X
সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

এটা কেমন সেবা?

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১২:১৬

জন্ম নিবন্ধনের ফরম পূরণ করে জমা দিলে একটা সিরিয়াল নম্বর ও সনদ গ্রহণের তারিখ দিয়ে দেওয়া হয়। সেই নিয়ম মেনে সনদ পাওয়ার নির্ধারিত তারিখের পরের দিন নির্দিষ্ট কক্ষে গিয়ে সালমা আখতার পড়েন অকুল পাথারে। কার কাছ থেকে সনদ পাবেন তা জানতেই লেগে যায় আধাঘণ্টা। তিনি যে তথ্যটা কারোর কাছে জানতে চাইবেন,সেই উপায়ও নেই।

এই করোনা মহামারির মধ্যে সব নিয়ম ভেঙে প্রতিটা টেবিলে কর্মকর্তাকে ঘিরে দাঁড়িয়ে আছেন জনা-পঞ্চাশেক মানুষ। আধাঘণ্টা পর সালমা জানতে পারেন— সনদ এখনও প্রস্তুত হয়নি। তাকে যেতে হবে কম্পিউটার রুমে। সেখানে গিয়ে বাধে আরেক গোল। নতুন সনদ নয়,তিনি তার সন্তানের হারিয়ে যাওয়া সনদ তোলার জন্য এসেছেন বলে অবহিত করলেও তাকে কেউ কোনও তথ্য দিতে পারলো না। এমনকি এখন করণীয় কী সেটাও একেকজন একেক রকম করে জানাতে থাকে। কেউ বলে আবেদন করার পর মোবাইল ফোনে একটি এসএমএস আসার কথা। সেটি না এলে সনদ পাবেন না। কেউ বলে,এখন অপেক্ষা করা ছাড়া কিছু করার নেই,বা কার কাছে জমা দিয়েছিলেন, তার সঙ্গে যোগাযোগ করে আবেদনটি খুঁজে বের করার ব্যবস্থা করতে হবে। ততক্ষণে পাশাপাশি দুই ঘরে এঘর-ওঘর করতে করতে দেড়ঘণ্টা পার হয়ে গেছে সালমার।

গৃহকর্মী রোমেনা এসেছেন জন্ম সনদ নিতে চতুর্থ দিনের মতো। কাজ থেকে ছুটি নিয়ে বারবার একই কাজে আসতে হচ্ছে বলে ক্ষোভ ঝাড়ছেন একা এক কোনে দাঁড়িয়ে। এই প্রতিবেদক তাকে ক্ষোভের জিজ্ঞেস করায় তিনি বলেন, ‘কেউ বলছে না কেন আমার নিবন্ধনের কাগজ হচ্ছে না। কার কাছি জিগামো। খালি বলে তিন দিন পরে আসেন। কত তিন দিন গেলো। আজগে বলেছি, এরপর ‍ঘুরাইলে বুঝবে।’

১৩ অক্টোবর বুধবার মিরপুর ১০ নম্বরে অবস্থিত জন্ম নিবন্ধন অফিসে গিয়ে দেখা গেলো হয়রানির নানা চিত্র। কোন জায়গায় গেলে কাজটা হবে সেটা জানানোরও কেউ নেই। কেউ সনদের খোঁজ করলে তাকে প্রস্তুত হওয়া শ’খানেক ফাইল ধরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। একের পর এক ব্যক্তি সেই ফাইলের সনদ ঘেটে দেখার কারণে প্রস্তুত হওয়া বেশ কয়েকটি সনদের কোনা ছিড়ে যেতে দেখা গেছে।

কাজটি কি এতটি জটিল? নিয়ম বলছে, নিবন্ধক কার্যালয়ের জন্য আপনার জন্মস্থান বা স্থায়ী ঠিকানা, বিভাগ, জেলা, প্রভৃতি ধাপ পার হয়ে ওয়ার্ড পর্যন্ত নির্বাচন করতে হবে। অনলাইনে জন্ম নিবন্ধনের আবেদন ফরম প্রথমে বাংলায় (ইউনিকোড) ও পরবর্তীতে ইংরেজিতে পূরণের পর প্রয়োজনীয় সম্পাদনা করে সংরক্ষণ বাটনে ক্লিক করলেই আবেদন পত্রটি সংশ্লিষ্ট নিবন্ধক কার্যালয়ে স্থানান্তিরত হয়ে যাবে। আবেদনকারীর আর কোনও সংশোধনের সুযোগ থাকবে না। অতঃপর পরবর্তী ধাপে প্রিন্ট বাটনে ক্লিক করলে আবেদন পত্রের মুদ্রিত কপি পাওয়া যাবে। সনদের জন্য ১৫ দিনের মধ্যে ওই আবেদন পত্রে নির্দেশিত প্রত্যয়ন সংগ্রহ করে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় প্রমাণপত্রের সত্যায়িত কপিসহ নিবন্ধক অফিসে যোগাযোগ করলেই মিলবে সনদ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মচারী বলেন, অনেক চাপ। একেক জনের একেক রকমের সমস্যা। তার ওপর আছে তদবির। বুথ সিস্টেম করে দিলে এবং সিরিয়াল অনুযায়ী সনদের কাজ করা গেলে হয়রানি কমবে।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম রেজা বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা সিটি করপোরেশন থেকে চেষ্টা করছি নিখুঁতভাবে সেবাটি দেওয়ার জন্য। কিন্তু নানা কারণে মাঠ পর্যায়ে অনেক সময় হয়ে ওঠে না। আমরা সেটা কভার করার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। কীভাবে সেবাটাকে আরও সহজ করা যায়, সেদিকে নজর দিচ্ছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা রেজিস্ট্রার জেনারেলের নীতিমালার বাইরে যেতে পারি না। আমরা প্রাণপণ চেষ্টা করছি জনগণের হয়রানিটা যাতে সর্বনিম্ন পর্যায়ে রাখা যায়।’

/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

নিরাপদ সড়ক ও  হাফ পাসের দাবিতে মোমবাতি প্রজ্বালন

নিরাপদ সড়ক ও  হাফ পাসের দাবিতে মোমবাতি প্রজ্বালন

তথ্য প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য নারীবিদ্বেষী:আইন ও সালিশ কেন্দ্র

তথ্য প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য নারীবিদ্বেষী:আইন ও সালিশ কেন্দ্র

ঘুষ নিতে গিয়ে দুদকের ফাঁদে ধরা

ঘুষ নিতে গিয়ে দুদকের ফাঁদে ধরা

পরিবেশ দূষণ: সাত প্রতিষ্ঠানকে ৩৬ লাখ টাকা জরিমানা

পরিবেশ দূষণ: সাত প্রতিষ্ঠানকে ৩৬ লাখ টাকা জরিমানা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

নিরাপদ সড়ক ও  হাফ পাসের দাবিতে মোমবাতি প্রজ্বালন

নিরাপদ সড়ক ও  হাফ পাসের দাবিতে মোমবাতি প্রজ্বালন

তথ্য প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য নারীবিদ্বেষী:আইন ও সালিশ কেন্দ্র

তথ্য প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য নারীবিদ্বেষী:আইন ও সালিশ কেন্দ্র

ঘুষ নিতে গিয়ে দুদকের ফাঁদে ধরা

ঘুষ নিতে গিয়ে দুদকের ফাঁদে ধরা

পরিবেশ দূষণ: সাত প্রতিষ্ঠানকে ৩৬ লাখ টাকা জরিমানা

পরিবেশ দূষণ: সাত প্রতিষ্ঠানকে ৩৬ লাখ টাকা জরিমানা

শিক্ষা ক্যাডারের ১২০ কর্মকর্তাকে বদলি

শিক্ষা ক্যাডারের ১২০ কর্মকর্তাকে বদলি

অবৈধ সম্পদ অর্জন: স্ত্রীসহ তিতাস কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা

অবৈধ সম্পদ অর্জন: স্ত্রীসহ তিতাস কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা

কারিকুলামে বাল্যবিয়ে রোধ অন্তর্ভুক্ত করা হবে: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

কারিকুলামে বাল্যবিয়ে রোধ অন্তর্ভুক্ত করা হবে: গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

ঘূর্ণিঝড়ের মাঝেই যেভাবে উদ্ধার হলেন ১৩ জেলে

ঘূর্ণিঝড়ের মাঝেই যেভাবে উদ্ধার হলেন ১৩ জেলে

বঙ্গোপসাগরে ভাসতে থাকার পাঁচ দিন পর ১৩ জেলে উদ্ধার

বঙ্গোপসাগরে ভাসতে থাকার পাঁচ দিন পর ১৩ জেলে উদ্ধার

ভুটান ও ভারতের ঐতিহাসিক স্বীকৃতি স্মরণে ডাকটিকিট অবমুক্ত

ভুটান ও ভারতের ঐতিহাসিক স্বীকৃতি স্মরণে ডাকটিকিট অবমুক্ত

সর্বশেষ

৪ ডাইং কারখানার মালিকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

৪ ডাইং কারখানার মালিকের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান

পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান

স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা, ১২ ঘণ্টার মধ্যে চার্জশিট দিলো পুলিশ 

স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা, ১২ ঘণ্টার মধ্যে চার্জশিট দিলো পুলিশ 

মাদককারবারিরা প্রদীপকে ফাঁসিয়েছেন: রানা দাশগুপ্ত

মাদককারবারিরা প্রদীপকে ফাঁসিয়েছেন: রানা দাশগুপ্ত

বাংলাদেশ-ভারত অমীমাংসিত বিষয় নিষ্পন্ন করার তাগিদ

বাংলাদেশ-ভারত অমীমাংসিত বিষয় নিষ্পন্ন করার তাগিদ

© 2021 Bangla Tribune