X
বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

পূর্ণিমা তিথিতে ঘরে ঘরে মা লক্ষ্মীর বন্দনা

আপডেট : ২০ অক্টোবর ২০২১, ২০:২০

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম ধর্মীয় অনুষ্ঠান লক্ষ্মীপূজা আজ। শারদীয় দুর্গোৎসবের পরবর্তী পূর্ণিমা তিথিতে হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা লক্ষ্মী দেবীর পূজা করে থাকেন। লক্ষ্মী দেবীকে বলা হয় ঐশ্বর্যের দেবী। শাস্ত্র মতে, আশ্বিনের পূর্ণিমা তিথিতে ধনসম্পদ, প্রাচুর্য, সৌন্দর্য ও সমৃদ্ধির দেবী লক্ষ্মী বিষ্ণুলোক থেকে পৃথিবীতে নেমে আসেন পূজা গ্রহণ করতে। লক্ষ্মী দেবী সন্তুষ্ট থাকলে সংসারে অর্থকষ্ট থাকে না, বরং সুখ-স্বাচ্ছন্দ্য বাড়ে।

বুধবার (২০ অক্টোবর) পূর্ণিমা তিথিতে লক্ষ্মী দেবীর বন্দনা করছেন সনাতন ধর্মাবলম্বীরা। হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম এই ধর্মীয় উৎসবটি কোজাগরি লক্ষ্মীপূজা নামেও পরিচিত।

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস মতে, এই দিনে মানুষের দরজায় গিয়ে দেবী প্রশ্ন করেন ‘কে জেগে আছো’। তাই লক্ষ্মীপূজা ভক্তদের কাছে কোজাগরি পূজাও। লক্ষ্মীদেবী দ্বিভুজা, তার বাহন প্যাঁচা এবং হাতে থাকে শস্যের ভাণ্ডার। এই পুজা মূলত ঘরোয়াভাবে করা হয়। পূজা উপলক্ষে হিন্দু নারীরা উপবাস রাখেন। মঙ্গলঘট ও ধানের ছড়ার সঙ্গে হিন্দু গৃহস্থের আঙিনায়  শোভা পায় চালের গুঁড়া আলপনায় মা লক্ষ্মীর ছাপ। মা লক্ষ্মীর পা আঁকা হয় বাড়ি ও ঘরের প্রবেশপথে। এর সঙ্গে ঘরের আঙ্গিনায় জ্বালানো হয় প্রদীপ শিখা। 

মা লক্ষ্মীর বন্দনা, ছবি: নাসিরুল ইসলাম লক্ষ্মীপূজা উপলক্ষে আজ সারা দেশের হিন্দুদের ঘরে ঘরে পূজা, প্রসাদ বিতরণ ও অতিথি আপ্যায়ন করা হয়। রাজধানীর ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দির, রামকৃষ্ণ মিশন ও মঠ মন্দির, রামসীতা মন্দির, রাধামাধব বিগ্রহ মন্দির, রাধাগোবিন্দ জিও ঠাকুর মন্দিরসহ পুরান ঢাকার শাঁখারীবাজার, তাঁতীবাজার, সূত্রাপুর, ফরাশগঞ্জ, লক্ষ্মীবাজারসহ বিভিন্ন এলাকায় ঘরোয়া পরিবেশে লক্ষ্মীপূজা অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি মিলন কান্তি দত্ত বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘লক্ষ্মীপূজা সাধারণত ঘরোয়াভাবে করা হয়। বড় বড় মন্দিরেও হয় তবে বড় পরিসরে হয় না। গ্রামে লক্ষ্মীপুজা ঘরে ঘরেই করা হয়। এদিন নারীরা সারাদিন উপবাস করেন। সন্ধ্যার পর পূর্ণিমা তিথিতে পুজা দেওয়ার পর প্রসাদ নিয়ে উপবাস শেষ করেন। সম্পদ প্রাপ্তির আশায় আমরা লক্ষ্মী পূজা দেই।’

 

/এসও/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

‘স্থানীয় সরকার দিবস’ পালনের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

‘স্থানীয় সরকার দিবস’ পালনের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

ফেব্রুয়ারি থেকে বুড়িগঙ্গার আদি চ্যানেলে পুনঃখনন: তাপস

ফেব্রুয়ারি থেকে বুড়িগঙ্গার আদি চ্যানেলে পুনঃখনন: তাপস

ভারতে গেলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

ভারতে গেলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

ইউজিসিতে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার উদ্বোধন

ইউজিসিতে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার উদ্বোধন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

‘স্থানীয় সরকার দিবস’ পালনের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

‘স্থানীয় সরকার দিবস’ পালনের উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

ফেব্রুয়ারি থেকে বুড়িগঙ্গার আদি চ্যানেলে পুনঃখনন: তাপস

ফেব্রুয়ারি থেকে বুড়িগঙ্গার আদি চ্যানেলে পুনঃখনন: তাপস

ভারতে গেলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

ভারতে গেলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

ইউজিসিতে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার উদ্বোধন

ইউজিসিতে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ কর্নার উদ্বোধন

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর সঙ্গে বসনিয়ার রাষ্ট্রদূতের বৈঠক

প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীর সঙ্গে বসনিয়ার রাষ্ট্রদূতের বৈঠক

আমার ছেলের অপরাধ সে ছাত্রলীগ করতো: অমিত সাহার মা

আবরার হত্যা মামলাআমার ছেলের অপরাধ সে ছাত্রলীগ করতো: অমিত সাহার মা

বীরাঙ্গনাদের মুক্তিযোদ্ধার মর্যাদা দিতে আদালতের রায় দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি

বীরাঙ্গনাদের মুক্তিযোদ্ধার মর্যাদা দিতে আদালতের রায় দ্রুত বাস্তবায়নের দাবি

রায় দ্রুত কার্যকর চায় বুয়েট

রায় দ্রুত কার্যকর চায় বুয়েট

পাউবো’র যান্ত্রিক সরঞ্জাম পরিদফতরে ৭৭ শতাংশ পদই খালি

পাউবো’র যান্ত্রিক সরঞ্জাম পরিদফতরে ৭৭ শতাংশ পদই খালি

শিক্ষার্থী ও সরকার দুই পক্ষকে দুই রকম কথা মোনাশ কলেজের!

শিক্ষার্থী ও সরকার দুই পক্ষকে দুই রকম কথা মোনাশ কলেজের!

সর্বশেষ

গভীর ব্যথিত: মোদি

গভীর ব্যথিত: মোদি

আবরার হত্যা মামলার রায়ে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা হয়েছে: আইনমন্ত্রী

আবরার হত্যা মামলার রায়ে ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা হয়েছে: আইনমন্ত্রী

সাতক্ষীরায় ১৩৫ হেক্টর জমির সরিষা ডুবে গেছে

সাতক্ষীরায় ১৩৫ হেক্টর জমির সরিষা ডুবে গেছে

সত্যিকারের ফুটবল যোদ্ধাদের মিলনমেলা

সত্যিকারের ফুটবল যোদ্ধাদের মিলনমেলা

মুরাদ হাসানকে উপজেলা আ.লীগ থেকেও অব্যাহতি

মুরাদ হাসানকে উপজেলা আ.লীগ থেকেও অব্যাহতি

© 2021 Bangla Tribune