X
শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, ৭ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

ইজিবাইক ও নগদ টাকা ছিনতাই, সড়কের পাশে মিললো সবজি ব্যবসায়ীর লাশ

আপডেট : ১১ অক্টোবর ২০২১, ১১:৩৯

মানিকগঞ্জে এক সবজি ব্যবসায়িকে হত্যা করে ইজিবাইক ও নগদ টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। সোমবার (১১ অক্টোবর) সকাল ৮টার দিকে বেতিলা-বালিরটেক সড়কের তেরদোনা এলাকায় সড়কের পাশের এক জমি থেকে তার হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত রবিন মিয়া (২২) ভাড়ারিয়া ইউনিয়নের কলাসি গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে।

পুলিশ জানায়, রবিবার দিবাগত রাত তিনটার দিকে রবিন মিয়া (২২) একই গ্রামের হিরনের ইজিবাইকে করে মানিকগঞ্জ সবজির আড়তে যাচ্ছিলেন। পথে বেতিলা-বালিরটেক সড়কের তেরদোনা এলাকায় রাস্তায় বাঁশ ফেলে ৮-১০ জন দুর্বৃত্ত তাদের গতিরোধ করে। এরপর দুই জনকে দুই দিকে নিয়ে যাওয়া হয়। মাথায় আঘাতের কারণে জ্ঞান হারান হিরণ। জ্ঞান ফিরে ব্যবসায়ী রবিনের হাত পা বাঁধা ও বিবস্ত্র মরদেহ দেখতে পান তিনি। পরে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।

ইজিবাইক চালক হিরন জানান, দুর্বৃত্তরা তার ইজিবাইক, তার কাছে থাকা নগদ আড়াই হাজার টাকা ও রবিনের কাছে থাকা ১০-১২ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

সদর থানার ওসি আকবর আলী খান বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ছিনতাই, পূর্বশত্রুতা নাকি অন্যকোনও কারণে এই হত্যাকাণ্ড তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

/টিটি/

সম্পর্কিত

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

ফরিদপুরে নির্বাচনি সহিংসতায় যুবক নিহত, ৫০ বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

ফরিদপুরে নির্বাচনি সহিংসতায় যুবক নিহত, ৫০ বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনা সাজানো: ইনু

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ২২:৩১

কুমিল্লার নানুয়াদিঘির পাড় পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন শরিফ রাখার ঘটনাটি পরিকল্পিত ও সাজানো বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) সভাপতি ও সাবেক তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

তিনি বলেছেন, ‘একটি উসিলা তৈরি করার জন্য চক্রান্ত করা হয়েছিল। তারপর যে হামলাগুলো কুমিল্লাসহ বিভিন্ন স্থানে হয়েছে তারা পরিকল্পনা এবং প্রস্তুতি নিয়েই করেছে। সুতারাং আমরা একটি ধর্মান্ধ গোষ্ঠীর আক্রমণের শিকার হয়েছি।’

শনিবার (২৩ অক্টোবর) বিকালে কুমিল্লায় ক্ষতিগ্রস্ত পূজামণ্ডপ পরিদর্শন শেষে সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

প্রশাসনের গাফিলতির কথা উল্লেখ করে জাসদ সভাপতি বলেন, ‘তাদের ব্যর্থতা ও অদক্ষতা দুইটাই আছে। প্রশাসন সর্তক থাকলে এই হামলাও আটকাতে পারতো। তবে প্রশাসনের মধ্যে লুকিয়ে থাকা সাম্প্রদায়িক কর্মচারীদের উদ্দেশ্যমূলক নিষ্ক্রিয়তাও আমার কাছে মনে হচ্ছে। ফলে ঘটনা ঘটার সুযোগ করে দেওয়া হয়েছে। এটি ভালো লক্ষণ না। এই মুহূর্তে রাজনীতির মূল চ্যালেঞ্জ হচ্ছে পূজামণ্ডপে সংখ্যালঘুদের ওপর আর হামলা হবে না, এটাই অর্জন করা।’

/এফআর/

সম্পর্কিত

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুর, ২৫ মামলায় গ্রেফতার ১৭৪

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুর, ২৫ মামলায় গ্রেফতার ১৭৪

এখন জামায়াতের অস্তিত্ব বলতে কিছু নেই: গয়েশ্বর

এখন জামায়াতের অস্তিত্ব বলতে কিছু নেই: গয়েশ্বর

‘মুসল্লিদের সংঘবদ্ধ করে’ পূজামণ্ডপে হামলাচেষ্টার স্বীকারোক্তি

‘মুসল্লিদের সংঘবদ্ধ করে’ পূজামণ্ডপে হামলাচেষ্টার স্বীকারোক্তি

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ২২:২৪

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী এক শিশুকে (৯) অপহরণের পর ধর্ষণ করে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার সদর ইউনিয়নের ভক্তবাড়ী এলাকায় ঘটে এ ঘটনা। পুলিশ এ ঘটনায় শনিবার (২৩ অক্টোবর) দুপুরে অভিযুক্ত প্রধান আসামিকে গ্রেফতার করেছে।

এ ঘটনায় জড়িতদের শাস্তির দাবিতে রূপগঞ্জ থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ করেন এলাকাবাসী। পরে পুলিশ এলাকাবাসীকে বুঝিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে।

নিহত শিশুটির মা জানান, শুক্রবার সকাল ৬টার দিকে তার দুঃসম্পর্কের চাচা কাঞ্চন পৌরসভার কেন্দুয়া এলাকার মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে মোশারফ হোসেন তাদের বাড়িতে আসে। তাকে সকালের নাস্তা খাওয়ানোর জন্য তিনি খাবার রান্নাঘরে যান। সে সময় মোশারফ তার মেয়েকে দোকান থেকে চিপস কিনে দেওয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে নিয়ে যায়। এরপর থেকে শিশুটি নিখোঁজ। বহু খোঁজাখুঁজির পর না পেয়ে রাতে শিশুটির মা রূপগঞ্জ থানায় অপরহরণের অভিযোগ এনে মোশারফসহ অজ্ঞাত চার জনকে আসামি করে রূপগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এদিকে, শনিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ভক্তবাড়ী এলাকায় মোশারফকে ঘুরতে দেখে এলাকাবাসী তাকে আটক করে পুলিশের কাছে সোর্পদ করে। পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করলে শিশুটিকে অপহরণের পর ধর্ষণের পর শ্বাসরোধে হত্যা করে লাশ গুম করার উদ্দেশ্যে কাশবনে ফেলে রেখেছে বলে সে স্বীকার করে। পরে বিকালে জাঙ্গীর এলাকায় আনন্দ পুলিশ হাউজিং নামক এলাকার কাশবন থেকে শিশুটির লাশ উদ্ধার করা হয়। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এ ব্যাপারে রূপগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) হুমায়ুন কবির মোল্লা বলেন, ‘শিশুটিকে ধর্ষণের পর শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে ঘাতক প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে। তার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।’

/এমএএ/

সম্পর্কিত

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুর, ২৫ মামলায় গ্রেফতার ১৭৪

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুর, ২৫ মামলায় গ্রেফতার ১৭৪

ফরিদপুরে নির্বাচনি সহিংসতায় যুবক নিহত, ৫০ বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

ফরিদপুরে নির্বাচনি সহিংসতায় যুবক নিহত, ৫০ বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যায় আজিজুলের দায় স্বীকার

রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যায় আজিজুলের দায় স্বীকার

হেফাজতের সহিংসতার মামলায় বিএনপি নেতা রিমান্ডে

হেফাজতের সহিংসতার মামলায় বিএনপি নেতা রিমান্ডে

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুর, ২৫ মামলায় গ্রেফতার ১৭৪

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ২২:২২

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপ, মন্দির, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে হামলা-ভাঙচুর ও মৃত্যুর ঘটনায় এ পর্যন্ত ২৫টি মামলা করা হয়েছে। এসব মামলায় ৪০৯ জনকে এজাহারনামীয় ও সাত হাজার ৫০০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে। সেই সঙ্গে ১৭৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে এজাহারনামীয় আসামি ৮৯ ও সন্দেহভাজন ৮৫ জন।

শনিবার (২৩ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৬টায় জেলা পুলিশ সুপারের কনফারেন্স হলে সাংবাদিক সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়। 

পুলিশ জানায়, বেগমগঞ্জ থানার ১০ মামলায় এজাহারনামীয় আসামি ২১৯ জন। এর মধ্যে এজাহারনামীয় ৬৩ ও সন্দেহভাজন ৫৯ জনসহ ১২২ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পাশাপাশি হাতিয়া থানার ১০টি মামলায় এজাহারনামীয় আসামি ১৬০ জন। এজাহারনামীয় ১২ জন ও সন্দেহভাজন ১৪ জনসহ ২৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোনাইমুড়ি থানার একটি মামলায় এজাহারনামীয় আসামি ছয় জন। এজাহারনামীয় এক জন ও সন্দেহভাজন আটসহ নয় জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সেনবাগ থানার এক মামলায় এজাহারনামীয় আসামি ছয় জন। এজাহারনামীয় ছয় ও সন্দেহভাজন দুইসহ আট জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কবিরহাট থানার এক মামলায় এজাহারনামীয় আসামি না থাকলেও সন্দেহভাজন দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

কোম্পানীগঞ্জ থানায় এক মামলায় এজাহারনামীয় আসামি চার জন। এজাহারনামীয় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। চাটখিল থানার এক মামলায় এজাহারনামীয় আসামি ১৪ জন। এর মধ্যে এজাহারনামীয় ছয় জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, হামলা চলাকালীন ভিডিও ফুটেজ দেখে শনাক্ত করে আট জন ও জড়িত সন্দেহে পাঁচসহ ১৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছিল। এ পর্যন্ত ১৭৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

/এএম/

সম্পর্কিত

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনা সাজানো: ইনু

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনা সাজানো: ইনু

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

এখন জামায়াতের অস্তিত্ব বলতে কিছু নেই: গয়েশ্বর

এখন জামায়াতের অস্তিত্ব বলতে কিছু নেই: গয়েশ্বর

‘মুসল্লিদের সংঘবদ্ধ করে’ পূজামণ্ডপে হামলাচেষ্টার স্বীকারোক্তি

‘মুসল্লিদের সংঘবদ্ধ করে’ পূজামণ্ডপে হামলাচেষ্টার স্বীকারোক্তি

এখন জামায়াতের অস্তিত্ব বলতে কিছু নেই: গয়েশ্বর

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ২২:০৯

এখন জামায়াতের অস্তিত্ব বলতে কিছু নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। তিনি বলেছেন, ‘সরকার পতন আন্দোলনের একটি রব চারদিকে আছে। জাতীয় ঐক্যের মিছিল যেকোনও সময় একত্রিত হবে। যেকোনও সময় নিশিরাতের সরকার টিকে থাকতে পারবে না। এই আশঙ্কাবোধ থেকে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের দুর্বল ভেবে, তাদের ওপর আক্রমণ করে একটি আতঙ্ক সৃষ্টি করা এবং বিরোধীদলীয় নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের মাধ্যমে নিঃস্ব করে আজীবন রাজত্ব করতে চায়। এসব ঘটনায় বিএনপি-জামায়াতকে দোষারোপ করলেও জামায়াতকে তো খুঁজেই পাওয়া যায় না। দিনেও না, রাতেও খুঁজে পাওয়া যায় না। এখন জামায়াতের অস্তিত্ব বলতে কিছু নেই।’

শনিবার (২২ অক্টোবর) দুপুরে কুমিল্লার শহরে নগরীর ক্ষতিগ্রস্ত কাপড়িয়াপট্টি চাঁন্দমনি রক্ষাকারী মন্দির পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি।

গয়েশ্বর বলেন, ‘হিন্দু-মুসলিম নয়, মূলত সরকার নাগরিকদের নিরাপত্তা দিতে অনাগ্রহী। কারণ সরকারের জনপ্রিয়তা এবং দায়বদ্ধতা নেই। তবে বিএনপির দায়বদ্ধতা আছে বিধায় সবসময় জনগণের পাশে থাকে। শত বছরের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে চায় আওয়ামী লীগ। না হলে কুমিল্লার ঘটনায় সারা দেশে এক সপ্তাহের তাণ্ডবে হাজারও ঘটনা ঘটেছে। সরকার আন্তরিক হলে এতো ঘটনা ঘটতো না।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী নিতাই রায় চৌধুরী, কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় বিএনপির ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিষয়ক সম্পাদক হাজী আমিনুর রশিদ ইয়াছিন ও কুমিল্লা দক্ষিণ জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোস্তাক মিয়া।

/এফআর/

সম্পর্কিত

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনা সাজানো: ইনু

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনা সাজানো: ইনু

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুর, ২৫ মামলায় গ্রেফতার ১৭৪

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুর, ২৫ মামলায় গ্রেফতার ১৭৪

‘মুসল্লিদের সংঘবদ্ধ করে’ পূজামণ্ডপে হামলাচেষ্টার স্বীকারোক্তি

‘মুসল্লিদের সংঘবদ্ধ করে’ পূজামণ্ডপে হামলাচেষ্টার স্বীকারোক্তি

‘মুসল্লিদের সংঘবদ্ধ করে’ পূজামণ্ডপে হামলাচেষ্টার স্বীকারোক্তি

আপডেট : ২৩ অক্টোবর ২০২১, ২১:৪৭

চট্টগ্রামের জেএম সেন হলের পূজামণ্ডপে হামলা চেষ্টার ঘটনায় গ্রেফতার হাবিবুল্লাহ মিজান আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। শনিবার (২৩ অক্টোবর) বিকালে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শফি উদ্দিনের আদালতে তিনি জবানবন্দি দেন।

কোতোয়ালি থানার ওসি নেজাম উদ্দিন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘জেএম সেন হলে হামলার ঘটনায় গ্রেফতার সাত জনকে আমরা রিমান্ডে জিজ্ঞাসাবাদ করেছি। রিমান্ড শেষে আজ তাদের আদালতে তোলা হলে হাবিবুল্লাহ মিজান আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে মিজান জানিয়েছেন, পরিকল্পিতভাবে তারা এ ঘটনাটি ঘটিয়েছেন। সাধারণ মুসল্লিদের সংঘবদ্ধ করে এরপর জেএম সেন হলে হামলার চেষ্টা চালায়।’

কুমিল্লার ঘটনার জের ধরে গত ১৬ অক্টোবর দুপুরে জুমার নামাজের পর একটি মিছিল থেকে ঐতিহাসিক জেএম সেন হলের পূজামণ্ডপের গেটে হামলা চালায়। হলের গেটের ব্যানার ও কাপড় ছেঁড়ার পাশাপাশি ওই দিন মিছিল সহকারে আসা যুবকরা মণ্ডপে ঢিল ছোড়ে। পরে এ ঘটনায় ৮৪ জনের নাম উল্লেখ করে কোতোয়ালি থানায় মামলা দায়ের করা হয়। থানার এসআই আকাশ মাহমুদ ফরিদ বাদী হয়ে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলাটি দায়ের করেন। মামলা অজ্ঞাতনামা আরও অন্তত ৫০০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

এই মামলায় ইতোমধ্যে ১০০ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এর মধ্যে বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) দিবাগত রাতে অভিযান চালিয়ে এই ঘটনায় জড়িত যুব পরিষদের ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়। পরদিন তাদের আদালতে তোলা হলে সাত জনকে এক দিনের রিমান্ডে পাঠানোর আদেশ দেয় আদালত।

রিমান্ডে যাওয়া সাত জন হলেন- যুব অধিকার পরিষদের চট্টগ্রাম মহানগর শাখার আহ্বায়ক মো. নাছির, সদস্য সচিব মিজানুর রহমান, বায়েজিদ থানার আহ্বায়ক মো. রাসেল, কর্মী ইয়াসিন আরাফাত, হাবিবুল্লাহ মিজান, ইমন ও ইমরান হোসেন।

/এফআর/

সম্পর্কিত

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনা সাজানো: ইনু

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনা সাজানো: ইনু

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুর, ২৫ মামলায় গ্রেফতার ১৭৪

নোয়াখালীতে পূজামণ্ডপ ভাঙচুর, ২৫ মামলায় গ্রেফতার ১৭৪

এখন জামায়াতের অস্তিত্ব বলতে কিছু নেই: গয়েশ্বর

এখন জামায়াতের অস্তিত্ব বলতে কিছু নেই: গয়েশ্বর

পূজামণ্ডপে কোরআন যে রেখেছে সে ওসিকে খবর দিয়েছে: গয়েশ্বর

পূজামণ্ডপে কোরআন যে রেখেছে সে ওসিকে খবর দিয়েছে: গয়েশ্বর

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

ফরিদপুরে নির্বাচনি সহিংসতায় যুবক নিহত, ৫০ বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

ফরিদপুরে নির্বাচনি সহিংসতায় যুবক নিহত, ৫০ বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ

রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যায় আজিজুলের দায় স্বীকার

রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যায় আজিজুলের দায় স্বীকার

হেফাজতের সহিংসতার মামলায় বিএনপি নেতা রিমান্ডে

হেফাজতের সহিংসতার মামলায় বিএনপি নেতা রিমান্ডে

মুহিবুল্লাহকে হত্যার নির্দেশ দিয়েছিল রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের শীর্ষ নেতারা

মুহিবুল্লাহকে হত্যার নির্দেশ দিয়েছিল রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের শীর্ষ নেতারা

ধর্ষণের ‘শাস্তি’ ১ লাখ ২৫ হাজার টাকা জরিমানা!

ধর্ষণের ‘শাস্তি’ ১ লাখ ২৫ হাজার টাকা জরিমানা!

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

২ মিনিটেই শেষ মুহিবুল্লাহ কিলিং মিশন, অংশ নেয় ১৯ জন

২ মিনিটেই শেষ মুহিবুল্লাহ কিলিং মিশন, অংশ নেয় ১৯ জন

সর্বশেষ

সামরিক প্রশিক্ষণ বাধ্যতামূলক করতে মোদিকে চিঠি

সামরিক প্রশিক্ষণ বাধ্যতামূলক করতে মোদিকে চিঠি

ভোটের পর রাজ্যের মর্যাদা ফিরে পাবে কাশ্মির: অমিত শাহ

ভোটের পর রাজ্যের মর্যাদা ফিরে পাবে কাশ্মির: অমিত শাহ

ধর্মীয় সম্প্রীতিতে বাংলাদেশ বিশ্বে নাম্বার ওয়ান: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ধর্মীয় সম্প্রীতিতে বাংলাদেশ বিশ্বে নাম্বার ওয়ান: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনা সাজানো: ইনু

পূজামণ্ডপে কোরআন রাখার ঘটনা সাজানো: ইনু

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

শিশুকে ধর্ষণের পর হত্যার অভিযোগে গ্রেফতার ১

© 2021 Bangla Tribune