X
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

কক্সবাজারের সাথে রেল যোগাযোগ চালু হবে ২০২২ সালে: রেলমন্ত্রী

আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:৩৬

আগামী ২০২২ সালের বিজয় দিবসের আগেই সারাদেশের সাথে কক্সবাজারের রেল যোগাযোগ ব্যবস্থা চালু করা হবে বলে জানিয়েছেন রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। তিনি বলেন, সেই লক্ষ্যে এগিয়ে চলছে দোহাজারী থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত রেললাইন নির্মাণ কাজ।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) রেল লাইনের বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন ও কক্সবাজার শহরতলীর ঝিলংজা এলাকায় নির্মাণাধীন রেলওয়ে স্টেশনের নির্মাণ কাজ পরিদর্শন শেষে গণমাধ্যমের সাথে আলাপকালে এসব কথা বলেছেন।

তিনি বলেন, কক্সবাজার যেহেতু একটি পর্যটন এলাকা, সে কারণে এখানে পর্যটকদের যাতায়াতের জন্য আলাদা ট্যুরিস্ট ট্রেন চালু করা হবে। চকরিয়া থেকে মাতারবাড়ি পর্যন্ত ১৮ কিলোমিটার নতুন রেললাইন নির্মাণ করে বন্দরের সাথে সংযুক্ত করা হবে। এতে করে অর্থনীতির নতুন সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচিত হবে। আর এর মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু দারিদ্র্য ক্ষুধামুক্ত যে বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখেছিলেন সে স্বপ্ন বাস্তবায়নের পথে এগিয়ে যাবে বাংলাদেশ।

মন্ত্রী কক্সবাজার শহরতলীর ঝিলংজা এলাকায় নির্মাণাধীন আইকনিক রেলওয়ে স্টেশন পরিদর্শন করেন। এরপর রামুর কয়েকটি নির্মাণাধীন ব্রিজ, রামুর জংশন এলাকা পরিদর্শন শেষে রামু রশিদ নগর এলাকায় ৬ কিলোমিটার রেললাইন পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে মন্ত্রী বলেন, রেললাইন এখনও নির্মাণাধীন, তাই পানি নিষ্কাশনসহ পরিবেশগত কোনও সমস্যা থাকলে তা এখনই সংশোধন করা হবে।

এ সময় কক্সবাজার-রামু আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল, চট্টগ্রামের দোহাজারী থেকে কক্সবাজার পর্যন্ত রেললাইন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. মোস্তাফিজুর রহমানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন বৃহস্পতিবার রামু উপজেলার পানির ছড়া এলাকার রেলওয়ে ট্র্যাক নির্মাণের অগ্রগতি এবং দুলহাজারায় নির্মাণাধীন রেলওয়ে স্টেশন ভবন এবং অন্যান্য স্থাপনা পরিদর্শন পরিদর্শন করবেন। খবর বাসস

/ইউএস/

সম্পর্কিত

বগুড়া-সিরাজগঞ্জ ডুয়েল গেজ রেলপথ নির্মাণে পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি

বগুড়া-সিরাজগঞ্জ ডুয়েল গেজ রেলপথ নির্মাণে পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি

প্রকল্পের রেল গেট কিপারদের চাকরি স্থায়ীকরণের দাবি

প্রকল্পের রেল গেট কিপারদের চাকরি স্থায়ীকরণের দাবি

আধুনিক পাবলিক টয়লেটের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন রেলমন্ত্রী

আধুনিক পাবলিক টয়লেটের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন রেলমন্ত্রী

টিকিট শেষ, তবুও অপেক্ষা (ফটোস্টোরি)

টিকিট শেষ, তবুও অপেক্ষা (ফটোস্টোরি)

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান শুরু ২১ অক্টোবর

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৯:২১

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সকল কলেজ ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোয় আগামী ২১ অক্টোবর থেকে অনলাইনের পাশাপাশি শ্রেণিকক্ষে সরাসরি পাঠদান কার্যক্রম শুরু হবে। একইদিন ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষে ভর্তি শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের গাজীপুরস্থ ক্যাম্পাসে বিকাল ৩টায় উপাচার্যের কনফারেন্স রুম থেকে ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে এই প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হবে।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) সন্ধ্যায় এ সংক্রান্ত অফিস আদেশ জারির কথা জানান জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দফতরের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মো. ফয়জুল করিম।

অফিস আদেশে বলা হয়েছে, সরাসরি ক্লাস শুরু হওয়ার আগে অবশ্যই কলেজের শ্রেণিকক্ষ, বিজ্ঞানাগারসহ পুরো ক্যাম্পাস যথাযথভাবে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করে ক্লাস নেওয়ার উপযোগী করতে হবে। সংশ্লিষ্ট সকলকে স্বাস্থ্য সুরক্ষা নিশ্চিত করতে কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন গ্রহণ করতে হবে। প্রয়োজনে কলেজ টিকাদান কেন্দ্র স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ নিতে হবে।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা, সঠিকভাবে মাস্ক ব্যবহার, সামাজিক দূরত্ব রক্ষাসহ প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ ও সচেতনতা বজায় রাখার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে।  

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, একইদিনে (২১ অক্টোবর) আয়োজিত ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. মশিউর রহমান।

শিক্ষামন্ত্রী ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম উদ্বোধন ঘোষণা করার পরপরই অধিভুক্ত কলেজগুলোর অধ্যক্ষদের সংশ্লিষ্ট শিক্ষক ও প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদেরকে নিয়ে ওরিয়েন্টেশন কর্মসূচি পালন করবেন।

/এসএমএ/এমআর/

সম্পর্কিত

জানুয়ারি থেকে দুই সেমিস্টারে ভর্তি নিতে ইউজিসির নতুন কৌশল

জানুয়ারি থেকে দুই সেমিস্টারে ভর্তি নিতে ইউজিসির নতুন কৌশল

অবশেষে ভিকারুননিসার সাবেক ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের শোকজ প্রত্যাহার

অবশেষে ভিকারুননিসার সাবেক ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের শোকজ প্রত্যাহার

১২ থেকে ১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের তালিকা চেয়েছে সরকার

১২ থেকে ১৭ বছরের শিক্ষার্থীদের তালিকা চেয়েছে সরকার

শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে ‘আগস্ট ১৯৭৫’ চলচ্চিত্রটি দেখানোর নির্দেশনা

শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে ‘আগস্ট ১৯৭৫’ চলচ্চিত্রটি দেখানোর নির্দেশনা

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দাবা টুর্নামেন্ট বিজয়ী আলিমুজ্জামান

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৯:১৫

বঙ্গবন্ধুর ছোট ছেলে শেখ রাসেল স্মৃতি র‌্যাপিড দাবা টুর্নামেন্ট পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক আলিমুজ্জামান চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন। শনিবার (১৬ অক্টোবর) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় আয়োজিত দিনব্যাপী টুর্নামেন্টে ৩০ জন বাংলাদেশি কূটনীতিক অংশ নেন। টুর্নামেন্টে দ্বিতীয় হয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর দফতরের পরিচালক আলাউদ্দিন ভূইয়া।

এদিকে সকালে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, এই প্রথমবারের মতো প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছে। ঢাবি এসএম হলের প্রাক্তন ছাত্র আব্দুল মোমেন বলেন, অনেক আগে থেকে দাবা খেলতাম।

পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন বলেন, সামনের বছর বিদেশি কূটনীতিকদের নিয়ে আরেকটি টুর্নামেন্ট আয়োজন করার চেষ্টা করবো।

/এসএসজেড/এমআর/

সম্পর্কিত

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান শুরু ২১ অক্টোবর

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে শ্রেণিকক্ষে পাঠদান শুরু ২১ অক্টোবর

‘হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা লাগানোর ষড়যন্ত্র করছে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি’ 

‘হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা লাগানোর ষড়যন্ত্র করছে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি’ 

১৫ দিনে ৩ হাজার ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

১৫ দিনে ৩ হাজার ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

‘ঢাকামুখী অভিবাসন বন্ধ না হলে কোনও পরিকল্পনাই কার্যকর হবে না’ 

‘ঢাকামুখী অভিবাসন বন্ধ না হলে কোনও পরিকল্পনাই কার্যকর হবে না’ 

‘হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা লাগানোর ষড়যন্ত্র করছে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি’ 

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৯:১২

সাম্প্রদায়িক অপশক্তি, স্বাধীনতা বিরোধীরা হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা লাগিয়ে দেশের সকল অর্জন ম্লান করে দেওয়ার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে সকল ষড়যন্ত্রকারীদের কঠোরভাবে প্রতিহত করার আহ্বানও জানান মন্ত্রী।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) হোটেল সোনারগাঁওয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগ আয়োজিত স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিববর্ষ উপলক্ষে পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন ও হাইজিন (ওয়াশ) সেক্টরে '৫০ বছরের অর্জন ভবিষ্যৎ করণীয়' শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী জানান, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, খাদ্য, পানি, নিরাপত্তা, অবকাঠামো, যোগাযোগসহ সকল ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। মুসলিম-হিন্দু, বৌদ্ধ-খ্রিস্টান সবাই মিলেমিশে কাজ করছে বলেই দেশ আজ বিশ্ব উন্নয়নের রোল মডেল। কিন্তু দেশের শত্রুরা এই ঐক্য এবং সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার পাঁয়তারা করছে।

পাকিস্তানের মদদ পুষ্ট ও প্রেতাত্মারা আবার ক্ষমতায় যাওয়ার দুঃস্বপ্ন দেখছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, দেশের জনগণ তাদেরকে উচ্ছিষ্ট হিসেবে প্রত্যাখ্যান করেছে। গুণ্ডা, সন্ত্রাস দিয়ে মাঠে নামার যখন কোনও অবস্থা নেই তখন তারা ধর্মকে ব্যবহার করে নতুন কৌশল অবলম্বন করছে। যে কৌশল পাকিস্তানিরা স্বাধীনতা যুদ্ধে ব্যবহার করেছিলো।

দেশের ৯৮ ভাগ এবং বস্তি এলাকা ৭০ ভাগ মানুষ সুপেয় পানির আওতায় এসেছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন ও হাইজিন সেক্টরে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন হয়েছে। এসডিজি-২০৩০ এবং ২০৪১ সালের লক্ষ্যমাত্রা সামনে রেখে সরকার পরিকল্পনা নিয়ে কাজ করছে বলেও মন্তব্য করেন মন্ত্রী।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এবং উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

/এসএস/এমআর/

সম্পর্কিত

‘ঢাকামুখী অভিবাসন বন্ধ না হলে কোনও পরিকল্পনাই কার্যকর হবে না’ 

‘ঢাকামুখী অভিবাসন বন্ধ না হলে কোনও পরিকল্পনাই কার্যকর হবে না’ 

‘ভবনে রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং থাকলে ১০ শতাংশ হোল্ডিং কর রেয়াত’

‘ভবনে রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং থাকলে ১০ শতাংশ হোল্ডিং কর রেয়াত’

হানিফ ফ্লাইওভারে বাস উল্টে দুই কাবাডি খেলোয়াড় আহত

হানিফ ফ্লাইওভারে বাস উল্টে দুই কাবাডি খেলোয়াড় আহত

‘দোলায় চড়ে’ দুর্গার বিদায় (ফটোস্টোরি)

‘দোলায় চড়ে’ দুর্গার বিদায় (ফটোস্টোরি)

১৫ দিনে ৩ হাজার ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৯:০৮

গত ২৪ ঘণ্টায় (১৫ অক্টোবর সকাল ৮টা থেকে ১৬ অক্টোবর সকাল ৮টা পর্যন্ত) ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৮৩ জন। তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগের হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৪১ জন আর বাকি ৪২ জন দেশের অন্যান্য বিভাগে। তাদের নিয়ে চলতি মাসের প্রথম ১৫ দিনেই ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর সংখ্যা তিন হাজার ছাড়িয়ে গেলো।

শনিবার ( ১৬ অক্টোবর) ডেঙ্গু বিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম এ তথ্য জানায়।

কন্ট্রোল রুম জানাচ্ছে, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ১৮৩  জনকে নিয়ে চলতি মাসের প্রথম ১৫ দিনে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগী হয়েছেন মোট তিন হাজার চারজন।

বর্তমানে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মোট রোগী ভর্তি আছেন ৮৬৯জন। তাদের মধ্যে ঢাকার সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৬৮৮ জন আর অন্যান্য বিভাগে ভর্তি আছেন ১৮১ জন।

চলতি বছরে এখন পর্যন্ত ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন মোট ২১ হাজার ২০১ জন। তাদের মধ্যে চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২০ হাজার ২৪৯ জন আর চলতি বছরে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৮৩ জন।

/জেএ/এমআর/

সম্পর্কিত

৬২ জেলায় শনাক্ত এক অঙ্কের ঘরে

৬২ জেলায় শনাক্ত এক অঙ্কের ঘরে

অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট সংকটে চালু হয় না আইসিইউ

অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট সংকটে চালু হয় না আইসিইউ

ডেঙ্গু: ১ থেকে ২০ বছর বয়সী রোগী বেশি

ডেঙ্গু: ১ থেকে ২০ বছর বয়সী রোগী বেশি

৫৯ জেলায় শনাক্তের সংখ্যা কমে এক অঙ্কে

৫৯ জেলায় শনাক্তের সংখ্যা কমে এক অঙ্কে

‘ঢাকামুখী অভিবাসন বন্ধ না হলে কোনও পরিকল্পনাই কার্যকর হবে না’ 

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৯:০৫

ঢাকামুখী অভিবাসন রোধ করা না গেলে যত পরিকল্পনাই নেওয়া হোক তা কার্যকর হবে না বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। 

শনিবার (১৬ অক্টোবর) রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলের বলরুমে স্থানীয় সরকার বিভাগ ও ওয়াটার এইড বাংলাদেশের উদ্যোগে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে আয়োজিত ‘পানি সরবরাহ, স্যানিটেশন ও হাইজিন (ওয়াশ) সেক্টরে ৫০ বছরের অর্জন ও ভবিষ্যৎ করণীয়’ শীর্ষক এক সেমিনারে ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস এই মন্তব্য করেন। 

মেয়র বলেন, ঢাকা ২ কোটি ১০ লাখ মানুষের শহর। ২০৩০ সালে কি এটা ৩ কোটি হবে, ২০৪১ সালে কি ৫ কোটি হবে? তাহলে কিন্তু সমস্যার সমাধান হবে না। আমাদেরকে আগে ২ কোটি ১০ লক্ষ মানুষের সকল নাগরিক সুবিধা, উন্নত ঢাকার সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে। সেজন্য আমাদেরকে দেশের গ্রামগুলোতে চাকরি, কর্মসংস্থান ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে। যখন ঢাকার দিকে এই গতি (গ্রাম হতে শহরে অভিবাসন) রোধ করতে পারবো, তখনই আমরা ২০৩০ সালে ঢাকার ২ কোটি ১০ লাখ মানুষের যথার্থ সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে পারবো। কিন্তু আমরা যদি ধরেই নিই যে, ঢাকার দিকে এই অভিবাসনের গতি চলতে থাকবে, তাহলে আমরা যতই পরিকল্পনা করি না কেন, ২০৩০ সালে গিয়ে দেখা যাবে আমাদের কোনও পরিকল্পনা কার্যকর হয়নি।

ঢাকা শহরের ৯৫ শতাংশ বাড়িতে সেপটিক ট্যাংক ও ৯৯.৯৯ শতাংশ বাড়িতে সোক ওয়েল নেই কিন্তু বাড়ির মালিকদের সেগুলো নিশ্চিত করার জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করতে বাধ্য করতে হবে জানিয়ে শেখ তাপস বলেন, স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইনে ইমারত নির্মাণ ও পুনর্নির্মাণের আবেদন ও অনুমতি সিটি করপোরেশনের কাছ থেকে নিতে হবে বলে উল্লেখ আছে। কিন্তু আজ অবধি সেটা রাজউক দিয়ে থাকে। আমরা একটি নীতিমালা প্রণয়ন করে মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করেছি। মন্ত্রণালয় সেটা পর্যালোচনা করছে। আমি আশাবাদী যে, ডিসেম্বরের মধ্যে সেটা পেয়ে যাবো। পেয়ে গেলে আগামী বছর থেকে সেটা বাস্তবায়ন করব।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব হেলালুদ্দীন আহমদের সভাপতিত্বে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন। 

/এসএস/এমআর/

সম্পর্কিত

‘হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা লাগানোর ষড়যন্ত্র করছে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি’ 

‘হিন্দু-মুসলিম দাঙ্গা লাগানোর ষড়যন্ত্র করছে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি’ 

‘ভবনে রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং থাকলে ১০ শতাংশ হোল্ডিং কর রেয়াত’

‘ভবনে রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং থাকলে ১০ শতাংশ হোল্ডিং কর রেয়াত’

হানিফ ফ্লাইওভারে বাস উল্টে দুই কাবাডি খেলোয়াড় আহত

হানিফ ফ্লাইওভারে বাস উল্টে দুই কাবাডি খেলোয়াড় আহত

‘দোলায় চড়ে’ দুর্গার বিদায় (ফটোস্টোরি)

‘দোলায় চড়ে’ দুর্গার বিদায় (ফটোস্টোরি)

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

বগুড়া-সিরাজগঞ্জ ডুয়েল গেজ রেলপথ নির্মাণে পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি

বগুড়া-সিরাজগঞ্জ ডুয়েল গেজ রেলপথ নির্মাণে পরামর্শক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চুক্তি

প্রকল্পের রেল গেট কিপারদের চাকরি স্থায়ীকরণের দাবি

প্রকল্পের রেল গেট কিপারদের চাকরি স্থায়ীকরণের দাবি

আধুনিক পাবলিক টয়লেটের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন রেলমন্ত্রী

আধুনিক পাবলিক টয়লেটের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেন রেলমন্ত্রী

টিকিট শেষ, তবুও অপেক্ষা (ফটোস্টোরি)

টিকিট শেষ, তবুও অপেক্ষা (ফটোস্টোরি)

এক সপ্তাহের জন্য ট্রেন চলবে

এক সপ্তাহের জন্য ট্রেন চলবে

রেলের দীর্ঘস্থায়ী উন্নয়নে কারখানা আধুনিকায়নের আহ্বান

রেলের দীর্ঘস্থায়ী উন্নয়নে কারখানা আধুনিকায়নের আহ্বান

রেলওয়েতে বিনিয়োগের আগ্রহ জার্মানির

রেলওয়েতে বিনিয়োগের আগ্রহ জার্মানির

সর্বশেষ

সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশনা ছাড়া প্রকাশ্যে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর নয়: তালেবান

সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশনা ছাড়া প্রকাশ্যে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর নয়: তালেবান

কার্বন নিয়ন্ত্রণে মানসম্মত বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি ব্যবহার জরুরি

কার্বন নিয়ন্ত্রণে মানসম্মত বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি ব্যবহার জরুরি

২৬ বই-লিফলেটসহ শিবিরের ২ নেতা আটক

২৬ বই-লিফলেটসহ শিবিরের ২ নেতা আটক

৩০ অক্টোবরের মধ্যেই আমদানির চাল বাজারে ছাড়ার নির্দেশ

৩০ অক্টোবরের মধ্যেই আমদানির চাল বাজারে ছাড়ার নির্দেশ

সন্তানদের সাঁতার শেখাতে গিয়ে পাইলটের মৃত্যু

সন্তানদের সাঁতার শেখাতে গিয়ে পাইলটের মৃত্যু

© 2021 Bangla Tribune