X
শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

পরীক্ষার দায়িত্বে অবহেলা

গোপালগঞ্জে হল সুপারকে অব্যাহতি, শিক্ষকের কারাদণ্ড

আপডেট : ০১ মার্চ ২০১৬, ২১:৫৭

গোপালগঞ্জের কাশিয়ানীতে এসএসসি পরীক্ষার হলে দায়িত্বে অবহেলা করার কারণে সহকারী হল সুপার রাতইল নায়েবুন নেছা ইনস্টিউশনের প্রধান শিক্ষক নজরুল ইসলামকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। এছাড়া পরীক্ষার হলে অনুপ্রবেশের অপরাধে এক শিক্ষককে তিনদিনের কারাদণ্ড ও ৬ যুবককে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
মঙ্গলবার এলাকার এমএ খালেক সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শনে গিয়ে এ ব্যবস্থা গ্রহণ করেন কাশিয়ানী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক মনিরুজ্জামান।
একই সঙ্গে ওই কেন্দ্রে অনুপ্রবেশের দায়ে রিশাদ (২৩), সুজন (২৪), রনি (২২), শেখ রাজু (২০), আরিফ (২১), সজল ও সাব্বির (২১) নামের ৬ যুবককে পাঁচশ টাকা করে জরিমানা করেছেন আদালত।
ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক মনিরুজ্জামান সাংবাদিকদের জানান, দায়িত্ব ও কর্তব্য অবহেলার জন্য ওই কেন্দ্রের সহকারী হল সুপারকে অব্যাহতি এবং কেন্দ্রে অনুপ্রবেশের কারণে মুকসুদপুর উপজেলার বোয়ালীয়া নিজামুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক নোমানকে (৩০) তিন দিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।
/এসএনএইচ

সম্পর্কিত

গবেষণা-প্রবন্ধ প্রকাশে শিক্ষক-গবেষকদের অনুদান দেবে ঢাবি

গবেষণা-প্রবন্ধ প্রকাশে শিক্ষক-গবেষকদের অনুদান দেবে ঢাবি

ফের বাড়লো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি

ফের বাড়লো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

লকডাউনে বন্ধ মার্কেট ও দোকানে চলছে ‘বিকল্প’ লেনদেন

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১২:৪৭

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে গত ২৩ জুলাই থেকে কঠোর বিধিনিষেধ জারি করা হয়। জরুরি সেবা ব্যতীত বন্ধ ঘোষণা করা হয় সকল শপিং মল ও দোকানপাট। আগামী ৫ আগস্ট পর্যন্ত বিধিনিষেধ জারি করা থাকলেও এরইমধ্যে নানা কৌশলে যে যেভাবে পারছেন দোকান খোলা রাখা ও কেনাবেচা চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন।

রাজধানীতে মোবাইল বিক্রি ও সারাইয়ের অন্যতম বড় মার্কেট মোতালেব প্লাজা। চলমান লকডাউনে বন্ধ থাকলেও সকাল ১০টার পর থেকেই এই মার্কেটের সামনে দোকানের কর্মচারীদের আনাগোনা দেখা যায়। নতুন মোবাইল লাগবে? কিংবা ভেঙে গেছে মোবাইলের স্ক্রিন? ‑ মার্কেটের সামনে গেলে মিলবে সমাধান। কিংবা অনলাইনে কেনাবেচা চলছে? শাড়ি লাগবে কিংবা কাপড়ের থান? শপিং মলের ভেতর থেকে অথবা গোডাউন থেকে তাও পৌঁছে যাবে আপনার বাসায় ঠিকঠাক।

আবার আবাসিক এলাকা কিংবা পুরান ঢাকার সারি সারি দোকানে নেওয়া হয়েছে আরেক কৌশল। শংকর, মোহাম্মদপুর, মিরপুরের নানা এলাকা ঘুরে দেখা যায় দোকানের শাটার অর্ধেক খোলা থাকে। কোনওটা বা পুরো বন্ধ। কিন্তু দোকানের সামনে বা আশেপাশে রয়েছেন দোকানি। ক্রেতা দেখলে প্রয়োজন জেনে নিয়ে টুপ করে দোকানের ভেতর থেকে পাঠিয়ে দিচ্ছেন সদাই।

একদিকে করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে নেওয়া হচ্ছে নানা উদ্যোগ, আরেকদিকে জীবিকার তাগিদে মানুষের এই চোর-পুলিশ খেলা। এতে করে সংক্রমণ আসলে কমবে না বলে শঙ্কা জনস্বাস্থ্যবিদদের। তারা বলছেন, যাদের জন্য এতো বিধিনিষেধ তারাই যদি বিষয়ের গুরুত্ব না বুঝতে চান তাহলে সবাই মিলেই বিপদে পড়তে হবে।

গত ২৪ ঘণ্টায় (স্বাস্থ্য অধিদফতরের ২৯ জুলাইয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী) করোনাতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৩৯ জন। তাদের নিয়ে করোনাতে সরকারি হিসাবে মোট মারা গেলেন ২০ হাজার ২৫৫ জন।

একই সময়ে করোনাতে শনাক্ত হয়েছেন ১৫ হাজার ২৭১ জন। দেশে সরকারি হিসেবে করোনাতে মোট শনাক্ত হলেন ১২ লাখ ২৬ হাজার ২৫৩ জন।

স্বাস্থ্য অধিদফতর জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ২৩৯ জনের মধ্যে শনাক্ত হওয়া ১৫ হাজার ২৭১ জনের মধ্যে সবচেয়ে বেশী রোগীর মৃত্যু এবং সবচেয়ে বেশি রোগী শনাক্ত হয়েছেন ঢাকা বিভাগে।

কথা হয় মোতালিব প্লাজার এক দোকানীর সঙ্গে। তিনি জানান, পরিচিতদের মধ্যে, অনলাইনে যারা যোগাযোগ করতে পারছেন তারা সেবা পাচ্ছেন। দিনের পর দিন দোকান বন্ধ রাখলে তাদের চাকরি থাকবে না বলে কর্মচারীরা রিস্ক নিয়ে মার্কেটের সামনে থাকেন।

মোহাম্মদপুরের এক ইলেক্ট্রিকের যন্ত্রপাতির দোকানের কর্মচারী বসে ছিলেন দোকানের সামনে। শুরুতে ক্রেতা ভেবে এগিয়ে এলেও সাংবাদিক শুনে আর কথা বলতে চাননি। পরে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, আমাদের শাটার লাগিয়ে সামনে থাকতে বলা হয়েছে। ফোনে অর্ডার করা হলে দোকানে ঢুকে মাল নিয়ে আবার শাটার ফেলে দেওয়া হয়। পুলিশ টহলে এলে আশেপাশের গলিতে অবস্থান নেন সকলে।

image1(1)

ঘোষণা অনুযায়ী বন্ধ থাকার কথা থাকলেও লুকিয়ে দোকান-শপিং মল খোলার চেষ্টা হওয়ার কথা অস্বীকার করছেন না খোদ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মওদুদ হাওলাদার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী শপিং মলগুলো বন্ধ রয়েছে। তবে অনেক সময় আমরা শুনতে পাই শপিং মল খোলা রাখা হচ্ছে এবং পুলিশের তৎপরতা দেখলে বন্ধ করে তারা সরে যাচ্ছেন। মোতালেব প্লাজার বিষয়ে আপনি যে বিষয়টি আমাদেরকে অবহিত করেছেন সে বিষয়ে আমরা আরও খোঁজ-খবর নিচ্ছি। অনেক সময় আমরা দেখতে পাই‑ আমাদের উপস্থিতি টের পেয়ে অনেকে আমাদের সাথে চোর-পুলিশ খেলা শুরু করে।

/এমএস/

সম্পর্কিত

লকডাউন অমান্য করায় রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৬৮

লকডাউন অমান্য করায় রাজধানীতে গ্রেফতার ৫৬৮

এখনও ভেঙে ভেঙে রাজধানীতে আসছে মানুষ

এখনও ভেঙে ভেঙে রাজধানীতে আসছে মানুষ

ঢাকায় গ্রেফতার বেড়েছে

ঢাকায় গ্রেফতার বেড়েছে

এখনও ঢাকা ছাড়ছেন মানুষ

এখনও ঢাকা ছাড়ছেন মানুষ

ঝরে পড়াদের শিক্ষায় ফিরিয়ে আনার আহ্বান বাউবি ভিসির

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১১:২৮

ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের শিক্ষায় ফিরিয়ে আনার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাউবি) উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক ড. সৈয়দ হুমায়ুন আখতার। দেশের ১২টি আঞ্চলিক কেন্দ্রের আঞ্চলিক পরিচালকদের সঙ্গে ভার্চুয়াল মতবিনিময় সভায় সংশ্লিষ্টদের তিনি এ আহ্বান জানান।

বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, বুধবার (২৮ জুলাই) রাতে মতবিনিময় সভায় উপাচার্য আঞ্চলিক পরিচালকদের ঝরে পড়া শিক্ষার্থীদের শিক্ষায় ফেরানোর বিষয়ে উদ্যোগ নিতে বলেন।

মতবিনিময় সভায় বাউবি উপাচার্য বলেন, “জাতির পিতার  ‘সোনার বাংলা’ গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়নে বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারকে দৃঢ় প্রত্যয় ও অঙ্গীকার নিতে হবে। এই লক্ষ্যে দক্ষ জনশক্তি সৃজনে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় সারাদেশে শিক্ষা সুবিধা বিস্তরণ করে চলেছে।”

মতবিনিময়কালে উপাচার্য মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের নিষ্ঠা ও সততার সঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, ‘দেশের আর্থসামাজিক অবস্থার কথা বিবেচনা করে প্রান্তিক জনগোষ্ঠী, পিছিয়ে পড়া নারী ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর জনগণকে শিক্ষায় ফেরাতে হবে। পিছিয়ে পড়া অঞ্চলের চাহিদার সঙ্গে মিল রেখে বাউবিতে নীড বেজ এডুকেশন, গণশিক্ষা, কর্মমুখী শিক্ষা ও জীবনব্যাপী শিক্ষা চালু করতে হবে।’

মতবিনিময় সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ড. মহা. শফিকুল আলম বক্তব্য রাখেন।

/এসএমএ/এমএস/

সম্পর্কিত

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা নিতে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই পরিকল্পনা

এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা নিতে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই পরিকল্পনা

এলএলএম-এ ভর্তির সুযোগ পাচ্ছেন না উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

এলএলএম-এ ভর্তির সুযোগ পাচ্ছেন না উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা

হেলেনা জাহাঙ্গীরের আইপি টিভির কার্যালয়ে র‌্যাবের অভিযান

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ০৮:৪১

আওয়ামী লীগের উপকমিটি থেকে অব্যাহতি পাওয়া মহিলা বিষয়ক সম্পাদক হেলেনা জাহাঙ্গীরের মালিকানাধীন আইপি টিভি জয়যাত্রা টেলিভিশন ও জয়যাত্রা ফাউন্ডেশনের কার্যালয়ে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) দিবাগত রাত ২টার দিকে রাজধানীর মিরপুর ১১ নম্বরে জয়যাত্রার কার্যালয়ে যায় র‌্যাব। এর আগে গুলশানের বাসায় অভিযান চালিয়ে আটক করা হয় ব্যবসায়ী হেলেনাকে।

আজ শুক্রবার (৩০ জুলাই) ভোর ৪টা পর্যন্ত চলা সেই অভিযানের নেতৃত্ব দেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাদির শাহ। অভিযান শেষে তিনি সংবাদিকদের বলেন, অভিযান পরিচালনার সময় আইপিটিভি জয়যাত্রা টেলিভিশন নামক চ্যানেলটির কোন বৈধ কাগজপত্র পাওয়া যায়নি। তদন্ত করে যদি বৈধ কাগজপত্র না পাওয়া যায় তাহলে চ্যানেলটি বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, এই ভবনটিতে জয়যাত্রা ফাউন্ডেশন এবং জয়যাত্রা টেলিভিশন নামে দুটি প্রতিষ্ঠানের অফিস আমরা পেয়েছি। সম্প্রচার চ্যানেল হিসেবে যেসব সেটআপ থাকা দরকার তার সব কিছুই এখানে রয়েছে। অভিযোগ রয়েছে, জয়যাত্রা টেলিভিশন এর মাধ্যমে দেশে এবং দেশের বাইরে প্রতিনিধি নিয়োগের নামে অর্থ আদায় করে নিয়েছেন হেলেনা জাহাঙ্গীর। এসব বিষয় আমরা খতিয়ে দেখছি। তদন্তের পর তার দুই প্রতিষ্ঠান জয়যাত্রা ফাউন্ডেশন ও আইপি জয়যাত্রা টেলিভিশনের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

হেলেনা জাহাঙ্গীরকে আটকের আগে গুলশান ২ নম্বরে তার নিজস্ব ভবনে বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) রাত সাড়ে ৮টা থেকে প্রায় ৪ ঘণ্টা অভিযান চলে। এ সময় তার বাসা থেকে মদ, ওয়াকি টকি, ক্যাসিনো সরঞ্জাম ও হরিণের চামড়া উদ্ধার করে র‌্যাব। অভিযানে নেতৃত্ব দেন সংস্থাটির নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু।

আরও পড়ুন:

হেলেনা জাহাঙ্গীর আটক

/আরটি/ ইউএস/

সম্পর্কিত

হেলেনা জাহাঙ্গীর আটক

হেলেনা জাহাঙ্গীর আটক

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় র‌্যাবের অভিযান

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় র‌্যাবের অভিযান

অধস্তন আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কালো ব্যাজ পরিধানের নির্দেশ

অধস্তন আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কালো ব্যাজ পরিধানের নির্দেশ

৯৯ জনকে জরিমানা র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের

৯৯ জনকে জরিমানা র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের

হেলেনা জাহাঙ্গীর আটক

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১০:১৮

আওয়ামী লীগের উপ-কমিটি থেকে অব্যাহতি পাওয়া মহিলা বিষয়ক সম্পাদক হেলেনা জাহাঙ্গীরকে আটক করেছে র‌্যাব। বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) রাত ৮টা থেকে টানা ৪ ঘণ্টা রাজধানীর গুলশান ২-এ আলোচিত-সমালোচিত এই ব্যবসায়ীর বাসায় অভিযান পরিচালনা শেষে তাকে আটক করা হয়।

র‍্যাবের গোয়েন্দা শাখার পরিচালক লে. কর্নেল খায়রুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উদ্বারকৃত মদ তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য র‍্যাব সদর দফতরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। র‍্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু এক ব্রিফিংয়ে বলেন, হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় অনেক কিছু পাওয়া গেছে। তিনি বলেন, তার বাসায় বিদেশী মদ, হরিণের চামড়া, ক্যাসিনো খেলার সরঞ্জাম, বিদেশি মুদ্রা, ওয়াকিটকি সেট, ড্রোন ক্যামেরা, ক্যাঙ্গারু চামড়া, অনেকগুলো চাকু জব্দ করা হয়েছে বাসা থেকে।

তার বিরুদ্ধে বন্য প্রাণী আইন, মাদকদ্রব্য, বিদেশি মুদ্রা রাখার অপরাধসহ একাধিক মামলা হবে বলেও জানিয়েছে র‍্যাব।

কিছুপর মিরপুরে হেলেনার মালিকানাধীন মিরপুরস্থ জয়যাত্রা টেলিভিশন কার্যালয়ে অভিযান চালানো হবে বলে জানিয়েছেন র‍্যাবের একজন কর্মকর্তা। তিনি জানান, যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন ছাড়াই তিনি ওই টেলিভিশন পরিচালনা করে আসছিলেন।

উদ্ধারকৃত চাকু উল্লেখ্য, সম্প্রতি আওয়ামী চাকরিজীবী লীগ নামে একটি সংগঠন খুলে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন হেলেনা জাহাঙ্গীর। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে তিনি দাবি করেন, সংগঠনটির নাম এখনও সেভাবে পরিচিত না হলেও ইতোমধ্যে বিভিন্ন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ লাখ লাখ মানুষ এর সদস্য হয়েছেন। জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে নিয়োগের বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি দেখা গেছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এ নিয়ে তীব্র সমালোচনার পর রবিবার মেহের আফরোজ চুমকি স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে তাকে বহিষ্কার করা হয়। এর আগে গত মাসে কুমিল্লা উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ থেকেও তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে বলে দাবি করেছেন উত্তর জেলা সভাপতি রুহুল আমিন। ক্যাসিনো সরঞ্জাম

আরও পড়ুন-

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় র‌্যাবের অভিযান

/এনএল/এফএএন/

সম্পর্কিত

হেলেনা জাহাঙ্গীরের আইপি টিভির কার্যালয়ে র‌্যাবের অভিযান

হেলেনা জাহাঙ্গীরের আইপি টিভির কার্যালয়ে র‌্যাবের অভিযান

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় র‌্যাবের অভিযান

হেলেনা জাহাঙ্গীরের বাসায় র‌্যাবের অভিযান

অধস্তন আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কালো ব্যাজ পরিধানের নির্দেশ

অধস্তন আদালতের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কালো ব্যাজ পরিধানের নির্দেশ

৯৯ জনকে জরিমানা র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের

৯৯ জনকে জরিমানা র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালতের

ডাকটিকিট প্রকাশের সুবর্ণজয়ন্তীর স্মারক ডাকটিকিট প্রকাশ

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২৩:৪৬

বাংলাদেশের ডাকটিকিট প্রকাশের সুবর্ণজয়ন্তী ২০২১ সালের ২৯ জুলাই। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে ১৯৭১ সালের এই দিনে প্রথম ৮টি ডাকটিকিট মুজিবনগর সরকার প্রকাশ করে।  মুজিবনগর সরকার প্রকাশিত এই ডাকটিকিট মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের গৌরবোজ্জ্বল অংশ। দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে ডাক অধিদফতর স্মারক ডাকটিকিট প্রকাশ করেছে। এ উপলক্ষে ভার্চুয়াল মাধ্যমে আলোচনা সভারও আয়োজন করা হয়।

এতে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বাংলাদেশের প্রথম ডাক টিকেট প্রকাশের ঐতিহাসিক গুরুত্ব তুলে ধরেন। তিনি মুক্তিযুদ্ধে মুক্তিবাহিনী ও দেশের জনগণের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ডাকবিভাগের কর্মীদের লড়াই এর কথা স্মরণ করেন ও দেশের সকল শহীদদের পাশাপাশি ডাক বিভাগের শহীদ কর্মকর্তাদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

মন্ত্রী বলেন, ডাকটিকিট একটি জাতির ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতি ও বিশিষ্ট ব্যক্তি সম্পর্কে কথা বলে। যাদের নিয়ে ডাকটিকিট প্রকাশ করা হয়, তারা ইতিহাসের খ্যাতনামা মানুষ। মুক্তিযুদ্ধসহ শিল্প-সাহিত্য, সংস্কৃতি এবং রাজনৈতিক পরিমণ্ডলে অবদান রাখা মানুষগুলোকে নিয়ে স্মারক ডাক টিকিট প্রকাশের উদ্যোগ একটি বড় মহৎ কাজ বলে তিনি উল্লেখ করেন।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী জানান, ১৯৭১ সালের ২৯ জুলাই ভারতীয় নাগরিক বিমান মল্লিক (বিমান চাঁদ মল্লিক)- এর ডিজাইন করা আটটি ডাকটিকিট মুজিবনগর সরকার, কলকাতায় বাংলাদেশ মিশন ও লন্ডন থেকে প্রকাশিত হয়। তিনি বলেন, মুজিবনগর সরকার কূটনৈতিক প্রক্রিয়া হিসেবে স্বাধীনতার স্বপক্ষে বিশ্ব জনমত গড়ে তোলার জন্য এ উদ্যোগ গ্রহণ করে।

ডাক অধিদফতরের মহাপরিচালক মো. সিরাজ উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব মো. আফজাল হোসেন ও বিটিআরসি’র চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদার বক্তৃতা করেন। 

দিনটি উপলক্ষে ১০ টাকা মূল্যমানের একটি স্মারক ডাকটিকিট, ১০ টাকা মূল্যমানের একটি উদ্বোধনী খাম  ও পাঁচ টাকা মূল্যমানের একটি ডাটা কার্ড ও একটি বিশেষ সিলমোহর প্রকাশ করা হয়।  স্মারক ডাকটিকিট, উদ্বোধনী খাম ও ডাটাকার্ড বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) থেকে ঢাকা জিপিও’র ফিলাটেলিক ব্যুরো ও পরে দেশের অন্যান্য জিপিও এবং প্রধান ডাকঘর থেকে সংগ্রহ করা যাবে।

পরে মন্ত্রী বাংলাদেশের ডাকটিকিট প্রকাশের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে বাংলাদেশ ফিলাটেলিক অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত ডাকটিকিট প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন এবং এই উপলক্ষে একটি স্মারক উদ্বোধনী খাম অবমুক্ত করেন।  অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ন্যাশনাল ফিলাটেলিক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি কাজী শরিফুল ইসলামের সভাপতিত্ব করেন।

/এইচএএইচ/এমআর/

সম্পর্কিত

লকডাউনে বন্ধ মার্কেট ও দোকানে চলছে ‘বিকল্প’ লেনদেন

লকডাউনে বন্ধ মার্কেট ও দোকানে চলছে ‘বিকল্প’ লেনদেন

ঝরে পড়াদের শিক্ষায় ফিরিয়ে আনার আহ্বান বাউবি ভিসির

ঝরে পড়াদের শিক্ষায় ফিরিয়ে আনার আহ্বান বাউবি ভিসির

হেলেনা জাহাঙ্গীরের আইপি টিভির কার্যালয়ে র‌্যাবের অভিযান

হেলেনা জাহাঙ্গীরের আইপি টিভির কার্যালয়ে র‌্যাবের অভিযান

হেলেনা জাহাঙ্গীর আটক

হেলেনা জাহাঙ্গীর আটক

সর্বশেষ

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচন ৪ সেপ্টেম্বর

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচন ৪ সেপ্টেম্বর

লকডাউনে বন্ধ মার্কেট ও দোকানে চলছে ‘বিকল্প’ লেনদেন

লকডাউনে বন্ধ মার্কেট ও দোকানে চলছে ‘বিকল্প’ লেনদেন

গৃহবধূর সঙ্গে পুলিশ সদস্যের অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগ, বাড়ি ঘেরাও 

গৃহবধূর সঙ্গে পুলিশ সদস্যের অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগ, বাড়ি ঘেরাও 

গাছের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় প্রাণ গেল দুই বন্ধুর

গাছের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় প্রাণ গেল দুই বন্ধুর

সাঁতারে বিশ্ব রেকর্ড গড়ে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম সোনা

টোকিও অলিম্পিকসাঁতারে বিশ্ব রেকর্ড গড়ে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম সোনা

ইয়াবাসহ গ্রেফতার পুলিশ সদস্য রিমান্ডে

ইয়াবাসহ গ্রেফতার পুলিশ সদস্য রিমান্ডে

করোনায় অসহায় মানুষের পাশে মৌসুমী ও সুমি  (ভিডিও)

করোনায় অসহায় মানুষের পাশে মৌসুমী ও সুমি  (ভিডিও)

খুলনার হাসপাতালে মৃত্যু কমেছে

খুলনার হাসপাতালে মৃত্যু কমেছে

বরগুনায় আগুনে পুড়েছে করোনা টিকা রাখার ফ্রিজ

বরগুনায় আগুনে পুড়েছে করোনা টিকা রাখার ফ্রিজ

মাল্টার জেলে বন্দি ১৬৫ বাংলাদেশির ভাগ্যে কী আছে?

মাল্টার জেলে বন্দি ১৬৫ বাংলাদেশির ভাগ্যে কী আছে?

ঝরে পড়াদের শিক্ষায় ফিরিয়ে আনার আহ্বান বাউবি ভিসির

ঝরে পড়াদের শিক্ষায় ফিরিয়ে আনার আহ্বান বাউবি ভিসির

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৩ মৃত্যু 

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৩ মৃত্যু 

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গবেষণা-প্রবন্ধ প্রকাশে শিক্ষক-গবেষকদের অনুদান দেবে ঢাবি

গবেষণা-প্রবন্ধ প্রকাশে শিক্ষক-গবেষকদের অনুদান দেবে ঢাবি

ফের বাড়লো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি

ফের বাড়লো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

১৯ আগস্টের মধ্যে এসএসসির অ্যাসাইনমেন্টের তথ্য পাঠানোর নির্দেশ

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

এসএসসি-এইচএসসির অ্যাসাইনমেন্ট জমা দিতে জরুরি নির্দেশ

ভিকারুননিসা অধ্যক্ষের আরেকটি ফোনালাপ ফাঁস

ভিকারুননিসা অধ্যক্ষের আরেকটি ফোনালাপ ফাঁস

প্রযুক্তি সহায়ক শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তনের আহ্বান ইউজিসির

প্রযুক্তি সহায়ক শিক্ষাব্যবস্থা প্রবর্তনের আহ্বান ইউজিসির

শিক্ষাপ্রযুক্তির উন্নয়নে ১৩ লাখ মার্কিন ডলার পেলো ‘শিখো’ 

শিক্ষাপ্রযুক্তির উন্নয়নে ১৩ লাখ মার্কিন ডলার পেলো ‘শিখো’ 

প্রাথমিকের আউট সোর্সিং কর্মচারীদের টিকার ব্যবস্থা করতে নির্দেশ

প্রাথমিকের আউট সোর্সিং কর্মচারীদের টিকার ব্যবস্থা করতে নির্দেশ

প্রাথমিক শিক্ষা সংশ্লিষ্টদের ১১ আগস্টের মধ্যে টিকা গ্রহণের নির্দেশ

প্রাথমিক শিক্ষা সংশ্লিষ্টদের ১১ আগস্টের মধ্যে টিকা গ্রহণের নির্দেশ

প্রাথমিকের ২০২২ শিক্ষাবর্ষের পাঠ্যবইয়ের চাহিদা এন্ট্রির নির্দেশ

প্রাথমিকের ২০২২ শিক্ষাবর্ষের পাঠ্যবইয়ের চাহিদা এন্ট্রির নির্দেশ

© 2021 Bangla Tribune