X
বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ৫ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

তালেবান শাসিত আফগানিস্তান: ‘নেই খাবার, নেই সাহায্য, কিছুই নেই এখানে’

আপডেট : ০৯ অক্টোবর ২০২১, ২০:১২

কোনও দেশের ভেঙে পড়া হয়ত এমন: হাজারো নারী একটি সারিতে দাঁড়িয়ে আছে, এবং আরেকটি সারিতে হাজারো পুরুষ। তীব্র গরমে সবাই একজন আরেকজনকে ধাক্কা দিচ্ছে সামানে এগিয়ে যাওয়ার জন্য। কারণ নিউ কাবুল ব্যাংক হঠাৎ করে চালু হয়েছে এবং তাদের সঞ্চয় তোলার সুযোগ দিচ্ছে।

শৃঙ্খলা বজায় রাখার ন্যূনতম যে ব্যবস্থা সেটির মধ্যে রয়েছে কয়েকজন তালেবান যোদ্ধা উপস্থিত আছে। কয়েকজন যোদ্ধা তাদের কালাশানিকভ রাইফেলে হাত বুলাচ্ছে মসৃণভাবে। ধীর গতিতে মানুষের সামনে আগানোর চেষ্টার দিকে নজর রাখছে তারা।

২৭ সেপ্টেম্বর বেতন নিতে একটি ব্যাংকের সামনে নারী শিক্ষকরা

নিউ কাবুল ব্যাংকের বাইরের এই দৃশ্য কট্টর ইসলামপন্থী তালেবান আফগানিস্তানের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পর কেটে যাওয়ার সাত সপ্তাহের একটি খণ্ড চিত্র। ব্যাংকের পাশের রাস্তায় মানুষের কাছে কোনও টাকা নেই, তবে আছে অনেক আগ্নেয়াস্ত্র। কয়েক ঘণ্টা না খেয়ে মানুষের বাড়ছে ক্ষুধা এবং ক্ষোভ। সাবেক আফগান সেনাবাহিনীর এক সদস্য জানান, গত ৫ দিন ধরে ব্যাংকের সামনে সারিতেই তিনি ঘুমাচ্ছেন।

নারীদের কর্মস্থলের বদলে বাড়িতে থাকতে বলেছে তালেবন। কিন্তু ব্যাংকের সারিতে দাঁড়াতে কিংবা রাস্তায় ভিক্ষা করছেন নারীরা। প্রকাশ্যে তারা তালেবানের নির্দেশ অমান্য করছেন।

৫০ বছর বয়সী শিক্ষিকা মালালাই পপোজাই। তিনি জানান, তার পরিবার বাধ্য হয়েছে গত মাসে টিভি ও ফ্রিজ বিক্রি করে দিতে। এরপরও সকালের নাস্তায় তাদের পরিবার শুধু রুটি ও চিনি ছাড়া চা পান করেছে। চিনি কেনার মতো টাকা নেই তাদের। তিনি বলেন, সকাল ৭টা থেকে এখানে আছি আমি। আমরা এখানে প্রতিদিন আসি। তালেবান আসার পর আমার কোনও টাকা পাই। এখন বাড়িতে আমার তিন সন্তান অপেক্ষা করছে মা তাদের জন্য খাবার নিয়ে আসবে।

আফগানিস্তানে বেশিরভাগ নারী উপার্জিত পরিবারের অবস্থা প্রায় পপোজাইয়ের মতো। তালেবান ক্ষমতা দখলের আগে হয়ত তারা কেউ ছিলেন শিক্ষিকা বা নার্স। যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও ন্যাটো দুই দশকে যে শত কোটি ডলার ব্যয় করেছে তার ফলশ্রুতি এই মধ্যবিত্ত আফগান নারী সমাজের উদ্ভব হয়েছে।

নীল রঙের হিজাব পরিহিত সেবা নামের ২০ বছর বয়সী মেয়ে কাজ করতে জার্মানির অর্থায়নকৃত একটি এনজিওতে। তিনি বলেন, বিশ্ব প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল আফগানিস্তান ও নারীদের সহযোগিতা করবে। কিন্তু তারা আমাদের দুর্ভোগে রেখে চলে গেছে।

নারীদের কর্মস্থলের বদলে বাড়িতে থাকতে বলেছে তালেবন

সেবার মতো কয়েক ডজন নারী জানিয়েছেন ১৫ আগস্ট তালেবান ক্ষমতা দখলের পর তাদের জীবন কতটা বদলে গেছে। তারা নিজেদের পরিত্যক্ত মনে করছে। অনেকেই নিজে ও পরিবারের খাবারের ব্যবস্থা করতে পারছেন না। নারীদের কষ্টার্জিত অধিকার খর্ব করা হয়েছে। উজ্জ্বল ভবিষ্যতের প্রত্যাশা করা প্রজন্ম এখন দেশ থেকে পালানোর চেষ্টা করছে। যারা পালাতে পারেনি তাদের মধ্যে সহিংসতার আশঙ্কা বেপরোয়া মনোভাব আরও বাড়ছে।

ছয় সন্তানের মা ও একজন বিধবা আরিয়া সিদ্দিকী তালেবানের ক্ষমতা দখলের আগে তাখার প্রদেশের একজন নারী পুলিশ সদস্য ছিলেন। তিনি জানান, তার তাঁবুতে ১৭ জন মানুষ রয়েছেন। সর্বশেষ খাবার হিসেবে তিন সদস্যের একটি পরিবার পেয়েছে দুই টুকরো রুটি। তাও আবার চারদিন আগে। তাখারে গ্রামের বাড়িতে গেলে আগের পেশার জন্য তালেবান তাকে হত্যা করবে বলে আশঙ্কা করছেন তিনি।

তার কথায়, ‘এখানে কোনও খাবার, কোনও সাহায্য পাওয়া যাচ্ছেন, কিছুই নেই এখানে।’

তালেবানের এক মুখপাত্র আনামুল্লাহ সামানগনি জানান, তালেবান কোরানের কঠোর ব্যাখ্যা দ্বারা দেশ পরিচালনায় অটল। কিন্তু এবার ১৯৯৬-২০০১ সালের তুলনায় ভিন্ন হবে। বিশ্বের উচিত তালেবান সম্পর্কে মনোভাব পরিবর্তন করা।

তিনি বলেন, আমরা একুশ শতকে বাস করছি। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ও পশ্চিমাদের সঙ্গে আমাদের সম্পর্কে নতুন অধ্যায়। সূত্র: গ্লোব অ্যান্ড মেইল

/এএ/

সম্পর্কিত

সুপারম্যান-এর বিরুদ্ধে ভারতে ক্ষোভ

সুপারম্যান-এর বিরুদ্ধে ভারতে ক্ষোভ

পাকিস্তানে নিরাপত্তাবাহিনীর ৬ সদস্য নিহত

পাকিস্তানে নিরাপত্তাবাহিনীর ৬ সদস্য নিহত

নারীদের মিছিলে সাংবাদিকদের পেটালো তালেবান

নারীদের মিছিলে সাংবাদিকদের পেটালো তালেবান

ভারত-নেপালে বন্যা ও ভূমিধসে মৃত্যু ছাড়ালো ১৮০

আপডেট : ২১ অক্টোবর ২০২১, ২২:২৪

প্রবল বর্ষণে সৃষ্ট বন্যা, ভূমিধসে ভারত ও নেপালে মৃত্যু ১৮০ ছাড়লো। ভারতের দুই রাজ্য উত্তরাখন্ড এবং কেরালার বন্যা পরিস্থিতির কোনও উন্নতি নেই। ফলে বাড়ছে প্রাণহানি।

গত শুক্রবার থেকে বন্যায় বিপর্যস্ত কেরালা রাজ্য। ভারী বৃষ্টিপাতে বিভিন্ন জায়গায় ভূমিধস দেখা দিয়েছে। বানের তোড়ে নদীতে ভেসে গেছে বহু বাড়ি-ঘর। সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী এক হাজার ছয়শ’র বেশি ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪২ জনে।

এদিকে উত্তরাখন্ডের পরিস্থিতি আরও শোচনীয়। ভয়াবহ বন্যায় একই পরিবারের পাঁচজন মারা গেছেন। এ নিয়ে নিহত বেড়ে ৫৫ জনে দাঁড়িয়েছে। প্রতি বছর অক্টোবরে উত্তরাখন্ডে গড়ে ৩০ মিলিমিটারের মতো বৃষ্টিপাত হয়। কিন্তু এ বছর সব পরিসংখ্যান ছাপিয়ে গেছে। চলতি সপ্তাহেই ৩২৮ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। তবে বৃষ্টি এখন কিছুটা কমার কথা জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ।

এক টুইট বার্তায় নিহতদের পরিবারের প্রতি গভীর শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আহতদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেন তিনি।  

এদিকে প্রাণঘাতী বন্যার কবলে নেপালের পূর্বাঞ্চলের পাঞ্চতার জেলা, পশ্চিমের ইলাম এবং দোতি জেলার মানুষ। পশ্চিম নেপালের একটি গ্রামে আটকে পড়া ৬০ জনের কাছে পৌঁছানোর চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে উদ্ধারকারীরা। এখন পর্যন্ত ৮৮ জন মারা গেছেন দেশটিতে। বন্যায় নিহতদের প্রত্যেক পরিবারকে এক হাজার সাতশ’ ডলার করে দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে নেপাল সরকার।

/এলকে/

সম্পর্কিত

আবারও করোনার সংক্রমণ বাড়ছে পশ্চিমবঙ্গে

আবারও করোনার সংক্রমণ বাড়ছে পশ্চিমবঙ্গে

সুপারম্যান-এর বিরুদ্ধে ভারতে ক্ষোভ

সুপারম্যান-এর বিরুদ্ধে ভারতে ক্ষোভ

নেপাল ও ভারতে বন্যা ও ভূমিধসে শতাধিক মানুষের মৃত্যু

নেপাল ও ভারতে বন্যা ও ভূমিধসে শতাধিক মানুষের মৃত্যু

আবারও করোনার সংক্রমণ বাড়ছে পশ্চিমবঙ্গে

আপডেট : ২১ অক্টোবর ২০২১, ২১:০৪

দুর্গাপূজা উৎসব শেষে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়েছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যে। রাজ্যের স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যমতে, ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে সাড়ে সাতশ’ মানুষ করোনায় শনাক্ত হয়েছেন। প্রতিদিনই আক্রান্তের হার বাড়ছে বলে উদ্বেগ জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডের খবরে জানা গেছে, সম্প্রতি শেষ হওয়া ভবানীপুর উপ-নির্বাচন ও দুর্গাপূজা উৎসবের পর থেকেই কোভিডের সংক্রমণ প্রতিদিনই বাড়ছে। এর কারণ হিসেবে মানুষের মধ্যে স্বাস্থ্য সচেতনতার অভাবকেই দায়ী করছেন বিশেষজ্ঞরা। দৈনিক আক্রান্তের হার সবচেয়ে বেশি কলকাতায়। এখানে ২৪ ঘণ্টায় ২৫০ জন করোনায় শনাক্ত হন।

এ বিষয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তা ডা. মানস গুমতা। তিনি বলেন, 'পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সরকারকেই দায়িত্ব নিতে হবে। করোনার মধ্যেই সরকার কীভাবে এত জন সমাবেশের অনুমতি দিয়েছিল? দুর্গাপূজার সময় ভিড় না করতে কোনও ধরনের নির্দেশ দেয়নি রাজ্য সরকার।

এদিকে করোনা প্রতিরোধে ভারতজুড়ে টিকা কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে দেশটির সরকার। এমন পরিস্থিতিতেই সংক্রমণ বাড়ছে পশ্চিমবঙ্গে। করোনা নিয়ন্ত্রণে এখনও পর্যন্ত নতুন কোনও পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে।

/এলকে/

সম্পর্কিত

ভারত-নেপালে বন্যা ও ভূমিধসে মৃত্যু ছাড়ালো ১৮০

ভারত-নেপালে বন্যা ও ভূমিধসে মৃত্যু ছাড়ালো ১৮০

সুপারম্যান-এর বিরুদ্ধে ভারতে ক্ষোভ

সুপারম্যান-এর বিরুদ্ধে ভারতে ক্ষোভ

নেপাল ও ভারতে বন্যা ও ভূমিধসে শতাধিক মানুষের মৃত্যু

নেপাল ও ভারতে বন্যা ও ভূমিধসে শতাধিক মানুষের মৃত্যু

শাহরুখপুত্রের জামিন আবেদন খারিজ

শাহরুখপুত্রের জামিন আবেদন খারিজ

সুপারম্যান-এর বিরুদ্ধে ভারতে ক্ষোভ

আপডেট : ২১ অক্টোবর ২০২১, ২০:১৮

ডিসি কমিকস ফ্র্যাঞ্চাইজির অ্যানিমেশন চলচ্চিত্র ‘ইনজাস্টিস’ নিয়ে ভারতে ক্ষোভ ছড়িয়ে পড়ছে। চলচ্চিত্রটির একটি দৃশ্য নিয়েই মূলত ভারতীয়দের আপত্তি। ওই দৃশ্যে দেখানো হয়েছে, ওয়ান্ডার ওম্যান ও সুপারম্যান ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে ভারতীয় সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে লড়াই  এবং অঞ্চলটিকে অস্ত্রমুক্ত বলে ঘোষণা করেছে।

১৯ অক্টোবর বিশ্বজুড়ে মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল চলচ্চিত্রটি। কিন্তু এই মাসের শুরুতেই তা অনলাইনে ফাঁস হয়ে যায়। এতে দেখা গেছে, বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে চলমান সংঘাত থামিয়ে দিচ্ছে ওয়ান্ডার ওম্যান ও সুপারম্যান।  

এতে আরও দেখা গেছে, দুই কাল্পনিক সুপারহিরো কাশ্মিরে সেনাবাহিনীর সঙ্গে লড়াই এবং তাদের সরঞ্জাম ধ্বংস করছে। এসময় নেপথ্য কণ্ঠে বলতে শোনা যায়, বিরোধপূর্ণ কাশ্মিরে ওয়ান্ডার ওম্যান ও সুপারম্যান সব সামরিক সরঞ্জাম ধ্বংস করে দিয়েছে এবং অঞ্চলটিকে অস্ত্রমুক্ত বলে ঘোষণা করেছে।

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল ফর কালচারাল রিলেশন্স-এর সদস্য বরুন পুরি ডিসি কমিকসের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন দৃশ্যটি বাদ দেওয়ার জন্য। তিনি টুইটারে লিখেছেন, পশ্চিমারা এখন ভারতবিরোধী প্রোপাগান্ডা ছড়াতে অ্যানিমেশন চলচ্চিত্র কাজে লাগাচ্ছে। এতে কাজ হবে না। কাশ্মির আমাদের অঙ্গীভুত অংশ এবং আমাদের অবমাননা করার মতো কিছু সহ্য করা হবে না।

#AntiIndiaSuperman নামের একটি হ্যাশট্যাগ টুইটারে ট্রেন্ডিংয়ে ছিল কয়েক ঘণ্টা। সুধীর চৌধুরী নামের ভারতীয় সাংবাদিক ডিসি কমিকসকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, চলচ্চিত্র ও কমিকসে সুপারহিরোদের খুব শক্তিশালী হিসেবে দেখানো হয়। কিন্তু আজ ১৩৫ কোটি ভারতীয় সুপারম্যানের চেয়ে শক্তিশালী প্রমাণিত হবে।

ভারতের একটি জাতীয় টেলিভিশনে এই বিষয়ে খবর প্রকাশের পর অনেকেই প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন। অনেকেই আহ্বান জানিয়েছেন চলচ্চিত্রটি বয়কট করার জন্য।

হলিউডের চলচ্চিত্র নিয়ে ভারতীয় ক্ষোভ এই প্রথম নয়। এর আগে ২০১৮ সালে ‘মিশন ইম্পসিবল: ফলআউট’-এর কাশ্মির সংশ্লিষ্ট একটি দৃশ্য বাদ দিয়েছে। সূত্র: ভাইস

 

/এএ/

সম্পর্কিত

ভারত-নেপালে বন্যা ও ভূমিধসে মৃত্যু ছাড়ালো ১৮০

ভারত-নেপালে বন্যা ও ভূমিধসে মৃত্যু ছাড়ালো ১৮০

আবারও করোনার সংক্রমণ বাড়ছে পশ্চিমবঙ্গে

আবারও করোনার সংক্রমণ বাড়ছে পশ্চিমবঙ্গে

পাকিস্তানে নিরাপত্তাবাহিনীর ৬ সদস্য নিহত

পাকিস্তানে নিরাপত্তাবাহিনীর ৬ সদস্য নিহত

নারীদের মিছিলে সাংবাদিকদের পেটালো তালেবান

নারীদের মিছিলে সাংবাদিকদের পেটালো তালেবান

ব্রিটিশ এমপি হত্যায় অভিযুক্ত যুবক

আপডেট : ২১ অক্টোবর ২০২১, ২০:০৯

ব্রিটেনের এমপি ডেভিড অ্যামেস হত্যায় অভিযুক্ত সোমালিয়ান বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক আলী হারাবি আলী। স্কটল্যান্ড ইয়ার্ডের কাউন্টার টেররিজম কমান্ডের তদন্তের পর ওই হত্যাকাণ্ডে তাকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যের ক্রাউন প্রসিকিউটর সার্ভিস জানায়, অভিযুক্ত আলীর বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদ আইন ২০০৬-এর ৫ ধারায় হত্যা ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের প্রস্তুতির অভিযোগ আনা হয়েছে।

গত (১৫ অক্টোবর) স্থানীয় সময় দুপুরে নির্বাচনী এলাকার ভোটারদের সঙ্গে বৈঠকের সময় হামলার শিকার হন ৬৯ বছর বয়সী ডেভিড অ্যামেস। এসেক্সের বেলফেয়ার্স মেথোডিস্ট গির্জায় নির্বাচনি সভায় হামলার ঘটনা ঘটে। ডেভিড অ্যামেসকে উদ্ধার করে জরুরি চিকিৎসা দেওয়া হলেও বাঁচানো সম্ভব হয়নি। 

ওই ঘটনার পরই ঘটনাস্থল থেকে ছুরিসহ ২৫ বছর বয়সী ঘাতক আলীকে আটক করে পুলিশ। ডেভিড অ্যামেস ছুরিকাঘাতে হত্যাকাণ্ডে ‘সন্ত্রাসবাদ আইন’-এ গ্রেফতার দেখানো হয় তাকে।

এমন হত্যাকাণ্ডে নিন্দার ঝড় বয়ে যায় যুক্তরাজ্যে। এমপিদের সুরক্ষায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদারেরও প্রতিশ্রুতি দেন ব্রিটিশ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

/এলকে/

সম্পর্কিত

আগামী বছরও মহামারি চলতে পারে: ডব্লিউএইচও

আগামী বছরও মহামারি চলতে পারে: ডব্লিউএইচও

চিকিৎসকদের পরামর্শে সফর বাতিল করেছেন রানি এলিজাবেথ

চিকিৎসকদের পরামর্শে সফর বাতিল করেছেন রানি এলিজাবেথ

যুক্তরাজ্যে আবারও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু

যুক্তরাজ্যে আবারও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু

প্রথমবারের মতো আর্থশট পুরস্কার ঘোষণা

প্রথমবারের মতো আর্থশট পুরস্কার ঘোষণা

রাষ্ট্রদূতদের ওপর ক্ষেপেছেন এরদোয়ান

আপডেট : ২১ অক্টোবর ২০২১, ১৯:০৪

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান দশটি দেশের রাষ্ট্রদূতদের পক্ষ থেকে ওসমান কাভালার মুক্তির দাবি করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন, এসব রাষ্ট্রদূতদের তুরস্কে জায়গা দেওয়া উচিত না। মুক্তি দাবি করা কূটনীতিকদের মধ্যে রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি ও ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত। বৃহস্পতিবার ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।

তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মঙ্গলবার বিবৃতিদাতা রাষ্ট্রদূতদের তলব করেছে। কাভালার মামলায় ন্যায়বিচার ও দ্রুত রায় ঘোষণার আহ্বান জানানো বিবৃতিকে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে দায়িত্ব জ্ঞানহীন বলে উল্লেখ করা হয়েছে। দোষী সাব্যস্ত না হলেও ২০১৭ সাল থেকে কারাগারে রয়েছেন মানবপ্রেমী কাবালা।

২০১৩ সালে তুরস্কজুড়ে বিক্ষোভের মামলায় গত বছর বেকসুর খালাস পেয়েছিলেন কাভালা। কিন্তু এই বছর আগের রায়টি খারিজ করে দেওয়া হয়েছে এবং ২০১৬ সালের অভ্যুত্থান চেষ্টার মামলায় এটিকে অঙ্গীভূত করা হয়েছে। তিনি কোনও অন্যায় করার কথা অস্বীকার করে আসছেন।

এক বিবৃতিতে রাষ্ট্রদূতেরা কাভালার মুক্তি নিশ্চিত করতে তুরস্কের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন।

রাষ্ট্রদূতদের এমন পদক্ষেপের পর ক্ষুব্ধ এরদোয়ান বলেন, আমি আমাদের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলেছি: আমাদের দেশে তাদের জায়গা দেওয়ার মতো বিলাসিতার সুযোগ আমাদের নেই। তুরস্ককে শেখানোর দায়িত্ব কী আপনাদের? নিজেদের কী ভাবেন আপনারা?

তুরস্কের বিচার ব্যবস্থা স্বাধীন না বলে যে অভিযোগ তা নাকচ করেছেন তিনি। বলেন, আমাদের বিচার ব্যবস্থা স্বাধীনতার একটি চমৎকার উদাহরণ।

রাষ্ট্রদূতদের বিরুদ্ধে তুরস্ক আর কোনও পদক্ষেপ গ্রহণ করবে কিনা জানতে চাইলে তুর্কি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র তাঞ্জু বিলজিক জানান, প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার সুযোগ রয়েছে আঙ্কারার এবং সময় আসলে তা গ্রহণ করা হবে।

এক ব্রিফিংয়ে তিনি বলেন, যেখানে নিয়োগ পেয়েছেন সেই দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলানো রাষ্ট্রদূতদের কাজ না। স্বাধীন দেশ হিসেবে উপযুক্ত মনে করলে যে কোনও পদক্ষেপ নিতে পারে তুরস্ক।

 

/এএ/

সম্পর্কিত

‘গণতান্ত্রিক পরিস্থিতি তার নাগরিকের চাহিদা পূরণে সক্ষম’

‘গণতান্ত্রিক পরিস্থিতি তার নাগরিকের চাহিদা পূরণে সক্ষম’

জলবায়ু সম্মেলনে যোগ দেবেন না পুতিন

জলবায়ু সম্মেলনে যোগ দেবেন না পুতিন

যুক্তরাজ্যে আবারও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু

যুক্তরাজ্যে আবারও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু

অনূর্ধ্ব ১২ বছরের শিশুদেরও ভ্যাকসিন দেওয়ার চিন্তা ইইউ-এর

অনূর্ধ্ব ১২ বছরের শিশুদেরও ভ্যাকসিন দেওয়ার চিন্তা ইইউ-এর

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সুপারম্যান-এর বিরুদ্ধে ভারতে ক্ষোভ

সুপারম্যান-এর বিরুদ্ধে ভারতে ক্ষোভ

পাকিস্তানে নিরাপত্তাবাহিনীর ৬ সদস্য নিহত

পাকিস্তানে নিরাপত্তাবাহিনীর ৬ সদস্য নিহত

নারীদের মিছিলে সাংবাদিকদের পেটালো তালেবান

নারীদের মিছিলে সাংবাদিকদের পেটালো তালেবান

কক্ষপথে স্যাটেলাইট বসাতে ব্যর্থ হলো দ. কোরিয়া

কক্ষপথে স্যাটেলাইট বসাতে ব্যর্থ হলো দ. কোরিয়া

কাবুলে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

কাবুলে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রথম মহাকাশ রকেট উৎক্ষেপণ দ. কোরিয়ার

প্রথম মহাকাশ রকেট উৎক্ষেপণ দ. কোরিয়ার

সর্বশেষ

বিনা টিকিটে ট্রেনে ওঠায় ২১৫ যাত্রীকে জরিমানা

বিনা টিকিটে ট্রেনে ওঠায় ২১৫ যাত্রীকে জরিমানা

সাকিব স্বীকার করলেন, টানা খেলায় কিছুটা ক্লান্ত তিনি

সাকিব স্বীকার করলেন, টানা খেলায় কিছুটা ক্লান্ত তিনি

‘খুঁজে বের করতে হবে ইকবালের পেছনে কে’

‘খুঁজে বের করতে হবে ইকবালের পেছনে কে’

ইউপি নির্বাচন: বিদ্রোহী প্রার্থীর অফিস ভাঙচুরের অভিযোগ

ইউপি নির্বাচন: বিদ্রোহী প্রার্থীর অফিস ভাঙচুরের অভিযোগ

আবার শজিমেক হাসপাতালে রোগীর স্বজনকে মারধরের অভিযোগ

আবার শজিমেক হাসপাতালে রোগীর স্বজনকে মারধরের অভিযোগ

© 2021 Bangla Tribune