি আদায়ে কর্মবিরতির ডাক দেওয়া হয়েছে।

৭২ ঘণ্টার ধর্মঘট ডেকেছে পরিবহন মালিক-শ্রমিক সংগঠন

১৫ দফা দাবির মধ্যে রয়েছে—মোটরযান মালিকদের ওপর আরোপিত অগ্রিম আয়কর বা বর্ধিত আয়কর অবিলম্বে বাতিল করতে হবে; ইতোমধ্যে আদায় করা বর্ধিত কর স্ব স্ব মালিককে ফেরত দিতে হবে; পুলিশের ঘুষ বাণিজ্যসহ সব ধরনের হয়রানি বন্ধ করতে হবে; গাড়ির কাগজপত্র চেকিংয়ের জন্য নির্দিষ্ট স্থান নির্ধারণ করতে হবে; যেসব চালক ভারী মোটরযান চালাচ্ছে তাদের সহজ শর্তে ও সরকারি ফি’র বিনিময়ে অবিলম্বে ভারী ড্রাইভিং লাইসেন্স দিতে হবে; সব শ্রেণির মোটরযানে নিয়োজিত সড়ক পরিবহন শ্রমিকদের রাষ্ট্রীয় বাহিনীর মতো রেশনিং সুবিধার আওতায় আনতে হবে; চট্টগ্রামে অবস্থিত ট্রান্সপোর্ট এজেন্সি মনোনীত প্রতিনিধি এবং সব ড্রাইভার ও সহকারীকে চট্টগ্রাম বন্দরে হয়রানিমুক্ত প্রবেশের সুবিধার্থে বাৎসরিক নবায়নযোগ্য বায়োমেট্রিক স্মার্টকার্ড দিতে হবে; প্রতি ৫০ কিলোমিটার পরপর পণ্যপরিবহন শ্রমিকদের জন্য দেশের সড়ক-মহাসড়কের নিরাপদ দূরত্বে বিশ্রামাগার ও কার্ভাডভ্যান-ট্রাক-প্রাইমমুভার টার্মিনাল নির্মাণ করতে হবে; সারাদেশের জন্য একই পরিমাণ ওজন নির্ধারণ করে অতিরিক্ত (ওভারলোড) পণ্য পরিবহন বন্ধে লোডিং পয়েন্ট তথা পণ্যপরিবহনের উৎসস্থলে সরকার নির্ধারিত ওজন নিশ্চিত করে পণ্যবাহী গাড়িগুলোতে মালামাল লোড করতে হবে এবং লোড করা গাড়িগুলোকে উৎসস্থলে পণ্যের ওজনস্লিপ দিতে হবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

হেফাজতের হরতালে সহিংসতার মামলায় কাউন্সিলর গ্রেফতার

হেফাজতের হরতালে সহিংসতার মামলায় কাউন্সিলর গ্রেফতার

ফতুল্লায় স্টিল মিলে বিস্ফোরণ, ৫ শ্রমিক দগ্ধ

ফতুল্লায় স্টিল মিলে বিস্ফোরণ, ৫ শ্রমিক দগ্ধ

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

হেফাজতের সহিংসতার মামলায় বিএনপি নেতা রিমান্ডে

হেফাজতের সহিংসতার মামলায় বিএনপি নেতা রিমান্ডে

উখিয়ায় ছয় রোহিঙ্গা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার আরও ৪

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৫:০৬

কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী ক্যাম্পের মাদ্রাসায় ছয় রোহিঙ্গাকে হত্যার ঘটনায় আরও চার জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার (২৫ অক্টোবর) এপিবিএন পুলিশ ও উখিয়া থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করে। 

উখিয়া থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) গাজী সালাহউদ্দিন জানান, উখিয়া বালুখালী ১৮ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের মাদ্রাসায় ছয় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীকে হত্যার ঘটনায় গতকাল সোমবার এপিবিএন পুলিশ ও উখিয়া থানা পুলিশ যৌথ অভিযান চালায়। অভিযানে ক্যাম্প থেকে ১০ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের হেড মাঝি শফিউল্লাহকে গ্রেফতার করে। 

তিনি আরও জানান, মঙ্গলবার ভোরে পুলিশ রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালিয়ে আরও তিন রোহিঙ্গাকে গ্রেফতার করে। তারা হলো-ব্লক মাঝি ফরিদ হোসেন, জাহেদ হোসেন ও মো হাশিম। এ নিয়ে এই মামলায় মোট ১৪ জন রোহিঙ্গাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।  

কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, ছয় রোহিঙ্গা হত্যার ঘটনায় ২৫ জনরে নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতসহ মোট ২৫০ জনকে আসামি করে গত শনবিার রাত পৌনে ১২টার দিকে উখিয়া থানায় মামলা দায়ের হয়। 

নিহত মাদ্রাসা ছাত্রদের একজন আজিজুল হকের বাবা ও উখিয়ার ১৮ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের এইচ-ব্লকের বাসিন্দা নূরুল ইসলাম বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। 

কক্সবাজার ৮ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের কমান্ডিং অফিসার (পুলিশ সুপার) মোহাম্মদ শিহাব কায়সার খান জানান, ছয় রোহিঙ্গা হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। 

এই মামলায় ইতোপূর্বে গ্রেফতারকৃতরা হলো-মুজিবুর রহমান (১৯), দিলদার মাবুদ ওরফে পারভেজ (৩২), মোহাম্মদ আইয়ুব (৩৭), ফেরদৌস আমিন (৪০), আব্দুল মজিদ (২৪), মোহাম্মদ আমিন (৩৫), মোহাম্মদ ইউনুস ওরফে ফয়েজ (২৫), জাফর আলম (৪৫), মোহাম্মদ জাহিদ (৪০) ও মোহাম্মাদ আমিন (৪৮)। তাদের মধ্যে অস্ত্রসহ গ্রেফতার মুজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে পুলিশ বাদী হয়ে অস্ত্র আইনে উখিয়া থানায় পৃথক মামলা করেছে।

উল্লেখ্য, গত ২২ অক্টোবর রাত ৪টার দিকে উখিয়ার বালুখালী এফডিএমএন ক্যাম্প-১৮-এর এইচ-৫২ ব্লকে অবস্থিত ‘দারুল উলুম নাদওয়াতুল ওলামা আল ইসলামিয়াহ’ মাদ্রাসায় সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা হামলা চালায়। এতে মাদ্রাসার ছাত্র, শিক্ষক ও ভলানটিয়ারসহ ছয় জন নিহত হন।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

চট্টগ্রাম মেডিক্যালে চালু হলো বিশেষ স্ট্রোক ইউনিট

চট্টগ্রাম মেডিক্যালে চালু হলো বিশেষ স্ট্রোক ইউনিট

চৌমুহনীতে হামলা: বিএনপি নেতাসহ গ্রেফতার ৮

চৌমুহনীতে হামলা: বিএনপি নেতাসহ গ্রেফতার ৮

মুহিবুল্লাহ হত্যা: তিন আসামি ২ দিনের রিমান্ডে

মুহিবুল্লাহ হত্যা: তিন আসামি ২ দিনের রিমান্ডে

চাকরি দেওয়ার নামে প্রতারণা, আটক ৩

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৪১

ময়মনসিংহে পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নামে প্রতারণার অপরাধে তিন জনকে আটক করো হয়েছে। সোমবার (২৫ অক্টোবর) মধ্যরাতে ময়মনসিংহ ও জামালপুর থেকে তাদেরকে আটক করে পুলিশ।

আটককৃতরা হলো—জামালপুরের মেলান্দহ থানার ছাবিল্লাহপুর গ্রামের ছামিউল আলম (৬৬), ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলার কুড়িপাড়া গ্রামের জালাল উদ্দিন (৭৫) এবং মুক্তাগাছা উপজেলার রহিমবাড়ি গ্রামের সোহরাব আলীর ছেলে মারুফ মিয়া (১৯)।

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি সফিকুল ইসলাম জানান, ট্রেইনি রিক্রুট কনস্টেবল (টিআরসি) নিয়োগ পরীক্ষা-২০২১ উপলক্ষে ময়মনসিংহ জেলায় একাধিক প্রতাক চক্র সক্রিয় হয়ে উঠেছে।

আটকৃতরা চাকরি পাইয়ে দেবে বলে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে নগদ টাকা নেয় ও অতিরিক্ত সচিব পরিচয়ে প্রতারণা করে আসছিল। এসব কাজে জড়িত অন্যদেরর আটকের চেষ্টা চলছে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ৪ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ৪ মৃত্যু

১১০ দিনেই পেকেছে বিনা-১৭, কম খরচে বেশি ফলন

১১০ দিনেই পেকেছে বিনা-১৭, কম খরচে বেশি ফলন

অবৈধভাবে ভারত থেকে প্রবেশকালে বাংলাদেশি আটক

অবৈধভাবে ভারত থেকে প্রবেশকালে বাংলাদেশি আটক

১০ বছর যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধার ভাতা তুলেছেন রাজাকার

১০ বছর যুদ্ধাহত বীর মুক্তিযোদ্ধার ভাতা তুলেছেন রাজাকার

চট্টগ্রাম মেডিক্যালে চালু হলো বিশেষ স্ট্রোক ইউনিট

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৩২

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্ট্রোকের রোগীদের চিকিৎসা সেবায় বিশেষায়িত ইউনিটের কাজ শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) বেলা ১১টার দিকে হাসপাতালের নিউরোলজি বিভাগে সম্মেলন কক্ষে এক বণার্ঢ্য অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়ে ইউনিটটির উদ্বোধন করা হয়। হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এস এম হুমায়ুন কবির এর উদ্বোধন করেন। সম্প্রতি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত নিউরোলজি বিভাগের চিকিৎসক ডা. মো. ওয়াহিদুর রহমানের নামে (ওয়াহিদুর রহমান মেমোরিয়াল স্ট্রোক ইউনিট) নতুন এই ইউনিটটির নামকরণ করা হয়।

বিশেষ এই ইউনিট বিষয়ে হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার এস এম হুমায়ুন কবির বলেন, স্ট্রোক ইউনিটের মাধ্যমে চট্টগ্রামের রোগীরা অত্যাধুনিক চিকিৎসা পাবেন। ঢাকার নিউরোসায়েন্স ইনস্টিটিউটের পর বাংলাদেশে সরকারিভাবে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এই ইউনিট সংযোজিত হলো। এখানে বিশেষায়িত সেবা দেওয়ার জন্য হাসপাতালের ওয়ান স্টপ জরুরি সেবা কেন্দ্রে একটি নতুন সিটিস্ক্যান মেশিন খুব শিগগিরই সংযোজন করা হবে।

 তিনি আরও বলেন, নিউরোলজি ওয়ার্ডে স্থান সংকুলান না হওয়ায় অনেক সময় লিফটের পাশে বারান্দায় রোগী ভর্তি দিতে হয়, এটি অমানবিক। আমরা এই ওয়ার্ডের একটি বর্ধিত ওয়ার্ড খুঁজে বের করার চেষ্টা করছি। 
 
সভাপতির বক্তব্যে অধ্যাপক ডা. হাসানুজ্জামান বলেন, স্ট্রোক ইউনিটটি গঠনের মূল উদ্দেশ্য হলো খুব দ্রুত সময়ে রোগীদের চিকিৎসা সেবা দেওয়া। তাদেরকে থ্রম্বোলাইটিক থেরাপির মাধ্যমে একটি বিশেষায়িত চিকিৎসা প্রদান করার চেষ্টা থাকবে। এই থেরাপি স্ট্রোক রোগীর হাত ও পায়ের প্যারালাইসিস হওয়া রোধ করবে। থেরাপি এমন একটি সেবা যার প্রাপ্তির সময়সীমা খুবই সীমিত। স্ট্রোক হওয়ার সর্বোচ্চ সাড়ে ৪ ঘণ্টার মধ্যে আমরা যদি এই সেবা দিতে পারি তাহলে ভালো ফল মিলবে।

অনুষ্ঠানে বৈজ্ঞানিক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. ফারহানা মোছলেহউদ্দিন। প্রবন্ধে বলা হয়, স্ট্রোক ইউনিটের মাধ্যমে অত্যাধুনিক থ্রম্বোলাইসিস চিকিৎসার মাধ্যমে স্ট্রোকজনিত মৃত্যুহার এবং শারীরিক অক্ষমতা অনেকাংশে কমে আসবে।

নিউরোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মাহবুবুল আলম খন্দকারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. সাহেনা আক্তার, মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ডা. এম এ হাছান চৌধুরী, রেডিওলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ডা. সুভাষ মজুমদার, নিউরো সার্জারি বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. এস এম নোমান খালেদ চৌধুরী, ফিজিক্যাল মেডিসিন বিভাগের প্রধান ডা. শওকত হোসেন প্রমুখ বক্তব্য প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে হাসপাতালের উপ-পরিচালক আফতাবুল ইসলাম, সহকারী পরিচালক ডা. মো. সাজ্জাদ হোসেন, ডা. রাজিব পালিত, নিউরোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডা. প্রদীপ কুমার কায়স্থগীর, ডা. শিউলি মজুমদার, ডা. পঞ্চানন দাশ, সহকারী অধ্যাপক ডা. মশিহুজ্জামান আলফা, ডা. মো. তৌহিদুর রহমান, ডা. মো. আনোয়ারুল কিবরিয়া,  ডা. জামান আহম্মদ, ডা. মো. একরামুল আযম শাহেদ, কনসালটেন্ট ডা. সীমান্ত ওয়াদ্দাদার, বিভাগের রেজিস্ট্রার ডা. পীযুষ মজুমদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

উখিয়ায় ছয় রোহিঙ্গা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার আরও ৪

উখিয়ায় ছয় রোহিঙ্গা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার আরও ৪

চৌমুহনীতে হামলা: বিএনপি নেতাসহ গ্রেফতার ৮

চৌমুহনীতে হামলা: বিএনপি নেতাসহ গ্রেফতার ৮

মুহিবুল্লাহ হত্যা: তিন আসামি ২ দিনের রিমান্ডে

মুহিবুল্লাহ হত্যা: তিন আসামি ২ দিনের রিমান্ডে

নিজ ঘরে পড়েছিল বৃদ্ধার গলাকাটা লাশ

নিজ ঘরে পড়েছিল বৃদ্ধার গলাকাটা লাশ

চৌমুহনীতে হামলা: বিএনপি নেতাসহ গ্রেফতার ৮

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৪:০৩

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী বাজারে পূজামণ্ডপ, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও বাড়িতে হামলার ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে আরও আট জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ জানান জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল ইসলাম।

গ্রেফতারকৃতরা হলো—সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. সুমন (৩৩), চৌমুহনী পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের ইমরান হোসেন নিশান (২০), একই ওয়ার্ডের মো. রনি (২০), চৌমুহনী পৌরসভার মীরওয়ারিশ গ্রামের বিএনপির সমর্থক মো. ইউসুফ (৩০), চৌমুহনী পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের আক্তারুজ্জামান (৫০), সোনাইমুড়ী উপজেলার রবিউল হোসেন ওরফে রনি (৩২), লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার সাহেদুল ইসলাম (২২) ও হাতিয়া উপজেলার হাতিয়া পৌর বিএনপির প্রচার সম্পাদক ছেরাজুল হক বেচু (৪২)।

শহীদুল ইসলাম জানান, গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে ইমরান হোসেন নিশান নামের একজন প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছেন, হামলার দিন চৌমুহনী ব্যাংক রোডের রাম ঠাকুর মন্দির থেকে এক লাখ ৩৫ হাজার টাকা লুট করে ভাগ-বাটোয়ারা করে নেয়। নিশান ভাগে পায় ৮ হাজার টাকা। এর মধ্যে পাঁচ হাজার ৫০০ টাকা খরচ করে। বাকি আড়াই হাজার টাকা তার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়। তাদেরকে আজ নোয়াখালী চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে।

এর আগে হামলার ঘটনায় ঘটনায় গ্রেফতারকৃত ১০ জনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে আবেদন করা হয়েছে। তাদের মধ্যে আজ আলী আজগর, নুরুল ইসলাম সুমন ও নুরুল ইসলাম জীবনের রিমান্ডের শুনানি হবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

উখিয়ায় ছয় রোহিঙ্গা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার আরও ৪

উখিয়ায় ছয় রোহিঙ্গা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার আরও ৪

চট্টগ্রাম মেডিক্যালে চালু হলো বিশেষ স্ট্রোক ইউনিট

চট্টগ্রাম মেডিক্যালে চালু হলো বিশেষ স্ট্রোক ইউনিট

মুহিবুল্লাহ হত্যা: তিন আসামি ২ দিনের রিমান্ডে

মুহিবুল্লাহ হত্যা: তিন আসামি ২ দিনের রিমান্ডে

নিজ ঘরে পড়েছিল বৃদ্ধার গলাকাটা লাশ

নিজ ঘরে পড়েছিল বৃদ্ধার গলাকাটা লাশ

মানিকগঞ্জে বেড়েছে ডেঙ্গু রোগী 

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৩:৫৫

মানিকগঞ্জে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। গত এক মাস ১৭ দিনে মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল ৮৬ জন রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন। এরমধ্যে একজন রোগীর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া ৯ জন রোগীর অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় তাদের ঢাকায় পাঠানো হয়। 

মানিকগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ( আরএমও) ডা. কাজী একেএম রাসেল এ তথ্য  নিশ্চিত করেছেন।

ডা. কাজী একেএম রাসেল বলেন, ৯ সেপ্টেম্বর থেকে মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) পর্যন্ত মোট ৮৬ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়েছেন। এদের মধ্যে একজন মারা গেছেন। এছাড়া ৯ জন রোগীর অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় তাদের ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। বাকি ৭০ জন রোগী হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। বর্তমানে হাসপাতালটিতে ছয় জন ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন। 

এদিকে হাসপাতালটির তত্ত্বাবধায়ক ডা. আরশাদ উল্লাহ বলেন, এখন হাসপাতালে করোনার বাড়তি চাপ কমে গেছে। তবে গত এক মাসে বেড়েছে ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা।  

/টিটি/

সম্পর্কিত

১৬ কেজির কাতল ২৭ হাজারে বিক্রি

১৬ কেজির কাতল ২৭ হাজারে বিক্রি

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে ফের পরীক্ষামূলক ফেরি চলাচল শুরু

শিমুলিয়া-বাংলাবাজার নৌপথে ফের পরীক্ষামূলক ফেরি চলাচল শুরু

ডোবার পানিতে ঠান্ডা হতো মিষ্টির ছানা

ডোবার পানিতে ঠান্ডা হতো মিষ্টির ছানা

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

হেফাজতের হরতালে সহিংসতার মামলায় কাউন্সিলর গ্রেফতার

হেফাজতের হরতালে সহিংসতার মামলায় কাউন্সিলর গ্রেফতার

ফতুল্লায় স্টিল মিলে বিস্ফোরণ, ৫ শ্রমিক দগ্ধ

ফতুল্লায় স্টিল মিলে বিস্ফোরণ, ৫ শ্রমিক দগ্ধ

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

হেফাজতের সহিংসতার মামলায় বিএনপি নেতা রিমান্ডে

হেফাজতের সহিংসতার মামলায় বিএনপি নেতা রিমান্ডে

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ২

গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ২

মোবাইলে পর্নো ভিডিও সরবরাহকারী ৪ জন গ্রেফতার

মোবাইলে পর্নো ভিডিও সরবরাহকারী ৪ জন গ্রেফতার

ডিগ্রি ছাড়াই হাসপাতালে নিয়মিত রোগী দেখতেন তিনি  

ডিগ্রি ছাড়াই হাসপাতালে নিয়মিত রোগী দেখতেন তিনি  

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো মোটরসাইকেল আরোহীর

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো মোটরসাইকেল আরোহীর

সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে সারাদেশে সমাবেশ-শোভাযাত্রা

সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে সারাদেশে সমাবেশ-শোভাযাত্রা

সর্বশেষ

রাজনৈতিক কর্মসূচির জন্য কারও অনুমতি নেবেন না নুর

রাজনৈতিক কর্মসূচির জন্য কারও অনুমতি নেবেন না নুর

সুদানে ৭০০ মিলিয়ন ডলারের সহায়তা স্থগিত যুক্তরাষ্ট্রের

সুদানে ৭০০ মিলিয়ন ডলারের সহায়তা স্থগিত যুক্তরাষ্ট্রের

সম্প্রীতি বিনষ্টের চেষ্টা সরকারের পরিকল্পিত, অভিযোগ বিএনপির

সম্প্রীতি বিনষ্টের চেষ্টা সরকারের পরিকল্পিত, অভিযোগ বিএনপির

খালেদা জিয়া আবারও প্রধানমন্ত্রী হবেন: ইকবাল হাসান মাহমুদ

খালেদা জিয়া আবারও প্রধানমন্ত্রী হবেন: ইকবাল হাসান মাহমুদ

‘নগদ-ডিআরইউ’ বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলা ট্রিবিউনের শাহেদ শফিকসহ ২২ জন

‘নগদ-ডিআরইউ’ বেস্ট রিপোর্টিং অ্যাওয়ার্ড পেলেন বাংলা ট্রিবিউনের শাহেদ শফিকসহ ২২ জন

© 2021 Bangla Tribune