X
রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ৫ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

অন্যায়ের বিরুদ্ধে সবার আগে সরকারকেই দাঁড়াতে হবে: বি. চৌধুরী

আপডেট : ২৯ মার্চ ২০১৬, ১৯:৪৬

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখছেন একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী সারাদেশে সামাজিক অবক্ষয় চূড়ান্ত রূপ নিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রসিডেন্ট ও সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী। তিনি বলেন, এই অন্যায়ের বিরুদ্ধে সবার আগে সরকারকে দাঁড়াতে হবে। মঙ্গলবার সন্ধ্যার আগে বারিধারায় নিজ বাসভবনে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
দলের মহাসচিব মেজর (অব.) আবদুল মান্নানসহ আরও অনেকে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন।
একিউএম বদরুদ্দোজা চৌধুরী  বলেন, আজ ছোটছোট ছেলেমেয়ে খুন হয়ে যাচ্ছে, গুম হয়ে যাচ্ছে, তনুর মতো মেয়েরা ধর্ষণের শিকার হয়ে খুন হচ্ছেন। এগুলো আগে ছিল না। সরকারকেই এসবের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে হবে।  
সাবেক এই রাষ্ট্রপতি সরকারের নানা কর্মকাণ্ডের সমালোচনা করে বলেন, গণতন্ত্র নিয়ে কী বলব? রাজনৈতিক বিষয়ে যত কম বলা যায় ততই ভালো। কোনও মিটিং হয় না। মিছিল করলে গুলি করা হয়। কর্মীরা গায়েব হয়ে যান। দেশ এভাবে চলতে পারে না। আমি সরকারকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বলতে চাই, বুঝতে হবে সমস্যা কোথায়। শুধু দলকে চালিয়ে নিলেই হবে না। সরকারি দল এটাই চায়। এটাই শপথভঙ্গ। 

দেশের আয় বেড়ে যাওয়া প্রসঙ্গে বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেন, ডলার ইনকাম বেড়েছে। কিন্তু এটা একটা ব্লাফ। মাথাপিছু ইনকাম বেড়েছে সমাজের গুটিকয়েক মানুষের জন্য। সাধারণ মানুষের জন্য নয়। শেয়ার মার্কেটে ধসের বিষয়ে তিনি বলেন, এতে করে হাজারো মানুষ তাদের পুঁজি হারিয়েছে। মনোবল হারিয়েছে। আর অর্থমন্ত্রী বলেন শেয়ার মার্কেট ছেড়ে দিয়েছি। বাংলাদেশ ব্যাংকের টাকা চুরি হয়ে যায়। এতেও অর্থমন্ত্রী কোনও ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি। কিন্তু গভর্নর ভদ্রলোকের সন্তান দেখে পদত্যাগ করেছেন। 

দ্রব্যমূল্য, চাল ডাল, বাস ভাড়া, টেক্সি ভাড়ার বৃদ্ধির বিষয়ে বদরুদ্দোজা চৌধুরী বলেন, এটা কি অর্থনৈতিক অগ্রগতি? নতুন কেউ শিল্প বিনিয়োগে এগিয়ে আসছেন না। কিছু লোক আঙুল ফুলে তালগাছ হয়ে গেছে। দেশে ভোটের আতঙ্ক আছে বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, মানুষের মধ্যে এখন ভোটের আতঙ্ক আছে। ভোটের আগে থেকে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। নির্বাচন কমিশনে সবচেয়ে বড় ব্যক্তি সবচেয়ে পক্ষপাতদুষ্ট।

/এসটিএস/এফএস/এমএনএইচ/

সর্বশেষ

কোহলি-রাহানে ভারতের প্রতিরোধ

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালকোহলি-রাহানে ভারতের প্রতিরোধ

৬ গোলের রোমাঞ্চকর ম্যাচে জার্মানির জয়

৬ গোলের রোমাঞ্চকর ম্যাচে জার্মানির জয়

শেষ হলো প্রচারণা: সোমবার ২০৪ ইউপিতে ভোট

শেষ হলো প্রচারণা: সোমবার ২০৪ ইউপিতে ভোট

মসজিদের ভেতর স্কুলশিক্ষককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

মসজিদের ভেতর স্কুলশিক্ষককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

প্রাণঘাতী ইবোলামুক্ত গিনি

প্রাণঘাতী ইবোলামুক্ত গিনি

আজ নতুন করে শুরু সুপার লিগ

আজ নতুন করে শুরু সুপার লিগ

পল্টন থেকে অজ্ঞাতনামা বৃদ্ধের মৃতদেহ উদ্ধার

পল্টন থেকে অজ্ঞাতনামা বৃদ্ধের মৃতদেহ উদ্ধার

সোনার দাম ভরিতে কমলো দেড় হাজার টাকা

সোনার দাম ভরিতে কমলো দেড় হাজার টাকা

৬ জনের মৃত্যু, ফরিদপুরের তিন পৌরসভা লকডাউন

৬ জনের মৃত্যু, ফরিদপুরের তিন পৌরসভা লকডাউন

সাবেক ডিআইজি প্রিজনস পার্থ গোপালের জামিন

সাবেক ডিআইজি প্রিজনস পার্থ গোপালের জামিন

ইরানের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে বিশ্ব নেতাদের শুভেচ্ছা

ইরানের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্টকে বিশ্ব নেতাদের শুভেচ্ছা

রাঙামাটিতে পাহাড় ধসের আশঙ্কা, নিরাপদ স্থানে যেতে মাইকিং

রাঙামাটিতে পাহাড় ধসের আশঙ্কা, নিরাপদ স্থানে যেতে মাইকিং

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সম্পূর্ণ সুস্থ হননি খালেদা জিয়া, উন্নত চিকিৎসার পরামর্শ

সম্পূর্ণ সুস্থ হননি খালেদা জিয়া, উন্নত চিকিৎসার পরামর্শ

ফিরোজায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া

ফিরোজায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া

আপনারা বিএনপিতে লীন হয়ে যাবেন না: মির্জা ফখরুল

আপনারা বিএনপিতে লীন হয়ে যাবেন না: মির্জা ফখরুল

ধ্বংসের আগেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে হবে: বাংলাদেশ ন্যাপ

ধ্বংসের আগেই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে হবে: বাংলাদেশ ন্যাপ

‘সংসদে পরীমনি নিয়ে আলোচনা হয়, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়ে হয় না’

‘সংসদে পরীমনি নিয়ে আলোচনা হয়, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নিয়ে হয় না’

সন্ধ্যায় বাসায় ফিরছেন খালেদা জিয়া

সন্ধ্যায় বাসায় ফিরছেন খালেদা জিয়া

‘থানায় নয়, অপরাধের নিষ্পত্তি হবে আদালতে’

‘থানায় নয়, অপরাধের নিষ্পত্তি হবে আদালতে’

‘মোহাম্মদ নাসিম অসাম্প্রদায়িক রাজনীতির পুরোধা ছিলেন’

‘মোহাম্মদ নাসিম অসাম্প্রদায়িক রাজনীতির পুরোধা ছিলেন’

বাংলাদেশ এখন দুইভাগে বিভক্ত: মির্জা ফখরুল

বাংলাদেশ এখন দুইভাগে বিভক্ত: মির্জা ফখরুল

দেশের উন্নয়ন-অর্জনই বিএনপির গাত্রদাহের কারণ: ওবায়দুল কাদের

দেশের উন্নয়ন-অর্জনই বিএনপির গাত্রদাহের কারণ: ওবায়দুল কাদের

© 2021 Bangla Tribune