X
শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

‘বিচার বিলম্ব হওয়ায় মৌলবাদী শক্তি সাহস পাচ্ছে’

আপডেট : ২১ অক্টোবর ২০২১, ২০:১৯

সারা দেশে সংঘটিত সাম্প্রদায়িক উসকানি- হামলার বিচার বিলম্ব হওয়ায় মৌলবাদী শক্তি সাহস পাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ।

বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর)  বিকাল তিনটায় রাজধানীর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সাম্প্রদায়িক হামলা, লুটপাট, অগ্নি সংযোগ ও হত্যার প্রতিবাদে ‘গৌরব ৭১’ আয়োজিত প্রতিরোধ সমাবেশে উপস্থিত থেকে তিনি একথা বলেন।

সমাবেশে মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, ‘রামু,নাসিরনগর শাল্লাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় যে সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা ঘটেছিল, সেগুলোর বিচার এখনও সম্পূর্ণ শেষ হয়নি। বিচার বিলম্ব হওয়ার কারণে মৌলবাদী শক্তি সাহস পাচ্ছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সহ আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে অনুরোধ— এ পর্যন্ত যতগুলো সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে, প্রতিটি ঘটনার বিচার করুন। যদি সাধারণ আইনে না হয়, তাহলে বিশেষ ট্রাইব্যুনাল গঠন করে অপকর্মকারীদের বিচার করুন, যেন আমরা অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশকে আবারও ফিরিয়ে আনতে পারি। সকল ধর্মের মানুষের মধ্যে যে শঙ্কা, ভীতি রয়েছে— সেটি দূর করতে চাই।’

তিনি আরও বলেন,‘আজ  আমাদের সমাজ থেকে লোক-সংস্কৃতি হারিয়ে গেছে। এখন গ্রামে নাটক, পালা গান ও যাত্রা নেই। জারি-সারি, ভাটিয়ালি, পুঁথি গান কোনোটাই আর হয় না। এগুলো সব বন্ধ হয়ে গেছে। এখন এগুলোর বদলে ওয়াজের নামে বিভ্রান্তিকর কথাবার্তা বলে মানুষকে ধর্মান্ধ করা হয়। স্বপ্নের বাংলাদেশ আমাদের মাঝ থেকে ধীর ধীরে হারিয়ে যাচ্ছে। এই প্রতিরোধ সমাবেশ থেকে আমাদের মৌলবাদী গোষ্ঠীকে চিরতরে নিপাত করার শপথ নিতে হবে। শেখ হাসিনার একজন কর্মীও থাকতে এই বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে দেওয়া হবে না। অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ আমরা গড়বোই।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ড. মো. সামাদ বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক এ হামলাগুলোর লক্ষ্য কোনও হিন্দু জনগোষ্ঠী নয়, আক্রমণের লক্ষ্য বাংলাদেশ, বঙ্গবন্ধু এবং শেখ হাসিনা। আমাদের মূল কাজ বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে রক্ষা করা। এজন্য আমাদের আদর্শ ও নিষ্ঠাবান কর্মী তৈরি করতে হবে। আমাদের ৭২ এর সংবিধানে ফিরে যেতে হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আমাদের অনুরোধ, বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধুর বাহাত্তরের সংবিধানকে ফিরিয়ে আনুন। বাহাত্তরের সংবিধানে যদি আমরা ফিরে যেতে পারি, তাহলে এই ধর্মান্ধদের আমরা উৎখাত করতে পারবো। ফলে বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশকে আমরা কায়েম করতে পারবো।’

সমাবেশে গৌরব ৭১-এর সভাপতি মনিরুল ইসলাম মনির সভাপতিত্ব এবং সাধারণ সম্পাদক এফ এম শাহিন অনুষ্ঠানের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন— ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহম্মেদ মন্নাফি, নাটোর-৪ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক আবদুল কুদ্দুস, ঢাকা-৪ আসনের সাংসদ অ্যাডভোকেট সানজিদা খানম, চাঁদপুর- ২ আসনের সাংসদ নুরুল আমিন রুহুল, কুষ্টিয়া-৪ আসনের সাংসদ সেলিম আলতাফ জর্জ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ সভাপতি সনজিত চন্দ্র দাসসহ আরও অনেকে।

প্রতিরোধ সমাবেশ শেষে শহীদ মিনার থেকে লাঠি হাতে মৌলবাদ প্রতিরোধ মিছিল নিয়ে শেখ রাসেল টাওয়ার হয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সন্ত্রাসবিরোধী রাজু ভাস্কর্যে গিয়ে শেষ করেন সমাবেশে অংশগ্রহণকারীরা।

 

/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

বাল্যশিক্ষায় কী শিখছে শিশু?

বাল্যশিক্ষায় কী শিখছে শিশু?

এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রথম দিন অনুপস্থিত সাড়ে ১৫ হাজার

এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রথম দিন অনুপস্থিত সাড়ে ১৫ হাজার

সহকারী জজ পদে নিয়োগ পাওয়া শাহ্ পরানের যোগদান স্থগিত

সহকারী জজ পদে নিয়োগ পাওয়া শাহ্ পরানের যোগদান স্থগিত

‘বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যার চেয়ে বিশ্বমান গুরুত্বপূর্ণ’

‘বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যার চেয়ে বিশ্বমান গুরুত্বপূর্ণ’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

বাল্যশিক্ষায় কী শিখছে শিশু?

বাল্যশিক্ষায় কী শিখছে শিশু?

এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রথম দিন অনুপস্থিত সাড়ে ১৫ হাজার

এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রথম দিন অনুপস্থিত সাড়ে ১৫ হাজার

সহকারী জজ পদে নিয়োগ পাওয়া শাহ্ পরানের যোগদান স্থগিত

সহকারী জজ পদে নিয়োগ পাওয়া শাহ্ পরানের যোগদান স্থগিত

‘বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যার চেয়ে বিশ্বমান গুরুত্বপূর্ণ’

‘বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যার চেয়ে বিশ্বমান গুরুত্বপূর্ণ’

নির্যাতনের শিকার ব্যক্তিদের তথ্য সহায়তায় ব্র্যাকের নতুন উদ্যোগ

নির্যাতনের শিকার ব্যক্তিদের তথ্য সহায়তায় ব্র্যাকের নতুন উদ্যোগ

পার্বত্য ইস্যু একটি রাজনৈতিক ও জাতীয় সমস্যা: সন্তু লারমা

পার্বত্য ইস্যু একটি রাজনৈতিক ও জাতীয় সমস্যা: সন্তু লারমা

‘সম্প্রীতি আর সহনশীলতার অনন্য দৃষ্টান্ত পার্বত্য শান্তি চুক্তি’

‘সম্প্রীতি আর সহনশীলতার অনন্য দৃষ্টান্ত পার্বত্য শান্তি চুক্তি’

সহকারী জজ পদে শাহ পরানের যোগদান স্থগিত

সহকারী জজ পদে শাহ পরানের যোগদান স্থগিত

মাধ্যমিকে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে জরুরি নির্দেশনা

মাধ্যমিকে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে জরুরি নির্দেশনা

ঢাবির শতবর্ষে শত আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন

ঢাবির শতবর্ষে শত আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন

সর্বশেষ

৬ ঘণ্টা পর ঢাকার সঙ্গে উত্তরবঙ্গের ট্রেন যোগাযোগ স্বাভাবিক

৬ ঘণ্টা পর ঢাকার সঙ্গে উত্তরবঙ্গের ট্রেন যোগাযোগ স্বাভাবিক

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত রাজশাহী আইনজীবী সমিতির সভাপতির মৃত্যু

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত রাজশাহী আইনজীবী সমিতির সভাপতির মৃত্যু

মুন্সীগঞ্জে ফ্ল্যাটে বিস্ফোরণের ঘটনায় একই পরিবারের দুই শিশুর মৃত্যু

মুন্সীগঞ্জে ফ্ল্যাটে বিস্ফোরণের ঘটনায় একই পরিবারের দুই শিশুর মৃত্যু

ঐশীর অভিষেক: গত কয়েক রাত ঘুমাতে পারিনি

চার মহাদেশে ‘মিশন এক্সট্রিম’ঐশীর অভিষেক: গত কয়েক রাত ঘুমাতে পারিনি

ঢাকা আসছেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব

ঢাকা আসছেন ভারতের পররাষ্ট্র সচিব

© 2021 Bangla Tribune