X
বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

বৃষ্টি উপেক্ষা করে সোনাপাহাড়ে ৩ জনের জানাজায় হাজারো মানুষ

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫৫

আলোচিত ট্রিপল মার্ডারের ঘটনায় নিহত মো. মোস্তফা ওরফে মোস্তফা সওদাগর (৫৬), স্ত্রী জোস্না আরা (৪৫) ও মেঝো ছেলে আহমেদ হোসেনের (২৫) জানাজায় বৃষ্টি উপেক্ষা করে হাজারো মানুষ অংশ নিয়েছেন। শুক্রবার (১৫ অক্টোবর) রাতে উপজেলার জোরারগঞ্জ ইউনিয়েনের মধ্যম সোনাপাহাড় গ্রামে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এর আগে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে থেকে ময়নাতদন্ত শেষে লাশ গ্রামে এসে পৌঁছায়।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার বিকাল থেকেই আকাশ ছিল মেঘাচ্ছন্ন। সন্ধ্যা পেরিয়ে রাত যখন আটটা তখন জানাজার পূর্ব মুহূর্তে বিদ্যুৎ চমকানির সঙ্গে নামে মুষলধারে বৃষ্টি। এ অবস্থায় তিনটি খাটিয়ায় জানাজাস্থলে পৌঁছে বাবা, মা আর ছেলের লাশ। নিহত মোস্তফা সওদাগর ও তার ছেলে আহমদ হোসেন স্থানীয় সোনাপাহাড় গ্রামের জোরারগঞ্জ বাজারে মুদি দোকানি ছিলেন। এ কারণে এলাকায় সর্বমহলে পরিচিত ছিলেন তারা। জানাজায় অংশ নেওয়া সবার একটাই দাবি ছিল ঘাতক সাদেক হোসেনের যেন সর্বোচ্চ শাস্তি হয়। বৃষ্টি উপেক্ষা করে জানাজায় হাজারো মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

সোনাপাহাড় গ্রামের বাসিন্দা জহিরুল হক বলেন, আমার বয়সে একসঙ্গে তিন জনের জানাজা পড়া হয়নি। আমাদের গ্রামেও তিন জনের জানাজা একসঙ্গে কখনও হয়নি। তাও আবার একই পরিবারের। সামান্য সম্পত্তির জন্য আপন ছেলের হাতে বাবা, মা আর সহোদর ভাইয়ের হত্যা মেনে নেওয়ার মতো না।

প্রসঙ্গত, বুধবার (১৩ অক্টোবর) দিবাগত রাত ৩টায় জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের মধ্যম সোনাপাহাড় গ্রামের মোস্তফা সওদাগরের বাড়িতে মো. মোস্তফা মিয়া, স্ত্রী জোস্না আরা ও তাদের ছেলে আহম্মদ হোসেনকে জবাই করে হত্যা করার অভিযোগ উঠে বড় ছেলে সাদেক হোসেনের বিরেুদ্ধ। বসত বাড়ির ১২ শতক জমির মধ্যে চার শতক জমি মেঝো ভাই আহমদ হোসেনকে রেজিস্ট্রি করে দেওয়ায় বাবা মোস্তফা ও মা জোস্না আরার সঙ্গে প্রায়ই ঝগড়া হতো সাদেক হোসেনের। এছাড়া তার স্ত্রী আইনুর নাহারকেও বিভিন্নভাবে নির্যাতন করা নিয়ে বাবা, মা আর ভাইয়ের প্রতি ক্ষোভ ছিল সাদেকের। এদিকে বাবা, মা ও ভাইকে হত্যার ঘটনায় বড় ভাই সাদেক হোসেনকে আসামি করে জোরারগঞ্জ থানায় মামলা করেছে ছোট বোন জুলেখা। হত্যা মামলায় সাদেক হোসেনকে আদালতে পাঠানোর পর শুক্রবার সন্ধ্যায় সে ১৬৪ ধারায় হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে স্বীকারোক্তি দেন।

/টিটি/

সম্পর্কিত

মাইলেজ জটিলতা নিরসনের দাবিতে রেলওয়ে কর্মীদের বিক্ষোভ

মাইলেজ জটিলতা নিরসনের দাবিতে রেলওয়ে কর্মীদের বিক্ষোভ

অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে চাইলে নৌকার জন্য কাজ করুন: আইভী

অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে চাইলে নৌকার জন্য কাজ করুন: আইভী

যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধ জাহাজ চট্টগ্রামে

যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধ জাহাজ চট্টগ্রামে

মুরাদ হাসানকে উপজেলা আ.লীগ থেকেও অব্যাহতি

মুরাদ হাসানকে উপজেলা আ.লীগ থেকেও অব্যাহতি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

মাইলেজ জটিলতা নিরসনের দাবিতে রেলওয়ে কর্মীদের বিক্ষোভ

মাইলেজ জটিলতা নিরসনের দাবিতে রেলওয়ে কর্মীদের বিক্ষোভ

অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে চাইলে নৌকার জন্য কাজ করুন: আইভী

অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে চাইলে নৌকার জন্য কাজ করুন: আইভী

যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধ জাহাজ চট্টগ্রামে

যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধ জাহাজ চট্টগ্রামে

মুরাদ হাসানকে উপজেলা আ.লীগ থেকেও অব্যাহতি

মুরাদ হাসানকে উপজেলা আ.লীগ থেকেও অব্যাহতি

পারিবারিক কলহের জেরে আড়াই মাসের শিশুকে হত্যা

পারিবারিক কলহের জেরে আড়াই মাসের শিশুকে হত্যা

অটোরিকশার চাকায় চাদর পেঁচিয়ে প্রাণ গেলো চালকের

অটোরিকশার চাকায় চাদর পেঁচিয়ে প্রাণ গেলো চালকের

ওএমএসের চাল-আটা বিক্রিতে অনিয়ম, লাখ টাকা দণ্ড

ওএমএসের চাল-আটা বিক্রিতে অনিয়ম, লাখ টাকা দণ্ড

অপহরণের পর চিৎকার করায় রাজকে হত্যা করে ফরিদুল

অপহরণের পর চিৎকার করায় রাজকে হত্যা করে ফরিদুল

বিশ্বের কোনও গণতন্ত্রই নিখুঁত নয়: শিক্ষামন্ত্রী

বিশ্বের কোনও গণতন্ত্রই নিখুঁত নয়: শিক্ষামন্ত্রী

৪৮ ঘণ্টায়ও উদ্ধার হয়নি চট্টগ্রামে খালে নিখোঁজ পথশিশু

৪৮ ঘণ্টায়ও উদ্ধার হয়নি চট্টগ্রামে খালে নিখোঁজ পথশিশু

সর্বশেষ

কোভিশিল্ড: উৎপাদন অর্ধেক কমাচ্ছে সেরাম

কোভিশিল্ড: উৎপাদন অর্ধেক কমাচ্ছে সেরাম

জেনারেল বিপিনের মৃত্যুতে শোক যুক্তরাষ্ট্রের

জেনারেল বিপিনের মৃত্যুতে শোক যুক্তরাষ্ট্রের

ফতুল্লায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গ্রেফতার ৫

ফতুল্লায় ডাকাতির প্রস্তুতিকালে গ্রেফতার ৫

অমলেট বানিয়ে ফেলুন এভাবে

অমলেট বানিয়ে ফেলুন এভাবে

প্রক্টর পরিচয়ে সাংবাদিককে হুমকি বহিষ্কৃত চবি ছাত্রলীগ কর্মীর

প্রক্টর পরিচয়ে সাংবাদিককে হুমকি বহিষ্কৃত চবি ছাত্রলীগ কর্মীর

© 2021 Bangla Tribune