X
রবিবার, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

সেতুতে গর্ত, ঝুঁকি নিয়ে পারাপার  

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:২৪

ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া রাঙ্গামাটিয়া ইউনিয়নের বড়বিলা বিলের পাশে খালের ওপর সেতুটি ভেঙে বিশাল গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এতে সেতুটি এখন মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। সেতু দিয়ে দুই পারের মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করছেন। 

কাঁচা হলুদ আর লাল চিনির জন্য বিখ্যাত ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া উপজেলা। এ উপজেলার বানার নদীর তীরে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী উপজাতী অধ্যুষিত রাঙ্গামাটিয়া ইউনিয়ন। ১১ দশমিক ৫০ বর্গ কিলোমিটার এলাকার ইউনিয়নটিতে এক লাখ ৮৮ হাজার ১৫ জন মানুষের বসবাস।  

স্থানীয়রা জানান, জেলা শহরের কাছাকাছি উপজেলা হলেও যোগাযোগের ক্ষেত্রে পিছিয়ে আছে ইউনিয়নটি। কর্তৃপক্ষের অবহেলায় সেখানকার সেতুটি এখন এলাকাবাসীর জন্য মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। তবুও জীবনের তাগিদে প্রতিদিন হাজারো মানুষ ও স্কুল-কলেজের শত শত শিক্ষার্থী জীবনের ঝুঁকি নিয়ে এ সেতু দিয়ে চলাচল করছে। 

সেতুটি দিয়ে মোটরসাইকেল, রিকশা ও ভ্যান চলাচল করলেও সম্প্রতি সেতুটির মাঝের অংশ ভেঙে গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এ কারণে অটোরিকশাসহ সব ধরনের যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে। 

ব্যবসায়ী কামরুল ইসলাম জানান, রাঙ্গামাটিয়া-কেশরগঞ্জ হয়ে গারো বাজারের যাতায়াতের একমাত্র সড়কপথ এটি। প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ এ সড়কে চলাচল করে। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে ভেঙে ও ধসে পড়া সেতুটির সংস্কারে নজর নেই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের। এতে এলাকাবাসীর চলাচলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। যেকোনও ঘটে যেতে পারে বড় দুর্ঘটনা।

 স্থানীয় সজল মিয়া বলেন, সেতুটি ভেঙে পড়ার কারণে এলাকার খেটে খাওয়া কৃষক-শ্রমিকরা পড়েছেন বিপাকে। কৃষকদের উৎপাদিত কৃষিপণ্য, ফলমূল, শাক-সবজি ও অন্যান্য ফসল বাজারে আনা-নেওয়া করতে পারছেন না তারা। ফলে ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন তারা।

উপজেলা প্রকৌশলী মো. মাহাবুব মুর্শেদ বলেন, ১৯৮৭ সালে ৯ মিটার দীর্ঘ সেতুটি নির্মিত হয়। তবে বর্তমানে এ সেতুটি চলাচালের অনুপযোগী। স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে ওই সেতুটি পরিদর্শন করে নতুন সেতু নির্মাণের জন্য স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের (এলজিইডি) সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে বরাদ্দ চেয়ে প্রস্তাবনা পাঠানো হয়েছে।      
 
ফুলবাড়িয়া উপজেলা নিবাহী কর্মকর্তা আশরাফুল সিদ্দিক বলেন, সড়কটি স্থানীয় সরকার অধিদফতরের আওতাধীন। দ্রুত ওই সড়কে নতুন করে সেতু নির্মাণের জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

নির্মাণের ১৫ দিনে হেলে পড়া সেতুটি ৪ বছরেও ‌‘সোজা’ হয়নি

নির্মাণের ১৫ দিনে হেলে পড়া সেতুটি ৪ বছরেও ‌‘সোজা’ হয়নি

চট্টগ্রামে বাসায় বিস্ফোরণে নিহত এক, আহত ২

চট্টগ্রামে বাসায় বিস্ফোরণে নিহত এক, আহত ২

শূন্য শনাক্তের দিনে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ৩ মৃত্যু

শূন্য শনাক্তের দিনে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ৩ মৃত্যু

আইনের আওতায় সাম্প্রদায়িক অপশক্তির শাস্তি দাবি রানা দাশগুপ্তের

আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৩৯

বিশেষ ক্ষমতাসহ এ জাতীয় আইনের আওতায় সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে চিহ্নিত করে অনতিবিলম্বে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবির জানিয়েছেন বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রানা দাশগুপ্ত।

রবিবার (১৭ অক্টোবর) দুপুরে নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী বাজারে বিভিন্ন মণ্ডপ-মন্দিরে হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত জায়গা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সামনে তিনি এই দাবি জানান।

রানা দাশগুপ্ত বলেন, বিভিন্ন জায়গায় হামলার মাধ্যমে তারা প্রধানমন্ত্রীর প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে। তাদের উদ্দেশ্য হলো, দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরি করে মুক্তিযুদ্ধের দেশে যে উন্নয়ন হয়েছে, সেই উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করা। সেই সঙ্গে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি বিদেশে বিনষ্ট এবং এই জাতীয় হামলার মধ্য দিয়ে সংখ্যালঘুদের দেশত্যাগে বাধ্য করা তাদের উদ্দেশ্য।

এ সময় ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ, আহতদের চিকিৎসা ব্যবস্থার জন্য সরকারের কাছে আবেদন জানান তিনি।সেই সঙ্গে হামলার ঘটনার প্রতিবাদে আগামী ২৩ অক্টোবর সারাদেশে সকাল ৬টা থেকে ১২টা পর্যন্ত গণ-অনশন ও অবস্থান কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শহীদুল ইসলামের পাঠানো এক বার্তায় জানানো হয়, চৌমুহনীতে বিশৃঙ্খলার ঘটনায় ইসকনের পক্ষ থেকে প্রাপ্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ১৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

তিনি জানান, হামলার ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় মামলা করে এবং ইসকনের মামলায় ১৫ জনসহ মোট ৪৪ জনকে গ্রেফতার করে। অন্যান্য ঘটনায় মামলার বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে মনোনয়ন ফরম ছিনতাই

রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে মনোনয়ন ফরম ছিনতাই

পচা মাংসের বিরিয়ানি বিক্রি, দোকান সিলগালা

পচা মাংসের বিরিয়ানি বিক্রি, দোকান সিলগালা

চট্টগ্রামে বাসায় বিস্ফোরণে নিহত এক, আহত ২

চট্টগ্রামে বাসায় বিস্ফোরণে নিহত এক, আহত ২

করোনাকালীন প্রণোদনার দাবিতে নার্সদের বিক্ষোভ

আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৩৩

করোনাকালীন প্রণোদনার দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নার্সরা। সেই সঙ্গে হাসপাতালের পরিচালককে অবরুদ্ধ করে আগামী সাত দিনের মধ্যে প্রণোদনার টাকা না দিলে কর্মবিরতিতে যাওয়ার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন তারা। স্বাস্থ্যসেবা বন্ধ রেখে কর্মসূচি পালন করায় চিকিৎসাবঞ্চিত হয়েছেন রোগীরা।

রবিবার (১৭ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত আড়াই ঘণ্টা এ কর্মসূচি পালন করেন নার্সরা। এর আগে একই দাবিতে বিক্ষোভ করেছিলেন তারা।

আন্দোলনরত নার্সদের নেত্রী আফরোজা আখতার বলেন, সারাদেশের মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ফ্রন্টলাইনার হিসেবে নার্স, ওয়ার্ডবয়সহ স্বাস্থ্যকর্মীরা করোনাকালীন প্রণোদনা পেলেও রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক প্রায় এক বছর ধরে নানা অজুহাতে প্রণোদনা দিচ্ছেন না।

তিনি বলেন, পরিচালক মনে হয় নিজের টাকা দেবেন। করোনাকালীন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রোগীদের সেবা করতে গিয়ে অনেক নার্স জীবন দিয়েছেন, করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। অথচ আমাদের প্রণোদনা দেওয়া হচ্ছে না। পরিচালকের সঙ্গে এর আগে কয়েকবার দেখা করে আমাদের দাবি উত্থাপন করেছি। প্রণোদনা দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেছি। শুধু আশ্বাস দিয়েছেন, কোনও পদক্ষেপ নেননি। এ জন্য বিক্ষোভ করে পরিচালকের কার্যালয় ঘেরাও করেছি আমরা।

হাসপাতালের পরিচালক ডা. রেজাউল ইসলাম বলেন, হাসপাতালে ২৩১ নার্সের মধ্যে যারা করোনাকালে দায়িত্বরত ছিলেন, তারাই প্রণোদনা পাবেন। প্রণোদনা ও ভাতাসহ যাবতীয় বকেয়া পরিশোধের চেষ্টা করছি। কবে নাগাদ তারা প্রণোদনা পাবেন জানতে চাইলে নিশ্চিত করে বলতে পারেননি ডা. রেজাউল।

/এএম/

সম্পর্কিত

পঞ্চগড়ে চায়ের অকশন মার্কেট স্থাপনের পরিকল্পনা

পঞ্চগড়ে চায়ের অকশন মার্কেট স্থাপনের পরিকল্পনা

শের-ই-বাংলা মেডিক্যালের পিসিআর ল্যাব অচল

শের-ই-বাংলা মেডিক্যালের পিসিআর ল্যাব অচল

পেঁয়াজের আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার আজ থেকেই কার্যকর

পেঁয়াজের আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার আজ থেকেই কার্যকর

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি শুরু

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি শুরু

পঞ্চগড়ে চায়ের অকশন মার্কেট স্থাপনের পরিকল্পনা

আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১৭:০৯

সরকার পঞ্চগড়ে চায়ের অকশন মার্কেট স্থাপনের পরিকল্পনা করছে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ চা বোর্ডের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল মো. আশরাফুল ইসলাম। রবিবার (১৭ অক্টোবর) তেঁতুলিয়া উপজেলার চায়ের গ্রাম পেদিয়াগজে ক্ষুদ্র চা-চাষিদের জন্য হাতে-কলমে বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে চা আবাদ ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কর্মশালায় এসব কথা বলেন তিনি। 

উন্নত জ্ঞান উন্নত চা প্রতিপাদ্য নিয়ে বিভিন্ন এলাকায় ‘ক্যামেলিয়া খোলা আকাশ স্কুল’ শিরোনামে এই প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করছে বাংলাদেশ চা বোর্ডের পঞ্চগড় আঞ্চলিক কার্যালয়। 

কর্মশালায় চা বোর্ডের চেয়ারম্যান বলেন, ‘আগামী ২০৩০ সালের মধ্যে দেশে ১৪০ মিলিয়ন মেট্রিক টন চা উৎপাদনের পরিকল্পনা করেছে সরকার। দেশের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রফতানির জন্য নানা উদ্যোগও নেওয়া হয়েছে। দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম চা অঞ্চল পঞ্চগড়ে অকশন মার্কেট স্থাপনের পরিকল্পনাও করছে সরকার। চা উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য ক্ষুদ্র চা-চাষিদের সব ধরনের সহযোগিতা দেওয়া হচ্ছে। তাদের প্রশিক্ষণের আওতায়ও আনা হয়েছে।’

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আব্দুল মান্নানের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশ চা বোর্ডের পরিচালক ড. এ কে এম রফিকুল হক, পঞ্চগড় স্মল টি গার্ডেন অনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আমিরুল ইসলাম খোকন, বাংলাদেশ চা বোর্ড পঞ্চগড় আঞ্চলিক কার্যালয়ের প্রকল্প পরিচালক এবং মুখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ড. শামিম আল মামুন, উন্নয়ন কর্মকর্তা আমির হোসেন, পেদিয়াগজ গ্রাম চা সমিতির সাধারণ সম্পাদক ঈমান আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। 
কর্মশালায় শতাধিক চা-চাষিকে নিয়ে দিনব্যাপী হাতে-কলমে চা চাষ সম্পর্কে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। পরে পঞ্চগড় সার্কিট হাউজে চা-চাষিদের সঙ্গে এক মত বিনিময় অনুষ্ঠানে যোগ দেন তিনি। 

/এমএএ/

সম্পর্কিত

করোনাকালীন প্রণোদনার দাবিতে নার্সদের বিক্ষোভ

করোনাকালীন প্রণোদনার দাবিতে নার্সদের বিক্ষোভ

পেঁয়াজের আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার আজ থেকেই কার্যকর

পেঁয়াজের আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার আজ থেকেই কার্যকর

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি শুরু

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি শুরু

ছবি তোলার কথা বলে প্রেমিকাকে ডেকে নিয়ে কাশবনে ধর্ষণ 

ছবি তোলার কথা বলে প্রেমিকাকে ডেকে নিয়ে কাশবনে ধর্ষণ 

প্রকল্পের ঘর দিতে অর্থ আদায়, একজনের কারাদণ্ড

আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১৬:৪৮

বরিশাল সদর উপজেলা‌য়র ‘একটি বাড়ি একটি খামার’ প্রকল্পের ঘর দেওয়ার কথা বলে অর্থ আত্মসাতের অপরাধে খলিলুর রহমান নামে একজনকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। রবিবার (১৭ অক্টোবর) দুপুরে আটক করে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। খলিলুর রহমানসদর উপজেলার রায়পাশা-কড়াপুর ইউনিয়নের রায়পাশা গ্রামের ফারুক হাওলাদারের ছেলে।

ভুক্তভোগী রিয়াজ হোসেন বলেন, বরিশাল সদর উপজেলার টুঙ্গিবাড়িয়া ইউনিয়নের বারইকান্দি ও পতাং গ্রামে গিয়ে একটি কমিটি গঠন করেন খলিল। এরপর ‘একটি বাড়ি একটি খামার’ প্রকল্প থেকে যাদের বাড়ি প্রয়োজন তাদের কাছ থেকে ২৫ হাজার টাকা নেন। এরপর ঘর না দিয়ে টাকা উত্তোলনকারীদের ঘোরাতে থাকেন। সর্বশেষ ইউএনওকে ম্যানেজ করার কথা বলে প্রত্যেকের কাছ থেকে আরও ১০ হাজার টাকা করে দাবি করেন। ঘর না পাওয়ায় টাকা ফেরত চান ভুক্তভোগীরা। কিন্তু তিনি ঘোরাতে থাকেন। এর মধ্যে একজনকে চেক দেন। ওই চেক নিয়ে ব্যাংকে গেলে সেখান থেকে তা প্রত্যাখ্যাত হয়। তখন তারা প্রতারণার বিষয়টি বুঝতে পারেন।

রবিবার টাকা দেওয়ার কথা বলে খলিলকে বরিশাল কেন্দ্রীয় বাসস্ট্যান্ড নথুল্লাবাদে আনা হয়। সেখান থেকে আটক করে ইউটএনও মুনিবুর রহমানের কাছে সোপর্দ করেন ভুক্তভোগীরা।

ইউএনও’র নির্দেশে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন বরিশাল সদর ভূমি কর্মকর্তা নিশাত তামান্না। তিনি বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালতে প্রতারক খলিল ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে। তিনি ১৫ জনের কাছ থেকে তিন লাখ ৭৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। এই অপরাধে তাকে এক বছরের সাজা দিয়ে কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশের মাধ্যমে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

শের-ই-বাংলা মেডিক্যালের পিসিআর ল্যাব অচল

শের-ই-বাংলা মেডিক্যালের পিসিআর ল্যাব অচল

পচা মাংসের বিরিয়ানি বিক্রি, দোকান সিলগালা

পচা মাংসের বিরিয়ানি বিক্রি, দোকান সিলগালা

স্বামীর নির্যাতনে গলায় ফাঁস দিলেন গৃহবধূ

স্বামীর নির্যাতনে গলায় ফাঁস দিলেন গৃহবধূ

ছবি তোলার কথা বলে প্রেমিকাকে ডেকে নিয়ে কাশবনে ধর্ষণ 

ছবি তোলার কথা বলে প্রেমিকাকে ডেকে নিয়ে কাশবনে ধর্ষণ 

শের-ই-বাংলা মেডিক্যালের পিসিআর ল্যাব অচল

আপডেট : ১৭ অক্টোবর ২০২১, ১৬:৪১

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজে করোনার নমুনা পরীক্ষার পিসিআর ল্যাব অচল হয়ে পড়েছে। এ কারণে শনিবার বিকাল থেকে নমুনা সংগ্রহ করে ভোলা জেলা হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা করা হচ্ছে।

রবিবার (১৭ অক্টোবর) দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মেডিক্যাল কলেজের ভাইরোলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও পিসিআর ল্যাব প্রধান ডা. একেএম আকবর কবির।

তিনি বলেন, পিসিআর মাদার বোর্ড অচল হওয়ায় শনিবার বিকাল থেকে পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে। ইতোমধ্যে ঢাকার সংশ্লিষ্ট দফতরকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। তারা আশ্বস্ত করেছেন, দ্রুত সময়ের মধ্যে সমস্যার সমাধান দেবেন।

ডা. একেএম আকবর কবির বলেন, নমুনা দিতে আসা কাউকে ফেরত দেওয়া হচ্ছে না। নমুনা সংগ্রহ সচল রাখা হয়েছে। প্রতিদিন কমপক্ষে ১৮৮-২৮২ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। ওসব নমুনা পরীক্ষার জন্য ভোলা হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে ফলাফল সংগ্রহ করা হচ্ছে। তবে এতে কিছুটা সমস্যায় পড়তে হয়।

২০২০ সালের ৯ এপ্রিল বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থাপিত পিসিআর ল্যাবে এ পর্যন্ত ৯৪ হাজার ৬৮১ নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এতে ১৬ হাজার ৮২০ নমুনা পজিটিভ হয়। শনাক্তের হার ১৭ দশমিক ৭ শতাংশ।

/এএম/

সম্পর্কিত

করোনাকালীন প্রণোদনার দাবিতে নার্সদের বিক্ষোভ

করোনাকালীন প্রণোদনার দাবিতে নার্সদের বিক্ষোভ

প্রকল্পের ঘর দিতে অর্থ আদায়, একজনের কারাদণ্ড

প্রকল্পের ঘর দিতে অর্থ আদায়, একজনের কারাদণ্ড

শূন্য শনাক্তের দিনে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ৩ মৃত্যু

শূন্য শনাক্তের দিনে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ৩ মৃত্যু

স্বামীর নির্যাতনে গলায় ফাঁস দিলেন গৃহবধূ

স্বামীর নির্যাতনে গলায় ফাঁস দিলেন গৃহবধূ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

নির্মাণের ১৫ দিনে হেলে পড়া সেতুটি ৪ বছরেও ‌‘সোজা’ হয়নি

নির্মাণের ১৫ দিনে হেলে পড়া সেতুটি ৪ বছরেও ‌‘সোজা’ হয়নি

চট্টগ্রামে বাসায় বিস্ফোরণে নিহত এক, আহত ২

চট্টগ্রামে বাসায় বিস্ফোরণে নিহত এক, আহত ২

শূন্য শনাক্তের দিনে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ৩ মৃত্যু

শূন্য শনাক্তের দিনে ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ৩ মৃত্যু

ট্রাকের পেছনে বাসের ধাক্কা, নিহত বেড়ে ৭

ট্রাকের পেছনে বাসের ধাক্কা, নিহত বেড়ে ৭

পরিবারের ৪ জনকে হারিয়ে সড়কে বসেই বিলাপ

ত্রিশালে সড়ক দুর্ঘটনাপরিবারের ৪ জনকে হারিয়ে সড়কে বসেই বিলাপ

৪২ টাকার নিচে নামছে না পেঁয়াজের দাম

৪২ টাকার নিচে নামছে না পেঁয়াজের দাম

দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে বাসের ধাক্কায় নিহত ৬

দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে বাসের ধাক্কায় নিহত ৬

শুধু বাহবায় বড় ক্রিকেটার হওয়া যায় না, সাদিদ প্রসঙ্গে তার মা 

শুধু বাহবায় বড় ক্রিকেটার হওয়া যায় না, সাদিদ প্রসঙ্গে তার মা 

কুমিল্লার ঘটনায় কাদের যোগসাজশ তা বের হবে: পরিবেশ মন্ত্রী

কুমিল্লার ঘটনায় কাদের যোগসাজশ তা বের হবে: পরিবেশ মন্ত্রী

সর্বশেষ

বাংলাদেশ জিতবে, তবে...

বাংলাদেশ জিতবে, তবে...

আইনের আওতায় সাম্প্রদায়িক অপশক্তির শাস্তি দাবি রানা দাশগুপ্তের

আইনের আওতায় সাম্প্রদায়িক অপশক্তির শাস্তি দাবি রানা দাশগুপ্তের

আসিয়ান সম্মেলনে বাদ পড়ায় ‘চরম হতাশ’ মিয়ানমার জান্তা

আসিয়ান সম্মেলনে বাদ পড়ায় ‘চরম হতাশ’ মিয়ানমার জান্তা

সাফা কবিরের অন্তর্জাল সিনেমা ‘কুহেলিকা’ 

সাফা কবিরের অন্তর্জাল সিনেমা ‘কুহেলিকা’ 

করোনাকালীন প্রণোদনার দাবিতে নার্সদের বিক্ষোভ

করোনাকালীন প্রণোদনার দাবিতে নার্সদের বিক্ষোভ

© 2021 Bangla Tribune