X
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ৭ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

সেব্রেনিৎসা গণহত্যার ঘটনায় কারাদজিচের ৪০ বছরের কারাদণ্ড

আপডেট : ২৫ মার্চ ২০১৬, ০৯:১৮
image



কারাদজিচ ১৯৯০এর দশকে বসনীয় যুদ্ধের সময় গণহত্যা ও মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের দায়ে সাবেক বসনীয় সার্ব নেতা রাদোভান কারাদজিচকে ৪০ বছরের কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। স্রেব্রেনিৎসার গণহত্যার জন্য ৫ বছরের বিচার কার্য শেষে কারাদজিচকে দোষী সাব্যস্ত করে জাতিসংঘের ট্রাইব্যুনাল এ রায় দেয়।ওই গণহত্যায় প্রাণ হারায় ৮ হাজার মুসলিম পুরুষ ও বালক। তার বিরুদ্ধে আনা ১১টি অভিযোগের মধ্যে একটি ছাড়া আর সবগুলো প্রমাণিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার দ্য হেগের আন্তর্জাতিক ট্রাইব্যুনালের বিচারক রায় ঘোষণা করতে সময় নেন এক ঘন্টা চল্লিশ মিনিট। রায়ে বলা হয়, কারাদজিচের বিরুদ্ধে আনা ১১টি অভিযোগের মধ্যে ১০টিতে তাকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে। বিচার চলাকালে অবশ্য এসব অভিযোগ অস্বীকার করেছিলেন রাদোভান কারাদজিচ।
স্রেব্রেনিৎসা শহরে আট হাজার মুসলিম পুরুষ এবং বালককে হত্যার ঘটনায় ভূমিকার জন্য কারাদজিচকে দায়ী করা হয়। বিচারক বলেন, কারাদজিচের তত্ত্বাবধানেই কার্যত এই শহরের মুসলিমদের ধ্বংস করার এক নীতি বাস্তবায়ন করা হচ্ছিল। এছাড়া মানবতাবিরোধী অপরাধ এবং যুদ্ধের ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক আইন ভঙ্গের নয়টি অভিযোগেও রাদোভান কারাদজিচকে দোষী সাব্যস্ত করে আদালত।
এদিকে, আদালতের রায় শুনে কারাদজিচ বিস্মিত হয়েছেন বলে উল্লেখ করেছেন তার আইনজীবী রবিনসন। তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট কারাদজিচ হতাশ হয়েছেন। তিনি মনে করেন না যে আইনগতভাবে তিনি কোনও অপরাধের জন্য দায়ী। এ রায়ে আসলে কোনও পক্ষেরই জয় হয়নি।’
আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে কারাদজিচ আপিল করবেন বলে জানান রবিনসন। তবে ওই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে তিন বছর লেগে যাবে।
তবে আদালতের রায়ে সন্তোষ জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।
উল্লেখ্য বসনিয়ার যুদ্ধে প্রায় এক লাখ মানুষ মারা যায়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ইউরোপের মূল ভুখন্ডে এত বড় হত্যাযজ্ঞ আর ঘটেনি। সূত্র: বিবিসি, আল জাজিরা
/এফইউ/



সম্পর্কিত

ইরানের সঙ্গে ৬ পরাশক্তির পারমাণবিক আলোচনা স্থগিত

ইরানের সঙ্গে ৬ পরাশক্তির পারমাণবিক আলোচনা স্থগিত

১২৩ দিন হাতকড়া পরেও টিকলো না সম্পর্ক

১২৩ দিন হাতকড়া পরেও টিকলো না সম্পর্ক

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে যুক্তরাজ্যে করোনার ‘তৃতীয় ঢেউ’

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে যুক্তরাজ্যে করোনার ‘তৃতীয় ঢেউ’

প্রতারণার মামলায় বিচারের মুখোমুখি বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এমপি আপসানা

প্রতারণার মামলায় বিচারের মুখোমুখি বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এমপি আপসানা

১৬ কোটি টাকা ভাতা নিতে অস্বীকৃতি ডাচ রাজকুমারীর

১৬ কোটি টাকা ভাতা নিতে অস্বীকৃতি ডাচ রাজকুমারীর

দ্বিতীয় মেয়াদে জাতিসংঘের মহাসচিব গুতেরেস

দ্বিতীয় মেয়াদে জাতিসংঘের মহাসচিব গুতেরেস

বিশ্বে সংক্রমণের প্রধান কারণ হয়ে উঠছে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: ডব্লিউএইচও

বিশ্বে সংক্রমণের প্রধান কারণ হয়ে উঠছে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: ডব্লিউএইচও

‘মরুকরণের ফলে বাড়ছে পরিবেশগত অভিবাসীর সংখ্যা’

‘মরুকরণের ফলে বাড়ছে পরিবেশগত অভিবাসীর সংখ্যা’

কাবুল বিমানবন্দরের নিরাপত্তায় প্রধান ভূমিকা নেবে তুরস্ক: বাইডেন প্রশাসন

কাবুল বিমানবন্দরের নিরাপত্তায় প্রধান ভূমিকা নেবে তুরস্ক: বাইডেন প্রশাসন

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন বাহিনী প্রত্যাহার রাশিয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ: পুতিন

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন বাহিনী প্রত্যাহার রাশিয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ: পুতিন

রান্নাঘরের দেয়ালে ঝুলছে সাড়ে ৫ কোটি টাকার ‘মুদ্রা’

রান্নাঘরের দেয়ালে ঝুলছে সাড়ে ৫ কোটি টাকার ‘মুদ্রা’

‘লক আপ লেডি’ খুঁজছে রাশিয়া

‘লক আপ লেডি’ খুঁজছে রাশিয়া

সর্বশেষ

ইরান নিয়ে ইসরায়েলের হুঁশিয়ারি

ইরান নিয়ে ইসরায়েলের হুঁশিয়ারি

লন্ডনে গাড়ি দুর্ঘটনায় আমিরাতের অ্যাক্টিভিস্টের মৃত্যু

লন্ডনে গাড়ি দুর্ঘটনায় আমিরাতের অ্যাক্টিভিস্টের মৃত্যু

৫ লাখ ছাড়ালো ব্রাজিলে করোনায় মৃতের সংখ্যা

৫ লাখ ছাড়ালো ব্রাজিলে করোনায় মৃতের সংখ্যা

রোহিঙ্গা ইস্যুতে পশ্চিমা বিশ্বকে শক্ত বার্তা দিয়েছে বাংলাদেশ

রোহিঙ্গা ইস্যুতে পশ্চিমা বিশ্বকে শক্ত বার্তা দিয়েছে বাংলাদেশ

জাতিসংঘে নিজের বিপক্ষেই ভোট দিয়েছে মিয়ানমার

জাতিসংঘে নিজের বিপক্ষেই ভোট দিয়েছে মিয়ানমার

যুক্তরাষ্ট্রে ঘূর্ণিঝড়ে গাড়ির সংঘর্ষে শিশুসহ নিহত ১০

যুক্তরাষ্ট্রে ঘূর্ণিঝড়ে গাড়ির সংঘর্ষে শিশুসহ নিহত ১০

ফেসবুকে দুই মন্ত্রীর 'দ্বন্দ্ব' বিষয়ক স্ট্যাটাস

ফেসবুকে দুই মন্ত্রীর 'দ্বন্দ্ব' বিষয়ক স্ট্যাটাস

সিডনিতে ‘ধূমকেতু’ ব্যান্ডের সফল কনসার্ট

সিডনিতে ‘ধূমকেতু’ ব্যান্ডের সফল কনসার্ট

মায়ের কপালে চুমু খেয়ে কলেজছাত্রের আত্মহত্যা

মায়ের কপালে চুমু খেয়ে কলেজছাত্রের আত্মহত্যা

ওয়েলসকে হারিয়ে ইতালি গ্রুপ সেরা

ওয়েলসকে হারিয়ে ইতালি গ্রুপ সেরা

কনওয়ের হাফসেঞ্চুরিতে শক্ত অবস্থানে কিউইরা

কনওয়ের হাফসেঞ্চুরিতে শক্ত অবস্থানে কিউইরা

‘রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার রক্ষায় আন্তর্জাতিক মহল অগ্রগামী নয়’

‘রোহিঙ্গাদের মানবাধিকার রক্ষায় আন্তর্জাতিক মহল অগ্রগামী নয়’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ইরানের সঙ্গে ৬ পরাশক্তির পারমাণবিক আলোচনা স্থগিত

ইরানের সঙ্গে ৬ পরাশক্তির পারমাণবিক আলোচনা স্থগিত

১২৩ দিন হাতকড়া পরেও টিকলো না সম্পর্ক

১২৩ দিন হাতকড়া পরেও টিকলো না সম্পর্ক

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে যুক্তরাজ্যে করোনার ‘তৃতীয় ঢেউ’

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে যুক্তরাজ্যে করোনার ‘তৃতীয় ঢেউ’

প্রতারণার মামলায় বিচারের মুখোমুখি বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এমপি আপসানা

প্রতারণার মামলায় বিচারের মুখোমুখি বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ এমপি আপসানা

১৬ কোটি টাকা ভাতা নিতে অস্বীকৃতি ডাচ রাজকুমারীর

১৬ কোটি টাকা ভাতা নিতে অস্বীকৃতি ডাচ রাজকুমারীর

দ্বিতীয় মেয়াদে জাতিসংঘের মহাসচিব গুতেরেস

দ্বিতীয় মেয়াদে জাতিসংঘের মহাসচিব গুতেরেস

বিশ্বে সংক্রমণের প্রধান কারণ হয়ে উঠছে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: ডব্লিউএইচও

বিশ্বে সংক্রমণের প্রধান কারণ হয়ে উঠছে ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: ডব্লিউএইচও

‘মরুকরণের ফলে বাড়ছে পরিবেশগত অভিবাসীর সংখ্যা’

‘মরুকরণের ফলে বাড়ছে পরিবেশগত অভিবাসীর সংখ্যা’

কাবুল বিমানবন্দরের নিরাপত্তায় প্রধান ভূমিকা নেবে তুরস্ক: বাইডেন প্রশাসন

কাবুল বিমানবন্দরের নিরাপত্তায় প্রধান ভূমিকা নেবে তুরস্ক: বাইডেন প্রশাসন

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন বাহিনী প্রত্যাহার রাশিয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ: পুতিন

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন বাহিনী প্রত্যাহার রাশিয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ: পুতিন

© 2021 Bangla Tribune