X
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

‘মানুষ’ শেখ হাসিনাকে নিয়ে জয়া আহসানের কিছু স্মৃতি

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:৩৩

আজ (২৮ সেপ্টেম্বর) আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৫তম জন্মদিন। রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক নানা কর্মকাণ্ডের বাইরেও তিনি মানবিক মানুষ হিসেবে নানা অঙ্গনে প্রশংসিত। ব্যক্তিগতভাবে অনেকেই তার সংস্পর্শে গিয়ে হয়েছেন মুগ্ধ। এবার তেমনই এক স্মৃতিচারণ করেছেন দুই বাংলার অন্যতম অভিনেত্রী জয়া আহসান।

‘‘এত বছর আগের একটা দিন, কিন্তু শেখ হাসিনার সেই ছবিটি এখনও উজ্জ্বল হয়ে আছে মনে। কিশোরীবেলার অনেক ঝলমলে স্মৃতি একসঙ্গে মিলেমিশে আছে বলেই হয়তো। উত্তুঙ্গ আন্দোলনের মধ্য দিয়ে জেনারেল এইচ এম এরশাদের সবেমাত্র পতন হয়েছে। সেনা শাসকের পতনের পর (১৯৯০ সালের দিকে) মনে হলো, বদ্ধ দরজা খুলে আবার আলো এলো। বাবা (এ এস মাসউদ) বললেন, ‘চল, আমার সঙ্গে। তোদের একটা জায়গায় নিয়ে যাই।’ কোন জায়গায়? কার কাছে? কিছুই জানি না। আমি আর আমার ছোট বোন কান্তা চললাম বাবার সঙ্গে। কান্তা চড়ে বসলো বাবার কাঁধে। আমি ধরলাম তার হাত।

মানুষের উজান ঠেলে পল্টন হয়ে বাবা আমাদের নিয়ে সোজা উঠলেন ৩২ নম্বর ধানমন্ডিতে বঙ্গবন্ধুর ইতিহাস ভরা বাড়িটিতে। যেন বেশ চেনা একটা আত্মীয়ের বাড়ি, এমনই নিশ্চিন্তে গিয়ে হাজির হলেন একটা ঘরের সামনে। দরজা ঠুকে বললেন, ‘বুবু, আসবো?’ শেখ হাসিনা কে, কী, সেসব কিছু বুঝিনি তখন। মনে মনে শুধু ভেবেছি, ও... ইনিই তাহলে বঙ্গবন্ধুর মেয়ে! বিছানায় ‘দ’–এর ভঙ্গিতে কিছুটা অর্ধশায়িত। ঘরোয়া মেজাজ। কিছুটা কি ক্লান্ত? আওয়ামী লীগের সভানেত্রী হিসেবে সেনা শাসনবিরোধী দীর্ঘ আন্দোলনের ঝড়ঝাপটা বয়ে গেছে তার ওপর দিয়ে। কিন্তু কোথাকার কী? আমাদের দেখেই সস্নেহ একটা হাসির রেখা ফুটে উঠলো মুখে। সোজা হয়ে বললেন, ‘কাকে নিয়ে এসেছ, বাবলা? তোমার মেয়ে বুঝি?’

সেই তাকে প্রথম দেখা। গায়ে সাধারণ একটা বেগুনি-ঘিয়ে রঙের ডুরে শাড়ি। মাথায় সামান্য ঘোমটা টানা। একেবারেই বাঙালি নারীর চিরচেনা আটপৌরে ছবি। শেখ হাসিনার চোখের রঙ আর দশজন সাধারণ বাঙালির মতো নয়। সেদিকে চোখ না পড়ে উপায়ই নেই। তবু সব ছাপিয়ে চোখ আঠার মতো আটকে গেলো তার চুলে। ঘন কালো চুলের এক মোটা গোছা। ঘোমটার আড়াল থেকে বেরিয়ে পিঠ বেয়ে এঁকেবেঁকে নেমে গেছে কোমর পর্যন্ত। এমন দীর্ঘ আর চওড়া চুলের গোছাও হয় মানুষের? মনে খচিত হয়ে গেলো উজ্জ্বল ও চিরন্তন সেই বাঙালি ছবিটি।

এরপর তো পদ্মা নদী দিয়ে বহু পানিই গড়িয়ে গেছে। বড় রাজনৈতিক দলের শীর্ষ নেত্রী থেকে তিনি এ দেশের প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন কয়েকবার। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে তার নিজেরও বাহ্যিক রূপান্তর কম হয়নি। কিন্তু চুলের মোটা গোছাসহ তার যে ছবিটা সেদিন দেখেছিলাম, মনের গভীরে এখনও উজ্জ্বল হয়ে আছে সেই ছবিটিই। আমার কাছে সেটিই তাঁর স্থায়ী রূপাবয়ব।

প্রধানমন্ত্রীর গুরুদায়িত্বভার তাকে বহন করতে হয়। ছোটখাটো বিষয়ে মন দেওয়ার অবকাশ কোথায়? কিন্তু তার সঙ্গে ছোট ছোট দুয়েকটি অভিজ্ঞতায় দেখেছি, সামান্য বিষয়ের দিকেও তিনি সযত্ন দৃষ্টি রাখেন। প্রধানমন্ত্রী নন, নিতান্ত আপনজনের মতো। সেসব তার না রাখলেও চলে, তার হয়ে অন্য কেউ রাখলেই যথেষ্ট। তবু তিনি রাখেন। এ তার অসামান্য এক গুণ। প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব তার ভেতরের মানুষটিকে এখনও মোটেই পিষ্ট করে দিতে পারেনি।

একটা ঘটনা বলি। সেবার আমাকে ‘জিরো ডিগ্রি’ ছবিটির জন্য সেরা অভিনেত্রীর জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার দেওয়া হবে। পুরস্কার সবার হাতে তুলে দেওয়া হবে একটি অনুষ্ঠান করে। ঘটনাচক্রে সে বছর পশ্চিমবঙ্গেও আমাকে ‘মহানায়ক উত্তম কুমার’ সম্মাননা দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে। সেবারই প্রথম কোনও নারী অভিনয় শিল্পীকে আয়োজকেরা এ পুরস্কার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তাই আলাদা একটা মর্যাদার ব্যাপার হয়ে উঠেছিল পুরস্কারটি। অর্থমূল্যও ছিল যথেষ্ট। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে উপস্থিত থেকে পুরস্কার দেবেন।

ভালোই প্যাঁচ লেগে গেলো। দুটো পুরস্কার দেওয়ার তারিখ পড়লো একই দিনে। শুধু কি একই দিনে? পড়লো একই দিনের কাছাকাছি সময়ে, এক-দেড় ঘণ্টার এদিকে-ওদিকে। সকালে আর বিকালে হলেও সামাল দেওয়া যেত। একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে চলে যাওয়া যেতো আরেকটি অনুষ্ঠানে। আয়োজকদের অনুরোধ করে সময়টাকে আগ-পিছ নানা চেষ্টাচরিত্র করেও ফল হলো না। হবে যে না, সেটা এক রকম অনুমানও করেছিলাম। এত এত মানুষের সময়সূচি আবার মিলিয়ে সব ঠিক করা কি সহজ? কিন্তু জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার যে আমার দেশের সম্মাননা। তাছাড়া এর মর্যাদাও আলাদা। প্রধানমন্ত্রী নিজ হাতে এ পুরস্কার শিল্পী-কুশলীদের হাতে তুলে দেবেন। এই পুরস্কার না নিয়ে কি পারা যায়?

দেশেই রয়ে গেলাম। অনুষ্ঠানে যথারীতি আমার নাম ডাকা হলো। মঞ্চে উঠলাম পুরস্কার নিতে। প্রধানমন্ত্রীর হাত থেকে পুরস্কার নেওয়ার সময় কোমল গলায় তিনি জিজ্ঞেস করলেন, ‘জয়া, তুমি কলকাতায় যাওনি?’ তার মুখে এই প্রশ্ন? এত ব্যস্ততার মধ্যে এই অকিঞ্চিৎকর তথ্যটুকু তিনি শুনেছেন, শুনে মনেও রেখেছেন? শুধু এখানেই তো শেষ নয়। আগে কয়েকবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া সত্ত্বেও যে আন্তর্জাতিক একটা সম্মাননার মায়া ছেড়ে দিয়ে আমি রয়ে গেছি, বক্তৃতা দিতে উঠে বললেন সে কথা। বললেন, এই হলো দেশের প্রতি ভালোবাসা। আমি তো বাকরুদ্ধ।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার মঞ্চে প্রধামন্ত্রীর হাত থেকে পদক নিচ্ছেন জয়া আহসান আমি গভীরভাবে অভিভূত হয়েছিলাম আরও একটি ঘটনায়। প্রকৃতি আর প্রাণীর প্রতি আমার প্রাণের টান। প্রাণী অধিকার নিয়ে কাজ করে, এমন কিছু সংগঠনের সঙ্গে তাই সক্রিয় যোগাযোগ রাখি। এ রকমই এক সংগঠন থেকে একবার খবর এলো, গণভবন লাগোয়া একটি জায়গা থেকে তারা একটি কুকুর উদ্ধার করেছে। গণভবনের চিফ সিকিউরিটি এসডিএন কবীর সাহেবের কাছে পরে শুনেছিলাম, গণভবনের বিস্তীর্ণ জায়গাজুড়ে অর্ধশতাধিক কুকুর আছে। আছে বেড়ালেরও দল। পোষা নয়। স্বাধীন ও ছন্নছাড়া। এত গাছপালা ভরা সবুজ একটা জায়গা। পাখপাখালিও সে কারণে এন্তার। যা হোক, দলছুট সারমেয় মহাশয় কোনও ফাঁকফোকর গলে গণভবনের বাইরে এসে অসুস্থ হয়ে পড়ে ছিল পথে।

সেই দলছুট মহাশয়ের একটা হিল্লে করা হলো। কিন্তু কবীর সাহেবের কাছ থেকে আরও যে তথ্য পেলাম, তাতে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি ভালোবাসায় বুকটা ভরে গেলো। সেই কুকুরগুলোর জন্য তিনি নিজেই খাবারের ব্যবস্থা করে রেখেছেন। ওদের জন্য ফার্ম থেকে মুরগির মাংস আসে। সেই মুরগির সঙ্গে চাল মিশিয়ে রোজ খাবার তৈরি হয়। বেড়ালগুলোর জন্য প্রতিদিনের বরাদ্দ ২০ লিটার করে দুধ। গণভবনের ভেতরের গাছগুলো থেকে ফল পাড়তে দেওয়া হয় না। ওইসব ফলপাকুড় পাখিদের ভোজ্য। তার নির্দেশে পশুপাখিগুলোর জন্য আলাদা একটা ব্যয় বরাদ্দ রাখা হয়েছে। রাষ্ট্র নিয়ে যার শত ব্যস্ততা, তার মনের একটি ভাগ তিনি এদের জন্যও দিয়ে রেখেছেন। ভেতর থেকে উপচে আসা গভীর ভালোবাসা ছাড়া কি আর এটি সম্ভব?

রাষ্ট্র আর রাজনীতি কোটি মানুষকে নিয়ে কাজ করে। তার তাই হাজার পথ, হাজার মত। সে নিয়ে জটিল বিতর্কের শেষ হবে না কোনও দিন। কিন্তু যৎসামান্য স্মৃতির গুচ্ছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যে মানুষী রূপ দেখেছি, তার তুলনা মেলা ভার। এখনও যখনই তাকে দেখি, তখনই মনে ফিরে আসে কিশোরবেলায় দেখা মোটা চুলের গোছায় উজ্জ্বল সেই সস্নেহ মুখটি। অন্তরঙ্গ, নিবিড়, মমতামাখা।’’

প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে জয়া আহসানের পুরো লেখাটি:

/এম/এমএম/এমওএফ/

সম্পর্কিত

‘প্রাণবিক বন্ধু’ স্বীকৃতি পেলেন জয়া আহসান

‘প্রাণবিক বন্ধু’ স্বীকৃতি পেলেন জয়া আহসান

জয়ার ওয়েব সিরিজে নেই বলিউডের নওয়াজুদ্দিন

জয়ার ওয়েব সিরিজে নেই বলিউডের নওয়াজুদ্দিন

জয়া-নওয়াজুদ্দিনের ওয়েব সিরিজ নিয়ে অভিযোগ

জয়া-নওয়াজুদ্দিনের ওয়েব সিরিজ নিয়ে অভিযোগ

তাদের নিয়ে কলকাতার নায়িকাদের চাপা ক্ষোভ! 

তাদের নিয়ে কলকাতার নায়িকাদের চাপা ক্ষোভ! 

বলিউডে কতটা ভালো করবো জানি না: অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ২২:২২

ভারতের সঙ্গে নিজের ‘বিশেষ’ সম্পর্ক আছে বলে মনে করেন হলিউড তারকা অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি ভারতের সঙ্গে আমার একটি বিশেষ সংযোগ রয়েছে। জনবহুল দেশটি খুবই মানবিক। ওখানকার রাস্তাঘাট, ট্রেন বা প্রাকৃতিক পরিবেশ, সবই আপন মনে হয়।’ 

৪৬ বছর বয়সী জোলি ২০০৬ সালে শুটিং করতে প্রথম ভারতে গিয়েছিলেন। সিনেমাটা ছিল ‘আ মাইটি হার্ট’, তখন একটি অটোরিকশায় চড়াসহ কিছু ঘটনার কথা মনে করেন তিনি। ভারতে এসে তিনি আফগানিস্তান ও মিয়ানমারের শরণার্থীদের সঙ্গেও দেখা করেছিলেন ওই সময়।

অস্কারজয়ী এ অভিনেত্রী ভারতে কখনোই নিজেকে বহিরাগত মনে করেননি। তিনি বলেন, ‘এখানে আমি শক্তি, তীব্রতা ও মানবতা অনুভব করেছি। শিগগিরই আবার ভারতে আসতে চাই।’

অবশ্য জোলির এমন মন্তব্যের আড়ালে থাকতে পারে মুক্তি পেতে যাওয়া ‘ইটারনালস’ ছবির প্রচার। ছবিটিতে ভারতের সংযোগ আছে ভালোই। এ সিনেমায় ভারতীয় অভিনেতা হারিশ প্যাটেলও অভিনয় করছেন।

কখনও বলিউডে কাজ করতে চান কিনা, এমনটা জানতে চাইলে জোলি বলেন, ‘আমি জানি না বলিউডে কতটা ভালো করতে পারবো। কিন্তু আমি সেখানকার অভিনয় উপভোগ করি।’

পর্দায় সরব উপস্থিতির পাশাপাশি মানবতার ডাকে সাড়া দিয়ে গত দুই দশক ধরে নানান প্রচারাভিযানে কাজ করেছেন অ্যাঞ্জেলিনা জোলি। তিনি জাতিসংঘের একজন শুভেচ্ছাদূত ও বিশ্বজুড়ে শরণার্থীদের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন।

/এসএস/এফএ/এমএম/এমওএফ/

সম্পর্কিত

হারলেন জোলি জিতলেন ব্র্যাড পিট

হারলেন জোলি জিতলেন ব্র্যাড পিট

মৌমাছির সঙ্গে জোলির ১৮ মিনিট!

মৌমাছির সঙ্গে জোলির ১৮ মিনিট!

চলচ্চিত্রের জন্য পুরস্কার পেলেন কাজী হায়াৎ ও মাজহারুল ইসলাম

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ২২:১৯

‘ফজলুল হক স্মৃতি পুরস্কার-২০২১’ পেয়েছেন কিংবদন্তি চলচ্চিত্র নির্মাতা কাজী হায়াৎ। এছাড়াও চলচ্চিত্র সাংবাদিকতার জন্য এটি তুলে দেওয়া হয়েছে ‘অন্যদিন’ পত্রিকার সম্পাদক মাজহারুল ইসলামের হাতে।

প্রতিবছরের মতো এবারও ২৬ অক্টোবর এটি প্রদান করা হলো। আজ চ্যানেল আই কার্যালয়ে এক অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন ইমপ্রেস গ্রুপ ও চ্যানেল আই পরিচালক মুকিত মজুমদার বাবু, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও নাট্যনির্দেশক নাসির উদ্দিন ইউসুফ, সৈয়দ সালাহউদ্দীন জাকী, রন্ধনশিল্পী কেকা ফেরদৌসী ও অভিনেতা আল মনসুর। এ সময় ফজলুল হকের জীবন ও কর্ম নিয়ে শহিদুল আলম সাচ্চু নির্মিত ‘সম্মুখযাত্রী ফজলুল হক’ প্রমাণ্যচিত্রটি প্রদর্শিত হয়। অতিথিদের সঙ্গে পুরস্কারপ্রাপ্তরা

চলচ্চিত্র সাংবাদিকতার অন্যতম পথিকৃৎ, প্রথম চলচ্চিত্র বিষয়ক পত্রিকা সিনেমা’র সম্পাদক, প্রথম শিশু চলচ্চিত্র ‘প্রেসিডেন্ট’র পরিচালক ফজলুল হক। তার স্মরণে প্রতিবছর এ পুরস্কার দেওয়া হয় চলচ্চিত্র ও সাংবাদিকতায় অবদান রাখা দুই কৃতীকে। 

ইতোমধ্যে ‘ফজলুল হক স্মৃতি পুরস্কার’ পেয়েছেন- সাইদুল আনাম টুটুল ও ফজল শাহাবুদ্দিন (২০০৪), চাষী নজরুল ইসলাম ও আহমদ জামান চৌধুরী (২০০৫), হুমায়ূন আহমেদ ও রফিকুজ্জামান (২০০৬), সুভাষ দত্ত ও হীরেন দে (২০০৭), গোলাম রাব্বানী বিপ্লব ও আবদুর রহমান (২০০৮), আমজাদ হোসেন ও সৈয়দ শামসুল হক (২০০৯), মোরশেদুল ইসলাম ও চিন্ময় মুৎসুদ্দী (২০১০), ই আর খান ও অনুপম হায়াৎ (২০১১), নাসিরউদ্দিন ইউসুফ ও গোলাম সারোয়ার (২০১২), রাজ্জাক ও রেজানুর রহমান (২০১৩), সৈয়দ সালাহউদ্দিন জাকী ও আরেফিন বাদল (২০১৪), মাসুদ পারভেজ ও শহীদুল হক খান (২০১৫), আজিজুর রহমান ও মোস্তফা জব্বার (২০১৬), আবদুল লতিফ বাচ্চু ও নরেশ ভুঁইয়া (২০১৭), মোস্তফা সরয়ার ফারুকী ও শফিউজ্জামান খান লোদী (২০১৮), কোহিনূর আখতার সুচন্দা ও রাফি হোসেন (২০১৯) এবং আলমগীর ও দীপেন (২০২০)।

/এম/এমওএফ/

সম্পর্কিত

বলিউডে কতটা ভালো করবো জানি না: অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

বলিউডে কতটা ভালো করবো জানি না: অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

গাইলেন অভিনেত্রী প্রভা, সংগীতায়োজনে ইমরান (ভিডিও)

গাইলেন অভিনেত্রী প্রভা, সংগীতায়োজনে ইমরান (ভিডিও)

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

অস্ট্রেলিয়ায় আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে তাসকিন

অস্ট্রেলিয়ায় আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে তাসকিন

গাইলেন অভিনেত্রী প্রভা, সংগীতায়োজনে ইমরান (ভিডিও)

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৪০

মডেলিং বা অভিনয়—সাদিয়া জাহান প্রভা একসময় ছিলেন আলোচনার শীর্ষে। এখন পুরাদস্তুর অভিনেত্রী। নাটকেই পুরো সময়টা দেন। তবে এর ফাঁকেই নিজের আরও একটি প্রতিভা মেলে ধরলেন এই সুহাসিনী। গাইলেন গান। যা ভিডিও আকারে অবমুক্ত করেছেন নিজের ইউটিউব চ্যানেলেও।

মৌসুমী ভৌমিকের বিখ্যাত গান ‘আমি শুনেছি সেদিন তুমি’ কাভার করেছেন তিনি। আর তাকে সংগীতে ও গায়কীতে পূর্ণ সহযোগিতা করেছেন সংগীতশিল্পী ইমরান মাহমুদুল। সমুদ্র সৈকতের নীল জলে গানটির দৃষ্টিনন্দন ভিডিও ধারণে যুক্ত করেছেন একেবারে পেশাদার ভিডিও দল। যাতে মডেল হিসেবে দেখা গেছে গ্ল্যামারাস প্রভাকেই। 

প্রভা দাবি করলেন, এটা পরীক্ষামূলক। কেবল নিজেকে যাচাই করার জন্য করা। সংগীতশিল্পী ইমরানের স্টুডিওতে আড্ডার ছলে রেকর্ড করেন গানটি। এরপর শুনে দেখলেন, মন্দ হয়নি। ব্যস, ভিডিওর কাজে নেমে পড়েন তিনি। 

গান গাওয়া প্রসঙ্গে প্রভা বললেন, ‘আম্মুর ইচ্ছে ছিল আমি যেন গান গাই। ছোটবেলা থেকেই আমাকে চর্চায় রাখতে চেয়েছিলেন। কিন্তু গানের চর্চা করতে ভালো লাগতো না। তাই আর আগানো হয়নি। নতুন গান রেকর্ড করার পর এটা শুনে মা খুব পছন্দ করেন, আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন। তাই ভাবলাম, ইউটিউবে প্রকাশ করি। এখন দেখা যাক, মানুষ কীভাবে নেয়।’

গত ২২ ডিসেম্বর এটি প্রভার ইউটিউব চ্যানেলে অবমুক্ত হয়েছে। সেখানে তিনি লিখেছেন, ‘অবশেষে আমার সবচেয়ে প্রিয় গানটি গাওয়ার সাহস করে ফেললাম। গানই আমার প্রথম ভালোবাসা ছিল। তবে অনেক বছর আগে গানের চর্চা ছেড়ে দিয়েছিলাম। আবারও ফিরে এলাম। আশা করি সবাই পছন্দ করবেন।’

‘আমি শুনেছি সেদিন তুমি’ মূল গানটির কথা, কণ্ঠ ও সুর ভারতের মৌসুমী ভৌমিকের। নতুন করে সংগীতায়োজন করেছেন ইমরান মাহমুদুল। ভিডিওটি সম্পাদনা করেছেন এসএম তুষার। 

প্রভা জানালেন, শ্রোতারা চাইলে হয়তো আবারও তাকে গানে দেখা যাবে। আপাতত তিনি কমেন্ট বক্সে চোখ রাখছেন।

/এম/এমএম/এমওএফ/

সম্পর্কিত

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

‘মরীচিকা’র পর ওয়েবে তাদের নতুন ‘সিন্ডিকেট’

‘মরীচিকা’র পর ওয়েবে তাদের নতুন ‘সিন্ডিকেট’

মায়ের সঙ্গে মেয়ের প্রথম মিউজিক ভিডিও

মায়ের সঙ্গে মেয়ের প্রথম মিউজিক ভিডিও

নায়ক তাহসান, প্রযোজক সুস্মিতা (ভিডিও)

নায়ক তাহসান, প্রযোজক সুস্মিতা (ভিডিও)

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৯:৪৮

টি-টোয়েন্টি ওয়ার্ল্ড কাপ সিরিজে থাকা বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমকে উৎসাহ দিয়ে তৈরি হলো বিশেষ গান। ‘চার ছক্কা মারো’ শিরোনামের বিশেষ এই গানটি উন্মুক্ত হলো নাগরিক টিভির ইউটিউব চ্যানেলে।

দেখার মতো মারো/ নিজের খাতায় যোগ করে নাও/ দু’চারটে রান আরও/ হাত খুলে মারো/ চার ছক্কা মারো/ মন খুলে মারো/ বাড়বে রান আরও/ যেন বাংলাদেশ জেতে আরও!—এমন অনবদ্য কথাগুলো লিখেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত গীতিকবি জুলফিকার রাসেল। আর কথাগুলো কণ্ঠে তুলেছেন দুই প্রজন্মের চার তারকা শিল্পী—বাপ্পা মজুমদার, শওকত আলী ইমন, দিলশাদ নাহার কণা ও টিনা রাসেল।

গানটির সুর-সংগীত করেছেন শওকত আলী ইমন। গানটি প্রসঙ্গে এই সংগীত পরিচালক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘জুলফিকার রাসেল আমার অনেক পছন্দের একজন গীতিকবি। যদিও আমাদের কাজের সংখ্যা খুবই কম। তবে এই গানটিসহ যে ক’টি কাজ করেছি, তার প্রত্যেকটি স্পেশাল। এই গানটি লিরিক প্রধান। আর আমি ছাড়া যে তিন জন গেয়েছেন, তারাও অসাধারণ শিল্পী। কাজটা দারুণ হয়েছে। আমার বিশ্বাস, এই গানটির রেশ ধরে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সদস্যরা এবং ক্রিকেটপ্রেমীরা আরও উজ্জীবিত হবেন।’

নাগরিক টিভির অনুষ্ঠান প্রধান কামরুজ্জামান বাবু জানান, বিশেষ এই গানটি এবারের বিশ্বকাপজুড়ে প্রচার হবে তাদের চ্যানেলে। পাশাপাশি উন্মুক্ত রাখা হলো প্রতিষ্ঠানটির ইউটিউব চ্যানেলেও।

এদিকে গানটির অন্যতম শিল্পী টিনা রাসেল বলেন, ‘বিশ্বকাপ ক্রিকেট আসর নিয়ে এটি আমার প্রথম গান। সঙ্গে গুণী শিল্পীদের পেয়েছি। এটা আমার জন্য অসাধারণ একটি অভিজ্ঞতা। আমাদের বিশ্বাস, গানটি সবার ভালো লাগবে।’

/এমএম/এমওএফ/

সম্পর্কিত

গাইলেন অভিনেত্রী প্রভা, সংগীতায়োজনে ইমরান (ভিডিও)

গাইলেন অভিনেত্রী প্রভা, সংগীতায়োজনে ইমরান (ভিডিও)

‘মরীচিকা’র পর ওয়েবে তাদের নতুন ‘সিন্ডিকেট’

‘মরীচিকা’র পর ওয়েবে তাদের নতুন ‘সিন্ডিকেট’

মায়ের সঙ্গে মেয়ের প্রথম মিউজিক ভিডিও

মায়ের সঙ্গে মেয়ের প্রথম মিউজিক ভিডিও

নায়ক তাহসান, প্রযোজক সুস্মিতা (ভিডিও)

নায়ক তাহসান, প্রযোজক সুস্মিতা (ভিডিও)

অস্ট্রেলিয়ায় আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে তাসকিন

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৭:৩৪

আবারও অস্ত্রোপচারের টেবিলে যেতে হচ্ছে ‘ঢাকা অ্যাটাক’-খ্যাত অভিনেতা তাসকিন রহমানকে। আগামীকাল (২৭ অক্টোবর) অস্ট্রেলিয়ায় ছোট একটা সার্জারি হবে। প্রবাসী তাসকিন সে দেশেই বসবাস করেন। অস্ত্রোপচারের বিষয়টি বাংলা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন তাসকিন অভিনীত চলচ্চিত্র ‘গিরগিটি’র পরিচালক সৌরভ কুণ্ডু। সিনেমাটির প্রধান অভিনেতা তাসকিন রহমান।
 
সৌরভ কুণ্ডু বলেন, ‘গত বছরের শেষভাগ থেকেই তাসকিন চোখের সমস্যায় অস্ট্রেলিয়া আছেন। সেখানে এর আগে দুবার অপারেশনও হয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় এটা বলা যায়, ছোট ও শেষবারের মতো অপারেশন হবে। তাসকিন আমাকে সেরকমটাই জানিয়েছেন।’

এই পরিচালক জানান, অপারেশনের জন্যই ‘গিরগিটি’ চলচ্চিত্রের কাজ বন্ধ রেখে অপেক্ষা করছেন তারা। আগামীকাল তাসকিনের আপডেটটা জানবেন, এরপর ছবির শুটিংয়ের প্রস্তুতি নেবেন।

উন্নত চিকিৎসার জন্য গত বছরের ২২ নভেম্বর অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে যান প্রবাসী এই অভিনেতা। ২২ ডিসেম্বর সেখানে তার চোখে লেজার সার্জারি সম্পন্ন হয়। এরপর আরও একবার অস্ত্রোপচার হয়েছে। 

নীল নয়নের অভিনেতা তাসকিন সেসময় জানিয়েছিলেন, অপটিক্যাল নার্ভাস সিস্টেমে জটিলতার কারণে চোখে লেজার সার্জারি করতে হয়েছে। এটা মাইনর একটি অপারেশন। 

২০১৭ সালে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ সিনেমার মধ্য দিয়ে তাসকিন রহমানের বড় পর্দায় অভিষেক ঘটে। প্রথম সিনেমাতেই দুর্দান্ত অভিনয় করে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান তিনি। এরপর তার অভিনীত ‘বয়ফ্রেন্ড’ ও ‘যদি একদিন’ সিনেমা মুক্তি পায় প্রেক্ষাগৃহে।  

এছাড়া তাসকিনের মুক্তি প্রতীক্ষিত সিনেমার মধ্যে রয়েছে ‘মিশন এক্সট্রিম’, ‘শান’, ‘ক্যাসিনো’, ‘অপারেশন সুন্দরবন’, ‘ঢাকা ২০৪০’, ‘ওস্তাদ’ ও ‘গিরগিটি’।

/এম/এমওএফ/

সম্পর্কিত

বলিউডে কতটা ভালো করবো জানি না: অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

বলিউডে কতটা ভালো করবো জানি না: অ্যাঞ্জেলিনা জোলি

চলচ্চিত্রের জন্য পুরস্কার পেলেন কাজী হায়াৎ ও মাজহারুল ইসলাম

চলচ্চিত্রের জন্য পুরস্কার পেলেন কাজী হায়াৎ ও মাজহারুল ইসলাম

গাইলেন অভিনেত্রী প্রভা, সংগীতায়োজনে ইমরান (ভিডিও)

গাইলেন অভিনেত্রী প্রভা, সংগীতায়োজনে ইমরান (ভিডিও)

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

উন্মুক্ত হলো তাদের বিশেষ গান ‌‘চার ছক্কা মারো’ (ভিডিও)

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

‘প্রাণবিক বন্ধু’ স্বীকৃতি পেলেন জয়া আহসান

‘প্রাণবিক বন্ধু’ স্বীকৃতি পেলেন জয়া আহসান

জয়ার ওয়েব সিরিজে নেই বলিউডের নওয়াজুদ্দিন

জয়ার ওয়েব সিরিজে নেই বলিউডের নওয়াজুদ্দিন

জয়া-নওয়াজুদ্দিনের ওয়েব সিরিজ নিয়ে অভিযোগ

জয়া-নওয়াজুদ্দিনের ওয়েব সিরিজ নিয়ে অভিযোগ

তাদের নিয়ে কলকাতার নায়িকাদের চাপা ক্ষোভ! 

তাদের নিয়ে কলকাতার নায়িকাদের চাপা ক্ষোভ! 

গেয়েও মুগ্ধ করলেন জয়া আহসান (ভিডিও)

গেয়েও মুগ্ধ করলেন জয়া আহসান (ভিডিও)

বলিউডে জয়া আহসান, নায়ক নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকি

বলিউডে জয়া আহসান, নায়ক নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকি

জয়ার গানের প্রশংসা ওপার বাংলায়

জয়ার গানের প্রশংসা ওপার বাংলায়

জয়ার প্রশংসায় কলকাতার ঋত্বিক

জয়ার প্রশংসায় কলকাতার ঋত্বিক

‘আজ যা ওখানে হচ্ছে, কাল তা আমার দেশেও হতে পারে’

আফগান ইস্যুতে জয়া আহসান‘আজ যা ওখানে হচ্ছে, কাল তা আমার দেশেও হতে পারে’

কলকাতার হলে মুক্তি পাচ্ছে জয়ার ছবি

কলকাতার হলে মুক্তি পাচ্ছে জয়ার ছবি

সর্বশেষ

বুয়েটে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

বুয়েটে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

বিশ্বকাপ শেষ সাইফউদ্দিনের, মূল দলে রুবেল

বিশ্বকাপ শেষ সাইফউদ্দিনের, মূল দলে রুবেল

আর কত সুযোগ পাবেন লিটন?

আর কত সুযোগ পাবেন লিটন?

কারখানা থেকে ফেরার পথে ছিনতাইকারীর কবলে পোশাক শ্রমিক

কারখানা থেকে ফেরার পথে ছিনতাইকারীর কবলে পোশাক শ্রমিক

দ্বিতীয় ধাপে ৮১ চেয়ারম্যান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী

দ্বিতীয় ধাপে ৮১ চেয়ারম্যান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী

© 2021 Bangla Tribune