X
মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ৩ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

শাপলা বিক্রির টাকায় চলে সংসার 

আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:২০

শরীয়তপুরে শাপলা বিক্রি করে চলে চার উপজেলার প্রায় আট শতাধিক পরিবার। শাপলা বিক্রিতে কোনও পুঁজি দরকার হয় না বলে বর্ষা মৌসুমে জেলার বিভিন্ন উপজেলার কৃষক ও দিনমজুর শাপলা বিক্রি করে সংসারের খরচ চালান। বর্ষায় পানিতে ডুবে যাওয়া জমি থেকে নৌকায় করে শাপলা তুলে আনেন কৃষক ও দিনমজুররা। এরপর বিভিন্ন বাজারে সংগৃহীত শাপলা বিক্রি করেন তারা। শাপলা বিক্রি করে দৈনিক ৩০০ থেকে ৫০০ টাকা আয় হয় তাদের। 

স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায় জেলার নড়িয়া, জাজিরা, ভেদরগঞ্জ ও গোসাইরহাট উপজেলার নিচু এলাকার বিলে বর্ষা মৌসুমে অনেক শাপলা ফুটে। আষাঢ় থেকে শুরু করে ভাদ্র মাস পর্যন্ত পাওয়া যায় এই শাপলা।

শাপলা সংগ্রহকারীরা ভোরে নৌকা নিয়ে ডুবে যাওয়া জমিতে ও বিলের মধ্যে ঘুরে ঘুরে শাপলা তুলতে থাকেন। তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, বর্ষা মৌসুমে একেকজন প্রতিদিন কমপক্ষে ৪০ থেকে সর্বোচ্চ ৭০ মুঠো (৭০-৮০ পিসে হয় এক মুঠো) শাপলা সংগ্রহ করতে পারেন। পাইকাররা এসব শাপলা সংগ্রহকারীদের থেকে কিনে নেন। দিন শেষে ৪০০ টাকা থেকে ৫০০ টাকা আয় করতে পারেন তারা সংগ্রহকারীরা। বছরের প্রায় তিন মাস এ কাজ করে তারা জীবিকা নির্বাহ করেন।  

নড়িয়া উডজেলার নশাসন ইউনিয়নের পারাগাঁও বিল থেকে শাপলা সংগ্রহকারী মো. রবিউল বলেন, পানির সময় একেক জন কমপক্ষে ৪০ থেকে ৫০ মুঠো শাপলা সংগ্রহ করতে পারে। কেউ স্থানীয় বাজারে আবার কেউ এলাকায় ঘুরে-ঘুরে শাপলা বিক্রি করেন। অনেকে পাইকারদের কাছে বিক্রি করে। পাইকাররা আবার সংগ্রহকারীর কাছ থেকে এসব শাপলা সংগ্রহ করে একত্রে করেন। পরে পাইকাররা শাপলা কিনে ঢাকার যাত্রাবাড়ীসহ বিভিন্ন পাইকারি বাজারে পাঠান। 

শাপলা বিক্রেতা মুনসুর আলি হাওলাদার বলেন, শুকনা সিজনে জমিতে বদলা-কামলা দিয়ে সংসার চালাই। আর বর্ষাকালে বাড়ির চারপাশে থাকে পানি। কোথাও কোনও কাজ থাকে না, বেকার বসে থাকতে হয়। তাই এ সময় বিল থেকে শাপলা তুলে বাজারে বিক্রি করে সংসার চালাই।

নড়িয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. রোকনজ্জুমান বলেন, নড়িয়ার ১৪টি ইউনিয়নের মধ্যে প্রায় সাতটি ইউনিয়নে প্রাকৃতিকভাবে ১০০ টনের মতো শাপলা উৎপাদন হয়। পাঁচ থেকে ছয়শ’ কৃষক সরাসরি শাপলা বেচা-কেনার সঙ্গে জড়িত। শাপলা অত্যন্ত পুষ্টিকর সবজি। এতে প্রচুর পরিমাণে খনিজ পদার্থ আছে। এছাড়া শর্করা, ক্যালসিয়াম, আমিষ পাওয়া যায়। তাই শাপলা দিন দিন জনপ্রিয় সবজি হয়ে উঠছে।

 

/টিটি/  

সম্পর্কিত

তরুণীর ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার

তরুণীর ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার

বেড়েছে অন্তঃসত্ত্বা রোগীর চাপ, চিকিৎসক সংকটে ভোগান্তি 

বেড়েছে অন্তঃসত্ত্বা রোগীর চাপ, চিকিৎসক সংকটে ভোগান্তি 

আশুলিয়ায় ছেলের হাতে বাবা খুন

আশুলিয়ায় ছেলের হাতে বাবা খুন

ফেসবুক পোস্ট শেয়ার করে কারাগারে সাংবাদিক

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১৬:৪৬

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তি ও বিকৃত ছবি শেয়ার করায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে ফরহাদ আসিফ টিপু (৫০) নামের এক সাংবাদিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) বেলা ১১টার দিকে কুমারখালী উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফরহাদ ইমরান বাদী হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতার ফরহাদ আসিফ টিপু দৈনিক যায়যায়দিন পত্রিকার কুমারখালী উপজেলা প্রতিনিধি ও বাটিকামারা গ্রামের মৃত আমির উদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, ফেসবুকে অন্য আইডি থেকে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি ও বিকৃত করে পোস্ট করা ছবি নিজের ওয়ালে শেয়ার দেন ফরহাদ। সেটি উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফরহাদ ইমরানের নজরে এলে তিনি বাদী হয়ে কুমারখালী থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন।

কুমারখালী থানার ওসি কামরুজ্জামান তালুকদার জানান, প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ফেসবুকে অপপ্রচার ছড়ানোর অভিযোগে সাংবাদিক ফরহাদকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কুষ্টিয়া আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হবে।

/এফআর/

সম্পর্কিত

নিখোঁজের ৮ দিন পর ধানক্ষেতে মিললো ইজিবাইক চালকের লাশ

নিখোঁজের ৮ দিন পর ধানক্ষেতে মিললো ইজিবাইক চালকের লাশ

যশোর বোর্ডের আড়াই কোটি টাকার সর্বশেষ গন্তব্য খুঁজছে দুদক

যশোর বোর্ডের আড়াই কোটি টাকার সর্বশেষ গন্তব্য খুঁজছে দুদক

পূজামণ্ডপে হামলা চেষ্টা: ১০ জনকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ 

পূজামণ্ডপে হামলা চেষ্টা: ১০ জনকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ 

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুরের মামলায় যুবদলের ২ নেতা গ্রেফতার

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুরের মামলায় যুবদলের ২ নেতা গ্রেফতার

টানা বৃষ্টিতে ডুবেছে বরিশাল নগরী

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১৬:৪৬

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট বায়ুচাপের ফলে বরিশালে বিরামহীন বৃষ্টি হচ্ছে। এতে নগরীর বেশিরভাগ এলাকা পানিতে ডুবে গেছে। ফলে দুর্ভোগে পড়েছেন নগরবাসী। এ কারণে জরুরি কাজ ছাড়া কেউ ঘরের বাইরে বের হচ্ছেন না। 

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) সকাল থেকে বৃষ্টিতে নগরীর অধিকাংশ সড়ক ডুবে গেছে। কয়েকটি সড়কে যান চলাচল বন্ধ রয়েছে।

নগরীর রূপাতলী হাউজিংয়ের বাসিন্দা মো. বাপ্পি বলেন, অল্প বৃষ্টিতেই হাউজিং এলাকার সড়ক চলে যায় পানির নিচে। এ অবস্থা দীর্ঘদিনের। টানা বৃষ্টি হলে কি অবস্থা হতে পারে চিন্তা করতে পারবেন না। ভোররাত থেকে অবিরাম বৃষ্টি হওয়ায় সড়কে হাঁটুপানি। জরুরি কাজ সারতে নৌকা আনা হয়েছে। ৪-৫টি নৌকায় মানুষ জরুরি কাজ সারতে বের হয়েছেন। আবার ওই নৌকায় ফিরে আসেন। যানবাহন চলাচলের সুযোগ নেই। বিষয়টি বিভিন্ন সময় হাউজিংয়ের বাসিন্দারা সিটি করপোরেশনকে জানালেও আশ্বাসের মধ্যেই সীমাবদ্ধ রয়েছে। এ কারণে এখন আর কেউ পানি জমলেও কারও কাছে অভিযোগ জানান না। এই দুর্ভোগ আমাদের সহ্য হয়ে গেছে।

হাঁটুপানি উঠেছে নগরীর বটতলা এলাকার নবগ্রাম রোডে। শাখা সড়ক অক্সফোর্ড মিশন রোডও পানির নিচে। সেখানকার একাধিক বাসিন্দা বলেন, বৃষ্টি হলে পানি ওঠে। আবার অতিরিক্ত জোয়ারের সময়ও সড়ক চলে যায় পানির নিচে। বিভিন্ন সময় সিটি করপোরেশনের দায়িত্বরতরা বিষয়টি দেখে সমাধানের আশ্বাস দিয়ে গেছেন। কিন্তু তা আর সমাধান হয়নি। এ কারণে বৃষ্টি হলে আমরাও প্রস্তুত থাকি দুর্ভোগের জন্য।

এভাবে নগরীর বেশিরভাগ ‍এলাকার সড়ক রয়েছে পানির নিচে। শিক্ষার্থী ও কর্মব্যস্ত মানুষ পড়ে চরম বিপাকে। সংকট দেখা দিয়েছে অভ্যন্তরীণ বিভিন্ন যানবাহনের। যানবাহন সংকটের কারণে বেড়েছে রিকশা এবং থ্রি হুইলার ভাড়া।

বরিশাল আবহাওয়া অফিস সূত্র জানায়, বঙ্গোপসাগরে সঞ্চালনশীল বজ্রমেঘমালার কারণে বায়ুচাপের সৃষ্টি হয়েছে। বায়ুচাপের তারতম্যের কারণে বজ্রসহ বৃষ্টি হচ্ছে। সোমবার রাত থেকে মুষলধারে বৃষ্টি হচ্ছে। গতকাল সকাল ৬টা থেকে আজ সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল আবহাওয়া অফিস ৬৪.১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে।

মঙ্গলবার সকাল ৬টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত প্রায় ৬০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে তারা। বৈরী আবহাওয়ার কারণে দেশের তিন সমুদ্রবন্দরকে ৩ নম্বর সতর্কতা সংকেত এবং নদীবন্দর সমূহকে ১ নম্বর সতর্কতা সংকেত দেখিয়ে যেতে বলেছে আবহাওয়া অফিস।

/এএম/

সম্পর্কিত

জেলেদের হামলায় মেঘনায় নিখোঁজ কোস্টগার্ড সদস্য

জেলেদের হামলায় মেঘনায় নিখোঁজ কোস্টগার্ড সদস্য

ড্রেনে কাগজের বক্সে মিললো নবজাতকের লাশ

ড্রেনে কাগজের বক্সে মিললো নবজাতকের লাশ

চায়ের দোকান থেকে মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়লো আগুন

চায়ের দোকান থেকে মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়লো আগুন

সুলভ মূল্যের পণ্য বাজারে, ডিলারের ৩ মাস কারাদণ্ড

সুলভ মূল্যের পণ্য বাজারে, ডিলারের ৩ মাস কারাদণ্ড

হামলা-তাণ্ডব ঠেকাতে পারলাম না কেন, প্রশ্ন ইনুর

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১৬:৩১

প্রশাসনের ভেতরে ঘাপটি মেরে থাকা সাম্প্রদায়িক কর্মচারীদের ইচ্ছাকৃত নিষ্ক্রিয়তার কারণে রংপুরের পীরগঞ্জসহ দেশের ৫০টি স্থানে হামলা ও আগুন দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের সভাপতি হাসানুল হক ইনু। তিনি বলেছেন, ‘সরকারকে প্রশাসনের এ বিষয়টিকে তদন্ত করে ব্যবস্থা নিতে হবে।’

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) দুপুরে রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার বড়করিমপুর কসবা মাঝিপাড়ায় সন্ত্রাসীদের তাণ্ডবে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন তিনি।

ইনু বলেন, ‘সারাদেশে ৩২ হাজার পূজামণ্ডপে আমরা হামলা ঠেকাতে পারলাম। কিন্তু ৫০ জায়গায় হামলা ও তাণ্ডব ঠেকাতে পারলাম না কেন? যারা হামলা করেছে তারা তো দোষী। কিন্তু আমার একটা প্রশ্ন, হামলা ঠেকাতে প্রশাসন ব্যর্থ হলো কেন? আমার পরিষ্কার প্রশ্ন- প্রশাসন কি ব্যর্থ হয়েছে নাকি গাফিলতি আছে? এ ঘটনায় প্রশাসনের ব্যর্থতা বন্ধ করা যদি না যায় সেই সঙ্গে যারা দায়ী তাদের বিরুদ্ধে এখনই ব্যবস্থা নেওয়া না হয়, তাহলে এ ধরনের হামলার আবার পুনরাবৃত্তি ঘটবে।’

এর আগে, জাসদ সভাপতি পীরগঞ্জে এসে পৌঁছালে দলের নেতাকর্মীরা তাকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান। তিনি ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করে সেখানে এক সমাবেশে বক্তব্য দেন। সমাবেশ শেষে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে রাষ্ট্র সহায়তা দেবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। এ সময় জেলা জাসদ সভাপতি কুমারেশ চন্দ্র রায়, জাসদ নেতা শাফিয়ার রহমান মীর মোহাম্মদ আলী মানিকসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

/এফআর/

সম্পর্কিত

মন্দির পরিদর্শনে কু‌ড়িগ্রা‌মে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার 

মন্দির পরিদর্শনে কু‌ড়িগ্রা‌মে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার 

‘ম্যানেজ’ করে চলছে ইলিশ শিকার, বেচাকেনা জমজমাট

‘ম্যানেজ’ করে চলছে ইলিশ শিকার, বেচাকেনা জমজমাট

র‌্যাব সদস্য পরিচয়ে চাঁদাবাজি করতেন এনামুল 

র‌্যাব সদস্য পরিচয়ে চাঁদাবাজি করতেন এনামুল 

পীরগঞ্জে হামলা: ফেসবুকে ‘ধর্ম অবমাননা’র পোস্ট দেওয়া ব্যক্তি গ্রেফতার

পীরগঞ্জে হামলা: ফেসবুকে ‘ধর্ম অবমাননা’র পোস্ট দেওয়া ব্যক্তি গ্রেফতার

ভিমরুলের কামড়ে শিশুর মৃত্যু

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১৬:২৮

কুমিল্লার দেবিদ্বারে ভিমরুলের কামড়ে তানভির হোসেন (৫) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

তানভির এলাহাবাদ গ্রামের বাসিন্দা দেবিদ্বার সুজাত আলী সরকারি কলেজের দফতরি রুবেল মিয়ার ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, তানভির একমাস আগে উপজেলার জাফরগঞ্জ ইউনিয়নের হোসেনপুর গ্রামে নানাবাড়িতে বেড়াতে যায়। সোমবার নানাবাড়ির আঙিনার একটি গাছের নিচে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় একঝাঁক ভিমরুল তাকে কামড়ায়। স্থানীয়রা তাকে দেবিদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

তানভিরের চাচা হিমেল জানান, নানার বাড়ির আঙিনায় একটি গাছের নিচে দাঁড়ানো ছিল তানভির। অন্য ছেলেরা খেলাধুলা করছিল। ওই সময় কেউ ভিমরুলের বাসায় ঢিল ছুড়লে একঝাঁক ভিমরুল উড়ে এসে তানভিরকে কামড়ায়। অন্যরা দৌড়ে চলে গেলেও সে বয়সে ছোট হওয়ায় সরে যেতে পারেনি।

 

 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ-স্বাধীনতাবিরোধীরা এক ও অভিন্ন: শিক্ষামন্ত্রী

সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ-স্বাধীনতাবিরোধীরা এক ও অভিন্ন: শিক্ষামন্ত্রী

চট্টগ্রামে দল গোছাচ্ছে আ.লীগ ও বিএনপি, চাঙা তৃণমূল

চট্টগ্রামে দল গোছাচ্ছে আ.লীগ ও বিএনপি, চাঙা তৃণমূল

নির্মাণসামগ্রীর দখলে সড়ক, নগরবাসীর দুর্ভোগ

নির্মাণসামগ্রীর দখলে সড়ক, নগরবাসীর দুর্ভোগ

মন্দির পরিদর্শনে কু‌ড়িগ্রা‌মে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার 

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১৬:২৩

কু‌মিল্লায় সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলার জে‌রে কুড়িগ্রামের উলিপুরে বি‌ভিন্ন পূজামণ্ডপে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। ক্ষতিগ্রস্ত এসব মন্দিরগুলো পরিদর্শন করেছেন ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার সঞ্জিব কুমার ভাটি। মঙ্গলবার (১৮ অক্টোবর) দুপুরে উলিপুরের থেতরাই এবং গুনাইগাছ ইউনিয়নে তি‌নি হামলার শিকার চারটি মন্দির পরিদর্শন করেন। 

গুনাইগাছ ইউনিয়নের প‌শ্চিম কালুডাঙ্গা ব্রাহ্মণপাড়া মন্দির, নেফরা শ্রী শ্রী দুর্গা ম‌ন্দি‌র, পশ্চিম কালুডাঙা মন্দির এবং থেতরাই ইউনিয়নের হোকডাঙ্গা ভারতপাড়া দুর্গা ম‌ন্দি‌র পরিদর্শন করেন ভারতীয় সহকারী হাইক‌মিশনার।

এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের উলিপুর উপজেলা কমিটির সভাপতি সৌমেন্দ্র প্রসাদ পান্ডে (গবা), উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম হোসেন মন্টু, কুড়িগ্রাম রামকৃষ্ণ মিশনের সাধারণ সম্পাদক উদয় শংকর চক্রবর্তী এবং উলিপুর থানার ও‌সি ইম‌তিয়াজ ক‌বির । 

ক্ষতিগ্রস্ত ও ভুক্তভোগীদের সঙ্গে কথা বলেন ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার পরিদর্শনকালে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার হামলার শিকার মন্দিরগুলোর কমিটির সদস্য এবং ভুক্তভোগী লোকজনের সঙ্গে কথা বলেন। তবে তিনি সংবাদকর্মীদের সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি। 

বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ, উলিপুর উপজেলা কমিটির সভাপতি সৌমেন্দ্র প্রসাদ পান্ডে (গবা) জানান, তিনি (ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার) ঘটনাস্থলের সার্বিক পরিস্থিতি এবং ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ দেখার জন্য উলিপুরে আসেন। 

উলিপুর থানার ও‌সি ইমতিয়াজ কবির উপ‌স্থিত ভারতীয় সহকারী হাইক‌মিশনার‌কে জানান, মন্দিরে হামলা ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় উলিপুর থানা পুলিশ এখন পর্যন্ত ছয়টি মামলায় ২৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে অভিযান চলমান রয়েছে। 

/টিটি/

সম্পর্কিত

হামলা-তাণ্ডব ঠেকাতে পারলাম না কেন, প্রশ্ন ইনুর

হামলা-তাণ্ডব ঠেকাতে পারলাম না কেন, প্রশ্ন ইনুর

‘ম্যানেজ’ করে চলছে ইলিশ শিকার, বেচাকেনা জমজমাট

‘ম্যানেজ’ করে চলছে ইলিশ শিকার, বেচাকেনা জমজমাট

র‌্যাব সদস্য পরিচয়ে চাঁদাবাজি করতেন এনামুল 

র‌্যাব সদস্য পরিচয়ে চাঁদাবাজি করতেন এনামুল 

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

তরুণীর ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার

তরুণীর ধর্ষণ মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেফতার

বেড়েছে অন্তঃসত্ত্বা রোগীর চাপ, চিকিৎসক সংকটে ভোগান্তি 

বেড়েছে অন্তঃসত্ত্বা রোগীর চাপ, চিকিৎসক সংকটে ভোগান্তি 

আশুলিয়ায় ছেলের হাতে বাবা খুন

আশুলিয়ায় ছেলের হাতে বাবা খুন

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো সাংবাদিকের

ট্রাকচাপায় প্রাণ গেলো সাংবাদিকের

মারা গেছে দগ্ধ শিশু, হাসপাতালে কাতরাচ্ছে মা-বোন

মারা গেছে দগ্ধ শিশু, হাসপাতালে কাতরাচ্ছে মা-বোন

উসকানি দেওয়ার অভিযোগে মসজিদের খতিব গ্রেফতার

উসকানি দেওয়ার অভিযোগে মসজিদের খতিব গ্রেফতার

বঙ্গবন্ধু আমাদের অস্তিত্ব, শেখ হাসিনা ঠিকানা: মেয়র জাহাঙ্গীর

বঙ্গবন্ধু আমাদের অস্তিত্ব, শেখ হাসিনা ঠিকানা: মেয়র জাহাঙ্গীর

স্কুলশিক্ষার্থীকে তুলে নিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ 

স্কুলশিক্ষার্থীকে তুলে নিয়ে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ 

৪ মাসের সন্তানকে গলাটিপে হত্যার অভিযোগ মায়ের বিরুদ্ধে

৪ মাসের সন্তানকে গলাটিপে হত্যার অভিযোগ মায়ের বিরুদ্ধে

সর্বশেষ

জাপান উপত্যকায় চীন-রাশিয়ার যৌথ নৌমহড়া

জাপান উপত্যকায় চীন-রাশিয়ার যৌথ নৌমহড়া

টিকটক থেকে সোহানের ছবির নায়ক-নায়িকা

টিকটক থেকে সোহানের ছবির নায়ক-নায়িকা

ফেসবুক পোস্ট শেয়ার করে কারাগারে সাংবাদিক

ফেসবুক পোস্ট শেয়ার করে কারাগারে সাংবাদিক

টানা বৃষ্টিতে ডুবেছে বরিশাল নগরী

টানা বৃষ্টিতে ডুবেছে বরিশাল নগরী

আবার বেড়েছে সয়াবিন তেলের দাম

আবার বেড়েছে সয়াবিন তেলের দাম

© 2021 Bangla Tribune