X
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

সবজি দেখলেই ঘামেন তিনি!

আপডেট : ১৩ অক্টোবর ২০২১, ২০:৫২

মারাত্মক খাদ্য ভীতিতে (ফুড ফোবিয়া) ভোগা ইংল্যান্ডের এক নারী জানিয়েছেন, শৈশব থেকে তিনি কখনোই সবজি খাননি। নর্থ ইয়র্কশায়ারের বাসিন্দা ৩৪ বছরের শার্লট হুইটল জানান, ব্রকলির একটা টুকরাই তার হাতের তালু ঘামার জন্য যথেষ্ট। বছরের পর বছর ধরে চিকেন নাগেট আর চালের পিঠা খেয়েই বেঁচে আছেন শার্লট।

শৈশবে শার্লটের বাবা-মা তাকে প্রায়ই বলতেন রাতের খাবার শেষ না করলে ক্ষুধার্ত থাকতে হবে। তবে খেতে ইচ্ছা না করা কোনও কিছু খেলে টেবিলেই বমি করে দিতেন তিনি। আর এভাবেই সস মেশানো খাবার, একসঙ্গে কয়েকটি খাবার মেশানো, পাতলা তরল খাবারের প্রতি ভীতি তৈরি হয় তার।

মা জুডি ভাবতেন সময় গেলেই এই ভয় দূর হয়ে যাবে। সেকারণেই শার্লটকে তিনি ‘নিরাপদ’ খাবার যেমন হটডগ, চিকেন নাগেট কিংবা ফিশ ফিঙ্গার খেতে দিতেন। স্কুলে দুপুরের খাবারের সময় প্লেটের খাবার শেষ করতে বলা হলে কান্নাকাটি শুরু করে দিতেন শার্লট হুইটল।

১৮ বছর বয়সে চাকরি পেয়ে বাড়ি ছাড়েন শার্লটন। তার চাকরিদাতা কর্মীদের জন্য রান্না করতেন। তার খাবার পছন্দ নিয়ে হাসাহাসি করতো সহকর্মীরা। পরে তিনি নিজের খাবার নিজেই তৈরি করে নেওয়ার অনুরোধ করেন।

শার্লট হুইটল বলেন, ‘এমনকি ভুল তাপমাত্রার খাবার কিংবা ভুলভাবে সরবরাহ খাবারেও পেটে সমস্যা হতো। আমি টমেটো স্যুপ খাই, কিন্তু তা কেবল বাটিতে- কোনও মগে নয়।’

সামাজিক জীবনেও প্রভাব ফেলে শার্লটের এই খাবার ভীতি। ডেট করতে গেলে প্রায়ই খাবার খেতে হয় বলে তাও এড়িয়ে চলতে থাকেন তিনি।

সম্প্রতি শার্লট হুইটল একটি টিভি শোতে যোগ দেন। এক্সট্রিম ফুড ফোবিক নামের এই শো উপস্থাপক ড. রাজ সিং তাকে জানান যে তিনি মারাত্মক ভিটামিন সি ঘাটতিতে ভুগতে পারেন। এর কারণে ক্লান্তি, মাড়িতে রক্তক্ষরণ এবং মেজাজ খারাপ হতে পারে। ওই শোতে ক্লিনিক্যাল সাইকোলোজিস্ট ফেলিক্স ইকোনোমেকিস তাকে জানান যে, তার ধারণা শার্লট সম্ভবত অ্যাভয়ডেন্ট রেস্ট্রিক্টিভ ফুড ইনটেক ডিজঅর্ডারে (এআরএফআইডি) ভুগছেন।

ওই শোয়ের পর থেকে শার্লট সস এবং আঙুর দিয়ে পাস্তা খাওয়ার চেষ্টা করছেন। এছাড়া পিজা আর ভুট্টাও খাদ্য তালিকায় যোগ করতে পেরেছেন তিনি।

বর্তমানে প্রতি সপ্তাহে নতুন একটি খাবার তালিকায় যোগ করার চেষ্টা করছেন শার্লট হুইটল। তিনি বলেন, ‘আমি এখন প্রথম সবজি খাচ্ছি- মিষ্টি আলু। আমার স্বপ্ন হলো বন্ধুদের সঙ্গে খেতে যাওয়া আর খাবার নিয়ে কোনও ভীতি ছাড়াই ডেটে যাওয়া। আশা করি সে পর্যন্ত পৌঁছাতে পারবো।’

/জেজে/

সম্পর্কিত

এম‌পি খুনে সন্দেহে জ‌ঙ্গিবাদ, মুসলিম কমিউনিটিতে উদ্বেগ

এম‌পি খুনে সন্দেহে জ‌ঙ্গিবাদ, মুসলিম কমিউনিটিতে উদ্বেগ

ব্রিটিশ এমপি হত্যাকাণ্ড ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’ : পুলিশ

ব্রিটিশ এমপি হত্যাকাণ্ড ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’ : পুলিশ

ব্রিটে‌নে এম‌পি খুন, বাংলাদেশি ক‌মিউ‌নি‌টি‌তে উ‌দ্বেগ

ব্রিটে‌নে এম‌পি খুন, বাংলাদেশি ক‌মিউ‌নি‌টি‌তে উ‌দ্বেগ

৪৩ হাজার মানুষকে করোনার ভুয়া রিপোর্ট প্রদান!

৪৩ হাজার মানুষকে করোনার ভুয়া রিপোর্ট প্রদান!

এম‌পি খুনে সন্দেহে জ‌ঙ্গিবাদ, মুসলিম কমিউনিটিতে উদ্বেগ

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৬:৩৭

যুক্তরাজ্যে এম‌পি খুনের ঘটনার সঙ্গে জ‌ঙ্গিবাদের সম্পর্ক রয়েছে। পুলিশের এমন সন্দেহের খবরে দেশটির মুস‌লিম ক‌মিউনিটিতে নতুন করে উদ্বেগ ছড়িয়ে পড়েছে।

শুক্রবার দুপুরে নির্বাচনি এলাকার ভোটারদের সঙ্গে বৈঠককালে ছুরিকাঘাতে নিহত হন ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির এমপি ডেভিড অ্যামেস। এ ঘটনায় ছুরিসহ আটক হওয়া ঘাতক ২৫ বছরের সোমালীয় বংশোদ্ভূত এক ব্রিটিশ না‌গ‌রিককে শুক্রবার ঘটনার পরপরই গ্রেফতার করে পুলিশ। তবে শ‌নিবার সকালে তার প‌রিচয় প্রকাশ করা হয়। এদিন এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় মুসলিম জঙ্গিদের সংশ্লিষ্টতার কথা জানায় পুলিশ।

ব্রিটিশ সরকারের গোয়েন্দা সংস্থাগুলো দেশটিতে জঙ্গি হামলার শঙ্কার কথা জানান দি‌চ্ছিল। এর মধ্যেই একজন পার্লামেন্টারিয়ানের হত্যার ঘটনায় মুস‌লিম জঙ্গিবাদের সং‌শ্লিষ্টতার খবরকে উদ্বেগজনক হিসেবে দেখছেন মুসলিম ক‌মিউ‌নি‌টির নেতারা।

যুক্তরাজ্যে মুসলিমদের সংখ্যা ক্রমেই বাড়ছে। ৩০ লাখের বেশি মুসলিমের মধ্যে অন্তত সাত লাখই বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত।

সাউথ লন্ডনের লেবার পা‌র্টির প্রবীণ নেতা মোহাম্মদ ইসলাম। এবার তি‌নি ক্রয়োডন কাউন্সিলে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। শনিবার সকালে বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, এই ঘটনা নিঃসন্দেহে ব্রিটিশ মুসলিমদের বিপাকে ফেলবে। যুক্তরাজ্যের মুসলিম কমিউনিটিতে এই মুহূর্তে বাংলাদেশিরা নানা সেক্টরে নেতৃত্ব দিচ্ছে। সেই সময়ে এই ঘটনা নিঃসন্দেহে আমাদের জন্য উদ্বেগের।

এই ঘটনায় যুক্তরাজ্যে ইউকিপ, উগ্র ডানপন্থী ব্রিটিশ ন্যাশনাল পার্টির মতো বর্ণবাদী দলগুলো সুযোগ পাবে। অতীতের ঘটনাগুলো পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, এ ধরনের কোনও জঙ্গি হামলার পর যুক্তরাজ্যে হেট ক্রাইম বা বিদ্বেষমূলক অপরাধ বেড়ে যায়। আর এসবের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হন মুসলিমরা। বিশেষ করে দা‌ড়িওয়াল‌া মানুষ, হিজাব প‌রি‌হিতা মুস‌লিম নারীরা হামলার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হন।

মোহাম্মদ ইসলাম বলেন, ইসলাম সব সময় সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে। এই সত‌্যকে ধারণের পাশাপা‌শি আমাদের সন্তানদের প্রজন্মকে জ‌ঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সচেতন করে তুলতে হবে।

বাংলাদেশি ক‌মিউ‌নি‌টির বর্ষীয়ান সাংবা‌দিক, লেখক ড. রেনু লুৎফা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, পৃথিবীতে মুসলমানদের খুবই খারাপ সময় যাচ্ছে। প্রধান কারণ হলো অশিক্ষা ও কুশিক্ষা। সন্দেহ নেই এই ঘটনা ব্রিটিশ মুসলিমদের বেকায়দায় ফেলবে। তবে নিরাপত্তার জন্য এখন ব্রিটিশ সরকার যে আইন করবে তাতে মুসলমানদের আলাদা করে উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনও কারণ আছে বলে মনে হয় না।  মিডিয়া একে মুসলিম নাম দেবে। কিন্তু উগ্রবাদীর কোনও ধর্ম নেই। যেমন এম‌পি জো কক্সের হত্যাকারীরও ছিল না। ব্রিটিশ মুসলমানদের উচিৎ, এই অপরাধী ও অপরাধের বিরুদ্বে কথা বলা, জনমত গঠনে কাজ করা।

/এমপি/

সম্পর্কিত

ব্রিটিশ এমপি হত্যাকাণ্ড ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’ : পুলিশ

ব্রিটিশ এমপি হত্যাকাণ্ড ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’ : পুলিশ

ব্রিটে‌নে এম‌পি খুন, বাংলাদেশি ক‌মিউ‌নি‌টি‌তে উ‌দ্বেগ

ব্রিটে‌নে এম‌পি খুন, বাংলাদেশি ক‌মিউ‌নি‌টি‌তে উ‌দ্বেগ

৪৩ হাজার মানুষকে করোনার ভুয়া রিপোর্ট প্রদান!

৪৩ হাজার মানুষকে করোনার ভুয়া রিপোর্ট প্রদান!

ছুরিকাঘাতে নিহত ব্রিটিশ এমপি

ছুরিকাঘাতে নিহত ব্রিটিশ এমপি

আইনের শাসন সূচকে বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান ১২৪

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৬:০৫

বিশ্বে ১৩৯ দেশের আইনের শাসন সূচকে একধাপ এগিয়েছে বাংলাদেশ। নতুন সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান বিশ্বে ১২৪। গত বছর বৈশ্বিক আইনের শাসন সূচকে বাংলাদেশের স্কোর ছিল ০.৪১, এ বছর কমে দাঁড়িয়েছে ০.৪০-এ। আর দক্ষিণ এশিয়ায় বাংলাদেশের অবস্থান চতুর্থ।

তালিকায় নেপালের অবস্থান ৭০, শ্রীলঙ্কা ৭৬ এবং ভারত ৭৯ তম অবস্থানে। তলানিতে থাকা পাকিস্তান ১৩৪ এবং আফগানিস্তান ১৩০-এ। বৃহস্পতিবার ওয়ার্ল্ড জাস্টিস প্রজেক্ট রুল অব ল ইনডেক্সের প্রকাশিত সূচকে এমন তথ্য উঠে এসেছে। 

সংস্থাটি ২০০৬ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে আইনের শাসনের সূচক প্রকাশ করে আসছে। ডব্লিউজেপির সূচকে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতিতে বৈশ্বিকভাবে শীর্ষে অবস্থান করছে ইউরোপের স্ক্যান্ডিনেভীয় অঞ্চলের তিন দেশ নরওয়ে, ডেনমার্ক ও ফিনল্যান্ড। অপরদিকে, সর্বনিম্নে অবস্থানকারী তিন দেশ হলো গণপ্রজাতন্ত্রী কঙ্গো, কম্বোডিয়া এবং ভেনেজুয়েলা।

আটটি বিষয় বিবেচনায় নিয়ে আইনের শাসনের এই সূচক করে ডব্লিউজেপি। এগুলোর মধ্যে সরকারি ক্ষমতা, সরকারি উন্মুক্ততা, দুর্নীতি, মৌলিক অধিকার, আদেশ ও নিরাপত্তা, নিয়ন্ত্রণ প্রয়োগ এবং ফৌজদারি ও নাগরিক বিচার ব্যবস্থার সীমাবদ্ধতা। মোট ৪৪টি বিষয় দেখা হয় এখানে।

সূচকে এসেছে, আইনের শাসন সংক্রান্ত বিষয়ে ‘অর্ডার অ্যান্ড সিকিউরিটি’ বিভাগে ভালোভাবে কাজ করেছে বাংলাদেশ। এ সম্পর্কে ডব্লিউজেপি জানিয়েছে, বাংলাদেশ কার্যকরভাবে অপরাধ নিয়ন্ত্রণে সক্ষম হয়েছে। এমনিক অভ্যন্তরীণ সংঘাত বেশ ভালোভাবে নিয়ন্ত্রণে এসেছে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে।

/এলকে/

সম্পর্কিত

কৃষক আন্দোলন: হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সামনে ব্যাপক সংঘর্ষ

কৃষক আন্দোলন: হরিয়ানার মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সামনে ব্যাপক সংঘর্ষ

মৃত্যুদণ্ড বাতিল করছে সিয়েরা লিওন

মৃত্যুদণ্ড বাতিল করছে সিয়েরা লিওন

উইঘুর মুসলিম নির্যাতন, চীনের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর পদক্ষেপ

উইঘুর মুসলিম নির্যাতন, চীনের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর পদক্ষেপ

নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা প্রতিরোধের চুক্তি থেকে বেরিয়ে গেলো তুরস্ক

নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতা প্রতিরোধের চুক্তি থেকে বেরিয়ে গেলো তুরস্ক

ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো বালি দ্বীপ, নিহত ৩

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৫৪

ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো ইন্দোনেশিয়ার বালি দ্বীপ। মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থার তথ্যমতে, রিখটার স্কেলে ভূমিকম্পের মাত্রা ছিল ৪ দশমিক ৮। শনিবার ভোরে আঘাত হানা ভূমিকম্পে এখন পর্যন্ত ৩ জন নিহত হয়েছেন। 

ভূমিকম্পের কারণে দ্বীপের অনেকে আতঙ্কে রাস্তা নেমে আসেন। ভূমিকম্পটির কেন্দ্র ছিল বালির বন্দর শহর সিংগারাজা থেকে ৬২ কিলোমিটার উত্তরপূর্বাঞ্চলে। গভীরতা ছিল ১০ কিলোমিটার। বেশ কয়েকবার আফটার শক অনুভূত হয়। আঘাত হানায় বাড়ি-ঘর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ধ্বংস্তূপে চাপা পড়া গুরুতর আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে উদ্ধার কাজ শুরু করেছে জরুরি বিভাগ।

মাত্র দু’দিন আগেই পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত হয়েছে বালি দ্বীপ। এর মধ্যেই জনপ্রিয় ওই দ্বীপে ভূমিকম্প আঘাত হানলো। গত জানুয়ারিতে ইন্দোনেশিয়ায় ৬ দশমিক ২ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পের আঘাতে শতাধিক মানুষের মৃত্যু হয়। 

/এলকে/

সম্পর্কিত

ইন্দোনেশিয়ায় নদীতে ডুবে ১১ শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ইন্দোনেশিয়ায় নদীতে ডুবে ১১ শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ব্রিটিশ এমপি হত্যাকাণ্ড ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’ : পুলিশ

ব্রিটিশ এমপি হত্যাকাণ্ড ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’ : পুলিশ

পরপর তিনটি বিস্ফোরণ ঘটে আফগানিস্তানের শিয়া মসজিদে

পরপর তিনটি বিস্ফোরণ ঘটে আফগানিস্তানের শিয়া মসজিদে

বৈরুতে সহিংসতা মেনে নেওয়া যায় না : যুক্তরাষ্ট্র

বৈরুতে সহিংসতা মেনে নেওয়া যায় না : যুক্তরাষ্ট্র

কাবুলে ড্রোন হামলায় নিহতদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণের প্রস্তাব ওয়াশিংটনের

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৪:২৪

কাবুলে মার্কিন ড্রোন হামলায় নিহত ১০ আফগানের স্বজনদের আর্থিক ক্ষতিপূরণের প্রস্তাব দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এছাড়া ভুক্তভোগীরা যদি যুক্তরাষ্ট্রে স্থানান্তরিত হতে চান তাদের সর্বোচ্চ সহায়তারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ওয়াশিংটন। শুক্রবার এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন মার্কিন প্রতিরক্ষা দফতর পেন্টাগনের মুখপাত্র জন কিরবি।

পেন্টাগন জানায়, ক্ষতিগ্রস্তদের সব ধরনের সহায়তা দেওয়া হবে। বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের আন্ডার সেক্রেটারি কলিন কাহল ও আফগানিস্তানে সহায়তাকারী প্রতিষ্ঠানের প্রধান স্টিভেন কোওনের বৈঠকে সহায়তারও বিষয়টি উঠে আসে।

গত ২৬ আগস্ট কাবুল বিমানবন্দর দিয়ে যখন উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছিল তখন আত্মঘাতী বোমা হামলা চালায় আফগান আইএস। এতে মার্কিন সেনাসহ ১৭০ জনের বেশি মানুষ প্রাণ হারান। প্রতিশোধ নিতে যুক্তরাষ্ট্র ২৯ আগস্ট কাবুলে ড্রোন অভিযান পরিচালনা করলে শিশুসহ ১০ বেসামরিক নিহত হন।

পরবর্তীতে সামরিক বাহিনীর সেন্ট্রাল কমান্ডের তদন্তে উঠে আসে, আফগান আইএস-এর আত্মঘাতী হামলাকারীকে হত্যার উদ্দেশে চালানো ড্রোন হামলাটি ভুলবশত বেসামরিকদের টার্গেট করা হয়। এমন ঘটনাকে ‘মর্মান্তিক ভুল’ অ্যাখা দেন মার্কিন জেনারেল ম্যাকেঞ্জি।

/এলকে/

সম্পর্কিত

মসজিদে হামলার দায় স্বীকার আইএসের, নিহত বেড়ে ৪৭

মসজিদে হামলার দায় স্বীকার আইএসের, নিহত বেড়ে ৪৭

যুক্তরাষ্ট্রে মাঠে খেলা চলাকালীন গুলি, আহত একাধিক

যুক্তরাষ্ট্রে মাঠে খেলা চলাকালীন গুলি, আহত একাধিক

যুদ্ধের মূল্য দিতে হচ্ছে ‘বিয়ে’ করে

যুদ্ধের মূল্য দিতে হচ্ছে ‘বিয়ে’ করে

মার্কিন ডেস্ট্রয়ারকে তাড়িয়ে দেওয়ার দাবি রাশিয়ার

মার্কিন ডেস্ট্রয়ারকে তাড়িয়ে দেওয়ার দাবি রাশিয়ার

ইন্দোনেশিয়ায় নদীতে ডুবে ১১ শিক্ষার্থীর মৃত্যু

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৩:২৯

নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ইন্দোনেশিয়ার ওয়েস্ট জাভা প্রদেশে নদীতে পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালাতে গিয়ে পানিতে ডুবে ১১ শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার স্থানীয় প্রশাসন জানিয়েছে, ১৩ থেকে ১৫ বছর বয়সী দেড়শ’ শিক্ষার্থী নদীর আবর্জনা অপসারণে অংশ নেয়। এদের মধ্যে ২১ জন পানিতে পড়ে গেলে ১১ শিক্ষার্থী মারা যায়। আশঙ্কাজনক অবস্থায় দুইজন হাসপাতলে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় খবরে বলা হয়েছে, শিক্ষার্থীরা সবাই স্কাউট দলের সদস্য। খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে আসে উদ্ধারকারী দল। দশজনকে জীবিত উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। উদ্ধার তৎপরতায় স্থানীয়রাও অংশ নেন। শুক্রবার রাতে উদ্ধার অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়।

স্বজনদের আহাজারি

ইন্দোনেশিয়ায় নভেম্বর মাসের শেষের দিকে বর্ষাকালে শিশু কিশোরদের নদীতে ভ্রমণ পুরোপুরি নিষিদ্ধ। কিন্তু দুর্যোগ প্রশমন সংস্থার আনুষ্ঠানিক সতর্কতার সত্বেও নদীতে পরিষ্কার অভিযানে যায় শিক্ষার্থীরা।

এই ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখতে ইতোমধ্যে তদন্ত শুরু করেছে প্রশাসন। ১১ শিক্ষার্থী মৃত্যুতে ইন্দোনেশিয়াজুড়ে শোক নেমে এসেছে। এর আগে, গত বছরে ফেব্রুয়ারিতে আকস্মিক বন্যায় ১০ শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়।

/এলকে/

সম্পর্কিত

ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো বালি দ্বীপ, নিহত ৩

ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো বালি দ্বীপ, নিহত ৩

ইন্দোনেশিয়ার মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গি নেতা অভিযানে নিহত

ইন্দোনেশিয়ার মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গি নেতা অভিযানে নিহত

জাকার্তার বায়ু দূষণ রোধে ব্যবস্থা নেননি ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট: আদালত

বায়ু দূষণ মামলায় ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে যুগান্তকারী রায়

কারাগারে অগ্নিকাণ্ডে ইন্দোনেশিয়ায় অন্তত ৪১ জনের মৃত্যু

ইন্দোনেশিয়ার কারাগারে আগুন, অন্তত ৪১ জনের মৃত্যু

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

এম‌পি খুনে সন্দেহে জ‌ঙ্গিবাদ, মুসলিম কমিউনিটিতে উদ্বেগ

এম‌পি খুনে সন্দেহে জ‌ঙ্গিবাদ, মুসলিম কমিউনিটিতে উদ্বেগ

ব্রিটিশ এমপি হত্যাকাণ্ড ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’ : পুলিশ

ব্রিটিশ এমপি হত্যাকাণ্ড ‘সন্ত্রাসী ঘটনা’ : পুলিশ

ব্রিটে‌নে এম‌পি খুন, বাংলাদেশি ক‌মিউ‌নি‌টি‌তে উ‌দ্বেগ

ব্রিটে‌নে এম‌পি খুন, বাংলাদেশি ক‌মিউ‌নি‌টি‌তে উ‌দ্বেগ

৪৩ হাজার মানুষকে করোনার ভুয়া রিপোর্ট প্রদান!

৪৩ হাজার মানুষকে করোনার ভুয়া রিপোর্ট প্রদান!

ছুরিকাঘাতে নিহত ব্রিটিশ এমপি

ছুরিকাঘাতে নিহত ব্রিটিশ এমপি

ব্রিটিশ এমপিকে একাধিক ছুরিকাঘাত

ব্রিটিশ এমপিকে একাধিক ছুরিকাঘাত

সশরীরে জলবায়ু সম্মেলনে থাকছেন না চীনা প্রেসিডেন্ট

সশরীরে জলবায়ু সম্মেলনে থাকছেন না চীনা প্রেসিডেন্ট

মহামারি ঠেকাতে যুক্তরাজ্যের পদক্ষেপ ‘ইতিহাসের বড় ব্যর্থতা’

মহামারি ঠেকাতে যুক্তরাজ্যের পদক্ষেপ ‘ইতিহাসের বড় ব্যর্থতা’

ব্রিটেনে করোনার বুস্টার ডোজ নিচ্ছেন প্রবীণরা

ব্রিটেনে করোনার বুস্টার ডোজ নিচ্ছেন প্রবীণরা

থুনবার্গের হতাশা বুঝতে পারছেন প্রিন্স চার্লস

থুনবার্গের হতাশা বুঝতে পারছেন প্রিন্স চার্লস

সর্বশেষ

ষড়যন্ত্রকারীরা মন্দিরে কোরআন শরীফ রেখেছিল: খন্দকার মোশারফ

ষড়যন্ত্রকারীরা মন্দিরে কোরআন শরীফ রেখেছিল: খন্দকার মোশারফ

সরকারের সঙ্গে আলেমদের কোনও বিরোধ নেই: মাওলানা হাসান

সরকারের সঙ্গে আলেমদের কোনও বিরোধ নেই: মাওলানা হাসান

ঢাকার ফুটপাতে খাবার থাকে না ঢাকা (ফটো স্টোরি)

বিশ্ব খাদ্য দিবস ঢাকার ফুটপাতে খাবার থাকে না ঢাকা (ফটো স্টোরি)

এম‌পি খুনে সন্দেহে জ‌ঙ্গিবাদ, মুসলিম কমিউনিটিতে উদ্বেগ

এম‌পি খুনে সন্দেহে জ‌ঙ্গিবাদ, মুসলিম কমিউনিটিতে উদ্বেগ

দুই সন্তানসহ স্ত্রীর লাশ উদ্ধার, স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা

দুই সন্তানসহ স্ত্রীর লাশ উদ্ধার, স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা

© 2021 Bangla Tribune