X
রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

সে বছর মেয়েদের জন্য পৃথক বাস চালু হয়েছিল

আপডেট : ০৬ অক্টোবর ২০২১, ০৮:০০

(বিভিন্ন সংবাদপত্রে প্রকাশিত তথ্যের ভিত্তিতে বঙ্গবন্ধুর সরকারি কর্মকাণ্ড ও তার শাসনামল নিয়ে মুজিববর্ষ উপলক্ষে ধারাবাহিক প্রতিবেদন প্রকাশ করছে বাংলা ট্রিবিউন। আজ পড়ুন ১৯৭৩ সালের ৬ অক্টোবরের ঘটনা।)

 

১৯৭৩ সালে প্রথমবারের মতো কর্মজীবী নারী শিক্ষার্থীদের কথা মাথায় রেখে প্রথমবারের মতো পৃথক বাস চালু করা হয়। ‘লেডিস, পুরা ব্রেকে পা’  কন্ডাক্টরের সেই প্রচণ্ড হাঁক ডাকের দিন শেষ হওয়ার কথা বলে পত্রিকার পাতা।

এই দিনে বাসের ভেতরের ছবিসহ প্রতিবেদনে বলা হয়, ঢাকা নগরীতে চালু হয় এই বাস। একান্তভাবে এটা নারীদের জন্য। বিআরটিসির উদ্যোগে চালু হলো এই সেবা। সকাল ৭টা থেকে দুই ঘণ্টা পর পর বিভিন্ন রুটে চলাচল করবে। প্রথমে নির্ধারণ করা হয় দুটি রুট। একটা ছেড়ে যাবে মোহাম্মদপুর থেকে, আরেকটা মিরপুর থেকে।

শুধু নারীদের জন্য এই ব্যবস্থা করা হয়, কারণ বাসযাত্রী নারীরা যেন অন্য যাত্রী ও কন্ডাক্টরদের হয়রানির মুখে না পড়ে। স্বাধীনতার পরই এই ধরনের একটি ব্যবস্থা রাজধানীর নারীদের জন্য বড় সুসংবাদ ছিল।

ছাত্রী ও কর্মজীবী নারীরাও এতে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেন। সকাল সাতটায় এইদিন যারা যাত্রী ছিলেন তাদের বেশিরভাগই সরকারি চাকুরে। অবশ্য কিছু শিক্ষক ও ছাত্রী ছিলেন বলে প্রতিবেদনে প্রকাশ করা হয়।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশ স্বাধীন হওয়ার পর থেকে নারীদের সুবিধাদিসহ একটি নারী ও শিশুবান্ধব সমাজ প্র্রতিষ্ঠা এবং নারীদেরও দেশ গঠনের কাজে যোগ দেওয়ার নানা উদ্যোগ নেন। বাস্তবায়নও শুরু করেন।

দৈনিক বাংলা, ৭ অক্টোবর ১৯৭৩

আরব ভাইদের পাশে আছি

প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মধ্যপ্রাচ্যে সর্বশেষ হামলার তীব্র নিন্দা করেন। মিসরের প্রেসিডেন্ট আনোয়ার সাদাত, সিরীয় প্রেসিডেন্ট হাফেজ আল আসাদুল এবং লিবিয়ার প্রেসিডেন্ট গাদ্দাফির কাছে পাঠানো পৃথক পৃথক তারবার্তায় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু দ্ব্যর্থহীন কণ্ঠে ঘোষণা করেন, সমগ্র বাঙালি জাতি তাদের আরব ভাইদের পাশে দাঁড়াবে। এই দিন রাতে এনার খবরে এ কথা উল্লেখ করা হয়।

উল্লেখ্য, মধ্যপ্রাচ্যে আবার এক ভয়াবহ যুদ্ধের দাবানল জ্বলে ওঠে। ইসরায়েলি স্থল ও বিমানবাহিনী যুগপৎ হামলা চালায় মিসর ও সিরিয়ার ওপর। যুদ্ধবিরতি রেখা বরাবর বিস্তীর্ণ এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। দামেস্কো বেতার থেকে এই যুদ্ধের কথা ঘোষণা করা হয়।

বেতার থেকে প্রচণ্ড লড়াইয়ের খবর ঘোষণা করে বলা হয়েছে, মিসরীয়রা স্থলবাহিনী অতিক্রম করেছে এবং পূর্ব তীরে ইসরায়েলি বাহিনীর সঙ্গে প্রচণ্ড লড়াই চলছে।

 

বাংলাদেশের জাতিসংঘের আসন কেউ ঠেকাতে পারবে না

বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতা ও সংগঠন জাতিসংঘে বাংলাদেশের অন্তর্ভুক্তির বিরুদ্ধে চীনের সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী যে ভাষায় বক্তৃতা করেছেন তার প্রতিবাদ জানায়। পৃথক পৃথক বিবৃতিতে নেতারা চীনের ভূমিকায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে। তারা বলেন, যত চেষ্টাই করুক, বিশ্ব সংস্থায় বাংলাদেশের অন্তর্ভুক্তি বেশিদিন আটকে রাখা যাবে না। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক বিবৃতিতে বলেন, চীন সরকারের সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের বিনাশর্তে জাতিসংঘের সংশ্লিষ্ট প্রস্তাব কার্যকর করার পূর্বে বাংলাদেশের অন্তর্ভুক্তির বিষয় বিবেচনা করা যেতে পারে না বলে সম্প্রতি যে বিবৃতি দিয়েছেন এটা অত্যন্ত নিন্দনীয়।

ডেইলি অবজারভার, ৭ অক্টোবর ১৯৭৩

লোক বিনিময়ে অস্ট্রেলিয়া ও নরওয়ের সাহায্য দান

জাতিসংঘের উদ্বাস্তু সংক্রান্ত হাইকমিশনার সদরুদ্দিন আগা খান বলেন, পাকিস্তান ও বাংলাদেশের মধ্যে লোক বিনিময়ের জন্য জাতিসংঘ অর্থ সাহায্যের আবেদন জানিয়েছিল। অস্ট্রেলিয়া ও নরওয়ে এই অনুরোধে সাড়া দিয়েছে। অস্ট্রেলিয়া ৫ লক্ষ ডলার এবং নরওয়ে এক লক্ষ ৭৯ হাজার ১১ ডলার দান করেছে বলে হাইকমিশনারের জনৈক মুখপাত্র জানান। নেদারল্যান্ড শিগগিরই অর্থ সাহায্যের কথা ঘোষণা করবে বলেও জানানো হয়।

আগা গান বলেন, বাংলাদেশ থেকে ৬০ হাজার অবাঙালিকে পাকিস্তানে এবং পাকিস্তান থেকে দেড় লক্ষ বাঙালিকে বাংলাদেশে প্রেরণের জন্য এক কোটি ৪৩ হাজার মার্কিন ডলার প্রয়োজন।

/এফএ/

সম্পর্কিত

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ পুনর্গঠনে অগ্রগতির প্রশংসা ব্রিটিশ সংসদীয় দলের

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ পুনর্গঠনে অগ্রগতির প্রশংসা ব্রিটিশ সংসদীয় দলের

বাংলাদেশ থেকে ডাক্তার-নার্স নিতে চায় মালদ্বীপ

বাংলাদেশ থেকে ডাক্তার-নার্স নিতে চায় মালদ্বীপ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ পুনর্গঠনে অগ্রগতির প্রশংসা ব্রিটিশ সংসদীয় দলের

বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ পুনর্গঠনে অগ্রগতির প্রশংসা ব্রিটিশ সংসদীয় দলের

বাংলাদেশ থেকে ডাক্তার-নার্স নিতে চায় মালদ্বীপ

বাংলাদেশ থেকে ডাক্তার-নার্স নিতে চায় মালদ্বীপ

সাত ধাপ পেরিয়ে কনস্টেবল পদে তিন হাজার জনের নিয়োগ চূড়ান্ত

সাত ধাপ পেরিয়ে কনস্টেবল পদে তিন হাজার জনের নিয়োগ চূড়ান্ত

আতঙ্কের নাম ডাম্প ট্রাক

আতঙ্কের নাম ডাম্প ট্রাক

‘ক্র্যাক প্লাটুন’ বীরদের সংবর্ধনা দিলো পর্যটন মন্ত্রণালয়

‘ক্র্যাক প্লাটুন’ বীরদের সংবর্ধনা দিলো পর্যটন মন্ত্রণালয়

ঝুলে রইলো হাফ ভাড়ার সিদ্ধান্ত

ঝুলে রইলো হাফ ভাড়ার সিদ্ধান্ত

ঢাকাসহ সারাদেশে আবারও ভূমিকম্প

ঢাকাসহ সারাদেশে আবারও ভূমিকম্প

‘চট্টগ্রামের উন্নয়নের দায়িত্ব মেয়রকেই নিতে হবে’

‘চট্টগ্রামের উন্নয়নের দায়িত্ব মেয়রকেই নিতে হবে’

সর্বশেষ

মেয়র হানিফের পঞ্চদশ মৃত্যুবার্ষিকী আজ

মেয়র হানিফের পঞ্চদশ মৃত্যুবার্ষিকী আজ

নারায়ণগঞ্জে আগুনের ঘটনায় আরও একজনের মৃত্যু

নারায়ণগঞ্জে আগুনের ঘটনায় আরও একজনের মৃত্যু

শেষ মুহূর্তের দুই গোলে ভিয়ারিয়ালকে হারালো বার্সেলোনা

শেষ মুহূর্তের দুই গোলে ভিয়ারিয়ালকে হারালো বার্সেলোনা

৪০ টাকার বিনিময়ে বার্ষিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস

৪০ টাকার বিনিময়ে বার্ষিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস

ভোটের সরঞ্জাম নিয়ে কেন্দ্রে যাওয়ার পথে সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তার মৃত্যু

ভোটের সরঞ্জাম নিয়ে কেন্দ্রে যাওয়ার পথে সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তার মৃত্যু

© 2021 Bangla Tribune