X
শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ৭ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

ফুটপাত বাণিজ্য নিয়ে পাল্টাপাল্টি দোষারোপ, দিনে কত টাকা ওঠে?

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:৪৭

রাজধানীবাসী ব্যবহার করতে পারছে না ফুটপাত। অসাধু চক্র একটার পর একটা দোকান বসিয়েই যাচ্ছে। আবার সেই দোকান ‘ভাড়া’ দিয়ে হাতিয়ে নিচ্ছে বিপুল অঙ্কের টাকা। এসব ফুটপাতে চলতে গিয়ে বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন নারীরা। ফুটপাত দেখভালের দায়িত্বে থাকা দুই সিটি করপোরেশনের নেই কোনও উদ্যোগ। স্থানীয় প্রভাবশালীদের মদতেই অবাধে চলছে ফুটপাত বাণিজ্য।

মিরপুর ১ ও ১০ নম্বর এলাকায় সরেজমিনে দেখা গেছে, মার্কেটগুলোর সামনে ফুটপাত বলতে কিছু নেই। হাঁটতে গেলেও জট লাগে। করোনা পরিস্থিতিতে এখানে শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখা রীতিমতো অসম্ভব। ফুটপাতগুলো কারা নিয়ন্ত্রণ করছে, কে ভাড়া তোলে এমন প্রশ্ন ছিল হকারদের কাছে। বেশিরভাগই মুখ খুলতে নারাজ।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে একজন হকার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, প্রতিদিন আড়াই শ’ টাকা ভাড়া, আর ৫০ টাকা চাঁদা দিতে হয় বিশেষ একটি পক্ষকে‌। বেচাবিক্রি হোক না হোক, ৩০০-৩৫০ টাকা প্রতিদিন দিতে হয়। জায়গাটি এক বছরের জন্য নিয়েছি। এর জন্য আবার অগ্রিম দিতে হয়েছে ৩০ হাজার টাকা।

অনুসন্ধানে দেখা গেছে, মিরপুর এক নম্বরের মুক্ত বাংলা শপিং সেন্টার, মুক্তিযোদ্ধা মার্কেট, বাগদাদ শপিং সেন্টার, ছিন্নমূল মার্কেট, কো-অপারেটিভ মার্কেট, কলেজ মার্কেটসহ আরও অনেক মার্কেটের সামনের ফুটপাতে স্থায়ী পসরা সাজিয়ে বসেছেন অনেকে। প্রতিটি ফুটপাত নিয়ন্ত্রণ করে একজন ‘লাইনম্যান’। মিরপুর ১ নম্বরে লাইনম্যানের তালিকায় আছেন সুরুজ, নয়ন অলি, জাকির, ফারুক, এনামুল, আনোয়ার, পল্টু মিয়া, সেলিমসহ আরও কয়েকজন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রতিদিন শুধু মিরপুর ১ নম্বরের ফুটপাত থেকেই চাঁদা ওঠে তিন লাখ টাকারও বেশি। যার একটা বড় অংশ চলে যায় স্থানীয় প্রভাবশালীদের পকেটে।

ফুটপাতে অবৈধ ব্যবসার পেছনে সিটি করপোরেশন ও প্রশাসনকে দায়ী করেছেন বাগদাদ শপিং সেন্টারের সাধারণ সম্পাদক আমির হোসেন মোল্লা। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, ‘ফুটপাতে এসব অবৈধ ব্যবসা পরিচালনার জন্য সরাসরি তারা জড়িত। মার্কেটের সামনে ফুটপাত উৎখাত করতে চাই আমরাও। কিছু অভিযান চালানো হয়। এরপর আবার হকাররা বসতে শুরু করে। কেন অভিযান চালায়, আবার কীভাবে বসে এটা রহস্যের মনে হয়। এ বিষয়ে সিটি করপোরেশন দায়িত্বহীনতা দেখাচ্ছে।’

বিষয়টি অস্বীকার করে মিরপুর ১ নম্বরের স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর (উত্তর ৮ নম্বর ওয়ার্ড) কাশেম মোল্লা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘ওয়ার্ড কাউন্সিলের পক্ষ থেকে চাঁদাবাজি হয় না। আমির মোল্লা নিজেই মিরপুর এক নম্বরের ফুটপাতের ব্যবসা নিয়ন্ত্রণ করেন। তার সহযোগী কবিরের মাধ্যমে দোকান বরাদ্দ দেন। প্রতিদিন টাকাও তোলেন তিনি।’

মিরপুর শাহ আলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘পুলিশ ফুটপাতে চাঁদাবাজিতে জড়িত নয়। সিটি করপোরেশন দোকানের অনুমতি দেয়। বিষয়টি তারাই ভালো বলতে পারবে। আমরা প্রতিনিয়ত অভিযান পরিচালনা করে হকার উচ্ছেদ করি। পরে তারা আবার বসে।’

মিরপুর ১০ নম্বরে ফুটপাত নিয়ন্ত্রণে জড়িত রয়েছে স্থানীয় প্রশাসনের কিছু কর্মকর্তা, সিটি করপোরেশন এবং স্থানীয় রাজনীতিবিদরা। এমন অভিযোগ হকারদের। সেখানে লাইনম্যানের কাজ করছেন আমিনুল ফরহাদসহ আরও কয়েকজন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন হকার বলেন, এখানে দোকান নিতে ককালীন ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা দিতে হয়। দৈনিক চাঁদা তো আছেই। আমাদের উঠিয়ে দিতে অভিযান চালানো হয়। কয়েকদিন বন্ধ থাকে। তারপর আবার ‘ভাই’দের সঙ্গে কথা বলে বসি। খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে প্রতিদিন এখানেও গড়পড়ায় তিন লাখ টাকা চাঁদা ওঠে।

পথচারীদের অভিযোগ, এসব ফুটপাতে হাঁটতে গেলে পকেটমারদের আতঙ্কেও থাকতে হয়। বিশেষ করে নারীদের সঙ্গে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটছে বেশি। মিরপুর ১০ নম্বরে শপিং করতে আসা লামিয়া বলেন, এ ফুটপাত দিয়ে হাঁটাই যায় না। হকাররা দোকান বসিয়ে রেখেছে। ধাক্কাধাক্কি লেগেই থাকে। অনেকে ইচ্ছে করেই গায়ের ওপর এসে পড়ে। মিরপুর ১১ নম্বর থেকে আসা রোকন বলেন, ফুটপাত দিয়ে হাঁটার উপায় নেই। তাই মেইন রোডে নামতে বাধ্য হয়েছি।

ঢাকা উত্তরের কোনও ওয়ার্ড কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে ফুটপাতে চাঁদাবাজির সংশ্লিষ্টতা পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন ঢাকা উত্তরের মেয়র আতিকুল ইসলাম।

/এফএ/এনএইচ/

সম্পর্কিত

ক্যান্সার আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহনের দাবি

ক্যান্সার আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহনের দাবি

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রবিবার দেশে জলবায়ু ধর্মঘট পালন করবেন পরিবেশবাদীরা

রবিবার দেশে জলবায়ু ধর্মঘট পালন করবেন পরিবেশবাদীরা

রাজধানীতে ট্রেন লাইনচ্যুত: সাড়ে তিন ঘণ্টা পর চলাচল স্বাভাবিক

রাজধানীতে ট্রেন লাইনচ্যুত: সাড়ে তিন ঘণ্টা পর চলাচল স্বাভাবিক

সহিংসতার বিরুদ্ধে সংগীত 

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ২২:২৪

গান, কবিতা, মুকাভিনয় ও নৃত্যসহ নানা শৈল্পক পরিবেশনায় সাম্প্রদায়িক সহিংসতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষার্থীরা। শুক্রবার (২২ অক্টোবর) বেলা ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে ‘সহিংসতার বিরুদ্ধে কনসার্ট’ শিরোনামে এ প্রতিবাদ জানানো হয়। কনসার্টে দেশের নামকরা ব্যান্ডসমূহের পাশাপাশি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

রাজু ভাস্কর্যের সামনে সাজানো হয়েছে মঞ্চ কনসার্টে গান পরিবেশ করে দেশের শীর্ষ স্থানীয় ব্যান্ড দল ‘শিরোনামহীন’, ‘মেঘদল’, ‘সহজিয়া’, ‘শহরতলী’, ‘বাংলা ফাইভ’, ‘গানপোকা’, ‘গানকবি’, ‘কৃষ্ণপক্ষ’, ‘কাল’, ‘অবলিক’, ‘অসৃক’, ‘অর্জন’ ও ‘বুনোফুল’ । একক সংগীত পরিবেশন করেন জয় শাহরিয়ার, তুহিন কান্তি দাস, সাহস মোস্তাফিজ, লালন মাহমুদ, নাঈম মাহমুদ, প্রিয়াংকা পাণ্ডে, যশ নমুদার, তাবিব মাহমুদ, রানা, উদয়, অপু, উপায় ও অনিন্দ্য। নৃত্য পরিবেশন করেন উম্মে হাবিবা ও আবু ইবনে রাফি।

ঢাকা ইউনিভার্সিটি মাইম অ্যাকশন সোসাইটির শিল্পীরা মুকাভিনয় পরিবেশন করেন।

রাজু ভাস্কর্যের সামনে সাজানো হয়েছে মঞ্চ ব্যতিক্রমধর্মী এই আয়োজনের উদ্যোক্তা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ কল্যাণ ইনস্টিটিউটের সাবেক শিক্ষার্থী তুহিন কান্তি দাস বলেন, ‘এ আয়োজনের মূল উদ্দেশ্য দেশব্যাপী চলমান সহিংসতার বিরুদ্ধে একাত্ম হয়ে সাংস্কৃতিক প্রতিবাদ জানানো। মিছিল, বক্তৃতা,  সভা ও সেমিনারের চেয়ে শিল্প অনেক শক্তিশালী প্রতিবাদের মাধ্যম। তাই আমরা এই মাধ্যমকেই বেছে নিয়েছি। আমরা চাই, এ দেশের মানুষ হিন্দু-মুসলিম পরিচয়ের চেয়ে ‘আমরা সবাই বাংলাদেশি’ পরিচয়ে পরিচিত হোক। এটাই আজকের আয়োজনের অন্যতম লক্ষ্য।’

 

 /আইএ/

সম্পর্কিত

ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে প্রায় ৭৪ শিক্ষার্থী

ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে প্রায় ৭৪ শিক্ষার্থী

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

হিন্দু পরিষদের শাহবাগ অবরোধ

হিন্দু পরিষদের শাহবাগ অবরোধ

ডেমরায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে রঙমিস্ত্রির মৃত্যু

ডেমরায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে রঙমিস্ত্রির মৃত্যু

ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে প্রায় ৭৪ শিক্ষার্থী

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ২২:১৩

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটের ২০২০-২১ সেশনের ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বেন ৭৩ দশমিক ৮১ জন। এবার এই ইউনিটে ১ হাজার ৫৭০টি আসনের বিপরীতে মোট আবেদন জমা পড়েছে ১ লাখ ১৫ হাজার ৮৮১টি।

আগামীকাল (২৩ অক্টোবর) সকাল ১১টা থেকে পরীক্ষা দেবেন শিক্ষার্থীরা। তবে আবেদনকারী সবার আসন ঢাবিতে পড়েনি। দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে তাদের ভর্তি পরীক্ষা দিতে হবে।

জানা গেছে- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৬১ হাজার ৮৫০ জনের, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ১২ হাজার জনের, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ৯ হাজার ৮৯৮ জনের, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে ৭ হাজার ৭৯৮ জনের, খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৮ হাজার ১২৪ জনের, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ২ হাজার ১৭৮ জনের, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ৩ হাজার ১৩ জনের এবং বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে ১১ হাজার ২০ জনের আসন পড়েছে।

/জেএইচ/

সম্পর্কিত

সহিংসতার বিরুদ্ধে সংগীত 

সহিংসতার বিরুদ্ধে সংগীত 

জবি ছাত্রীর আত্মহত্যা, শিক্ষককে দায়ী করছেন স্বজন ও সহপাঠীরা

জবি ছাত্রীর আত্মহত্যা, শিক্ষককে দায়ী করছেন স্বজন ও সহপাঠীরা

সব শিক্ষা অফিসের ইন্টারনেট সেবা সংক্রান্ত তথ্য চেয়েছে সরকার

সব শিক্ষা অফিসের ইন্টারনেট সেবা সংক্রান্ত তথ্য চেয়েছে সরকার

প্রাথমিকের অফিসে ই-ফাইলিং শুরু ৩১ অক্টোবর

প্রাথমিকের অফিসে ই-ফাইলিং শুরু ৩১ অক্টোবর

উপ-রাষ্ট্রপতি ও উপ-প্রধানমন্ত্রীর পদ সৃষ্টির দাবি হিন্দু পরিষদের

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ২১:১৮

জাতীয় সংসদে সংখ্যালঘুদের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিতকরণে ৬০টি সংরক্ষিত আসন বরাদ্দ এবং একজন উপ-রাষ্ট্রপতি ও একজন উপ-প্রধানমন্ত্রীর পদ সৃষ্টির দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদ। একইসঙ্গে সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সার্বিক নিরাপত্তার লক্ষ্যে সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন প্রণয়ন এবং জাতীয় সংখ্যালঘু কমিশন গঠনের দাবি তুলেছে সংগঠনটি। শুক্রবার (২২ অক্টোবর) বিকাল থেকে পাঁচটি দাবি নিয়ে রাজধানীর শাহবাগ মোড়ে সড়ক অবরোধ করেন এর নেতাকর্মীরা।

কর্মসূচিতে পেশ করা সংগঠনের বাকি তিনটি দাবি হলো-শারদীয় দুর্গাপূজায় তিন দিনের সরকারি ছুটি ও নিম্ন মাধ্যমিক পর্যায়ে সংস্কৃত শিক্ষা পুনরায় চালু করা, সরকারি চাকরিতে ২০ শতাংশ কোটা পদ্ধতি চালুসহ হিন্দু ধর্মীয় শিক্ষার্থীদের জন্য সব মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে হিন্দু ধর্মীয় শিক্ষক নিয়োগ নিশ্চিত করা এবং বেদখলকৃত সব দেবোত্তর সম্পত্তি স্ব স্ব মঠ-মন্দিরে হস্তান্তরসহ বন্ধ জাদুঘরের পরিবর্তে উদ্ধারকৃত হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতিমা মঠ-মন্দিরের কাছে ফেরত দেওয়া।

শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে শাহবাগ মোড়ে অবস্থান নেয় বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদ। দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক হামলায় জড়িতদের বিচার এবং সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা চেয়ে রাজধানীর শাহবাগে সড়ক অবরোধ ও বিক্ষোভ করেন সংগঠনের নেতাকর্মীরা। ট্রাইব্যুনাল গঠন করে দ্রুত সাম্প্রদায়িক হামলার বিচার, ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলোকে ৫০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ, সংখ্যালঘু সুরক্ষা আইন প্রণয়ন এবং জাতীয় সংখ্যালঘু কমিশন গঠনের দাবি জানান তারা। অবরোধ পরবর্তী সময়ে সন্ধ্যা ৬টার দিকে মশাল মিছিল নিয়ে জাতীয় প্রেসক্লাব অভিমুখে রওনা দেন আন্দোলনকারীরা।

রাজধানীর শাহবাগে সড়ক অবরোধ করে বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদ

অবরোধ কর্মসূচিতে বাংলাদেশ হিন্দু আইনজীবী পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট সুমন কুমার রায় বলেন, ‘আপনারা জানেন দেশব্যাপী সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ওপর কী নারকীয় হামলা চালানো হয়েছে। প্রশাসন এক্ষেত্রে তাদের দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ। রাষ্ট্র সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ। সাম্প্রদায়িক হামলায় জড়িতরা বারবার পার পেয়ে যাচ্ছে। এর আগেও সাম্প্রদায়িক হামলায় সংখ্যালঘুরা বিচার পায়নি। হামলার কুশীলবরা ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে যায়। আমরা চাই, হামলার নেপথ্যে যারা জড়িত তাদেরও যেন বিচারের আওতায় আনা হয়।’

জাতীয় হিন্দু সমাজ সংস্কার সমিতির সভাপতি অধ্যাপক নীরেন্দ্রনাথ বিশ্বাসের মন্তব্য, ‘দেশে সংখ্যালঘুদের ওপর এতো হামলা হলেও কোনও বিচার হয় না। বিচার হয় না বলে এর স্থায়ী প্রতিকার দেখা যায় না। হামলাকারীকে বের করে গ্রেফতার করা চূড়ান্ত সমাধান নয়। মূলহোতাকে গ্রেফতার করা হোক এবং শাস্তি দেওয়া হোক।’

হিন্দু-মুসলিম সম্প্রীতি আবারও ফিরিয়ে আনতে সরকারকে মুখ্য ভূমিকা পালনের আহ্বান জানায় জাতীয় হিন্দু সমাজ সংস্কার সমিতি।

/জেএইচ/

সম্পর্কিত

সহিংসতার বিরুদ্ধে সংগীত 

সহিংসতার বিরুদ্ধে সংগীত 

ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে প্রায় ৭৪ শিক্ষার্থী

ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় প্রতি আসনের বিপরীতে প্রায় ৭৪ শিক্ষার্থী

ক্যান্সার আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহনের দাবি

ক্যান্সার আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহনের দাবি

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

ক্যান্সার আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহনের দাবি

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ২০:০১

ক্যান্সার আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার ব্যয় সরকারিভাবে বহনের দাবি জানিয়েছে রোগী কল্যাণ সোসাইটি।

শুক্রবার (২২ অক্টোবর) রাজধানীর মগবাজার এলাকায় বাংলাদেশ রোগী কল্যাণ সোসাইটির উদ্যোগে অসহায় ও দুস্থ মানুষের মাঝে বিনামূল্যে ওষুধ বিতরণ কর্মসূচিতে এ দাবি জানানো হয়।

এ সময় সংগঠনের পক্ষ থেকে তুলে ধরা প্রস্তাবনায় বলা হয়- বায়ু দূষণ বন্ধ ও মেডিক্যালের বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় আধুনিকায়ন ব্যবস্থা জোরদার করতে হবে। বিভাগীয়ভাবে ক্যান্সার গবেষণা ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠা এবং সরকারি হাসপাতালে শূন্যপদে ডাক্তার নিয়োগ সম্পন্ন করতে হবে। স্বাস্থ্য বিমা বাধ্যতামূলক করার জন্য রাষ্ট্রীয়ভাবে উদ্যোগ এবং স্বাস্থ্যকর্মীদের পর্যাপ্ত প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করার কথাও এসময় বলা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বাপ্পি সরদার তার বক্তব্যে বলেন, বর্তমান সময়ে উদ্বেগজনকহারে ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। যদিও প্রথম ও দ্বিতীয় স্তরে ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসার গবেষণা সারা পৃথিবীজুড়ে অনেকটা সফল হলেও শেষ স্তরের চিকিৎসা এখনও আলোর মুখ দেখেনি। এই ক্ষেত্রে সম্প্রতি বর্তমান সরকার ক্যান্সার গবেষণা ইনস্টিটিউট চালু করতে যাচ্ছে। তবে ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীর চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহন করলে সাধারণ মানুষ উপকৃত হবে।

ডা. মাহতাব হোসাইন মাজেদ বলেন, চিকিৎসা খাতে আরও বেশি গবেষণা জোরদার করা দরকার। উন্নত গবেষণার মাধ্যমে টেকসই চিকিৎসা ব্যবস্থা বাস্তবায়ন করা সম্ভব। পাশাপাশি সরকারি হাসপাতালগুলো দুর্নীতি বন্ধ ও চিকিৎসার মান উন্নত করতে পারলে রোগীরা সঠিক সেবা পাবে।

নুরুল আফসার বিএসসির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মসূচিতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সবুজ আন্দোলনের পরিচালনা পরিষদের চেয়ারম্যান বাপ্পি সরদার। কর্মসূচি উদ্বোধন করেন গণআজাদী লীগের মহাসচিব মুহাম্মদআতা উল্লাহ খান। অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ রোগী কল্যাণ সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা ও কো-চেয়ারম্যান ডা. মুহাম্মদ মাহতাব হোসাইন মাজেদ, কুটির শিল্প ও কারিগরি প্রকল্পের নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ শফিউল আলম, রোগী কল্যাণ সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য মো. সাইফুল ইসলাম, এইচএম সালাউদ্দিন কাদের।

/এসএস/এমএস/

সম্পর্কিত

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রবিবার দেশে জলবায়ু ধর্মঘট পালন করবেন পরিবেশবাদীরা

রবিবার দেশে জলবায়ু ধর্মঘট পালন করবেন পরিবেশবাদীরা

রাজধানীতে ট্রেন লাইনচ্যুত: সাড়ে তিন ঘণ্টা পর চলাচল স্বাভাবিক

রাজধানীতে ট্রেন লাইনচ্যুত: সাড়ে তিন ঘণ্টা পর চলাচল স্বাভাবিক

কাওরান বাজারে মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত

কাওরান বাজারে মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৩৩

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে কাওরান বাজার এলাকায় দুইজন এবং বনানীর সৈনিক ক্লাব এলাকায় একজন প্রাণ হারিয়েছেন। শুক্রবার (২২ অক্টোবর) দিনের বিভিন্ন সময়ে এসব দুর্ঘটনা দেখা দেয়। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহগুলো আইনি প্রক্রিয়া শেষে ঢামেক মর্গে পাঠিয়েছে ঢাকা রেলওয়ে পুলিশ।

রেলওয়ে পুলিশের এএসআই সাকলাইন জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে সৈনিক ক্লাব এলাকা থেকে জিন্স প্যান্ট ও শার্ট পরা এক যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তার বয়স আনুমানিক ২৪ বছর। তবে পরিচয় জানা যায়নি। রেলওয়ে পুলিশের তথ্যানুযায়ী, কমলাপুরগামী সোনার বাংলা এক্সপ্রেস ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু হয়েছে তার।

তেজগাঁও থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রিয়াজ মাহমুদ জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার রাতে তেজগাঁও রেলস্টেশন ও কাওরান বাজারের মাঝামাঝি রেলগেট এলাকায় কমলাপুরগামী ট্রেনে কাটা পড়ে প্রাণ হারায় সবুজ শার্ট ও কালো প্যান্ট পরা এক ব্যক্তি। তার বয়স আনুমানিক ৪০ বছর। তবে পরিচয় জানা যায়নি।

এসআই রিয়াজ মাহমুদ জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে কাওরান বাজার কাঠপট্টি এলাকায় একটি মোবাইল ফোন দেখে আরেকটি মোবাইল ফোনে নম্বর তোলার সময় টঙ্গীগামী ট্রেনের ধাক্কায় মনসুর হেলাল (২৫) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। আশেপাশের লোকজন ট্রেন আসছে দেখে তাকে ডাকলেও তিনি বুঝতে পারেননি।

পুলিশ জানিয়েছে, মৃত তরুণ একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন। তার গ্রামের বাড়ি টাঙ্গাইলে। মিরপুরের একটি মেসে থাকতেন তিনি।

/এআইবি/আরটি/জেএইচ/

সম্পর্কিত

সহিংসতার বিরুদ্ধে সংগীত 

সহিংসতার বিরুদ্ধে সংগীত 

ক্যান্সার আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহনের দাবি

ক্যান্সার আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহনের দাবি

রাজনৈতিক দলগুলো পুরনো অভ্যাসে লিপ্ত, বিবৃতিতে ৪৭ নাগরিক

রাজনৈতিক দলগুলো পুরনো অভ্যাসে লিপ্ত, বিবৃতিতে ৪৭ নাগরিক

রবিবার দেশে জলবায়ু ধর্মঘট পালন করবেন পরিবেশবাদীরা

রবিবার দেশে জলবায়ু ধর্মঘট পালন করবেন পরিবেশবাদীরা

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ক্যান্সার আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহনের দাবি

ক্যান্সার আক্রান্তদের চিকিৎসার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহনের দাবি

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কা ও কাটা পড়ে তিনজনের মৃত্যু

রবিবার দেশে জলবায়ু ধর্মঘট পালন করবেন পরিবেশবাদীরা

রবিবার দেশে জলবায়ু ধর্মঘট পালন করবেন পরিবেশবাদীরা

রাজধানীতে ট্রেন লাইনচ্যুত: সাড়ে তিন ঘণ্টা পর চলাচল স্বাভাবিক

রাজধানীতে ট্রেন লাইনচ্যুত: সাড়ে তিন ঘণ্টা পর চলাচল স্বাভাবিক

কাওরান বাজারে মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত

কাওরান বাজারে মালবাহী ট্রেন লাইনচ্যুত

৮০ কোটি টাকায় যেভাবে বদলে যাবে ধূপখোলা মাঠ

৮০ কোটি টাকায় যেভাবে বদলে যাবে ধূপখোলা মাঠ

ফেসবুকে ‘ভুয়া’ ভিডিও প্রচার: কলেজ শিক্ষক রুমা রিমান্ডে

ফেসবুকে ‘ভুয়া’ ভিডিও প্রচার: কলেজ শিক্ষক রুমা রিমান্ডে

মুগদা হাসপাতালের আগুন নিয়ন্ত্রণে

মুগদা হাসপাতালের আগুন নিয়ন্ত্রণে

ঢাবির সুফিয়া কামাল হলের আগুন নিয়ন্ত্রণে

ঢাবির সুফিয়া কামাল হলের আগুন নিয়ন্ত্রণে

সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে সাহিত্যিক-শিল্পী ও সাংবাদিকদের বিক্ষোভ সমাবেশ

সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে সাহিত্যিক-শিল্পী ও সাংবাদিকদের বিক্ষোভ সমাবেশ

সর্বশেষ

জিন্স-টি শার্টে ঝলমলে কারিনা

জিন্স-টি শার্টে ঝলমলে কারিনা

সংঘাত নয়, সহযোগিতা ও শান্তি চাই: বঙ্গবন্ধু

সংঘাত নয়, সহযোগিতা ও শান্তি চাই: বঙ্গবন্ধু

‘দাবিটা সরল, তালিবানকে বসতে দেবেন না’

‘দাবিটা সরল, তালিবানকে বসতে দেবেন না’

এক সপ্তাহে কলকাতায় করোনা রোগী দ্বিগুণ

এক সপ্তাহে কলকাতায় করোনা রোগী দ্বিগুণ

বিজেপির ফেক নেটওয়ার্ক বন্ধ করেনি ফেসবুক: বিস্ফোরক সোফি

বিজেপির ফেক নেটওয়ার্ক বন্ধ করেনি ফেসবুক: বিস্ফোরক সোফি

© 2021 Bangla Tribune